আজঃ মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

বগুড়ায় শক্তিশালী ৭ বিস্ফোরক উদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৯ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ নভেম্বর ২০২১ | ৩৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বগুড়া সদর উপজেলার গোকুল ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তরপাড়া এলাকায় একটি বাড়ির পরিত্যক্ত ইটের স্তূপে প্লাস্টিকের ব্যাগে ককটেলসদৃশ সাতটি শক্তিশালী বিস্ফোরক পাওয়া গেছে।

সদর থানা পুলিশ বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে ককটেলগুলো জব্দ করলেও শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত সেখানে রাখা হয়েছে।

সদর থানার ওসি সেলিম রেজা জানান, আগামী ২৮ নভেম্বর এ ইউনিয়নে নির্বাচন। তার ধারণা, কোনো প্রার্থী বা তার লোকজন নাশকতা সৃষ্টির জন্য শক্তিশালী বিস্ফোরকগুলো মজুদ করেছিল। এসব উদ্ধারের জন্য ঢাকায় বোম ডিসপোজাল ইউনিটকে খবর দেওয়া হয়েছে।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে বগুড়া সদরের গোকুল ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তরপাড়া গ্রামে আবদুল জলিল নামে এক ব্যক্তির বাড়ির কাছ পরিত্যক্ত ইটের স্তূপের কাছে একটি প্লাস্টিকের সাদা ব্যাগ পড়ে থাকতে দেখা যায়।

ব্যাগের ভেতরে সাতটি ককটেলের মতো লাল টেপ দিয়ে মোড়ানো কৌটা রয়েছে। খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ রাত ১২টা থেকে স্থানটি ঘিরে রাখে।

বাড়ির মালিক আবদুল জলিল জানান, তারা এসবের ব্যাপারে কিছুই জানেন না। পুলিশ আসার পর তারা টের পেয়েছেন।

সেখানে থাকা এসআই জাকির আল আহসান জানান, ব্যাগে ৬-৭টি ককটেল রয়েছে।

সদর থানার ওসি সেলিম রেজা জানান, আগামী ২৮ নভেম্বর গোকুল ইউনিয়নের নির্বাচন। ওই নির্বাচনে কেন্দ্রে নাশকতা সৃষ্টির জন্য কোনো প্রার্থী বা তাদের লোকজন এসব মজুদ করেছেন। তার ধারণা, এসব শক্তিশালী বিস্ফোরক। উদ্ধার বা নিষ্ক্রিয় করার জন্য ঢাকায় বোম ডিসপোজাল ইউনিটকে খবর দেওয়া হয়েছে। তারা এসে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

নিউজ ট্যাগ: বিস্ফোরক উদ্ধার

আরও খবর



অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে রিজওয়ান-মালিকের খেলা নিয়ে শঙ্কা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১১ নভেম্বর ২০২১ | ৩৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছেন পাকিস্তানি ব্যাটার মোহাম্মদ রিজওয়ান ও শোয়েব মালিক। তাদের ওপর ভর করেই দল গ্রুপ পর্বের প্রতিটি ম্যাচেই জয় পেয়েছে। কিন্তু পাকিস্তানের মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে তাদের না পাওয়ার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। তারা উভয়েই মাঝারি মাত্রায় ফ্লুতে আক্রান্ত।

মালিক ও রিজওয়ানের বদলে খেলতে পারেন সরফরাজ আহমেদ ও হায়দার আলী।

পাকিস্তান ক্রিকেট দলের মিডিয়া ব্যবস্থাপক ইব্রাহিম বাদিস বলেন, শোয়েব মালিক ও মোহাম্মদ রিজওয়ানের কোভিড টেস্ট করা হয়েছে। তাদের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। কিন্তু চিকিৎসক তাদের বিশ্রাম নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।

সেমিফাইনাল ম্যাচের আগে এ দুই খেলোয়াড় মেডিকেল চেকআপ করতে যাবেন বলে জানা গেছে।

এদিকে মালিক ও রিজওয়ান বুধবার অনুশীলনে ছিলেন না। দুবাইয়ে রাত ৮টায় অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে মাঠে নামবে পাকিস্তান। এখন পর্যন্ত পাকিস্তান কোনো ম্যাচ হারেনি।

