আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

ছাত্রীকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়ায় রাইদার ১৫ বাস আটক

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ | ৭০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে তারা সংঘবদ্ধ হয়ে রামপুরা বিটিভি ভবনের সামনের রাস্তায় অবস্থান নেয় এবং রাইদা পরিবহনের ১৫টি বাস আটকে দেয়

ঢাকা ইম্পেরিয়াল কলেজের এক ছাত্রীকে রাইদা পরিবহনের একটি বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার জেরে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীরা রাইদা পরিবহনের ১৫টি বাস প্রগতি সরণির রামপুরা বিটিভি ভবন এলাকায় আটকে রেখেছেন। এতে ওই সড়কে যান চলাচল ব্যাহত হচ্ছে।

সোমবার (২৯ নভেম্বর) দুপুর আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে বলে ডিএমপির রামপুরা থানা সূত্রে জানা গেছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে রামপুরা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রফিকুল ইসলাম বলেন, দুপুরের দিকে ইম্পেরিয়াল কলেজের এক ছাত্রী মুগদা থেকে করোনার টিকা নিয়ে রাইদা পরিবহনের একটি বাসে করে বাসায় ফিরছিলেন। রামপুরা পুলিশ বক্সের সামনে নামার সময় তাকে ওই বাসের হেলপার ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় বলে অভিযোগ করেন তিনি। এ খবর প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে তারা সংঘবদ্ধ হয়ে রামপুরা বিটিভি ভবনের সামনের রাস্তায় অবস্থান নেয় এবং রাইদা পরিবহনের ১৫টি বাস আটকে দেয়। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করি।

তিনি বলেন, যে বাসের হেলপারের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠেছে ওই বাসটি আটক করা যায়নি। এছাড়া বাসের নম্বরও জানা যায়নি। তবে আমরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের জন্য রাইদা পরিবহনের মালিক পক্ষকে থানায় ডেকেছি। আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদেরও থানায় আনা হয়েছে। দুই পক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে বিষয়টি সমাধান করা হবে। ইতোমধ্যে আমরা শিক্ষার্থীদের সঙ্গে আলোচনা শুরু করেছি। আশা করছি, মালিক পক্ষ আসলে বিষয়টি দ্রুত সমাধান হয়ে যাবে। সমাধান হওয়ার আগ পর্যন্ত বাসগুলো আটক থাকবে। 


আরও খবর



একদিনে হাসপাতালে ভর্তি ১৫ ডেঙ্গুরোগী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ৫৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ভর্তি হওয়া ১৫ জনের মধ্য ঢাকায় সরকারি হাসপাতালে একজন ও বেসরকারি হাসপাতালে রয়েছেন চারজন

এডিস মশাবাহিত ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীসহ সারাদেশে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৫ জন। তাদের মধ্যে ঢাকাতেই ৫ জন ও ঢাকার বাইরের হাসপাতালে দশজন ভর্তি হয়েছেন।

মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের ইনচার্জ এবং ডেপুটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডা. মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন এমন রোগীর সংখ্যা ৭৮ জন। তাদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে ৪৪ জন ও বেসরকারি হাসপাতালে ৩৪ জন ভর্তি রয়েছেন।

গত ২৪ ঘণ্টায় সারাদেশে ভর্তি হওয়া ১৫ জনের মধ্য ঢাকায় সরকারি হাসপাতালে একজন ও বেসরকারি হাসপাতালে রয়েছেন চারজন। এছাড়া ঢাকার বাইরে হাসপাতাল ও ক্লিনিকে ভর্তি হয়েছেন ১০ জন।

এছাড়া চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ২৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ২৮ হাজার ৩৮৩ জন। তাদের মধ্যে জানুয়ারিতে ৩২ জন, ফেব্রুয়ারিতে নয়জন, মার্চে ১৩ জন, এপ্রিলে তিনজন, মে মাসে ৪৩ জন, জুনে ২৭২ জন এবং জুলাইয়ে ২ হাজার ২৮৬ জন, আগস্টে ৭ হাজার ৬৯৮ জন, সেপ্টেম্বরে ৭ হাজার ৮৪১ জন, অক্টোবরে ৫ হাজার ৪৫৮ জন, নভেম্বরে ৩ হাজার ৫৬৭ জন এবং চলতি মাসের ২৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত ১ হাজার ১৬১ জন ভর্তি হন।

একই সময়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৮ হাজার ২০১ জন। মারা গেছেন ১০৪ জন। মারা যাওয়া ১০৪ জনের মধ্যে জুলাইয়ে ১২ জন, আগস্টে ৩৪ জন এবং সেপ্টেম্বর ২৩ জন, অক্টোবরে ২২ জন, নভেম্বরে সাতজন এবং চলতি মাসের ২৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে।


