আজঃ রবিবার ২৪ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

বাঙালির ঐক্যের তান হোক সম্প্রীতির বাংলাদেশ : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১০ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১০ অক্টোবর ২০২১ | ১৫৫৫জন দেখেছেন
Image

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, বাঙালির ঐক্যের তান হোক সম্প্রীতির বাংলাদেশ। বাঙালির বাংলাদেশে, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সামনে এগিয়ে যেতে হবে। আজকের সমাজ ব্যবস্থায় মানুষরূপী যে অসুর রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে”।

রবিবার (১০ অক্টোবর) পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গণে শারদীয় দুর্গা পূজা উপলক্ষ্যে নাজিরপুর উপজেলার দুর্গা মন্দিরের সভাপতি ও সম্পাদকের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময়, প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক বিতরণ, ব্যক্তিগত অনুদান প্রদান এবং জেলা পরিষদের অনুদান প্রদান উপলক্ষ্যে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। জেলা পরিষদ পিরোজপুর, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট এবং নাজিরপুর পূজা উদডাপন পরিষদ যৌথভাবে এ মতিবিনিময় সভা আয়োজন করে।

তিনি আরো বলেন, সকল ধর্মই সৃষ্টির কল্যাণের কথা বলে। সত্যকে গ্রহণ করে অসত্যকে বর্জন করার কথা বলে। পরার্থে নিজেকে বিলীন করার কথা বলে। কোন ধর্মই উগ্রতাকে প্রশ্রয় দেয় না। কিছু উগ্র ব্যক্তি আছে যারা নিজেদের মতো করে আলাদা ধর্ম রচনা করে। সে ধর্ম দিয়ে সমাজে সম্প্রীতি নষ্ট করে, মানবতার জয়গানে বিঘ্ন সৃষ্টি করে। তারা মানবতার শত্রু, অসাম্প্রদায়িকতার শত্রু। এরা অস্তিত্বের উৎসমূলে আঘাত করে, ধর্মীয় বিশ্বাসে আঘাত করে। এদের বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে”।

মন্ত্রী আরো যোগ করেন, দুর্গাপূজা এখন আর পূজার মধ্যে সীমাবদ্ধ নেই। এটা এখন বাঙালির সর্বজনীন উৎসবে পরিণত হয়েছে। আমাদের সৌভাতৃত্ব, সহমর্মিতা, ভালোবাসা আমাদের একটি জায়গায় আবদ্ধ করেছে। সে জায়গা হচ্ছে আমরা সকলে অসাম্প্রদায়িক বাঙালি। যে বাঙালিত্বকে প্রতিষ্ঠার জন্য আমাদের ত্রিশ লাখ শহিদ রক্ত দিয়েছিল, দুই লাখ মা-বোন সম্ভ্রম দিয়েছিল”।

নাজিরপুর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুখরঞ্জন বেপারীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক আবু আলী মোঃ সাজ্জাদ হোসেন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাঈদুর রহমান, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রেবেকা খান, নাজিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অমূল্য রঞ্জন হালদার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ ওবায়দুর রহমান, পিরোজপুর জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বিমল কৃষ্ণ মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক গোপাল বসু, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি সুরঞ্জিত দত্ত লিটু প্রমুখ।

এর আগে মন্ত্রী নাজিরপুর উপজেলা পরিষদের দিঘীতে মাছের পোনা অবমুক্ত করেন এবং নাজিরপুর উপজেলা পরিষদের সম্প্রসারিত প্রশাসনিক ভবন ও হল রুম নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।


আরও খবর



নাটকীয় উত্থানে ঘুরে দাঁড়াল পুঁজিবাজার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর 20২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর 20২১ | ১৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শেষ ঘণ্টায় সূচকের নাটকীয় উত্থানে ঘুরে দাঁড়িয়েছে দেশের পুঁজিবাজার। টানা সাত কার্যদিবস পর সপ্তাহের শেষ দিন বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক বেড়েছে ৫৫ পয়েন্ট।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সূচক বেড়েছে ১৭৩ পয়েন্ট। সূচক বাড়লেও কমেছে লেনদেন ও বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম। তবে সূচক বৃদ্ধির ফলে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে বলে মনে করেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

