আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

বাস চলাচলে ফের নতুন সিদ্ধান্ত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাস সংক্রমণ কমাতে গণপরিবহনে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচলের যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল ২৪ ঘণ্টা পার হতে না হতেই সিদ্ধান্ত বদল করা হয়েছে। আগামী শনিবার থেকে যত আসন তত যাত্রী নিয়ে পরিবহন চলাচলের নির্দেশনা দিয়েছে সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্যাহ এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, বিআরটিএর চেয়ারম্যানের সঙ্গে আমাদের ফের আলোচনা হয়েছে। শনিবার থেকে গণপরিবহনের যত আসন তত যাত্রী নিয়ে চলাচলের বিষয়ে একমত হয়েছে বিআরটিএ। কারণ অর্ধেক যাত্রী নিয়ে পরিবহন চলাচল করলে যাত্রী ভোগান্তি বাড়বে।

খন্দকার এনায়েত উল্যাহ আরও বলেন, আমরা সব পরিবহন মালিকদের বিআরটিএর এই বার্তা পৌঁছে দিয়েছি। এক্ষেত্রে যারা সরকারের স্বাস্থ্যবিধি মানবে না তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর



পাকিস্তানে শক্তিশালী বোমা বিস্ফোরণে নিহত ৪

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ | ২৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাকিস্তানে শক্তিশালী বোমা বিস্ফোরণে ৪ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন। বৃহষ্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) রাতে দেশটির বেলুচিস্তান প্রদেশের কোয়েটার মধ্যাঞ্চলের একটি কলেজের বাইরে এ ঘটনা ঘটে।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের তথ্য মতে, রাজধানী কোয়েটায় বিজ্ঞান কলেজের বাইরে যখন এ বিস্ফোরণে ঘটে তখন কলেজের শীতকালীন ছুটি চলছিলো। তাৎক্ষণিক কেউ বোমা হামলার দায় স্বীকার করেনি।

উল্লেখ্য, বিচ্ছিন্নতাবাদি জঙ্গি গোষ্ঠীগুলি অথবা পাকিস্তানি তালিবান যারা তেহরিকে তালিবান পাকিস্তান (টিটিপি) নামে পরিচিত, তারা প্রায় এ ধরণের সহিংসতার ঘটায়। 


আরও খবর
হাসপাতালে ভর্তি মাহাথির মোহাম্মদ

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২




ইসি গঠনে আইনের খসড়া অনুমোদন মন্ত্রিসভায়

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ২৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন হচ্ছে। এজন্য প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ আইন, ২০২২ এর খসড়া নীতিগত ও চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

সোমবার (১৭ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন।

বৈঠক শেষে সচিবালয়ে প্রেস বিফ্রিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম খসড়া আইনটি অনুমোদনের কথা জানান।

খসড়া আইন অনুযায়ী, প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ দিতে একটি অনুসন্ধান কমিটি গঠন করা হবে বলে জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব।

বর্তমান নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য রাষ্ট্রপতি সংলাপ শুরু করেছিলেন গত মাসে। সংলাপে আমন্ত্রণ পায় দেশের নিবন্ধিত সবগুলো রাজনৈতিক দল।

রাষ্ট্রপতির আমন্ত্রণে বঙ্গভবনে সংলাপে অংশ নেয় বর্তমান সংসদের বিরোধী দল জাতীয় পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ), ওয়ার্কার্স পার্টিসহ দেশের নিবন্ধিত সবগুলো রাজনৈতিক দল।

তবে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) রাষ্ট্রপতির সংলাপে অংশগ্রহণ করেননি। আর আজ সংলাপের শেষ দিনে দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দল বঙ্গভবনে যাবেন রাষ্ট্রপতির সংলাপে অংশগ্রহণ করতে।

এদিকে নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে প্রায় সবগুলো রাজনৈতিক দলেরই চাওয়া ছিলো আইন তৈরি করে সেই আইনের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশন গঠন করা। তাদের সেই চাহিদার প্রতি সাড়া দিয়েই মন্ত্রিসভায় নির্বাচন কমিশন গঠনের আইনের খসড়া অনুমোদন দিলো।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও নির্বাচন কমিশনার নিয়োগের যোগ্যতা হবে বাংলাদেশি নাগরিক যার ৫০ বছর বয়স এবং সরকারি, বেসরকারি, আধা-সরকারি বা বিচার বিভাগীয় পদে কমপক্ষে ২০ বছর কাজের অভিজ্ঞতা।


