আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

জুমার দিনের আমল ও দোয়া কবুলের সময়

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৭ ডিসেম্বর ২০২১ | ৭৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইসলামের দৃষ্টিতে পবিত্র জুমা ও জুমাবারের রাত-দিন অপরিসীম গুরুত্বপূর্ণ। জুমার দিনকে সাপ্তাহিক ঈদের দিন বলা হয়েছে। জুমার গুরুত্ব আল্লাহ তায়ালার কাছে এত বেশি যে, কোরআনে জুমা নামে একটি স্বতন্ত্র সূরা নাজিল করা হয়েছে।

আল্লাহ তাআলা কোরআনে ইরশাদ করেন, হে মুমিনগণ! জুমার দিন যখন নামাজের আহ্বান জানানো হয়, তখন তোমরা আল্লাহর স্মরণে (মসজিদে) এগিয়ে যাও এবং বেচা-কেনা (দুনিয়াবি যাবতীয় কাজকর্ম ছেড়ে দাও। এটা তোমাদের জন্য কল্যাণকর; যদি তোমরা জানতে। (সূরা জুমা- ০৯)।

এ দিনের বিশেষ কিছু আমলে মহান আল্লাহ বান্দার গুনাহ ক্ষমা করে দেন। তবে আমলগুলোও করতে হয় বিশেষ মুহূর্তে। হাদিসে পাকে প্রিয় নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম সেসব বিশেষ মুহূর্ত ও বিশেষ আমলগুলো বর্ণনা করেছেন। সেই আমলগুলো কী?

মসজিদে আসা ও চুপ থাকা

হজরত আবু যার রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি-

> জুমার দিন উত্তমরূপে গোসল করে;

> উত্তমরূপে পবিত্রতা অর্জন (অজু) করে;

> তার উত্তম পোশাক পরে এবং

> আল্লাহ তার পরিবারের জন্য যে সুগন্ধির ব্যবস্থা করেছেন, তা শরীরে লাগায়;

> এরপর জুমার নামাজে এসে অনর্থক আচরণ না করে এবং

> দুই জনের মাঝে ফাঁক করে অগ্রসর হয় না।

তার (ওই ব্যক্তির) এক জুমা থেকে পরবর্তী জুমার মধ্যবর্তী সময়ের (সগিরা) গুনাহসমূহ ক্ষমা করা হয়। (মুসনাদে আহমাদ)

অনর্থক কথাবার্তা

এ হাদিসে অনর্থক কথাবার্তা বলতে মসজিদে এসে যে কোনো ধরনের কথা না বলাকে বোঝানো হয়েছে। বিশেষ করে খুতবাহ চলাকালীন সময়ে কথা না বলে মনোযোগের সঙ্গে খুতবাহ শোনার কথা বলা হয়েছে। এমনকি কেউ যদি ওই সময় কথা বলে তাকে চুপ থাক এমন কথা বলাও নিষেধ।

দুই জনের মাঝে ফাঁক করে অগ্রসর হওয়া

আবার দুইজনের মাঝে ফাঁক করে অগ্রসর হওয়ার মর্মার্থ হলো, মসজিদে শেষ এসে কাতারে বসা লোকদের ফাঁক করে সামনে যাওয়াকে নিষেধ করা হয়েছে। অর্থাৎ মসজিদে এসে যেখানে জায়গা পাবে সেখানেই বসে পড়া উদ্দেশ্য।

জুমার দিন দোয়া কবুলের সময়

জুমার দিন একটি সময় আছে, যখন মানুষ আল্লাহর কাছে কোনো দোয়া করলে আল্লাহ তা কবুল করেন। জাবের (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.) বলেন, জুমার দিন কোনো মুসলিম আল্লাহর কাছে ভালো কিছুর দোয়া করলে আল্লাহ তাকে তা দেন। তোমরা সময়টি আছরের পর অনুসন্ধান কোরো। (আবু দাউদ, হাদিস নম্বর : ১০৪৮)

জাবের ইবনে আবদুল্লাহ (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুল (সা.) বলেছেন, জুমার দিনের বারো ঘণ্টার মধ্যে এমন একটি মুহূর্ত রয়েছে যদি কোনো মুসলিম এ সময় আল্লাহর কাছে কিছু প্রার্থনা করে, তাহলে মহান ও সর্বশক্তিমান আল্লাহ তাকে দান করেন। এই মুহূর্তটি তোমরা আছরের শেষ সময়ে অনুসন্ধান কোরো। (আবু দাউদ, হাদিস : ১০৪৮)

