আজঃ শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

ছিনতাইকারীদের গুলিতে এজেন্ট ব্যাংকের মালিক নিহত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৬ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ আগস্ট ২০২১ | ৬২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গাংনীর গাঁড়াডোব-আমঝুপি সড়কের খোকসা ও গাঁড়াডোব মাঠের মধ্যে ছিনতাইকারীদের গুলিতে নিহত হয়েছেন কোমরপুর সিটি ব্যাংকের এজেন্ট ও তন্নি হার্ডওয়্যারের স্বত্বাধিকারী খাদেমুল ইসলাম (৩২)।

বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

খাদেমুল ইসলাম মেহেরপুর সদর উপজেলার যতারপুর গ্রামের মিনারুল ইসলামের ছেলে। এ ঘটনায় ৪৬ লাখ টাকা উদ্ধার করেছে গাংনী থানা পুলিশ।

খাদেমুল ইসলাম মুজিবনগর উপজেলার কোমরপুর বাজারে স্থাপিত সিটি ব্যাংকের এজেন্ট মালিক ও তন্নি হার্ডওয়ারের স্বত্বাধিকারী।

খাদেমুল ইসলামের ছোট ভাই রানা জানান, ৪৬ লাখ টাকা নিয়ে মোটরসাইকেলে আমঝুপি-গাঁড়াডোব সড়ক ধরে গাংনী যাচ্ছিলেন খাদেমুল। তিনি আমঝুপি-গাঁড়াডোব সড়কের খোকসা ও গাঁড়াডোব গ্রামের মাঠের মধ্যে পৌঁছানো মাত্র পেছন থেকে মোরসাইকেলে আসা দুইজন দুর্বৃত্ত তার গতিরোধ করে টাকা ভর্তি ব্যাগ ছিনতাইয়ের চেষ্টা করেন। তখন খাদেমুল ইসলামের সঙ্গে দুইজন দুর্বৃত্তের সঙ্গে ধস্তাধস্তি শুরু হয়। এক পর্যায়ে দুর্বৃত্তরা খাদেমুলকে পিছনে গুলি করে। এসময় খাদেমুল রস্তায় পড়ে চিৎকার শুরু করেন। এসময় একটি পাখি ভ্যান আসতে দেখে দুর্বৃত্তরা সেখান থেকে পালিয়ে যায়।

তিনি আরো জানান, খাদেমুল টাকাগুলো সিটি ব্যাংকের গাংনী এজেন্টে জমা দেওয়ার জন্য যাচ্ছিলেন।

গাংনী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বজলুর রহমান জানান, স্থানীয়রা খাদেমুলকে মুমূর্ষু অবস্থায় টাকার ব্যাগসহ উদ্ধার গাংনী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নেন। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে কুষ্টিয়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান। তার কাঁধে থাকা ব্যাগ থেকে ৪৬ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। দুর্বৃত্তদের ধরতে পুলিশের একাধিক দল অভিযান শুরু করেছে।

এদিকে খবর পেয়ে মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মহাজনপুর ইউপি চেয়ারম্যান আমাম হোসেন মিলু, গাংনী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা গাংনী থানায় খোঁজ নেন।


আরও খবর



সীমানা নির্ধারণ ছাড়াই করা যাবে সংসদীয় নির্বাচন

প্রকাশিত:শনিবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতীয় সংসদের নির্বাচনী এলাকার সীমানা নির্ধারণ বিল-২০২১ নামে নতুন আইন পাশ হয়েছে।

শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) আইনমন্ত্রী আইনটি পাসের প্রস্তাব করলে সংসদে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়।এর আগে বেলা ১১টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হয়। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ স্বাক্ষর করলেই পাস হওয়া বিলটি কার্যকর হবে।

এর ফলে সীমানা নির্ধারণ ছাড়াই করা যাবে সংসদীয় নির্বাচন। দৈব-দুর্বিপাকে কোনো এলাকার সংসদ নির্বাচনের সীমানা নির্ধারণ করা সম্ভব না হলে বিদ্যমান সীমানায় নির্বাচন হওয়ার বিধান রেখে আইনটি পাস হয়েছে।

এর আগে আইনটি পাস না করে কয়েকজন এমপি জনমত যাচাইয়ের প্রস্তাব দেওয়ার জন্য পুনরায় পাঠানোর দাবি জানালে তা কণ্ঠভোটে বাতিল হয়ে যায়।এ আইন কার্যকর হলে ১৯৭৬ সালের দ্য ডিলিমিটেশন অব কন্সটিটিউয়েন্সিস অর্ডিনেন্সরহিত হবে।

