আজঃ মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

হেলেনা জাহাঙ্গীরের জামিন, মুক্তিতে বাধা নেই

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | ৩৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
২৯ জুলাই রাত ৮টার দিকে গুলশান-২ এ হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। দীর্ঘ চার ঘণ্টা অভিযান শেষে রাত ১২টার দিকে তাকে আটক করা হয়

রাজধানীর গুলশান থানার ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছে আদালত।

বুধবার ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রেজাউল করিম চৌধুরী শুনানি শেষে জামিন আদেশ দেন। আদালতের সংশ্লিষ্ট সাধারণ নিবন্ধন জিয়ার শাখা থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্র জানায়, হেলেনা জাহাঙ্গীরের এর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। সকল মামলায় তার জামিন হয়েছে। এখন তার মুক্তিতে আর বাধা রইল না।

গত ২১ সেপ্টেম্বর গুলশান থানায় মাদক, বিশেষ ক্ষমতা ও পল্লবী থানায় প্রতারণার আইনে হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে দায়ের করা পৃথক মামলায় জামিন দিয়েছেন আদালত।

এর আগে পল্লবী থানায় দায়ের করা টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় ১৭ আগস্ট জামিন পান হেলেনা।

২৯ জুলাই রাত ৮টার দিকে গুলশান-২ এ হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় অভিযান চালায় র‌্যাব। দীর্ঘ চার ঘণ্টা অভিযান শেষে রাত ১২টার দিকে তাকে আটক করা হয় এবং পরে র‍্যাব সদরদফতরে নিয়ে যাওয়া হয়। হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আটকের পর তার প্রতিষ্ঠান জয়যাত্রা টেলিভিশন কার্যালয়েও অভিযান চালায় র‍্যাব।

ওই অভিযানের পর র‌্যাব জানায় জয়যাত্রা টেলিভিশন কোনো ধরনের বৈধ কাগজপত্র ছাড়া চলতো। হেলেনা জাহাঙ্গীর তার জয়যাত্রা টেলিভিশনের জন্য সারাদেশে প্রতিনিধি নিয়োগ করেছিলেন। প্রবাসী প্রতিনিধি নিয়োগের নামে তিনি অর্থ হাতিয়ে নিয়েছেন।

ডিজিটাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে মিথ্যাচার, অপপ্রচার ও বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়িয়ে রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ সংস্থা ও ব্যক্তিদের সম্মানহানি করার অপচেষ্টার অভিযোগে হেলেনা জাহাঙ্গীরকে গ্রেফতার দেখানো হয় ৩০ জুলাই।

জুলাই মাসে বাংলাদেশ আওয়ামী চাকরিজীবী লীগ নামে একটি সংগঠনের পোস্টার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। পোস্টারে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সভাপতি হেলেনা জাহাঙ্গীর আর সাধারণ সম্পাদক মাহবুব মনিরের নাম উল্লেখ করা হয়। ওই পোস্টার ছড়িয়ে পড়ার পর আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য পদ হারান হেলেনা জাহাঙ্গীর।

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলাগুলোতে কয়েক দফায় তাকে রিমান্ডে নেয় পুলিশ।


আরও খবর



১১ দিন পর খুললো টঙ্গী ব্রিজ

প্রকাশিত:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | ২৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ফুটোর কারণে বন্ধ হয়ে পড়া গাজীপুরের টঙ্গী সেতুতে মেরামতের পর আবারও যানবাহন চলাচল শুরু হয়েছে। ১১ দিন যানচলাচল বন্ধ থাকার পর রোববার বেলা পৌনে ১১ টার দিকে সেতুটি যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেয় কর্তৃপক্ষ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গাজীপুর মেট্রপলিটন পুলিশ কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবির। তিনি বলেন, বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ সেতুটিতে যান চলাচলের উপযোগী মর্মে ক্লিয়ারেন্স দেন। এরপর সেতুটি পথচারী ও যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়।  এতে করে এই পথে চলাচলকারীদের দুর্ভোগ নিরসন হবে বলে আমরা আশা করছি।

৯ নভেম্বর রাত ৩টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের টঙ্গীর তুরাগ নদীর ওপর টঙ্গী সেতুর পুরোনো স্ল্যাব ড্যামেজ থাকায় তার কিছু অংশ ভেঙে পড়ে। এতে ওই পথে সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

