আজঃ সোমবার ২৩ মে ২০২২
শিরোনাম

বাউফলে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ১৪৪ ধারা জারি

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় 'জনতা ভবন'-এ ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। শুক্রবার একই সময় একই স্থানে আওয়ামী লীগের দুগ্রুপ সংবাদ সম্মেলনের কর্মসূচি দেওয়ায় সংঘাত এড়াতে এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আল আমিন স্বাক্ষরিত এক আদেশে বলা হয়েছে শুক্রবার সকাল ৮টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত জনতা ভবনের ৫০০ বর্গ গজের মধ্যে কোনো ব্যক্তির অনুপ্রবেশ, সমাবেশ, মিছিল, সভার আয়োজন, বাদ্যযন্ত্র বাজানো, প্রচারণা ও বিস্ফোরক দ্রব্য বহন ইত্যাদি কার্যক্রমের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জাতীয় সংসদের সাবেক চিফ হুইপ আসম ফিরোজ এমপির সঙ্গে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বাউফল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবদুল মোতালেব হাওলাদারের বিরোধ চলছে। তাদের উভয় গ্রুপ একাধিকবার পাল্টাপাল্টি কর্মসূচির আয়োজন করেছে। এ নিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ফরিদ উদ্দিন বলেন, আবদুল মোতালেব হাওলাদার বিভিন্ন কর্মসূচিতে সংগঠন বিরোধী বক্তব্য দেওয়ার প্রতিবাদে জনতা ভবনে শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করবে। বৃহস্পতিবার স্থানীয় মিডিয়া কর্মীদের কাছে চিঠি পৌঁছে দেওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরই আবদুল মোতালেব হাওলাদার একই স্থানে সংবাদ সম্মেলনের ঘোষণা দেন।

আব্দুল মোতালেব হাওলাদার সাংবাদিকদের বলেন, বিভিন্নভাবে আমার ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার চেষ্টা চলছে। তাই শুক্রবার সংবাদ সম্মেলনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আল আমিন বলেন, আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি, উভয়পক্ষের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করেছি। পৃথকভাবে সংবাদ সম্মেলনের পরামর্শ দিয়েছি। কিন্তু উভয়পক্ষ তাদের সিদ্ধান্তে অটল থাকায় ১৪৪ ধারা জারি করতে বাধ্য হয়েছি। 

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আল মামুন বলেন, জনতা ভবনের আশপাশে আইনশৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রণের জন্য পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।


আরও খবর



৩৮ মা পেলেন রত্নগর্ভা অ্যাওয়ার্ড

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | ৩৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আন্তর্জাতিক মা দিবস উপলক্ষে রত্নগর্ভা ৩৮ মাকে সম্মাননা দিয়েছে আজাদ প্রোডাক্টস প্রাইভেট লিমিটেড। রোববার (৮ মে) সকালে রাজধানীর ঢাকা ক্লাবে রত্নগর্ভা মায়েদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অতিথিরা।

৩৮ জনের মধ্যে ১৩ জনকে বিশেষ ও ২৫ জনকে সাধারণ ক্যাটাগরিতে অ্যাওয়ার্ড দেওয়া হয়। বিশেষ ক্যাটাগরিতে অ্যাওয়ার্ড পাওয়া রত্নগর্ভা মা হলেন-হামিদা বেগম, মাহমুদা বেগম, জাহানারা বেগম, সফুরা খাতুন, মাহমুদা খাতুন, মাইমুনা আক্তার খাতুন, মাজেদা বেগম, আশা বড়ুয়া, খালেদা খানম, মাফিয়া বেগম, জাহানারা হোসেন, নাজিমা বেগম ও জান্নাতুল ফেরদৌসী।

