আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

ধামরাইয়ে ঐতিহ্যবাহী পৌষ সংক্রান্তি ও সাকরাইলের মেলা

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৩২৫জন দেখেছেন

Image

ধামরাই (ঢাকা ) প্রতিনিধি:

সনাতনধর্মাবলম্বী হিন্দু সম্প্রদায়ের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উৎসব এর মধ্যে শুভ পৌষ সংক্রান্তি বা মকর সংক্রান্তি উৎসব দেশের বিভিন্ন স্থানে উদযাপন করা হয় সেই পৌষ সংক্রান্ত বা মকর সংক্রান্তি উৎসব উপলক্ষে সমগ্র দেশের বিভিন্ন স্থানে পৌষ মেলায় হাজার হাজার মানুষের মিলন মেলায় পরিণত হয়।

বাঙালি সংস্কৃতিতে পৌষ মাসের এই শেষ দিনটি নানান বর্ণাঢ্য আয়োজনে উৎসব মুখর পরিবেশে পালিত হয়। মনের মাধুরীতে গঙ্গা অঞ্জলি দিয়ে এইদিনে সূর্যোদয়ের পূর্বেই গঙ্গাস্নান সেরে নেওয়া হয়।

সূর্য ধনুরাশি ত্যাগ করে মকরে সঞ্চারিত হবে বলে দিনটি শুভ, এজন্য একে মকর সংক্রান্তি বলে এবং উক্ত সময় স্নান করলে আয়ুবৃদ্ধি হয়। তা ছাড়াও পৌষ সংক্রান্তি ভারতের নানা রাজ্যে ভিন্ন নামে পালন করেন যেমন:- পুঙ্গল, লহরি, বেহু এটাই সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বিশেষ ঐতিহ্য।

তারই ধারাবাহিকতায় রাজধানী ঢাকার ধামরাই উপজেলার বিভিন্ন স্থানে পৌষ সংক্রান্তি উপলক্ষে পৌষ মেলা হচ্ছে তার মধ্যে প্রতিবারের মতো এবারও ধামরাই পৌরসভার ঐতিহাসিক শ্রীশ্রী যশোমাধব দেবের মন্দির ও রথোৎসব এর মেলাঙ্গনের মাঠে পৌষ মেলায় আগত ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকল শ্রেণী-পেশার হাজার হাজার মানুষ মেলায় আগমন ঘটেছে। মেলায় হরেক রকম দোকানীরা নানা কুটিরজাত শিল্প সরঞ্জাম জিনিস পত্র নিয়ে দোকান বসিয়েছে।

মেলায় আগত দর্শনার্থীরা তাদের পছন্দ মতো সাংসারিক পণ্য সামগ্রী, মাটির সরঞ্জাম, প্লাস্টিকের খেলনা শীতকালীন খাবার বিন্নি, খই, মুড়ি, চিড়া, কদমা, নানা প্রকার খাবারসহ নানা প্রকার সরঞ্জাম ক্রেতার ক্রয়, খরিদ করছেন। বাচ্চাদের খেলনা থেকে শুরু সাংসারিক দা, বটি, ছুরিসহ নানা সামগ্রী।

বলাবাহুল্য এদেশের প্রতিটি লোক-উৎসবেই রয়েছে গ্রামীণ কুটির শিল্পজাত পণ্যের সমাবেশ যা ছিল এককালে এদেশের অর্থনীতির মূল ভিত্তি। সে যুগে ধামরাইয়ের বিস্তীর্ণ এলাকা জুড়ে ছিল অগনিত কুটিরশিল্প যা এককালে ধামরাইকে কুটির শিল্প নগরী হিসেবে সমৃদ্ধ করেছিল।

