আজঃ রবিবার ২৪ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

আজকের দর্পণ সিলেট ব্যুরো অফিস উদ্বোধন

প্রকাশিত:শুক্রবার ০১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০১ অক্টোবর ২০২১ | ২০৫০জন দেখেছেন
Image

সিলেট থেকে আমজাদ হোসাইন

দৈনিক আজকের দর্পণ সিলেট ব্যুরো অফিস নগরীর শাহজালাল (রঃ) মাজার সংলগ্ন ঝরনারপার এলাকায় হোটেল হলিল্যান্ড কমপ্লেক্সে শুক্রবার জুমআর নামাজের পর জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উদ্ভোধন করা হয়েছে। 

পত্রিকার মহাব্যবস্থাপক মোঃ রফিকুল ইসলামের সভাপতিতে এবং ব্যুরো প্রধান মুহাম্মদ আমজাদ হোসাইনের পরিচালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিলেট প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, সংবাদপত্র মানুষের কল্যাণে কাজ করে। সেই  সাথে সমাজ পরিবর্তনে শক্তিশালী ভূমিকা রাখে। বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ মানুষের হৃদয়কে নাড়া দেয়। বর্তমান কঠিন পরিস্থিতিতে আজকের দর্পণ চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করে বাজারে এসেছে। সুতরাং যেতে হবে বহুদূর। তবে এ ক্ষেত্রে সংবাদপত্রের মালিকপক্ষকে আরো দায়িত্ববান হতে হবে। সাংবাদিকদের ন্যায্য দাবি ধাওয়া পূরণ ও সব রকম সুযোগ সুবিধা প্রদান করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, সমাজে যারা দুর্বৃত্ত আছে তাদের ক্ষমতা বেশি। দুর্বৃত্তদের মানুষ ভয় পেয়ে কথা বলতে পারে না। সংবাদপত্রে এসকল দুর্বৃত্তের পরিচয় তুলে ধরতে হবে। তাদেরকে শাস্তির আওতায় নিয়ে আসতে হবে। তখনই সমাজে সত্য প্রতিষ্ঠিত হবে। আগামীতে সংবাদপত্রের ভবিষ্যত ঝুঁকিপূর্ণ উল্লেখ করে তিনি বলেন, আজকের দর্পণ একটি গুরুত্বপূর্ণ পত্রিকা হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করবে বলে আমি বিশ্বাস করি। বিশেষ করে সিলেটে এ পত্রিকা দ্রুত জনপ্রিয়তা পাবে বলে আশাবাদ ব্যাক্ত করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের সংরক্ষিত ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এডভোকেট সালমা সুলতানা, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, পায়রা সমাজকল্যাণ সংঘের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান দুদু, হলিল্যান্ড নিউজ বিডি ডটকমের সম্পাদক আলহাজ্ব সালেহ আহমদ ও পায়রা সমাজকল্যাণ সংঘের সিনিয়র সহসভাপতি জাহাঙ্গীর আহমদ।

সভাপতির বক্তব্যে দৈনিক আজকের দর্পন এর মহাব্যবস্থাপক মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, সিলেটবাসীর দাবি দাওয়া পূরণে আজকের দর্পণ কাজ করে যাবে। সিলেটে আমরা প্রথম ব্যুরো অফিস দিয়ে যাত্রা শুরু করেছি। বিশ্বাস করি দেশের প্রতিটি এলাকার মানুষের হাতে পৌঁছাবে আজকের দর্পণ। এখানে হলুদ সাংবাদিকতা থাকবেনা। এটি হবে জনমানুষের দর্পণ। এজন্য তিনি সিলেটবাসীর সহযোগিতা কামনা করেন।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন দি ডেইলি ট্রাইবুনাল এর সিলেট ব্যুরো প্রধান রাজ্জাক হোসেন, আমার কাগজ সিলেটের ব্যুরো চীফ খালেদ আহমদ, সাংবাদিক আফতাব উদ্দিন, সিলেট প্রেসক্লাবের পাঠাগার ও প্রকাশনা সম্পাদক কবির আহমদ, দৈনিক জালালাবাদ এর চীফ রিপোর্টার আহবাব মোস্তফা খান, সাংবাদিক আমিরুল ইসলাম চৌধুরী এহিয়া, সিলেট প্রেসক্লাবের সাবেক পাঠাগার ও প্রকাশনা সম্পাদক খালেদ আহমদ, দৈনিক জালালাবাদের সিনিয়র রিপোর্টার মুহিবুর রহমান, সাংবাদিক গোলাম মর্তুজা বাচ্চু, আজকের দর্পণের হবিগঞ্জ প্রতিনিধি শরিফ চৌধুরী, সিলেট জেলা প্রতিনিধি আইয়ুব আলী, পায়রা সমাজকল্যাণ সংঘের যুগ্ন সম্পাদক মুছাদ্দিকুন নবী, সংস্কৃতিকর্মী মোঃ আনোয়ার হোসাইন, হলিল্যান্ড নিউজ বিডি ডটকমের নির্বাহী সম্পাদক নাহিদ আহমেদ সিদ্দিকী, দৈনিক সবুজ সিলেট এর স্টাফ ফটো সাংবাদিক করিম মিয়া, সিলেট বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের কন্ট্রাকটর মোঃ আইনুল হক, ভাই ভাই সেচ প্রকল্পের পরিচালক মহরম আলী সুমন, আজকের দর্পণের দক্ষিণ সুরমা প্রতিনিধি ইমন দাস, শিক্ষানুরাগী হারুনুর রশীদ, সাংবাদিক মোঃ নাছির হোসেন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলতু মিয়া, রুহেল আহমদ মনি, ব্যবসায়ী রাকিব আহমদ, রায়হান আহমদ।


