আজঃ সোমবার ২৩ মে ২০২২
শিরোনাম

হবিগঞ্জে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু

প্রকাশিত:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | হালনাগাদ:বুধবার ২০ এপ্রিল ২০22 | ২৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

হবিগঞ্জের বানিয়াচং ও লাখাই উপজেলায় পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) দুপুর ও বিকেলে পৃথক স্থানে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হচ্ছে, বানিয়াচং উপজেলার ইকরাম গ্রামের হারুন খানের পুত্র রায়হান মিয়া (৪) ও লাখাই উপজেলার স্বজনগ্রামের দেলোয়ার মিয়ার কন্যা নুসরাত আক্তার (৭)।

স্থানীয়রা জানায়, মঙ্গলবার দুপুরে লাখাইয়ে স্বজন গ্রামে শিশু নুসরাত আক্তার বাড়ির পার্শ্ববর্তী ধানের মিলে কয়েকজন শিশুর সঙ্গে খেলাধুলা করছিল। এ সময় তার পরিবারের সদস্যরা কৃষিকাজে ব্যস্ত ছিল। খেলাধুলার এক পর্যায়ে শিশুটি একটি পুকুরের পানিতে পড়ে তলিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে মঙ্গলবার বিকেলে বানিয়াচং উপজেলার ইকরাম গ্রামে শিশু রায়হান পরিবারের সদস্যদের অজান্তে বাড়ির পুকুরে ডুবে যায়। পরে অনেক খোঁজাখুঁজির পর তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। রাতে তার মরদেহ পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে।

লাখাই থানার (ওসি) সাইদুল ইসলাম জানান, নুসরাত আক্তার নামে সাত বছরের ওই শিশুটি বাড়ির পার্শ্ববর্তী খলায় অন্যান্যদের শিশুদের খেলাধুলা করছিল। এসময় তার পরিবারের সদস্যরা কৃষিকাজে ব্যস্ত ছিল। খেলাধুলার এক পর্যায়ে শিশুটি একটি পুকুরের পানিতে পড়ে তলিয়ে যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

বানিয়াচং থানার ওসি মোঃ এমরান হোসেন জানান, ইকরাম গ্রামের রায়হান মিয়া নামে ওই শিশুটি পরিবারের সদস্যদের অজান্তে পুকুরের পানিতে ডুবে যায়। পরে অনেক খুজাখুজির পর তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এসময় স্বজনদের কান্নায় ভাড়ি হয়ে উঠে পুরো হাসপাতাল এলাকা।


আরও খবর



আজ ঐতিহাসিক ফারাক্কা লংমার্চ দিবস

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ ১৬ মে ঐতিহাসিক ফারাক্কা লংমার্চ দিবস। ফারাক্কা বাঁধের ফলে নদীর নাব্যতা হারানোর আশঙ্কায় ও পানির নায্য হিসসার দাবিতে ১৯৭৬ সালের এই দিনে মজলুম জননেতা  মওলানা ভাসানীর নেতৃত্বে লংমার্চ অনুষ্ঠিত হয়। রাজশাহীর মাদ্রাসা ময়দান থেকে ফারাক্কা বাঁধ অভিমুখে লাখো জনতার সেই লংমার্চ রওনা হয় ফারাক্কা বাঁধ অভিমুখে। লংমার্চ শেষে কানসাট হাই স্কুল মাঠে অনুষ্ঠিত বিশাল সমাবেশে বক্তব্য দেন মজলুম জননেতা। সেই  থেকে ১৬ মে ফারাক্কা দিবস নামে পরিচিতি লাভ করে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার ১৮ কিলোমিটার উজানে ভারত ফারাক্কা বাঁধটি নির্মাণ করে।