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গেও পাকিস্তানের পূর্বের ইতিহাস বেশ সমৃদ্ধ। এখন পর্যন্ত সংক্ষিপ্ত এ সংস্করণে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে পাকিস্তান জিতেছে ১৩ ম্যাচ, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়া জিতেছে ৯টি। একটি ম্যাচের কোনো ফল হয়নি।


আরও খবর
হারের শঙ্কায় টাইগাররা

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




আশা জাগিয়েও হেরে গেল টাইগাররা

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৯ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৯ নভেম্বর ২০২১ | ৩৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে হেরে গেল বাংলাদেশ। ব্যাটারদের ব্যর্থতার দিনে অল্প পুঁজি গড়লেও বোলারদের নৈপুণ্যতায় আশা দেখেছিল টাইগাররা। কিন্তু শেষ মুহূর্তে মুস্তাফিজুর রহমান ও শরিফুল ইসলামের খরুচে বোলিংয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় স্বাগতিকরা। টাইগারদের আরও একবার হতাশ করে দারুণ জয়ে সিরিজ শুরু করল পাকিস্তান। তাতেই তিন ম্যাচের সিরিজ ১-০ তে এগিয়ে গেল বাবর আজমরা।

আজ শুক্রবার মিরপুর শের-ই বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে চার উইকেটে জিতেছে পাকিস্তান। বাংলাদেশের দেওয়া ১২৮ রানের লক্ষ্য চার বল হাতে রেখেই পেরিয়ে যায় সফরকারীরা। ব্যাট হাতে ১০ বলে ২১ রানে অপরাজিত ছিলেন শাদাব খান ও ৮ বলে ১৮ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন মোহাম্মদ নওয়াজ।

লক্ষ্য তাড়ায় শুরুতে ব্যাট করতে আসেন বিশ্বের অন্যতম সেরা দুই ওপেনার বাবর আজম ও মোহাম্মদ রিজওয়ান। তাদের এই জুটিতে বেশিদূর যেতে দেয়নি টাইগার পেসাররা। দলীয় ১৬ রানে রিজওয়ান ও ২২ রানে ফেরেন বাবর আজম। ১১ বলে ১১ রান করা রিজওয়ানকে নিজের শিকার বানান মুস্তাফিজুর রহমান। আর ১০ বলে আট রান করা বাবরকে বোল্ড করে ফেরান তাসকিন আহমেদ।

তিনে আসা হায়দার আলী কিংবা চারে আসা শোয়েব মালিক কেউই দলের প্রয়োজন মেটাতে পারেনি। দুইজনের ফেরেন শূন্যরানে। তিন বলে কোনো রান না করা হায়দারকে লেগ বিফোরে ফেরান মেহেদী। আর মালিককে দারুণ রান আউটে ফেরান সোহান।

পঞ্চম উইকেটের জুটিতে প্রতিরোধ গড়েন ফখর জামান ও খুশদিল শাহ। দুই জনের জুটিতে পথ ফিরে পায় পাকিস্তান। এই জুটির বিপরীতে বেশ কয়েকজন বোলারকে ব্যবহার করেও ফল পাচ্ছিলেন না মাহমুদউল্লাহ। ১৫তম ওভারে বল হাতে এসে দ্বিতীয় বলেই ৫৬ রানের এই জুটি ভাঙেন তাসকিন। ৩৬ বলে চার বাউন্ডারিতে ৩৪ রান করা ফখরকে কট বিহাইন্ডে ফেরান তিনি।

শেষ চার ওভারে ৩৮ রান প্রয়োজন ছিল সফরকারীদের। ক্রিজে ছিলেন সেট ব্যাটসম্যান খুশদিল ও নতুন ব্যাটসম্যান শাদাব খান। ১৭তম ওভারে বল করতে এসেই থিতু হয়ে বসা খুশদিলকে সাজঘরে ফেরান শরিফুল ইসলাম। কিছুটা ওয়াইড লেন্সের বল খুশদিলের ব্যাটে লেগে সোহানের গ্লাভসে জমা পড়ে। তাতেই ৩৫ বলে তিন চার ও এক ছক্কায় ৩৪ করে ফেরেন বাঁ হাতি এই ব্যাটার।

