আজঃ সোমবার ২৩ মে ২০২২
শিরোনাম

বগুড়ায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে প্রভাষক গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | ৬৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বগুড়ার ধুনটে দশম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে মুরাদুজ্জামান মুকুল নামে এক প্রভাষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়ার পর বৃহস্পতিবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি গত কয়েক মাস যাবৎ ঐ ছাত্রীকে বিভিন্ন সময় ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে আসছিলেন।

গ্রেপ্তারকৃত মুকুলের বাড়ি উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের শৈলমারী গ্রামে। মুকুল ধুনটের জালশুকা হাবিবুর রহমান কলেজের ইসলামের ইতিহাস বিভাগের প্রভাষক। 

মামলা সূত্রে জানা গেছে, গ্রেপ্তার মুকুল ধুনট পৌর এলাকার দক্ষিণ অফিসারপাড়া এলাকার একটি বাসার নিচতলায় ভাড়া থাকতেন। ঐ বাড়ির মালিকের দুই বছর বয়সী ছেলে খেলাধুলা করতে প্রায়ই মুরাদুজ্জামানের ফ্ল্যাটে যাওয়া-আসা করতো। সেই সুবাদে বাড়ির মালিকের বড় মেয়ে দশম শ্রেণির ছাত্রীও সেখানে যেত।

এদিকে মুকুলের স্ত্রীও স্কুলের শিক্ষিকা হওয়ায় তিনি বাড়িতে থাকতেন না। এই সুযোগে মুকুল কয়েক মাস আগে মেয়েটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। সে সময় ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ধারণ করে রাখেন। এরপর ওই ভিডিওটি ফেসবুকে ভাইরাল করে দেওয়ার হুমকি দিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেন মুকুল।

সর্বশেষ বৃহস্পতিবারও মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টা সে চিৎকার দিলে তার খালা সেখানে উপস্থিত হলে মুকুল কৌশলে পালিয়ে যান। এরপর মেয়েটি তার পরিবারের কাছে সম্পূর্ণ ঘটনা খুলে বললে তার মা বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রাতে ধুনট থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে মামলার আসামিকে আটক করা হয়। এরপর অভিযোগটি মামলা হিসেবে নথিভূক্ত করে তাকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে। আগামীকাল তাকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হবে।


আরও খবর



মৌলভীবাজারে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | ৩৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মৌলভীবাজার বড়লেখায় শ্যামলী পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস চাপায় ফখরুল ইসলাম (২৮) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (৯ মে) রাত ৮ টায় কুলাউড়া-চান্দগ্রাম আঞ্চলিক মহাসড়কের বড়লেখার কাঠালতলী ব্র্যাক অফিসের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করেছে। এদিকে চালকসহ যাত্রীবাহী বাসকে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত ফখরুল উপজেলার উত্তর গাংকুল গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায় ফখরুল ইসলাম বড়লেখা থেকে মোটরসাইকেলে করে রতুলি বাজারে ফিরছিলেন। কাঠালতলী ব্র্যাক অফিসের সামনের রাস্তায় আসা মাত্র বিপরীত দিক ঢাকা থেকে বিয়ানীবাজারগামী শ্যামলী পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস তাকে চাপা দিয়ে দ্রুত পালিয়ে যায়। ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা গুরুতর অবস্থায় আহত ফখরুলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার জানান, শ্যামলী পরিবহনের বাস ও চালককে আটক করা হয়েছে।


আরও খবর



ক্ষমতা কমলো পরিকল্পনামন্ত্রীর

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | ৩৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রকল্প অনুমোদনের ক্ষেত্রে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানের ক্ষমতা কমিয়ে পরিকল্পনা কমিশনের নতুন পরিপত্রের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলার (১৭ মে) অনুষ্ঠিত জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সভায় এ অনুমোদন দেন প্রধানমন্ত্রী ও এনইসি চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা।

সভা শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান পরিকল্পনা সচিব প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী।

তিনি বলেন, পরিকল্পনামন্ত্রী কারিগরি ও উন্নয়ন প্রকল্পে ৫০ কোটি টাকার বেশি অনুমোদন দিতে পারবেন না। আগে কারিগরি প্রকল্পে অনুমোদনের ক্ষেত্রে কোনো বাধা ছিল না। এখন থেকে ৫০ কোটি টাকার বেশি প্রকল্পে একনেকের অনুমোদন লাগবে।