এ মেলা দুপুর পর্যন্ত চলবে এর পর সানোড়া বটগাছের তলায়, বারবাড়িয়া কালীমন্দিরের মাঠে, কামারপাড়া বিনদুটি ভিটায়, ধামরাই সদর ইউনিয়নের হাজীপুর গ্রামে বটগাছের সামনে বুড়বুড়ি মন্দির কমিটির উদ্যোগে বাৎসরিক পৌষ মেলার আয়োজন করা হয়। সেখানেও বিরাট মেলা অনুষ্ঠিত হইবে।


আরও খবর



সস্ত্রীক করোনা আক্রান্ত মির্জা ফখরুল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও তার স্ত্রী রাহাত আরা বেগম।

সম্প্রতি করোনার লক্ষণ দেখা গেলে পরীক্ষা করান তিনি। আজ মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) হাতে পেলেন করোনা পজিটিভ হওয়ার রিপোর্ট। বর্তমানে তারা উত্তরার ভাড়া বাসায় আইসোলেশনে আছেন। এখনও পর্যন্ত দুজনের শারিরীক অবস্থাই স্থিতিশীল।

সম্প্রতি করোনার বুস্টার ডোজও নিয়েছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

আগামীকাল রাজশাহীতে খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আয়োজিত সমাবেশে যোগ দেয়ার কথা ছিল বিএনপি মহাসচিবের।


আরও খবর



আজ আপনার জন্মদিন হলে

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ আপনার জন্মদিন হলে পাশ্চাত্য জ্যোতিষে আপনি মকর রাশির জাতক/জাতিকা। আপনার জন্মসংখ্যা : ৩। আপনার ওপর প্রভাবকারী গ্রহ : শনি ও বৃহস্পতি। আপনার শুভ সংখ্যা : ৩ ও ৮। শুভ বার : শনি ও বৃহস্পতি। শুভ রত্ন : নীলা ও পোখরাজ।

মেষ (২১ মার্চ-২০ এপ্রিল)

নিজের প্রভাব-প্রতিপত্তি বৃদ্ধি পেতে পারে। ভালো ব্যবহার দিয়ে কাজ আদায় করতে পারবেন। কাউকে প্রথম দেখায় ভালো লাগতে পারে। শরীর ভালো থাকবে। মানসিক প্রশান্তি বজায় থাকতে পারে।

বৃষ (২১ এপ্রিল-২০ মে)

আইনগত ঝামেলা এড়িয়ে চলুন। গোপন শত্রুরা ক্ষতি করার চেষ্টা করতে পারে। গোপন শত্রু সম্পর্কে সতর্ক থাকুন। কোনো গুরুত্বপূর্ণ কাজ শেষ করতে পারবেন। দূরের যাত্রা করতে পারেন।

মিথুন (২১ মে-২০ জুন)

আর্থিক দিক ভালো যাবে। আয় উপার্জন বৃদ্ধি পেতে পারে। কোনো আশা পূরণ হতে পারে। রাজনীতিবিদদের জন্য দিনটি শুভ। সাংগঠনিক কাজে সুফল পাবেন।

কর্কট (২১ জুন-২০ জুলাই)

কর্ম পরিবেশ অনুকূল থাকবে। কর্মস্থলে নিজের কর্তৃত্ব বজায় রাখতে পারবেন। পিতৃস্বাস্থ্য ভালো যাবে। সামাজিক অবস্থান সুদৃঢ় হতে পারে। পাবলিক ইমেজ বৃদ্ধি পাবে।

সিংহ (২১ জুলাই-২১ আগস্ট)

উচ্চ শিক্ষার্থীদের জন্য দিনটি শুভ। জ্ঞানস্পৃহা বৃদ্ধি পাবে। মন ভালো থাকবে। কোনো আশা পূরণ হতে পারে। ভ্রমণ ফলপ্রসূ হতে পারে।

কন্যা (২২ আগস্ট-২২ সেপ্টেম্বর)

দিনটি মিশ্র সম্ভাবনাময়। ব্যবসায়িক দিক ভালো যাবে না। বিক্রয়-বাণিজ্যে লোকসান হতে পারে। সামাজিক সংকট এড়িয়ে চলুন। অন্যথায় বদনাম হতে পারে।

