আজঃ শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

এহসান গ্রুপের চেয়ারম্যান গ্রেফতার

প্রকাশিত:শুক্রবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৩৭৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সতেরো হাজার কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে এহসান গ্রুপ পিরোজপুর-বাংলাদেশ নামের এক কোম্পানির চেয়ারম্যান রাগীব আহসান এবং তার এক সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

বৃহস্পতিবার রাতে তাদের গ্রেফতার করা হয়।  র‌্যাবের লিগ্যাল আ্যন্ড মিডিয়া উইংয়ের উপপরিচালক মেজর রইসুল আজম গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শুক্রবার সকালে এক বার্তায় র‌্যাব বলেছে  ব্যবসার নামে বিভিন্নভাবে প্রতারণা চালিয়ে আসছিলেন এই রাগীব হাসান।

জানা যায়, গ্রাহকের টাকা নিয়ে প্রতিষ্ঠানের নামে জমি ক্রয় না করে রাগীব আহসান এবং তার আত্মীয়স্বজনের নামে জমি ক্রয় করেন। সেসব জমির ৯০ শতাংশ গোপনে বিক্রি করে টাকা আত্মসাৎ করেন। এহসান গ্রুপের ১৭  প্রতিষ্ঠানের ১৬টিই উধাও হয়ে গেছে।

সুদবিহীন শরিয়তসম্মত ব্যবসার নামে বিপুল গ্রাহকের কাছ থেকে হাজার হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে এই এহসান গ্রুপের বিরুদ্ধে।

এহসান মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড, এহসান রিয়েল এস্টেট অ্যান্ড বিল্ডার্স লিমিটেডসহ কয়েকটি মাদ্রাসা খুলে ওই কোম্পানি ব্যবসা চালিয়ে আসছিল। তাদের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ এনে দেশের বিভিন্ন জেলায় মামলাও হয়েছে এর আগে।

রাগীব আহসান নূরে মদিনা ক্যাডেট মাদ্রাসার অধ্যক্ষ। একসময় তিনি মসজিদের ইমাম ছিলেন। বাড়ি পিরোজপুর সদরের খলিশাখালী এলাকায়।

এহসান একটা সময় এমএলএম ব্যবসা শুরু করেন এবং ২০১০ সালে এহসান রিয়েল অ্যাস্টেট নামে একটি কোম্পানি খোলেন।  পরে আরও ডজনখানেক কোম্পানি খুলে তিনি নাম দেন এহসান গ্রুপ পিরোজপুর-বাংলাদেশ

নিউজ ট্যাগ: এহসান গ্রুপ

আরও খবর



কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে ভয়াবহ বিস্ফোরণ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৬ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ আগস্ট ২০২১ | ৮৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পশ্চিমা সৈন্য-নাগরিক ও আফগান সহযোগীদের সরিয়ে নেওয়ার ব্যাপক তোড়জোড়ের মধ্যে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের বাইরে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কিরবি বৃহস্পতিবার এক টুইট বার্তায় বিস্ফোরণের এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

টুইটে তিনি বলেছেন, কাবুল বিমানবন্দরের বাইরে এক বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে বলে আমরা নিশ্চিত করছি। তবে এখনো হতাহতের বিষয়ে জানতে পারিনি। আমরা জানতে পারলেই বিস্তারিত তথ্য জানানো হবে।

রয়টার্সকে যুক্তরাষ্ট্রের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, এক আত্মঘাতী বোমা হামলাকারী এই বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। হোয়াইট হাউস জানিয়েছে, কাবুলের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিস্ফোরণের বিষয়টি এরই মধ্যে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে জানানো হয়েছে।

তবে বিমানবন্দরে বিস্ফোরণের এই ঘটনায় কোনও হতাহত হয়েছে কিনা তা এখন পর্যন্ত নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ব্রিটিশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র বিবিসিকে বলেছে, আমাদের কাছে ব্রিটেনের সামরিক বাহিনীর হতাহতের কোনও রেকর্ড নেই। এ বিষয়ে এখনই নিশ্চিত করা যাচ্ছে না।

