আজঃ শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

চাঁদপুরে পরিবহন শ্রমিকদের বিক্ষোভ-ভাঙচুর, বাস চলাচল বন্ধ

প্রকাশিত:সোমবার ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চাঁদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত বাসচালক মিজান মোল্লার চিকিৎসায় শ্রমিক ইউনিয়নের অবহেলাজনিত মৃত্যু এবং পৌর বাস টার্মিনালের অবকাঠামোগত সমস্যা নিরসনে বিক্ষোভ ঢাকা, চট্টগ্রাম কুমিল্লাসহ কয়েকটি রুটে বাস চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাস শ্রমিকরা।

সোমবার সকাল থেকে বিক্ষোভ চালু করে শ্রমিকরা। পরে বেলা এগারোটা থেকে সকল রুটে বাস চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে তারা। বিক্ষোভকারীরা এসময় সড়ক অবরোধ শ্রমিক ইউনিয়নের অফিসের আসবাবপত্র ভাঙচুর করে।

রবিবার ভোর ছয়টায় চাঁদপুর সদর উপজেলার চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক সড়কের চানখার দোকান এলাকায় চাঁদপুর থেকে ঢাকাগামী পদ্মা এক্সপ্রেস বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি গাছে মুখোমুখি আঘাত করে। এসময় বাসে থাকা সুমনা নামের একশিশু নিহত হয় এবং গুরুতর আহত হয় আরও পাঁচজন। আহতদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় বাসচালক মিজান মোল্লাকে দ্রুত ঢাকায় রেফার করেন চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক। পরে রাতেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তাকে ঢাকায় রেফার করা হলেও উন্নত চিকিৎসার জন্য শ্রমিক ইউনিয়ন এর পক্ষ থেকে কোন প্রকার সাহায্য সহযোগিতা না করায় ক্ষুব্ধ হয়ে পড়ে জেলায় কর্মরত বাস শ্রমিকরা।

পরে সোমবার সকাল থেকেই তারা বিক্ষোভ শ্রমিক ইউনিয়নের অফিস ভাঙচুর করে। জন শ্রমিক জানায়, পৌর বাস টার্মিনালের অবকাঠামোগত উন্নতি শ্রমিকের বিপদে পাশে দাঁড়ানোর দাবি নিয়ে সকাল থেকেই বিক্ষোভ চালিয়ে যান তারা।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুর রশিদ জানান, বিক্ষোভকারীদের শান্ত করতে এগিয়ে আসে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এবং তাদেরকে একটি সুষ্ঠু সমাধানের মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের পরামর্শ দেন কর্মকর্তা।

প্রসঙ্গত, রবিবার ওই সড়ক দুর্ঘটনায় অন্যান্য গুরুতর আহত ব্যক্তিরা হলেন নিহত শিশু সুমনার বাবা মোঃ সুমন (৩৭) মা শাম্মী (৩৩), ইউনুস (৫০), মাহবুব (২৩)

বাস চলাচল বন্ধ থাকায় এসব রুটের যাত্রীরা ভোগান্তিতে পড়েছে।


আরও খবর
স্কুলের তালা খুললেই খুন করার হুমকি

শনিবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১




মার্কিন বাহিনী যাওয়ার পর কাবুল ছাড়লো প্রথম বিদেশি ফ্লাইট

প্রকাশিত:শুক্রবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মার্কিন বাহিনী আফগানিস্তান ছেড়ে যাওয়ার পর এই প্রথম কাবুল বিমানবন্দর থেকে ছেড়ে আসলো কোনও ফ্লাইট। যুক্তরাজ্যসহ বিভিন্ন দেশের যাত্রীদের নিয়ে ওই ফ্লাইট কাতারের রাজধানী দোহায় অবতরণ করেছে। খবর বিবিসি, আল জাজিরার।

কাতার এয়ারওয়েজের ওই চার্টার ফ্লাইট বৃহস্পতিবার দোহায় অবতরণ করে। শুক্রবার আরেকটি ফ্লাইট কাবুল বিমানবন্দর ছাড়ার কথা রয়েছে। নিজের সাম্প্রতিক কাতার সফরে গিয়ে উদ্ধার কাজে সহায়তা করতে দেশটির প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন।

গত ২০ বছর ধরে মার্কিন বাহিনী সহায়তা করা শত শত আফগান যুক্তরাষ্ট্রের এয়ারলিফটের অংশ হতে ব্যর্থ হন। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, ওই বিমানে ১১৩ জন আরোহী ছিল। ‍যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব বলেছেন, ১৩ জন ব্রিটিশ নাগরিক দোহা পৌঁছেছেন এবং ফ্লাইট পরিচালানার জন্য কাতারকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

