আজঃ মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

আজ আপনার জন্মদিন হলে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | ৩৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ আপনার জন্মদিন হলে পাশ্চাত্য জ্যোতিষে আপনি ধনু রাশির জাতক/ জাতিকা। আপনার জন্মসংখ্যা : ৭। আপনার ওপর প্রভাবকারী গ্রহ : বৃহস্পতি ও নেচপুন। আপনার শুভ সংখ্যা : ৭ ও ৩। শুভ বার : সোম ও বৃহস্পতি। শুভ রত্ন : পোখরাজ ও এমিথিস্ট।

মেষ (২১ মার্চ-২০ এপ্রিল)

মনের কোনও গোপন ইচ্ছা পূরণ হতে পারে। পারিবারিক পরিবেশ অনুকূল থাকতে পারে। বিলাসদ্রব্য ক্রয় করতে পারেন। জ্ঞানস্পৃহা বৃদ্ধি পাবে। আবেগ সংযত রাখুন।

বৃষ (২১ এপ্রিল-২০ মে)

ছোট ভাইবোনদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখুন। প্রয়োজনে তাদের সহযোগিতা নিন। আপনজনদের সঙ্গে মতানৈক্য এড়িয়ে চলুন। তথ্যগত বিভ্রান্তি দেখা দিতে পারে। কাজকর্মে প্রত্যাশিত সাফল্য বাধাগ্রস্ত হতে পারে।

মিথুন (২১ মে-২০ জুন)

বাড়িতে অতিথি সমাগম হতে পারে। প্রদত্ত প্রতিশ্রুতি রক্ষা করার চেষ্টা করুন। মূল্যবোধ বজায় রাখুন। পাওনা টাকা আদায়ের জন্য তাগাদা দিন। মাথাব্যথায় ভুগতে পারেন।

কর্কট (২১ জুন-২০ জুলাই)

আত্মপ্রতিষ্ঠার চেষ্টা জোরদার করুন। সে ক্ষেত্রে সাফল্য পেতে পারেন। শরীর ভালো থাকবে। মানসিক প্রশান্তি বজায় থাকতে পারে। ভালো ব্যবহার দিয়ে কাজ আদায় করার চেষ্টা করুন।

সিংহ (২১ জুলাই-২১ আগস্ট)

দিনটি মিশ্র সম্ভাবনাময়। শরীর খুব একটা ভালো না-ও থাকতে পারে। অবহেলা না করে চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুন। গোপন শত্রু সম্পর্কে সতর্ক থাকুন। ব্যয় কমানোর চেষ্টা করুন।

কন্যা (২২ আগস্ট-২২ সেপ্টেম্বর)

আর্থিক দিক ভালো যেতে পারে। উপার্জন বৃদ্ধির প্রচেষ্টা জোরদার করুন। পেশাগত যোগাযোগ চালিয়ে যান। সে ক্ষেত্রে সাফল্য পেতে পারেন। বন্ধুদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে পারেন।

তুলা (২৩ সেপ্টেম্বর-২২ অক্টোবর)

কর্মপরিবেশ অনুকূল থাকতে পারে। কর্মস্থলে সহকর্মীদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখুন। বেকারদের কারও কারও চাকরি হতে পারে। পিতৃস্বাস্থ্য ভালো যাবে। পাবলিক ইমেজ বৃদ্ধি পাবে।

বৃশ্চিক (২৩ অক্টোবর-২১ নভেম্বর)

কোনও আশা পূরণ হতে পারেন। মন ভালো থাকবে। পেশাগত দিক ভালো যাবে। জ্ঞানস্পৃহা বৃদ্ধি পাবে। ভ্রমণের সুযোগ পেতে পারেন।

ধনু (২২ নভেম্বর-২০ ডিসেম্বর)

দিনটি মিশ্র সম্ভাবনাময়। ব্যবসায়িক দিক খুব একটা ভালো যাবে না। বিক্রয়-বাণিজ্যে লোকসান হতে পারে। সামাজিক সংকট এড়িয়ে চলুন। নিজেকে সংযত রাখুন।

