আজঃ সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

ডিপ্লোমা পাসে বসুন্ধরা গ্রুপে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

প্রকাশিত:বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১ | ৫১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বসুন্ধরা গ্রুপ। প্রতিষ্ঠানটিতে অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার পদে নিয়োগ দেওয়া হবে। আগ্রহী যোগ্য প্রার্থীরা অনলাইনের মাধ্যমে সহজেই আবেদন পারবেন।

পদের নাম: অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার - মেকানিক্যাল।

শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা

স্বীকৃত যেকোনো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে ম্যাকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে ডিপ্লোমা পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। প্রার্থীর তিন থেকে চার বছরের কাজের অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। মাইক্রোসফট অফিসে অভিজ্ঞতা, বাংলা ও ইংরেজিতে যোগাযোগ দক্ষতা এবং চাপের মধ্যে কাজের মানসিকতা থাকতে হবে।

কর্মস্থল : বাগেরহাট।

বেতন : আলোচনা সাপেক্ষে।

আবেদনের পদ্ধতি : আগ্রহী প্রার্থীদের বিডিজবস অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

আবেদনের শেষ তারিখ : ২৬ নভেম্বর, ২০২১।


আরও খবর
জনবল নিয়োগ দেবে বাংলাদেশ রেলওয়ে

মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১




কক্সবাজারে বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের পরিবেশক সম্মেলন

প্রকাশিত:শনিবার ২০ নভেম্বর ২০21 | হালনাগাদ:শনিবার ২০ নভেম্বর ২০21 | ৪৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
বসুন্ধরা এলপি গ্যাস দুই দশকের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে দেশের এলপিজি বাজারকে শক্তিশালী করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছে

কক্সবাজারে আনন্দঘন পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের পরিবেশক সম্মেলন অটুট এক বন্ধনে।

শনিবার (২০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় ইনানীর হোটেল রয়েল টিউলিপ সি পার্ল বিচ রিসোর্টের সাফিনাহ ব্যাঙ্কুয়েট হল রুমে এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

সম্মেলনে ২০২০ সালের নভেম্বর থেকে ২০২১ সালের অক্টোবর পর্যন্ত বিক্রয় বিবেচনায় সেরা পরিবেশক এবং অন্যান্য পুরস্কার জয়ী বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়।

সম্মেলনে বসুন্ধরা গ্রুপের দেড় শতাধিক কর্মকর্তা ও সারাদেশ থেকে প্রায় সাড়ে তিন শতাধিক পরিবেশক অংশগ্রহণ করেন।

সম্মেলনে বসুন্ধরা এলপি গ্যাস লিমিটেডের চিফ ফিন্যান্সিয়াল অফিসার মাহাবুব আলম বলেন, বসুন্ধরা এলপি গ্যাস একের পর এক সম্মাননা অর্জন করে চলেছে। দেশের গণ্ডি পেরিয়ে বসুন্ধরা এলপি গ্যাসকে দেশ সেরা উপাধি দিয়েছে গ্লোবাল বিজনেস এবং বিজনেস টেবলয়ের মতো স্বনামধন্য পাবলিকেশন্স। এ অর্জনগুলোর পেছনের কারিগর কিন্তু পরিবেশকরাই। আপনাদের সহযোগিতায় আমরা ভোক্তার কাছে সঠিক সময়ে পৌঁছাতে পেরেছি, করোনা মহামারির মধ্যেও আপনাদের সহযোগিতা আমাদের অনুপ্রাণিত করেছে আরও সামনে এগিয়ে যাওয়ার।

এম এম জসীম উদ্দীন (সিওও ব্র্যান্ড অ্যান্ড মার্কেটিং, সেক্টর-এ) বলেন, বসুন্ধরা এলপি গ্যাস দুই দশকের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে দেশের এলপিজি বাজারকে শক্তিশালী করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছে। আমাদের এ ধারাবাহিক অগ্রগতি যেন আমরা বজায় রাখতে পারি, সেজন্য সবার সহযোগিতা কামনা করছি।

তিনি বলেন, যারা দীর্ঘদিন ধরে বসুন্ধরা গ্রুপের সঙ্গে ব্যবসা করে আসছেন তারা অবশ্যই জানেন শুধু ব্যবসা নয়, সবার সঙ্গে সুদৃঢ় সম্পর্ক স্থাপনে বসুন্ধরা বদ্ধ পরিকর। পরিবেশকদের সব ধরনের সমস্যা সমাধানে বসুন্ধরা গ্রুপ আন্তরিকভাবে কাজ করে আসছে এবং ভবিষ্যতেও করবে।

সম্মেলন সঞ্চালনা করেন বসুন্ধরা এলপি গ্যাসের হেড অব সেলস প্রকৌশলী জাকারিয়া জালাল।