ডিএসই ও সিএসইর তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতার মধ্য দিয়ে দিনের লেনদেন শুরু হয়। তবে মাত্র ১০ মিনিট স্থায়ী হয় সূচক বৃদ্ধির এ ধারা। এরপর শেয়ার বিক্রির চাপে শুরু হয় সূচক পতন, যার মেয়াদ ছিল পরের ২৭ মিনিট। অর্থাৎ সকাল ১০টা ৩৭ মিনিটের পর থেকে সূচক ওঠা-নামার মধ্যদিয়ে লেনদেন হয় দুপুর দেড়টা পর্যন্ত।

এরপর শুরু হয় সূচকের নাটকীয় উত্থান। গ্রামীণফোন, স্কয়ার ফার্মা, ইউনাইটেড পাওয়ারের খাদ্য ও আনুষাঙ্গিক, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি এবং ওষুধ খাতের বড় মূলধনী কোম্পানিগুলোর শেয়ারের দাম বাড়তে থাকে। মাত্র এক ঘণ্টায় ডিএসই সূচক বাড়ে ৮০ পয়েন্ট।

বৃহস্পতিবার ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ৩৭৪ প্রতিষ্ঠানের ২৭ কোটি ২৯ লাখ ৫৫ হাজার ৭৬০টি শেয়ার হাতবদল হয়েছে। লেনদেন করা ৩৭৪ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৭৯টির শেয়ারের দাম কমেছে, বেড়েছে ১৫৩টির। এর আগের দিন দাম বেড়েছিল মাত্র ৮৭টি প্রতিষ্ঠানের। আর অপরিবর্তিত ছিল ৪২টির।

অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমলেও ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ৫৫ দশমিক ৬১ পয়েন্ট বেড়ে ৭ হাজার ৭৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। প্রধান সূচকের পাশাপাশি ডিএসইর অন্য সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১৩ দশমিক ২৪ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৫১৮ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৪৩ পয়েন্ট বেড়ে দুই হাজার ৬৯৯ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

বৃহস্পতিবার ডিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৬৮২ কোটি ৮৫ লাখ ১০ হাজার টাকার শেয়ার। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ৬৮২ কোটি ৮৫ লাখ ১০ হাজার টাকার শেয়ার। অর্থাৎ, আগের দিনের চেয়ে প্রায় ৩০০ কোটি টাকা কম লেনদেন হয়েছে।

ডিএসইতে সবচেয়ে বেশি লেনদেন হয়েছে বেক্সিমকোর শেয়ারের। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে আইএফআইসি ব্যাংক। তৃতীয় স্থানে ছিল এনআরবিবিসি ব্যাংক। এরপর যথাক্রমে ছিল, ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স, ওরিয়ন ফার্মাসিটিউক্যালস, লাফার্জহোলসিম, ব্রিটিশ আমেরিকান টোবাকো।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৭৩ পয়েন্ট বেড়ে ২০ হাজার ৬৯৪ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। সিএসইতে লেনদেন করা ২৬৭টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১১৪টির শেয়ারের দাম বেড়েছে, কমেছে ১২৪টির। অপরিবর্তিত রয়েছে ৩০টির শেয়ারের দাম। এ বাজারে লেনদেন হয়েছে ৩৬ কোটি ৮৩ লাখ ৯ হাজার টাকার শেয়ার। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৪৮ কোটি ৭৮ লাখ ৪২ হাজার টাকার শেয়ার।


আরও খবর



সূচক বাড়ার মধ্য দিয়ে লেনদেন চলছে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৭ অক্টোবর ২০২১ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার (০৭ অক্টোবর) দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক বাড়ার মধ্য দিয়ে লেনদেন চলছে। 

