আজঃ মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের সুপারিশ জাতিসংঘের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশের উত্তোরণের সুপারিশ গৃহীত হয়েছে। একমাত্র দেশ হিসেবে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের ৩টি মানদণ্ডই পূরণ করেছে বাংলাদেশ। 

বাংলাদেশ সময় বুধবার (২৪ নভেম্বর) রাতে এক টুইটা বার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাবাব ফাতিমা। রেজুলেশনটি গ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশ এলডিসি ক্যাটাগরি থেকে পরবর্তী ধাপে উত্তরণের সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করলো।

এটি বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় একটি যুগান্তকারী অর্জন যা এমন এক সময়ে অর্জিত হলো যখন বাংলাদেশ মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করছে।

টুইট বার্তায় এ বিষয়ে রাবাব ফাতিমা লিখেন, জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের ঐতিহাসিন সুপারিশ গৃহীত হয়েছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী (৫০ বছর) ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উদযাপনের ক্ষেত্রে এর চেয়ে দারুণ উপলক্ষ আর কি হতে পারে! জাতির বহুদিনের আশা-আকাঙ্খা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রূপকল্প-২০২১ অবশেষে পূর্ণতা পেলো। জয় বাংলা।

এর আগে চলতি বছরে ২২-২৬ ফেব্রুয়ারি নিউইয়র্কে জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসির (সিডিপি) বৈঠকে বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য চূড়ান্ত সুপারিশ করা হয়েছিল। এর ৯ মাসের মাথায় সেটি জাতিসংঘে গৃহীত হলো। সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২৬ সালে বাংলাদেশ আর স্বল্পোন্নত দেশের তালিকায় থাকবে না। উন্নয়নশীল দেশের তালিকাভূক্ত হবে।

যদিও এটি ২০২৪ সালে লাভ করার কথা ছিল। কিন্তু মহামারি করোনাভাইরাসের প্রভাব মোকাবিলায় বাংলাদেশ দুই বছর সময় চেয়ে নিয়েছিল।

একমাত্র দেশ হিসেবে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের যে ৩টি মানদণ্ডই বাংলাদেশ পূরণ করেছে সেগুলো হলোমাথাপিছু আয়, মানবসম্পদ এবং অর্থনৈতিক ও পরিবেশগত ভঙ্গুরতা। মূলত এ তিনটি সূচকের ভিত্তিতেই জাতিসংঘ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের বিষয়টি পর্যালোচনা করে থাকে।

জাতিসংঘের পর্যালোচনা অনুযায়ী ২০১৯ সালে মাথাপিছু আয়ের মানদণ্ড নির্ধারিত ছিল ১ হাজার ২২২ মার্কিন ডলার। কিন্তু সে সময় বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় ছিল ১ হাজার ৮২৭ ডলার। আর বর্তমানে (নভেম্বর-২০২১) সেটা ২ হাজার ৫৫৪ ডলার।

মানবসম্পদ সূচকে জাতিসংঘের নির্ধারিত মানদণ্ড ছিল সর্বনিম্ন ৬৬। আর তখন বাংলাদেশের ছিল ৭৫.৪। অর্থনৈতিক ও পরিবেশগত ভঙ্গুরতা সূচকের মানদণ্ড নির্ধারিত ছিল ৩২ কিংবা তার কম। সে সময় বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ২৭ এ।

উল্লেখ্য, ১৯৭৫ সাল থেকে স্বল্পোন্নত দেশের কাতারে থাকা বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে ২০১৮ সালে জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসির (সিডিপি) সবগুলো শর্ত পূরণ করে।

নিউজ ট্যাগ: জাতিসংঘ

আরও খবর



জবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. আবুল হোসেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | ৩৪০জন দেখেছেন

Image

জবি প্রতিনিধি:

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শিক্ষক সমিতির কার্যনির্বাহী পরিষদের নতুন কমিটি গঠন করা হয়েছে। ৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ৩০৮ ভোট পেয়ে সভাপতি বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেন সভাপতি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন। এরপর বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা শেষে আনুষাঙ্গিকভাবে নবনির্বাচিত কার্যনির্বাহী কমিটি-২০২২ দায়িত্বভার গ্রহণ করেছেন।

নির্বাচিত সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেন জামালপুর জেলা সদরের ঐতিহ্যবাহী পাথালিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট থেকে এমএসএস -এ প্রথম শ্রেণিতে প্রথম স্থান ও বি.এস.এস. (সম্মান) প্রথম শ্রেণিতে দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেন। তিনি কানাডার কালর্টন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স অব সোশ্যাল ওয়ার্ক (এম.এস.ডব্লিউ) এবং উইলফ্রিড লরিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচ.ডি ডিগ্রী সম্পন্ন করেন। পিএইচডি গবেষণার জন্য তিনি IDRC (International Development Research Centre, Canada) থেকে মর্যাদাপূর্ণ Doctoral Research Award লাভ করেন।

