আজঃ সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

বাগমারায় পিতার লাশ দাফন করে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিলেন শামীম

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | ৫৬০জন দেখেছেন

Image

বাগমারা (রাজশাহী)প্রতিনিধি:

সামনে খাতা থাকলেও মনোযোগ নেই লিখার। দুচোখ দিয়ে টপ টপ করে পড়ছিল কান্নার জল। ভালো ছাত্র হলেও কিছুই করার ছিল না। খাতায় লিখার পরিবর্তে চোখ দিয়ে পানি ঝরছিল তার। শান্তনা দেয়ার কেউ নেই।

মহামারী করোনাভাইরাসের কারণে অর্ধেক সময়ে নেয়া হচ্ছে পরীক্ষা। সবাই লিখায় ব্যস্ত। হাতে তেমন সময়ও নেই। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই শেষ করতে হবে পরীক্ষা। সেই চিন্তাও যেন পিছু ছাড়ছে না চলতি বছরে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়া শিক্ষার্থী শামীম হোসেনের। বিজ্ঞান বিভাগ থেকে রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের অধীনে দিচ্ছেন এসএসসি পরীক্ষা।

মঙ্গলবার ছিল তার রসায়ন বিষয়ের পরীক্ষা। সে উপজেলার চকমহব্বতপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে মচমইল বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে দিচ্ছে এসএসসি পরীক্ষা। রোববার এসএসসির প্রথম পরীক্ষা দিয়ে বাড়িতে যায়। মঙ্গলবার তাকে আরেকটি পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করতে হবে।

ভাগ্যের নির্মম পরিহাস সোমবার রাতে মেধাবী সেই শিক্ষার্থী শামীম হোসেনের বাবা আব্দুর রশিদ (৫০) দুনিয়ার মায়া ছেড়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। সকল স্বপ্নই যেন মুহূর্তের মধ্যে অন্ধকারে নিমজ্জিত হয় শামীম হোসেনের। সারা রাত বাবার লাশের পাশেই ছিলেন একমাত্র ছেলে।

পরীক্ষার কারণে গ্রামবাসীর সহযোগিতায় পরীক্ষার পূর্বেই লাশ দাফনের ব্যবস্থা করা হয়। মঙ্গলবার সকাল ৮ টায় নির্ধারিত সময় অনুযায়ী দাফল সম্পন্ন করা হয়। বাবার জানাযায় একমাত্র ছেলে যেন উপস্থিত থাকতে পারে সে কারণে পরীক্ষার পূর্বেই জানাযা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত জানাযায় স্থানীয় চেয়ারম্যানসহ বিভিন্ন এলাকার ধর্মপ্রাণ লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

দুই মেয়ে আর একমাত্র ছেলে নিয়ে অনেক কষ্টের মধ্যে দিয়ে চলছিল তাদের সংসার। দীর্ঘদিন থেকে শামীম হোসেনের পিতা মেরুদন্ডের সমস্যায় ভূগছিলেন। সংসারের হাল ধরার মতো তেমন কেউ নাই তার। কষ্ট করেই পাশের গ্রামে দুই মেয়ের বিয়ে দিয়েছেন। তার বাড়ি বাগমারা উপজেলার গনিপুর ইউনিয়নের চকমহব্বতপুর গ্রামে।

এ ব্যাপারে মচমইল বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের কেন্দ্র সচিব, প্রধান শিক্ষক নাসির উদ্দীন খাঁন বলেন, আমরা শামীম হোসেনের বিষয়টা শুনেছি। সত্যিই ঘটনাটি অনেক কষ্টের। তবে শামীম হোসেন যেন সুন্দর ভাবে পরীক্ষা দিতে পারে সে বিষয়ে সর্বদায় খোঁজ খবর নেয়া হয়েছে।


আরও খবর
বগুড়ায় শক্তিশালী ৭ বিস্ফোরক উদ্ধার

শুক্রবার ১৯ নভেম্বর ২০২১




বিশ্ববাজারে কমেছে জ্বালানি তেলের দাম

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | ৬৪১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্ববাজারে শুক্রবার থেকে অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম অনেক কমেছে। ব্রেন্ট ক্রুড ফিউচারের দাম ৭০ সেন্ট বা শূন্য দশমিক ৮ শতাংশ কমে ব্যারেলপ্রতি ৮২ দশমিক ১৭ ডলারে স্থির হয়েছে।

