আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

দিনাজপুরের হিলিতে তাপমাত্রা বেড়েছে

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৪০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দিনাজপুরের হিলিতে বেড়েছে তাপমাত্রা। এ সময় কমেছে শীতের প্রকোপ। দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের বিরাজমান মৃদু শৈত্যপ্রবাহটি প্রশমিত হয়েছে। ধীরে ধীরে আবহাওয়া পরিস্থিতির আরও উন্নতি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

তবে ঘন কুয়াশা এখনো বিরাজ করছে। তীব্র শীত আর ঠাণ্ডা থেকে রক্ষায় আগুন জ্বালানোসহ নানা উপায় খুঁজছেন নিম্ন আয়ের মানুষ।

দিনাজপুর আবহাওয়া অফিসের ইনচার্জ তোফাজ্জল হোসেন জানান, শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) সকাল ৯টায় দিনাজপুরে চূড়ান্ত সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১২.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা তেতুলিয়াতে ৯.৮ ডিগ্রী সে: রেকর্ড করা হয়েছে।


আরও খবর



বিস্ফোরণের মামলায় বিএনপির ১০ নেতাকর্মীর পাঁচ বছরের কারাদণ্ড

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

২০১৩ সাল ভাষানটেক থানা এলাকায় বিএনপির ডাকা হরতাল-অবরোধে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় করা মামলায় বিএনপির ১০ নেতাকর্মীর পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাদের ৫ হাজার টাকা করে জরিমানাও করা হয়েছে, অনাদায়ে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

আজ সোমবার ঢাকার ৯ নং বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক আমিরুল ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেন। সংশ্লিষ্ট আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী কারিমা আক্তার ও ওবাইদুল হক চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তারা জানান, ২০১৩ সালের বিএনপির ডাকা হরতাল অবরোধে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় বিএনপির ১০ নেতাকর্মীর পাঁচ বছর করে কারাদণ্ড, একই সঙ্গে ১৪ জনকে খালাসের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- সুমন চন্দ্র, জসিম, আমিনুল, সোহেল, কাউছার, জুয়েল, আব্দুর রহমান, শহীদ, মহসিন ও লিটন।

খালাসপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- ইসমাইল, আজাদ, বকুল হোসেন, নজরুল ইসলাম, নাডু জামান, আব্দুল কালাম, জিলাফি বাচ্চু, বিকু জামান, জলিল ইসলাম, ফিরোজ, শামীম, কালা বাচ্চু, আলতাফ হোসেন ও সিরাজুল ইসলাম।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, ২০১৩ সালে ২৬ নভেম্বর বিএনপিসহ ১৮ দলের ডাকা হরতাল-অবরোধের সময় আসামিরা ভাষানটেক থানার ভাষানটেক মোড়ে নাশকতা সৃষ্টি করতে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এ ঘটনায় ভাষানটেক থানার উপ-পরিদর্শক জাহিদুল ইসলাম বাদী হয়ে বিস্ফোরক আইনে একটি মামলা করেন।

২০১৪ সালের ৩১ মার্চ আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেন ভাষানটেক থানার উপ-পরিদর্শক এ বি এম আসাদুজ্জামান। মামলায় বিভিন্ন সময় ১০ জন আদালতে সাক্ষ্য দেন।


আরও খবর
রিফাত হত্যা: খালাস চেয়ে মিন্নির জেল আপিল

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22




শত শত মুসলিম নারীকে ‘নিলামে’ বিক্রির চেষ্টা

বছরের শুরুতেই লজ্জায় ঢেকে গেছে ভারতের মুখ

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতের একটি অনলাইন অ্যাপে শত শত মুসলিম নারীকে বিজ্ঞাপন দিয়ে বিক্রির জন্য ভুয়া নিলামে তোলা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। নিলামের বিজ্ঞাপনে বিনা অনুমতিতে শত শত এসব মুসলিম নারীর ছবিও ব্যবহার করা হয়েছে। সম্প্রতি এমনই এক ঘটনায় ভারতে সৃষ্টি হয়েছে তোলপাড়।