সাধারণ ক্যাটাগরির ২৫ মা হলেন-আমেনা বেগম, লতিফা খানম, পুনুয়ারা বেগম, মর্জিনা সাখাওয়াত, সামসুন নাহার, আয়েশা খাতুন, রোকশনা আহম্মেদ, নাফিসা বেগম, ফারমিদা সাত্তার, সেলিমা খাতুন, রেহানা শফিক, অ্যাডভোকেট হাজেরা পারভীন, সুরাইয়া খানম, মাফিয়া আখতার, খোশনূর, পারুল বেগম, নাজমা আনিস, ফরিদা ইয়াসমিন, রওশনয়ারা বেগম, ওয়াজিফা খাতুন, সিদ্দিকা বেগম, শাতিল আবেদা, ফয়জুন্নেছা বেগম, মমতাজ খানম ও মমতাজ বেগম।

অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী। বিশেষ অতিথি ছিলেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বোর্ড অব ট্রাস্টির চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খান, সংসদ সদস্য ও কণ্ঠশিল্পী মমতাজ বেগম, মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল মোহাম্মদ মুসা, পুলিশের অতিরিক্ত ডিআইজি (অ্যান্টি টেররিজম ইউনিট) সালমা বেগম ও ঢাকা ক্লাবের সভাপতি খন্দকার মশিউজ্জামান রোমেল।

উদ্যোক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আজাদ প্রোডাক্টস প্রাইভেট লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ।


আরও খবর



সাইবেরিয়ায় অগ্নিকাণ্ডে নিহত ৫

প্রকাশিত:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | ৩৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাশিয়ার সাইবেরিয়ার দক্ষিণের ক্রাসনোয়ার্স্ক এলাকায় অগ্নিকাণ্ডে অন্তত পাঁচজন নিহত হয়েছেন। বেশ কয়েক জায়গায় ছড়িয়ে পড়া আগুনে প্রায় দুইশ বসতি পুড়ে গেছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

আঞ্চলিক মন্ত্রণালয় শনিবার জানায়, আগুনে প্রায় দুইশ বাড়িঘর পুড়ে গেছে। আশেপাশে অবস্থিত শিশুদের খেলার মাঠও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

খবর পেয়ে প্রায় তিনশ অগ্নিনির্বাপনকর্মী ঘটনাস্থলে পৌঁছান। তবে প্রতিকূল আবহাওয়ার কারলে আগুণ নিয়ন্ত্রণে আনতে বেগ পেতে হয়। আগুনে পাঁচজনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছে কর্তৃপক্ষ।

উল্লেখ্য, গত কয়েক বছরে ধরেই সাইবেরিয়াতে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার খবর পাওয়া যাচ্ছে। এমন অগ্নিকাণ্ডের কারণে বায়ুমণ্ডলে প্রচুর পরিমাণে কার্বন নিঃসরণও বাড়ছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের বার্ষিক জলবায়ু প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত বছর অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় প্রায় এক কোটি ৬০ লাখ টন কার্বন নিঃসরণ হয়েছিল।


আরও খবর



বাংলাদেশ থেকে ফেরি কিনতে চায় ইরান

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | ৪৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কাতারে ফুটবল বিশ্বকাপকে সামনে রেখে বাংলাদেশ থেকে ৬টি ফেরি কেনার আগ্রহ প্রকাশ করেছে ইরানের টিটি তেজারত গোস্টারেস কিস নামের একটি কোম্পানি। তেহরানে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসের কাছে এসব রো-রো ফেরি কেনার প্রস্তাব করেছে কোম্পানিটির মূল প্রতিষ্ঠান কিস মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন। একইসঙ্গে একটি যাত্রীবাহী জাহাজ ভাড়া নিতে চায় কোম্পানিটি।