আরও খবর



এ বছর হচ্ছে না জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা : শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এ বছর অষ্টম শ্রেণির জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও মাদ্রাসার জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার সিদ্ধান্তের পর এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হলেও অষ্টম শ্রেণির জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও মাদ্রাসার জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা নিয়ে এতোদিন কোনো সিদ্ধান্ত জানানো হয়নি। ফলে শিক্ষাবোর্ডগুলোও এ বিষয়ে কোনো নির্দেশনা পায়নি। তবে আজ এ বিষয়ে নিজেদের সিদ্ধান্তের কথা জানালেন শিক্ষামন্ত্রী।

সাধারণত জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষা বছরের নভেম্বর মাসে হয়ে থাকে। আর স্কুলের বার্ষিক পরীক্ষাগুলো হয় ডিসেম্বর মাসে। করোনা সংক্রমণের দেড় বছর বন্ধের পর ১২ সেপ্টেম্বর থেকে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক স্তর পর্যন্ত সব ধরনের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়। আগামী ১৪ নভেম্বর এসএসসি ও ২ ডিসেম্বর এইচএসসি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত করে গত ২৭ সেপ্টেম্বর রুটিন অনুমোদনও দেওয়া হয়।

পরীক্ষার সূচির বিশেষ নির্দশনায় বলা হয়, কোডিড-১৯ অতিমারির কারণে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে অবশ্যই পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা কক্ষে আসন গ্রহণ করতে হবে। পরীক্ষার সময় দেড় ঘণ্টা। এমসিকিউ অংশের পরীক্ষার মধ্যে কোনো বিরতি থাকবে না।


আরও খবর



মন ভরে মাংস খাব ঝোলে-ঝালে-কষায়!

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | ৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পুজোর সময় কলকাতা ছাড়া আর কোথাও থাকার কথা ভাবতেই পারি না। শহর জুড়ে হোর্ডিং, ছাতিম ফুলের গন্ধ, দূর থেকে ভেসে আসা ঢাকের আওয়াজ ছাড়া কি পুজো ভাবা যায়! প্রতি বছরের মতো এ বারও তাই শহরেই থাকছি।

পঞ্চমীতে আমার ছবি মুক্তি পেয়েছে। তার প্রচারের জন্য কয়েক দিন বেশ ব্যস্ত ছিলাম। দম ফেলারও সময় পাইনি। ছুটি পেলাম ষষ্ঠী থেকে। এই পাঁচটি দিন নিজের মতো করে কাটাব। পরিবারকে সময় দেব, আমার বাচ্চাগুলোর সঙ্গে খেলা করব। সারা বছর এই দিনগুলোর জন্যই যত অপেক্ষা। কাছের মানুষগুলোকে মনের মতো করে কাছে পাই। এ বছর মা আমার সঙ্গে রয়েছে। কাজের জন্য মাকে সময় দিতে পারি না।

