আজঃ সোমবার ২৩ মে ২০২২
শিরোনাম

ইংল্যান্ডের টেস্ট দলের কোচ ব্রেন্ডন ম্যাককালাম

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | ৪৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নিউজিল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ব্র্যান্ডন ম্যাককালামকে টেস্ট দলের কোচ হিসেবে নিয়োগ দিল ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি)।

বৃহস্পতিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ইসিবি জানিয়েছে, এ মাসের শেষেই যুক্তরাজ্য যাবেন ম্যাককালাম। আগামী ২ জুন লর্ডসে মৌসুমে নিজেদের প্রথম টেস্ট খেলবে ইংল্যান্ড, সেটিও ম্যাককালামের দেশ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষেই। প্রয়োজনীয় কাজের অনুমোদনসাপেক্ষে ওই সিরিজেই কাজ শুরু করবেন ম্যাককালাম।

এ মুহূর্তে আইপিএলের দল কলকাতা নাইট রাইডার্সের দায়িত্ব পালন করছেন ম্যাককালাম। আইপিএলে দুইবারের শিরোপাজয়ী দলটির এবার কার্যত প্লে-অফের আশা শেষ। গত তিন মৌসুম ধরেই কলকাতার প্রধান কোচের দায়িত্ব পালন করে আসছেন ম্যাককালাম। তবে ক্যারিয়ারে কখনো প্রথম শ্রেণির কোনো ম্যাচে কোচিংয়ের অভিজ্ঞতা হয়নি তার।

সেই ম্যাককালামকেই নতুন টেস্ট কোচ হিসেবে বেছে নিয়ে চমক দিল ইংল্যান্ড। কলকাতা ছাড়াও ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে ট্রিনবাগো নাইট রাইডার্সকে কোচিং করিয়েছেন ম্যাককালাম।

ম্যাককালামের নিয়োগের ব্যাপারে ইসিবির ছেলেদের ক্রিকেটের নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক কি বলেছেন, ম্যাককলামকে ইংল্যান্ডের ছেলেদের টেস্টের প্রধান কোচ হিসেবে নিশ্চিত করতে পেরে আমরা উচ্ছ্বসিত। তাকে জানা এবং খেলা সম্পর্কে তার দৃষ্টিভঙ্গি বুঝতে পারাটা একটা বড় পাওয়া। আমার বিশ্বাস, তার নিয়োগ ইংল্যান্ডের টেস্ট দলের জন্য দারুণ হবে। ক্রিকেট সংস্কৃতি ও পরিবেশ বদলানোর ব্যাপারে সাম্প্রতিক ইতিহাস আছে তার। আমার বিশ্বাস, ইংল্যান্ডের লাল বলের ক্রিকেটের ক্ষেত্রেও সে করতে পারবে সেটি।

নতুন দায়িত্ব পাওয়ার পর ম্যাককালাম বলেছেন, ইংল্যান্ডের টেস্ট দলে ইতিবাচক অবদান রাখার সুযোগ পেয়ে ও দলকে আরও সফল এক যুগে নিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে আমি কতটা খুশি, সেটি বলতে চাই। এ মুহূর্তে দল যে চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি, আমি বিশ্বাস করি আমার সামর্থ্য দিয়ে দলকে সহায়তা করতে পারব।

ইংল্যান্ডের কোচ হওয়ার সম্ভাব্য তালিকায় ম্যাককালামের সঙ্গে ছিলেন গ্যারি কারস্টেন, সাইমন ক্যাটিচ ও পল কলিংউড।


আরও খবর



মারা গেলেন পৃথিবীর সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ এপ্রিল ২০২২ | ৪৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পৃথিবীর সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ কেন তানাকা আর নেই। ১১৯ বছর বয়সে জাপানি এই নারী সবাইকে ছেড়ে না ফেরার দেশে চলে গেছেন। এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে জাপানের স্বাস্থ্য, শ্রম ও কল্যাণ মন্ত্রণালয়।