বৃহস্পতিবার লেনদেন শুরুর আধা ঘণ্টা পর অর্থাৎ সকাল সাড়ে ১০টায় ডিএসইর সাধারণ সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের চেয়ে ২৭ পয়েন্ট বেড়ে ৭ হাজার ৩৭৮ পয়েন্টে অবস্থান করে। ডিএসই শরীয়াহ সূচক ৭ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ৯ পয়েন্ট বেড়ে যথাক্রমে ১৬০৭ ও ২৭৯৭ পয়েন্টে রয়েছে। এই সময়ের মধ্যে লেনদেন হয়েছে ৪৬২ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট।

বৃহস্পতিবার এ সময়ে লেনদেন হওয়া কোম্পানিগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছে ২১৭টির, কমেছে ৮৬টির এবং অপরির্বতিত রয়েছে ৪৩টি কোম্পানির শেয়ার।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত লেনদেনের শীর্ষে থাকা ১০ কোম্পানি হলো- লাফার্জহোলসিম, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, অরিয়ন ফার্মা, পাওয়ার গ্রীড, ইন্দোবাংলা, এডভ্যান্ট ফার্মা, জিপিএইচ ইস্পাত, ইফাদ অটোস, সাইফ পাওয়ার ও শাইনপুকুর সিরামিক।

এর আগে লেনদেন শুরুর প্রথম ৫ মিনিটে ডিএসইর সূচক বাড়ে ২২ পয়েন্ট। সকাল ১০টা ১০ মিনিটে সূচক আগের অবস্থান থেকে আরো ২ পয়েন্ট বেড়ে যায়। এরপর সূচকের গতি নিম্নমুখী দেখা যায়। সকাল ১০ টা ১৫ মিনিটে সূচক আগের দিনের চেয়ে ১৮ পয়েন্ট বেড়ে ৭ হাজার ৩৬৯ পয়েন্টে অবস্থান করে।

অপরদিকে লেনদেন শুরুর আধা ঘণ্টা পর সকাল সাড়ে ১০টায় চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সিএএসপিআই সূচক ৮৩ পয়েন্ট বেড়ে ২১ হাজার ৬০২ পয়েন্টে অবস্থান করে। এরপর সূচকের গতি ঊর্ধ্বমুখী দেখা যায়।

এদিন সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৮ কোটি ১৩ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ সময়ের ৬১টি কোম্পানির দাম বেড়েছে, কমেছে ৪৫টি কোম্পানির দর। অপরিবর্তিত রয়েছে ৮টি কোম্পানি শেয়ারের দর।


আরও খবর
নাটকীয় উত্থানে ঘুরে দাঁড়াল পুঁজিবাজার

বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর 20২১




অবহেলায় বন্ধ চিনিকল, বিপাকে চাষিরা

প্রকাশিত:সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাবনা চিনিকল বন্ধের কারণে আখ মাড়াই নিয়ে বিপাকে পড়েছেন জেলার আখচাষিরা। বিপনন অনিশ্চয়তায় উৎপাদনে তারা আগ্রহ হারানোয় আখের উৎপাদন কমেছে। এদিকে মাড়াই কার্যক্রম না থাকায় পরিচর্যার অভাবে অযত্ন অবহেলায় নষ্ট হচ্ছে আখ মাড়াই যন্ত্রসহ মিলের শত কোটি টাকার সম্পদ।

আখচাষিরা জানান, টানা লোকসানের দায় নিয়ে সরকারের সিদ্ধান্তে গত বছর রাষ্ট্রায়ত্ত ৬ চিনিকলের সাথে উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায় পাবনা সুগারমিলে। হঠাৎ মাড়াই বন্ধ হওয়ায় সে সময় চুক্তিভুক্ত চাষিদের আখ সংগ্রহ করে নাটোরের নর্থবেঙ্গল সুগারমিলে পাঠায় কর্তৃপক্ষ। চলতি মৌসুমেও মাড়াই বন্ধ থাকায় চুক্তি নবায়ন হয়নি। এরপরেও অর্থকরী ফসল হিসেবে লাভের আশায় নিজ উদ্যোগেই আখ চাষ করেছেন জেলার অনেক চাষি।

এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে পাবনা চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাইফ উদ্দিন বলেন, পাবনা চিনিকলের অন্তর্গত দশটি চিনি উৎপাদনের জোন আছে। মিলে মাড়াই বন্ধ থাকায় এ বছর কৃষকদের কথা ভেবে মিলের নিকটবর্তী চারটি আখ উৎপাদন জোন ঈশ্বরদী জোন, মুলাডুলি জোন, লক্ষীকুন্ডা জোন ও মিলগেট জোনকে পাবনার নিকটবর্তী গোপালপুর চিনিকলের সঙ্গে সংযুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। তাই তাদের আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই। এদিকে উৎপাদন বন্ধ থাকায় চালু থাকা চিনিকল গুলোতে বদলি করা হয়েছে পাবনা সুগার মিলের কর্মীদের।

সরেজমিনে পাবনা চিনিকলে গিয়ে দেখা যায়, মরিচা পড়েছে মাড়াই যন্ত্রের বিভিন্ন অংশে। আগাছা আর জঙ্গলে ঢাকা পড়েছে বাইরে ইয়ার্ডে থাকা যন্ত্রপাতি আর দুইশতাধিক ট্রলি। দ্রুত মিল চালু না হলে আচিরেই এসব শতাধিক কোটি টাকার যন্ত্রপাতি ব্যবহার অযোগ্য হয়ে পড়বে বলে জানালেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা।

তিনি বলেন, মাড়াই শুরুর কয়েক মাস আগে থেকে যন্ত্রপাতির পরিচর্যা করতে হয়। কিন্তু গত দুবছর মাড়াই না হওয়ায় কর্মীদের অন্যান্য মিলে সংস্থাপন করায় যন্ত্রপাতির সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ হয়নি।

আধুনিকায়নের মধ্য দিয়ে পুনরায় পাবনা সুগার মিল চালুর পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে বলে জানিয়েছেন মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সাইফ উদ্দিন আহমেদ। এটা বাস্তবায়ন হলে এসব অঞ্চলের আওতাধীন কৃষকরা নির্ধারিত সময়ে চিনিকলে আখ সরবরাহ করতে পারবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।



আরও খবর



ফিল্ডিংয়ে কলকাতা, আজও নেই সাকিব

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কলকাতা নাইট রাইডার্সের ১১তম ম্যাচেও একাদশে সুযোগ হয়নি সাকিব আল হাসানের।

ধারণা করা হয়েছিল কেকেআরের ক্যারিবীয় তারকা অলরাউন্ডার আন্দ্রে রাসেল ইনজুরি আক্রান্ত হওয়ায় মঙ্গলবার দিল্লি ক্যাপিটালসের বিপক্ষে একাদশে সুযোগ পাবেন সাকিব।

কিন্তু না, সাকিবকে সাইড বেঞ্চে বসিয়ে রেখেই দিল্লির বিপক্ষে ফিল্ডিংয়ে কেকেআর। দিল্লির বিপক্ষে আন্দ্রে রাসেল ও প্রসিদ্ধ কৃষ্ণার পরিবর্তে কেকেআর একাদশে রেখেছে নিউজিল্যান্ডের তারকা পেসার টিম সাউদি ও ভারতীয় পেসার সন্দীপ ওয়ারিয়রকে।