১৮তম ওভারে বল করতে এসে বাংলাদেশকে ম্যাচ থেকে ছিটকে দিয়েছেন মুস্তাফিজুর রহমান। প্রথম দুই ওভারে তিন রান দেওয়া এই বোলার পরের দুই ওভারে দেন ২৩ রান। তার মধ্যে শেষ ওভারেই দেন ১৫ রান। তাতেই ম্যাচ পাকিস্তানের দিকে হেলে যায়। শেষ দুই ওভারে ১৬ রান প্রয়োজন ছিল পাকিস্তানের।

শরিফুলের ওভার থেকেও ১৫ রান আদায় করে নেয় পাকিস্তান। আর শেষ ওভারে প্রথম বল করতে আসা আমিনুল ইসলাম বিপ্লবকে দ্বিতীয় বলে ছয় হাঁকিয়ে জয় নিশ্চিত করে সফরকারীরা। ক্রিজে থাকা শাদাব ও মোহাম্মন নওয়াজের ১৫ বলের ৩৬ রানের জুটিতে জয় নিশ্চিত করে পাকিস্তান।

এর আগে টসে জিতে ব্যাট করতে এসে শুরুটা ভালো হয়নি বাংলাদেশের। দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই সাজঘরে ফেরেন ওপেনার নাঈম শেখ। তিন বলে মাত্র এক রান করেন তিনি। কিছু সময় ক্রিজে থাকলেও বেশ অস্বস্তিতে ভুগছিলেন অভিষিক্ত সাইফ হাসান। যতক্ষণ ক্রিজে ছিলেন ততক্ষণ ব্যাটে বলে ঠিকমতো করতে পারেননি। ফিরে যান আট বলে মাত্র এক রান করে। পাকিস্তানের বিপক্ষে অভিষেকটা রাঙাতে পারেননি তিনি।

দলীয় ১৫ রানের মাথায় সাজঘরে ফেরেন নাজমুল হোসেন শান্ত। দলের বিপর্যয়ে সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেননি তিনি। ১৪ বলে মাত্র সাত রান করে মোহাম্মদ ওয়াসিমের কট অ্যান্ড বোল্ড হন তিনি। চতুর্থ উইকেটের জুটিতে আফিফ হোসেনকে নিয়ে ২৫ রানের জুটি গড়ে বোল্ড হয়ে ফেরেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ১১ বলে মাত্র ৬ রান করে মোহাম্মদ নওয়াজের শিকার হন তিনি।

প্রথম দশ ওভারে চার উইকেট হারিয়ে মাত্র ৪০ রান তোলার পর প্রতিরোধ গড়েন আফিফ। ১১তম ওভারে নাওয়াজের কাছ থেকে দুটি ছক্কায় ১৫ রান আদায় করেন তিনি। এরপর রানের চাকা কিছু সচল থাকলেও খানিক পরই সাজঘরে ফেরেন আফিফ। ১৩তম ওভারের পঞ্চম বলে রিজওয়ানের স্ট্যাম্পিংয়ের শিকার হন তিনি। ৩৪ বলে দুটি করে চার ও ছক্কায় ৩৬ রান করেন তিনি।

ষষ্ঠ উইকেটের জুটিতে ২২ বলে ৩৪ রানের জুটি গড়েন নুরুল হাসান সোহান ও শেখ মেহেদী। এই যুগলের ঝড়ো রানের জুটি ভাঙেন হাসান আলী। ২২ বলে দুটি ছক্কায় ২৮ করে সাজঘরে কট বিহাইন্ডের শিকার হন সোহান। শেষের দিকে শেখ মেহেদীর ২০ বলে ৩০ রানের ইনিংসে ১২৭ রানের পুঁজি পেয়েছিল বাংলাদেশ।


আরও খবর
হারের শঙ্কায় টাইগাররা

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




টিকিট ক্রয়ের জন্য উপচেপড়া ভিড়

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | ৩৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ-পাকিস্তান সিরিজ দিয়ে দীর্ঘসময় পর স্টেডিয়ামে প্রবেশের সুযোগ পাচ্ছেন ক্রীড়াপ্রেমীরা। আজ বৃহস্পতিবার থেকে টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে। ভোর থেকেই টিকিট ক্রয়ের জন্য লাইনে অপেক্ষা শুরু করেন দর্শকরা। নারীদের লাইনের চেয়ে পুরুষদের জন্য নির্ধারিত লাইনে ভিড় বেশি দেখা গেছে।

শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে চলছে প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচের টিকিট বিক্রির কার্যক্রম। সকাল ৯টায় শুরু হয়েছে টিকিট বিক্রির কার্যক্রম। টিকিট থাকা সাপেক্ষে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত খোলা থাকবে টিকিট বুথ। শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে বিক্রয়ের পর যদি ম্যাচের দিন টিকিট পর্যাপ্ত থাকে, তাহলে স্টেডিয়াম সংলগ্ন বুথে (এক নম্বর গেট সংলগ্ন) বিক্রি করা হবে।

স্টেডিয়ামে ধারণ ক্ষমতার ৫০ শতাংশের বেশি টিকিট দেওয়া হবে না। সঙ্গে শর্ত হলো করোনাভাইরাসের ডাবল ডোজ টিকা নিয়েছেন কেবল তারাই খেলা দেখার সুযোগ পাবেন।

টিকিট পাওয়া যাচ্ছে মোট ৫ ক্যাটাগরিতে। যেখানে সর্বোচ্চ টিকিট মূল্য ধরা হয়েছে ১০০০ টাকা, সর্বনিম্ন ১০০ টাকা। গ্র্যান্ড স্ট্যান্ড ১০০০, ভিআইপি স্ট্যান্ড ৫০০, ক্লাব হাউজ ৩০০, সাউদার্ন-নর্দার্ন স্ট্যান্ড ১৫০ ও ইস্টার্ন স্ট্যান্ড গ্যালারির টিকিট মিলবে ১০০ টাকায়।

 


আরও খবর
হারের শঙ্কায় টাইগাররা

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের সুপারিশ জাতিসংঘের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশের উত্তোরণের সুপারিশ গৃহীত হয়েছে। একমাত্র দেশ হিসেবে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের ৩টি মানদণ্ডই পূরণ করেছে বাংলাদেশ। 

বাংলাদেশ সময় বুধবার (২৪ নভেম্বর) রাতে এক টুইটা বার্তায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাবাব ফাতিমা। রেজুলেশনটি গ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশ এলডিসি ক্যাটাগরি থেকে পরবর্তী ধাপে উত্তরণের সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করলো।

এটি বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় একটি যুগান্তকারী অর্জন যা এমন এক সময়ে অর্জিত হলো যখন বাংলাদেশ মহান স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী এবং জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করছে।

টুইট বার্তায় এ বিষয়ে রাবাব ফাতিমা লিখেন, জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের ঐতিহাসিন সুপারিশ গৃহীত হয়েছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী (৫০ বছর) ও বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উদযাপনের ক্ষেত্রে এর চেয়ে দারুণ উপলক্ষ আর কি হতে পারে! জাতির বহুদিনের আশা-আকাঙ্খা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রূপকল্প-২০২১ অবশেষে পূর্ণতা পেলো। জয় বাংলা।

এর আগে চলতি বছরে ২২-২৬ ফেব্রুয়ারি নিউইয়র্কে জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসির (সিডিপি) বৈঠকে বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য চূড়ান্ত সুপারিশ করা হয়েছিল। এর ৯ মাসের মাথায় সেটি জাতিসংঘে গৃহীত হলো। সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২৬ সালে বাংলাদেশ আর স্বল্পোন্নত দেশের তালিকায় থাকবে না। উন্নয়নশীল দেশের তালিকাভূক্ত হবে।

যদিও এটি ২০২৪ সালে লাভ করার কথা ছিল। কিন্তু মহামারি করোনাভাইরাসের প্রভাব মোকাবিলায় বাংলাদেশ দুই বছর সময় চেয়ে নিয়েছিল।

একমাত্র দেশ হিসেবে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের যে ৩টি মানদণ্ডই বাংলাদেশ পূরণ করেছে সেগুলো হলোমাথাপিছু আয়, মানবসম্পদ এবং অর্থনৈতিক ও পরিবেশগত ভঙ্গুরতা। মূলত এ তিনটি সূচকের ভিত্তিতেই জাতিসংঘ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের বিষয়টি পর্যালোচনা করে থাকে।