তিনি বলেন, বসুন্ধরা এলপি গ্যাস আজ সর্বদিক দিয়েই নাম্বার ওয়ান, এর পেছনের মূল কারণ এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাই নিজ নিজ জায়গায় নাম্বার ওয়ান। দীর্ঘ দুই যুগের এ ব্যবসায়িক সম্পর্ক এখন আর ব্যবসায়িক সম্পর্কেই সীমাবদ্ধ নেই, পারিবারিক বন্ধনের মতোই এক অটুট বন্ধনে আমরা আবদ্ধ। আমরা বিশ্বাস রাখি মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তা ও পরিবেশকদের সঙ্গে সু-সম্পর্ক বজায় রাখার মধ্য দিয়ে আমাদের বিপণন ব্যবস্থা আরও শক্তিশালী এবং সুদৃঢ় হবে।

এ আয়োজনে দুই রাত তিন দিনব্যাপী রয়েল টিউলিপের নিজস্ব সাগর পাড়ে পরিবেশকরা বিভিন্ন বিনোদনমূলক কার্যক্রমে অংশ গ্রহণ করেন। সেরা পরিবেশক ২০২০ অর্জনকারীকে সর্বোচ্চ পুরস্কার হিসেবে দেওয়া হয় একটি ব্র্যান্ড নিউ কার। এ পুরস্কার জিতেছেন কুমিল্লার এম কে ট্রেডার্সের মালিক কামাল ভূইয়া।

সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন এম নাসিমুল হাই এফসিএস (কোম্পানি সেক্রেটারি, সেক্টর এ এবং ইডব্লিউপিডি, বসুন্ধরা গ্রুপ), শওকত আকবর (সিওও, ব্যাম্বিং, সেক্টর- এ, বসুন্ধরা গ্রুপ), সাদ তানভীর (হেড অব এইচ আর, বসুন্ধরা এলপি গ্যাস লিমিটেড), চৌধুরী শামসুজ্জামান আহমেদ (হেড অব অপারেশন, বসুন্ধরা এলপি গ্যাস লিমিটেড), মাকসুদ আলম (ডিজিএম, অডিট, সেক্টর এ, বসুন্ধরা গ্রুপ), মুশফিকুর রহমান (সেক্রেটারি টু ভাইস চেয়ারম্যান, বসুন্ধরা গ্রুপ) ও বসুন্ধরা গ্রুপের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা।


আরও খবর



ধূমপান ছাড়ব এ বার! দাবি অভিনেত্রীর

প্রকাশিত:বুধবার ১৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৭ নভেম্বর ২০২১ | ৩৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শ্রীলেখা মিত্র তখন নবম কি দশম শ্রেণির ছাত্রী। বাবা সন্তোষ মিত্রের ঘর থেকে প্রথম চুরি করে ধূমপান!

অভিনেত্রীর কথায়, সেই প্রথম সুখটান। মনে হয়েছিল যেন স্বর্গ সুখ! সেই সুখ আপাতত অ-সুখের কারণ হয়েছে তাঁর! অভিযাত্রিক ছবির রাণুদি ফ্যাসফ্যাঁসে গলায় বলেন, কথা বলতে কষ্ট হচ্ছে। গলায় সারাক্ষণ অস্বস্তি। দম নিতেও কষ্ট হচ্ছে।

সারাক্ষণ বুকে যেন চাপ ধরা ভাব। ফুসফুসে যেন বাতাসের অভাব! শ্রীলেখা জানেন, তিনি চিকিৎসকের কাছে গেলেই সবার আগে তাঁকে ধূমপান ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হবে। তাই নিজেই সেই রাস্তায় হাঁটবেন বলে ঠিক করেছেন। অনুরাগীদের সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন তাঁর ভাবনা, আর নয়! এ বার সত্যি সত্যিই ধূমপান ছাড়বেন তিনি।

ধূমপান নিয়ে শ্রীলেখার ঝুলিতে অনেক মজার স্মৃতি। কথায় কথায় জানিয়েছেন, অত ছোট বয়স থেকে ধূমপান শুরু। সবটাই বাবার অজান্তে। ফলে, ঘরে ছাই ফেলার পাত্র যে রাখবেন, সে উপায়ও নেই। কী করতেন তখন? আমার ঘরের ফুলদানিতে ছাই ফেলতাম। তার পরে নিজের গায়ে, ঘরে ছড়িয়ে দিতাম সুগন্ধি। বাবা যাতে কিছুতেই টের না পান, বলতে বলতে ধরা গলায় তখন হাসির ছোঁয়া।

