আজঃ শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

জনপদের সংবাদ | পাবনাতে চলছে স্বাস্থ্য সহকারী এসোসিয়েশন ও স্বাস্থ্য পরিদর্শক সমিতির কর্মবিরতি

প্রকাশিত:সোমবার ৩০ নভেম্বর ২০২০ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | ১৯৬৫জন দেখেছেন



আরও খবর



বিয়ে করতে যাচ্ছেন সুশান্তের সাবেক প্রেমিকা অঙ্কিতা লোখান্ডে

প্রকাশিত:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রয়াত বলিউড তারকা সুশান্ত সিং রাজপুতের সাবেক প্রেমিকা অঙ্কিতা লোখান্ডে। দুজনে পবিত্র রিশতা ধারাবাহিকে অভিনয় করে পরিচিতি পেয়েছিলেন। এ নাটকে কাজ করতে করতেই তারা প্রেমে পড়ে যান।

তারপর ভেঙেও যায় সে সম্পর্ক। সুশান্ত নতুন করে প্রেমে পড়েন বাঙালি অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীর। তবে সুশান্তেরর মৃত্যুর পর বিপুল আলোচনায় উঠে আসে অঙ্কিতা লোখান্ডের নাম। অঙ্কিতাও সুশান্তকে নিয়ে অনেক স্মৃতিচারণ করেন।

সুশান্তের সেই প্রেমিকা বিয়ে করতে যাচ্ছেন। পাত্র ভিকি জৈনকে। দুজনে প্রেম করছেন। সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে মুখ ফসকেই এ বিয়ের কথা ফাঁস করে দিয়েছেন অঙ্কিতার সহ-অভিনেতা শাহির শেখ।

ওটিটিতে শুরু হতে যাচ্ছে পবিত্র রিশতা টু। সাত বছর পর আবার পর্দায় ফিরছে সেই জনপ্রিয় ধারাবাহিক। যেখানে অভিনয়ের পরেই খ্যাতির মুখ দেখেছিলেন সুশান্ত এবং অঙ্কিতা। এ নাটকে সুশান্তর পরিবর্তে এবার মানব চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেতা শাহির।

এ নিয়েই এক সাক্ষাৎকারে এই অভিনেতা বলেন, নাটকটি শেষ হয়ে অঙ্কিতা তার প্রেমিক ভিকিকে বিয়ে করবেন।

তবে অঙ্কিতা বিয়ের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। শাহিরকে থামিয়ে দিয়ে তিনি বলেন, সেরকম কোনো পরিকল্পনা নেই। এ মুহূর্তে নতুন কিছু করার ইচ্ছা নেই। আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে একটি পরিকল্পনা আছে।

তিন বছর হলো প্রেম করছেন অঙ্কিতা। গত মে মাসে আরেক সাক্ষাৎকারে ভিকি প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে তিনি জানিয়েছিলেন, বিয়ের চিন্তাভাবনা করছেন তিনি।

 


আরও খবর
আক্রমণাত্মক মন্তব্যের শিকার নুসরাত

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

হাইকোর্টে জামিন পেলেন মডেল মৌ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




সীমানা নির্ধারণ ছাড়াই করা যাবে সংসদীয় নির্বাচন

প্রকাশিত:শনিবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতীয় সংসদের নির্বাচনী এলাকার সীমানা নির্ধারণ বিল-২০২১ নামে নতুন আইন পাশ হয়েছে।

শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) আইনমন্ত্রী আইনটি পাসের প্রস্তাব করলে সংসদে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়।এর আগে বেলা ১১টায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক শুরু হয়। রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ স্বাক্ষর করলেই পাস হওয়া বিলটি কার্যকর হবে।

এর ফলে সীমানা নির্ধারণ ছাড়াই করা যাবে সংসদীয় নির্বাচন। দৈব-দুর্বিপাকে কোনো এলাকার সংসদ নির্বাচনের সীমানা নির্ধারণ করা সম্ভব না হলে বিদ্যমান সীমানায় নির্বাচন হওয়ার বিধান রেখে আইনটি পাস হয়েছে।

এর আগে আইনটি পাস না করে কয়েকজন এমপি জনমত যাচাইয়ের প্রস্তাব দেওয়ার জন্য পুনরায় পাঠানোর দাবি জানালে তা কণ্ঠভোটে বাতিল হয়ে যায়।এ আইন কার্যকর হলে ১৯৭৬ সালের দ্য ডিলিমিটেশন অব কন্সটিটিউয়েন্সিস অর্ডিনেন্সরহিত হবে।

গত ৩ জুন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বিলটি সংসদে উত্থাপন করেছিলেন।পরে তা অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়।