আবু দারদা ইবনে আবু মুসা আশআরি (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি আমার পিতাকে বলতে শুনেছি, তিনি বলেন, আমি রাসুল (সা.)-কে বলতে শুনেছি, তিনি জুমার দিনের বিশেষ মুহূর্তটি সম্পর্কে বলেছেন, ইমামের মিম্বরে বসার সময় থেকে নামাজ শেষ করা পর্যন্ত সময়টিই সেই বিশেষ মুহূর্ত। (আবু দাউদ, হাদিস : ১০৪৯)

নিউজ ট্যাগ: জুমার দিন

আরও খবর



চট্টগ্রামে আরও ১৬ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | ৪৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ১৬ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এসময়ে ১ হাজার ৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় সংক্রমণের হার ১ দশমিক ৫৮ শতাংশ। এদিনও করোনা আক্রান্ত হয়ে কারও মৃত্যু হয়নি।

আজ রবিবার সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, চট্টগ্রামে ১১টি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষা করা হয়।   নতুন আক্রান্ত ১৪ জন মহানগর এলাকার ও ২ জন লোহাগাড়া ও পটিয়া উপজেলার বাসিন্দা।

এখন পর্যন্ত চট্টগ্রামে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ২ হাজার ৬৫৮ জন। এর মধ্যে মহানগর এলাকায় ৭৪ হাজার ২৮৫ জন এবং উপজেলায় ২৮ হাজার ৩৭৩ জন। এছাড়া মোট মৃত্যুবরণ করা ১ হাজার ৩৩২ জনের মধ্যে ৭২৩ জন মহানগর এবং ৬০৯ জন বিভিন্ন উপজেলার বাসিন্দা।


আরও খবর



নারায়ণগঞ্জে নৌকার বিপক্ষে গেলে শামীম ওসমানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২২ | ৬১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কেউ দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে গেলে তার বিরুদ্ধে অবশ্যই সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুর রহমান।

তিনি বলেছেন, কোনো ব্যক্তি এই নির্বাচনে কোনো অবস্থাতেই অপরিহার্য নয়। যার কথা বলা হচ্ছে (শামীম ওসমান) তিনি একটা দলের আদর্শ, নীতি, শৃঙ্খলা, নেতৃত্বের প্রতি আনুগত্য ইত্যাদি লালন করেই এতো বড় নেতা হয়েছেন। উনি যদি আজ সেগুলো প্রতিপালন না করেন এবং দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে অবস্থান নেন, আমাদের কাছে যেসব খবর আসছে সেগুলোর তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহ করছি, উনি আমাদের প্রার্থীর বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছেন নিশ্চিত হলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া ছাড়া আমাদের কাছে বিকল্প থাকবে না।

শনিবার (৮ জানুয়ারি) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের নিচে সিনামন রেস্টুরেন্টে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর পক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচন নিয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নির্বাচন সমন্বয় কমিটি সাংবাদিকদের সঙ্গে এ মতবিনিময় সভার আয়োজন করে।

এদিকে মত বিনিময় সভা হলেও সেখানে সাংবাদিকদের অনেক প্রশ্নের উত্তরই এড়িয়ে গেছেন কেন্দ্রীয় নেতারা। দলীয় প্রার্থী আইভী নৌকা প্রতীকের হয়েও কেন সিদ্ধিরগঞ্জের বিএনপি নেতা কাউন্সিলর প্রার্থী ইকবাল, বিএনপির সাবেক এমপি গিয়াস উদ্দিনের ছেলে কাউন্সিলর প্রার্থী সাদরিল ও শহরে গণসংহতি আন্দোলনের প্রার্থী পপি রানীকে নিয়ে নৌকার প্রচারণা চালাচ্ছেন- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের কোনো জবাব দেননি কেন্দ্রীয় নেতারা।

মতবিনিময়কালে আব্দুর রহমান বলেন, একটা অংশগ্রহণমূলক, সুষ্ঠু ও অবাধ নির্বাচন নারায়ণগঞ্জে হয় কি না এটাই প্রধানমন্ত্রীর মূল দৃষ্টিভঙ্গি। সুতরাং নারায়ণগঞ্জে একটা অবাধ, সুষ্ঠু, অংশগ্রহণমূলক এবং সবাই যেন ভোট দিতে পারেন সেই ব্যবস্থা অবশ্যই নির্বাচন কমিশন করবে।

এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাসিম, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, এস এম কামাল, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক খোকন সাহা, জেলা সভাপতি আব্দুল হাই প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজ ট্যাগ: নারায়ণগঞ্জ

আরও খবর



জাতিসংঘের নারী নির্বাহী বোর্ডের সভাপতি হলেন রাবাব ফাতিমা

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা ২০২২ সালের জন্য সর্বসম্মতিক্রমে জাতিসংঘের নারী নির্বাহী বোর্ডের সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় মঙ্গলবার জাতিসংঘ সদর দপ্তরে সংস্থাটির ৫ সদস্য বিশিষ্ট ব্যুরোর এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত আর্জেন্টিনা, ইউক্রেন, আইসল্যান্ড এবং সিয়েরালিওনের স্থায়ী প্রতিনিধিগণ।

এই নির্বাচনের মাধ্যমে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো জাতিসংঘের নারী নির্বাহী বোর্ডের সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণ করলো। নির্বাহী বোর্ড ইউএন উইমেনকে কৌশলগত দিক-নির্দেশনা প্রদান করে থাকে। জাতিসংঘের এই সংস্থাটি লিঙ্গসমতা ও নারীর ক্ষমতায়নের জন্য নিবেদিত। বোর্ডের সভাপতি হিসেবে বাংলাদেশ ইউএন উইমেনের কাজকে আরও বেগবান করতে অবদান রাখার সুযোগ পাবে।

উদ্বোধনী বক্তৃতায় রাষ্ট্রদূত ফাতিমা তাকে নির্বাচিত করার জন্য বোর্ড-সদস্যদের ধন্যবাদ জানান। সারা বিশ্বে, বিশেষ করে কোভিড-১৯ অতিমারির এই সময়ে নারী ও মেয়েরা যে সকল চ্যালেঞ্জের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে তা মোকাবিলায় ইউএন উইমেন এর বোর্ড সদস্যগণ বাংলাদেশের নেতৃত্বের প্রতি যে আস্থা রেখেছেন সে জন্যও তাদের ধন্যবাদ জানান বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি।

প্রদত্ত বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত ফাতিমা বলেন, এক মুহূর্ত বিলম্ব করার মতো সময় আমাদের হাতে নেই। আমাদের অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যে কোভিড এর পুনরুদ্ধারের পরিকল্পনায়ই লিঙ্গ-সমতা নিশ্চিত করা হয়েছে এবং সকল অংশীজন অর্থাৎ সরকার, বেসরকারি খাত ও এনজিওগুলো তা বাস্তবায়নে একসাথে কাজ করছে। এছাড়া ইউএন উইমেনকে আমাদের প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা প্রদান ও সম্পদ সরবরাহ করতে হবে যাতে প্রতিষ্ঠানটি চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার সকল প্রচেষ্টায় অগ্রভাগে থাকতে পারে।

রাষ্ট্রদূত ফাতিমা আশ্বস্ত করেন, নতুন নির্বাহী বোর্ড চ্যালেঞ্জিং এই সময়ে ইউএন উইমেন এর কাজকে আরও এগিয়ে নিতে কঠোর পরিশ্রম করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। লিঙ্গসমতা ও নারীর ক্ষমতায়নে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখা এবং নারী ও মেয়েদের জন্য নিবেদিত বিশ্বের শীর্ষ স্থানীয় ও চ্যাম্পিয়ন প্রতিষ্ঠান হিসেবে আবির্ভূত হওয়ার জন্য ইউএন উইমেনের প্রশংসা করেন এবং এর কাজের স্বীকৃতি প্রদান করেন বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি। তিনি বিশ্বব্যাপী কর্মরত ইউএন উইমেনের সকল কর্মীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান, যারা মহামারীরি এই চ্যালেঞ্জের মধ্যেও নিষ্ঠা, একাগ্রতা ও সাহসের সাথে তাদের উপর অর্পিত গুরুত্বপূর্ণ  দায়িত্ব পালন করে চলেছেন।