ঢাকা থেকে বের হওয়া যানবাহনগুলো ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানজটে আটকে থাকতে হয়েছে। টঙ্গী স্টেশনরোড থেকে ঢাকা অভিমুখী লেনে বাঁশ ও অন্যান্য উপকরণ ফেলে বন্ধ করে দেওয়া হয়। টঙ্গী স্টেশনরোড হয়ে ইউটার্ন নিয়ে বিকল্প পথে রাজধানীতে ঢুকেছে যানবাহনগুলো।

পরে দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞরা ক্ষতিগ্রস্ত সেতুটি পরিদর্শন করে তা সংস্কারের জন্য ১২ দিন সময় নেন। সে অনুযায়ী ২১ নভেম্বর সেতু দিয়ে যান চলাচল শুরু হওয়ার কথা ছিল। সেই অনুযায়ী আজ থেকে যান চলাচল শুরু হলো।

নিউজ ট্যাগ: টঙ্গী ব্রিজ

আরও খবর
মাদকবিরোধী অভিযানে আটক ৪৬

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




মেয়র জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | ৪৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটূক্তি, মানহানিকর বক্তব্য এবং মুক্তিযুদ্ধকে তাচ্ছিল্য ও উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়ায় শশী আক্তার বাদী হয়ে দুপুরে গাজীপুরের মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে অভিযুক্ত করে

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিয়ে কটূক্তি ও মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়ায় গাজীপুরের মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) দুপুরে রাজবাড়ী ১নং আমলি আদালতে এ মামলা করা হয়। মানবিক বাংলাদেশ সোসাইটির রাজবাড়ী পৌর শাখার সভাপতি শশী আক্তার মামলাটি করেন।

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী মেহেদী হাসান বলেন, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটূক্তি, মানহানিকর বক্তব্য এবং মুক্তিযুদ্ধকে তাচ্ছিল্য ও উসকানিমূলক বক্তব্য দেওয়ায় শশী আক্তার বাদী হয়ে দুপুরে গাজীপুরের মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে অভিযুক্ত করে রাজবাড়ীর আদালতে মামলার আবেদন করেন। এ সময় সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. সুমন হোসেন বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে মামলাটি পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) তদন্তের নির্দেশ দেন।


আরও খবর



ওটিটি থেকে বিদায় নিচ্ছেন নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকি

প্রকাশিত:রবিবার ৩১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ৩১ অক্টোবর ২০২১ | ৫৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
ওটিটি তারকাদের আচরণ বড় পর্দার তারকাদের মতোই হয়ে গিয়েছে। তাঁরা ভুলে যাচ্ছেন, নায়ক বা নায়িকা নন, ওটিটি-তে বিষয়বস্তুই রাজা।

সেক্রেড গেমস থেকে রাত অকেলি হ্যায়। কিংবা সিরিয়াস মেন। সাড়া জাগানো সব ওয়েব সিরিজ তাঁর ঝুলিতে। এ বার ওটিটি থেকে বিদায় নিচ্ছেন সেই নওয়াজউদ্দিন সিদ্দিকিই! কারণ, বিনোদনের এই নয়া মাধ্যমের প্রতিই বীতশ্রদ্ধ হয়ে উঠেছেন ফয়জল খানগ্যাংস অফ ওয়াসিপুর-এর অভিনেতার দাবি, ওটিটি এখন আবর্জনা ফেলার জায়গা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

কেন এ কথা বলছেন নওয়াজ?

সেক্রেড গেমস-এর গণেশ গায়তোণ্ডের বক্তব্য অপ্রয়োজনীয় ছবি, ওয়েব সিরিজে ভরে উঠছে ওটিটি মঞ্চ। সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে ওটিটি ছাড়ার সিদ্ধান্তের কথা জানান নওয়াজ। তাঁর কথায়, এ রকম কিছু ছবি বা ওয়েব সিরিজ মুক্তি পেয়েছে ওটিটি-তে, যা বানানোই উচিত হয়নি। অথবা এমন কিছু স্যিকুয়েল বা সিজন তৈরি হয়েছে, যেখানে নতুন করে কিছু বলার-ই নেই।

বিনোদন-মাধ্যম হিসেবে ওটিটি-র যাত্রা শুরুর প্রথম দিকে অনুরাগীদের একাধিক ছবি এবং ওয়েব সিরিজ উপহার দিয়েছেন এই নওয়াজই। নেটফ্লিক্সের সেক্রেড গেমস নিয়ে কম মাতামাতি হয়নি ২০১৮ সালে। তার পর নেটফ্লিক্সেই সিরিয়াস মেন, রাত অকেলি হ্যায়-তে অভিনয় করেছেন নওয়াজ। জনপ্রিয়ও হয়েছে তাঁর কাজ।