আরও খবর



ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ট্রাকচাপায় নিহত ২

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ জানুয়ারী ২০২২ | ৩১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কুমিল্লা-সিলেট মহাসড়কের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় ট্রাকের চাপায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার চালকসহ ২ জন নিহত ও ৪ জন আহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৮টার দিকে মহাসড়কের খাড়েরায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। ব্রাহ্মণবাড়িয়া খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহজালাল আলম দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, নিহত অটোরিকশাচালক কাউসার মিয়া (৩৫) কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলার বাখরনগর গ্রামের বাসিন্দা। সকাল ১০টায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত অপরজনের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

তিনি আরও জানান, কুমিল্লা অভিমুখী পণ্যবাহী ট্রাক ব্রাহ্মণবাড়িয়া অভিমুখী সিএনজিচালিত অটোরিকশাকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই এর চালক ও একজন যাত্রী মারা যান।

'অটোরিকশার বাকি ৪ যাত্রী মারাত্মক আহত হলে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। হাইওয়ে পুলিশ দুর্ঘটনাস্থলে পৌঁছে ২ জনের মরদেহ উদ্ধার করে,' যোগ করেন তিনি।

ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে বলেও জানান ওসি।


আরও খবর



জয়পুরহাটে আলুর কেজি ৫ টাকা, দিশেহারা চাষিরা

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | ১৭৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জয়পুরহাট প্রতিনিধিঃ

জয়পুরহাটে প্রতিদিনই আলুর দাম কমছে। ভালো ফলন হলেও বাজারে দাম না থাকায় লোকসানের মুখে পড়ছেন জয়পুরহাট জেলার আলুচাষীরা। বর্তমানে স্থানীয়ভাবে প্রতি কেজি আলু পাইকারি বিক্রি হচ্ছে ৫-১০ টাকা। ফলে খরচের তুলনায় লোকসান বেড়ে যাওয়ায় দিশেহারা তারা।

জয়পুরহাট শহরের নতুনহাটে আলু বিক্রি করতে আসা চাষীরা জানান যে, বাজারে আলু প্রতি মণ ছিল ৪৫০ টাকা তা আজ বাজারে ৪০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর ২৫০ টাকার আলু ২০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এভাবে দিন দিন আলুর দাম কমে যাচ্ছে। রোমানা পাইকারি (লাল) বিক্রি হচ্ছে ৪০০ টাকা মণ। আর প্রতি কেজি ১০ টাকা। বট পাইকারি (লাল) মিউজিকা আলু বিক্রি হচ্ছে ৩৬০ টাকা মণ। গ্রেনোলা আলু প্রতি মণ বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকা।

আলুর পাইকারি ক্রেতা জহুরুল ইসলাম ও পরিতোষ কুমার বলেন, আলুর বাজার একদিন আগে যা ছিল পরের দিন তা থাকছে না। দাম হুহু করে কমে যাচ্ছে। আমরা যেসব আলু কিনছি এসব আলু ঢাকা, রাজশাহী, সিলেট, খুলনা, চট্টগ্রাম, বরিশাল সহ দেশের বিভিন্ন স্থানের মোকামে সরবরাহ করা হচ্ছে। কাঁচাবাজারের মূল্য সঠিকভাবে বলা যায় না। কিন্তু আলুর বাজার একেবারেই উঠছে না।

বাজারে গ্রানোলা আলু বিক্রি করতে আসা চাষীরা বলেন, প্রতি বিঘায় আলুর ফলন হচ্ছে ৫৮-৬০ মণ। আলু চাষে জমিতে ১৮-২০ হাজার টাকা খরচ হয়েছে। কিন্তু বর্তমান বাজার হিসেবে আলু বিক্রি  করলে ১২-১৫ হাজার টাকার বেশি বিক্রি করা সম্ভব নয়। এতে আমাদের কয়েক হাজার টাকা লোকসান গুনতে হচ্ছে। সরকারিভাবে রফতানি ও দাম নির্ধারণ করতে সরকারের প্রতি অনুরোধ জানান তারা।

সদর উপজেলার আমদই ইউনিয়নের পলিকাদোয়া গ্রামের আলুচাষী মাসুদ রানা বলেন, জমি থেকেই আলু বিক্রি করে দিচ্ছি। আজ বাজারে ৩৭০ টাকা দরে ৮০ মণ মিউজিকা আলু বিক্রি করেছি। তবে প্রতি মণ ১০ টাকা কমে ৩৬০ টাকা দরে ৩০ মণ আলু বিক্রি করেছেন হিসমী  গ্রামের মাহবুব।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের তথ্য মতে, জেলায় এবার ৪০ হাজার ৩৫০ হেক্টর জমিতে আলু রোপনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৭ হাজার ১০০ হেক্টর, পাঁচবিবিতে ৭ হাজার, কালাইয়ে ১১ হাজার ১০০, ক্ষেতলালে ৯ হাজার এবং আক্কেলপুরে ৬ হাজার হেক্টর জমিতে আলু চাষ হয়েছে। কিন্তু ৪০ হাজার ২৮০ হেক্টর জমিতে আলু চাষ করে লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত হয়েছে।

