আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

ফাঁদে ফেলে অর্থ আদায়: এবার পুলিশ পরিদর্শকের স্ত্রী গ্রেফতার

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৭৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রংপুরে ফাঁদে ফেলে সাধারণ মানুষদের জিম্মি করে টাকা আদায়ের ঘটনায় এবার এক পুলিশ পরিদর্শকের স্ত্রীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) বিকেলে রংপুর নগরীর ঠিকাদার পাড়া বিকন মোড় এলাকার একটি বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গ্রেফতার ওই নারীর নাম কানিজ ফাতিমা আনিসা (৩৬)। তার স্বামীর নাম হাবিবুর রহমান। তিনি পুলিশ সুপার কার্যালয়ে পরিদর্শক পদে কর্মরত।

আনিসাকে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন রংপুর মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হোসেন আলী। তিনি বলেন, সাধারণ মানুষকে জিম্মি করে টাকা আদায় ও টর্চারসেলে নির্যাতনের অভিযোগে ২ জানুয়ারি রাতে নগরীর গ্র্যান্ড হোটেল মোড় এলাকার বাড়ি থেকে শাহারুখ করিম অনিক (৩৪) ও তার স্ত্রী আসমানী আক্তারকে (২৪) গ্রেফতার করে র‌্যাব। এ ঘটনায় থানায় তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়। ওই মামলায় আসামিরা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। জবানবন্দিতে কানিজ ফাতিমা আনিসার নাম উঠে আসে।

হোসেন আলী আরও বলেন, মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে অভিযান চালিয়ে তাকে বিকন মোড় এলাকার একটি বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর তাকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে রংপুর মহানগর পুলিশের এক কর্মকর্তা জানান, গ্রেফতার আনিসা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে পরিদর্শক পদে কর্মরত হাবিবুর রহমানের স্ত্রী।

তবে এ বিষয়ে জানতে হাবিবুর রহমানের মোবাইল নম্বরে কল দিলে তিনি নিজেকে পুলিশ পরিদর্শক পরিচয় দেন। তবে আনিসার ব্যাপারে জানতে চাইলে ওই নারী তার স্ত্রী নন বলেই ফোন কেটে দেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জেলা পুলিশ সুপার ফেরদৌস আলী চৌধুরীর মোবাইল ফোনে কল দিলেও তিনি রিসিভ করেননি।

এর আগে সোমবার বিকেলে রংপুর র‌্যাব-১৩ এর সহকারী পরিচালক মাহমুদ বশির আহমেদ স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বেশ কিছুদিন ধরে অনিকের স্ত্রী আসমানী রংপুর মহানগরীর বিভিন্ন ব্যক্তির সঙ্গে পরিচিত হয়ে কৌশলে তাদের আস্তানায় ডেকে নিয়ে যেতেন। এরপর অনিকসহ অজ্ঞাত চার-পাঁচজন ওইসব ব্যক্তির অশ্লীল ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া এবং হত্যার ভয় দেখিয়ে চাঁদা আদায় করত। এভাবেই লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে এ চক্রটি।

এমন একটি অভিযোগের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৩ বিষয়টি আমলে নিয়ে সত্যতা অনুসন্ধানের জন্য তাৎক্ষণিক ছায়া তদন্ত শুরু করে এবং জিম্মিকারী ব্যক্তিদের আইনের আওতায় নিয়ে আসতে গোয়েন্দা নজরদারি বাড়ায়। এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাবের একটি টিম গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রোববার রাতে রংপুর মহানগরীর গ্র্যান্ড হোটেল মোড় এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করে।

অভিযান চলাকালে র‌্যাব তাদের বাসার ষষ্ঠ তলায় একটি টর্চার সেলের সন্ধান পায়। এ সেল থেকে দুটি চাপাতি, ইলেকট্রিক শকের তার, মাদক সেবনের সরঞ্জামাদি, হাতুড়ি, ছুরি, স্ট্যাম্প, ভিডিও ধারণের দুটি মোবাইল ফোন এবং একটি ল্যাপটপ উদ্ধার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার দম্পতি বিভিন্ন ব্যক্তিকে জিম্মি করে চাঁদা আদায় এবং নির্যাতনের কথা স্বীকার করেছেন। সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা দিয়ে আটকদের হস্তান্তর করা হয়েছে। তাদের সহযোগীদেরও আইনের আওতায় আনতে র‌্যাবের কার্যক্রম অব্যাহত আছে।

