আজঃ সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

দাম কমেছে পেঁয়াজ ও কাঁচামরিচের

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ নভেম্বর ২০২১ | ৩৩৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাইকারি বাজারে কমেছে ভারত থেকে আমদানিকৃত পেঁয়াজ ও কাঁচামরিচের দাম। তিন দিনের ব্যবধানে পেঁয়াজ কেজিপ্রতি প্রকারভেদে ৫ থেকে ৬ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে ৩৫ থেকে ৩৬ টাকা এবং কাঁচামরিচ কেজিপ্রতি ১০ টাকা কমে বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়।

আমদানি বেশি হওয়ায় দাম কমেছে, বলছেন ব্যবসায়ীরা। দাম কমাতে খুশি সাধারণ ক্রেতারা। সোমবার হিলি বাজার ঘুরে এ তথ্য পাওয়া যায়।

তিন দিন আগেও পেঁয়াজ ও কাঁচামরিচের দাম অনেকটাই বেশি ছিল। এখন কিছুটা দাম কমেছে। তবে কাঁচামরিচ ৩০ টাকার নিচে এবং পেঁয়াজ ২০ টাকার মধ্যে থাকলে সাধারণ ক্রেতাদের জন্য সুবিধা হতো।

এদিকে গত সপ্তাহে পেঁয়াজের আমদানি কম হওয়াতে দাম বেশি ছিল। বর্তমানে চলতি সপ্তাহে আমদানি বৃদ্ধি পাওয়াতে কমতে শুরু করেছে দাম। সোমবার হিলি পাইকারি বাজারে ভারতীয় পেঁয়াজ কেজিপ্রতি ৩৫ থেকে ৩৬ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আমদানি বেশি হলে আরও দাম কমতে পারে বলেও জানান বিক্রেতারা।

অন্যদিকে দেশীয় বাজারে কাঁচামরিচের সরবরাহ বৃদ্ধি এবং ভারত থেকে আমদানি অব্যাহত থাকায় কমতে শুরু করেছে দাম। গত তিন দিনের ব্যবধানে ১০ টাকা কমে কেজিপ্রতি কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকায়। দাম কমার কারণে ক্রেতার সংখ্যাও বৃদ্ধি পেয়েছে। 

হিলি কাস্টমসের তথ্যমতে, চলতি সপ্তাহের দুই কর্মদিবসে ভারতীয় ৩১ ট্রাকে ৮৩২ টন পেঁয়াজ এবং ৪ ট্রাকে ৪২ টন কাঁচামরিচ আমদানি হয়েছে হিলি বন্দর দিয়ে।

 


আরও খবর
আগামীকাল জাতীয় আয়কর দিবস

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটে ৯০ শতাংশই ফেল

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | ৩৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ৯০ শতাংশের বেশি শিক্ষার্থী অকৃতকার্য হয়েছেন।  এ পরীক্ষায় পাসের হার ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ।

বুধবার ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। বেলা ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান প্রশাসনিক ভবনের অধ্যাপক আবদুল মতিন ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে আনুষ্ঠানিকভাবে ভর্তি পরীক্ষার এ ফল ঘোষণা করেন।

ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় ২৩ অক্টোবর। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের  ইউনিটে আসন সংখ্যা ১৫৭০ (বিজ্ঞান: ১১১৭, ব্যবসায় শিক্ষা: ৪০০, মানবিক: ৫৩)।  আবেদন করেছিলেন ১ লাখ ১৫ হাজার ৮৮১ জন।  এরমধ্যে ৮১,০০৭ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেন।

ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন ৭৯৯৪ জন।  এর মধ্যে বিজ্ঞানে ৬০৭১, ব্যবসায় শিক্ষায় ১৪৮৯ এবং মানবিক বিভাগে ৪৩৪ জন উত্তীর্ণ হয়েছেন। উত্তীর্ণের হার ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ শিক্ষার্থী। আর ফেল করেছেন ৯০ দশমিক ১৩ শতাংশ শিক্ষার্থী।


আরও খবর



৪০ শতাংশের বেশি বাস ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | ৬৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জ্বালানি তেলের দাম বাড়ার প্রেক্ষিতে পরিবহন মালিকদের দাবির মুখে গণপরিবহনে নতুন করে ভাড়া সমন্বয়ের প্রস্তাব করা হয়েছে। যেখানে বাসভাড়া গড়ে ৪০ শতাংশের বেশি বাড়ানোর প্রস্তাব এসেছে।

নতুন প্রস্তাবে বলা হয়েছে, দূরপাল্লার বর্তমান বাসভাড়া প্রতি কিলোমিটারে ১ টাকা ৪২ পয়সা, তা বাড়িয়ে ২ টাকা করার প্রস্তাব হয়েছে। অর্থাৎ এতে কিলোমিটার প্রতি যাত্রীকে বাড়তি ৫৮ পয়সা গুনতে হবে। ভাড়া বৃদ্ধির এ হার ৪০.৮৫ শতাংশ।

