আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

ডেঙ্গু: হাসপাতালে ভর্তি আরও ১৪ জন

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৩০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে আরও ১৪ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তবে এ সময়ে নতুন করে ডেঙ্গুতে কারো মৃত্যু হয়নি। এর আগের দিন (মঙ্গলবার) ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন তিনজন।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) সারাদেশের পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের নিয়মিত ডেঙ্গু বিষয়ক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়াদের মধ্যে ১৪ জনই ঢাকা বাইরের জেলার বাসিন্দা। তারা ঢাকার বাইরে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসাধীন। তবে এই সময়ে ঢাকায় নতুন কোন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হননি।

এ নিয়ে বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ভর্তি থাকা ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৩৯ জনে। ঢাকার বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ২২ জন এবং অন্যান্য বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন ১৭ জন।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত হাসপাতালে সর্বমোট রোগী ভর্তি হয়েছেন ৯১ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৫২ জন। এই বছর এখন পর্যন্ত ডেঙ্গুতে কোনো মৃত্যু নেই।

নিউজ ট্যাগ: ডেঙ্গু জ্বর

আরও খবর



শাবিপ্রবি’র শিক্ষার্থীদের অনশন চলছে

প্রকাশিত:শুক্রবার ২১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জানুয়ারী ২০২২ | ১৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদকে অপসারণের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আমরণ অনশন চলমান রয়েছে। এরই মধ্যে অনশনে থাকা ছয় শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এরপরও অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। ফলে উপাচার্যকে অপসারণের আন্দোলন আরও জোরালো হচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে। আন্দোলনে যোগ দেওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যাও বাড়ছে।

এমনকি, বিশ্ববিদ্যালয়ের হল-ক্যান্টিন বন্ধ থাকায় খাবারের সংকট মেটাতে এগিয়ে এসেছেন সাবেক শিক্ষার্থীরা। রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের খেলার মাঠে রান্না করা হচ্ছে খাবার। এ আন্দোলন শুরু হ‌ওয়ার পর থেকে প্রতিদিন সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ফটকের পাশের দোকানপাট‌ বন্ধ করে দেয় পুলিশ।

তবে, সিলেট মহানগর পুলিশের (এস‌এমপি) ডিসি আজবাহার আলী শেখ অভিযোগটি অস্বীকার করে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ-পরিস্থিতি স্বাভাবিক ও বাইরে মানুষের জমায়েত ঠেকাতে দোকানপাট বন্ধ করা হয়েছে।

যদিও গতকাল সন্ধ্যার পর দোকানপাট খোলা থাকতে দেখা যায়। তবে বিপুল শিক্ষার্থীদের খাদ্য সহায়তায় এগিয়ে আসার বিষয়টি শিক্ষার্থীদের মনোবল আরও বাড়িয়েছে।

এরই মধ্যে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে মশাল মিছিলের আয়োজন করেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। সেখানে কয়েকশ শিক্ষার্থী উপাচার্যবিরোধী বিভিন্ন স্লোগান দেন।

এদিকে, প্রচণ্ড শীতে অনশনরত শিক্ষার্থীদের শারীরিক অবস্থা আরও খারাপের দিকে যাচ্ছে। তবে শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন, দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত তাঁদের আন্দোলন চলবে।

এর আগে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের এক প্রেস ব্রিফিংয়ে পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মুহাইমিনুল বাশার বলেন, অনশনে থাকা শিক্ষার্থীদের শারীরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি হচ্ছে। এরই মধ্যে কয়েকজনকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। বাকিদের অবস্থাও অনেক খারাপ। কয়েকজন খারাপ অবস্থার মধ্যেও চিকিৎসকের পরামর্শ উপেক্ষা করে অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন। এরপরেও একটি চেয়ার ধরে রাখতে গিয়ে তিনি (উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদ) এতোজন শিক্ষার্থীর জীবন বিপন্ন হ‌ওয়াটা দেখে যাচ্ছেন।