১৯৭২ সালে ভারত-বাংলাদেশ যৌথ নদী কমিশন গঠন করা হয়। এরপর ১৯৭৪-এর ১৬ মে একটি সমঝোতায় পৌঁছায় বাংলাদেশ ও ভারত। কিন্তু ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মালদহ ও মুর্শিদাবাদ জেলায় অবস্থিত ফারাক্কা ব্যারাজের নির্মাণকাজ ১৯৭৫ সালে শেষ করে দেশটি। ওই বছর থেকেই ব্যারাজের মাধ্যমে পানিপ্রবাহ নিয়ন্ত্রণ করে ভারত। ১৯৭৬ সাল থেকে একতরফাভাবে পানি নিজ দেশের অভ্যন্তরে ফিডার ক্যানাল দিয়ে প্রত্যাহার অব্যাহত রাখে ভারত। এর বিরূপ প্রভাবে চাঁপাইনবাবগঞ্জের পদ্মা, মহানন্দাসহ দেশের বড় বড় সব নদী নাব্যতা হারিয়ে হয়ে পড়ে পানিশূন্য বালির চর।

ফারাক্কার প্রভাবে চাঁপাইনবাবগঞ্জের পদ্মাসহ চার নদীই এখন মৃতপ্রায়। স্থানীয়রা বলছেন, নদীতে এখন পানির প্রবাহ নির্ভর করে ভারতের ইচ্ছা-অনিচ্ছার ওপর। শুষ্ক মৌসুমে পানি পাওয়া যায় না, আবার বর্ষায় হঠাৎ পানি ছেড়ে দিলে বন্যা এবং নদীভাঙন দেখা দেয়। পরিবেশবাদীরা বলছেন, নদী শুকিয়ে যাওয়ায় জীববৈচিত্র্যের ওপর মারাত্মক ক্ষতিকর প্রভাব পড়েছে।

সেভ দ্য নেচারসহ কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের নেতারা জানান, পদ্মায় পানি না থাকায় পরিবেশের ওপর পড়ছে বিরূপ প্রভাব। সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে উদ্ভিদ ও জীবচক্র।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তারা জানান, ফারাক্কা ব্যারাজের দীর্ঘমেয়াদি প্রভাবের কারণে চাঁপাইনবাবগঞ্জের পদ্মাসহ অন্য তিন নদী- মহানন্দা, পাগলা ও পুনর্ভবা শুকিয়ে যাচ্ছে, ব্যারাজ নির্মাণের পর পানিপ্রবাহ বাধাগ্রস্ত হওয়ায় নদীতে নাব্যসংকট দেখা দিয়েছে। এখন প্রয়োজনীয় পানি পেলেও তা ধরে রাখা যায় না। আর ফারাক্কা ব্যারাজের দরজা হঠাৎ খুলে দেওয়ার কারণে বন্যা ও নদীভাঙন প্রবণতা বাড়ছে।


আরও খবর
১২ মে: ইতিহাসে আজকের এই দিনে

বৃহস্পতিবার ১২ মে ২০২২




রাঙামাটিতে বাস চাপায় গোয়েন্দা সংস্থার ২ সদস্য নিহত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | ৬৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাঙামাটি শহরের পাবলিক হেলথ এলাকায় যাত্রীবাহী বাস চাপায় গোয়েন্দা সংস্থার দুই সদস্য নিহত হয়েছেন। সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন-রাঙামাটি জেলায় দায়িত্বরত ডিজিএফআই সাব ইন্সপেক্টর দাউদ হাসান (৩৮) এবং সার্জেন্ট ইসহাক রুহুল (৩৫)। তাঁরা মোটরসাইকেলে ছিলেন। তাঁদের চাপা দেওয়ার পর চালক পালিয়ে যায়।

রাঙামাটি কোতোয়ালি থানার ওসি কবির হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে মোটরসাইকেলে তাঁরা বনরূপা থেকে কলেজ গেটের দিকে যাচ্ছিলেন। যাওয়ার পথে পাবলিক হেলথ সড়ক মুখে পৌঁছালে চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা বিরতিহীন পাহাড়িকা বাস (ঢাকা মেট্রো ব ১৪৪৪৪০) তাঁদের চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই ইসহাক রুহুলের মৃত্যু হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পর দাউদ হাসান মারা যান। মরদেহ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে নেওয়া হয়েছে।