আইনে নির্বাচন কমিশনকে বিধি প্রণয়নের ক্ষমতা দেওয়া হয়েছে, যা বিদ্যমান আইনে নেই। এছাড়াও আইনটি আগে ইংরেজিতে ছিল, এখন তা বাংলায় করা হয়েছে।

নতুন বিলে বিদ্যমান আইনের ৮ নম্বর ধারায় একটি উপধারা যুক্ত করা হয়েছে। সেখানে বলা আছে, দৈব-দুর্বিপাকে বা অন্য কোনো কারণে আঞ্চলিক সীমানা নির্ধারণ করা না গেলে বিদ্যমান সীমানার আলোকে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। সংসদের পঞ্চম সংশোধনী বাতিল সংক্রান্ত উচ্চ আদালতের আদেশ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এবং বাংলায় আইন করতেই মূলত বিলটি আনা হয়েছে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদার নেতৃত্বাধীন বর্তমান নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব নিয়ে রোডম্যাপ ঘোষণা করে বিদ্যমান আইনগুলোর সংস্কারের উদ্যোগ নেয়। গত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে জাতীয় সংসদের নির্বাচনী এলাকার সীমানা নির্ধারণ আইনটি সংস্কারের ঘোষণাও দেয়া হয়। কিন্তু সেটা হয়নি। পরে বিদ্যমান আইনেই সীমানা পুনর্বিন্যাস করে ওই নির্বাচন সম্পন্ন করা হয়।

বিদ্যমান আইনের ৮টি ধারার স্থলে নতুন আইনে ৯টি ধারার প্রস্তাব করা হয়েছে। নতুন ধারাটিতে আইনের অধীনে বিধি প্রণয়নের সুযোগ রাখা হয়েছে। বিদ্যমান আইনে বিধি প্রণয়নের সুযোগ নেই। বিদ্যমান আইনের ধারা-১-এ একটি নতুন উপধারার প্রস্তাব করা হয়েছে, যেখানে আইনটি অবিলম্বে কার্যকর হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিলে আঞ্চলিক নির্বাচনী এলাকার সীমানা নির্ধারণের কথা বলা হয়েছে। এক্ষেত্রে সংবিধানের ৬৫(২) অনুচ্ছেদে উল্লিখিত সংখ্যক সংসদ সদস্য নির্বাচিত করতে পুরো দেশকে সে সংখ্যক একক আঞ্চলিক নির্বাচনী এলাকায় বিভক্ত করার কথা বলা হয়েছে।এক্ষেত্রে ভৌগলিক অখণ্ডতা বজায় রাখা এবং আদমশুমারির ভিত্তিতে যতদূর সম্ভব বাস্তবভিত্তিক বণ্টনের কথা বলা হয়েছে।

বিলের ৭ ধারায় বলা হয়েছে, ইসির সীমানা নির্ধারণের বিষয় নিয়ে দেশের কোনো আদালত বা অন্য কোনো কর্তৃপক্ষের কাছে প্রশ্ন তোলা যাবে না।

নিউজ ট্যাগ: সংসদীয় নির্বাচন

আরও খবর



নোয়াখালীতে ট্রাক-সিএনজি সংঘর্ষে নিহত ১

প্রকাশিত:শনিবার ২৮ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৮ আগস্ট ২০২১ | ৬৮০জন দেখেছেন
Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীতে ট্রাক-সিএনজি চালিত অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে সিএনজি চালকের মৃত্যু হয়েছে। নিহত আব্দুর রহমান (৪০) সদর উপজেরার চন্দ্রপুর গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে।

শনিবার (২৮ আগস্ট) সকাল সাড়ে ৮টার দিকে চৌমুহনী-মাইজদী সড়কের মাইজদী বাজারের ওয়ালটন শোরুমের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে মাইজদী বাজার থেকে মালবাহী সোনাপুর গামী একটি কাভার্ডভ্যান মাইজদী বাজারের ওয়ালটন শোরুমের সামনে পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে আসা সিএনজির সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই সিএনজি চালকের মৃত্যু হয়। পরে স্থানীয়রা গুরুত্বর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

নোয়াখালী পুলিশ সুপার (এসপি) শহীদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেন। তিনি আরো জানান, দুর্ঘটনার শিকার ট্রাক ও সিএনজি ঘটনাস্থল থেকে জব্দ করা হয়েছে। তবে এ সময় ট্রাক চালক পালিয়ে যায়। পরবর্তীতে এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