নিউজ ট্যাগ: শাবিপ্রবি

আরও খবর
গণ-অনশনে শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২




সেন্ট গ্রেগরিজ থেকে সরিয়ে দেওয়া হলো প্রদীপ প্লাসিড গোমেজকে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ ডিসেম্বর ২০২১ | ৬৯৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকার লক্ষ্মীবাজারে অবস্থিত সেন্ট গ্রেগরিজ হাই স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ব্রাদার প্রদীপ প্লাসিড গোমেজ (সি,এস,সি) গত ১৫ ডিসেম্বর ( বৃহস্পতিবার) শিক্ষকদের জন্য দেওয়া এক নোটিশে তার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে হিজাব/বোরখা নিষিদ্ধ করে এবং তাদেরকে শ্রেণিকক্ষ বা ক্যাম্পাসে এই সব কর্মকাণ্ড পরিচালনা না করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন।

সেই নির্দেশের পরে ক্ষোভে ফেটে পরে সেন্টগ্রেগরিজ হাই স্কুল এন্ড কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা।  ব্রাদার প্রদীপ প্লাসিড গোমেজ, অর্থলোভী, স্বেচ্ছাচারী, ধর্মবিদ্বেষী ভর্তি বানিজ্যের সাথে যুক্ত দাবি করে তার পদত্যাগ চায় এই প্রতিষ্ঠানের সাবেক শিক্ষার্থীরা। এ নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হয় পাঠকপ্রিয় সংবাদপত্র আজকের দর্পণ এর প্রিন্ট এবং অন-লাইনে। যা মুহুর্তেই ভাইরাল হয়। এরপর টনক নড়ে কর্তৃপক্ষের। হলিক্রস ব্রাদারদের সর্বোচ্চ পর্যায় বৈঠক থেকে  ব্রাদার প্রদীপ প্লাসিড গোমেজ (সি,এস,সি) -কে সেন্ট গ্রেগরিজ উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ পদ থেকে অপসারণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। যা আজ বৃহস্পতিবার (ডিসেম্বর ২৩) তারিখে কার্যকর করা হয়েছে।

প্রাক্তন গ্রেগোরিয়ান আওলাদ হোসেন অন্তু জানান, হিজাব নিষেধের দ্বারা ব্রাদার প্রদীপ একটি ধর্মবিরোধী এবং অসাম্প্রদায়িক কর্মে লিপ্ত হয়েছিলেন । এ ছাড়াও তিনি  আরো অনেক কার্যকলাপ করেছেন যার ভেতর থেকে  প্রকাশ পেয়েছিল যে তিনি একজন মানুষিক অসুস্থ ব্যক্তি ।  তিনি গার্ডিয়ানদের সাথে খারাপ আচরণ, প্রাক্তন গ্রেগোরিয়ানদের OUTSIDER বলে অপমান করেছেন ।

এভাবে তিনি আমাদের সুনামধারী স্কুলের বদনাম করছেন । তাকে যেন দ্রুত সরিয়ে নেয়া হয় আমাদের স্কুল থেকে সেজন্য আমরা সবাই প্রতিবাদ এ নেমেছিলাম । আজকে আমরা সফল হলাম।

সাবেক আরেক শিক্ষার্থী মুক্তাদির মাওলা জানান, ব্রাদার প্রদীপ প্লাসিড গোমেজ তার খেয়ালখুশি মত ঐতিহ্যবাহী এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করে আসছেন যা কোন ভাবেই কাম্য নয়।

আরো পড়ুন: হিজাব নিষিদ্ধ করলো সেন্ট গ্রেগরী উচ্চ বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ

মোহাম্মদ আব্দুল বারি খান মামুন নামে এক শিক্ষার্থী জানান, ১৯৭১ সালের ৩১ মার্চ এই স্কুলের প্রাঙ্গণ থেকে ছাত্র, শিক্ষকসহ মোট ৩০ জনকে পাক হানাদার বাহিনী জগন্নাথ কলেজ সংলগ্ন আর্মি ক্যাম্প এ ধরে নিয়ে যায় ও নির্মম ভাবে হত্যা করে। এই দিন শ্রদ্ধেয় শিক্ষক পি ডি কস্তাসহ আরো একাধিক শিক্ষককে নির্মম ভাবে হত্যা করা হয়। শহীদদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে নির্মিত স্থাপনাটাও পূর্বের অবস্থান থেকে সরিয়ে একটি পরিত্যাক্ত স্থানে নিয়ে গেছেন। যা মুক্তিযুদ্ধের চেতানা বিরোধী।