ইরান ও কাতার পারস্য উপসাগরের দুই পাড়ে অবস্থিত দুটি দেশ। পারস্য উপসাগরের আড়াআড়ি দৈর্ঘ্য ২০০ থেকে ২৫০ কিলোমিটার। কিস হচ্ছে পারস্য উপসাগরে ইরানের একটি দ্বীপ, যা দেশের মূল ভূখণ্ড থেকে বিচ্ছিন্ন। আগামী ২১ নভেম্বর কাতারে শুরু হবে ফুটবলের ২২তম বিশ্ব আসর। চলবে ১৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এ সময়ে কাতারে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে লাখ লাখ পর্যটক আসবেন। এ পর্যটকদের একটি অংশ কাতারের পাশাপাশি পারস্য উপসাগরের বিভিন্ন দ্বীপে ভ্রমণ করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। পর্যটনের এ সম্ভাবনা এবং ইরানের নাগরিকদের সমুদ্রপথে ফুটবল বিশ্বকাপ দেখতে কাতারে যাওয়ার সময় নৌপথে যে বাড়তি চাহিদা সৃষ্টি হবে সে বিবেচনায় এসব রো-রো ফেরি কেনা ও যাত্রীবাহী জাহাজ ভাড়া নেওয়ার কথা ভাবছে কোম্পানিটি।

সম্প্রতি তেহরান দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সিলর ড. জুলিয়া মঈন চিঠি দিয়ে দেশের ব্যবসায়ীদের সংগঠন চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, অ্যাসোসিয়েশন অব এক্সপোর্ট ওরিয়েন্টেড শিপবিল্ডিং ইন্ডাস্ট্রিজ অব বাংলাদেশ এবং জাহাজ রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের কাছে ৬টি ফেরি ও যাত্রীবাহী জাহাজ সরবরাহ করার বিষয়ে জানতে চেয়েছেন। তিনি চিঠিতে লিখেছেন, রো রো ফেরিগুলো কমপক্ষে ২০০ ব্যক্তি ও ৬০টি গাড়ি ধারণক্ষমতা সম্পন্ন হতে হবে। যে জাহাজটি ভাড়া করা হবে তার ধারণক্ষমতা হবে ৩০০ থেকে ৫০০ জন। এই জাহাজটি ফুটবল বিশ্বকাপ সময়ের জন্য ভাড়া নেবে ইরানের কোম্পানিটি। জাহাজের নাবিকসহ অন্যান্য স্টাফ তারা নিজস্ব উপায়ে ব্যবস্থা করবে।

এ বিষয়ে ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম বলেন, ইরানি কোম্পানি তেহরান দূতাবাসের মাধ্যমে যোগাযোগ করেছে। কোম্পানিটি বাংলাদেশ থেকে ফেরির কারিগরি দিক ও দাম বিষয়ে ধারণা নিতে চেয়েছে। সে ধারণা দেওয়া হয়েছে। এখন কোম্পানিটি আগ্রহী হলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে। তিনি বলেন, এর আগেও বাংলাদেশ থেকে ডেনমার্ক ও পাকিস্তানে ফেরি সরবরাহ করা হয়েছে। সেখানে ভালোভাবেই চলছে ফেরিগুলো। নিউজিল্যান্ড ও ডেনমার্কে যাত্রীবাহী জাহাজ সরবরাহের অভিজ্ঞতা রয়েছে বাংলাদেশের শিপবিল্ডারদের। এছাড়া ভারতে বাল্ক্ক ক্যারিয়ার, জার্মানিতে মাল্টিপারপাস জাহাজ রপ্তানি করা হয়েছে। ফলে ইরানি কোম্পানির চাহিদা অনুযায়ী ফেরি সরবরাহ করা কঠিন নয়।

বাংলাদেশ ইতোমধ্যে জাহাজ রপ্তানিতে সুনাম অর্জন করেছে। দেশে গড়ে উঠেছে সমুদ্রগামী জাহাজ নির্মাণের কিছু প্রতিষ্ঠান। যদিও গত দুই বছর ধরে আন্তর্জাতিক বাজার থেকে বিশেষ অর্ডার আসেনি। তবে সংশ্নিষ্টরা আশা করছেন, করোনাপরবর্তী বাড়তি চাহিদার ফলে পণ্য পরিবহন জোরদার হবে। ফলে বাংলাদেশে সমুদ্রগামী জাহাজের নতুন অর্ডার আসবে।