আরও খবর



সরকারি অর্থের অপব্যবহার ঠেকাতে বললেন রাষ্ট্রপতি

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | ২৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সরকারি অর্থের অপব্যবহার রোধ করতে সংশ্লিষ্টদের সতর্ক হতে বলেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। রোববার (১৬ জানুয়ারি) একাদশ জাতীয় সংসদের ২০২২ সালের প্রথম অধিবেশনে দেওয়া ভাষণে এ কথা বলেন তিনি।

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ বলেন, বিগত দেড় দশকে সরকারের উন্নয়ন কার্যক্রম ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় সরকারি ব্যয় বৃদ্ধি পেয়েছে। এজন্য সরকারি অর্থের অপব্যবহার রোধপূর্বক প্রকল্প সংশ্লিষ্ট সকল বিষয়ে সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে।

সময়াবদ্ধ কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করে প্রকল্প বাস্তবায়ন শতভাগ নিশ্চিত করতে হবে।

স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতামূলক সুশাসন প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানিয়ে আবদুল হামিদ বলেন, সর্বোপরি সরকারি সকল কার্যক্রমে জনগণের যথাযথ অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার মাধ্যমে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিমূলক সুশাসন প্রতিষ্ঠা করে গণতন্ত্রকে অধিক কার্যকর করতে হবে।

ষড়যন্ত্রকারীদের বিষয়ে সবাইকে সজাগ দৃষ্টি রাখার আহ্বান জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সরকারের কঠোর নীতির কারণে দেশে শান্তি ও স্থিতিশীলতা বিরাজ করছে, যা উন্নয়নের পূর্বশর্ত। বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ক্ষেত্রে বিশ্বের জন্য একটি অনন্য উদাহরণ। দেশের সকল সম্প্রদায়ের মানুষ যাতে সম্প্রীতি সহকারে স্ব-স্ব ধর্ম চর্চা করতে পারে সে বিষয়ে সরকার সচেষ্ট রয়েছে।

তিনি বলেন, মুসলিম, হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টানসহ সকল সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসবসমূহ নির্বিঘ্নে যথাযথ ভাবগাম্ভীর্য ও উৎসবমুখর পরিবেশে শান্তিপূর্ণভাবে উদ্যাপন করা হচ্ছে। তথাপি ধর্মের নামে কোনো ষড়যন্ত্রকারী গোষ্ঠী যাতে দেশের স্থিতিশীলতা বিনষ্ট করতে না পারে সে দিকে আমাদের সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে।’

সময় সাশ্রয়ের জন্য মূল ভাষণের পরিবর্তে ভাষণের সংক্ষিপ্ত অংশ সংসদে পাঠ করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। প্রায় ৪ হাজার ৭০০ শব্দের সংক্ষিপ্ত ভাষণে কয়েকটি বিষয়ে দিক-নির্দেশনার পাশাপাশি সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরেন তিনি।

রাষ্ট্রপতির ভাষণের সময় জাতীয় সংসদে উপস্থিত ছিলেন সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ সরকার ও বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা। জাতীয় সংসদ অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।


আরও খবর



কলকাতায় ‘কারফিউ’ শুরু

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৫১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতে করোনা পরিস্থিতি ক্রমশই আশঙ্কাজনক হয়ে উঠছে। এমন পরিস্থিতিতে কঠোর বিধিনিষেধ দিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। সোমবার থেকে পদে পদে বিধিনিষেধ মানতে হবে বাইরে বের হলে।

নতুন বিধিনিষেধের আওতায় আগের মতোই সোমবার থেকে কলকাতায় কারফিউ শুরু হয়ে যাবে। রাত ১০টা থেকে ভোর ৫টা পর্যন্ত কোনো নির্দিষ্ট কারণ ও অনুমতি ছাড়া রাস্তায় বেরোনো যাবে না, ট্রেন বন্ধ হয়ে যাবে সন্ধ্যা সাতটার পর।

রাজ্যের স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়সহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। সরকারি-বেসরকারি সব অফিসে অর্ধেক কর্মী উপস্থিত থাকতে পারবেন। সব ধরনের প্রশাসনিক বৈঠক ভার্চ্যুয়ালি করতে হবে।

রোববার রাজ্য সরকার এসব নির্দেশনা দিয়েছে। নির্দেশনা অনুযায়ী, কলকাতার মেট্রোরেল যত যাত্রী নিতে পারে, তার অর্ধেক নিতে পারবে। কোনো সামাজিক অনুষ্ঠানে ৫০ জনের বেশি মানুষকে আমন্ত্রণ জানানো যাবে না। সুইমিংপুল, সেলুন, বিউটি পারলার, ব্যায়ামাগার, পার্ক, চিড়িয়াখানা ইত্যাদি বন্ধ থাকবে। আগামী ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত এসব বিধিনিষেধ কার্যকর থাকবে।

