আজঃ মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

বাংলাদেশিদের জন্য সীমান্ত খুলে দিল সিঙ্গাপুর

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১ | ৬৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনা সংক্রমণ কমায় বাংলাদেশিদের জন্য সিঙ্গাপুর সীমান্ত উন্মুক্ত করে দেওয়া হচ্ছে। আগামী ২৬ অক্টোবর সিদ্ধান্তটি কার্যকর হবে বলে জানিয়েছে দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনার পর তাদের নাগরিকদের জন্য সিঙ্গাপুর ভ্রমণের বিধি-নিষেধ প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আগামী ২৬ অক্টোবর থেকে বাংলাদেশ, ভারত, মিয়ানমার, নেপাল, পাকিস্তান এবং শ্রীলঙ্কার পর্যটকরা সিঙ্গাপুরে প্রবেশ করতে পারবেন। সিঙ্গাপুরে যাওয়ার আগের ১৪ দিনের ভ্রমণের ইতিহাস সম্পর্কে কর্তৃপক্ষকে অবহিত করতে হবে।

এই ভ্রমণকারীরা সিঙ্গাপুরের চতুর্থ শ্রেণির সীমান্ত বিধি-নিষেধের আওতায় পড়বেন। এসব বিধি-নিষেধের মধ্যে দেশটিতে পৌঁছানোর পর সরকারি স্থাপনায় ১০ দিনের কোয়ারেন্টিন পালনের নির্দেশ রয়েছে।

বেশিরভাগ পর্যটককে সামান্য কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষার মধ্য দিয়ে যেতে হবে। ক্যাটাগরি ২ (টিকা না নেওয়া ট্রাভেল লেন গন্তব্য), তিন এবং চারের অন্তর্ভূক্ত দেশের সব যাত্রীকে সিঙ্গাপুরে পৌঁছানোর পর করোনার পিসিআর পরীক্ষা করাতে হবে না। এর পরিবর্তে কোয়ারেন্টিন শেষে শুধুমাত্র পিসিআর পরীক্ষা করাতে হবে।

ক্যাটাগরি ৩ এবং চারের অন্তর্ভূক্ত দেশের যাত্রীদের সিঙ্গাপুরে পৌঁছানোর পর কোয়ারেন্টিন পালনের তিন এবং সপ্তম দিনের মাথায় তাদের যে অ্যান্টিজেন র‌্যাপিড টেস্ট করানোর নিয়ম ছিল; এখন আর সেটিও করতে হবে না।

এর আগে, দেশটি ১ নভেম্বর থেকে সিঙ্গাপুরে প্রয়োজনীয় শ্রমিক ও শিক্ষার্থীদের নিরাপদ এবং ক্রমাঙ্কিত পদ্ধতিতে প্রবেশের অনুমতি দেবে বলে ঘোষণা দেয়। তবে এ জন্য দেশটিতে প্রবেশের আগে টিকার পূর্ণ ডোজ নিতে হবে।

কোভিড-১৯ টাস্ক ফোর্সের এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী অং ইয়ে কুং বলেছেন, কিছু দেশে করোনা সংক্রমণের হার সিঙ্গাপুরের চেয়েও কম। যে কারণে আমরা এসব দেশের সঙ্গে নিরাপদেই ভ্রমণ চালু করতে পারি।




আরও খবর



দুই শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলার রায় বৃহস্পতিবার

প্রকাশিত:বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১ | ১০১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
চার্জশিটভুক্ত ৪৭ জন সাক্ষীর মধ্যে ২২ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত। ২০১৮ সালের ১৩ জুলাই আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত

রাজধানীর বনানীর রেইনট্রি হোটেলে দুই শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলায় আপন জুয়েলার্সের কর্ণধার দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদসহ পাঁচ জনের রায় আগামীকাল।

বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭ এর বিচারক বেগম মোছা. কামরুন্নাহারের আদালত আলোচিত এ মামলার রায় ঘোষণা করবেন।