তুলা (২৩ সেপ্টেম্বর-২২ অক্টোবর)

দাম্পত্য সম্পর্ক ভালো থাকবে। ব্যবসায়িক দিক ভালো যাবে। নতুন বিনিয়োগ ফলপ্রসূ হতে পারে। বিক্রয়-বাণিজ্যে লাভযোগ আছে। রোমান্স ও বিনোদন শুভ।

বৃশ্চিক (২৩ অক্টোবর-২১ নভেম্বর)

শত্রুরা ক্ষতি করার চেষ্টা করতে পারে। শত্রুদের দুর্বল ভাবা ঠিক হবে না। নিজের সীমাবদ্ধতা সম্পর্কে সতর্ক থাকুন। শরীর ভালো যাবে না। প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুন।

ধনু (২২ নভেম্বর-২০ ডিসেম্বর)

নিজের মনোভাব স্পষ্ট ভাবে প্রকাশ করুন। সেক্ষেত্রে সাফল্য পেতে পারেন। সৃজনশীল কাজের সুফল পাবেন। বিদ্যার্থীদের জন্য দিনটি শুভ। পড়াশোনায় মন বসাতে পারবেন।

মকর (২১ ডিসেম্বর-১৯ জানুয়ারি)

কোনো প্রত্যাশা পূরণ হতে পারে। মন ভালো থাকবে। কোনো স্থাবর সম্পত্তি ক্রয় করতে পারেন। আত্মীয়দের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় থাকতে পারে। জ্ঞানস্পৃহা বৃদ্ধি পাবে।

কুম্ভ (২০ জানুয়ারি-১৮ ফেব্রুয়ারি)

প্রবাসী আপনজনের সঙ্গে যোগাযোগ হতে পারে। প্রাপ্ত তথ্যের ওপর নির্ভর করতে পারেন। ব্যক্তিগত  যোগাযোগে সুফল পাবেন। কাজকর্মে উৎসাহবোধ করতে পারেন। ছোট ভাইবোনদের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো থাকতে পারে।

মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ)

অধীনদের কাজে লাগাতে পারবেন। মূল্যবোধ সমুন্নত থাকতে পারে। পড়াশোনা আনন্দ পাবেন। আর্থিক দিক ভালো যাবে।

নিউজ ট্যাগ: আজকের রাশিফল

আরও খবর
আজ আপনার জন্মদিন হলে

শুক্রবার ২১ জানুয়ারী ২০২২

সহজেই বানিয়ে ফেলুন সুস্বাদু মূলার পায়েস

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22




দেশে ওমিক্রন শনাক্ত বেড়ে ৫৫

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৩১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে নতুন করে আরও ২২ জনের দেহে করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রন শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত দেশে ৫৫ জনের দেহে ওমিক্রন শনাক্তের খবর পাওয়া গেল। নতুন শনাক্তের সবাই ঢাকার বাসিন্দা।

রোববার রাতে করোনার জিনোমের উন্মুক্ত বৈশ্বিক তথ্যভান্ডার জার্মানির গ্লোবাল ইনিশিয়েটিভ অন শেয়ারিং অল ইনফ্লুয়েঞ্জা ডেটাতে (জিআইএসএআইডি) এ তথ্য পাওয়া গেছে। আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআরবি) ওই ২২ জনের নমুনা সংগ্রহ করে জিনবিন্যাস করে এ সংক্রান্ত তথ্য জিআইএসএআইডির কাছে পাঠিয়েছে। জিআইএসএআইডির তথ্যমতে, নতুন আক্রান্ত ২২ জনের মধ্যে ১৩ পুরুষ ও ৯ নারী। এ নিয়ে ৫৫ জনের মধ্যে ৩০ জনই নারী। বাকি ২৫ জন পুরুষ। তবে নতুন সংক্রমিত ব্যক্তিদের সম্পর্কে বিস্তারিত কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি।