অধ্যক্ষ ব্রাদার প্রদীপ প্লাসিড গোমেজ (সি,এস,সি) অপসারণের বিষয়টিকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সাবেক শিক্ষার্থীরা। তারা মনে করেন নতুন যে অধ্যক্ষ আসবেন তিনি এই প্রতিষ্ঠানের হারানো ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হবেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সেন্ট গ্রেগরিজ স্কুল অ্যান্ড কলেজে সব মিলিয়ে ১৪০ জন মতো শিক্ষক রয়েছেন। তার মধ্যে মুসলিম নারী শিক্ষক ৯ জন। হিজাব পরেন ৬ জন শিক্ষিকা। এই প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের সংখ্যা প্রায় ৪ হাজার মতো।


আরও খবর
গণ-অনশনে শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২




ভালোবাসা দিবসে প্রেমে পড়বেন প্রভাস-পূজা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | ১৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কোভিড সংক্রমণ কিছুটা কমার লক্ষণ দেখতেই ছবি মুক্তির ভাবনা শুরু বলিউডের। প্রযোজকদের আশা, কিছু দিনের মধ্যে হয়তো গোটা দেশেই ফের খুলবে প্রেক্ষাগৃহ।

আর তাই হলে ছবি মুক্তির তোড়জোড় শুরুর পথে এগোতে চাইছেন অনেকেই। তাঁদের মধ্যেই রয়েছেন 'লাল সিং চড্ডা'র প্রযোজক আমির খান এবং 'রাধেশ্যাম' ছবির প্রযোজনা সংস্থা।

করোনা কালে প্রেক্ষাগৃহ খুললেও হয়তো থাকবে ৫০ শতাংশ। তাতেও দমে যেতে রাজি নয় বলিউড। কারণ একই পরিস্থিতিতে ভাল ব্যবসা করেছে 'স্পাইডারম্যান' এবং 'পুষ্পা: দ্য রাইজ'। ফলে ৫০ শতাংশ দর্শক নিয়েও প্রেক্ষাগৃহেই ছবির মুক্তি চান প্রযোজক-পরিচালকেরা।

কবে মুক্তি পাবে 'রাধেশ্যাম' কিংবা 'লাল সিং চড্ডা'?

বলি পাড়ার খবর, ১৪ ফেব্রুয়ারি, ভ্যালেনটাইন্স ডে-তেই ছবি মুক্তির কথা ভেবে রেখেছে প্রযোজনা সংস্থা। অন্য দিকে, 'লাল সিং চড্ডা'র মুক্তি নিয়েও ভাবনাচিন্তা শুরু করেছেন প্রযোজক আমির খান। শোনা যাচ্ছে, এ বার সলমনের জুতোয় পা গলাতে পারেন আমির। 'লাল সিং চড্ডা' মুক্তি পেতে পারে ইদের দিনে।


আরও খবর



বিশ্ববাজারে বেড়েছে স্বর্ণের দাম

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | ২৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এক সপ্তাহ কিছুটা কমার পর গেল সপ্তাহে বিশ্ববাজারে আবার বেড়েছে স্বর্ণের দাম। স্বর্ণের পাশাপাশি বেড়েছে রুপার দামও। সেই সঙ্গে বেড়েছে আরেক দামি ধাতু প্লাটিনামের দাম।

স্বর্ণের দাম গেল এক সপ্তাহে বেড়েছে ১ দশমিক ২১ শতাংশ। রুপার দাম বেড়েছে ২ দশমিক ৯২ শতাংশ এবং প্লাটিনামের দাম বেড়েছে ১ দশমিক ৫৬ শতাংশ।

এই দাম বাড়ার আগে বিশ্ববাজারে স্বর্ণ, রুপা ও প্লাটিনামের দাম কিছুটা কমেছিল। গেল সপ্তাহের আগের সপ্তাহে স্বর্ণের দাম কমে ১ দশমিক ৭৬ শতাংশ। রুপার দাম কমে ৩ দশমিক ৯২ শতাংশ। আর প্লাটিনামের দাম কমে দশমিক ৭৩ শতাংশ। অবশ্য তার আগে টানা তিন সপ্তাহ স্বর্ণের দাম বাড়ে।

তথ্য পর্যালোচনায় দেখা গেছে, গেল সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম কমে ৪ দশমিক ৮০ ডলার বা দশমিক ২৬ শতাংশ। এরপরও সপ্তাহের ব্যবধানে স্বর্ণের দাম বেড়েছে ১ দশমিক ২৬ শতাংশ বা ২১ ডলার।