গত ৩ অক্টোবর রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে আদালত রায়ের তারিখ ১২ অক্টোবর ধার্য করেন। ওই দিন জামিনে থাকা এ মামলার পাঁচ আসামির জামিন বাতিল করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। রায় প্রস্তুত না হওয়ায় তা পিছিয়ে ২৭ অক্টোবর ধার্য করেন আদালত। কিন্তু প্রবীন আইনজীবী আব্দুল বাসেত মজুমদারের মৃত্যুতে নিম্ন আদালতের কার্যক্রম বন্ধ থাকায় তা পিছিয়ে ১১ নভেম্বর ধার্য করা হয়।

এর আগে গত ২৯ আগস্ট আত্মপক্ষ শুনানিতে সাফাতসহ ৫ আসামি নিজেদের নির্দোষ দাবি করে ন্যায় বিচার প্রার্থনা করেন।

মামলার অপর চার আসামি হলেন, সাফাত আহমেদের বন্ধু সাদমান সাকিফ, নাঈম আশরাফ ওরফে এইচ এম হালিম, সাফাতের দেহরক্ষী রহমত আলী ও গাড়িচালক বিল্লাল হোসেন।

গত ২২ আগস্ট মামলাটিতে সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়। চার্জশিটভুক্ত ৪৭ জন সাক্ষীর মধ্যে ২২ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত। ২০১৮ সালের ১৩ জুলাই আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

এর আগে ওই বছরের গত ৭ জুন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের উইমেন সাপোর্ট অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনের (ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টার) পরিদর্শক ইসমত আরা এমি পাঁচ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্রটি আদালতে দাখিল করেন।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ২৮ মার্চ জন্মদিনের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানিয়ে অস্ত্রের মুখে ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ৬ মে বনানী থানায় পাঁচ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।


আরও খবর



নিউইয়র্কের নতুন মেয়র এরিক অ্যাডামস

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ নভেম্বর ২০২১ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রিপাবলিকান প্রার্থী কার্টিস স্লিওয়াকে হারিয়ে নিউইয়র্ক সিটির নতুন মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন দেশটির সাবেক কৃষ্ণাঙ্গ পুলিশ কর্মকর্তা ও ডেমোক্র্যাটিক দলের প্রার্থী এরিক অ্যাডামস । যুক্তরাষ্ট্রের বৃহত্তম শহারটি পরিচালনার জন্য দ্বিতীয় আফ্রিকান-আমেরিকান হিসেবে দায়িত্ব পেলেন তিনি।  খবর বিবিসি ও আনাদোলুর।

নিউইয়র্কের প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ মেয়র ছিলেন ডেভিড ডিনকিনস। তিনি ১৯৯০ থেকে ১৯৯৩ সাল দায়িত্ব পালন করেছেন। প্রায় ৩০ বছর পর আবারও কৃষ্ণাঙ্গ মেয়র পেলো নিউইয়র্কবাসী।

১৯৬০ সালে কুইন্সে জন্মগ্রহণ করেন অ্যাডামস। তার মা একজন পরিচ্ছন্নকর্মী এবং বাবা একজন কসাই হিসেবে কাজ করতেন। ২০০৬ সালে তিনি পুলিশের চাকরি থেকে অবসর নেন। এর পর সিনেটর নির্বাচিত হন তিনি। ২০১৩ সাল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করেন।

অ্যাডামস একজন কিশোর হিসেবে পুলিশ কর্মকর্তাদের হাতে মারধরের বর্ণনা দিয়েছেন।  সে সময় তাকে অনুপ্রবেশের জন্য গ্রেফতার করা হয়েছিল। পরে যখন তিনি পুলিশে যোগ দেন, তখন অন্যায়ের বিরুদ্ধে সোচ্চার ছিলেন, কৃষ্ণাঙ্গ কর্মকর্তাদের পক্ষে ছিলেন এবং অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলেছেন।

নির্বাচনে জয়ের খবর পেয়ে টুইটবার্তায় অ্যাডামস বলেন, আজ রাতে আমরা বিজয় উদযাপন করব এবং আগামীকাল থেকেই কাজে ঝাঁপিয়ে পড়ব। 


আরও খবর



হতাশাতেই দিন কাটালো টাইগার বোলাররা

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | ৩৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম দিনটা বাংলাদেশের হলে আজ দ্বিতীয় দিনটা পাকিস্তানের। দিনের খেলা শেষ হওয়ার আগে ৫৭ ওভার বোলিং করেও যে পাকিস্তানের একটা উইকেট ফেলা সম্ভব হলো না। এর আগে দিনের শুরুতে শেষ ছয় উইকেটে বাংলাদেশকে ৭৭ রানের বেশি যোগ করতে দেয়নি পাকিস্তানি বোলাররা।