এ ছাড়া অপরিশোধিত ইউএস ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েটের (ডব্লিউটিআই) দাম ৮০ সেন্ট বা ১ শতাংশ কমে ব্যারেলপ্রতি ৮০ দশমিক ৭৯ ডলারে স্থির হয়েছে। খবর রয়টার্সের।

সাপ্তাহিক হিসাবে, ব্রেন্টের দাম শূন্য দশমিক ৭ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে এবং ডব্লিউটিআইয়ের দাম শূন্য দশমিক ৬ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে। ইউএস এনার্জি সেক্রেটারি জেনিফার গ্রানহোম গত ৮ নভেম্বর বলেছিলেন, বাইডেন এ সপ্তাহে খু্ব শিগগির পেট্রলের দাম বৃদ্ধি নিয়ে কথা বলতে পারেন।

সৌদি আরামকোর পরেই তেল উৎপাদনের দিক থেকে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম তেল কোম্পানি রাশিয়ার রোসনেফ্ট। রোসনেফ্ট গত ১২ নভেম্বর বিশ্বব্যাপী জ্বালানি বাজারে একটি সম্ভাব্য সুপার সাইকেল সম্পর্কে সতর্ক করে বলেছে, চাহিদা সরবরাহের বাইরে থাকায় আরও বেশি দামের শঙ্কা বাড়ছে।


আরও খবর



ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়ার এমডিকে হত্যা চেষ্টা: সাংবাদিক নেতাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১১ নভেম্বর ২০২১ | ৩৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমেটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বিশিষ্ট শিল্পপতি সায়েম সোবহান আনভীরকে হত্যা চেষ্টার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা। তারা এই ঘটনার সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ তদন্ত দাবী করে দায়ীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন।

রাজধানীর ভাটারা থানা পুলিশ ইস্টওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমেটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান আনভীরকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে সাইফুল ইসলাম সাদ (২৩) নামে এক যুবককে গত ৫ নভেম্বর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। সাদের বাড়ি চট্টগ্রামের পটিয়ায়। সাদ পুলিশকে বলেছে চট্টগ্রাম-১২ আসনের (পটিয়া) সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ সামশুল হক চৌধুরী এবং তার ছেলে নাজমুল করিম  চৌধুরী ওরফে শারুণের নির্দেশে এই হত্যাকান্ডের ঘৃণ্য পরিকল্পনা নেয়া হয়। এজন্য শারুন সাদকে কিছু নগদ অর্থ ও একটি আগ্নেয়াস্ত্র দেওয়ার কথাও স্বীকার করেছেন। সাদকে পুলিশ তিন দিনের রিমান্ডে নিয়েছে। এবিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ অব্যাহত রয়েছে।

সাংবাদিক নেতারা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।

এ বিষয়ে দেশ বরেণ্য সাংবাদিক, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক তথ্য উপদেষ্টা, অ্যাটকোর সিনিয়র সহ-সভাপতি ও ডেইলী অবজারভার এর সম্পাদক ইকবাল সোবহান চৌধুরী বলেন, আমি প্রথমত এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। আমি মনে করি এটা একটা বড় ধরনের ষড়যন্ত্র। যেহেতু পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে আশা করা যায় এর সুষ্ঠ সমাধানও হবে। এবং দায়ীরা দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি পাবে।

এছাড়া বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি তো শুধু একজন গণমাধ্যম উদ্যোক্তাই নন। তিনি একজন শীর্ষ ব্যবসায়ীও। এমন কি সায়েম সোবহান আনভীর একজন ক্রীড়ামোদী মানুষ। দেশের একটি বড় ক্রীড়া ক্লাবের তিনি চেয়ারম্যান। ফলে এমন একজন ব্যক্তিকে যারা হত্যার পরিকল্পনা করেন অবশ্যই তারা দুস্কৃতিকারী। এছাড়া কোন ব্যক্তিকেই হত্যার হুমকি দেওয়া বা হত্যার পরিকল্পনা করা আমি সমর্থন করিনা। এক্ষেত্রেও আমি এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আশা রাখি আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে এর প্রকৃত কারণ ও অপরাধীরা চিহ্নিত হবে এবং এর একটা দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হবে বলে তিনি মনে করেন।