করোনার সংক্রমণ কমায় কলকাতাসহ পশ্চিমবঙ্গে বিধিনিষেধ শিথিল করা হয়েছিল। গত কয়েক মাসে নানা ধরনের উৎসব চলায় মানুষের আর্থিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছিল। আবার নতুন করে বিধিনিষেধ শুরু হওয়ায় মানুষকে আবার খারাপ অবস্থার মধ্যে পড়তে হবে। সরকারের তরফ থেকে বলা হয়েছে, এ ধরনের বিধিনিষেধ কম রাখার চেষ্টা করা হবে।


আরও খবর
হাসপাতালে ভর্তি মাহাথির মোহাম্মদ

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২




চট্টগ্রামে বিলুপ্ত হওয়া ২১টি খাল পুনরুদ্ধারের ঘোষণা

প্রকাশিত:বুধবার ২৯ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৯ ডিসেম্বর ২০২১ | ৫৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) ওয়ার্ড অফিসে সরবরাহকৃত আসবাবপত্র নিম্নমানের অভিযোগ ওঠার পর তা তদন্তে তিন সদস্যের কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। গতকাল (২৮ ডিসেম্বর) অনুষ্ঠিত চসিকের বর্তমান পর্ষদের ১১তম সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়েছে। চট্টগ্রামের আন্দরকিল্লা নগর ভবনে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন সিটি মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী। তিনি নগরের বিলুপ্ত হওয়া ২১টি খাল পুনরুদ্ধারের ঘোষণা দেন।

সভায় গৃহীত অন্য সিদ্ধান্তগুলোর মধ্যে রয়েছে, নগরের বর্জ্য অপসারণ বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে পরিচালনায় নিয়োজিত প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চসিকের খসড়া চুক্তিপত্র প্রস্তুত করবে আইন শাখা। এক্ষেত্রে আইনগত দিকও খতিয়ে দেখা হবে। এছাড়া মোড়ক ও প্লাস্টিকের খালি বোতল বিষয়ে রিটার্ন পলিসি প্রস্তুত করে মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ, ঠিকাদার কর্তৃক সরবরাহকৃত মশার কীটনাশক আইইডিসিআর কর্তৃক পরীক্ষা করে ব্যবহার, সন্ধ্যার পর চসিকের সিএনজি না চালানো এবং যেসব কর্মকর্তা ও কর্মচারীকে পরিবহন কেনার জন্য ঋণ দেওয়া হয়েছে তাদের জ্বালানি সরবরাহ না করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।

সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ১৮টি ওয়ার্ড অফিসে চেয়ার, টেবিল, আলমারি, কম্পিউটার, প্রিন্টারসহ বিভিন্ন আসবাবপত্র ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সরবরাহ করছে প্রকৌশল বিভাগ। গতকাল সাধারণ সভায় সরবরাহকৃত আসবাবপত্র নিম্নমানের বলে অভিযোগ করেন ১৩ নং পাহাড়তলী ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. ওয়াসিম উদ্দিন চৌধুরী। এর প্রেক্ষিতে তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠনের সিদ্ধান্ত দেন মেয়র।

কাউন্সিলর মো. ওয়াসিম উদ্দিন চৌধুরী বলেন, দায়িত্ব গ্রহণের পরপর ওয়ার্ড অফিসের জন্য বিভিন্ন আসবাবপত্রের রিকুইজেশন দিয়েছিলাম। কয়েকদিন আগে সেগুলো ডেলিভারি দিয়েছে। সেখানে ফার্নিচার বিশেষ করে চেয়ার নিম্নমানের ছিল। মেয়র মহোদয়কে সে অভিযোগ দিয়েছি।

অভিযোগের প্রেক্ষিতে মেয়র কোনো সিদ্ধান্ত দিয়েছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি করতে বলেছেন। কমিটি যেগুলো নিম্নমানের সেগুলো ফেরত পাঠাবে। এছাড়া যেসব আসবাব সরবরাহ করার অপেক্ষায় ছিল তদন্ত কমিটির রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত সেগুলোর ডেলিভারি স্থগিত থাকবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে চসিকের প্রধান প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম বলেন, দুই ধরনের চেয়ার আছে। একটি হাতওয়ালা, আরেকটি হাত ছাড়া। পাহাড়তলী ওয়ার্ডে হাত ছাড়া দেয়া হয়েছিল। সেটা নিয়ে আপত্তি করার পর আবার হাতওয়ালা চেয়ার সরবরাহ করা হয়।

নিউজ ট্যাগ: চট্টগ্রাম

আরও খবর