হোয়াইট হাউজ এক বিবৃতিতে ওই ফ্লাইটে মার্কিন নাগরিক থাকার কথা নিশ্চিত করেছে। পাশাপাশি কাতারকে ধন্যবাদ জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। বিবৃতিতে বলা হয়, সতর্ক এবং জোর কূটনীতির কারণে এই ফ্লাইট সম্ভব হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র জানায়, মার্কিন নাগরিকদের আফগান ছাড়ার ক্ষেত্রে তালেবানরা ব্যবসায়ী এবং পেশাদারের মতে আচারণ করেছে।

ওই ফ্লাইটে ৪৩ জন কানাডার নাগরিক ছিল বলে জানায় অটোয়া। নেদারল্যান্ডস জানিয়েছে, ওই ফ্লাইটে তাদের ১৩ জন নাগরিক ছিল। পরে কাবুল বিমানবন্দরে এক সংবাদ সম্মেলনে কাতারের বিশেষ দূত মুতলাক বিন মাজেদ আল কাহতানি জানান, বিমানবন্দর সচল করা হয়েছে এবং এটি আফগানিস্তানের জন্য একটি ঐতিহাসিক দিন।


আরও খবর



ফিফা র‍্যাংকিংয়ে ১৮৯তম স্থানে বাংলাদেশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

একধাপ নিচে নেমে এলো বাংলাদেশ ফুটবল দল। চলতি বছরের জুনে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচ খেলে লাল-সবুজরা ছিল ১৮৪তম স্থানে। যদিও আগস্টে ৪ ধাপ নেমে ১৮৮ চলে আসে জেমি ডের শিষ্যরা। নতুন প্রকাশিত র‍্যাংকিংয়ে ১৮৯তম স্থানে নেমে এসেছে জামাল ভূঁইয়া নেতৃত্বাধীন দলটি।

আজ বৃহস্পতিবার ২১০টি সদস্য দেশের র‍্যাংকিং প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক ফুটবল সংস্থা (ফিফা)। ফিফার প্রকাশিত র‍্যাংকিংয়ে তলানি থেকে ২১তম দল বাংলাদেশ। মোট পয়েন্ট ৯০৬.৮৪। আগের পয়েন্ট ছিল ৯০৯.১১ পয়েন্ট। ২.২৭ পয়েন্ট কমেছে তপু-বিশ্বনাথদের।

এ বছর নেপালের ত্রিদেশীয় সিরিজে অংশ নেয় জামালের দল। এতে এক ম্যাচ জিতেছিল বাংলাদেশ। অন্যদিকে কাতারের মাটিতে বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব খেলেছিল মাহবুবুর রহমান সুফিল-তারিক কাজীরা। আফগানিস্তানের বিপক্ষে ড্র করলেও ভারত ও ওমানের বিপক্ষে হেরে যায়। ফলে আগস্টে প্রকাশিত র‌্যাংকিংয়ে এর প্রভাব পড়ে।

কয়েকদিন আগেই কিরগিজস্তানে ত্রিদেশীয় আরেকটি সিরিজে মাঠে নামে জামালরা। ফিলিস্তিন ও কিরগিজদের বিপক্ষে দুটি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলে হারতে হয়। ফলে নতুন র‌্যাংকিংয়ে এর প্রভাব পড়ল।

নিউজ ট্যাগ: ফিফা র‍্যাংকিং

আরও খবর
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং প্রকাশ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

মেসিকে পেছনে ফেললেন সিআর সেভেন

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




‘মৎস্য খাত বাংলাদেশে স্বর্ণালী অধ্যায় সৃষ্টি করছে’

প্রকাশিত:শনিবার ২৮ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৮ আগস্ট ২০২১ | ২৮৭৫জন দেখেছেন
তাছনিম আদনান

Image
মৎস্য খাদ্যে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর উপাদান আছে কীনা তা পরীক্ষার জন্য আমরা আন্তর্জাতিকমানের পরীক্ষাগার করেছি। মাছ রপ্তানির জন্য পরীক্ষা করে ছাড়পত্র দেওয়া হচ্ছে, যাতে বিদেশে পাঠানো মাছের চালান দেশে ফেরত না আসে। দেশের অভ্যন্তরের বাজারেও নিয়মিত তদারকি করা হচ্ছে। মৎস্য সম্পদের শত্রুদের বিরুদ্ধে সব জায়গায় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে

মৎস্য খাত বাংলাদেশে একটি স্বর্ণালী অধ্যায় সৃষ্টি করছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি।

শনিবার (২৮ আগস্ট) রাজধানীর মৎস্য ভবনে মৎস্য অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ, ২০২১ উপলক্ষ্যে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে মন্ত্রী একথা জানান।

এসময় মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা হচ্ছে ভাতে-মাছে বাঙালির চিরন্তন বৈশিষ্ট্য ফিরিয়ে আনতে হবে। দেশের মৎস্য খাতকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে বিকশিত করছেন এ ধারাকে অব্যাহত রেখে মৎস্য সম্পদে বিশ্বে আমরা অনন্য-আসাধারণ জায়গায় পৌঁছে যাবো। এ লক্ষ্য নিয়ে মৎস্য খাতকে সর্বোচ্চ প্রাধান্য দিয়ে এবারের মৎস্য সপ্তাহ উদযাপন হতে যাচ্ছে। ভাতে-মাছে বাঙালির নিজস্ব বৈশিষ্ট্যের জায়গাতে আমরা শুধু পরিপূর্ণতাই আনবো না, বঙ্গবন্ধুর প্রত্যাশা অনুযায়ী মাছ হবে দ্বিতীয় প্রধান বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনকারী সম্পদ। সে লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করছি।

এ সময় মন্ত্রী আরো বলেন, “‘বেশি বেশি মাছ চাষ করি, বেকারত্ব দূর করি এ প্রতিপাদ্যে ২৮ আগস্ট থেকে ০৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উদযাপন করা হবে। আগামীকাল জাতীয় সংসদের স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দিয়ে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন এবং সংসদ লেকে মাছের পোনা অবমুক্ত করবেন। মহামান্য রাষ্ট্রপতি ৩১ আগস্ট বঙ্গভবন পুকুরে মাছের পোনা অবমুক্ত করবেন।

এ সময় তিনি বলেন, করোনার কারণে বিদেশ থেকে আমাদের অনেক প্রবাসীরা বেকার হয়ে দেশে ফিরছেন। স্বল্প আয়ের চাকরি বা ব্যবসা যারা করতেন তারা বেকার হয়ে পড়েছেন। করোনায় সৃষ্ট বেকারদের পূনর্বাসনের ক্ষেত্রে আমাদের মৎস্য খাত একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। মাছ চাষের মাধ্যমে বেকারত্ব লাঘব হচ্ছে, আর্থিক স্বচ্ছলতা বাড়ছে এবং উদ্যোক্তা তৈরি হচ্ছে। গ্রামীণ অর্থনীতি সচল হচ্ছে। আবার মাছ রপ্তানির মাধ্যমে বিপুল পরিমাণ অর্থ আমরা দেশে আনতে সক্ষম হচ্ছি। পৃথিবীর অনেক দেশের চেয়ে আমাদের মৎস্য উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে।”

তিনি আরো বলেন, মৎস্য খাতে একটা আমূল পরিবর্তন এসেছে। এর অন্যতম প্রধান কারণ হচ্ছে সরকার প্রধানের সর্বোচ্চ গুরুত্ব ও পৃষ্ঠপোষকতা। সরকারের গৃহিত পদক্ষেপে ইলিশের আকার বৃদ্ধি পেয়েছে, স্বাদ-গন্ধ ফিরে এসেছে, পরিমাণ বেড়েছে। জাটক নিধন বন্ধ করার সুফল আমাদের সামনে দৃশ্যমান। দেশের মানুষের কাছে যে মাছগুলো দুর্লভ ছিল, সেগুলো ফিরে এসেছে। বিলুপ্তপ্রায় ৩১ প্রজাতির দেশীয় মাছকে বৈজ্ঞানিক উপায়ে কৃত্রিম প্রজননের মাধ্যমে আমরা ফিরিয়ে এনেছি এবং সেটা আমরা সারাদেশে ছড়িয়ে দিচ্ছি। মৎস্যজাত পণ্য তৈরির খাতকেও সরকার উৎসাহিত করছে। দেশের বিভিন্ন বৈচিত্র্যময় অঞ্চল তথা হাওর অঞ্চল, পাবর্ত্য অঞ্চল, উপকূলীয় অঞ্চলে আমরা ভিন্ন ভিন্ন প্রকল্প নিচ্ছি। মাছকে নিরাপদ রাখার জন্য আমরা অভয়াশ্রম করছি। নদীতে যাতে মাছের প্রজনন ক্ষতিগ্রস্ত না হয় এবং মাছ বেড়ে উঠতে পারে সে জন্য প্রশাসন, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও আমাদের কর্মকর্তা-কর্মচারিরা সমন্বিতভাবে কাজ করছে।”

