আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

গুগল টুলবারসহ ১০টি অ্যাপ বন্ধ করেছে গুগল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ ডিসেম্বর ২০২১ | ৫৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের ইন্টারনেট ও সফটওয়্যার সেবাদানকারী বহুজাতিক কোম্পানি গুগল। কোম্পানিটি ২০২১ সালে নতুন অনেক সেবা এনেছে। আবার অনেকগুলো সেবা বন্ধও করে দিয়েছে। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো গুগল টুলবার। সাপোর্ট পেজে এ সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্টের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ইন্টারনেট এক্সপ্লোরারের জন্য গুগল টুলবার বন্ধ করা হয়েছে। ওয়েবের সব সুবিধা পেতে গুগল ক্রোম ব্যবহার করুন।

সব মিলিয়ে ২০২১ সালে মোট ২১টি অ্যাপ ও পরিষেবা বন্ধ করেছে গুগল। সেই তালিকায় রয়েছে ২০১৯ সালে লঞ্চ হওয়ার গুগল শপিং মোবাইল অ্যাপও। চলতি বছর যেসব অ্যাপ ও সার্ভিস গুগল বন্ধ করেছে, সেগুলো দেখে নিনে এক নজরে

১. গুগল টুলবার ২০০০ সালে লঞ্চ হয়েছিল এ টুলবার। এটি একটি ওয়েব ব্রাউজার টুলবার ছিল এবং এতে একটি সার্চ বক্স দেখানো হতো যেখানে ইন্টারনেট এক্সপ্লোরার এবং ফায়ারফক্সের মতো একাধিক ওয়েব ব্রাউজার থাকত।

২. গুগল মাই ম্যাপ এটি একটি অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ। ব্যক্তিগত ব্যবহার এবং মোবাইল ডিভাইস থেকে লোকেশন শেয়ার করার জন্যই অ্যাপটি ব্যবহার হতো। ২০১৪ সালে লঞ্চ হওয়া এ অ্যাপটি বন্ধ করে দিয়েছে গুগল।

৩. গুগল বুকমার্ক ২০০৫ সালে লঞ্চ হয়েছিল গুগল বুকমার্ক। প্রাইভেট ওয়েব বেসজ বুকমার্কিং এ সার্ভিস কোনো গুগল সার্ভিসের সঙ্গে ইন্টিগ্রেট করা যেত না। ১৬ বছরের এ সার্ভিস চলতি বছর বন্ধ করা হয়েছে।

৪. গুগল চ্যাটবেস গুগল ডায়লগফ্লো চ্যাটবট এবং অন্যান্য সার্ভিসের জন্য ব্যবহৃত একটি অ্যানালিটিক্স প্লাটফর্ম এ গুগল চ্যাটবেস। গুগল ফান্ডেড এরিয়াল২০ ইনকিউবেটর এ প্ল্যাটফর্ম নিয়ে এসেছিল ২০১৪ সালে। সাত বছর পর ২০২১ সালে বন্ধ করা হয় এ সার্ভিস।

৫. ফিটবিট কোচ আগে এ প্লাটফর্মেরই নাম ছিল ফিটস্টার। পরে নাম হয় ফিটবিট কোচ। এআই পারসোনালাইজড ওয়ার্কআউটের এ প্লাটফর্ম লঞ্চ করা হয়েছিল ২০১৩ সালে। চলতি বছর বন্ধ করা হয়েছে এ ফিটবিট কোচ প্লাটফর্মও।

৬. ফিটস্টার যোগা চলতি বছর আরও একটি অ্যাপ বন্ধ করেছে গুগল, যার নাম ফিটস্টার যোগা। এটি একটি ভিডিও বেসড যোগা অ্যাপ। ২০১৪ সালে লঞ্চ হওয়া অনবদ্য এ প্লাটফর্ম নির্ভর করত ইউজারের পারফরম্যান্স এবং স্কিল লেভেলের ওপর।

৭. গুগল টুর বিল্ডার টুর বিল্ডার ইউজারদের গুগল আর্থের ভেতরে ইন্টার‌্যাক্টিভ টুরস ক্রিয়েট এবং শেয়ার করার অপশন দিত। ছবি এবং ভিডিওর মাধ্যমেই সেই সব শেয়ার করা যেত এত দিন। ২০১৩ সালে লঞ্চ হওয়া সেই প্লাটফর্মই চলতি বছর বন্ধ করে দেয় এ সার্চ ইঞ্জিন জায়ান্ট।

৮. গুগল এক্সপেডিশনস স্কুলের ক্লাসরুমে শিক্ষক এবং পড়ুয়াদের জন্য ভার্চুয়াল রিয়্যালিটি অভিজ্ঞতা দিতে পারত গুগল এক্সপেডিশনস। গুগল কার্ডবোর্ডের মাধ্যমেই কাজ করত এ বিশেষ প্রোগ্রাম। ২০১৫ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল এ প্রোগ্রাম।