মকর (২১ ডিসেম্বর-১৯ জানুয়ারি)

কোনও ঘনিষ্ঠ বন্ধুর সহযোগিতা পেতে পারেন। ঘনিষ্ঠ কেউ শত্রুতা করতে পারে। বিবাদ এড়িয়ে চলুন। ব্যবসায়িক দিক ভালো যাবে। বিক্রয়-বাণিজ্যে লাভযোগ আছ।

কুম্ভ (২০ জানুয়ারি-১৮ ফেব্রুয়ারি)

শরীর খুব একটা ভালো না-ও থাকতে পারে। আহারে-বিহারে সতর্ক থাকুন। প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুন। কর্মস্থলে ঝামেলা হতে পারে। কর্মস্থলে প্রতিপক্ষের সঙ্গে ভুল বোঝাবুঝি হতে পারে।

মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ)

বিদ্যার্থীদের জন্য দিনটি শুভ। পড়াশোনায় মন বসাতে পারবেন। সৃজনশীল কাজে অংশ নিতে পারেন। সে ক্ষেত্রে সাফল্যের সম্ভাবনা আছে। সন্তানের প্রতি খেয়াল রাখবেন।

 

নিউজ ট্যাগ: আজকের রাশিফল

আরও খবর



সন্ধ্যায় সংবাদ সম্মেলন করবে খালেদা জিয়ার মেডিক্যাল বোর্ড

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ২৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বর্তমান শারীরিক অবস্থা নিয়ে সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়েছে।

রোববার সন্ধ্যা ৭টায় গুলশান বিএনপির চেয়ারপারসনের বাসভবনে এ সংবাদ সম্মেলনে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে খালেদা জিয়ার চিকিৎসকরা বক্তব্য রাখবেন।

চেয়ারপারসনের মিড়িয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সংবাদ সম্মেলনে ম্যাডামের চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের চিকিৎসকরা বক্তব্য রাখবেন। তারা ম্যাডামের শারীরিক অবস্থা নিয়ে কথা বলবেন।


আরও খবর
করোনায় ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৭

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




চিকিৎসা সেবায় বদলে গেছে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | ৩৮৫জন দেখেছেন

Image

সিলেট (দক্ষিণ সুরমা) প্রতিনিধি:

গ্রামীণ জনপদে উন্নত সেবার এক অনন্য দৃষ্টান্ত সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। দক্ষিণ সুরমার বেশির ভাগ মানুষের চিকিৎসা সেবার একমাত্র কেন্দ্র উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটির সার্বিক অবকাঠামোর সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি, নিয়ম শৃঙ্খলার উন্নতি ও সেবার মান ব্যপক পরিবর্তন এসেছে। বর্তমানে হাসাপাতালের সেবা নিয়েও এলাকার মানুষ বেশ সন্তোষ্ট। জানা যায় একত্রিশ (৩১) শয্যার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ চিকিৎসক মোট ১৩ জন,  সেবিকা ৭ জন নিয়ে রোগীদের নিয়মিত সেবা দিচ্ছেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর বহির্বিভাগে। উপজেলায় দূর-দূরান্ত থেকে আসা প্রতিদিন কমবেশী প্রায় ৩০০ জন রোগীর সেবা নিয়ে থাকে।

প্রতিদিন জরুরী বিভাগে প্রায় চল্লিশ থেকে পঁয়তাল্লিশ (৪০-৪৫) জন রোগী সেবা নিয়ে থাকে। প্রতিমাসে কমবেশী ত্রিশ থেকে পঁয়ত্রিশ জন গর্ভবতী মায়ের নরমাল ডেলিভারী করা হয়। তাছাড়াও জ্ঞাত যে জরুরী প্রয়োজনের দিক বিবেচনায় ২৪ ঘন্টা হাসপাতালে ডেলিভারীর ব্যবস্থা চালু রয়েছে। তাছাড়া বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বিশেষ সেবা দেওয়া হয়।