গত ৩ জুন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বিলটি সংসদে উত্থাপন করেছিলেন।পরে তা অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।

আইনে নির্বাচন কমিশনকে বিধি প্রণয়নের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে, যা বিদ্যমান আইনে নেই। এছাড়াও আইনটি আগে ইংরেজিতে ছিল, এখন তা বাংলায় করা হয়েছে।

নতুন বিলে বিদ্যমান আইনের ৮ নম্বর ধারায় একটি উপধারা যুক্ত করা হয়েছে। সেখানে বলা আছে, দৈব-দুর্বিপাকে বা অন্য কোনো কারণে আঞ্চলিক সীমানা নির্ধারণ করা না গেলে বিদ্যমান সীমানার আলোকে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সংসদের পঞ্চম সংশোধনী বাতিল সংক্রান্ত উচ্চ আদালতের আদেশ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এবং বাংলায় আইন করতেই মূলত বিলটি আনা হয়েছে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব নিয়ে রোডম্যাপ ঘোষণা করে বিদ্যমান আইনগুলোর সংস্কারের উদ্যোগ নেয়। গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে জাতীয় সংসদের নির্বাচনী এলাকার সীমানা নির্ধারণ আইনটি সংস্কারের ঘোষণাও দেয়া হয়। কিন্তু সেটা হয়নি। পরে বিদ্যমান আইনেই সীমানা পুনর্বিন্যাস করে ওই নির্বাচন সম্পন্ন করা হয়।

বিদ্যমান আইনের ৮টি ধারার স্থলে নতুন আইনে ৯টি ধারার প্রস্তাব করা হয়েছে। নতুন ধারাটিতে আইনের অধীনে বিধি প্রণয়নের সুযোগ রাখা হয়েছে। বিদ্যমান আইনে বিধি প্রণয়নের সুযোগ নেই। বিদ্যমান আইনের ধারা-১-এ একটি নতুন উপধারার প্রস্তাব করা হয়েছে, যেখানে আইনটি অবিলম্বে কার্যকর হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিলে আঞ্চলিক নির্বাচনী এলাকার সীমানা নির্ধারণের কথা বলা হয়েছে। এক্ষেত্রে সংবিধানের ৬৫(২) অনুচ্ছেদে উল্লিখিত সংখ্যক সংসদ সদস্য নির্বাচিত করতে পুরো দেশকে সে সংখ্যক একক আঞ্চলিক নির্বাচনী এলাকায় বিভক্ত করার কথা বলা হয়েছে।এক্ষেত্রে ভৌগলিক অখণ্ডতা বজায় রাখা এবং আদমশুমারির ভিত্তিতে যতদূর সম্ভব বাস্তবভিত্তিক বণ্টনের কথা বলা হয়েছে।

বিলের ৭ ধারায় বলা হয়েছে, ইসির সীমানা নির্ধারণের বিষয় নিয়ে দেশের কোনো আদালত বা অন্য কোনো কর্তৃপক্ষের কাছে প্রশ্ন তোলা যাবে না।

নিউজ ট্যাগ: সংসদীয় নির্বাচন

আরও খবর



ময়মনসিংহে র‍্যাবের সঙ্গে জঙ্গিদের গোলাগুলি, আটক ৪

প্রকাশিত:শনিবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ময়মনসিংহে র‍্যাবের সাথে জঙ্গিদের গোলাগুলি অস্ত্রসহ চারজনকে আটক করেছে র‍্যাব। শনিবার (০৪ সেপ্টেম্বর) দিবাগত ভোররাতে নগরীর খাগডহর এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে এ ঘটনা ঘটে। এতে কেউ হতাহত হয়নি।

র‍্যাব-১৪ এর অধিনায়ক মো. রোকনুজ্জামান এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল হান্নান খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জঙ্গিদের তৎপরতা ও অবস্থানের কথা জানতে পেরে র‍্যাব-১৪ এর একটি দল খাগডহর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। র‍্যাবের উপস্থিতি বুঝতে পেরে জঙ্গিরা গুলি ছুঁড়লে র‍্যাবও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুঁড়ে। কিছুক্ষণ গুলি বিনিময়ের পর ঘটনাস্থল থেকে চারজনকে আটক করা হয়।

তাদের নিকট থেকে গুলিভর্তি একটি বিদেশি রিভলভার, তিনটি চাপাতিসহ দেশিয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। তাৎক্ষনিকভাবে আটক চারজনের পরিচয় জানা যায়নি। তবে পরে বিস্তারিত সাংবাদিকদের জানানো হবে বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।


আরও খবর



চাঁপাইনবাবগঞ্জে কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৯৫জন দেখেছেন
Image

চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে আব্দুল্লাহ আল মামুন

আগামী ২০২১/২২ অর্থবছরে সদর উপজেলায় উচ্চ ফলনশীল পাট ও পাট বীজ আবাদ বৃদ্ধি ও উৎপাদনের লক্ষে বাংলাদেশ সরকারের কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে পাট বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ করা হয়েছে।

সোমবার সকাল ১১ টায় সদর উপজেলা পরিষদের হলরুমের সামনে কৃষকদের মাঝে প্রণোদনার বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ করেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ তসিকুল ইসলাম (তসি)।

সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইফফাত জাহানের সভাপতিত্বে সার বীজ বিতরণ অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা কৃষি অফিসার কানিজ তাসনোভা এবং সিনিয়র সদর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ মাসুদ রানা।

এ সময় নির্বাহী অফিসার ইফফাত জাহান বলেন, কৃষিবান্ধব সরকার কৃষকদের দুর্দশার কথা চিন্তা করে এই করোনাকালীন সময়ে কৃষি প্রণোদনা বিতরণের নির্দেশনা দিয়েছে কৃষি কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের। কৃষিকে আধুনিক ও বাণিজ্যিকভাবে লাভবান করার জন্য সরকার কৃষকদের প্রণোদনার মাধ্যমে উদ্বুদ্ধ করছে। কৃষকদের বিনামূল্যে সার, বীজ দিয়ে সহায়তা করছে। তারই ধারাবাহিকতায় আজ কৃষকদের মধ্যে এ সব উপকরণ বিতরণ করা হলো।

তিনি আরও বলেন, একটা সময় ছিলো যখন সারের দাবীতে ১৬ জন কৃষকের মৃত্যু হয়। বীজের জন্য ছিলো হাহাকার। কৃষিমন্ত্রী বলেছিলেন, সারের জন্য কৃষক ছুটবে না, সার কৃষকের বাসায় চলে যাবে। আর প্রধানমন্ত্রী দিন-রাত নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন, কৃষক বাঁচলেই দেশ বাঁচবে। তাই কৃষকদের সার ও বীজ যথাযথভাবে ব্যবহার করার অনুরোধ রইলো।


আরও খবর



ভারতের সঙ্গে ১০টি স্থলবন্দর খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতের সঙ্গে ১০টি স্থলবন্দর খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। ১৯ সেপ্টেম্বর সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত স্থলবন্দরগুলো কার্যক্রম শুরু করবে। পর্যটক ছাড়া অন্য সবাই এ বন্দরগুলো দিয়ে প্রবেশ করতে পারবেন। বাংলাদেশে প্রবেশের জন্য কোনও ধরনের নো-অবজেকশন সার্টিফিকেট (এনওসি) প্রয়োজন হবে না। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব (পূর্ব) মাশফি বিনতে সামস এ বিষয়ে বলেন, দুই দেশের করোনা মহামারি পরিস্থিতি উন্নতির কারণে আমরা স্থলবন্দরগুলো খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আগে পাঁচটি বন্দর খোলা ছিল। রোববার (১৯ সেপ্টেম্বর) থেকে আরো পাঁচটি বন্দর খুলে দেওয়া হবে। তবে স্থলবন্দরগুলো অনেকদিন বন্ধ থাকায় পুনরায় কার্যক্রম শুরু করতে সংশ্লিষ্টদের কয়েকদিন সময় দরকার।

গত ২৫ এপ্রিল থেকে স্থলবন্দর দিয়ে আগমন-নির্গমন বিষয়াদি পর্যবেক্ষণের জন্য পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনের নেতৃত্বে একটি আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটি গঠন করা হয়। এ কমিটি স্থলবন্দর-সংলগ্ন জেলাগুলোর স্থানীয় প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় দিকনির্দেশনা দিয়ে আসছে।

আন্তঃমন্ত্রণালয় কমিটির সদস্য হিসেবে রয়েছেন মাশফি বিনতে সামসও। তিনি বলেন, আমরা গত পাঁচ মাসে ১০টি বৈঠক করেছি। স্থানীয় প্রশাসনকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছি, যাতে ভারত থেকে করোনা বাংলাদেশে দ্রুত ছড়াতে না পারে। এর সুফলও আমরা পেয়েছি। কারণ ভারতে যখন প্রকোপ কমেছে, তখন বাংলাদেশে সংক্রমণ কিছুটা বেড়েছে। কিন্তু ওই সময় আমরা ভারত থেকে প্রয়োজনীয় আমদানি করতে পেরেছি, যা অন্য সময় সহজ হতো না।