ইউএন উইমেন এর নির্বাহী পরিচালক রাষ্ট্রদূত সিমা বাহাউস নব-নির্বাচিত সভাপতিকে স্বাগত জানান। তিনি বলেন, ইউএন উইমেন নতুন সভাপতির অভিজ্ঞতা ও প্রজ্ঞা থেকে উপকৃত হওয়ার জন্য উন্মুখ হয়ে আছে। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন যে রাষ্ট্রদূত ফাতিমা ব্যুরোর দিক নির্দেশনা প্রদানের মাধ্যমে ইউএন উইমেনের কাজে নেতৃত্ব প্রদান করবেন।

এর আগে রাষ্ট্রদূত ফাতিমা ২০২০ সালে ইউনিসেফ নির্বাহী বোর্ডের সভাপতি এবং ২০২১ সালে ইউএনডিপি, ইউএনএফপি ও এইউএনওপিএস এর এক্সিকিউটিভ বোর্ডের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।


আরও খবর



বাস-পিকআপ ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে চালক নিহত

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২ | ১৪০জন দেখেছেন

Image

জয়পুরহাট প্রতিনিধি:

জয়পুরহাটে বাস-পিকআপভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে মাসুদ রানা(৩৬) নামে এক পিকআপ ভ্যানচালকের মৃত্যু হয়েছে।

এঘটনায় পিক আপ ভ্যানে থাকা এক মাছ ব্যবসায়ী আহত হয়েছেন।

শনিবার সকালে ক্ষেতলাল উপজেলার জয়পুরহাট-বগুড়া সড়কের শালবন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ক্ষেতলাল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নীরেন্দ্রনাথ মন্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

নিহত পিকআপ চালক মাসুদ রানা চাপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার বালুবাগান গ্রামের মৃত নাজিমউদ্দিনের ছেলে। আহত মাছ ব্যবসায়ী মনোরঞ্জন গোমস্তাপুর উপজেলার দৌলভপুর গ্রামের বিশ্বনাথ হাওলাদারের ছেলে।

নিহত পিকআপভ্যান চালক মাছ ব্যবসায়ীকে নিয়ে বগুড়ার মোকামতলাতে মাছ বিক্রি করে চাপাইনবাবগঞ্জে ফিরছিলেন। পথে ক্ষেতলাল উপজেলার শালবন এলাকায় ঢাকাগামী হানিফ পরিবহনের সঙ্গে পিক আপ ভ্যানের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই পিকআপ ভ্যান চালকের  মৃত্যু হয়। স্থানীয়রা আহত মনোরঞ্জনকে উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে ভর্তি করেন।


আরও খবর



পুতিনের সামনে দুটি পথ খোলা আছে: বাইডেন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | ৩০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইউক্রেনে হামলা ইস্যুতে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

তিনি বলেন, পুতিনের সামনে দুটি পথ খোলা আছে- হয় পালাতে হবে, নয়তো কূটনৈতিক সমঝোতায় আসতে হবে। স্থানীয় সময় বুধবার হোয়াইট হাউসের ইস্ট রুমে এক সংবাদ সম্মেলনে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন বাইডেন। তিনি বলেন, আমার ধারণা পুতিন (ইউক্রেনে) হামলা চালাবেন। তিনি সেখানে কিছু একটা করতে যাচ্ছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বলেন, আমি কি বলবো তিনি আমাদের পরীক্ষা করছেন? আমার মনে হয় হয়তো তাই। তবে এর জন্য তাকে চরম মূল্য দিতে হবে।

বাইডেনের এই হুঁশিয়ারির পর হোয়াইট হাউসের প্রেস সেক্রেটারি জেন সাকি বলেন, যদি ইউক্রেন সীমান্তে নতুন হামলার জন্য রাশিয়ার সেনাবাহিনী অগ্রসর হয়, তাহলে খুব দ্রুত এর জবাব দেওয়া হবে।

এদিকে ইউক্রেন সীমান্তে এক লাখের বেশি সেনা এবং যুদ্ধসরঞ্জাম মোতায়েন করে চাপ অব্যাহত রেখেছে মস্কো। তারা বলেছে, পশ্চিমা বিশ্ব কিয়েভের জন্য হুমকি হয়ে উঠছে।

অব্যাহত উত্তেজনার মধ্যেই শুক্রবার জেনেভায় যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন ও রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরভের মধ্যে বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।


আরও খবর
হাসপাতালে ভর্তি মাহাথির মোহাম্মদ

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২