এবিষয়ে জানতে চাইলে জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি ফরিদা ইয়াসমিন বলেন, গণমাধ্যমের একজন মালিক ও একজন প্রতিষ্ঠিত শিল্পপতিকে হত্যার চেষ্টা আমাদের জন্য উদ্বেগ ও আতঙ্কের। শুধু তিনি কেন, যেকোন নাগরিককে হত্যাচেষ্টা অত্যন্ত নিন্দনীয় ও ফৌজদারি অপরাধ। আমি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই। এ ঘটনায় একজন গ্রেফতার হয়েছে, তাকে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে । পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে বের করা উচিত এর নেপথ্য ষড়যন্ত্রকারী হিসেবে কারা আছেন। নেপথ্য ষড়যন্ত্রকারীদের চিহ্নত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানাই। পাশাপাশি হত্যা চেষ্টার ঘটনায় থানায় দায়ের করা মামলার সুষ্ঠ তদন্তের জন্য পুলিশ প্রশাসনের কাছে অনুরোধ করছি।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি কুদ্দুস আফ্রাদ বলেন, একজন গণমাধ্যম উদ্যোক্তাকে হত্যা চেষ্টা অত্যন্ত উদ্বেগ ও উৎকন্ঠার, আমি এঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই। এই ষড়যন্ত্রের নেপথ্যে যারা আছেন তাদেরকে অবিলম্বে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানাচ্ছি। আমি প্রত্যাশা করছি ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়ার এমডি ন্যায় বিচার পাবেন।

বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) মহাসচিব দীপ আজাদ বলেন, এঘটনায় থানায় একটি এজহার দেওয়া হয়েছে। পুলিশ প্রশাসন মামলাটির সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ তদন্ত করবে এমনটাই প্রত্যাশা করছি।

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ আলম খান তপু বলেন, আমরা এই ষড়যন্ত্রের তীব্র নিন্দা জানাই। এই ঘটনায় থানায় একটি এজহার দেওয়া হয়েছে। আসামী রিমান্ডে আছেন। আমরা আশা করবো পুলিশ সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে ষড়যন্ত্রকারীদের চিহ্নিত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নিবে।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির (ডিআরইউ) সহসভাপতি ওসমান গনি বাবুল বলেন, গণমাধ্যমের একজন মালিককে হত্যার চেষ্টা আমাদের জন্য উদ্বেগ ও আতঙ্কের। আমরা এই ঘটনার নিন্দা জানাই এবং থানায় দায়ের করা মামলার সুষ্ঠ ও নিরক্ষে তদন্তের জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানাই।

বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের (ক্র্যাব) সভাপতি মিজান মালিক বলেন, আমরা গণমাধ্যমে দেখেছি সায়েম সোবহান আনভীরকে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার একটি মাদ্রাসা থেকে একজন যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুসন্ধরা গ্রুপের একজন কর্মকর্তা থানায় এজহার দিয়েছেন। এজহারের সুষ্ঠ ও নিরপেক্ষ তদন্ত করার জন্য পুলিশ প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানাই।

বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক আলাউদ্দিন আরিফ বলেন, আমি এঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। সায়েম সোবহান আনভীর বাংলাদেশে প্রথম সারির একজন গণমাধ্যম উদ্যোক্তা। ইস্ট ওয়েস্ট মিডিয়ার অধীনে বাংলাদেশ প্রতিদিন, কালেরকন্ঠ, ডেইলী সান, নিউজ টুয়েন্টিফোর টেলিভিশন, বাংলা নিউজ টুয়েন্টিফোর, তিতাস টিভি ও ক্যাপিটাল রেডিওর মতো সাতটি গুরুত্বপূর্ণ গণমাধ্যম পরিচালিত হচ্ছে। এসব গণমাধ্যমে ক্র্যাবের অনেক সদস্য কর্মরত আছেন। তার মতো একজন গণমাধ্যম উদ্যোক্তকে হত্যা চেষ্টার ঘটনা আমাদের জন্য বড় ধরনের উদ্বেগ ও আতংকের পরিস্থিতি তৈরি করে। এই ঘটনায় বসুন্ধরা গ্রুপের প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা মেজর (অব.) মিজানুর রহমান থানায় একটি অভিযোগ করার বিষয়ে আমরা জানতে পেরেছি। আমরা চাই ঘটনার সঠিক ও নিরপেক্ষ তদন্ত। সুষ্ঠ তদন্তের মাধ্যমে এই ঘটনার নেপথ্য ষড়যন্ত্রকারিদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনার জন্য প্রশাসনের কাছে অনুরোধ জানাই।