মুসলিম মেয়েদের নিলামে বিক্রির বিষয়ে একটি অভিযোগ সম্প্রতি ভারতীয় পুলিশের হাতে এসেছে। এ বিষয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, নতুন বছরের শুরুতেই লজ্জায় ঢেকে গেছে ভারতের মুখ। কোনো অনুমতি ছাড়া ভার্চ্যুয়াল প্লাটফর্মে নিলামের জন্য শত শত মুসলিম নারীর নাম ও ছবি তালিকাভুক্ত করার অভিযোগ উঠেছে ভারতীয় একটি অ্যাপের বিরুদ্ধে। সদ্য সমাপ্ত বছরে ঠিক এরকমই আরও একটি অ্যাপের সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল। বিষয়টি পুরোপুরি সমাধান হতে না হতেই ফের একই ধরনের লাঞ্ছনার শিকার হলেন ভারতীয় মুসলিম নারীরা।

এদিকে মুসলিম মেয়েদের নিলামে বিক্রির চেষ্টার অভিযোগে দেশটিতে তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে। চাপ ও সমালোচনার মুখে ভারতের কেন্দ্রীয় আইটি মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গিটহাব অ্য়াকাউন্ট সাসপেন্ড করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন। একইসঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে বলেও দাবি করেছেন তিনি।

বিতর্কিত এই অ্যাপটির নাম বুল্লি বাই। এটি ২০২১ সালে মুসলিম নারীদের নিলামে তোলায় অভিযুক্ত সুল্লি ডিল অ্যাপের মতোই আরেকটি অ্যাপ বলে মনে করা হচ্ছে। গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে ভারতে নিন্দার ঝড় তুলেছিল সুল্লি ডিল অ্যাপটি। সেখানেও বিভিন্ন মুসলিম নারীদের ছবি ও নাম দিয়ে অ্যাপ ব্যবহারকারীদের সুল্লি অফার করা হতো।

কী এই সুল্লি? কট্টরপন্থি সোশ্যাল মিডিয়া ট্রোলাররা মুসলিম নারীদের অবমাননা করতে এই শব্দ ব্যবহার করে থাকেন। প্রতিদিন নতুন নতুন মুসলিম মেয়ের নাম ও ছবি দিয়ে তাদেরকে ডিল অব দ্য ডে বলে অভিহিত করা হতো। প্রকৃতপক্ষে কোনো নিলাম হয়নি ঠিকই, কিন্তু ওই অ্যাপটির একমাত্র উদ্দেশ্য ছিল মুসলিম নারীদের হেয় করা, অপমান করা এবং হেনস্থা করা। এমনটিই অভিযোগ করেছিলেন, সুল্লি ডিল অ্যাপের কারণে হেনস্থার শিকার হওয়া কয়েকজন নারী।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, সুল্লি ডিল-এর মতো করেই কাজ করে বুল্লি বাই অ্যাপও। অ্যাপটি খুললেই কোনো একজন মুসলিম নারীর ছবি ও নাম বুল্লি বাই হিসেবে দেখানো হচ্ছে। মাইক্রোসফটের সফটওয়্যার শেয়ারিং প্লাটফর্ম গিটহাব-এ অ্যাপটি পোস্ট করা হয়েছিল।

মূলত যেকোনো ইন-ডেভেলপমেন্ট অ্যাপকে এই প্লাটফর্মে আপলোড করা যায়। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে হইচই শুরু হতেই অ্যাপটি সেখান থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। বলা হচ্ছে, টুইটারে সক্রিয় ও জনপ্রিয় মুসলিম নারীদেরকেই বেছে বেছে ছবি ও নাম ওই অ্যাপে ব্যবহার করা হয়েছিল।

যেমন, বুল্লি বাই অ্যাপে মুসলিম সাংবাদিক ইসমত আরাকে লক্ষ্যবস্তু করা হয়েছে। তিনি দিল্লির পুলিশের কাছে এই বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ জানিয়েছে, এই বিষয়ে মামলা গ্রহণ করে তদন্ত শুরু হয়েছে।