এছাড়া মহানগরে বাসের বর্তমান ভাড়া কিলোমিটারে ১ টাকা ৭০ পয়সা, প্রস্তাব হয়েছে ২ টাকা ৪০ পয়সা করার। এতে ৭০ পয়সা ভাড়া বাড়বে। বাড়তি ভাড়ার এ শতকরা হার ৪১ দশমিক ১৮ শতাংশ। মহানগরে মিনিবাসের বর্তমান ভাড়া প্রতি কিলোমিটারে ১ টাকা ৬০ পয়সা। এটি বাড়িয়ে ২ টাকা ৪০ পয়সা করার প্রস্তাব করা হয়েছে। এতে ভাড়া বাড়ে কিলোমিটার প্রতি ৮০ পয়সা। ভাড়া বৃদ্ধির এ হার ৫০ শতাংশ।

রোববার (৭ নভেম্বর) দুপুরে রাজধানীর বনানীতে বিআরটিএ কার্যালয়ে জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর প্রেক্ষাপটে গণপরিবহনে ভাড়া পুনর্নির্ধারণে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) সঙ্গে পরিবহন মালিক সমিতির নেতাদের বৈঠক থেকে এ প্রস্তাব দেওয়া হয়।

জ্বালানি তেলের দাম লিটারে ১৫ টাকা করে বাড়ানোর প্রতিবাদে সারাদেশে তিনদিন ধরে পরিবহন ধর্মঘট চলছে। পরিবহন মালিকরা শুরু থেকেই হয় ভাড়া সমন্বয় অথবা ডিজেলের দাম কমানোর দাবি জানাচ্ছিলেন।


আরও খবর



দেশে করোনায় মৃত্যু বাড়ল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়াল ২৭ হাজার ৯৭০ জনে। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এর আগে গত কয়েকদিনে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা ২-৩ জনের মধ্যে ছিল। 

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২৩৭ জনের শরীরে করোনা ধরা পড়েছে। এ নিয়ে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৭৫ হাজার ১২৫ জনে।


আরও খবর
করোনায় ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৭

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




করোনাকে জৈবিক অস্ত্র হিসেবে তৈরি করা হয়নি : যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ৩০ অক্টোবর ২০২১ | ৫১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা বলছে, করোনার উৎস হয়তো কখনোই চিহ্নিত করা সম্ভব হবে না। তবে তারা এই সিদ্ধান্তে এসেছেন যে, এটি জৈবিক অস্ত্র হিসেবে তৈরি করা হয়নি। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে প্রথম চীনের উহান শহরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত হয়। তারপর থেকেই করোনা ছড়িয়ে পড়ার পেছনে চীনকেই দায়ী করে আসছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে প্রথম থেকেই এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে বেইজিং।

করোনার মূল উৎস কোথায় সে বিষয়ে সর্বশেষ মূল্যায়নে যুক্তরাষ্ট্রের অফিস অব দ্য ইউএস ডিরেক্টর অব ন্যাশনাল ইন্টিলিজেন্স (ওডিএনআই) জানিয়েছে, প্রাণী থেকে মানুষের দেহে এই ভাইরাসের সংক্রমণ অথবা এটি ল্যাব থেকে ছড়িয়ে পড়তে পারে এই দুই যুক্তিই ছিল অনেকটা অনুমান নির্ভর।

কিন্তু একটি নির্দিষ্ট সিদ্ধান্তে পৌঁছানোর জন্য পর্যাপ্ত তথ্য পাওয়া যায়নি বলে জানানো হয়েছে। এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের ওই প্রতিবেদনের সমালোচনা করেছে চীন।

এর আগে গত আগস্টে এ সংক্রান্ত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের প্রশাসন। এবার ৯০ দিনের পর্যালোচনা শেষে সর্বশেষ প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হলো।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের সম্ভাব্য উৎস নিয়ে এখনও গোয়েন্দা সদস্যদের মধ্যে মতপার্থক্য রয়েছে। চারটি সংস্থা তুলনামূলক কম আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে এটি মূল্যায়ন করেছে যে, এর উৎস আক্রান্ত কোনো প্রাণী বা সম্পর্কিত ভাইরাস থেকে।

তবে অপর একটি সংস্থা মোটামুটি আত্মবিশ্বাস নিয়ে বলছে যে, প্রথমবার মানবদেহে এই ভাইরাসের সংক্রমণ সম্ভবত একটি পরীক্ষাগার থেকে দুর্ঘটনার ফলাফল ছিল। সম্ভবত উহান ইনস্টিটিউট অব ভাইরোলজি এ ক্ষেত্রে সম্পৃক্ত থাকতে পারে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, উহান শহরে ২০১৯ সালের শেষের দিকে যখন করোনার প্রাদুর্ভাব শুরু হলো তখন চীনা কর্মকর্তারা এ বিষয়ে অজ্ঞ ছিলেন। তবে সবকিছুর পরেও চীনের দিকে এই অভিযোগ আনা হয়েছে যে, প্রথম থেকেই তারা বিশ্বব্যাপী তদন্তকে বাধাগ্রস্ত করছে এবং কারো সঙ্গে তথ্য ভাগ করতে ইচ্ছুক ছিল না।