ভয়াবহ এই বিস্ফোরণের কয়েক ঘণ্টা আগে যুক্তরাষ্ট্রসহ পশ্চিমা কয়েকটি দেশ আফগানিস্তানে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) অনুসারী ইসলামিক স্টেট খোরাসান (আইএসআইএস-কে) আত্মঘাতী হামলা চালাতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে।

আইএসআইএস-কের হামলার আশঙ্কায় বৃহস্পতিবার কাবুল বিমানবন্দর থেকে নাগরিকদের দূরে থাকার আহ্বান জানায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য এবং অস্ট্রেলিয়া।


আরও খবর
বিশ্বে করোনায় মৃত্যু-শনাক্ত কমেছে

শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১




হাইকোর্টে জামিন পেলেন সেই ঝুমন দাশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ২৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

হেফাজতের সাবেক নেতা মামুনুল হকের বক্তব্যকে কেন্দ্র করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে করা মামলায় গ্রেপ্তার সুনামগঞ্জের শাল্লার ঝুমন দাশকে ১ বছরের জন্য জামিন দিয়েছেন হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) হাইকোর্টের বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম ও বিচারপতি কেএম জাহিদ সারওয়ার কাজলের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদেশে আদালত বলেন, তাকে ১ বছরের জন্য জামিন দেওয়া হলো। এসময়ে তিনি দেশের বাইরে যেতে পারবেন না, এমনকি আদালতের অনুমতি ছাড়া তিনি সুনামগঞ্জের বাইরেও যেতে পারবেন না।

আদালতে এদিন জামিন আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী জেড আই খান পান্না, নাহিদ সুলতানা যুথি ও মো. আশরাফ আলী। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন আইনজীবী সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মিজানুর রহমান।

গত মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) ঝুমন দাশের জামিন আবেদনের বিষয়ে শুনানি শেষ করে আদেশের জন্য আজ বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) দিন ধার্য করেছিলেন হাইকোর্টের একই বেঞ্চ।

এর আগে গত ১৫ মার্চ সুনামগঞ্জের দিরাইয়ে হেফাজতে ইসলাম শানে রিসালাত নামে এক সমাবেশের আয়োজন করে। সেখানে হেফাজত নেতা মামুনুল হকের ভাস্কর্যবিরোধী বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে ঝুমন দাশ নামে এক তরুণ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে স্ট্যাটাস দেন বলে অভিযোগ ওঠে। তা হেফাজতের দৃষ্টিতে আপত্তিকর মনে হয়। তারা পরদিন এর প্রতিবাদে সমাবেশও করে। ওই ফেসবুক পোস্টকে কেন্দ্র করে সুনামগঞ্জের শাল্লা উপজেলার নোয়াগাঁও গ্রামে সংখ্যালঘুদের বাড়িঘরে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে।

পরে ১৬ মার্চ রাতে ঝুমন দাশকে আটক করা হয় ও তার বিরুদ্ধে শাল্লা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আবদুল করিম বাদী হয়ে থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন। এ মামলায় ৩ আগস্ট নিম্ন আদালতে খারিজের পর গত ২২ আগস্ট হাইকোর্টে জামিন আবেদন করা হয়।



আরও খবর



যমুনার পানি বিপৎসীমার ৫৭ সেন্টিমিটার ওপরে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ সেপ্টেম্বর 2০২1 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০২ সেপ্টেম্বর 2০২1 | ৫৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় সিরাজগঞ্জে বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় যমুনা নদীর পানি সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা বাঁধ পয়েন্টে ৮ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার ৫৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (০২ সেপ্টেম্বর) সকাল ৬টায় যমুনা নদীর পানি বৃদ্ধির বিষয়টি নিশ্চিত করেন সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের শহর রক্ষা বাঁধ পয়েন্টের দায়িত্বে থাকা গেজ মিটার (পানি পরিমাপক) আব্দুল লতিফ।