এছাড়াও তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর সোশ্যাল সায়েন্স রিসার্চ এন্ড ট্রেনিং এর পরিচালক হিসেবে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় থেকে গবেষণা মুঞ্জরিপ্রাপ্ত হয়ে 'জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হত্যাকাণ্ড পরবর্তী সশস্ত্র প্রতিবাদকারী যোদ্ধাগণের বর্তমান অবস্থা' শীর্ষক প্রকল্পের গবেষণা পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নকালে ১৯৯০ সালে কবি জসীম উদ্দিন হল সংসদে ছাত্রলীগ থেকে শফি-হায়দার প্যানেলে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পদে নির্বাচন করেন।

তিনি জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় নীলদল থেকে মনোনীত হয়ে ২০১৪-১৫ সেশনে শিক্ষক সমিতির নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। বর্তমানে তিনি নীলদলের কার্যনিবার্হী পরিষদের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেন এশিয়াটিক সোসাইটি, বাংলা একাডেমি ও বাংলাদেশ ইতিহাস সম্মিলনীর সদস্য এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্টার্ড গ্রাজুয়েট, ঢাকাস্থ জামালপুর সমিতির আজীবন সদস্য হিসেবে কাজ করছেন।


আরও খবর



ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় জরুরি অবস্থা জারি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | ৪২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কানাডার পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রদেশ ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় জরুরি অবস্থা জারি করা হয়েছে। ভয়াবহ বন্যা ও ঝড়ের কারণে সেখানকার সড়ক ও রেল যোগাযোগ কার্যত বন্ধ হয়ে গেলে স্থানীয় সময় বুধবার (১৭ নভেম্বর) ব্রিটিশ কলাম্বিয়ার প্রধান এই জরুরি অবস্থা জারি করেন। খবর বিবিসি ও আলজাজিরা।

বিবিসি জানায়, ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় গেল রোববার সারারাত ঝড় ও বৃষ্টির পর থেকে সেখানে হাজার হাজার বাসিন্দা আটকে পড়েন। আটকে পড়াদের সাহায্য করার জন্য কানাডার সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের মোতায়েন করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় সরকার।

বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণা দেন প্রাদেশিক প্রধান জন হরগান। স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা থেকে এই ঘোষণা কার্যকরের ঘোষণা দিয়ে সেখানে তিনি জানান, জরুরি অবস্থার কারণে মানুষ বন্যা কবলিত এলাকা ও রাস্তায় যাওয়া থেকে বিরত থাকবে এবং একইসঙ্গে ক্ষতিগ্রস্তদের কাছে প্রয়োজনীয় সহায়তাও পৌঁছানো নিশ্চিত করা যাবে।

বুধবার আটকে পড়াদের কাছে হেলিকপ্টার ব্যবহার করে খাবার পৌঁছে দেওয়া হয়।


আরও খবর



করোনায় একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৫৪

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৬ নভেম্বর ২০২১ | ৪৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও একজনের জনের মৃত্যু এবং ১৫৪ রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর আগে গতকাল (শুক্রবার) ৩ জনের মৃত্যু এবং ১৯৬ জন রোগী শনাক্ত হয়েছিলো।

শনিবার (৬ নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনা পরিস্থিতি-সংক্রান্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তির তথ্যমতে, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৩ হাজার ১৫৫ জনের। পরীক্ষা করা হয়েছে ১৩ হাজার ৭২টি। এ পর্যন্ত মোট ১ কোটি ৪ লাখ ৫৮ হাজার ৩৬৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এরমধ্যে রোগী শনাক্ত হয়েছে ১৫ লাখ ৭০ হাজার ৮৩৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২৭ হাজার ৮৯১ জনের।

এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় করোনামুক্ত হয়েছেন ১৫৭ জন।এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৫ লাখ ৩৪ হাজার ৬৩৫ জন।

নতুন নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ১ দশমিক ১৮ শতাংশ। মোট পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ০২ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় যিনি মারা গেছেন তিনি পুরুষ। তিনি ঢাকা বিভাগে মারা গেছেন। তার বয়স ছিল ৭১-৮০ বছরের মধ্যে।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস।বাংলাদেশে ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।


আরও খবর
করোনায় ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৭

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




নারায়ণগঞ্জে মাদক ব্যবসায়ীদের হাতে যুবক খুন

প্রকাশিত:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | ৩৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নারায়ণগঞ্জে এক যুবককে মাদক ব্যবসায়ীরা কুপিয়ে হত্যা করেছে বলে খবর পাওয়া গেছে।

সোমবার (২২ নভেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে রোববার (২২ নভেম্বর) রাত ১১টায় শহরের কিল্লারপুল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ব্যক্তি শহরের তল্লা ছোট মসজিদ এলাকার রিপন হোসেনের ছেলে সাজিদ হোসেন।

জানা গেছে, কিল্লার পাশের মাঠে ব্যাডমিন্টন খেলা ও মাদক ব্যবসায় বাধা দেওয়া নিয়ে একই এলাকার আদম ও কদম নামে দুই ভাইয়ের সঙ্গে সাজিদের কথা কাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে তারা সাজিদকে পিটিয়ে ও ছুরি দিয়ে বুকে আঘাত করে গুরুতর জখম করে।  আশপাশের লোকজন আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেকে মর্গে রয়েছে।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাজমুল হাসান জানান, হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের চিহ্নিত করা হয়েছে। পুলিশ অপরাধীদের গ্রেপ্তার করতে কাজ করছে।

