আজঃ সোমবার ২৩ মে ২০২২
শিরোনাম

গণ-অনশনে শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২ | ৬৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শনিবার (২২ জানুয়ারি) রাত ৮টা থেকে গণ-অনশন কর্মসূচি শুরু করেন আন্দোলনরতরা শিক্ষার্থীরা।

উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমদ পদত্যাগ না করায় এবং এ বিষয়ে সরকার কোনো পদক্ষেপ না নেওয়ায় এই গণ-অনশন কর্মসূচি দেন তারা।

এর আগে গণ-অনশনে যাওয়ার ঘোষণা দিয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের মুখপাত্র ইয়াসির সরকার বলেন, আমরণ অনশনরত ২৪ শিক্ষার্থীর ২৩ জনই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। এখন পর্যন্ত উপাচার্য পদত্যাগ করেননি এবং সরকারও এ বিষয়ে কোনো পদক্ষেপ নেয়নি।

জানা গেছে, শুক্রবার রাতে শাবিপ্রবির শিক্ষকদের পাঁচ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনির সঙ্গে দেখা করতে ঢাকায় আসেন।

প্রতিনিধিদলের মধ্যে আছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি তুলসী কুমার দাস, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মুহিবুল আলম, ফিজিক্যাল সায়েন্সেস অনুষদের ডিন মো. রাশেদ তালুকদার, অ্যাপ্লায়েড সায়েন্সেস অনুষদের ডিন আরিফুল ইসলাম ও  ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন খায়রুল ইসলাম।

গত রোববার পুলিশ-শিক্ষার্থী সংঘর্ষের পর শাবিপ্রবি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনে নামে শিক্ষার্থীরা। ফলে বিশ্ববিদ্যালয়র কার্যক্রমে অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়। ওই দিনই জরুরি সিন্ডিকেট সভা ডেকে বিশ্ববিদ্যালয় ও হল বন্ধ ঘোষণা করে কর্তৃপক্ষ। কিন্তু কর্তৃপক্ষের সেই সিদ্ধান্ত প্রত্যাখ্যান করে হলে অবস্থান করে শিক্ষার্থীরা ভিসির পদত্যাগের আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেন।

প্রসঙ্গত, ১৩ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার থেকে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছে শিক্ষার্থীরা। বেগম সিরাজুননেসা ছাত্রী হলের প্রভোস্টের পদত্যাগসহ চার দফা দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন তারা। আন্দোলনের এক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের উপর পুলিশি হামলা হয়। এরপর আন্দোলন ভিসির পদত্যাগের একদফা দাবিতে পরিণত হয়।


আরও খবর



যুদ্ধের মধ্যেই ইউক্রেনীয় ব্যান্ডের ইউরোভিশন জয়

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশের যুদ্ধ-বিধ্বস্ত অবস্থার মধ্যেও প্রতিযোগিতামূলক শো ইউরোভিশন জয় করেছে ইউক্রেনীয় ব্যান্ড দল কালুশ অর্কেস্ট্রা। জাতির জন্য সমর্থন আদায়ের জন্য করা সংগীতের কারণে ইতালির তুরিনে আয়োজিত প্রতিযোগীতায় জয় পায় র‌্যাপ-ফোক ব্যান্ড দলটি। বার্তা সংস্থা এপির খবরে বলা হয়েছে, ঐতিহ্যবাহী লোক সঙ্গীতের সঙ্গে র‌্যাপের মিশ্রনে ইউক্রেনীয় ভাষায় গান পরিবেশন করে কালুশ অর্কেস্ট্রা। স্টেফানিয়া নামে গানটি মূলত ব্যান্ডের প্রধান শিল্পী ওলেহ সিউকের মায়ের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে লেখা হয়েছিল। কিন্তু যুদ্ধের মধ্যেই দেশের জন্য জনসমর্থন আদায়ে আর্তি হিসেবে গানটি পরিবেশন করা হয়। এ গানটি দিয়ে প্রথমবারের মতো ইউরোভিশন জয় করে ব্যান্ড দলটি।

টেলিভিশনে প্রচারিত গানটি প্রায় ২ লাখ মানুষ দেখেছে। প্রতিযোগীতায় ৪০টি দেশের ভোটে ২৪ প্রতিযোগীকে হারিয়ে প্রথম হয় কালুশ অর্কেস্ট্রা। জয়ের যাত্রায় তারা সংগ্রহ করে ৬৩১ পয়েন্ট। এপি জানিয়েছে, ইউরোপের জনপ্রিয় গানের আসর ইউরোভিশনে বাড়ি বসে দর্শকরা তাদের পছন্দের প্রতিযোগীকে ভোট দেয়। কালুশ অর্কেস্ট্রা বিপুল পরিমান ভোট আদায়ে সক্ষম হয়, যা অল্পক্ষণেই ব্রিটিশ টিকটক স্টার স্যাম রাইডারকে ছাড়িয়ে যায়।