৯. গুগল টুর ক্রিয়েটর ২০১৮ সালে লঞ্চ হয়েছিল এটি। ইউজারদের ৩৬০ ডিগ্রি গাইডেড টুর ক্রিয়েট করতে দিত এটি। ভিআর ডিভাইসের সাহায্যে এটি দেখা যেতে পারে। মাত্র তিন বছর বয়সেই এ গুগল টুর ক্রিয়েটর বন্ধ করা হলো।

১০. গুগল পলি থ্রিডি অবজেক্ট শেয়ার করার জন্য ক্রিয়েটরদের কাছে গুগল পলি একটি ডিস্ট্রিবিউশন প্লাটফর্ম। ২০১৭ সালে লঞ্চ করা হয়েছিল গুগল পলি।

এ ১০টি গুরুত্বপূর্ণ অ্যাপ ও সার্ভিস ছাড়াও তালিকায় রয়েছে আরও ১৩টি। সেগুলো হলো গুগল প্লে মুভিজ অ্যান্ড টিভি, গুগল মেজার, জিঙ্গ রেন্ডার, গুগল টাইমলি, গুগল শপিং মোবাইল অ্যাপ, গুগল পাবলিক অ্যালার্টস, গুগল গো লিংক, গুগল ক্রাইসিস ম্যাপ, গুগল কার্ডবোর্ড, গুগল সুইফ্ট ফর টেনসরফ্লো, গুগল টিল্ট ব্রাশ, গুগল লুন এবং গুগল অ্যাপ মেকার।


আরও খবর



হিলিতে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি, তীব্র শীতে বিপাকে খেটে খাওয়া মানুষ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | ৪৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশের সবচেয়ে উত্তরের জেলা দিনাজপুরের হিলিতে গুঁড়িগুঁড়ি বৃষ্টি ও হিমেল বাতাস শীতের মাত্রা বাড়িয়ে দিয়েছে। দুই দিন ধরে সূর্যের দেখা মিলছে না। এতে বিপাকে পড়েছেন খেটে খাওয়া মানুষ।

দিনাজপুরে বুধবার সকাল থেকে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ৫ দশমিক ২ মিলিমিটার। ১২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। দিনাজপুরে বুধবার ভোট ৪টা থেকে শুরু হয় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিপাত। সারা দিন আকাশ ছিল মেঘাচ্ছন্ন। রাতে আবারও শুরু হয় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিপাত।

দিনাজপুর আঞ্চলিক আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোফাজ্জল হোসেন জানান, দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ৫ দশমিক ২ মিলিমিটার। এটিই দেশের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত।

এ ছাড়া নীলফামারীতে ৪ মিলিমিটার, পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় ৩ দশমিক ৫ মিলিমিটার, রংপুরে ৩ দশমিক ২ মিলিমিটার এবং কুড়িগ্রামে ১ দশমিক ৭ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

তিনি জানান, উত্তরের হিমেল বায়ু এবং পূবালী বায়ুর সংমিশ্রণের ফলে পৌষের মাঝামাঝি সময়ে এসে এই বৃষ্টিপাত হয়েছে। পূবালী বায়ু কিছুটা উষ্ণ ও উত্তরের বায়ু হিমেল। এই উষ্ণ ও হিমেল বায়ুর সংমিশ্রণের ফলে বাতাসের জলীয়বাষ্প ঘনীভূত হওয়ায় এ বৃষ্টিপাত।

পৌষের এই গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিতে দিনাজপুরসহ এই জনপদে তীব্র শীত অনুভূত হচ্ছে। দিনাজপুর আঞ্চলিক আবহাওয়া অফিসসূত্রে জানা যায়, দিনাজপুরে সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে ১২ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

বৃষ্টিপাত আর তীব্র শীতে জড়োসড়ো হয়ে পড়েছেন দিনাজপুরসহ এই অঞ্চলের মানুষ। ব্যাহত হচ্ছে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। দুর্ভোগে পড়েছে ছিন্নমূল মানুষ। বিপাকে পড়েছেন সকালে কাজের সন্ধানে বের হওয়া খেটে খাওয়া নিম্নআয়ের মানুষ।


আরও খবর



স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রমে ফিরতে মার্চ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | ৫০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য আমাদের তৈরি হতে হবে। তথ্য-প্রযুক্তিতে দক্ষ হতে হবে। আগের তিনটি বিপ্লবও আমরা ধরতে পারিনি