আইপিএলের ১৪তম আসরের প্রথম তিন ম্যাচে কেকেআরে সুযোগ পান সাকিব। প্রথম ম্যাচে ৫ বলে ৩ রান আর বল হাতে ৪ ওভারে ৩৪ রান খরচ করে মাত্র ১ উইকেট নেন সাকিব। সেই ম্যাচে হায়দরবাদের বিপক্ষে ৬ উইকেটে ১৮৭ রান করা কেকেআর জিতে যায় ১০ রানে।

প্রথম ম্যাচে সাকিব প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স করতে না পারলেও দল জিতে যাওয়ায় উইনিং কম্বিনেশনের কারণে দ্বিতীয় ম্যাচে টিকে যান। মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিপক্ষে সেই ম্যাচে বল হাতে চার ওভারে ২৩ রানে ১ উইকেট, আর ব্যাট হাতে ৯ বলে মাত্র ৯ রান করে আউট হন সাকিব। ১৫৩ রান রান  তাড়ায় কেকেআর হারে ১০ রানে।   

নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে দল হারলেও সাকিবের ওপর ভরসা রাখেন কেকেআরের নিউজিল্যান্ডের কোচ ম্যাককালাম। রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে কেকেআরের তৃতীয় ম্যাচে ২ ওভারেই ২৪ রান দেন সাকিব। খরুচে বোলিংয়ের কারণে তাকে আর বল করার সুযোগ দেননি অধিনায়ক ইয়ন মরগান। ব্যাট হাতেও সেদিন আলো ছড়াতে পারেননি সাকিব। ২৫ বলে ১ চার ও এক ছক্কায় করেন মাত্র ২৬ রান। বেঙ্গালুরুর বিপক্ষে ২০৫ রানের বিশাল টার্গেট তাড়ায় কেকেআর হারে ৩৮ রানে।

তিন ম্যাচে ব্যাট হাতে ৩৮ রান আর বল হাতে ১০ ওভারে ৮১ রান দিয়ে মাত্র ২ উইকেট শিকার করেন সাকিব। এমন বাজে পারফরম্যান্সের কারণেই করোনায় ২ মে আইপিএল বন্ধ হয়ে যাওয়ার আগে টানা চার ম্যাচে সাইড বেঞ্চে বসে থাকতে হয় সাকিবকে।


আরও খবর
অজিদের কষ্টার্জিত জয়

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১




দেশের ইতিহাসে সেপ্টেম্বরে রপ্তানি আয়ে রেকর্ড

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | ৬৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চলতি অর্থবছরের সেপ্টেম্বর মাসে ৪১৬ কোটি ৫০ লাখ ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়েছে। দেশের ইতিহাসে এর আগে কখনো এক মাসে পণ্য রপ্তানি করে এত বেশি বিদেশি মুদ্রা আসেনি।

তৈরি পোশাকের ওপর ভর করে রপ্তানি আয়ের এ রেকর্ড হয়েছে। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে এসব তথ্য।

ইপিবি জানায়, চলতি অর্থবছরের তৃতীয় মাস, সেপ্টেম্বরে যে রপ্তানি আয় হয়েছে তা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ৩৮ শতাংশ বেশি। গত অর্থবছরের সেপ্টেম্বরে রপ্তানি আয় ছিল ২৯৯ কোটি ৩০ লাখ ডলার।

ইপিবি আরও জানায়, চলতি অর্থবছরের প্রথম প্রান্তিকে অর্থাৎ জুলাই-সেপ্টেম্বর সময়ে পণ্য রপ্তানি করে মোট ১ হাজার ১০২ কোটি ২০ লাখ ডলার আয় করেছে বাংলাদেশ। এটি গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ১১ দশমিক ৩৭ শতাংশ বেশি।

২০২০-২১ অর্থবছরের জুলাই-সেপ্টেম্বর সময়ে পণ্য রপ্তানি থেকে ৯৮৯ কোটি ৭০ লাখ ডলার আয় করেছিল বাংলাদেশ।


আরও খবর
নাটকীয় উত্থানে ঘুরে দাঁড়াল পুঁজিবাজার

বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর 20২১