উহানে প্রথম যে কয়েকজনের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে সেগুলোকে উহানের একটি সামুদ্রিক খাবারের বাজারের সঙ্গে যুক্ত করেছে চীনা কর্তৃপক্ষ এবং বিজ্ঞানীদের এই তত্ত্বের দিকেই পরিচালনা করা হয়েছে যে, ভাইরাসটি প্রথম প্রাণী থেকে মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়েছে।

কিন্তু চলতি বছরের শুরুর দিকে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে বার বার এ বিষয়ে প্রমাণ চাওয়া হয়েছে যে, ভাইরাসটি উহাব পরীক্ষাগার থেকে ছড়িয়ে পড়তে পারে এবং সম্ভবত একটি দুর্ঘটনা।

এরপর গত মে মাসে করোনাভাইরাসের উৎস জানতে তদন্ত কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সে সময় চীনের ল্যাব থেকে ছড়িয়ে পড়ার বিষয়টিকেও গুরুত্ব দেওয়া হয় এবং সে বিষয়েও তদন্ত করতে বলা হয়।

এদিকে ওয়াশিংটনে নিযুক্ত চীনা দূতাবাস বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, করোনাভাইরাসের উৎস খুঁজে বের করার জন্য যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা কর্মকর্তাদের উপর নির্ভর করার পদক্ষেপটি সম্পূর্ণ ভাবে একটি রাজনৈতিক প্রহসন।

ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, আমরা করোনাভাইরাসের উৎস সন্ধানে বিজ্ঞানভিত্তিক প্রচেষ্টাকে সমর্থন করে আসছি এবং সক্রিয়ভাবে এর সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকবো। এই ইস্যু নিয়ে রাজনৈতিক করার প্রচেষ্টাকে আমরা দৃঢ়ভাবে বিরোধিতা করে আসছি।


আরও খবর
ফেরি চলাচল স্বাভাবিক

বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১




আগাম আলু তুলতে ব্যস্ত কৃষকেরা

প্রকাশিত:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | ৩৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নীলফামারী কিশোরগঞ্জ উপজেলার কৃষকেরা আগাম আলু তুলতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। ফলন একটু কম হলেও চড়া দামে বিক্রি করে লাভবান হবেন এমনটাই আশা করছেন আলু চাষিরা। দেশের বাজারে এই প্রথম নতুন আলু উঠতে শুরু করেছে। এ আলু ঢাকা, চট্টগ্রাম, বরিশাল, খুলনাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানের সরবরাহ করা হয়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, কৃষক মমিনুর রহমান জানান, ২ বিঘা জমিতে আলু লাগিয়েছি ভালো দামের আশায়। তবে জমি উঁচু হওয়ায় আশ্বিনা বৃষ্টিপাতে তেমন কোন ক্ষতি হয়নি। এখন সেই জমির আলু তুলছি। যা ১০ থেকে ১২ বস্তা আলু হবে। এতে খরচ বাদে দ্বিগুণ টাকা আয় হবে। স্থানীয় কৃষকরা জানান, আগাম আলুর মৌসুমে বৈরী আবহাওয়ায় কারণে আগাম আলু চাষিরা বিপাকে না পড়লে ইতোমধ্যে ৩০ শতাংশ জমির আলু বাজারে চলে আসত। এখন আলু তোলা শুরু হয়েছে।

আর কদিন গেলে উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে আলু উত্তোলন শুরু হবে। তবে বাজার দর ঠিক থাকলে আলু চাষিরা লাভবান হবেন। আলু উত্তোলনের পর ওই জমিতে পুনরায় নমলা আলুসহ  সাথী ফসল হিসেবে ভুট্রা, মিষ্টি কুমড়া, কাঁচামরিচ ও শীতকালীন সবজি চাষ করা হয়। পরবর্তীতে ওই ফসলগুলোতে সার প্রয়োগের প্রয়োজন হয় না।

কিশোরগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার মো. হাবিবুর রহমান জানান, চলতি বছর ৬ হাজার ৫০০ হেক্টর জমিতে আলু চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। নতুন আলু উঠতে শুরু করেছে। বর্তমান আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় আলুর বাম্পার ফলনের আশা করা হচ্ছে। কৃষকরা ভাল দাম পেলে আগামীতে আগাম আলু চাষে উৎসাহিত হবেন। মাঠ পর্যায়ে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা প্রতিনিয়ত কৃষকদের পরামর্শ দিচ্ছেন।

 

নিউজ ট্যাগ: আগাম আলু

আরও খবর
চা-চাষে সম্ভাবনার দুয়ার খুলেছে নীলফামারীতে

বৃহস্পতিবার ০৭ জানুয়ারী ২০২১