নিরাপত্তার দিক বিবেচনা করে সিসি ক্যামেরা দ্বারা পর্যবেক্ষণ করা হয়। এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর দৃশ্যপট একেবারে পাল্টে দিয়েছেন বর্তমান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা। তিনি এখানে যোগদানের পর থেকে হাসপাতালের রোগীর খাবার পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা, সুবিধা-অসুবিধা, ফুল-ফলাদির বাগানসহ সার্বিক বিষয়ে নানামুখী সৃজনশীল কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। তাছাড়াও রাত অবধি এই কর্মকর্তাকে হাসপাতালের কর্মব্যস্থ সময় পার করতে দেখা যায়।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের একাধিক স্বাস্থ্যকর্মী জানান কিভাবে আরো সহজে প্রতিটি ইউনিয়ন, ওয়ার্ড ও গ্রাম পর্যায়ে সাধারণ মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করা যায় এ ব্যাপারে প্রতিনিয়ত সভা-সমাবেশের মাধ্যমে তাদের সঠিক দিক নির্দেশনা ও পরামর্শ প্রদান করেন। এখানের স্বাস্থ্যকর্মীরা তাদের কর্মকর্তার সৃজনশীল ভাবনা, শৃঙ্খলা ও যুগান্তকারী উদ্যোগের জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ মঈনুল আহসান কে কৃতজ্ঞতা জানান।

দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর এক পরিসংখ্যানে জানা গেছে করোনাকালে এখানে মোট ২,৩৪৪ (দুই হাজার তিনশত চুয়াল্লিশ) জনের করোনার নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তার মধ্যে করোনা আক্রান্ত ৬৩১জন রোগী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন। তার মধ্যে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১১ জন রোগী মারা যায়। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সূত্রে জানা যায় নিয়মিত করোনা টিকা দান কার্যক্রমের পাশাপাশি স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনায় গণটিকা এবং প্রধানমন্ত্রীর ৭৫তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে ১৭৫৮জনকে বিশেষ টিকা প্রধান করা হয়েছে। এখানে করোনা টিকা প্রধানের লক্ষ্য মাত্রায় রেজিষ্ট্রেশন করেছেন ৭৮৯৪৮জন তার মধ্যে প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ লক্ষমাত্রা অর্জন হয়েছে ৯১,২৫২ জন। তন্মধ্যে ৫৫,৯৩৫ জন কে প্রথম ডোজ এবং ৩৫,৩১৭ জনকে দ্বিতীয় ডোজ টিকা প্রধান করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এর পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার মোঃ মঈনুল আহসান বলেন, সকল চিকিৎসক ও অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মীদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় উপজেলা প্রশাসন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ সার্বিক সহযোগিতায় অর্জন করা সম্ভব হয়েছে।

তিনি আরো বলেন সিলেটের ১২টি উপজেলায় আউটসোর্সিং জনবল আছে শুধু আমার দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেই এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ১ জন ওয়ার্ড বয় পরিচ্ছনতা ২ জন ও আয়া ১ জন আছে। এম্বেুালেন্স আছে কিন্তু ড্রাইভার নেই, খাবার দেওয়ার জন্য কোন বার্বুচী নেই বিভিন্ন হাসপাতালে, মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট ৫ জন কিন্তু আমার হাসপাতালে ১ জন কোভিড হাসপাতাল করা হয়েছে কিন্তু সেন্টাল অক্সিজেন নেই। এই বিষয় গুলো যদি আমার উর্দতন কর্মকর্তা সহযোগিতা করেন তাহলে আরো ভাল জায়গায় এই দক্ষিণ সুরমা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে নিয়ে যেতে পারব।


আরও খবর



মডেল তিন্নি হত্যা মামলার রায় ঘোষণা সোমবার

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | ৪৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মডেল সৈয়দা তানিয়া মাহবুব তিন্নি (২৪) হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করা হবে আগামীকাল সোমবার। ঢাকার সপ্তম অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ কেশব রায় চৌধুরী এ রায় ঘোষণা করবেন।