জাতিসংঘের পর্যালোচনা অনুযায়ী ২০১৯ সালে মাথাপিছু আয়ের মানদণ্ড নির্ধারিত ছিল ১ হাজার ২২২ মার্কিন ডলার। কিন্তু সে সময় বাংলাদেশের মাথাপিছু আয় ছিল ১ হাজার ৮২৭ ডলার। আর বর্তমানে (নভেম্বর-২০২১) সেটা ২ হাজার ৫৫৪ ডলার।

মানবসম্পদ সূচকে জাতিসংঘের নির্ধারিত মানদণ্ড ছিল সর্বনিম্ন ৬৬। আর তখন বাংলাদেশের ছিল ৭৫.৪। অর্থনৈতিক ও পরিবেশগত ভঙ্গুরতা সূচকের মানদণ্ড নির্ধারিত ছিল ৩২ কিংবা তার কম। সে সময় বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ২৭ এ।

উল্লেখ্য, ১৯৭৫ সাল থেকে স্বল্পোন্নত দেশের কাতারে থাকা বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে ২০১৮ সালে জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসির (সিডিপি) সবগুলো শর্ত পূরণ করে।

নিউজ ট্যাগ: জাতিসংঘ

আরও খবর



বিকালে বাসায় ফিরছেন খালেদা জিয়া

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | ৫৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

তিন সপ্তাহেরও বেশি সময় হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে বাসায় ফিরছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। রোববার বিকাল ৩টার পর তিনি রাজধানীর গুলশানের ভাড়া বাসা ফিরোজার উদ্দেশে হাসপাতাল ত্যাগ করবেন।

রোববার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে টেলিফোনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান। ১২ অক্টোবর খালেদা জিয়াকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর পর ২৫ অক্টোবর তার অস্ত্রোপচার করা হয়। 

ওই দিন গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক জাহিদ হোসেন জানিয়েছিলেন, খালেদা জিয়ার একটি মাইনর অপারেশন করা হয়েছে। এখন তিনি আইসিইউতে আছেন। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক অধ্যাপক শাহাবুদ্দিন তালুকদারের নেতৃত্বে মেডিকেল বোর্ডের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা নেন সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর এভারকেয়ার হাসপাতালে ৫৩ দিন চিকিৎসা শেষে ১৯ জুন বাসায় ফেরেন খালেদা জিয়া। এর পর থেকে গুলশানের ভাড়া বাসা ফিরোজায় ছিলেন তিনি। 

খালেদা জিয়া বহু বছর ধরে আথ্রাইটিস, ডায়াবেটিস, দাঁত ও চোখের সমস্যাসহ নানা জটিলতায় ভুগছেন। এপ্রিলে তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। নানা শারীরিক জটিলতায় ২৭ এপ্রিল খালেদা জিয়াকে এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। একপর্যায়ে তাকে সিসিইউতে নেওয়া হয়। প্রায় দুই মাস তিনি সিসিইউতে ছিলেন। ১৯ জুন বাসায় ফেরেন। এর মধ্যে করোনার টিকা নেওয়ার জন্য খালেদা জিয়া দুই দফায় মহাখালীর শেখ রাসেল ন্যাশনাল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট অ্যান্ড হাসপাতালে যান। ১৯ জুলাই করোনার প্রথম ডোজ টিকা নেওয়ার পর ১৮ আগস্ট দ্বিতীয় ডোজ টিকা নেন তিনি।

দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত হয়ে খালেদা জিয়া ২০০৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি কারাগারে যান। করোনা মহামারির প্রেক্ষাপটে গত বছরের ২৫ মার্চ সরকার শর্ত সাপেক্ষে তাকে সাময়িক মুক্তি দেয়। এ পর্যন্ত তিন দফায় খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ বাড়ানো হয়। তবে বিএনপির নেতারা খালেদা জিয়ার শর্তসাপেক্ষে এ মুক্তিকে গৃহবন্দি বলছেন। উন্নত চিকিৎসার জন্য পরিবারের পক্ষ থেকে বারবার আবেদন করা হলেও সরকার তা নাকচ করে দেয়। তাকে দেশে থেকেই চিকিৎসা নিতে হবে বলে শর্তও দেওয়া হয়।


আরও খবর