আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

বড়দিন উপলক্ষে প্রতিটি গির্জায় নিরাপত্তা জোরদার

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ ডিসেম্বর ২০২১ | ৬৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব বড়দিন উদযাপিত হবে শনিবার (২৫ ডিসেম্বর)। দিনটিকে ঘিরে রাজধানীর গির্জাগুলোয় ইতোমধ্যে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়েছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

এ বছর করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী শুধুমাত্র খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের গির্জায় প্রবেশ নিশ্চিতে অনুরোধ জানানো হয়েছে ডিএমপির পক্ষ থেকে।

ডিএমপি সূত্রে জানা গেছে, এবার নিরাপত্তা পরিকল্পনা অনুযায়ী গির্জাগুলোয় থাকবে ডিবি (গোয়েন্দা) পুলিশ। গির্জাসহ অনুষ্ঠানস্থলের আশপাশে ইভটিজিং প্রতিরোধে বিশেষ নজরদারিতে নিয়োজিত থাকবে পুলিশের বিশেষ টিম।

ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, বড়দিনের অনুষ্ঠান নির্বিঘ্ন করতে এবং নিরাপদে ধর্মানুরাগীরা যাতে সুষ্ঠুভাবে গির্জায় যাতায়াত করতে পারেন সে লক্ষ্যে কিছু নিরাপত্তা নির্দেশনা দিয়েছে পুলিশ।

প্রতিটি গির্জায় নির্দেশনা পাঠানো হয়েছে। ডিএমপির প্রতিটি বিভাগকে এ বিষয়ে সুস্পষ্ট নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এবারের ক্রাইম কনফারেন্সেও এর ওপর গুরুত্ব দিয়ে কর্মকর্তাদের সুনির্দিষ্ট নিরাপত্তা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। ডিএমপির নিরাপত্তা নির্দেশনার পাশাপাশি করোনায় সরকারি স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে পরিপালনে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের অনুরোধ জানিয়েছে ডিএমপি।

এক প্রশ্নের জবাবে নগর পুলিশ প্রধান বলেন, সাইবার পেট্রোলিং আমাদের নিয়মিত কাজ। সাধারণত সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের কোনো ধর্মীয় অনুষ্ঠান থাকলে বিভিন্ন গ্রুপ নানা অপপ্রচার চালায়। হামলা করতে উৎসাহিত করে। এগুলো যাতে এবার না হয়, সেজন্য বড়দিনে সাইবার পেট্রোলিং বাড়ানো হয়েছে। আর ইভটিজিংয়ের মতো ঘটনা যাতে না ঘটে, সেজন্য আমাদের বিশেষ টিম কাজ করবে সাদা পোশাকে। এছাড়া সংশ্লিষ্ট এলাকার মোবাইল পার্টি স্ট্যান্ডবাই থাকবে গির্জা এলাকায়।

অন্যদিকে ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার (গোয়েন্দা শাখা) এ কে এম হাফিজ আক্তার বলেন, গির্জা এলাকায় নিরাপত্তা জোরদারে ইতোমধ্যে আমাদের গোয়েন্দা শাখার সদস্যদের মোতায়েন করা হয়েছে। কেউ যাতে নাশকতার চেষ্টা করতে না পারে, সেজন্য ডিবি, সিটিটিসির সদস্যরা সতর্ক অবস্থায় নিয়োজিত রয়েছেন। পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়া পেট্রোলিং বাড়ানো হয়েছে।

প্রয়োজনে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯-এর মাধ্যমে এসব বিষয়ে জানাতে বলা হয়েছে। গির্জা এলাকায় থাকবে ফায়ার টেন্ডার ও অ্যাম্বুলেন্স ব্যবস্থা। বড়দিনের অনুষ্ঠানে আগত দর্শনার্থীদের পকেটমার, ছিনতাইকারী, অজ্ঞান পার্টি ও মলমপার্টি সম্পর্কে সতর্ক হয়ে চলাচলের জন্য অনুরোধ জানিয়েছে ডিএমপি।


আরও খবর
রোজা শুরু হতে পারে যে তারিখ থেকে

বৃহস্পতিবার ২৩ ডিসেম্বর ২০২১




টিভিতে আজকের খেলা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | ২১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এক নজরে দেখে নিন কোন কোন টিভি চ্যানেলে আজ কোন কোন খেলা কখন সম্প্রচার করবে। ক্রিকেট, ফুটবল, টেনিস লাইভ সম্প্রচার, খেলার সময় সূচী সহ কোন কোন টিভিতে কখন সম্প্রচারিত হবে।

ক্রিকেট

শ্রীলঙ্কা-জিম্বাবুয়ে, দ্বিতীয় ওয়ানডে, বিকেল ৩.০০টা, সরাসরি টি স্পোর্টস

অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ,  ইংল্যান্ড-কানাডা, সন্ধ্যা ৭.০০টা, সরাসরি স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট ২

ফুটবল

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ, ব্রাইটন-চেলসি, রাত ২.০০টা, সরাসরি স্টার স্পোর্টস সিলেক্ট ১