জেলা বিপণন বিভাগের মাঠ ও বাজার পরিদর্শক মোঃ সাখাওয়াত হোসেন বলেন, আলুর ভরা মৌসুম চলছে। এবার আলুর ফলন ভালো হয়েছে। এজন্য আলুর দাম কম।

নিউজ ট্যাগ: জয়পুরহাট আলু

আরও খবর



সব ধরণের ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন হরভজন

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৪ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৪ ডিসেম্বর ২০২১ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বেশ কিছুদিন ধরেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বাইরে হরভজন সিং। শেষ টেস্ট ২০১৫ এবং শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেন ২০১৬ সালে। গত কয়েক বছর শুধু ঘরোয়া ক্রিকেট খেলে যান তিনি।

সম্প্রতি গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল, সব ধরণের ক্রিকেটকে বিদায় জানাতে পারেন হরভজন। শেষ পর্যন্ত সত্যি হলো। আজ শুক্রবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে হরভজন ঘোষণা দেন, সব ধরণের ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েছেন।

টুইটারে হরভজন লেখেন, সব ভালো জিনিসেরই একটা শেষ থাকে। আজ আমি সেই খেলাকে বিদায় জানাচ্ছি, যেটা আমাকে জীবনে সবকিছু দিয়েছে। ২৩ বছরের দীর্ঘ এই যাত্রাকে স্মরণীয় করে রাখতে যাঁরা সাহায্য করেছেন, তাঁদের সবাইকে কৃতজ্ঞতা জানাই। আন্তরিক ধন্যবাদ আপনাদের।

১৯৯৮ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল হরভজনের। ২০০১ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বর্ডার-গাভাসকর সিরিজে নজর কেড়েছিলেন। তিন টেস্টে ৩২টি উইকেট তুলে নিয়েছিলেন। তারপর একের পর এক সাফল্য পয়েছেন। ২০০৭ টি-টোয়েন্টি এবং ২০১১ সালে ওয়ানডে বিশ্বকাপের অন্যতম সদস্য ছিলেন তিনি।

তবে গত পাঁচ বছর দেশের জার্সিতে দেখা যায়নি তাঁকে। শোনা যাচ্ছে, রাজনীতিতে যোগ দিতে পারেন। আগামী বছর পাঞ্জাবে বিধানসভা নির্বাচনের আগেই কংগ্রেসে যোগ দিতে পারেন তিনি।

 

নিউজ ট্যাগ: হরভজন সিং

আরও খবর



ভারতে ২৭ রাজ্যে ছড়িয়ে পড়েছে ওমিক্রন

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | ২৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতে বেড়েই চলেছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন এক লাখ ৫৯ হাজার ৬৩২ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়েছেন তিন হাজার ৬২৩ জন। ইতোমধ্যে দেশের ২৭ রাজ্যে ছড়িয়ে পড়েছে এ ধরন।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৩২৭ জনের।

এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্ত হলেন তিন কোটি ৫৫ লাখ ২৮ হাজারের বেশি মানুষ। মৃত্যু হয়েছে চার লাখ ৮৩ হাজার ৭৯০ জনের। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন পাঁচ লাখ ৯০ হাজারের বেশি মানুষ।

দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪০ হাজারের বেশি মানুষ সুস্থ হয়েছেন। এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়েছেন তিন কোটি ৪৪ লাখ ৫৩ হাজারের বেশি মানুষ।

এদিকে ভারতে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও প্রতিদিন বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তদের মধ্যে তিন হাজার ৬২৩ জন নতুন এ ধরনে আক্রান্ত হয়েছেন। মহারাষ্ট্রে মিলেছে সবচেয়ে বেশি রোগী। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৯ জন। এর পর রয়েছে দিল্লি। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ৫১৩ জন।

তবে ইতিবাচক বিষয় হলো, ওমিক্রনে আক্রান্ত হাজারেরও বেশি মানুষ ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন বা তাদের স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

শনিবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছিল, গত ২৪ ঘণ্টায় ১ লাখ ৪১ হাজার ৯৮৬ জন করোনাক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয় ২৮৫ জনের। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ১ লাখ ১৭ হাজার ১০০ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল।


আরও খবর
হাসপাতালে ভর্তি মাহাথির মোহাম্মদ

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২