আজঃ সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

দিনাজপুরকে মধু জেলা রূপান্তরের লক্ষে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | ২৯০জন দেখেছেন

Image

দিনাজপুর প্রতিনিধি: 

দিনাজপুর জেলাকে মধুময় জেলা ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে তরুণদের প্রশিক্ষণের আওতায় এনে তাদের মৌখামার স্থাপনে সহযোগিতা করছেন দিনাজপুর সদর উপজেলা প্রশাসন।

সোমবার দিনাজপুর সদর উপজেলা প্রশাসন কার্যালয়ে খামার স্থাপনে উৎসাহী পাঁচজন তরুণকে মৌবক্স উপহার প্রদানের মাধ্যমে মৌচাষে উৎসাহী তরুণ উদ্যোক্তাদের উৎসাহ প্রদান করেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মর্তুজা আল-মুঈদ। যুব সংগঠন "আলোর পথে জাগো যুব, দিনাজপুর" কর্মসংস্থান সৃষ্টিমূলক কার্যক্রমের সহযোগিতায় পাঁচজন তরুণকে মৌবাক্স প্রদান করা হয়। এসময় আলোর পথে জাগো যুব দিনাজপুরের সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

মৌচাষে উৎসাহী তরুণ উদ্যোক্তাদের মাঝে মৌবাক্স প্রদানকালে উপজেলা নির্বাহি অফিসার মর্তুজা আল-মুঈদ বলেন, এই জেলায় বিভিন্ন এলাকা থেকে মৌচাষে উৎসাহী তরুণ উদ্যোক্তাদের সমন্বয় করে তাদের প্রশিক্ষণের আওতায় এনে প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে মৌচাষে উৎসাহী তরুণ পরিশ্রমী উদ্যোক্তাদের মৌচাষ প্রদানের জন্য দিনাজপুর সদর উপজেলা প্রশাসন সার্বিক সহযোগিতা করবে। এজন্য প্রয়োজন পরিশ্রমী মৌচাষে উৎসাহী তরুণ উদ্যোক্তা এবং দিনাজপুরের সকল সুশীল সমাজের একাত্মতা দিনাজপুর জেলাকে মধুময় শিল্প হিসেবে গড়ে তোলার জন্য আমাদের সবাইকে এই বিষয়টা নিয়ে সবার মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে। এই কাজ শুধু এই ক্ষুদে তরুণ পরিশ্রমী উদ্যোক্তাদের না, আমরা যে যেখানে আছি তার নিজ নিজ স্থান হতে তাদের এই কাজে উৎসাহ প্রদানের জন্য সার্বিক দিকনির্দেশনা প্রদান করতে হবে।


আরও খবর
উত্তরে বৃষ্টির মতো ঝরছে ঘনকুয়াশা

বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১

দিনাজপুরে বাড়ছে শীতের প্রকোপ

সোমবার ১৫ নভেম্বর ২০২১




করোনায় একজনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৫৪

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৬ নভেম্বর ২০২১ | ৪৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও একজনের জনের মৃত্যু এবং ১৫৪ রোগী শনাক্ত হয়েছে। এর আগে গতকাল (শুক্রবার) ৩ জনের মৃত্যু এবং ১৯৬ জন রোগী শনাক্ত হয়েছিলো।

শনিবার (৬ নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনা পরিস্থিতি-সংক্রান্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তির তথ্যমতে, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১৩ হাজার ১৫৫ জনের। পরীক্ষা করা হয়েছে ১৩ হাজার ৭২টি। এ পর্যন্ত মোট ১ কোটি ৪ লাখ ৫৮ হাজার ৩৬৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এরমধ্যে রোগী শনাক্ত হয়েছে ১৫ লাখ ৭০ হাজার ৮৩৫ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ২৭ হাজার ৮৯১ জনের।

এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় করোনামুক্ত হয়েছেন ১৫৭ জন।এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৫ লাখ ৩৪ হাজার ৬৩৫ জন।

নতুন নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ১ দশমিক ১৮ শতাংশ। মোট পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ০২ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় যিনি মারা গেছেন তিনি পুরুষ। তিনি ঢাকা বিভাগে মারা গেছেন। তার বয়স ছিল ৭১-৮০ বছরের মধ্যে।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস।বাংলাদেশে ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।


আরও খবর
করোনায় ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৭

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




ফুসফুস রক্ষায় সহায়তা করে ফুলকপি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | ২৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ফুলকপিতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি। পাশাপাশি আছে ভিটামিন কে, বি৬, প্রোটিন, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস, ফাইবার, পটাসিয়াম ও ম্যাঙ্গানিজ। শরীরকে সুস্থ ও কর্মক্ষম রাখার জন্য ফুলকপি অন্যতম। ফুলকপি ফুসফুস রক্ষায় সহায়তা করে। এতে পানির পরিমাণ থাকে ৮৫% এবং খুব অল্প পরিমাণে কার্বোহাইড্রেট, ফ্যাট ও প্রোটিন থাকে।