গত ২৬ অক্টোবর মামলাটির রায় ঘোষণার দিন ধার্য ছিল। কিন্তু রাষ্ট্রপক্ষ থেকে মামলার রায় স্থগিত করে যুক্তিতর্কের আবেদন করা হয়। আদালত তা মঞ্জুর করেন। একই সঙ্গে বিচারক রাষ্ট্রপক্ষকে দ্রুত যুক্তিতর্ক শেষ করতে বলেন। পরে ১৫ নভেম্বর রায় ঘোষণার তারিখ ঠিক করা হয়।

সূত্র জানায়, কেরানীগঞ্জের বুড়িগঙ্গা নদীতে ২০০২ সালের ১০ নভেম্বর রাতে মডেল তিন্নির লাশ পাওয়া যায়। পরদিন অজ্ঞাতদের আসামি করে কেরানীগঞ্জ থানার তৎকালীন সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মো. সফি উদ্দিন মামলা করেন।

এ মামলার প্রথম তদন্ত কর্মকর্তা ছিলেন ওই থানার তৎকালীন উপপরিদর্শক (এসআই) মো. কাইয়ুম আলী সরদার। এরপর নিহতের লাশের ছবি পত্রিকায় ছাপা হলে সুজন নামে নিহতের এক আত্মীয় লাশটি মডেল তিন্নির বলে শনাক্ত করেন।

পরে মামলাটি চাঞ্চল্যকর উল্লেখ করে ২০০২ সালের ২৪ নভেম্বর তদন্তভার সিআইডিতে ন্যস্ত হয়। বেশ কয়েকজন তদন্ত কর্মকর্তার হাত ঘুরে সর্বশেষ তদন্ত কর্মকর্তা মোজাম্মেল হক ২০০৮ সালের ৮ নভেম্বর সাবেক ছাত্রনেতা ও সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক অভিকে একমাত্র আসামি করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। ২০১০ সালের ১৪ জুলাই অভির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করেন আদালত।


আরও খবর



বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের সুপারিশ জাতিসংঘের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশের উত্তোরণের সুপারিশ গৃহীত হয়েছে। একমাত্র দেশ হিসেবে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের ৩টি মানদণ্ডই পূরণ করেছে বাংলাদেশ। 

বাংলাদেশ সময় বুধবার (২৪ নভেম্বর) রাতে এক টুইটা বার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাবাব ফাতিমা। রেজুলেশনটি গ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশ এলডিসি ক্যাটাগরি থেকে পরবর্তী ধাপে উত্তরণের সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করলো।

এটি বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় একটি যুগান্তকারী অর্জন যা এমন এক সময়ে অর্জিত হলো যখন বাংলাদেশ মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করছে।

টুইট বার্তায় এ বিষয়ে রাবাব ফাতিমা লিখেন, জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের ঐতিহাসিন সুপারিশ গৃহীত হয়েছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী (৫০ বছর) ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উদযাপনের ক্ষেত্রে এর চেয়ে দারুণ উপলক্ষ আর কি হতে পারে! জাতির বহুদিনের আশা-আকাঙ্খা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রূপকল্প-২০২১ অবশেষে পূর্ণতা পেলো। জয় বাংলা।

এর আগে চলতি বছরে ২২-২৬ ফেব্রুয়ারি নিউইয়র্কে জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসির (সিডিপি) বৈঠকে বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য চূড়ান্ত সুপারিশ করা হয়েছিল। এর ৯ মাসের মাথায় সেটি জাতিসংঘে গৃহীত হলো। সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২৬ সালে বাংলাদেশ আর স্বল্পোন্নত দেশের তালিকায় থাকবে না। উন্নয়নশীল দেশের তালিকাভূক্ত হবে।

যদিও এটি ২০২৪ সালে লাভ করার কথা ছিল। কিন্তু মহামারি করোনাভাইরাসের প্রভাব মোকাবিলায় বাংলাদেশ দুই বছর সময় চেয়ে নিয়েছিল।