ব্যাংকক পোস্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৯০৩ সালের ২ জানুয়ারি জন্ম নেওয়া কেন তানাকা মারা গেছেন গত ১৯ এপ্রিল। তার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছে গিনেস ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস।

এক টুইটে সংস্থাটি জানায়, ২০১৯ সালে ১১৬ বছর ২৮ দিন বয়সে পৃথীবির সবচেয়ে বয়স্ক মানুষ হিসেবে রেকর্ড করেন কেন তানাকা। মান ইতিহাসের তালিকায় সবচেয়ে বয়স্ক হিসেবে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন তিনি। প্রথম অবস্থানে আছেন জিন কালমেন্ট। যিনি ১২২ বছর পৃথিবীতে কাটিয়েছেন।

সিএনএন জানায়, কেন তানাকা তার জীবদ্দশায় বহু ঐতিহাসিক ঘটনার সাক্ষী হয়েছেন। দুইটি বিশ্বযুদ্ধ তিনি নিজ চোখে দেখেছন। সাক্ষী ছিলেন ১৯১৮ সালের ভয়াবহ স্প্যানিশ ফ্লুয়ের। এমনকি নিজে দুইবার ক্যান্সারকী হারিয়েছন। মোকাবিলা করেছেন করোনাভাইরাসের মহামারি।


আরও খবর



নাটোরে ঘুমের ওষুধ খেয়ে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের আত্মহত্যা

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৪০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নাটোর শহরের বড় হরিশপুর চেয়ারম্যান রোডের আর আর ছাত্রাবাস থেকে সাজ্জাদুল ইসলাম (২০ ) নামে এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। রবিবার সন্ধ্যায় তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

মৃত সাজ্জাদুল ইসলাম রাজশাহী সাইন্স অ্যান্ড টেকনোলজি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এবং পাবনার ফরিদপুর উপজেলার আড়কান্দি গ্রামের সাইফুল ইসলামের ছেলে।

নাটোর সদর থানার এসআই আবদুল মজিদ জানান, রবিবার সন্ধ্যায় বড় হরিশপুর চেয়ারম্যান রোডের আর আর ছাত্রাবাসের একটি রুম থেকে সাজ্জাদুল ইসলামের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় লাশের পাশ থেকে ঘুমের ওষুধ টিপটিন-৫ এমজির ২০০টি ট্যাবলেটের খোসা পাওয়া যায়।

ধারণা করা হচ্ছে ঘুমের ওষুধ খেয়েই তিনি আত্মহত্যা করেছেন। আত্মহত্যার সঠিক কারণ জানা যায়নি। লাশটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

নিউজ ট্যাগ: আত্মহত্যা

আরও খবর



ধামরাইয়ে ঝগড়া থামাতে গিয়ে হাতুড়ির আঘাতে প্রাণ গেল যুবকের

প্রকাশিত:শনিবার ২১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৪৭৫জন দেখেছেন

Image

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি:

ঢাকার ধামরাইয়ে গাংগুটিয়া বাজারে বালু ব্যবসাকে কেন্দ্র করে দু গ্রুপের মারামারি দুই পক্ষের ঝগড়া থামাতে গিয়ে মোঃ ফরহাদ হোসেন (৪৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এই ঘটনায় মোঃ জাকারিয়া নামে একজনকে আটক করে উত্তম মাধ্যম দিয়ে পুলিশে কাছে সোপর্দ করছেন জনতা।

শুক্রবার (২০ মে ) সন্ধায় ঢাকা জেলার ধামরাই উপজেলার গাংগুটিয়া ইউনিয়নের অর্জুনালাই গ্রামের গাংগুটিয়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফরহাদ হোসেন অর্জুনালাই গ্রামের মৃত ধনু বেপাড়ী ছেলে ।