নিউজ ট্যাগ: রংপুর

আরও খবর



চট্টগ্রামে আরও ৭০৪ জনের করোনা শনাক্ত

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২ | ১৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের বিভিন্ন ল্যাবে দুই হাজার ৪২৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৭০৪ জনের দেহে করোনার জীবাণু শনাক্ত হয়

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় কারও মৃত্যু হয়নি। তবে এ সময়ে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৭০৪ জন। এ নিয়ে জেলায় শনাক্ত বেড়ে দাঁড়ালো ১ লাখ ১০ হাজার ৯৭ জনে এবং মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১ হাজার ৩৪৩ জনে।

শনিবার (২২ জানুয়ারি) সকালে চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানা গেছে।

সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ ইলিয়াছ চৌধুরী জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের বিভিন্ন ল্যাবে দুই হাজার ৪২৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৭০৪ জনের দেহে করোনার জীবাণু শনাক্ত হয়। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় সংক্রমণের হার ২৯ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ। শনাক্তদের মধ্যে ৫৩১ জন মহানগরের এবং ১৭৩ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।

তিনি জানান, ২৪ ঘণ্টায় ফৌজদারহাট বিআইটিআইডি ল্যাবে ১৭১ জন, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ল্যাবে ৬৭ জন, ইমপেরিয়াল হাসপাতাল ল্যাবে ১৬০ জন, শেভরন হাসপাতাল ১৬৩ জন, চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ৫৮ জন, মেডিকেল সেন্টার হাসপাতাল ল্যাবে ৩২ জন এবং এশিয়ান স্পেশালাইজড হাসপাতাল ল্যাবে ৫৩ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর



প্রতিবন্ধকতা মোকাবেলা করেই এগিয়ে যাচ্ছে দেশ : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সকল চ্যালেঞ্জ ও প্রতিবন্ধকতা মোকাবেলা করে একটি সমন্বিত পরিকল্পনা তৈরির মাধ্যমে উন্নয়ন অগ্রযাত্রায় দেশ অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম।

পাকিস্তান আমলের ১২৫ ডলারের মাথাপিছু আয়ের দেশ এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদূরপ্রসারী নেতৃত্বের কারণে দুই হাজার পাঁচ শো ৫৪ ডলারে উন্নীত হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন মন্ত্রী।

আজ বিকেলে রাজধানীতে বনানীর বিটিসিএল (টিএন্ডটি) খেলার মাঠে উত্তর সিটি কর্পোরেশনের সহযোগিতায় বিডি ক্লিন আয়োজিত 'সেভ আর্থ, সেভ বাংলাদেশ'  শীর্ষক জনসচেতনতামূলক প্রদর্শনীর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, ভালো কাজ করতে গেলে চ্যালেঞ্জ আসবে। নতুন বছরে আমাদের চ্যালেঞ্জ রয়েছে। স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান সমূহের নির্বাচিত প্রতিনিধিরা মানুষের নাগরিক সেবা নিশ্চিত করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। কেন্দ্রীয় সরকার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। আর তা বাস্তবায়নে ভূমিকা পালন করে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানগুলো। তবে সকল কিছুতে মানুষের অংশগ্রহণ অপরিহার্য।

মন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিলেন একজন ক্যারিশম্যাটিক লিডার। তিনি জানতে এবং বুঝতেন বাংলাদেশকে দমায়ে রাখা যাবে না। এদেশ একদিন উন্নত-সমৃদ্ধ সোনার বাংলায় পরিণত হবে। আজ সারা পৃথিবীতে বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে। বঙ্গবন্ধুর ভবিষ্যত বাণী সত্য প্রমাণিত হয়েছে।

পরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মো. তাজুল ইসলাম বলেন, ঢাকার খালগুলো দখলদারদের হাত থেকে উদ্ধার করে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা, চারপাশে নদীগুলোর খনন ও সংস্কার করে নৌ চলাচল উপযোগী এবং পরিবেশ সংরক্ষণের পাশাপাশি বাসযোগ্য শহর গড়তে ঢাকার দুই মেয়রসহ সবাই নিরলসভাবে কাজ করছেন।

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সংসদ সদস্য নাহিদ ইজাহার খান, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা কমডোর এসএম শরিফ উল ইসলাম এবং ২০ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ নাসির। বিটিসিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. রফিকুল মতিনও এসময় বক্তব্য দেন।

পরে, মন্ত্রী পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন ও উন্নত-সমৃদ্ধ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে উপস্থিত সকলকে শপথ বাক্য পাঠ করান।

নিউজ ট্যাগ: মো. তাজুল ইসলাম

আরও খবর



২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আরও নয়জন আক্রান্ত

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | ৫০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আরও নয়জন আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকায় চারজন। ঢাকার বাইরে পাঁচজন আক্রান্ত হয়েছেন।

আজ রোববার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার এবং কন্ট্রোল রুমের নিয়মিত ডেঙ্গুবিষয়ক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়েছে, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ভর্তি থাকা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯০ জন। এর মধ্যে ঢাকার ৪৬টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছে ৫৯ জন এবং অন্যান্য বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছে ৩১ জন।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, গত ১ জানুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ২৮ হাজার ১৬৩ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছে ২৮ হাজার ৩৫৭ জন। এ ছাড়া ডেঙ্গুতে এ নিয়ে মোট মৃত্যু হয়েছে ১০৪ জনের।


আরও খবর



জমিতে পাওয়ার অব অ্যাটর্নি সম্পূর্ণ বন্ধ করা হবে : ভূমিমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | ৬১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেছেন, জমির ক্ষেত্রে পাওয়ার অব অ্যাটর্নি থাকায় অনেক সমস্যা হচ্ছে। অনেকে এই পাওয়ার অব অ্যাটর্নির অপব্যবহার করছেন। যারা বিদেশে থাকেন তারা অ্যাম্বাসির মাধ্যমে এই পাওয়ার অব অ্যাটর্নি জারি রাখতে পারবেন। তবে সাধারণের জন্য সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেওয়া হবে। কারণ জায়গার যত দাম বাড়ছে, মানুষের লোভ-লালসা তত বাড়ছে।

আজ (বৃহস্পতিবার) রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে জেলা প্রশাসক সম্মেলনের সমাপনীর দিনের এক অধিবেশন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেন, ভূমি উন্নয়ন কর আমরা এখন অনলাইনে এবং ম্যানুয়ালি নিচ্ছি। সবগুলো ডাটা যখন অনলাইনে আপলোড হয়ে যাবে তখন আমরা একটা নির্দেশনা জারি করবো যে, আজ থেকে কোনো ভূমি উন্নয়ন কর ম্যানুয়ালি নেওয়া হবে না। সবকিছু যদি ঠিকঠাক থাকে তবে এ বছরের শেষ দিকে আমরা ভূমি উন্নয়ন কর নেওয়ার ক্ষেত্রে ম্যানুয়াল প্রথা সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেবো।

তিনি বলেন, আমরা মাঠ পর্যায়ে ক্ষমতা কমানোর চিন্তা করছি। জবাবদিহিতার ক্ষেত্রে এখনও অনেকে স্বেচ্ছাচারিতা করে। তারা ইচ্ছা মতো অনেক হয়রানি করতে চাই। তাদের বিবেচনামূলক ক্ষমতা বিভিন্ন লেভেলে গিয়ে আমরা কমিয়ে ফেলব, যেন তারা জবাবদিহিতার ক্ষেত্রে কঠোর থাকে এবং একটা নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কাজ সমাপ্ত করতে পারে। যদি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কাজ না করতে পারে তাহলে তাকে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে হবে।

ভূমিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ ডিজিটাল সার্ভে (বিডিএস) হবে বাংলাদেশের সর্বশেষ সার্ভে। বরগুনা, পটুয়াখালীতে যেহেতু এখনও হয়নি, আমরা সেখানে কাজ শুরু করব। এটা পাইলট হিসেবে করছি, এখানে ড্রোন এবং স্যাটেলাইটের মাধ্যমে ছবি নিয়ে সার্ভে করা হবে। এটাতে সাকসেস হলে সারা দেশের রেপ্লিকা করব। আমাদের ট্রায়াল-এররের মাধ্যমে সার্ভেটা করতে হচ্ছে। আমি এখনও বলছি, বাংলাদেশ ডিজিটাল সার্ভের আর কোনো সার্ভের প্রয়োজন হবে না। এটা জেনারেশন থেকে জেনারেশন চলতে থাকবে। সুতরাং আমরা এখানে শতভাগ অ্যাকুরেসি মেন্টেন করব। এতে করে কোনো জটিলতা থাকবে না, মানুষ খুব ইজিলি ব্যবহার করতে পারবে।


আরও খবর



আর্জেন্টাইন দুই ডিফেন্ডারকে দলে চাইছে বার্সেলোনা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সেজন্যে দুই আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডারকে দলে চাইছে বার্সেলোনা, নিজেদের রক্ষণাত্মক ত্রুটি সারাতে বার্সেলোনা দলে চাইছে আয়াক্স আমস্টারডামের আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার নিকলাস টালিয়াফিকোকে। আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের নিয়মিত মুখ ও দলটির ২০২১ কোপা আমেরিকা জয়ের অন্যতম নায়ককে দলে ভেড়ানোয় আগ্রহ অবশ্য এবারই প্রথম নয় দলটির।

এর আগে গেল দলবদলে তাকে কাতালুনিয়ায় নিয়ে যেতে চেয়েছিল বার্সেলোনা, সঙ্গে অবশ্য ভ্যালেন্সিয়া ডিফেন্ডার হোসে লুইস গায়া ও আটালান্টার রবিন গোসেন্সরাও ছিলেন দলটির আগ্রহের তালিকায়।

চলতি দলবদলে অন্য দুজনে না হলেও, টালিয়াফিকোয় আবারও আগ্রহ বেড়েছে দলটির। সঙ্গে এবার যোগ হয়েছে দলটির আরেক আর্জেন্টাইন সেন্টারব্যাক লিসান্দ্রো মার্টিনেজের নামও।

তবে এবার দলটিতে আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডার টালিয়াফিকোর যাওয়া না যাওয়া নির্ভর করছে আয়াক্স আমস্টারডামের ওপর। আর্জেন্টাইন সংবাদ মাধ্যম টিওয়াইসি স্পোর্টস জানাচ্ছে, তার ওপর এখনই আশা হারাচ্ছে না ক্লাবটি। তবে তার জন্য ভালো প্রস্তাব পেলে সেটা ভেবেও দেখবে ডাচ ক্লাবটি। টিওয়াইসি জানাচ্ছে, এক্ষেত্রে অর্থের অঙ্কটা হচ্ছে অন্তত ৬৯ কোটি টাকা।

আগামী বছর জুলাই মাসে ক্লাবটির সঙ্গে চুক্তি শেষ টালিয়াফিকোর। এই ডিফেন্ডারকে দলে পেতে অবশ্য শুধু বার্সেলোনাই চাইছে না, সঙ্গে আছে আরও এক দল। আর্জেন্টাইন কোচ হোর্হে সাম্পাওলির দল অলিম্পিক মার্শেই আছে তাকে দলে টানার এই প্রতিযোগিতায়।

উল্লেখ্য, সাম্পাওলির অধীনে ২০১৮ বিশ্বকাপের আর্জেন্টিনা দলেও ছিলেন তিনি। সেই সাম্পাওলিই এবার তাকে টানতে চাইছেন নিজের ক্লাবে। মার্শেই অবশ্য তাকে আগে ধারে নিয়ে পরখ করতে চায়, পরে কিনতে চায়; এমন প্রস্তাব আয়াক্সের পছন্দ হয়নি বলেও জানাচ্ছে টিওয়াইসি।

নিউজ ট্যাগ: বার্সেলোনা

আরও খবর