এ ভাবেই কলেজ পেরিয়ে অভিনেত্রী অভিনয়ের দুনিয়ায়। এক দিন একটি শট দেওয়ার পরে সেটে দাঁড়িয়ে সুখটান দিচ্ছেন। হঠাৎ দেখেন বাইরে বাবা দাঁড়িয়ে। নিজেকে আড়াল করতে সঙ্গে সঙ্গে কলাকুশলীদের ভিড়ে মিশে গিয়েছেন।

কিন্তু ততক্ষণে যা হওয়ার হয়ে গিয়েছে। রেনবো জেলিপরি বকুনি এড়াতে কপালে কাটছেন! কাঁপতে কাঁপতে বাড়ি ফিরে দেখেন বাবা বিছানায় শুয়ে। মেয়েকে দেখেই তাঁর তর্জনগর্জন, এক হাট লোকের মাঝে দাঁড়িয়ে আমার মেয়ে ফুক ফুক করে ধোঁয়া ছাড়ছেন! দেখে মনে হচ্ছিল মেট্রো রেললাইনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করি। ধূমপানের কারণে বাবার হাতে মারও খেয়েছেন শ্রীলেখা। তবু ধূমপান ছাড়তে পারেননি।

এই নেশা তাঁকে শ্বশুরমশাইয়ের ঘর থেকেও সিগারেট চুরি করতে বাধ্য করেছিল! অভিনেত্রী জানিয়েছেন, ফুলশয্যার রাতে তিনি আর তাঁর স্বামী শিলাদিত্য সান্যাল (এখন প্রাক্তন) এক সঙ্গে বসে ধোঁয়া ছাড়ছেন। আর সিনেমা দেখছেন। একটার পর একটা সিগারেট পুড়তে পুড়তে বাক্স ফাঁকা! এ বার কী হবে? নেশা মেটাতে বাধ্য হয়ে পায়ে নুপূর পরে ছম ছম শব্দ তুলে শ্বশুরমশাইয়ের ঘরে চুপিচুপি মাঝরাতে হানা! ড্রয়ার খুলে সিগারেট চুরি করতে! বলতে বলতে হাসির পরেই ঝাপসা তাঁর গলা! যে বাবার থেকে নেশা করতে শিখেছিলাম, তিনি শেষের দিকে আমার সিগারেট চুরি করে খেতেন। ধরা পড়লে বলতেন, এত দামি দামি সিগারেট খাস না। সব ছাড় এ বার! বলতে বলতে মেয়ের প্যাাকেট থেকেই সিগারেট হাওয়া করে দিচ্ছেন। বাবার শেষ যাত্রায় তাই তাঁর বুক পকেটে দামি সিগারেটের একটি প্যাকেট দিয়ে দিয়েছিলেন শ্রীলেখা এবং তাঁর ভাইয়ের বৌ।

এই বাবার মুখ মনে করেই কি এ বার ফুক ফুক করে ধোঁয়া ছাড়া ছাড়বেন শ্রীলেখা?

নিউজ ট্যাগ: শ্রীলেখা মিত্র

আরও খবর
শাকিব খানের ব্যাংক হিসাব তলব

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




অরাজনৈতিক ইস্যু নিয়ে আন্দোলন করছে বিএনপি : কৃষিমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিএনপি নানা অজুহাত এবং অরাজনৈতিক ইস্যু নিয়ে  আন্দোলনের নামে দেশে অস্থিরতা সৃষ্টির চেষ্টা করছে বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ প্রাঙ্গণের মিলন চত্বরে আজ শনিবার শহীদ ডা. মিলন দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষিমন্ত্রী এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) শহীদ ডা. শামসুল আলম খান মিলনের ৩১তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষ্যে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বিএনপির পায়ের নিচে মাটি নেই। তারা আন্দোলন করে, ধর্মকে ব্যবহার করে ধর্মান্ধদের সঙ্গে নিয়ে ক্ষমতায় আসতে চায়। তাদের মনে রাখতে হবে ক্ষমতায় আসতে হলে মানুষের কাছে যেতে হবে, মানুষের মন জয় করতে হবে।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, দেশে জনগণের ভোটে নির্বাচিত গণতান্ত্রিক সরকার ক্ষমতায় রয়েছে। যারা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না, চোরাগলি পথে অগণতান্ত্রিকভাবে এবং ধর্মকে ব্যবহার করে ক্ষমতায় আসতে চায়, তারা এ গণতান্ত্রিক সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র লিপ্ত। গণতন্ত্রকে নির্মূল ও নির্বাসনে পাঠাতেই তারা অপপ্রয়াস চালাচ্ছে।