একমাত্র দেশ হিসেবে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের যে ৩টি মানদণ্ডই বাংলাদেশ পূরণ করেছে সেগুলো হলোমাথাপিছু আয়, মানবসম্পদ এবং অর্থনৈতিক ও পরিবেশগত ভঙ্গুরতা। মূলত এ তিনটি সূচকের ভিত্তিতেই জাতিসংঘ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের বিষয়টি পর্যালোচনা করে থাকে।

জাতিসংঘের পর্যালোচনা অনুযায়ী ২০১৯ সালে মাথাপিছু আয়ের মানদণ্ড নির্ধারিত ছিল ১ হাজার ২২২ মার্কিন ডলার। কিন্তু সে সময় বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় ছিল ১ হাজার ৮২৭ ডলার। আর বর্তমানে (নভেম্বর-২০২১) সেটা ২ হাজার ৫৫৪ ডলার।

মানবসম্পদ সূচকে জাতিসংঘের নির্ধারিত মানদণ্ড ছিল সর্বনিম্ন ৬৬। আর তখন বাংলাদেশের ছিল ৭৫.৪। অর্থনৈতিক ও পরিবেশগত ভঙ্গুরতা সূচকের মানদণ্ড নির্ধারিত ছিল ৩২ কিংবা তার কম। সে সময় বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ২৭ এ।

উল্লেখ্য, ১৯৭৫ সাল থেকে স্বল্পোন্নত দেশের কাতারে থাকা বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে ২০১৮ সালে জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসির (সিডিপি) সবগুলো শর্ত পূরণ করে।

নিউজ ট্যাগ: জাতিসংঘ

আরও খবর



ডায়াপার পরে পৃথিবীতে ফিরলেন চার নভোচারী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৯ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৯ নভেম্বর ২০২১ | ৪০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের টয়লেট নষ্ট। যার কারণে সমস্যায় পড়েছিলেন সেখান থেকে পৃথিবীর ফেরার অপেক্ষায় থাকা চার নভোচারী। তাদের পরে থাকতে হয়েছে ডায়পার। সে অবস্থাতেই অবশেষে পৃথিবীতে ফিরেছেন তারা। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে নিউ ইয়র্ক পোস্ট।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বিকল্প ব্যবস্থায় প্রায় ২০ ঘণ্টার এ যাত্রায় মূল পোশাকের নিচে ডায়াপার পরেই আসতে হয়েছে ওই নভোচারীকে। স্থানীয় সময় গতকাল সোমবার তাদের নিয়ে স্পেসএক্সের একটি ক্যাপসুল ফ্লোরিডা উপকূলে অবতরণ করেছে।

স্পেসএক্সের নভোযানে গত ২৩ এপ্রিল এই চার নভোচারীকে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে পাঠানো হয়। তাদের বহনকারী ক্যাপসুলটি সর্বোচ্চ ২১০ দিন পর্যন্ত মহাকাশে রাখার জন্য সনদপ্রাপ্ত। কিন্তু নভোযানের টয়লেট অকেজো হয়ে পড়ায় নির্ধারিত সময়ের আগেই তাদের ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেয় মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি।

জানা যায়, সেপ্টেম্বরের দিকে প্রথমবার শৌচাগারটিতে ত্রুটি দেখা দেয়। ছিদ্র থাকায় রকেটে ছড়িয়ে পড়ে মূত্র। স্পেসএক্সের নভোযান মহাকাশে গেলে একটি টিউব খুলে আসে, পরে মূত্র ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে।

এরপর বেশ কয়েক দফা মিটিং শেষে ৪ নভোচারীকে পৃথিবীতে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। নেই টয়লেট, মহাকাশে ২০ ঘণ্টা ডায়পার পরে আছে ৪ নভোচারী

বাংলাদেশ সময় গত রবিবার ওই নভোচারীদের বহনকারী ক্যাপসুল আইএসএস থেকে বিচ্ছিন্ন হয়। এরপর গতকাল সোমবার যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় মেক্সিকো উপসাগরে অবতরণ করেন চার নভোচারী আকিহিকো হোশিদে, টমাস পেসকে, মেগান ম্যাকআর্থার ও শেন কিমব্রো।



আরও খবর
করোনায় ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৭

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১