আরও খবর



তুরস্ক পরিচালিত আফগানিস্তানে ১০ স্কুল পুনরায় চালু

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৫ নভেম্বর ২০২১ | ৬৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আফগানিস্তানে তালেবান ক্ষমতায় আসার পর থেকে মেয়েদের স্কুল বন্ধ হয়ে যায়। এখনও মেয়েদের স্কুলে যাওয়ার অনুমতি দেয়নি দেশটির নতুন সরকার। তবে এত সংকটের মধ্যেও তুরস্ক পরিচালিত ১৪ স্কুলের মধ্যে ১০টি পুনরায় খোলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত চাভুসগ্লু সংসদীয় বৈঠকে এ তথ্য জানান। খবর মিডল ইস্ট আইয়ের।

চাভুসগ্লু বলেন, কূটনীতির মাধ্যমে তুরস্ক আফগান নারীদের সহযোগিতা করার চেষ্টা করে যাচ্ছে। একই সঙ্গে অন্তর্বর্তী সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মোত্তাকিকে অনুরোধ জানিয়েছি, দেশ পরিচালনায় যেন আফগানিস্তানের সব পক্ষের অংশগ্রহণ থাকে।

তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, আমাদের পরামর্শই শুধু যথেষ্ট নয়।  এ জন্য আমরা ১৪ স্কুলের মধ্যে ১০টি খুলে দিয়েছি, যা পরিচালনা করবে মারিফ ফাউন্ডেশন।

তুরস্কের অর্থায়নে আফগানিস্তানে ৮০ স্কুল পরিচালিত হয়।  এর মধ্যে ১৪টি মেয়েদের জন্য।

তালেবান আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার পর কাবুলে ন্যাটো জোটের একমাত্র দেশ হিসেবে তুরস্কের দূতাবাস কার্যকর রয়েছে।

চাভুসগ্লু বলেন, তুরস্ক আফগানিস্তানের এক মেয়েশিক্ষার্থীকে বৃত্তি দিয়েছে। যিনি আফগানিস্তানের বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষায় প্রথম হয়েছে। সেলগেই ইসমাইল তুরস্কের রাষ্ট্রীয় স্কলারশিপের আওতায় মেডিকেল স্কুলে প্রশিক্ষণ পাবেন। আমরা তালেবান সরকারের কাছ থেকে তার জন্য পাসপোর্ট সংগ্রহ করেছি।

তুরস্ক সম্প্রতি কাবুলে মানবিক সহায়তা কার্যক্রম পরিচালনা করছে।  সম্প্রতি দক্ষিণ এশিয়ার দেশটিতে ৩৩ টন খাদ্য দেওয়া হয়েছে।

চাভুসগ্লু বলেন, আমাদের সহায়তা কার্যক্রম চলমান।

আফগানিস্তান বর্তমানে খাদ্য সংকট পার করছে।  যুক্তরাষ্ট্রের সেনা প্রত্যাহারের পর থেকে তালেবানশাসিত দেশটিতে পশ্চিমা দেশগুলো আর্থিক ও মানবিক সহায়তা বন্ধ করার ফলে সংকট ঘনীভূত হয়েছে।

 


আরও খবর



আদিয়ান মার্টের সিইওসহ গ্রেফতার ৪

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ৩০ অক্টোবর ২০২১ | ৬৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
ঝিনাইদহ র‌্যাব-৬ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার মেজর মোহাম্মদ শরিফুল আহসান জানান, চুয়াডাঙ্গায় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আদিয়ান মার্ট বিভিন্ন অফারের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে আকৃষ্ট করে আসছিল