জিআইএসএআইডির হিসাব অনুযায়ী, দেশে ওমিক্রনে সংক্রমিত ৫৫ জনের মধ্যে রাজধানীর মহাখালীর বাসিন্দা ১৮, বাসাবোর বাসিন্দা ৬, উত্তরার ৪, চানখাঁরপুলে ৪, যশোরের ৩ এবং বাকি ২০ জন ঢাকার বাসিন্দা, যাদের অবস্থান সম্পর্কে নির্দিষ্ট করে জানা যায়নি। এর আগে ১০ ডিসেম্বর দেশে প্রথম ওমিক্রন শনাক্ত হয়। দেশে প্রথম ওমিক্রনে সংক্রমিত হন জিম্বাবুয়ে ফেরত বাংলাদেশ নারী ক্রিকেটার। তারা ইতিমধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন।


আরও খবর



নির্বাচনী সহিংসতায় সারাদেশে প্রাণ গেল ছয়জনের

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৫২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আগের চার ধাপের মতো পঞ্চম ধাপেও দেশের বিভিন্ন এলাকায় সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যা পর্যন্ত পাঁচ জেলায় সহিংসতায় ছয়জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

প্রতিনিধিদের দেওয়া তথ্যমতে, চাঁদপুরে দুইজন এবং মানিকগঞ্জ, চট্টগ্রাম, গাইবান্ধা ও বগুড়ায় ভোটগ্রহণ চলাকালে একজন করে প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া বিভিন্ন এলাকায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন।

বুধবার সকাল আটটা থেকে বিকাল চারটা পর্যন্ত দেশের ৭০৮টি ইউনিয়ন পরিষদে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এখন চলছে ভোট গণনা।

মানিকগঞ্জ: মানিকগঞ্জের দৌলতপুরের বাচামারা ভোটকেন্দ্রে নির্বাচনী সহিংসতায় ছলেমন খাতুন (৫০) নামে এক নারী নিহত হয়েছেন। দুপুরে উপজেলার বাঁচামারা ইউনিয়নের বাঁচামারা ২ নম্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

শিবালয় সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তানিয়া সুলতানা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলার চাতরী ইউনিয়নের সিংহরা এলাকায় দুই প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকদের সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে এক যুবক নিহত হয়েছেন। দুপুর ১টার দিকে চাতরি ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডে এ ঘটনা ঘটে।

আনোয়ারা থানার পরিদর্শক মাহবুবুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, ওই কেন্দ্রের এক কিলোমিটার দূরে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকরা মারামারিতে জড়ায়। এ সময় ইট ও লাঠি দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করা হয় অংকুরকে। তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে তার মৃত্যু হয়। নিহত ব্যক্তির নাম অংকুর দত্ত (৩৫)।

চাঁদপুর: চাঁদপুরের কচুয়া ও হাইমচরে প্রার্থীদের সমর্থকদের মধ্যে পৃথক সংঘর্ষে দুইজন নিহত হয়েছেন। এরমধ্যে একজন কচুয়ার ও আরেকজন হাইমচরের।

কচুয়া উপজেলার সাচার ইউনিয়নের হাতিরবন্ধ কেন্দ্রের বাইরে ইউপি সদস্যদের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় ছুরিকাঘাতে শরীফ নামে একজন নিহত হন। আরেকজনের মৃত্যু হয় হাইমচর উপজেলার নীলকমল ইউনিয়নের ইশানবালা ৬ নম্বর ওয়ার্ডে। তার নাম এখনো পর্যন্ত জানা যায়নি।

দুজনের মৃত্যুর বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মো. মিলন মাহমুদ।

গাইবান্ধা: গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলায় একটি ভোটকেন্দ্রে এক মেম্বর প্রার্থীর সমর্থককে গলা কেটে হত্যার খবর পাওয়া গেছে।  নিহত ব্যক্তির নাম আবু তাহের (৪০)।