 


আরও খবর



‘এশিয়াস গ্রেটেস্ট ব্র্যান্ড ২০২০-২১’ অ্যাওয়ার্ড পেল বসুন্ধরা টিস্যু

প্রকাশিত:শনিবার ২৮ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৮ আগস্ট ২০২১ | ৬০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এশিয়াস গ্রেটেস্ট ব্র্যান্ড ২০২০-২১ অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে দেশের শীর্ষস্থানীয় শিল্পগোষ্ঠী বসুন্ধরা গ্রুপের পণ্য বসুন্ধরা টিস্যু। 

শুক্রবার (২৭ আগস্ট) অনলাইন প্লাটফর্মে অনুষ্ঠিত ১৪তম এশিয়া-আফ্রিকা বিজনেস অ্যান্ড সোশ্যাল ফোরাম: অ্যাওয়ার্ড অ্যান্ড বিজনেস ই-সামিট শীর্ষক সম্মেলনে এ অ্যাওয়ার্ড ঘোষণা করা হয়। প্রতিবছর ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে অসামান্য অবদানের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এ পুরস্কার দেয় এশিয়াওয়ান ম্যাগাজিন ও ইউআরএস মিডিয়া। 

বসুন্ধরা গ্রুপ একটি সমৃদ্ধ ও উন্নয়নশীল দেশ গড়ার লক্ষ্যে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে বলে মন্তব্য করেছেন আয়োজকরা। 

বাংলার ঘরে ঘরে দীর্ঘ ২২ বছর ধরে বসুন্ধরা টিস্যু একটি নাম, একটি সাফল্য গাথা। বসুন্ধরা টিস্যু বাংলাদেশের মানুষকে দিয়েছে সুস্থভাবে জীবনযাপনের পদ্ধতি। যে টিস্যু একসময় ছিল উচ্চবিত্তের ঘরের শোভা, সেটি এখন ছড়িয়ে পড়েছে বাংলার প্রতিটি ঘরে শুধু বসুন্ধরা টিস্যুর কল্যাণে। বসুন্ধরা টিস্যু বাংলাদেশের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছে পরিচ্ছন্ন জীবনের প্রতিশ্ৰুতি আর অর্জন করেছে অগণিত ভোক্তার আস্থা ও ভালোবাসা। এর আগে বসুন্ধরা টিস্যু অর্জন করেছে সুপারব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড। এছাড়া পরপর তিনবার ২০১৮, ২০১৯, ২০২০ সালে বসুন্ধরা টিস্যু অর্জন করেছে বেস্ট ব্র্যান্ড অ্যাওয়ার্ড।

এবার এশিয়া, মধ্যপ্রাচ্য এবং আফ্রিকার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, ব্যবসায়িক ও সামাজিক নেতাদের পারস্পরিক কল্যাণ ও সহযোগিতার জন্য একটি বৈশ্বিক প্ল্যাটফর্ম তৈরিতে কাজ শুরু করেছে এশিয়াওয়ান মিডিয়া গ্রুপ। তারই অংশ হিসেবে অনুষ্ঠিত হলো এশিয়া আফ্রিকা বিজনেস অ্যান্ড সোশ্যাল ফোরামের ১৪তম আসর।

আয়োজনে এশিয়ার বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রদূত, সমাজকর্মী, উদ্যোক্তা, চলচ্চিত্র অভিনেতা-অভিনেত্রী, চলচ্চিত্র পরিচালক, ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব, অর্থনৈতিক উপদেষ্টাসহ সিঙ্গাপুর, দুবাই, থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, ভারত, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, চীন/হংকং, মিয়ানমার, কম্বোডিয়া, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, মালয়েশিয়া, মরক্কো, নাইজেরিয়া এবং দক্ষিণ আফ্রিকার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সংগঠন, নেতৃবৃন্দ, ব্র্যান্ড, সিএসআর, মার্কেটিং ব্যক্তিত্বকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।

উল্লেখ্য, এশিয়াওয়ান একটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান এবং এটি এশিয়ার মধ্যপ্রাচ্য ও আফ্রিকার ১২টিরও বেশি দেশে প্রচলিত একমাত্র ব্যবসাভিত্তিক ম্যাগাজিন। এশিয়াওয়ান মিডিয়া প্রতিবছরই গবেষণাভিত্তিক একটি তালিকা তৈরি করে থাকে এবং সে অনুযায়ী অগ্রগামীদের সম্মান জানায়।



আরও খবর
সপ্তাহের ব্যবধানে দাম বেড়েছে সবজির

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

পুঁজিবাজারে সূচকের মিশ্র প্রবণতা

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১