জাতিসংঘের বাণিজ্য ও উন্নয়ন সংস্থার সর্বশেষ প্রতিবেদন অনুযায়ী, জাহাজ নির্মাণশিল্পে বাংলাদেশ ৫ বছরে ১৩ ধাপ এগিয়ে বর্তমানে বিশ্বে ১৪ নম্বরে অবস্থান করছে। বৈশ্বিক ক্ষেত্রে বাংলাদেশের এ সাফল্যের পেছনে কাজ করেছে দেশের কয়েকটি বড় শিল্প গ্রুপের জাহাজ নির্মাণশিল্পে বিনিয়োগ। কয়েকটি গ্রুপের যৌথ বিনিয়োগে জাহাজ নির্মাণশিল্পে গড়ে উঠেছে ডেলটা শিপইয়ার্ড। এ শিপইয়ার্ড থেকে বড় বড় মালবাহী জাহাজ তৈরি করা হচ্ছে। জাহাজের ধারণক্ষমতা তিন থেকে পাঁচ হাজার টন।


আরও খবর



নিউমার্কেটে সংঘর্ষ: বিএনপির ১৪ নেতাকর্মীর আগাম জামিন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | ৩৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থী ও নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় বিএনপির ১৪ নেতাকর্মীকে ছয় সপ্তাহের আগাম জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) হাইকোর্টের বিচারপতি মো. মোস্তফা জামান ও বিচারপতি মো. সেলিম এর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন। আদালতে আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার কায়সার কামাল।

১৪ নেতাকর্মী হলেন, আমীর হোসেন আলমগীর, মিজান, হাসান জাহাঙ্গীর মিঠু, হারুন হাওলাদার, শাহ আলম সন্টু, শহীদুল ইসলাম শহীদ, জাপানি ফারুক, মিজান ব্যাপারী, আসিফ, রহমত, বিল্লাল, মনির, জুলহাস ও বাবুল।

এ মামলায় গত ২৩ এপ্রিল বিএনপি নেতা অ্যাডভোকেট মকবুল হোসেনের তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশীদ।

এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নিউমার্কেট থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন) হালদার অর্পিত ঠাকুর আসামিকে আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করেন। আবেদনে বলা হয়, গত ১৯ এপ্রিল রাত পৌনে একটা থেকে রাত ২টা ৩৫ মিনিট পর্যন্ত অজ্ঞাতনামা ৬০০/৭০০ জন ঢাকা কলেজের ছাত্র এবং নিউমার্কেটের ব্যবসায়ীসহ অজ্ঞাতনামা ২০০/৩০০ জন ব্যবসায়ী ও কর্মচারী নিউমার্কেট থানাধীন চন্দ্রিমা মার্কেটের সামনে পুলিশের সরকারি কাজে বাধা দেয়। পুলিশের ওপর আক্রমণ, ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে জখম, ভাঙচুর করার অপরাধ করেছে।

মামলার সুষ্ঠু তদন্ত, মূল রহস্য উদঘাটন, এজাহারনামীয় আসামিসহ অজ্ঞাতনামা আসামিদের নাম-ঠিকানা সংগ্রহ পূর্বক গ্রেফতারের লক্ষ্যে আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ড মঞ্জুরের প্রার্থনা করেন তদন্ত কর্মকর্তা।

এর আগে ২২ এপ্রিল শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর ধানমন্ডির বাসা থেকে মকবুল হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়।

গত ১৮ এপ্রিল দিনগত রাত ১২টার দিকে ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী ও কর্মচারীদের সংঘর্ষ হয়। প্রায় আড়াই ঘণ্টা চলে এ সংঘর্ষ। এরপর রাতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলেও ১৯ এপ্রিল সকাল ১০টার পর থেকে ফের দফায় দফায় শুরু হয় সংঘর্ষ, যা চলে সন্ধ্যা পর্যন্ত।