ধর্মান্ধরা গণতন্ত্রের জন্য হুমকিস্বরূপ উল্লেখ করে ড. রাজ্জাক আরও বলেন, ইতিহাসের দিকে তাকালে দেখা যায়গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য এ দেশের মানুষকে বারবার আন্দোলন করতে হয়েছে, রক্ত দিতে হয়েছে। পাকিস্তান আমলে বারবার গণতন্ত্রের ওপর আঘাত এসেছে। দুঃখজনক হলোস্বাধীন বাংলাদেশে ১৯৯০ সালেও স্বৈরাচার দমন এবং গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় ডা. মিলন,  নুর হোসেনসহ অনেককে প্রাণ দিতে হয়েছে।

দীর্ঘ আন্দোলন-সংগ্রামের পথ পেরিয়েই দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এ গণতন্ত্র রক্ষায় আমাদের সবাইকে সোচ্চার থাকতে হবে। ধর্মান্ধ ও স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি যেন আর কোনো দিন ক্ষমতায় আসতে না পারেএ বিষয়ে সজাগ থাকতে হবে, যোগ করেন কৃষিমন্ত্রী।

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনের সভাপতিত্বে বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার, আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, বাংলাদেশ জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান, বিএমএর মহাসচিব ডা. ইহতেশামুল হক চৌধুরী, ঢাকা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক টিটু মিয়া প্রমুখ বক্তব্য দেন।



আরও খবর



ধর্মঘট অব্যাহত রাখবে ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান মালিকরা

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ নভেম্বর ২০২১ | ৩০২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাস ও লঞ্চ মালিকদের ভাড়া বাড়ানোর দাবি মেনে নিয়েছে সরকার। নতুন ভাড়ায় বাসের চাকা ঘুরছে রাস্তায়। তবে ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান মালিকদের দাবির বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত জানায়নি সরকার। তাই তেলের দাম না কমা পর্যন্ত ধর্মঘট অব্যাহত রাখার কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান পণ্য পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।

পরিষদের আহ্বায়ক রুস্তম আলী খান রোববার (৭ নভেম্বর) জানান, সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের সঙ্গে কেউ কথা বলেননি। তাই জ্বালানি তেলের দাম না কমা পর্যন্ত আমরা ধর্মঘট অব্যাহত রাখব।

অন্যদিকে কাভার্ডভ্যান-ট্রাক প্রাইমমুভার পণ্য পরিবহন মালিক অ্যাসোসিয়েশন অতিরিক্ত মহাসচিব আবদুল মোতালেব বলছেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে আমাদেরকে ডেকে পাঠাবেন। এরপরে আমাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন। অথচ, এখন পর্যন্ত আমাদের কাছে এ বিষয়ে কোনো সংবাদ পৌঁছায়নি। সরকার এখনও আমাদের অফিসিয়ালি ডেকে পাঠান নেই।

তিনি বলেন, আমরা প্রতিদিন রেডি হয়ে বসে থাকি কেউ আমাদের ডাকবেন বলে। ডেকে একটা সমাধান দেবেন, কিন্তু আমাদের ডাকা হয় না। আমাদের কাজ বন্ধ হয়ে আছে।

 


আরও খবর
ফেরি চলাচল স্বাভাবিক

বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১




করোনা: দেশে বেড়েছে শনাক্তের সংখ্যা

প্রকাশিত:সোমবার ১৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৫ নভেম্বর ২০২১ | ৪৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের সবাই পুরুষ। এ সময়ে ঢাকায় ১ জন, চট্টগ্রামে ২ জন এবং রাজশাহীতে ১ জন মারা গেছেন। বাকি বিভাগগুলোতে কারো মৃত্যু হয়নি

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৭ হাজার ৯২৬ জনে। একই সময়ে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে ২৩৪ জনের। এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৭২ হাজার ৭৩৫ জনে।

সোমবার স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। রোববার তার আগের ২৪ ঘণ্টায়ও ৪ জনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছিল অধিদফতর। ওই সময়ে করোনা শনাক্ত হয়েছিল ২২৩ জনের।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, একদিনে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ২৩৪ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ৩৬ হাজার ৭৪৪ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭ হাজার ৮৭৭ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ১৭ হাজার ৭০০টি নমুনা। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ১ দশমিক ৩২ শতাংশ। এ পর্যন্ত মোট ১ কোটি ৬ লাখ ১৩ হাজার ৮৯টি নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ১৪ দশমিক ৮২ শতাংশ। প্রতি ১০০ জনে সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ৭১ শতাংশ এবং মৃত্যুহার ১ দশমিক ৭৮ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়াদের সবাই পুরুষ। এ সময়ে ঢাকায় ১ জন, চট্টগ্রামে ২ জন এবং রাজশাহীতে ১ জন মারা গেছেন। বাকি বিভাগগুলোতে কারো মৃত্যু হয়নি।

গত বছরের ৮ মার্চ দেশে প্রথম ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর
করোনায় ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৭

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১