রবিবার (১৫ মে) ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি কালুশ অর্কেস্ট্রার এ বিজয়কে স্বাগত জানিয়েছেন। তিনি বলেন, আমাদের সাহস বিশ্বকে মুগ্ধ করে। আমাদের সংগীত ইউরোপকে জয় করেছে। যারা ইউরোভিশন জয় করে, নতুন বছরে তারাই এ আয়োজন করে থাকে। ফলে আগামী আসরটি আযোজন করতে হবে ইউক্রেনকে। কিন্তু বর্তমানে দেশটি যুদ্ধ পরিস্থিতি এমন পরিস্থিতে পৌঁছেছে, ইউরোভিশন আয়োজন সম্ভব হবে কিনা বোঝা যাচ্ছে না। কিন্তু জেলেনস্কি জানিয়েছেন, আগামী বছর বন্দর শহর মারিউপোলে প্রতিযোগিতাটি তারা আয়োজন করবেন। এ ব্যাপারে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট বলেন, আমরা আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করব। আমি নিশ্চিত শত্রুর বিরুদ্ধে যুদ্ধে বিজয় বেশি দূরে নয়।

খবরে আরও বলা হয়, লাইভ পারফরম্যান্সের শেষে মারিউপোল শহর ও আজভস্টাল প্ল্যান্টের জন্য বিশ্ববাসীর প্রতি আবেদন জানান ওলেহ সিউক। ইংরেজিতে তিনি বলেন, অনুগ্রহ করে ইউক্রেনকে, মারিউপোলকে সাহায্য করুন। অ্যাজোভস্টালকে এখনই সাহায্য করুন। ফলাফল ঘোষণার পর পুরষ্কার হাতে নেওয়ার সময় ইউক্রেনীয় প্রবাসী ও বিশ্বজুড়ে যারা ইউক্রেনের পক্ষে ভোট দিয়েছেন তাদের ধন্যবাদ জানান। এ সময় তিনি আরো বলেন, জয় ইউক্রেনের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিশেষ করে এ বছর। প্রতিযোগীতায় স্যাম রাইডার দ্বিতীয় ও চ্যানেল অব স্পেন তৃতীয় স্থান অর্জন করেছে।


আরও খবর



ঈদের খুৎবা পড়া না পড়ার ইস্যু নিয়ে সংঘর্ষ, আহত অর্ধশতাধিক

প্রকাশিত:বুধবার ০৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৪ মে ২০২২ | ৬৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকার ধামরাইয়ে ঈদগাহ ময়দানে ঈদুল ফিতরের ওয়াজিব নামাজের খুৎবা পড়া না পড়ার ইস্যু নিয়ে দুগ্রুপের লোকজনের মধ্যে মধ্যে ভয়াবহ রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে।

এতে বিবদমান দুগ্রুপের কমপক্ষে অর্ধশতাধিক মুসল্লি আহত হয়েছেন।আহতদের মধ্যে ১৫জনের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গেছে। আহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতাল ও  ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। পরিস্থতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার উপজেলার যাদবপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ বিলকুশনাই গ্রামের ঈদগাহ ময়দানে এ ঘটনা ঘটে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল ১১টায় উপজেলার যাদবপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ বিলকুশনাই গ্রামের ঈদগাহ ময়দানে ঈদুল ফিতরের জামায়াত অনুষ্ঠিত হয়। নামাজ শেষ না হতেই হঠাৎ মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হলে খুৎবা পড়া আর না পড়া নিয়ে মুসল্লিরা দুদলে বিভক্ত হয়ে পড়েন।একপক্ষ খুৎবা না পড়ার প্রস্তাব দিলে অপরপক্ষ তার প্রতিবাদ করেন।

একপর্যায়ে এ নিয়ে দুদলের মুসল্লিদের মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে যায়। প্যান্ডেলের বাশের খুঁটি খুলে মুসল্লিরা ভয়াবহ সংঘর্ষে লিপ্ত হন। বৃষ্টির মাঝেই চলে ব্যাপক সংঘর্ষ, ধাওয়া ও পাল্টা ধাওয়া।

আহতদের উদ্ধার করে ধামরাই উপজেলা সরকারী আবাসিক হাসপাতাল, রাজধানীর অর্থোপেডিক(পঙ্গু)হাসপাতাল ও হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল বিভিন্ন হাসপাতাল  ও প্রাইভেট ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়েছে। শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষায় ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মো. আতিকুর রহমান আতিক বলেন, খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষায় ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।দুইপক্ষের লোকজনের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।


আরও খবর



সাতক্ষীরায় বাঘে নিয়ে গেল জেলেকে

প্রকাশিত:রবিবার ২২ মে 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২২ মে 20২২ | ২১০জন দেখেছেন

Image

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:

পশ্চিম সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জে মোঃ কাওছার গাইন(২৭) নামের এক জেলেকে মাছ ধরার সময় বাঘে নিয়ে গেছে।