এ ঘটনায় উভয়পক্ষের অর্ধশতাধিক আহত হন। সংঘর্ষে এখন পর্যন্ত দুজন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। তাদের একজন ডেলিভারিম্যান, অন্যজন দোকান কর্মচারী।

ডেলিভারিম্যান নাহিদের নিহতের ঘটনায় বাবা মো. নাদিম হোসেন বাদী হয়ে নিউমার্কেট থানায় একটি হত্যা মামলা করেছেন। মুরসালিনের ভাই বাদী হয়ে আরও একটি হত্যা মামলা করেছেন।

এদিকে এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে দুটি মামলা করে। একটি মামলা বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে এবং অন্যটি পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে। দুই মামলাতে নিউ মার্কেটের ব্যবসায়ী, কর্মচারী ও ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীসহ মোট ১২০০ জনকে আসামি করা হয়েছে।


আরও খবর



১১০ টাকায় তেল বিক্রির ঘোষণা দিয়েও তা স্থগিত করলো টিসিবি

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৩৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টিসিবির স্বল্পমূল্যে পণ্য বিক্রির কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে। এই কার্যক্রম আজ সোমবার (১৬ মে) থেকে শুরু হওয়ার কথা ছিল। এর ফলে ১১০ টাকা দরে ২ লিটার সয়াবিন তেল বিক্রিও স্থগিত হলো। তবে আগামী জুন থেকে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে এ কার্যক্রম চালু হবে বলে জানিয়েছে টিসিবি। রোববার (১৫ মে) রাতে এক বি‌শেষ বিজ্ঞ‌প্তির মাধ্যমে ন্যায্যমূল্যে পণ্য বিক্রির এ কার্যক্রম স্থ‌গিত ক‌রা হ‌য়ে‌ছে জানায় সংস্থাটি।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিক্রয় কার্যক্রম সুশৃঙ্খলভাবে পরিচালনা এবং প্রকৃত সুবিধাভোগীর কাছে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য সাশ্রয়ী মূল্যে পৌঁছানোর লক্ষ্যে সরকার নীতিগতভাবে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে টিসিবির পণ্য (ভোজ্যতেল, মসুর ডাল, চিনি) বিক্রয়ের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। ঢাকা (উত্তর ও দক্ষিণ) ও বরিশাল সিটি করপোরেশনে ফ্যামিলি কার্ড প্রণয়ন ও বিতরণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ফ্যামিলি কার্ড বিতরণ কার্যক্রম সম্পন্ন হওয়ার পর শুধুমাত্র ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমেই টিসিবির পণ্য সামগ্রীর বিক্রয় কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে। তাই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের জন্য চলতি মাসের ১৬ মে থেকে ৩০ মে পর্যন্ত স্বল্প পরিসরে সাধারণ ট্রাকসেল কার্যক্রম স্থগিত করা হল।

আগামী জুন মাসে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে এক কোটি নিম্ন আয়ের পরিবারের নিকট টিসিবি কর্তৃক ভর্তুকি মূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য (ভোজ্য তেল, মশুর ডাল, চিনি) বিক্রয় করা হবে।

এর আগে গত ১১ মে টিসিবি জানিয়েছিল বাজারে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্য সহনীয় রাখতে সারা দেশে সব মহানগরী জেলা ও উপজেলায় ২৫০-৩০০টি খোলা ট্রাকের মাধ্যমে আগামী ১৬ মে থেকে ৩০ মে পর্যন্ত বিক্রি কার্যক্রম চলবে। ট্রাক থেকে একজন ক্রেতা ৫৫ টাকা কেজি দরে সর্বোচ্চ দুই কেজি চিনি, ৬৫ টাকা কেজি দরে সর্বোচ্চ দুই কেজি মসুর ডাল, ১১০ টাকা দরে ২ লিটার সয়াবিন তেল কিনতে পারবেন। কিন্তু হঠাৎ করেই এ সিদ্ধান্ত স্থগিত করল টিসিবি।


আরও খবর