তিনি জানান, বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) সকাল ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার (০২ সেপ্টেম্বর) সকাল ৬টা পর্যন্ত শহর রক্ষা বাঁধ পয়েন্টে যমুনা নদীর পানি ৭ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার ৫৭ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। আগামী আরও কয়েকদিন পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকতে পারে।

পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় প্লাবিত হয়েছে নিম্নাঞ্চল ও চরাঞ্চল। এতে জেলার প্রায় ১ লাখ মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়ায় তাদের দুর্ভোগ চরমে পৌঁছেছে। দেখা দিয়েছে খাবার ও বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট। তলিয়ে গেছে অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাঠ, রাস্তাঘাট, বিস্তীর্ণ রোপা আমনের ক্ষেত। ভাঙনে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন চৌহালী ও শাহজাদপুরের নদী পারের মানুষ। তবে বালুভর্তি জিও ব্যাগ ফেলে ভাঙন রোধে চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানায় পানি উন্নয়ন বোর্ড।


আরও খবর



‘কৃষিতে উন্নয়ন করে ক্ষুধামুক্ত ও দারিদ্র্যমুক্ত দেশ গড়তে হবে’

প্রকাশিত:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৫৫জন দেখেছেন
Image
সাতক্ষীরা থেকে দিলীপ কুমার দেব: কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, কৃষি কাজ করে দেশ কৃষিতে উন্নয়ন করতে হবে এবং ক্ষুধামুক্ত ও দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলা গড়তে হবে। বাংলাদেশ এক সময় ছিল খাদ্য ঘাটতির দেশ, দুর্ভিক্ষের দেশ, সারা পৃথিবীতে আমরা খাদ্যের জন্য ঘুরে বেড়াতাম। তবে আজকে অত্যন্ত খুশীর কথা, আনন্দের কথা দানা জাতীয় খাদ্যশষ্য চাল, গম, ভুট্টা এগুলোতে আমরা পিছিয়ে নেই, এখন দেশে খাদ্য ঘাটতি নেই। আমরা এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পন্ন। দেশে এখন অভাব নেই, এখন শুধু পুষ্টি সমৃদ্ধ খাদ্য উৎপাদন করতে হবে। এতে কৃষকদের আয় বাড়বে। এজন্য বেশি বেশি করে সবজি চাষ করতে হবে। দেশের সবজির চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানিও করা যাবে।

সবজি বা কাঁচামাল যাতে পঁচে না যায় সে জন্য নতুন প্রযুক্তি নিয়ে আসছে সরকার। পিঁয়াজের চাহিদা যাতে মিটানো যায় সেজন্য দেশের সব কৃষকদের বেশি বেশি করে পিঁয়াজ চাষ করার জন্য বিনামূল্যে পিঁয়াজের বীজ চাষীদের মাঝে বিতরণ করা হচ্ছে। দেশে এখন পিঁয়াজের ঘাটতি হয় না। এজন্য অচিরে পিঁয়াজের ঘাটতি পূরণের জন্য কাজ করছে সরকার।

ভারত থেকে দেশে আর কোন টমেটো আমদানি করা হবে না। এটি আমরা বন্ধ করবো। আমরা আমাদের দেশ থেকে বরং টমেটো বিদেশে রপ্তানি করবো। সেই লক্ষ নিয়ে আমরা কাজ করছি। চাষীদের সহযোগিতা দিচ্ছি এবং প্রণোদোনাও দিচ্ছি। দেশে  গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষ বেশি করে করতে হবে। আগামী বছর সাতক্ষীরা জেলায় ৭০০ একর কৃষি জমিতে টমেটো চাষ করতে হবে। এজন্য চাষের এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোজন করা হবে।

আমাদেরকে এখন পুষ্টি জাতীয় খাবারের নিশ্চয়তা দিতে হবে। এই লক্ষে আমরা আমাদের যে অগ্রাধিকার সেক্টরগুলো আছে তার মধ্যে কৃষি সেক্টরকে আধুনিকিকরণ ও জাতীয়করণ করতে চাই এবং কৃষি পণ্যের প্রক্রিয়াজাত করে এ গুলোর দাম বৃদ্ধি করতে চাই এবং মূল্য সংযোজন করতে চাই।

কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার কামারালী মাঠে গ্রীষ্মকালীন টমেটো ক্ষেত পরিদর্শন শেষে সেখানে এক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, উপকুলবর্তী এলাকায় আগে একটি মাত্র ফসল হতো সেটি রোপা আমন। সেখানে আমি প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি ভবিষ্যতে এখানে শীতকালীন ও গ্রীষ্মকালীন সময়ে লবনাক্ত সহিষ্ণু ধানের জাত-৬৭ আবাদ শুরু হবে। ইতিমধ্যে আবাদ শুরুও হয়েছে। এটির ব্যাপক আবাদ হবে। এর জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশও দিয়েছেন যে দ্রুত এই ধান পুরো এলাকায় ছড়িয়ে দেয়ার জন্য। এর জন্য আরো লবনাক্ত মুক্ত পানির ব্যবস্থা করতে হবে। যেটি নিয়ে আমরা চিন্তা করছি এবং কাজও করছি।

সাতক্ষীরা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে সেখানে আরো উপস্থিত ছিলেন, সাতক্ষীরা-১ তালা কলারোয়া আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. মোস্তফা লুৎফুল্লাহ, সাতক্ষীরা-২  সাতক্ষীরা সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ মোঃ নজরুল ইসলাম, সাবেক এমপি ইঞ্জিনিয়ার মুজিবুর রহমান, কলারোয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ফিরোজ আহমেদ স্বপন প্রমুখ। কৃষি বিষয়ে মতবিনিময় সভায় কলারোয়া উপজেলার ৩৬৯ জন চাষী উপস্থিত ছিলেন। মতবিনিময় সভা শেষে কৃষি মন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক একই উপজেলার বাটরা গ্রামের আরো কয়েকটি গ্রীষ্মকালীন টমেটো ক্ষেত পরিদর্শন করেন এবং কলারোয়া উপজেলা পরিষদ হয়ে বিকালে যশোর উদ্দেশ্যে রওনা দেন।


আরও খবর



সাহেদের সঙ্গে আসামি হচ্ছেন স্বাস্থ্যের সাবেক ডিজি

প্রকাশিত:সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০21 | হালনাগাদ:সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০21 | ৪১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদ ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদ

সরকারি অর্থ আত্মসাতের মামলায় রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদের সঙ্গে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক আবুল কালাম আজাদও আসামি হচ্ছেন।

এই দুজনের পাশাপাশি মোট ছয়জনকে আসামি করে সোমবার এ মামলার চার্জশিট অনুমোদন করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

শিগগির এ অভিযোগপত্র আদালতে দাখিল করা হবে বলে জানিয়েছেন দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা মুহাম্মদ আরিফ সাদেক।

চার্জশিটের অপর আসামিরা হলেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সাবেক পরিচালক আমিনুল হাসান, উপপরিচালক (হাসপাতাল-১) মো. ইউনুস আলী, সহকারী পরিচালক (হাসপাতাল-১) মো. শফিউর রহমান এবং গবেষণা কর্মকর্তা মো. দিদারুল ইসলাম।

লাইসেন্সের মেয়াদ না থাকার পরও করোনাভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ ও চিকিৎসার জন্য চুক্তি করে তিন কোটি ৩৪ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে গত বছর ২৩ সেপ্টেম্বর এ মামলা করেন দুদকের উপপরিচালক মো. ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারী। সেখানে আবুল কালাম আজাদ ছাড়া বাকি পাঁচজনকে আসামি করা হয়।

পরে ফরিদ আহমেদ পাটোয়ারীকেই তদন্তের দায়িত্ব দেয় দুদক। দীর্ঘ এক বছর পর এ মামলার তদন্ত শেষে অভিযোগপত্র অনুমোদন চেয়ে কমিশনে প্রতিবেদন দেন তদন্ত কর্মকর্তা। সোমবার তা অনুমোদন করল কমিশন।


আরও খবর