শনিবার (২১ মে) বিকেলে নোটাবেকী ফরেস্ট অফিসের নিয়ন্ত্রণাধীন খেজুরদানা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তবে তার মরদেহ এখনো পাওয়া যায়নি। তার মরদেহ উদ্ধারে বন বিভাগের উদ্ধারকর্মীরা রওয়ানা দিয়েছেন। মোঃ কাওছার গাইন সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার গাবুরা ইউনিয়নের মোঃ রাজ্জাক গাইনের ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় জেলে মোঃ শরিফুল ইসলাম। তিনি বলেন, বৈধ পাশ নিয়ে (১৯ মে) বৃহস্পতিবার সুন্দরবনের মাছ ধরতে যান মোঃ কাওছার গাইনসহ সঙ্গিরা। শনিবার নোটাবেকি খাল এলাকায় মাছ ধরার সময় হঠাৎ বাঘের আক্রমণের শিকার হয় মোঃ কাওছার গাইন। অন্য জেলেরা তাকে বাঘের কবল থেকে রক্ষার চেষ্টা করেও রক্ষা করতে পারেনি। বাঘ তাকে ধরে গহীন জঙ্গলে নিয়ে যায়। তবে এখনো তার মরদেহ উদ্ধার করা যায়নি।


আরও খবর



৬ দিন পর হিলি দিয়ে আমদানি-রপ্তানি শুরু

প্রকাশিত:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টানা ছয় দিন বন্ধের পর আজ শনিবার থেকে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে ফের পণ্য আমদানি-রপ্তানি শুরু হয়েছে।

হিলি কাস্টমস সিঅ্যান্ডএফ এজেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আব্দুর রহমান লিটন জানান, ঈদুল ফিতর, মে দিবস ও সাপ্তাহিক ছুটির কারণে গত ১ মে থেকে ৭ মে পর্যন্ত ছয় দিন বন্ধ ছিল দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম স্থলবন্দর হিলির সকল কার্যক্রম।

আজ সকাল সাড়ে ১০টা থেকে এই বন্দর দিয়ে পণ্যবাহী ট্রাক আসা-যাওয়ার মধ্যদিয়ে কার্যক্রম শুরু হয়।

এদিকে, বন্দরে আমদানি-রপ্তানি শুরু হওয়ায় বন্দর সংশ্লিষ্ট কাস্টমস কর্মকর্তা, ব্যবসায়ী ও শ্রমিকদের মধ্যে কর্মচাঞ্চল্য ফিরে এসেছে।

নিউজ ট্যাগ: হিলি স্থলবন্দর

আরও খবর



নারায়ণগঞ্জের সাবেক এমপির বাড়িতে পুলিশের অভিযান

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | ৬০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সদস্য সচিব মামুন মাহমুদকে ছুরিকাঘাত করার মামলায় সাবেক সংসদ সদস্য গিয়াসউদ্দিনের বাসায় অভিযান চালিয়েছে পল্টন থানা ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাতে এ অভিযান চালানো হয়। ২৫ এপ্রিল পল্টনে জেলা বিএনপির বৈঠক শেষে বের হওয়ার পর কস্তুরি রেস্টুরেন্টের সামনে মামুন মাহমুদকে ছুরিকাঘাত করা হয়।এ ঘটনায় স্থানীয়রা জুয়েল নামে একজনকে আটক করে পুলিশে দেয়।পরে জুয়েলের মোবাইলে কল লিস্ট ও তার দেয়া তথ্যে জেলা ছাত্রদলের সহসভাপতি সাগর সিদ্দিকিকে আটক করা হয়।

এ ঘটনায় মামুন মাহমুদের স্ত্রী বাদী হয়ে পল্টন থানায় মামলা করলে মামলায় জুয়েলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ২৭ এপ্রিল তিনদিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ।

রিমান্ডে জুয়েল গিয়াসউদ্দিনের ছেলে রিফাতের নাম বলেছে বলে পুলিশের একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।সেই সূত্র ধরে তাকে আটক করতেই এ অভিযান বলে জানা যায়।

নাসিকের ২নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর বিএনপি নেতা ইকবাল হোসেন ও সাবেক এমপি গিয়াস উদ্দিনের ব্যক্তিগত সহকারী পল্টু কর্মকার সেদিন দুপুর থেকে ঘটনাস্থলের অদূরে মুক্তাঙ্গনে নিজের মাইক্রোবাসে অবস্থান করছিলেন। এদিকে ঘটনার পর থেকে কাউন্সিলর ইকবাল ও রিফাত গা ঢাকা দিয়েছে বলে জানা গেছে। অভিযানের খবর টের পেয়ে আগেই সটকে পড়েন গিয়াসউদ্দিন ও তার ছেলে রিফাত।

জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মনিরুল ইসলাম রবি জানান, এটি লজ্জাজনক ঘটনা। যেহেতু মামলা হয়েছে ও তদন্তাধীন বিষয় তাই আমি এ ব্যাপারে কিছু বলতে পারবো না। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি মশিউর রহমান জানান, সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে পল্টন থানা পুলিশ ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ গিয়াসউদ্দিনের বাড়িতে অভিযান পরিচালনা করেছে। তবে এ সময় তাদেরকে বাড়িতে পাওয়া যায়নি।

নিউজ ট্যাগ: পুলিশের অভিযান

আরও খবর