সচিবের এ বক্তব্যে পরে হাসির ছলে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, আমার ডানা কাটা হলো।

এদিন এনইসি সভায় আগামী ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য দুই লাখ ৪৬ হাজার ৬৬ কোটি টাকার মূল বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) প্রস্তাব চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ (এনইসি)। এর সঙ্গে স্বায়ত্তশাসিত সংস্থা অথবা করপোরেশনের নিজস্ব অর্থায়ন থেকে পাওয়া যাবে ৯ হাজার ৯৩৭ কোটি টাকা।


আরও খবর



আবারও বেসামাল নিত্যপণ্যের বাজার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | ৪৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আবারও বেসামাল হয়ে পড়েছে নিত্যপণ্যের বাজার। সয়াবিন তেলের দাম বৃদ্ধির পর গেল কয়েক দিনে সংকট কিছুটা কমেছে। তবে পেঁয়াজ আমদানির মেয়াদ শেষ হওয়ায় প্রতিবেশী দেশ ভারত থেকে পণ্যটি আসা বন্ধ রয়েছে। এতে দেশের খুচরা ও পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। এ ছাড়া সবজি, রসুন ও ডিমের দাম এক সপ্তাহ ব্যবধানে বেড়েছে। অন্য পণ্যের দাম অবশ্য অপরিবর্তিত রয়েছে।

শুক্রবার (১৩ মে) রাজধানীর বিভিন্ন বাজার ঘুরে এসব তথ্য জানা গেছে।

ঈদের পর বাজারে সবজির চাহিদা বেড়েছে। এ ছাড়া গত কয়েক দিন ধরে টানা বৃষ্টি থাকায় সবজির দাম কিছুটা বেড়েছে।

চলতি সপ্তাহে ৪০ টাকা কেজি দরে মিষ্টি কুমড়া, মুলা ও পেঁপে বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া এ সপ্তাহে ৬০ টাকা কেজি দরে শসা, টমেটো, চিচিঙ্গা, পটল, বরবটি ও ধুন্দল বিক্রি হচ্ছে। আকারভেদে চাল কুমড়া প্রতিপিস ৫০ টাকা এবং লাউ ৬০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে, প্রতি কেজি কাঁচামরিচ ১৩০ টাকা এবং পেঁয়াজের দাম ২৫-৩০ টাকা থেকে কয়েক দফা বেড়ে ৪৫-৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজি আলু বিক্রি হচ্ছে ২০ টাকা।

প্রতি কেজি দেশি রসুনের দাম ৪০-৫০ টাকা থেকে দ্বিগুণ বেড়ে ৯০-১০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ ছাড়া আমদানি করা রসুনের দাম কেজিপ্রতি ১০০-১২০ টাকা থেকে বেড়ে ১৪০-১৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

খোলা সয়াবিন তেল খুচরা বাজারে কেজিপ্রতি ২২০-২৫০ টাকায়, পাম অয়েল কেজিপ্রতি ১৯৫-২০০ টাকায় এবং বোতলজাত পাঁচ লিটার সয়াবিন তেল ৯৮০-৯৮৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে, গরুর মাংস প্রতি কেজি ৭০০ টাকা, খাসির মাংস প্রতি কেজি ৯০০ টাকা, ব্রয়লার মুরগি প্রতি কেজি ১৭০-১৮০ টাকা, সোনালি মুরগি প্রতি কেজি ৩০০-৩১০ টাকা এবং লেয়ার মুরগি প্রতি কেজি ২৭০-২৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

প্রতি ডজন লাল ডিম ১১৫ টাকা, প্রতি ডজন হাঁসের ডিমের ১৬০ টাকা এবং প্রতি ডজন দেশি মুরগির ডিম ১৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

তবে মাছের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। প্রতি কেজি রুই মাছ ৩০০-৮৫০ টাকা, তেলাপিয়া ও পাঙাস মাছ কেজিপ্রতি ১৬০-১৭০ টাকা, প্রতি কেজি পাবদা মাছ ৩০০-৪০০ টাকা এবং শোল মাছ প্রতি কেজি ৪০০-৬০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।


আরও খবর



জাফর ইকবাল হত্যাচেষ্টায় হামলাকারীর যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | ৪৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