এই কদিন মায়ের কাছে যতটা থাকা যায়, থাকব। আমার আবাসনে বড় করে পুজো হয়। মায়ের সঙ্গে ওখানে অনেকটা সময় কেটে যাবে। প্রত্যেক বছরের মতো এ বারও মা আমাকে পুজোতে শাড়ি উপহার দিয়েছে। সেই শাড়িটা পরব বলে অপেক্ষা করে আছি। সারা বছর যতই ব্যস্ত থাকি না কেন, পুজোর আগে আমিও মায়ের জন্য উপহার কিনে ফেলেছি।


পুজোয় ছুটি পাব, এ দিকে আড্ডা হবে না? এমন আবার হয় নাকি! এ বছর বন্ধুদের নিয়ে ঘরোয়া পার্টি হবে। প্রচুর খাওয়াদাওয়া করব। শরীর-স্বাস্থ্যের জন্য সারা বছর ডায়েট করি। এই পাঁচটা দিন কোনও রকম বিধিনিষেধ নৈব নৈব চ। মন ভরে মাংস খাব। ঝোলে-ঝালে-কষায়! পুজোর সময় আমার মিষ্টি প্রীতিও এক লাফে অনেকটা বেড়ে যায়। তাই দিনভর চুটিয়ে খাওয়াদাওয়ার পর শেষ পাতে মিষ্টি চাই-ই চাই!

করোনাকে সঙ্গী করে আমাদের দ্বিতীয় পুজো। এত আনন্দ, উচ্ছ্বাসের মাঝেও কালো মেঘের মতো ছেয়ে রয়েছে অতিমারির ভয়। চাইব সব ধরনের সাবধানতা অবলম্বন করেই উৎসবের উদযাপন হোক।

আমার বাড়ি থেকে বেরলেই গড়িয়াহাট। যাতায়াতের পথে দেখি অনেকেই মাস্ক না পরে ঘুরছেন, কেনাকাটা করছেন। কয়েক মাস আগেই করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের দাপট দেখেছি আমরা। বহু মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। শহর জুড়ে তখন অক্সিজেনের হাহাকার, অ্যাম্বুলেন্সের আওয়াজ। আমি চাই না এই শহর আবারও সেই ভয়ঙ্কর দিনের সাক্ষী হোক। তাই আমাদের মাস্ক পরার অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। আরও সাবধানী হতে হবে। দরকার হলে জামার সঙ্গে মিলিয়ে মাস্ক তৈরি করুন। তাতে সাজের ব্যাঘাত ঘটবে না। কিন্তু দয়া করে প্রত্যেকে মাস্ক পরুন।

 

নিউজ ট্যাগ: মিমি চক্রবর্তী

আরও খবর
গাছের সঙ্গে বিয়ে হবে নয়নতারার

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১




রিবন্ডিং চুলের জন্য চাই বাড়তি যত্ন

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৫ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৫ অক্টোবর ২০২১ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বর্তমানে রিবন্ডিং করা চুলের কদর বেড়েছে অনেক বেশি। এ জন্য পার্লারে চুল সোজা করতে ভিড় বেড়েছে। অনেকেই কোঁকড়া চুল পছন্দ করেন না তাই রিবন্ডিং করান। চুল রিবন্ডিং করালে অন্তত ছয় মাস বা এক বছর চুল সোজা থাকে। স্ট্রেইট চুলের সুবিধা হলো,খুব সামান্যতেই দেখতে গোছানো লাগে।

চুল রিবন্ডিং করালেই কিন্তু কাজ শেষ নয়,রিবন্ডিং চুলের জন্য চাই বাড়তি যত্ন। সুন্দর চুল আরও বেশি সুন্দর রাখতে দরকার সঠিক যত্নের।

চলুন জেনে নিই কীভাবে রিবন্ডিং করা চুলের যত্ন নেওয়া যায় সেই সম্পর্কে।

১- রিবন্ডিং করানোর পর দুইতিন দিন পর্যন্ত চুল ভেজাবেন না। কোনো শ্যাম্পু বা প্যাক ব্যবহার করবেন না এ সময়। কারণ,তা ক্ষতিকর।

২- চুল রিবন্ডিং করানোর তিন দিন পর অবশ্যই হেয়ার ট্রিটমেন্ট করিয়ে নিন। এরপর থেকে প্রতি মাসে একবার ট্রিটমেন্ট করান। রিবন্ডিং চুলের জন্য অ্যারোমা ট্রিটমেন্ট সবচেয়ে ভালো।