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেছেন, ওমিক্রন সংক্রমণ বাড়ছে। সেজন্য সারাদেশে শিক্ষার্থীদের টিকা কার্যক্রম বিস্তৃত করা হচ্ছে। সবাইকে টিকার আওতায় আনা হবে। স্বাভাবিক শিক্ষা কার্যক্রমের দিকে যেতে আরও সময় লাগবে।

তিনি বলেন, আমাদের দুই বছরের অভিজ্ঞতা বলছে, মার্চ মাসের দিকে করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। তাই আগামী বছরের মার্চ মাস পর্যন্ত আমাদের অপেক্ষা করতে হবে।

রোববার রাজধানীর দনিয়া কলেজ আয়োজিত বিজয়ের সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব জন্মশতবর্ষ উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

দীপু মনি বলেন, শিক্ষাক্ষেত্রে আমাদের আরও অনেক কিছু করার রয়েছে। মুখস্থ, পরীক্ষা-নির্ভর ও সার্টিফিকেট সর্বস্ব শিক্ষা নয়- আমরা এমন শিক্ষাব্যবস্থা সৃষ্টির লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি, যেখানে জ্ঞানার্জনের পাশাপাশি শিক্ষার্থীরা দক্ষতা অর্জন করবে।

তিনি বলেন, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের জন্য আমাদের তৈরি হতে হবে। তথ্য-প্রযুক্তিতে দক্ষ হতে হবে। আগের তিনটি বিপ্লবও আমরা ধরতে পারিনি। আইসিটিতে দক্ষ না হলে চতুর্থ শিল্প বিপ্লব আমাদের পেছনে ফেলে চলে যাবে।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি আরও বলেন, আমাদের শৈশব থেকে বিজ্ঞানমনস্ক ও প্রযুক্তিবান্ধব হতে হবে। একইসঙ্গে মানবিক মানুষ হতে হবে। আশা করি, তোমরা দক্ষ, যোগ্য ও সুনাগরিক হবে।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা রাজনীতির নামে মানুষ পুড়িয়ে মারা ও ষড়যন্ত্র করতে দেখেছি। বাংলাদেশকে পাকিস্তানের হাতে তুলে দিতে দেখেছি। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করতে দেখেছি। এটা কীভাবে রাজনীতি হয়? এটা হত্যা, রাজনীতি নয়। যে রাজনীতি দিয়ে শিক্ষাব্যবস্থায় ইতিবাচক পরিবর্তন আসে, তরুণদের কর্মসংস্থান হয়, দেশের কৃষ্টি লালন-পালন হয়; সেই রাজনীতির নেতৃত্ব দিচ্ছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা।

দনিয়া কলেজের অনুষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান বলেন, আমাদের বড় চাওয়া তোমাদের দক্ষ নাগরিক হতে হবে। বিজ্ঞান ও সাহিত্যের চর্চা করতে হবে। দেশমাতৃকা যাতে কষ্ট না পায়, তার জন্য তোমাদের অতন্দ্র প্রহরী হতে হবে।

কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি কে এম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহমেদ মন্নাফি, আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের ঢাকা মহানগর দক্ষিণ শাখার সভাপতি কামরুল হাসান রিপন প্রমুখ।


আরও খবর



বাংলাদেশি শিল্পীদের নিয়ে চালু হচ্ছে কোক স্টুডিও বাংলা

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৫৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারত ও পাকিস্তানের তারকা শিল্পীদের নিয়ে গানের আয়োজন কোক স্টুডিও এ উপমহাদেশে তুমুল জনপ্রিয়। এবার সে তালিকায় যুক্ত হচ্ছে বাংলাদেশ। গ্রে বাংলাদেশের সমন্বয়ে এরই মধ্যে বাংলাদেশে চলছে এ আয়োজনের দৃশ্যধারণের কাজ।

আজ শুক্রবার দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন গ্রের ম্যানেজিং ডিরেক্টর গাউসুল আলম শাওন। যদিও এ আয়োজন প্রসঙ্গে বিস্তারিত কোনো তথ্য জানাতে নারাজ তিনি।

কোমল পানীয় কোকাকোলার পৃষ্ঠপোষকতায় বেশ গোপনীয়তায় বেসরকারি চ্যানেল দীপ্ত টিভি ভবনের দ্বিতীয় তলায় স্টুডিওতে শুট চলছে আয়োজনটির। এরই মধ্যে রেকর্ডিং দৃশ্যধারণে অংশ নিয়েছেন বাপ্পা মজুমদার, সায়ান চৌধুরী অর্ণব, মমতাজ, পান্থ কানাই, কণাসহ বেশ কয়েকজন। যদিও এ প্রসঙ্গে এখনই কোনো মন্তব্য করতে চান না তাঁরা।