আমাদের জাতীয় অর্থনীতিতে মৎস্য খাত অভাবনীয় ভূমিকা রাখছে। মৎস্য খাতে উপযুক্ত পদক্ষেপের কারণে আমাদের দেশীয় প্রজাতির মাছ, সামুদ্রিক মাছ ও অপ্রচলিত মৎস্য সম্পদের বিস্তার ঘটছে। বাজারে পর্যাপ্ত মাছ রয়েছে। ফলে মানুষের পুষ্টি চাহিদা পূরণ হচ্ছে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ছে, গড় আয়ু বৃদ্ধি পাচ্ছে। মাতৃমৃত্যুর হার শিশু মৃত্যুর হার কমে গেছে।”-যোগ করেন মন্ত্রী।

মন্ত্রী আরো যোগ করেন, ২০১৯-২০ অর্থবছরে দেশে মাছের মোট উৎপাদন হয়েছে ৪৫ লাখ ৩ হাজার মেট্রিক টন। মৎস্য উৎপাদনে বাংলাদেশের সাফল্য আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলেও স্বীকৃতি। বিশ্বে অভ্যন্তরীণ মুক্ত জলাশয়ের মৎস্য আহরণে বাংলাদেশ ৩য়, বদ্ধ জলাশয়ে চাষকৃত মাছ উৎপাদনে ৫ম, ইলিশ উৎপাদনে ১ম ও তেলাপিয়া উৎপাদনে ৪র্থ। জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার ২০২০ সালের প্রতিবেদন অনুযায়ী বিশ্বব্যাপী চাষকৃত মৎস্য উৎপাদনের প্রবৃদ্ধির হার ধীরগতিসম্পন্ন হলেও বিগত এক দশকে আমাদের মৎস্য উৎপাদনের প্রবৃদ্ধির ধারা ৯.১ শতাংশ, যা বিশ্বের মূল উৎপদানকারী দেশসমূহের মধ্যে ২য় অবস্থান।

মন্ত্রী আরো বলেন, মৎস্য খাদ্যে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর উপাদান আছে কীনা তা পরীক্ষার জন্য আমরা আন্তর্জাতিকমানের পরীক্ষাগার করেছি। মাছ রপ্তানির জন্য পরীক্ষা করে ছাড়পত্র দেওয়া হচ্ছে, যাতে বিদেশে পাঠানো মাছের চালান দেশে ফেরত না আসে। দেশের অভ্যন্তরের বাজারেও নিয়মিত তদারকি করা হচ্ছে। মৎস্য সম্পদের শত্রুদের বিরুদ্ধে সব জায়গায় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

মৎস্য সম্পদ বৃদ্ধির পথে আমরা কেউ যেন ক্ষতিকর ভূমিকায় অবতীর্ণ না হই। বিষাক্ত কোন খাবার দিয়ে মাছ আমরা বাড়াবো না। অপরিকল্পিতভাবে মাছের চাষবাদ করবো না-এসময় আহ্বান জানান জানান মন্ত্রী।

মৎস্য খাতে যারা অবদান রাখছেন, ভালো ভূমিকা রাখছেন তাদের উৎসাহিত করতে এবং রাষ্ট্রীয়ভাবে স্বীকৃতি দিতে এ বছর বিভিন্ন খাতে মৎস্য পদক প্রদান করা হচ্ছে বলেও এসময় জানান মন্ত্রী।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব রওনক মাহমুদ, অতিরিক্ত সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার, সুবোল বোস মনি ও মোঃ তৌফিকুল আরিফ, মৎস্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কাজী শামস্ আফরোজ, বিএফআরআই-এর মহাপরিচালক ড. ইয়াহিয়া মাহমুদ, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ তথ্য দপ্তরের উপপরিচালক শেফাউল করিম, নৌপুলিশের অতিরিক্ত আইজি মোঃ আতিকুল ইসলামসহ মন্ত্রণালয় ও মৎস্য অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর
সপ্তাহের ব্যবধানে দাম বেড়েছে সবজির

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

পুঁজিবাজারে সূচকের মিশ্র প্রবণতা

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




ঢাকায় কমছে ডেঙ্গু আক্রান্ত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৬ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ আগস্ট ২০২১ | ৬৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২৬৭ জন ডেঙ্গু রোগী বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাদের অধিকাংশই রাজধানীর বাসিন্দা।

এর মধ্যে রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ২১৭ জন এবং ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৫০ জন। চলতি বছরের শুরু থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে মারা গেছেন ৪০ জন।

বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) বিকেলে সারাদেশের পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের নিয়মিত ডেঙ্গু বিষয়ক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে নতুন ২৬৭ জন ভর্তি হয়েছেন। এ নিয়ে বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ভর্তি থাকা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৯০ জনে।

ঢাকার ৪১টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৯৬৫ জন এবং অন্যান্য বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১২৫ জন।

 

নিউজ ট্যাগ: ডেঙ্গু আক্রান্ত

আরও খবর
করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যু আরও কমল

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




হবিগঞ্জে স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণ, ছাত্রলীগ নেতাসহ গ্রেপ্তার ৩

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৯৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলার টিক্কাপুর হাওরে নৌকায় নববধূকে গণধর্ষণের ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতাসহ তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতাররা হলেন- ছাত্রলীগ নেতা সোলায়মান রনি, মিঠু মিয়া ও শুভ। র‌্যাব-৯ এর শায়েস্তাগঞ্জ ক্যাম্পের কমান্ডার লেফটেন্যান্ট কমান্ডার নাহিদ হাসান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার অভিযান চালিয়ে তিন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ছাত্রলীগ নেতা সোলায়মান রনি ও মিঠু মিয়াকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব। আর শুভকে গ্রেফতার করেছে লাখাই থানা পুলিশ। গণধর্ষণের ঘটনায় বৃহস্পতিবার রাতে হবিগঞ্জ সিনিয়র জুডিটিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলা করেছে ভিকটিমের পরিবার।

গত ২৫ আগস্ট নৌকায় স্বামীর সঙ্গে হাওরে ঘুরতে বেরিয়ে গণধর্ষণের শিকার হন ওই নববধূ। এ সময় ধর্ষণকারীরা ওই নববধূর স্বামী ও তার বন্ধুকে মারধর করে গুরুতর আহত করে। শুধু তাই নয়, গণধর্ষণের ঘটনাটি ভিডিও ধারণ করে ছড়িয়ে দিয়েছে ধর্ষণকারীরা। বর্তমানে ওই নববধূ হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

বুধবার রাতে তার স্বামী জানান, মাসখানেক আগে পারিবারিকভাবে তিনি বিয়ে করেন। বিয়ের একদিনের মাথায় তিনি কাজের সুবাদে চলে যান ঢাকায়। কয়েক দিন আগে তিনি ফের বাড়ি ফিরেন। এরপর গত ২৫ আগস্ট দুপুরে তিনি, তার স্ত্রী ও তার বন্ধু হাওরে নৌকাভ্রমণে যান।

একপর্যায়ে মুছা মিয়া, সুজাত মিয়া, হৃদয় মিয়া, ইব্রাহিম মিয়া ও জুয়েল মিয়াসহ ৫-৬ জন যুবক নৌকাযোগে এসে তাদের নৌকার গতিরোধ করে। তারা কোনোকিছু বুঝে উঠার আগেই তাকে ও তার বন্ধুকে মারধর করে তার স্ত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। ধর্ষণকারীরা তার স্ত্রীকে নির্যাতনের ঘটনাটি ভিডিও ধারণ করে। ঘটনাটি কাউকে না জানাতে বলে এবং বিষয়টি জানাজানি হলে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে তারা চলে যায়।

তিনি বলেন, বাড়িতে আসার পর বিষয়টি লোকলজ্জার ভয়ে ও ধর্ষণকারীরা প্রভাবশালী হওয়ায় কাউকে জানাইনি। তবুও গত কয়েক দিন ধরে মুছা মিয়া, সুজাত মিয়া, হৃদয় মিয়া, ইব্রাহিম মিয়া ও জুয়েল মিয়া ওই ভিডিওটি ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে আসছে।

একপর্যায়ে ভিডিওটি এলাকায় ছড়িয়ে দেয় তারা। এতে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন ভুক্তভোগীরা। বর্তমানে ধর্ষণের শিকার নববধূ হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছেন। এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

লাখাই থানার ওসি মো. সাইদুর রহমান জানান, বিষয়টি শুনেছেন। নির্যাতিতার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথাও হয়েছে। তারা কোনো লিখিত অভিযোগ দেননি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. নাদিরা বেগম জানান, ধর্ষণের অভিযোগে এক নারী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তবে তিনি ধর্ষণের শিকার হয়েছেন কিনা, তা পরীক্ষা-নিরীক্ষার পরই বলা যাবে।



আরও খবর
রামেক হাসপাতালে আরও ৫ জনের মৃত্যু

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১