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশকে ৩৩০ রানে বেঁধে রেখে পাকিস্তান ১৪৫ রান করে দিনের খেলা শেষ করেছে কোনো উইকেট না হারিয়ে। সেঞ্চুরির পথে আছেন পাকিস্তান ওপেনার আবিদ আলী। বাংলাদেশ বোলারদের কোনো সুযোগ না দিয়ে ১৮০ বলে ৯৩ রানে অপরাজিত আছেন তিনি। নয় চারের সঙ্গে আবিদ তাঁর ইনিংসটি সাজিয়েছেন দুই ছক্কায়। তাঁর সঙ্গী আবদুল্লাহ শফিকও অভিষেকেই ফিফটি ছাড়িয়ে গেছেন। মুমিনুল হককে ছক্কা মেরে টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম ফিফটি পূর্ণ করেন শফিক।

দুজনের দারুণ ব্যাটিংয়ে হতাশার একটি দিন কাটিয়েছে বাংলাদেশ। তবে আবিদ-শফিকের ১৪৫ রানের জুটি ভাঙতে পারত ৩১ রানেই। তাইজুল ইসলামের করা ১৩তম ওভারের পঞ্চম বলে আউট হতে পারতেন অভিষিক্ত শফিক। তাইজুলের আর্মার বলটা তাঁর পায়ে লাগলে এলবিডব্লিউর আবেদন করেন তাইজুল-লিটনরা। আম্পায়ার সাড়া না দেওয়ায় রিভিউও নেয়নি বাংলাদেশ। পরে টিভি রিপ্লেতে দেখা যায় বলটি আগে প্যাডে লেগেছে এবং সেটি আঘাত হানত স্টাম্পে। ১ রানে বেঁচে যাওয়া শফিক দিন শেষে অপরাজিত আছেন ৫২ রানে।

এর আগে দিনের শুরুতে আগের দিনের দলীয় সংগ্রহ ২৫৩ রানকে বাড়িয়ে নিতে পারেননি লিটন আর মুশফিক। প্রথম দিনের সঙ্গে আর কোনো রান না যোগ করেই ফিরে যান লিটন (১১৪)। সেঞ্চুরিবঞ্চিত হওয়ার হতাশায় পোড়েন মুশফিকুর রহিম। টেস্ট ক্যারিয়ারে চতুর্থবার নার্ভাস নাইনটিতে আউট হওয়ার আগে করেন ৯১ রান। তবে এক প্রান্তে চেষ্টা করেছিলেন মেহেদি হাসান মিরাজ। সঙ্গীর অভাবে মিরাজ শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন ৩৮ রানে।


আরও খবর
হারের শঙ্কায় টাইগাররা

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




ইয়েমেনে বিমানবন্দরের বাইরে বিস্ফোরণে নিহত ১২

প্রকাশিত:রবিবার ৩১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ৩১ অক্টোবর ২০২১ | ৪৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইয়েমেনি সরকারের অন্তর্বর্তীকালীন রাজধানী এডেনের বিমানবন্দরের কাছে বিস্ফোরণে অন্তত ১২ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে, একজন ঊর্ধ্বতন নিরাপত্তা কর্মকর্তা এএফপিকে জানিয়েছেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ইয়েমেনের এক নিরাপত্তা কর্মকর্তা জানিয়েছেন, এডেন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে হওয়া ওই বিস্ফোরণে ১২ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। এছাড়া মারাত্মক আহত হয়েছেন আরও অনেক মানুষ। বিস্ফোরণের কারণ এখনও জানা যায়নি।

শনিবারের এই বিস্ফোরণটি ছিল খুবই শক্তিশালী। এএফপি ফুটেজে দেখা গেছে, লোকজন একটি গাড়ি থেকে একটি মৃতদেহ বের করছে যা সম্পূর্ণরূপে ধ্বংস হয়ে গেছে।বিস্ফোরণের শব্দ পুরো এডেন শহরজুড়ে শোনা যায়। এছাড়া বিস্ফোরণের কারণে আশপাশের বাড়ি-ঘরের জানালাগুলো ভেঙে যায়।