আরও খবর
রাঙামাটিতে গোলাগুলি, নিহত ২

বুধবার ২৯ ডিসেম্বর ২০২১




গিনিতে ৩ বছর পর ক্ষমতা ছাড়ার ঘোষণা সামরিক শাসকের

প্রকাশিত:সোমবার ০২ মে 2০২2 | হালনাগাদ:সোমবার ০২ মে 2০২2 | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আফ্রিকার দেশ গিনির সামরিক সরকারের প্রধান কর্নেল মামাডি ডুম্বুইয়া বলেছেন, ৩ বছর পর ক্ষমতা ছাড়ার ঘোষণা সামরিক শাসকের দেশ আবারও বেসামরিক সরকারের শাসনে ফিরে যাবে।

টিভিতে এক ঘোষণায় তিনি বলেন, অন্তর্বর্তী সময়ের এই প্রস্তাবটি এখন গিনির পার্লামেন্টে উত্থাপন করা হবে।

গত বছর গিনিতে এক অভ্যুত্থানের মধ্য দিয়ে নির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে উৎখাত করে সেনাবাহিনী। শুরুর দিকে এ পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছিল গিনির বহু নাগরিক।

তবে সামরিক সরকার সময়মতো বেসামরিক সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর না করায় তা নিয়ে জনমনে অসন্তোষ বাড়ছে।

বিবিসি জানায়, পশ্চিম আফ্রিকার দেশগুলোর জোট ইকোওয়াস ক্ষমতা হস্তান্তরের জন্য গিনির সামরিক সরকারকে গত সোমবার পর্যন্ত সময়সীমা বেঁধে দিয়ে বলেছিল, অন্যথায় তাৎক্ষণিক নিষেধাজ্ঞায় পড়তে হবে।

সেই আল্টিমেটামের পরই গিনির জান্তা সরকার ক্ষমতা ছাড়ার এই ঘোষণা দিল। তবে বেঁধে দেওয়া সময়সীমা মানতে ব্যর্থ হয়েছে জান্তা। এর জন্য আরও সময় চাওয়া হয়েছে। জান্তা সরকার বলেছিল, তারা ১৮ থেকে ৫২ মাসের একটি অন্তর্বর্তী সময়ের কথা ভাবছে।

অবশেষে শনিবার ৩৯ মাসের (তিন বছর তিন মাস) অন্তর্বর্তী সময় প্রস্তাব করেছে জান্তা সরকার। কর্নেল ডুম্বুইয়া প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেছেন, তিনিসহ অন্তর্বর্তী সরকারে অংশগ্রহণকারীদের কেউই আগামীতে অনুষ্ঠেয় সাধারণ নির্বাচনে অংশ নেবেন না।

গিনিতে অভ্যুত্থানের পর ৮০ সদস্যবিশিষ্ট ন্যাশনাল ট্রানজিশন কাউন্সিল (সিএনটি) গড়ে তোলা হয়। এ কাউন্সিলই এখন দেশের পার্লামেন্ট হিসেবে কাজ চালাচ্ছে। দেশে পরবর্তী নির্বাচন আয়োজনের দায়িত্ব সিএনটি’র। তবে এখন পর্যন্ত তারা সেটি করেনি।


আরও খবর



শহীদ শেখ জামালের জন্মদিন আজ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | ৪২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ ২৮ এপ্রিল সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের দ্বিতীয় পুত্র ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর গর্বিত অফিসার বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ লেফটেন্যান্ট শেখ জামালের ৬৯তম জন্মদিন। শেখ জামাল ১৯৫৪ সালের ২৮ এপ্রিল গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজ থেকে মাধ্যমিক ও ঢাকা কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করেন। তিনি ছিলেন সংস্কৃতিপ্রেমী ও একজন ক্রীড়াবিদ।

১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে শেখ জামালও গৃহবন্দি ছিলেন। সেখান থেকে পালিয়ে তিনি মহান মুক্তিযুদ্ধে সম্মুখসমরে নেতৃত্ব দেন। শেখ জামাল ধানমন্ডি থেকে অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ পথচলা শেষে ভারতের আগরতলা পৌঁছান এবং সেখানে মুজিব বাহিনীতে (বাংলাদেশ লিবারেশন ফোর্সেস, বিএলএফ) যোগদান করে প্রশিক্ষণ শেষে মুক্তিযুদ্ধের ৯ নম্বর সেক্টরে সম্মুখসমরে অংশ নেন।