হৃদ-স্বাস্থ্যের উন্নতিতে সাহায্য করে :

ফুলকপিতে সালফারের যৌগ সালফোরাফেন থাকে যা ব্লাড প্রেশারের উন্নতিতে সাহায্য করে। গবেষণা মতে সালফোরাফেন ডিএনএ এর মিথাইলেশনের সাথে সম্পর্কিত যা কোষের স্বাভাবিক কাজের জন্য এবং জিনের সঠিক প্রকাশের জন্য অত্যাবশ্যকীয়, বিশেষ করে ধমনীর ভেতরের প্রাচীরের। সালফোরাফেন ক্যান্সার সৃষ্টিকারী কোষ ধ্বংস করতে পারে এবং টিউমারের বৃদ্ধিকে বাঁধা দেয়। অন্য এক গবেষণায় জানা যায় যে, ফুলকপির সাথে হলুদ যোগ করে গ্রহণ করলে প্রোস্টেট ক্যান্সার নিরাময়ে ও প্রতিরোধে অত্যন্ত কার্যকরী ভূমিকা রাখে।

মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের উন্নতি ঘটায়:

ফুলকপিতে আরেকটি উপকারী যৌগ কোলাইন থাকে। কোলাইন একটি বি ভিটামিন। এটি মস্তিষ্কের উন্নয়নে সাহায্য করে। প্রেগনেন্সির সময়ে ফুলকপি গ্রহণ করলে ভ্রূণের মস্তিষ্কের গঠনে সাহায্য করে। গবেষণায় নির্দেশ করা হয়েছে যে, জ্ঞানীয় কাজের, শিক্ষার এবং স্মৃতির উন্নয়নে সাহায্য করে কোলাইন।

শরীরকে বিষমুক্ত হতে সাহায্য করে:

ফুলকপির অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অন্যান্য পুষ্টি উপাদান শরীর পরিষ্কার হতে সাহায্য করে। এছাড়াও এতে গ্লুকোসাইনোলেটস থাকে যা এনজাইমকে সক্রিয় করে এবং ডিটক্স হতে সাহায্য করে।

প্রদাহ কমায়:

ফুলকপিতে ইন্ডোল ৩ কার্বিনোল বা I3C থাকে যা একটি অ্যান্টিইনফ্লামেটরি উপাদান।এটি শক্তিশালী ইনফ্লামেটরি রিঅ্যাকশন প্রতিরোধ করে।

হজমের উন্নতি ঘটায়:

যেহেতু ফুলকপি ফাইবারের গুরুত্বপূর্ণ উৎস সেহেতু এটি হজমের উন্নতিতে সাহায্য করে। ওয়ার্ল্ডস হেলদিয়েস্ট ফুডস এর মতে, ফুলকপি পাকস্থলীর প্রাচীরের সুরক্ষায় সাহায্য করে। ফুলকপির সালফোরাফেন পাকস্থলীর হেলিকোব্যাক্টর পাইলোরি ব্যাকটেরিয়ার বৃদ্ধিকে এবং পাকস্থলীর প্রাচীরে এর আবদ্ধ হওয়াকে প্রতিহত করে।

ফাইটোনিউট্রিয়েন্ট এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ:

ফুলকপিতে ভিটামিন সি, বিটাক্যারোটিন, কায়েম্ফেরোল, কোয়ারসেটিন, রুটিন, সিনামিক এসিড সহ আরো অনেক উপাদান থাকে। এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্টগুলো ফ্রি র‍্যাডিকেলের ক্ষতির হাত থেকে শরীরকে সুরক্ষা দেয়। এগুলো বয়স বৃদ্ধির প্রক্রিয়াকে ধীর গতির করে এবং টিস্যু ও অঙ্গের ক্ষতি হওয়া প্রতিহত করে।

 

নিউজ ট্যাগ: ফুলকপি

আরও খবর
করোনায় ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৭

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




যুক্তরাজ্যে ২ ট্রেনের সংঘর্ষে আহত অনেকে

প্রকাশিত:সোমবার ০১ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০১ নভেম্বর ২০২১ | ৪৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইংল্যান্ডের দক্ষিণাঞ্চলে দুটি ট্রেনের সংঘর্ষে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। স্থানীয় সময় গতকাল রোববার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সলসবেরি শহরে এ ঘটনা ঘটে। সংশ্লিষ্ট সূত্রের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

দুর্ঘটনার কবলে পড়া ট্রেন দুটি সলসবেরি ও অ্যানডোভার শহরের মধ্যে চলাচল করত বলে এক টুইটে জানিয়েছে স্থানীয় পুলিশ। এ বিষয়ে দেশটির রেল যোগাযোগ-সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, সলসবেরি স্টেশনের কাছের একটি টানেল থেকে বের হওয়ার পর একটি ট্রেনের সঙ্গে কিছুর ধাক্কা লাগে। এতে ট্রেনটির একটি বগি লাইনচ্যুত হয়। পরে আরেকটি ট্রেন এসে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়।