স্প্যানিশ লা লিগা, রিয়াল বেটিস-আলাভেজ, রাত ১.০০টা, সরাসরি টি স্পোর্টস

কাদিজ-এস্পানিওল, রাত ৩.০০টা, সরাসরি টি স্পোর্টস

টেনিস

অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ভোর ৬টায়, সরাসরি সনি টেন ২

নিউজ ট্যাগ: আজকের খেলা

আরও খবর



সুগন্ধায় নিখোঁজদের তল্লাশিতে ব্যবহার করা হবে হেলিকপ্টার

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ ডিসেম্বর ২০২১ | ৭৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
এখন পর্যন্ত লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪০ জনে

ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে বরগুনাগামী এমডি অভিযান-১০ লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডে হতাহতদের উদ্ধারে কাজ শুরু করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। উদ্ধার কার্যক্রম পরিদর্শনে ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন র‌্যাবের মহাপরিচালক (ডিজি) অতিরিক্ত আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ-আল মামুন।

শুক্রবার (২৪ ডিসেম্বর) দুপুরে র‌্যাব সদরদপ্তরের লিগাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক এএসপি আ ন ম ইমরান খান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, সুগন্ধা নদীতে লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনাস্থলে উদ্ধার কার্যক্রম পরিচালনা করছে র‌্যাব। উদ্ধার কার্যক্রম পরিদর্শনে ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন র‌্যাব মহাপরিচালক চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন ও র‌্যাব সদরদপ্তরের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন।

তিনি আরও বলেন, তারা হেলিকপ্টারে ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা হয়েছেন। দগ্ধদের হাসপাতালে পাঠানোসহ নদীতে সম্ভাব্য নিখোঁজদের তল্লাশিতে হেলিকপ্টার ব্যবহার করা হবে।

বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) দিবাগত রাত ৩টার দিকে ঢাকা থেকে বরগুনাগামী এমভি অভিযান-১০ লঞ্চটিতে আগুন লাগে। খবর পেয়ে বরিশাল, পিরোজপুর, বরগুনা ও ঝালকাঠির কোস্ট গার্ড ও ফায়ার সার্ভিস উদ্ধারকাজ শুরু করে। এখন পর্যন্ত লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডে নিহতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪০ জনে। দগ্ধদের মধ্যে ৭২ জনকে বরিশাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের আশপাশের বিভিন্ন হাসপাতালে নেওয়া হয়।

জানা গেছে, লঞ্চটিতে হাজারখানেক যাত্রী ছিলেন। সুগন্ধা নদীতে থাকাবস্থায় লঞ্চটিতে আগুন লাগে। পরে পার্শ্ববর্তী দিয়াকুল এলাকায় বিপর্যস্ত লঞ্চটি ভেড়ানো হয়।


আরও খবর



সিনহা হত্যা মামলার রায় ৩১ জানুয়ারি

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ১৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলার রায় ঘোষণা হবে ৩১ জানুয়ারি। বুধবার (১২ জানুয়ারি) দুপুর ১২টায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান।

ঘটনার পাঁচ দিন পর ৫ আগস্ট কক্সবাজার আদালতে টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক লিয়াকত আলীসহ ৯ পুলিশের নামে হত্যা মামলা করেন সিনহার বড় বোন শারমিন শাহরিয়ার ফেরদৌস। 


আরও খবর



সন্তান জন্ম দেওয়ার এত দরকার কেন : তসলিমা নাসরিন

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৭৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সন্তান জন্ম দেওয়ার এত দরকার কেন? মেয়েরা, এমনকী প্রতিষ্ঠিত, সমাজের নানা নিয়ম ভেঙে ফেলা সাহসী মেয়েরাও, তিরিশ পার হলেই সন্তান জন্ম দেওয়ার জন্য ব্যাকুল হয়ে ওঠে! মঙ্গলবার রাত থেকে তসলিমা নাসরিনের এই পোস্ট প্রশ্ন তুলে দিয়েছে, নাম না করে প্রথম সারির নায়িকা পরীমণিকেই কি বিঁধলেন তিনি? সোমবার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর ফেসবুকে নিজেই জানান অভিনেত্রী।

সঙ্গে সঙ্গে তোলপাড় দুই বাংলা। পরী জানান, তিনি অভিনেতা শরিফুল রাজের সন্তান গর্ভে ধারণ করেছেন। ওই দিনই রাজ-পরীর গোপন বিয়ের খবরও জানেন সবাই। তার পরেই তসলিমার পোস্ট নজরে পড়ে সবার। দুই তারকার অনুরাগীদের অনুমান, এই পোস্ট সম্ভবত বাংলাদেশি নায়িকার উদ্দেশেই লেখা।

যৌন হেনস্থা থেকে মাদক মামলা সম্প্রতি পরীমণির জীবনে ঘটে যাওয়া একের পর এক অঘটনে তাঁকে খোলাখুলি সমর্থন জানিয়েছেন জনপ্রিয় এই লেখিকা। পরীমণির সাহস তাঁকে মুগ্ধ করেছিল সে সময়ে। তার পরেই বাকি মেয়ের মতোই গোপনে বিয়ে এবং প্রকাশ্যে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়া বোধ হয় ব্যতিক্রমী নায়িকার থেকে আশা করেননি তিনি।