এতে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৮১৭ দশমিক ২৯ ডলার। আগের সপ্তাহের স্বর্ণের দাম কমে ৩১ দশমিক ৬১ ডলার। তার আগের তিন সপ্তাহ টানা দাম বাড়ার মাধ্যমে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ১ হাজার ৮২৭ দশমিক ৯০ ডলারে উঠে আসে।

অবশ্য টানা তিন সপ্তাহ দাম বাড়ার আগে বিশ্ববাজারে স্বর্ণের টানা চার সপ্তাহ দরপতন হয়। এতে এক মাসের মধ্যে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম প্রায় ৭৯ ডলার বা ৪ দশমিক ২৪ শতাংশ কমে যায়।

বিশ্ববাজারে টানা দরপতন হতে থাকাই গত ১৫ ডিসেম্বর থেকে দেশের বাজারেও স্বর্ণের দাম কমিয়ে দেয় বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস)। এতে বর্তমানে সবচেয়ে ভাল মানের বা ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম হয়েছে ৭৩ হাজার ১৩ টাকা।

এছাড়া ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণ ৬৯ হাজার ৯৮৪ টাকা, ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি স্বর্ণ ৬১ হাজার ২৩৬ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণ ৫০ হাজার ৯১৪ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

স্বর্ণের দাম কমানো হলেও রুপার আগের নির্ধারিত দামই বহাল রাখা হয়। ২২ ক্যারেটের প্রতি ভরি রুপার মূল্য এক হাজার ৫১৬ টাকা। ২১ ক্যারেটের রুপার দাম এক হাজার ৪৩৫ টাকা, ১৮ ক্যারেটের এক হাজার ২২৫ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির রুপার দাম ৯৩৩ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

এদিকে, স্বর্ণের পাশাপাশি গেল এক সপ্তাহে বিশ্ববাজারে রুপার দামও বেড়েছে। গেল এক সপ্তাহে ২ দশমিক ৯২ শতাংশ বেড়ে প্রতি আউন্স রুপার দাম দাঁড়িয়েছে ২২ দশমিক ৯৫ ডলারে। এতে মাসের ব্যবধানে রুপার দাম বেড়েছে ৪ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ।

আরেক দামি ধাতু প্লাটিনামের দাম গত সপ্তাহজুড়ে বেড়েছে ১ দশমিক ৫৬ শতাংশ। এতে প্রতি আউন্স প্লাটিনামের দাম দাঁড়িয়েছে ৯৭০ দশমিক শূন্য ৯ ডলার। এই দাম বাড়ার মাধ্যমে মাসের ব্যবধানে প্লাটিনামের দাম বেড়েছে ৫ দশমিক ৬২ শতাংশ।

নিউজ ট্যাগ: স্বর্ণের দাম

আরও খবর



২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু বাড়লেও কমেছে শনাক্ত

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩ হাজার ৪৪৭ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ৭ জন মারা গেছেন বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ২৮ হাজার ১৩৬ জন, শনাক্ত ১৬ লাখ ১২ হাজার ৪৮৯ জন। শনিবার ( ১৫ জানুয়ারি) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৩৫ শতাংশ। শুক্রবার এই হার ছিল ১৪ দশমিক ৬৬ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ২৯৪ জন এবং এখন পর্যন্ত সুস্থ ১৫ লাখ ৫২ হাজার ৬০০ জন। স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ২৩ হাজার ২১১টি। নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ২৪ হাজার ২৮টি। এখন পর্যন্ত এক কোটি ১৮ লাখ ৩২ হাজার ১২০টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতর আরও জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় প্রতি ১০০ নমুনার বিপরীতে পজিটিভ শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৩৫ শতাংশ। এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৬৩ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় প্রতি ১০০ জনে সুস্থতার হার ৯৬ দশমিক ২৯ শতাংশ এবং মারা গেছেন ১ দশমিক ৭৪ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে ৪ জন পুরুষ এবং ৩ জন নারী। তাদের মধ্যে ২ জনের বয়স ৭১ থেকে ৮০ বছর,  তিন জনের বয়স  ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে, একজনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছর। এছাড়া ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী একজন।

বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়, মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৪ জন, বরিশালে ১ জন এবং সিলেটে ২ জন  মারা গেছেন। তাদের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন ৪ জন এবং ৩ জন বেসরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন।


আরও খবর