বেলা ৩টার দিকে সাঘাটা উপজেলার জুম্মাবাড়ি ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ডের জুম্মাবাড়ি আদর্শ কলেজ কেন্দ্রের বাইরে এই ঘটনা ঘটে।

গাইবান্ধার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (বি সার্কেল) ইলিয়াস জিকো এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বগুড়া: বগুড়ার গাবতলী‌র রা‌মেশ্বরপু‌রে দুই ইউপি সদস্য প্রার্থীর কর্মী-সমর্থক‌দের মধ্যে সংঘ‌র্ষে একজ‌ন নিহত হয়েছেন। নিহত জা‌কির হো‌সেন (৩৫) গাবতলী উপ‌জেলার রা‌মেশ্বরপুর ইউ‌নিয়‌নের জাইগুলি উত্তরপাড়া মৃত লয়া মিয়ার ছে‌লে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে গাবতলী থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলাম বলেন, প্রতিপক্ষের হামলায় জাকির আহত হলে তাকে হাসপাতালে নেওয়ার পর বিকেল ৩টার দিকে মৃত্যু হয়।


আরও খবর



পটুয়াখালীর লাউকাঠি নদী রক্ষায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২১ জানুয়ারী ২০২২ | ২২৫জন দেখেছেন

Image

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ

পটুয়াখালী জেলা শহরের উত্তর পাশ ঘেষে লাউকাঠী নদী রক্ষায় লঞ্চঘাট থেকে নিউমার্কেট পর্যন্ত দেড় কিঃ মিটার দীর্ঘ নদীর তীরের খাস জমি উদ্ধারের অভিযান শুরু করেছে স্থানীয় প্রশাসন। এতে প্রায় পাঁচ শতাধিক বস্তি পরিবার তাদের কষ্টার্জিত অবকাঠামোসহ মালামাল নিয়ে বিপাকে পরেছে।

শুক্রবার সকালে সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহিন মাহমুদ বিপুল সংখ্যক পুলিশ নিয়ে লাউকাঠী নদী রক্ষায় লঞ্চঘাটের পশ্চিম পাশ  থেকে পশ্চিম দিকে অভিযান শুরু করেন। এ অভিযান দেখে নদীর তীরের বস্তিবাসীরা স্বউদ্যোগে তাদের মালামাল সন্নিকটে শহীদ আলাউদ্দিন শিশু পার্ক মাঠে নিয়ে রাখতে দেখা গেছে।

পটুয়াখালী সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) শাহিন মাহমুদ জানান লাউকাঠী নদী রক্ষায় নদী রক্ষা কমিশনসহ সংশ্লিষ্ঠ দপ্তর সমূহের সমন্বয়ে লঞ্চঘাট থেকে নিউমার্কেট পর্যন্ত  নদীর তীরে যাদের আদালতের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে তাদের ব্যতিত সকল অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে নদী খননের কাজ শুরু করা হবে। লঞ্চঘাট থেকে নিউমার্কেট পর্যন্ত প্রায় ২০ একর জমিতে অবৈধ স্থাপনা রয়েছে। এ জমি উদ্ধারের কাজ অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।

এ অভিযানে বস্তিবাসী তাদের মালামাল নিয়ে পরেছে বিপাকে। একাধিক  বস্তিবাসী জানান, সরকারী জায়গায় ঘরতুলে দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করে আসছি। প্রশাসনের লোকজন অভিযান করছে, তাই আমাদের ঘর দুয়ার সরাইয়া নিতেছি। এখন আমাদের থাকার কোন জায়গা নাই বললেন বস্তির হাজেরা, রোকসানা, আলেয়া বেগমরা। আমাদের জন্য সরকার কিছু না করলে, আমাদের অনেক কষ্ট হবে।


আরও খবর