এলাকাবাসি সুত্রে জানা যায়, অর্জুনালাই গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে জাকারিয়া এবং একই গ্রামের আঃ ছালামের ছেলে মতিউর রহমানের সাথে মাটির ব্যাবসা নিয়ে দীর্ঘ দিন ধরে সংঘর্ষ চলে আসছিল। সেই সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে শুক্রবার সন্ধ্যায় জাকারিয়া মতিউর রহমানকে মারার জন্য তার বাহিনী নিয়ে গাংগুটিয়া বাজারে যায়। সেখানে মতিউর রহমান মতিকে মারার জন্য দেশিয় অস্ত্র হাতুরি দিয়ে আঘাত করেন। মতিকে মারধর করা অবস্থায় একই গ্রামের ফরহাদ হোসেন সেই মার থামাতে যায়। তখন জাকারিয়া ফরহাদ হোসেনের মাথা বরাবর হাতুরি দিয়ে আঘাত করলে সাথে সাথে ফরহাদ মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এর পরপর জাকারিয়া তার হাতের দেশীয় অস্ত্র নিয়ে ফরহাদকে বুকের মাঝে আরেকটি আঘাত করে। তখন ফরহাদ শুধু ঘোনরাইতে থাকে। এই সময় বাজারের লোকজন দৌড়িয়ে এসে জাকারিয়াকে আটক করে এবং ফরহাদকে উদ্ধার করে ধামরাই সরকারী হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এই বিষয়ে মিজানুর রহমান বাবু বলেন, আমরা শুক্রবার সন্ধ্যায় গাংগুটিয়া বাজারে বসে আলাপ করছিলাম। এই সময জাকারিয়া তার বাহিনী নিয়ে মতিউর রহমানকে মারতে গেলে আমি ও ফরহাদ থামাতে যায়। সেখানে জাকারিয়ার হাতে থাকা হাতুরি দিয়ে ফরহাদের মাথা আঘাত করলে ফরহাদ মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এরপর ফরহাদকে উদ্ধার করে ধামরাই সরকারী হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে।

এই বিষয়ে ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ আরাফাত হোসেন বলেন, গাংগুটিয়া ইউনিয়নে মাটির ব্যবসাকে কেন্দ্র জাকারিয়ার আঘাতে ফরহাদ হোসেন নিহত হয়। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে জাকারিয়াকে আটক করে থানায় আসি। লাশের ছোরতহাল করে ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে। এই ব্যাপারে একটি হত্যা মামলার প্রস্ততি চলমান।

নিউজ ট্যাগ: নিহত ধামরাই

আরও খবর



সিরাজগঞ্জে বাড়ছে যমুনার পানি, ভয়াবহ বন্যার আশঙ্কা

প্রকাশিত:শনিবার ২১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ১৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সিরাজগঞ্জে বেড়েই চলেছে যমুনা নদীর পানি। এতে ভয়াবহ বন্যার আশঙ্কা করছেন শহরবাসী। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে আজ শনিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ১২ ঘণ্টায় যমুনা নদীর পানি সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা বাঁধ এলাকায় ২৪ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়েছে। পানি বৃদ্ধির কারণে প্রতিদিন নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হচ্ছে। এতে বন্যার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের পানি পরিমাপক হাসানুর রহমান বলেছেন, সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা বাঁধ এলাকায় পানির বিপৎসীমা ধরা হয় ১৩ দশমিক ৩৫ সেন্টিমিটার। আজ শনিবার সকাল ৬টায় পানি রেকর্ড করা হয় ১২ দশমিক ১৬ সেন্টিমিটার। গত ১২ ঘণ্টায় ২৪ সেন্টিমিটার পানি বেড়ে বিপৎসীমার ১ দশমিক ১৯ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