৩- রিবন্ডিং করা চুলের যত্নে অয়েল ম্যাসাজ খুব গুরুত্বপূর্ণ। সপ্তাহে তিন দিন শ্যাম্পু করার এক ঘণ্টা আগে চুলে অয়েল ম্যাসাজ করুন। এতে চুলের স্বাস্থ্য ভালো থাকে।

৪- গোসলের আগে গরম পানিতে তোয়ালে চুবিয়ে আধা ঘণ্টা চুল পেঁচিয়ে রাখুন। এরপর শ্যাম্পু করুন। এতে রক্ত সঞ্চালন বাড়বে।

৫- রিবন্ডেড চুলের জন্য হালকা শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে। আজকাল মার্কেটে রিবন্ডেড হেয়ারের জন্য ভালো মানের শ্যাম্পু পাওয়া যায়।

৬- শ্যাম্পু করার পর অবশ্যই কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে। রিবন্ডিং করা চুলের জন্য আলাদা শ্যাম্পু কন্ডিশনার পাওয়া যায়।

৭- চুলের উজ্জ্বলতা বাড়াতে এবং মসৃণ করতে শ্যাম্পু করার পর এক মগ পানিতে কয়েক ফোঁটা ভিনেগার অথবা এক চামচ মধু মিশিয়ে সেই পানি দিয়ে চুল ধুয়ে নিন।

৮- দিনে তিনবার মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়ে নিন, এতে মাথার ত্বকের রক্ত সঞ্চালন বাড়ে। তবে ভেজা চুল আঁচড়ানো যাবে না।

৯- অনেকেই চুল শুকানোর জন্য হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করেন। রিবন্ডিং করা চুলে এটা ব্যবহার করা যাবে না। চুল তাপ থেকে দূরে রাখতে হবে। অতিরিক্ত তাপে চুল ভেঙে যাবে।

১০- চুল শুকানোর জন্য তোয়ালে ব্যবহার করতে হবে। তবে তোয়ালে দিয়ে চুল জোরে জোরে ঘষা যাবে না।

১১- চুল সোজা ও মসৃণ রাখতে রিবন্ডিং করানোর পর কমপক্ষে এক মাস চুল বাঁধা যাবে না। কারণ রিবন্ডিংয়ের পর চুল দুর্বল থাকে।

১২- চুলের আগা রেগুলার ট্রিম করতে হবে। এতে আগা ফেটে গিয়ে আপনার চুলের সৌন্দর্য নষ্ট হবে না এবং দেখতেও ভালো লাগবে। এ ছাড়া রিবন্ডিং দীর্ঘ সময় দীর্ঘস্থায়ী হয়।

১৩- চুলের আগা কেটে ফেলার পর চুলে প্রোটিন প্যাক,ডিপ কন্ডিশনিং কিংবা হেয়ার স্পা করতে পারেন। যেমন ডিম একটি,ক্যাস্টর অয়েল এক চামচ,লেবুর রস এক চামচ ও মধু এক চামচ একসঙ্গে মিশিয়ে স্কাল্পে লাগান। এরপর শাওয়ার ক্যাপ বা তোয়ালে দিয়ে মাথা ঢেকে রাখুন। এক ঘণ্টা পর শ্যাম্পু করুন।

১৪- অনেকেরই অভ্যাস গরম পানিতে গোসল করার। তবে রিবন্ডিং চুলে হট শাওয়ার নেওয়া যাবে না।

১৫- নিয়মিত হেয়ার সিরাম ব্যবহার করুন। নিয়মিত হেয়ার সিরাম ব্যবহার চুল ভেঙে যাওয়া রোধ করে।

১৬- বাইরে বের হলে সঙ্গে হ্যাট অথবা ছাতা রাখুন। কারণ,সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি চুলের জন্য বেশ ক্ষতিকর। বৃষ্টিতে চুল ভিজে গেলে যত দ্রুত সম্ভব চুল ধুয়ে ফেলতে হবে। কারণ,বৃষ্টির পানির সঙ্গে থাকা ধুলোময়লা ও লবণ চুলের ক্ষতি করতে পারে।

১৭- চুল রিবন্ডিং করানোর পর নিয়মিত ডায়েটে থাকা উচিত। নিয়মিত পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ চুলের যেকোনো সমস্যা সমাধানে সাহায্য করে। বেশি করে ফল ও সবজি, আয়রন, ভিটামিন সি, ভিটামিন এ, প্রোটিন, ক্যালসিয়ামসমৃদ্ধ খাবার খাওয়া উচিত এবং যথাসম্ভব জাঙ্ক ফুড এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন।