আরও খবর
মায়ের ওপর অভিমান করে গলায় ফাঁস

রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১




২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত আরও ২৬৬ জন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩১ আগস্ট ২০২১ | ৬১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে আরও ২৬৬ জন ভর্তি হয়েছেন। মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোলরুম থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ২৬৬ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে রাজধানী ঢাকায় ২২০ জন ও ঢাকার বাইরে ৪৬ জন ভর্তি হয়েছেন। এর আগে সোমবার (৩০ আগস্ট) ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল ২৩৩ জন।

পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, গত ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত হাসপাতালে মোট রোগী ভর্তি হয়েছে ১০ হাজার ৩৫৬ জন ডেঙ্গু রোগী। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৯ হাজার ১১০ জন। আর ডেঙ্গুতে ৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

ডেঙ্গু বাসায় থাকা এডিস মশার কামড়ে হয়। নগরীর চার পাশের ময়লা-আবর্জনার স্তূপ থাকা, নোংরা ড্রেন পরিষ্কার না করায় চলতি বর্ষা মৌসুমে মশার প্রজনন বেড়ে গেছে। অথচ নগরীকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখলে এবং মশার প্রজননক্ষেত্র ধ্বংস করলেই মশাবাহিত রোগ ডেঙ্গু নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব।


আরও খবর
করোনায় আরও ৩১ জনের মৃত্যু

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১




‘সিনহাকে পাহাড়েই হত্যার পরিকল্পনা ছিল’

প্রকাশিত:বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ২৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চাঞ্চল্যকর ও আলোচিত সেনাবাহিনীর (অব.) মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলার আনুষ্ঠানিক বিচারকার্যের তৃতীয় দফায় আরও দুইজন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ ও আসামিপক্ষের জেরা সম্পন্ন হয়েছে। কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইলের আদালতে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত চলে আদালতের কার্যক্রম। মঙ্গলবার আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন সিনহা হত্যা মামলার অন্যতম সাক্ষী মসজিদের ইমাম হাফেজ জহিরুল ইসলাম ও ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক ডা. রনধীর দেবনাথ।

এ সময় মামলার  অন্যতম ও গুরুত্বপূর্ণ সাক্ষী হাফেজ জহিরুল ইসলাম আদালতকে বলেন, মেজর সিনহাকে টেকনাফ শামলাপুর উত্তর মারিশবুনিয়া এলাকার ট্যুইন্না পাহাড়ে ডাকাত হিসেবে সাব্যস্ত করে মেরে ফেলার পরিকল্পনা করেছিলেন আসামিরা।

সিনহা হত্যা মামলার আসামি পুলিশের সোর্স নুরুল আমিন মোহাম্মদ আয়াজ ও নিজাম উদ্দিন মারিশবুনিয়া উম্মুল কোরান মসজিদের মাইকে ট্যুইন্না পাহাড়ে ডাকাত এসেছে বলে বারবার ঘোষণা দিলে মসজিদের ইমাম হাফেজ জহিরুল ইসলাম ওই সময় তাদের বাধা দেন এবং জানান যে তারা ডাকাত নয়, তারা সেনাবাহিনীর লোক। কিন্তু আসামিরা তা শুনেনি।পাহাড়ে হত্যা করতে না পারলেও পরবর্তী বাহারছড়া শামলাপুর চেকপোস্টে  সিনহাকে গুলি করে হত্যা করা হয়। এ ছাড়াও মেজর (অব.) সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানের লাশের  ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক ডা. রনধীর দেবনাথ আদালতে জবানবন্দি ও সাক্ষী দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম বলেন,আদালতে ডা. রনধীর দেবনাথ মেজর অব. সিনহাকে হত্যার পর কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে এলে লাশের ময়নাতদন্ত করেন। ময়নাতদন্তের রিপোর্টে সিনহাকে হত্যার বিষয়ে আদালতে হুবহু বর্ণনা দিয়েছেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তৃতীয় দফায় ১০ নম্বর সাক্ষী হাফেজ জহিরুল ইসলামের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। এরপর ডা. রনধীর দেবনাথ সাক্ষ্যপ্রদান করেন। এছাড়া মামলার উপস্থিত অন্য সাক্ষী কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. শাহীন আবদুর রহমান ও সেনাসদস্য সার্জেন্ট আয়ুব আলীর সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আদালতে উপস্থাপন করা হয়।

এদিকে আসামি ওসি প্রদীপের আইনজীবী অ্যাডভোকেট রানা দাশ গুপ্ত সিনহা হত্যা মামলার অভিযোগপত্রে হত্যার বর্ণনা ও ময়নাতদন্তের রিপোর্টে মারাত্মক গড়মিল রয়েছে বলে দাবি করেছেন। এর আগে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কঠোর নিরাপত্তা বলায়ে কারাগার থেকে বরখাস্ত ওসি প্রদীপ-লিয়াকতসহ ১৫ জন আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়।


আরও খবর