যমুনা নদীর সিরাজগঞ্জ শহর রক্ষা বাঁধ এলাকায় গত বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টায় পানি রেকর্ড করা হয়েছে ১১ দশমিক ৩৪ সেন্টিমিটার, গতকাল শুক্রবার বিকেল ৩টায় পানি রেকর্ড করা হয়েছে ১১ দশমিক ৮৮ সেন্টিমিটার, আজ শনিবার সকাল ৬টায় পানি রেকর্ড করা হয়েছে ১২ দশমিক ১৬ সেন্টিমিটার, যা বিপৎসীমার ১ দশমিক ১৯ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

এদিকে, পানি বৃদ্ধির কারণে প্রতিদিন সিরাজগঞ্জের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হচ্ছে। তীব্র স্রোতের কারণে নদী-তীরবর্তী অঞ্চল কাজীপুর, সদর, বেলকুচি, শাহজাদপুর ও চৌহালীতে নদীভাঙন দেখা দিয়েছে। ভাঙনে ঘরবাড়ি, ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে জেলার কাজীপুর ও এনায়েতপুরে ভাঙনের তীব্রতা বেশি। এতে করে বন্যার আশঙ্কা করছে শহরবাসী। ভাঙন রোধে পানি উন্নয়ন বোর্ডের পক্ষ থেকে বালুর বস্তা ফেলা হচ্ছে।

সিরাজগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলাম বলেন, যমুনা নদীতে পানি বাড়ার কারণে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হচ্ছে।  কিছু স্থানে নদী ভাঙন রয়েছে। তবে ভাঙন রোধে বালুর বস্তা ফেলা হচ্ছে।


আরও খবর



আন্তর্জাতিক বাজারে ব্যাপক কমেছে কফির দাম

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | ৩৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আন্তর্জাতিক বাজারে ব্যাপকভাবে কমেছে কফির দাম। এর মধ্যে রোবাস্তা কফি পাঁচ সপ্তাহের সর্বনিম্নে নেমেছে। শক্তিশালী ডলার ও দুর্বল ব্রাজিলিয়ান রিয়াল দরপতনে প্রধান ভূমিকা পালন করেছে।

তথ্য বলছে, ডলারের মূল্যসূচক দুই বছরের সর্বোচ্চে উঠেছে। অন্যদিকে ডলারের বিপরীতে ব্রাজিলিয়ান রিয়ালের দাম এক মাসের সর্বনিম্নে নেমেছে। মুদ্রার দাম কমে যাওয়ায় ব্রাজিলের উৎপাদকরা রফতানিতে মনোযোগ বাড়িয়েছেন। ইউক্রেনে চলমান যুদ্ধ কফির বৈশ্বিক চাহিদার জন্য বড় হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ যুদ্ধের প্রভাবে মূল্যস্ফীতির ভার ক্রমেই বাড়ছে। ভোক্তারা তাদের ব্যয় কমিয়ে আনছেন। ফলে কমছে পানীয় পণ্যটির ব্যবহার।

গ্রিন কফি অ্যাসোসিয়েশন জানায়, গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রে গ্রিন কফির মজুদ আগের মাসের তুলনায় ১ শতাংশ বেড়েছে। এক বছরের ব্যবধানে মজুদ বেড়েছে ২ দশমিক ৫ শতাংশ। মজুদের পরিমাণ ছিল ৫৮ লাখ ২০ হাজার ব্যাগ (প্রতি ব্যাগে ৬০ কেজি)। এমন ঊর্ধ্বমুখী মজুদ দাম কমাতে সহায়তা করছে। শুধু তাই নয়, সরবরাহ বৃদ্ধিও এতে ভূমিকা রাখছে। ভিয়েতনামের জেনারেল স্ট্যাটিস্টিকস অফিস জানায়, বছরের প্রথম প্রান্তিকে দেশটির কফি রফতানি ১৯ দশমিক ৪ শতাংশ বেড়েছে। রফতানির পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৫ লাখ ৪১ হাজার টনে।

নিউজ ট্যাগ: কফি

আরও খবর