নিউজ ট্যাগ: রিবন্ডিং চুল

আরও খবর
আজকের ভালো মন্দ

শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১

আজ আপনার জন্মদিন হলে

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21




আল-আকসায় ইহুদিদের প্রার্থনার নিষেধাজ্ঞা বহাল

প্রকাশিত:শনিবার ০৯ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৯ অক্টোবর ২০২১ | ৮১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জেরুজালেমে মুসলিমদের পবিত্রতম মসজিদ আল-আকসায় ইহুদিদের প্রার্থনার নিষেধাজ্ঞা বহাল রেখেছেন ইসরাইলের একটি আদালত।

এর আগে বুধবার এক বিতর্কিত রায়ে মসজিদ আল-আকসায় ইহুদিদের প্রার্থনার অনুমতি দিয়েছিল ইসরাইলের আদালত। বিতর্কিত এ রায়ের পর জেরুজালেমে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। খবর আল জাজিরার। 

দীর্ঘদিন ধরে চুক্তির অধীনে মুসলিম ধর্মাবলম্বীরা আল-আকসায় নামাজ পড়েন এবং পশ্চিম দেয়ালে প্রার্থনা করেন ইহুদিরা।

রায়ে জেরুজালেম ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের বিচারক বিলহা ইয়াহালোম বলেছিলেন, মসজিদটিতে ইহুদিদের প্রার্থনা করা কোনো অপরাধ বলে গণ্য করা হবে না। এ কারণে পুলিশ তাদের বাধা দিতে পারবে না।

আরিয়েহ লিপ্পো নামে এক ইহুদি ধর্ম যাজকের (রাব্বি) করা মামলায় এ আদেশ দেন ইসরাইলের ওই আদালত।

তবে এ রায়ের বিরুদ্ধে ইসরাইলি পুলিশ আপিল করলে জেরুজালেমের জেলা আদালতের বিচারক আরিয়েহ রোমানফ স্থানীয় সময় শুক্রবার আলআকসা কমপ্লেক্সে ইহুদিদের প্রার্থনায় নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করেন।

তিনি বলেন, পুলিশ যা করেছে, তা যৌক্তিক। ইহুদিরা সেখানে ঘোরাফেরা করতে পারবেন, তবে প্রার্থনা বা ধর্মীয় নীতি পালন করতে পারবেন না।

এর আগে পবিত্র মসজিদ আল আক-আকসায় ইহুদি এই রাব্বিকে প্রবেশে বাধা দিয়েছিল পুলিশ। এ ঘটনার প্রতিবাদেই ইসরাইলি আদালতের দারস্থ হন ওই ইহুদি ধর্ম যাজক।

আল-আকসা প্রাঙ্গণের টেম্পল মাউন্ট নামক স্থানে ইহুদিরা প্রবেশের অনুমতি পেলেও প্রার্থনা করতে পারত না। ১৯৪৮ সাল থেকে জেরুজালেমের পবিত্র মসজিদ আল-আকসার দেখভাল করছে জর্ডান।

নিউজ ট্যাগ: আল-আকসা

আরও খবর



ইভ্যালির ১০ জনের জামিন নামঞ্জুর

প্রকাশিত:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | হালনাগাদ:শনিবার ০২ অক্টোবর 2০২1 | ৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইভ্যালির সেলিম রেজাসহ ১০ জনের জামিন আবদেন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। রাজধানীর ধানমন্ডি থানায় দায়ের হওয়া মামলায় জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ হয়েছে। শনিবার তাদের আইনজীবী মনিরুজ্জামান আসাদ গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

অ্যাডভোকেট মনিরুজ্জামান আসাদ জানান, হাইকোর্টের বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি কে এম জাহিদ সারওয়ার কাজলের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ তাদের জামিন আবেদন উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে আদেশ দেন। আদালতে জামিন আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মনিরুজ্জামান আসাদ। অন্যদিকে, রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আবু ইয়াহিয়া দুলাল ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মো. মিজানুর রহমান।

এর আগে গত ১৯ সেপ্টেম্বর ইভ্যালির এমডি ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল ও চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিনসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে ধানমন্ডি থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী গ্রাহক কামরুল ইসলাম চোকদার।


আরও খবর
ইকবালসহ ৪ আসামির রিমান্ড মঞ্জুর

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১