গ্রাহকের টাকা আত্মসাৎ মামলায় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আদিয়ান মার্টের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) জুবাইর সিদ্দিকীসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন- (র‍্যাব) ৬। শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) রাত ১২টার দিকে খুলনা ও চুয়াডাঙ্গা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে বিকেল থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত আদিয়ান মার্টের প্রধান কার্যালয়ে অভিযান চালায় র‍্যাব। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে ঝিনাইদহ (সিপিসি২) র‍্যাব-৬ এর কোম্পানি কমান্ডার মেজর মোহাম্মদ শরিফুল আহসান এ তথ্য জানায়।

ঝিনাইদহ র‌্যাব-৬ ক্যাম্পের কোম্পানী কমান্ডার মেজর মোহাম্মদ শরিফুল আহসান জানান, চুয়াডাঙ্গায় ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আদিয়ান মার্ট বিভিন্ন অফারের মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে আকৃষ্ট করে আসছিল। তারা পণ্য সরবরাহের নামে প্রায় আট কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়। শুক্রবার প্রতারণা শিকার আতিকুর রহমান উজ্জ্বল চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় ১৮ লাখ ৫২ হাজার ৪৮০ টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগে প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে মামলা করে।

মামলা দায়েরের পর র‌্যাব-৬ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চুয়াডাঙ্গা ও খুলনা থেকে প্রতিষ্ঠানের সিইও জুবায়ের সিদ্দিকী মানিক, মহা-ব্যবস্থাপক মাহমুদ সিদ্দিকী রতন, উপদেষ্টা আবু বক্কর সিদ্দিকী ও ম্যানেজার মিনারুল ইসলামকে গ্রেফতার করে। তাদের চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় হস্তান্তর করা হবে।

তিনি আরও বলেন, ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আদিয়ান মার্টের প্রতিষ্ঠাকাল ফেব্রুয়ারি ২০২০ সাল। প্রথম দিক থেকেই প্রতিষ্ঠানটি বিভিন্ন অফারের মাধ্যমে জনসাধারণকে আকৃষ্ট করে। বর্তমানে তাদের প্রডাক্ট ঘাটতির পরিমাণ ৭-৮ কোটি টাকা প্রায়। কয়েক মাস ধরে তারা তাদের প্রতিষ্ঠানের কাস্টমার কেয়ারসহ কার্যক্রম বন্ধ রাখে।

বর্তমানে তাদের ১৮০০ এর মতো ইনভয়েস অর্ডার বাকি আছে। র‌্যাব-৬ এর গাংনী ক্যাম্প এর একটি চৌকশ আভিযানিক দল শুরু থেকেই মামলা সংক্রান্ত ছায়া তদন্ত শুরু করে। তদন্তের পর শুক্রবার মামলা হলে তাদের খুলনা ও চুয়াডাঙ্গা থেকে গ্রেফতার করা হয়।

নিউজ ট্যাগ: আদিয়ান মার্ট

আরও খবর



নাঈমকে চাপা দেওয়া গাড়ির মূল চালক গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | ৩১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) ময়লার গাড়ির চাপায় নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী নাঈম হাসান মৃত্যুর ঘটনায় অভিযুক্ত গাড়ির মূল চালক হারুন মিয়া ওরফে কাইল্লা হারুনকে (৩৭) গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব।

শুক্রবার (২৬ নভেম্বর) রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

র‌্যাব সদর দপ্তরের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক এএসপি আ ন ম ইমরান খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে এ ঘটনায় সহকারী চালক রাসেলকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে তাকে আদালতে হাজির করলে বিচারক তার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

জানা গেছে, ঘটনার সময় গাড়িটি রাসেল খান চালালেও মূল চালক ছিলেন হারুন।

উল্লেখ্য, রাজধানীর গুলিস্তান গোলচত্বরে হল মার্কেটের সামনে ২৪ নভেম্বর বেলা ১১টায় ডিএসসিসি ময়লার গাড়ির ধাক্কায় নাঈম হাসান (১৭) নামে নটর ডেম কলেজের এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি কলেজের মানবিক শাখার দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। ওই ঘটনার পর থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষোভ করে দুর্ঘটনায় জড়িত প্রকৃত আসামির বিচারের দাবি জানিয়ে আসছেন শিক্ষার্থীরা।

নিউজ ট্যাগ: ডিএসসিসি

আরও খবর