তবে, দীপ্ত টিভির নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকতা জানিয়েছেন, বেশ গোপনীয়তায় শুট করছে কোক স্টুডিও বাংলা। তাঁদের কার্ড ছাড়া সে অংশে কেউ প্রবেশ করতে পারে না। জানা গেছে, দীপ্ত টিভি ছাড়াও এর মধ্যে শুট হয়েছে এফডিসিসহ ঢাকার বেশ কিছু জায়গায়।


আরও খবর



মাদক মামলায় পরীমনির বিচার শুরু

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর বনানী থানায় করা মাদক মামলায় চিত্রনায়িকা পরীমনিসহ ৩ আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছেন আদালত। এর মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে আলোচিত এ মামলার বিচার কার্যক্রম শুরু হলো। মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য করা হয়েছে ১ ফেব্রুয়ারি।

বুধবার ঢাকার বিশেষ জজ ১০-এর বিচারক নজরুল ইসলামের আদালতে মামলাটির বিচার কার্যক্রম শুরু এবং সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য করা হয়। এ মামলার অপর দুই আসামি হলেন- পরীমনির সহযোগী আশরাফুল ইসলাম দিপু ও মো. কবীর হাওলাদার।

আদালতে ঢাকাই সিনেমার নায়িকা পরীমনির আইনজীবী নীলাঞ্জনা রিফাত সুরভী মামলা থেকে পরীমনির অব্যাহতি চেয়ে আবেদন করেন। শুনানি শেষে আদালত সেই আবেদন খারিজ করেন।

গত বছরের ৪ আগস্ট রাজধানীর বনানীতে পরীমনির বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। বাসা থেকে বিপুল মাদকসহ তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এ মামলায় কয়েক দফা রিমান্ড শেষে গত ২১ আগস্ট আবার তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।  ৩১ আগস্ট ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কেএম ইমরুল কায়েশ তার জামিন মঞ্জুর করেন। পরের দিন তিনি কারামুক্ত হন।


আরও খবর



তুহিনকে যুব মহিলা লীগ থেকে অব্যাহতি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৭১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শোকজের জবাব না দেওয়ায় ঢাকা উত্তরের সভাপতি সাবিনা আক্তার তুহিনকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়েছে যুব মহিলা লীগ। গত ২ জানুয়ারি সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি নাজমা আক্তার স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে তাকে এই অব্যাহতি দেওয়া হয়।

চিঠিতে বলা হয়, গত ২১ ডিসেম্বর কার্যনির্বাহী কমিটির সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক সাংগঠনিক অদক্ষতা, সংগঠনের নিয়ম-শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকাণ্ডে নিয়োজিত এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সভাপতিসহ কেন্দ্রীয় নেতাদের মানহানিকর বক্তব্য দেওয়ার কারণে সাত কার্যদিবসের মধ্যে লিখিতভাবে জবাব দেওয়ার জন্য কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়েছিল। ওই চিঠি কুরিয়ার সার্ভিস, হোয়াটসঅ্যাপ ও ম্যাসেজের মাধ্যমে পাঠানো হয়েছিল।

সাত কার্যদিবস অতিবাহিত হওয়ার পরও কোনো উত্তর না পাওয়ায় গঠনতন্ত্রের ১১(খ) ও ১২(খ) ধারায় ঢাকা মহানগর উত্তর যুব মহিলা লীগের সভাপতির পদ থেকে তাকে অব্যাহতি প্রদান করা হলো।

শোকজের চিঠিতে বলা হয়, গত ১৬ ডিসেম্বর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় অসাংগঠনিক কর্মকাণ্ড করেন তুহিন। সেখানে তিনি সভাপতি নাজমা আক্তারসহ অনেককে অপমান, নাজেহাল এমনকি শারীরিকভাবে আহত ও লাঞ্ছিত করার অভিযোগসহ চারটি অভিযোগ করা হয়। সেই অভিযোগের জবাব চাওয়া হয় তুহিনের পক্ষ থেকে। তবে সেই শোকজের জবাব দেননি তুহিন।

জানতে চাইলে সাবিনা আক্তার তুহিন বলেন, আমি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শোকজের চিঠি দেখেছি। শুধুমাত্র সভাপতির স্বাক্ষরিত চিঠি হওয়ায় উত্তর দেইনি। আর ব্যক্তিগত কারণে সভাপতি আমাকেই এখন অব্যাহতি দিয়েছেন। আমি এই অব্যাহতি মানি না। আমি আমার সাংগঠনিক কার্যক্রম করব।

তুহিন বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাকে দায়িত্ব দিয়েছেন। তিনি যখন বলবেন তখনই আমি সাংগঠনিক কার্যক্রম থেকে বিরত থাকব, তার আগে নয়।


আরও খবর