নওয়াজ বলছেন,যখন সেক্রেড গেমস করেছিলাম, ওটিটি মঞ্চ নিয়ে রোমাঞ্চ কাজকরত। নতুন প্রতিভাদের সুযোগ দেওয়া হত, কিন্তু সে সবের বালাই নেই আর। কোনও কাজে নতুনত্ব নেই। তথাকথিত তারকাদের এবং প্রযোজনা সংস্থার কাছে ওটিটি এখন ব্যবসার জায়গা হয়ে দাঁড়িয়েছে। অজস্র ছবি বা সিরিজ মুক্তি পাচ্ছে। আর তার জন্য বিপুল পরিমাণ টাকা পাচ্ছেন প্রযোজকরা। সংখ্যার দিকে তাকাতে গিয়ে মান নেমে যাচ্ছে।

নওয়াজের মতে, তারকা-কেন্দ্রিক হয়ে ওঠাই ইন্ডাস্ট্রির বড় পর্দাকে নষ্ট করেছে। এ বার সেই পথে হাঁটছে ওটিটিও। তাঁর কথায়, ওটিটি তারকাদের আচরণ বড় পর্দার তারকাদের মতোই হয়ে গিয়েছে। তাঁরা ভুলে যাচ্ছেন, নায়ক বা নায়িকা নন, ওটিটি-তে বিষয়বস্তুই রাজা।

ওটিটিতে কাজ না করার সিদ্ধান্তের কারণ হিসেবে নওয়াজ বলেন, যে সব কাজ আমি চোখে দেখতে পারি না, তাতে নিজেকে আর দেখব কী করে?

 


আরও খবর
শাকিব খানের ব্যাংক হিসাব তলব

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




আবরার হত্যা মামলার রায় পেছাল

প্রকাশিত:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ২১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ রাব্বী (২২) হত্যা মামলার রায় ঘোষণার দিন পিছিয়ে ৮ ডিসেম্বর নির্ধারণ করেছেন আদালত।

ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১-এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান আজ রোববার আবরার হত্যা মামলার রায় ঘোষণার নতুন দিন নির্ধারণ করেন।

এর আগে কারাগারে থাকা ২২ আসামিকে আজ বেলা পৌনে ১২টার দিকে ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতের হাজতখানা থেকে এজলাসে নেওয়া হয়।

এর আগে আজ সকাল সোয়া ১০টায় কড়া পুলিশি পাহারায় কারাগার থেকে আসামিদের আদালতের হাজতখানায় হাজির করা হয়।

আবরার ফাহাদ বুয়েটের তড়িৎ ও ইলেকট্রনিক প্রকৌশল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষে পড়তেন। ২০১৯ সালের ৬ অক্টোবর দিবাগত রাতে বুয়েটের শেরেবাংলা হলের একটি কক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাঁকে পিটিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় আবরারের বাবা মো. বরকত উল্লাহ ৭ অক্টোবর ১৯ জনকে আসামি করে চকবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। ২০১৯ সালের ১৩ নভেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) পরিদর্শক (নিরস্ত্র) মো. ওয়াহিদুজ্জামান ২৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

এরপর ২০২০ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি মামলার বিচারকাজ দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে পাঠানোর জন্য ঢাকার মহানগর পাবলিক প্রসিকিউটরের (পিপি) কার্যালয়ে আবেদন করেন মো. বরকত উল্লাহ। পরে ১২ মার্চ আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক আবরার হত্যা মামলাটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে পাঠানোর ফাইল অনুমোদন করেন।


আরও খবর



গুলশানে ক্যাপিটাল রিক্রিয়েশন ক্লাবে র‌্যাবের অভিযান

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৬ নভেম্বর ২০২১ | ৫১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজধানীর অভিজাত এলাকা গুলশানে ক্যাপিটাল রিক্রিয়েশন নামের একটি ক্লাবে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ মদ ও বিয়ার উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে র‍্যাব। গতকাল শুক্রবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই অভিযান পরিচালনা করা হয়।

র‍্যাব-১-এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আবদুল্লাহ আল মোমেন এই অভিযানের নেতৃত্ব দেন।

র‍্যাবের এই কর্মকর্তা সাংবাদিকদের জানান, দীর্ঘদিন ধরেই ক্লাবটি অনুমোদনের বাইরে বিদেশি মদ সংরক্ষণ ও সরবরাহ করে আসছিল। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ক্যাপিটাল রিক্রিয়েশন ক্লাবে অভিযান চালানো হয়।


আরও খবর