এডেনের গভর্নরকে লক্ষ্য করে একটি গাড়ি বোমা হামলায় ছয়জন নিহত হওয়ার প্রায় তিন সপ্তাহ পর এই বিস্ফোরণ ঘটে, যদিও গভর্নর সেই হামলায় বেঁচে গিয়েছিলেন।

এছাড়া শনিবার, ইয়েমেনের তৃতীয় শহর তাইজের একটি আশেপাশে তিন শিশু নিহত এবং আরও তিনজন গুরুতর আহত হয়েছে, যা রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম বিদ্রোহী মর্টার ফায়ার বলে অভিহিত করেছে।


আরও খবর



ইউপি নির্বাচনে সহিংসতায় 'বিব্রত' সিইসি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ নভেম্বর 2০২1 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০২ নভেম্বর 2০২1 | ৫৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের সহিংসতার ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, নির্বাচনে সহিংসতার ঘটনা বেড়ে যাচ্ছে সেটা ঠিক, আমরা সেটি প্রত্যক্ষ করেছি। নির্বাচনের ব্যাপারে মাঠ পর্যায়ে কী ধরনের নির্দেশনা দেওয়া দরকার সেটি নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করছি। আমরা আশাকরি, আগামী ৪ নভেম্বর বিস্তারিত আলোচনা করবো। অনেকগুলো ঘটনা ঘটে গেছে। যেগুলো নিয়ে আমরা বিব্রত। সেটা নিয়ন্ত্রণের জন্য আমরা কমিশনারদের সঙ্গে আলোচনা করে মাঠ পর্যায়ে দিক নির্দেশনা দেবো।

মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর আগারগাঁওয়ের নির্বাচন ভবনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

সিইসি নূরুল হুদা বলেন, মাঠপর্যায়ে আমাদের নিয়ন্ত্রণ আছে। কিন্তু মাঠপর্যায়ে যদি সহনশীলতা না থাকে, তাহলে তো নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব না। আমরা বারবার বলি নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে, প্রতিযোগিতামূলক হবে, কিন্তু প্রতিহিংসামূলক হবে না। আমরা আপনাদের মাধ্যমে জানাতে চাই, নির্বাচনে যে সহিংস ঘটনা ঘটছে, সেটা সবার প্রচেষ্টার মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।

তিনি বলেন, অভিযোগ এলেই আমরা ব্যবস্থা নেই। কিন্তু তাৎক্ষণিক কোনো ফৌজদারি ঘটনা ঘটলে, সেটা আমরা এখানে বসে কিছু করতে পারি না। এগুলো পূর্ব পরিকল্পিত হয় না বা প্রশাসন তা আগে থেকেই জানতে পারে না। ফৌজদারি ঘটনাগুলো ঘটলে তা মাঠপর্যায়ে নিয়ন্ত্রণের বিষয়ে আমাদের কঠোর নির্দেশনা রয়েছে। শরিয়তপুরে কয়েকজন প্রার্থীর সই জাল করে প্রার্থিতা প্রত্যাহার করার অভিযোগের বিষয়ে সিইসি বলেন, এই বিষয়ে কমিশনের একজন যুগ্ম-সচিবকে প্রধান করে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। প্রতিবেদন পেলেই আমরা সঠিক সে বিষয়ে ব্যবস্থা নেবো। সাত দিনের মধ্যে আমরা এটি জানতে পারবো।

রাজনৈতিক দলের ভূমিকা পজিটিভটি দেখছেন কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সিইসি নূরুল হুদা বলেন, আমরা খুব পজিটিভলি দেখছি না। দুঃখজনক হলেও সত্যি। এই সমস্ত বিষয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর সক্রিয় ভূমিকা থাকা দরকার। নির্বাচনের বিষয়টি শুধু নির্বাচন কমিশনের না, এটা সবারই। আমরা শুধু তার ব্যবস্থাপনায় থাকি। সুতরাং তারা যদি আরও প্রোঅ্যাকটিভ হয়, তাহলে এগুলো আরও কমে আসবে।


আরও খবর