এছাড়া শিবসেনা সাংসদ প্রিয়াঙ্কা চতুর্বেদীর অভিযোগের ভিত্তিতে, এই মামলার পৃথক তদন্ত শুরু করেছে মহারাষ্ট্রের মুম্বাই পুলিশও। তাদের সাইবার শাখার পুলিশ সদস্যরা বুল্লি বাই অ্যাপের আপত্তিকর বিষয়বস্তুর তদন্ত করছে।


আরও খবর
হাসপাতালে ভর্তি মাহাথির মোহাম্মদ

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২




১৭ কেজি গাঁজাসহ সিরাজগঞ্জে মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | ৩০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের সিরাজগঞ্জের বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম গোল চত্বর এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান চালিয়ে ১৭ কেজি গাঁজাসহ আহছান উল্লাহ (২৭) নামে এক মাদককারবারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন র‌্যাব-১২ এর সদস্যরা।

গ্রেফতারকৃত আহছান উল্লাহ লক্ষ্মীপুর জেলার বশিকপুর গ্রামের ইসমাইল হোসেনের ছেলে। আজ মঙ্গলবার সকালে র‌্যাব-১২র সহকারী পুলিশ সুপার (মিডিয়া অফিসার) মো. মোস্তাফিজুর রহমান এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

সহকারী পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আজ ভোর রাতে র‌্যাবের একটি চৌকস আভিযানিক দল বঙ্গবন্ধু সেতু পশ্চিম থানার গোল চত্বরের পুলিশ বক্সের সামনে এক মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে ১৭ কেজি গাঁজাসহ ১ জন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় তার নিকট থেকে মাদক ক্রয়-বিক্রয়ের কাজে ব্যবহৃত ২টি মোবাইল ফোন এবং নগদ ৫২০ টাকা জব্দ করা হয়।


আরও খবর



শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে বৃদ্ধ গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | ২৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজশাহীতে সাত বছর বয়সী শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে এক বৃদ্ধকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী অভিযুক্ত কবির হোসেনকে (৬০) আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেন। এ ঘটনায় আজ সোমবার শিশুটির বাবা অভিযুক্ত কবির হোসেনের বিরুদ্ধে নগরীর রাজপাড়া থানায় ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগের একটি মামলা করেন।

জানা যায়, অভিযুক্ত কবিরের বাড়ি নগরীর লক্ষ্মীপুর ভাটাপাড়া এলাকায়। রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম কবিরের বিরুদ্ধে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

এ বিষয়ে রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম এজাহারের বরাত দিয়ে বলেন, 'গতকাল রোববার বিকেলে কবির হোসেন প্রতিবেশী এক শিশুকে বরই দেওয়ার লোভ দেখিয়ে বাড়িতে নিয়ে যান। এরপর টাকার লোভ দেখিয়ে ঘরে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করেন। এ সময় শিশুটি কান্নাকাটিতে কবির হোসেন তাকে ছেড়ে দেন। পরে মেয়েটি বাড়ি গিয়ে তার বাবা-মাকে ঘটনার কথা জানায়।

এ ঘটনা জানাজানি হলে কয়েকজন এলাকাবাসী কবিরকে আটকে রেখে পুলিশে খবর দেন। পরে পুলিশ গিয়ে তাঁকে থানায় আসেন। এ নিয়ে পরদিন সকালে ভুক্তভোগী শিশুর বাবা থানায় মামলা করেন। আজ দুপুরে কবির হোসেনকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।'


আরও খবর



মৃদু শৈত্যপ্রবাহের পূর্বাভাস

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৬৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কুড়িগ্রাম ও পঞ্চগড়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। যা অব্যাহত থাকতে পারে। এ শৈত্যপ্রবাহ রংপুর বিভাগের অন্যান্য এলাকায় এবং রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের কিছু কিছু এলাকায় বাড়তে পারে। আবহাওয়ার পূর্বাভাসে এ তথ্য জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

পূর্বাভাসে বলা হয়, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের কোথাও কোথাও হালকা থেকে মাঝারী ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।

এতে আরও বলা হয়, সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা ১-২ ডিগ্রি সেলসিয়াস কমতে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

আবহাওয়ার সিনপটিক অবস্থায় বলা হয়, উপ-মহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের পশ্চিমাংশ পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।


আরও খবর