লেখক ও অধ্যাপক ড. মুহম্মদ জাফর ইকবালকে হত্যাচেষ্টা মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) রায়ে জানানো হয়েছে, একজনের যাবজ্জীবন, একজনের ৪ বছরের কারাদণ্ড এবং বাকি ৪ জনকে খালাস দেওয়া হয়েছে।

এরআগে, ২০১৮ সালের ৩ মার্চ বিকেলে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (শাবি) ক্যাম্পাসের মুক্তমঞ্চে একটি অনুষ্ঠান চলাকালে ড. জাফর ইকবালের ওপর হামলা হয়। মাদরাসারছাত্র ফয়জুল হাসান ছুরি দিয়ে জাফর ইকবালের মাথা ও ঘাড়ে আঘাত করে। এ সময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছাত্র-শিক্ষকরা হামলাকারী ফয়জুলকে হাতেহাতে ধরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে হস্তান্তর করেন। পরে জাফর ইকবালকে আহত অবস্থায় প্রথমে নগরীর এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং পরে ঢাকায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

এই ঘটনায় শাবি রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন বাদী হয়ে মহানগর পুলিশের জালালাবাদ থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলা করেন। ২০১৮ সালের ১৬ জুলাই ফয়জুলসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জালালাবাদ থানার তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল ইসলাম।


আরও খবর



গিনিতে ৩ বছর পর ক্ষমতা ছাড়ার ঘোষণা সামরিক শাসকের

প্রকাশিত:সোমবার ০২ মে 2০২2 | হালনাগাদ:সোমবার ০২ মে 2০২2 | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আফ্রিকার দেশ গিনির সামরিক সরকারের প্রধান কর্নেল মামাডি ডুম্বুইয়া বলেছেন, ৩ বছর পর ক্ষমতা ছাড়ার ঘোষণা সামরিক শাসকের দেশ আবারও বেসামরিক সরকারের শাসনে ফিরে যাবে।

টিভিতে এক ঘোষণায় তিনি বলেন, অন্তর্বর্তী সময়ের এই প্রস্তাবটি এখন গিনির পার্লামেন্টে উত্থাপন করা হবে।

গত বছর গিনিতে এক অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে নির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে উৎখাত করে সেনাবাহিনী। শুরুর দিকে এ পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছিল গিনির বহু নাগরিক।

তবে সামরিক সরকার সময়মতো বেসামরিক সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর না করায় তা নিয়ে জনমনে অসন্তোষ বাড়ছে।

বিবিসি জানায়, পশ্চিম আফ্রিকার দেশগুলোর জোট ইকোওয়াস ক্ষমতা হস্তান্তরের জন্য গিনির সামরিক সরকারকে গত সোমবার পর্যন্ত সময়সীমা বেঁধে দিয়ে বলেছিল, অন্যথায় তাৎক্ষণিক নিষেধাজ্ঞায় পড়তে হবে।

সেই আল্টিমেটামের পরই গিনির জান্তা সরকার ক্ষমতা ছাড়ার এই ঘোষণা দিল। তবে বেঁধে দেওয়া সময়সীমা মানতে ব্যর্থ হয়েছে জান্তা। এর জন্য আরও সময় চাওয়া হয়েছে। জান্তা সরকার বলেছিল, তারা ১৮ থেকে ৫২ মাসের একটি অন্তর্বর্তী সময়ের কথা ভাবছে।

অবশেষে শনিবার ৩৯ মাসের (তিন বছর তিন মাস) অন্তর্বর্তী সময় প্রস্তাব করেছে জান্তা সরকার। কর্নেল ডুম্বুইয়া প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেছেন, তিনিসহ অন্তর্বর্তী সরকারে অংশগ্রহণকারীদের কেউই আগামীতে অনুষ্ঠেয় সাধারণ নির্বাচনে অংশ নেবেন না।

গিনিতে অভ্যুত্থানের পর ৮০ সদস্যবিশিষ্ট ন্যাশনাল ট্রানজিশন কাউন্সিল (সিএনটি) গড়ে তোলা হয়। এ কাউন্সিলই এখন দেশের পার্লামেন্ট হিসেবে কাজ চালাচ্ছে। দেশে পরবর্তী নির্বাচন আয়োজনের দায়িত্ব সিএনটি’র। তবে এখন পর্যন্ত তারা সেটি করেনি।


আরও খবর