ওই মুখপাত্র বলেন, দুই ট্রেনের সংঘর্ষের ঘটনায় অনেকের আহত হওয়ার খবর মিলেছে। জরুরি সেবা সংশ্লিষ্টরা ঘটনাস্থলে রয়েছে। আহতদের জন্য একটি সহায়তা কেন্দ্র খোলা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

গতকালের দুর্ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন যুক্তরাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী গ্রান্ট স্যাপস্। এক টুইটে তিনি বলেন, কীভাবে দুর্ঘটনাটি ঘটল তা তদন্ত করে দেখতে হবে। এতে আগামী দিনগুলোতে এমন দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব হবে।


আরও খবর



ফের মিরপুর রোড অবরোধ করেছে শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ১৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গণপরিবহনে হাফ ভাড়া ও নিরাপদ সড়কের দাবিতে রাজধানীর মিরপুর রোডে ধানমন্ডি ২৭ নম্বরের মোড় এলাকায় সড়ক অবরোধ করেছে শিক্ষার্থীরা।

রবিবার (২৮ নভেম্বর) বেলা একটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। শিক্ষার্থীরা এসময় সড়ক বন্ধ করে বিক্ষোভ  করতে থাকে। বিভিন্ন দাবি সংবলিত প্লাকার্ড হাতে স্লোগান দিতে থাকে প্রতিবাদী শিক্ষার্থীরা।

মোহাম্মদপুর সরকারি কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী অন্তর বলেন, আমরা আর কত প্রাণ দিলে সড়ক নিরাপদ হবে?

গ্রিন রোডের হামদর্দ পাবলিক কলেজ উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী জিসান বলেন, আমরা সরকারকে সময় দিয়েছিলাম, কিন্তু আমাদের দাবি মানা হয়নি। তাই আমরা ফের রাস্তায় নেমেছি।

তিনি বলেন, সরকার বিআরটিসি বাসে হাফ পাশ ভাড়া দিয়েছে কিন্তু সব রুটে তো বিআরটিসি নেই। বেসরকারি বাসেও হাফ পাশ ভাড়া নিশ্চিত করতে হবে।

লালমাটিয়া মহিলা কলেজ, আইডিয়াল কলেজ, পাবলিক কলেজের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভে অংশ নিয়েছে।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি সরকার জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি করার পর বাস ভাড়া পুনর্নির্ধারণ করা হয়। এরপর শিক্ষার্থীরা বেশ কিছু দিন ধরে হাফ ভাড়ার দাবিতে বিক্ষোভ করে। এরমধ্যে সড়কে নটর ডেম কলেজের শিক্ষার্থী  নাঈমের মৃত্যুর ঘটনার পর আবারও সরব হয়ে ওঠে শিক্ষার্থীরা।  এর আগে রাজধানীর গুলিস্তান, মতিঝিল, ধানমন্ডি এলাকায় শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ সমাবেশ ও সড়ক অবরোধ করে।


আরও খবর
মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৪৬

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




হত্যার দায়ে ছেলের ফাঁসির আদেশ, মাসহ ২ জনের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ নভেম্বর ২০২১ | ৯৯০জন দেখেছেন

Image

নড়াইল প্রতিনিধি:

নড়াইল শহরের ভওয়াখালীতে হালিমা বেগম নামে এক প্রতিবেশিকে হত্যার দায়ে ছেলে সেলিম সরদারকে ফাঁসির আদেশ ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা এবং মা মোমেনা বেগমসহ অপর প্রতিবেশি সাজ্জাদ খানকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার (৩ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ মুন্সী মোঃ মশিয়ার রহমান এ আদেশ দেন। এর মধ্যে আসামি মোমেনা বেগম রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন। বাকিরা পলাতক আছেন। মোমেনা ও সাজ্জাদকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ছাড়াও ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

ফাঁসির আদেশপ্রাপ্ত সেলিম ভওয়াখালীর সলেমান সরদারের ছেলে এবং যাবজ্জীবনপ্রাপ্ত সাজ্জাদ কবির খানের ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৪ সালের ১৭ মে আসামি সেলিম সরদার ব্র্যাক ব্যাংকের ম্যানেজারের টাকা ছিনতাই করেন। ঘটনাটি প্রতিবেশি হালিমা বেগম দেখে স্থানীয় লোকজনকে জানান। ওইদিন সন্ধ্যা ৭টার দিকে সেলিমের মা আসামি মোমেনা বেগম ভূক্তভোগী হালিমাকে তাদের বাড়িতে ডেকে নিয়ে আসেন। কথাকাটির এক পর্যায়ে সেলিম সরদার কোদাল দিয়ে হালিমাকে মাথায় আঘাত করেন। এ সময় সেলিমের মা মোমেনা বেগম এবং অপর আসামি সাজ্জাদ খান হালিমাকে কিল, লাথিসহ মারধর করে। আহত হালিমা খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। সাক্ষীদের সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে আদালত তিন আসামির বিরুদ্ধে বুধবার সকালে এ রায় ঘোষণা করেন।


আরও খবর