তসলিমা যে কোনও বিষয়েই তাঁর মতপ্রকাশের জন্য বেছে নেন ফেসবুককে। এ বারেও তার অন্যথা হয়নি। লেখিকার মতে, এই ব্যাকুলতা কতটা নিজের জন্য, কতটা পুরুষতান্ত্রিক রীতিনীতি মানার জন্য? আমি কিন্তু মনে করি নিজের জন্য নয়। মেয়েরা সন্তান জন্ম দিতে চায় সমাজের দশটা লোকের জন্য। বাল্যকাল থেকে শুনে আসা, শিখে আসা 'মাতৃত্বেই নারীজন্মের সার্থকতা' জাতীয় বাকোয়াজ মস্তিস্কে কিলবিল করে বলেই মনে করে ইচ্ছেটা বুঝি নিজের।

তসলিমার এই কথার কিছুটা সমর্থন মিলেছে পরীমণির কথাতেই। মঙ্গলবার রাতে  একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে গুণিন ছবির ছোট্ট ঝলক পোস্ট করা হয়। সেখানে নেপথ্য কাহিনি হিসেবে রাজ-পরীর বিয়ের দৃশ্য (পর্দায় না বাস্তবে?) দেখানো হয়েছে। বেনারসি, গয়নায় সেজে ওঠা পরী প্রতি মুহূর্তে নিজেকে আয়নায় দেখতে ব্যস্ত। তার পর রাজের সঙ্গে মালাবদল। পাল্কি চড়ে তিনি শ্বশুরবাড়ির পথে। সেখানেই তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে, এই রকম বিয়ের স্বপ্নই আমি বরাবর দেখে এসেছি!’’ তা হলে কি তসলিমার কথাই ঠিক?

উত্তর অজানা। তবে তস যুক্তি, পৃথিবীতে মানুষের সংখ্যা প্রায় আটশ' কোটি। এত ভিড়ের পৃথিবীতে আপাতত কোনও নতুন জন্ম কাঙ্ক্ষিত হওয়ার কথা নয়। কিন্তু মেয়েরা যদি ভেবে নেয় জন্ম না দিলে তাদের জীবনের কোনও অর্থ নেই, তা হলে তারা যে ভুল তা তাদের বোঝাবে কে! সন্তানের জন্ম তারা দিতেই পারে যদি এমনই তীব্র তাদের আকাঙ্ক্ষা, তারপরও এ কথা ঠিক নয় জন্ম না দিলে তাদের জীবনের কোনও অর্থ নেই। কোনও কোনও মানুষ তাদের জীবনকে শখ করে অর্থহীন করে। তা ছাড়া, কারও জীবনই অর্থহীন নয়। বরং যে ভ্রূণ আজও জন্মায়নি, সে ভ্রূণ অর্থহীন! যুগে যুগে পৃথিবীর প্রচুর শিক্ষিত, স্বনির্ভর, সচেতন মেয়ে বিয়ে করেননি, সন্তান জন্মও দেননি!


আরও খবর



ইরান-ইরাক পররাষ্ট্রমন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ ডিসেম্বর ২০২১ | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইরানের রাজধানী তেহরানে বৃহস্পতিবার ইরাকের সঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পর্যায়ে বৈঠক হয়েছে। বৈঠক শেষে ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনী বা আইআরজিসির কুদস ফোর্সের সাবেক কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে হত্যার ঘটনা তদন্তের বিষয়ে ইরান এবং ইরাক একটি যৌথ বিবৃতি প্রকাশ করেছে। খবর ইরনার।

ইরানের বিচার বিভাগের প্রধানের আন্তর্জাতিকবিষয়ক সহকারী এবং মানবাধিকার উচ্চপরিষদের সচিব কাজেম গরিবাবাদি বৃহস্পতিবার এ বিবৃতি প্রকাশের কথা জানান। তিনি বলেন, জেনারেল কাসেম সোলাইমানি হত্যার ঘটনা তদন্তে গঠিত ইরান ও ইরাকের যৌথ কমিটির বৈঠক থেকে এ বিবৃতি প্রকাশ করা হয়।

২০২০ সালের ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছ থেকে জেনারেল কাসেম সোলাইমানিকে ড্রোন থেকে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ে মার্কিন সেনারা হত্যা করেন।

ওই হামলায় ইরাকের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন পপুলার মোবিলাইজেশন ইউনিটের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড আবু মাহদি আল মুহান্দিস নিহত হন। দুই কমান্ডারই মধ্যপ্রাচ্যে মার্কিন মদদপুষ্ট উগ্র সন্ত্রাসীগোষ্ঠীর বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।

এ ছাড়া ইরাক-ইরান যৌথ কমিটি দুই দেশের অর্থনৈতিক সম্পর্ক জোরদারের বিষয়েও আলোচনা করে।


আরও খবর
হাসপাতালে ভর্তি মাহাথির মোহাম্মদ

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২