শহীদ শেখ জামাল ছিলেন একজন দেশপ্রেমিক চৌকস-মেধাবী সেনা অফিসার। তিনি ছিলেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর লং কোর্সের প্রথম ব্যাচের কমিশন্ড অফিসার। ১৯৭৪ সালে শেখ জামাল যুগোস্লাভিয়ার মিলিটারি একাডেমিতে ক্যাডেট হিসেবে প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে অংশ নেন। এরপর ব্রিটেনের স্যান্ডহার্স্ট একাডেমি থেকে প্রশিক্ষণ শেষে দেশে ফিরে ঢাকা সেনানিবাসস্থ দ্বিতীয় ইস্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টে সেকেন্ড লেফটেন্যান্ট পদে যোগদান করেন।

দ্বিতীয় ইস্ট বেঙ্গলে চাকরিকালে স্বল্প সময়েই অফিসার ও সৈনিকদের মাঝে তিনি অসাধারণ পেশাগত দক্ষতা ও আন্তরিকতার ছাপ রেখেছিলেন। কয়েক সপ্তাহেই শেখ জামাল অফিসার ও সৈনিকদের মধ্যে তাদেরই একজন হয়ে যান। ট্রেনিং গ্রাউন্ডে, রণকৌশলের ক্লাসে, অবস্টাকল ক্রসিংয়ে অংশ নিয়ে সৈনিকদের মুগ্ধ করেন।

ব্যাটালিয়ন বক্সিং টিমের সদস্যদের প্রশিক্ষণ দেন। ১৯৭৫ সালের ১৪ আগস্টও ব্যাটালিয়ন ডিউটি অফিসার হিসেবে ক্যান্টনমেন্টে নিজ দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ওই দিন রাতে ক্যান্টনমেন্ট থেকে ফিরে আসেন ধানমন্ডি ৩২ নম্বরের বাড়িতে। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট কালরাত্রিতে ঘাতকের নির্মম বুলেটের আঘাতে পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের সঙ্গে নিহত হন শেখ জামাল।

জন্মদিন স্বভাবতই সবার কাছে আনন্দের। কিন্তু ১৫ আগস্টের নৃশংসতম মর্মান্তিক হত্যাকাণ্ড সে আনন্দকে ম্লান করে দেয়। স্বাধীনতা ও মুক্তি সংগ্রামে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের অবদান বাঙালি জাতি কৃতজ্ঞতার সঙ্গে চিরদিন স্মরণ করবে।

৬৯তম জন্মদিনে শহীদ শেখ জামালকে গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসার সাথে স্মরণ করছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। এ উপলক্ষে আজ সকাল ৮টায় বনানী কবরস্থানে শহীদ শেখ জামালের সমাধিতে আওয়ামী লীগের উদ্যোগে যথাযথভাবে স্বাস্থ্যসুরক্ষা বিধি মেনে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ এবং তার পবিত্র আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।


আরও খবর



হাতিয়ার সাথে সারা দেশের নৌ যোগাযোগ বন্ধ

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | ৪১০জন দেখেছেন

Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

ঘূর্ণিঝড় অশনি এর কারণে নদী উত্তাল থাকায় হাতিয়া দ্বীপের সঙ্গে সারা দেশের নৌ চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন উপজেলা প্রশাসন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.সেলিম হোসেন। এতে করে দূর্ভোগে পড়েছে হাতিয়া থেকে ঢাকা, চট্টগ্রাম, নোয়াখালী সহ বিভিন্ন জায়গায় যাওয়ার জন্য অপেক্ষমান যাত্রীরা।

সোমবার (৯ মে) সকাল থেকে বৈরী আবহাওয়ার কারণে উপজেলা প্রশাসন পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত নৌ চলাচল বন্ধ থাকবে।

উপজেলা প্রশাস সূত্রে জানা যায়, এছাড়া মাছ ধরার সকল প্রকার নৌকা ও ট্রলারগুলো কে উপকূলের কাছাকাছি থাকতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এদিকে দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার উপর দিয়ে সকাল থেকে দমকা হাওয়া ও ভারি বর্ষণ অব্যাহত রয়েছে। ফলে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ব্যাহত হয়ে পড়েছে।


আরও খবর