 

নিউজ ট্যাগ: যুবক খুন

আরও খবর



খালেদা জিয়া জীবন-মৃত্যুর সঙ্গে সংগ্রাম করছেন: ফখরুল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | ৪২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
দীর্ঘ আড়াই বছর তিনি নির্জন কারাবাসে ছিলেন। যার ফলে অনেকগুলো ব্যাধি তার শরীরে বাসা বেঁধেছে। সেখানে কোনো চিকিৎসার সুযোগ ছিল না

বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া জীবন-মৃতুর সঙ্গে সংগ্রাম করছেন বলে জানিয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেছেন, এভারকেয়ারের চিকিৎসকরা জানিয়েছেনতারা প্রাণপণ চেষ্টা করছেন। উনার (খালেদা জিয়া) অসুখ এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে দেশের বাইরে চিকিৎসা করানো খুব জরুরি।

বৃহস্পতিবার (১৮ নভেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব এসব কথা বলেন। এসময় তিনি খালেদা জিয়ার চিকিৎসার সঙ্গে রাজনীতিকে না জড়ানোর আহ্বানও জানান। মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর ৪৫তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে এ আলোচনা সভার আয়োজন করে বিএনপি।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ডাক্তাররাই বলছেন, তাকে বিদেশে পাঠালে তিনি সুস্থ্য হবেন। এটা তারা (চিকিৎসকরা) আশা করেন। এখানে যে ধরনের চিকিৎসা ব্যবস্থা আছে, তা যথেষ্ট নয়। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ বলছেন, উনার (খালেদা জিয়া) অসুখগুলো সারিয়ে তুলতে তারা পুরোপুরি সক্ষম নই।

তিনি বলেন, বিদেশে চিকিৎসাটা বড় জরুরি। এ কথা বারবার বলা হয়েছে। আজকে অন্যান্য দলগুলোও বলছে, সবাই বলছে। কিন্তু আওয়ামী লীগ এবং আওয়ামী লীগের নেত্রী সম্পূর্ণভাবে গ্রহণ করছেন না।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আমরা আবারও বলছি, আবারও আহ্বান জানাতে চাই, অবিলম্বে বেগম খালেদা জিয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানের ব্যবস্থা করুন। তার জীবন রক্ষা করুন। এর সঙ্গে রাজনীতিকে নিয়ে আসবেন না।

তিনি বলেন, এ নেত্রীকে অপমান করা মানে বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে অপমান করা। কারণ ১৯৭১ সালে তিনি গৃহবন্দি ছিলেন। যে নেত্রী গণতন্ত্রের জন্য তার সারাটা জীবন অতিবাহিত করলেন। যিনি একজন গৃহবধূ ছিলেন, শুধু জনগণের অধিকার আদায়ের করার জন্য তিনি রাস্তায় বেরিয়ে এসেছিলেন। সেই নেত্রীকে আজকে অন্যায়ভাবে, বেআইনিভাবে একটা মিথ্যা মামলা সাজিয়ে আজকে আটকে রাখা হয়েছে বছরের পর বছর ধরে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, দীর্ঘ আড়াই বছর তিনি নির্জন কারাবাসে ছিলেন। যার ফলে অনেকগুলো ব্যাধি তার শরীরে বাসা বেঁধেছে। সেখানে কোনো চিকিৎসার সুযোগ ছিল না। সে চিকিৎসা না দেওয়ার ফলে আজকে তার অনেক রোগ দেখা দিয়েছে।’

এদিকে, খালেদা জিয়ার উন্নত চিকিৎসার দাবিতে আগামী শনিবার (২০ নভেম্বর) সারাদেশে গণঅনশন কর্মসূচি পালন করবে বিএনপি। এ প্রসঙ্গে ফখরুল বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দেওয়া হবে না এটা অমানবিক। আমরা অনতিবিলম্বে তার জীবন রক্ষার জন্য তাকে বিদেশে চিকিৎসা গ্রহণের ব্যবস্থা করার জন্য জোর দাবি জানাচ্ছি। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার জন্য বিদেশে চিকিৎসার দাবিতে আগামী ২০ নভেম্বর সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ঢাকায় কেন্দ্রীয়ভাবে ও সারাদেশে মহানগর ও জেলা পর্যায়ে গণঅনশন পালনের দাবিতে আমি সবাইকে আহ্বান জানাচ্ছি।’

তিনি আরও বলেন, আমাদের ঢাকায় যে কর্মসূচি সেটি ভেন্যু পাওয়া সাপেক্ষে, আমরা যদি ভালো ভেন্যু পাই তবে সেখানে করবো। তবে কোথাও যদি ভেন্যু না পাই সেক্ষেত্রে আমাদের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এই গণঅনশন কর্মসূচি পালন করবো।’

আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান, শামসুজ্জামান দুদু, ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আমান উল্লাহ আমান, দক্ষিণের আহ্বায়ক আব্দুস সালাম প্রমুখ।

নিউজ ট্যাগ: খালেদা জিয়া

আরও খবর