আজঃ মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

কারাগার থেকে বেরিয়ে মাকে কুপিয়ে হত্যা

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ৩৮১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে দা দিয়ে কুপিয়ে মাকে খুন করার ঘটনা ঘটেছে। গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৪টার দিকে পশ্চিম বড়ালী দেওয়ান বাড়িতে মা মনোয়ারা বেগমকে (৬৫) তার ছেলে মমিন দেওয়ান (৪২) দা দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যান। পরে মিরপুর এলাকার বাসিন্দারা তাকে আটক করে পুলিশের কাছে তুলে দেয়।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, মা ও ছেলে একই ঘরে বসবাস করতেন। ঘটনার রাতে হঠাৎ মাকে দা দিয়ে কুপিয়ে খুন করে পালিয়ে যান মমিন।

নিহতের ভাই রুহুল আমিন ও একই বাড়ির আ. রহিম জানান, মমিন দীর্ঘ দিন জেলে ছিলেন। সম্প্রতি দুমাস আগে জেল থেকে জামিনে আসেন। তিনি ইতিপূর্বে রুপবান নামে এক নারীকে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করার দায়ে বেশ কয়েক বছর জেলে ছিলেন। গতকাল রাতে মাকে কুপিয়ে রাতেই তিনি পালিয়ে যান।

অভিযুক্ত মমিন বলেন, আমার মাকে দা দিয়ে ১০-১২টি কোপ দিয়ে হত্যা করি। এ ছাড়া আমাকে মিথ্যা মামলায় জড়ানোর কারণে ১৮ বছর আগে এক মহিলাকে তিন দিনের আল্টিমেটাম দিয়ে ছোরা তৈরি করে জবাই করে হত্যা করি।

এদিকে নিহত মনোয়ারা বেগমের মৃত্যুর ঘটনায় মমিনের মামা রুহুল আমিন বাদী হয়ে ফরিদগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এ বিষয়ে ফরিদগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদ হোসেন জানান, সংবাদ পেয়ে লাশ সুরতহাল করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। পুলিশের সর্তক দৃষ্টির ফলে স্থানীয় মিরপুর এলাকা থেকে অভিযুক্ত মমিনকে আটক করা সম্ভব হয়েছে। তবে মমিনের বিষয়ে এলাকাবাসী মানসিক সমস্যা রয়েছে বলে জানিয়েছে। তা ছাড়া মমিনের কথায়ও অসংলগ্নতা বোঝা যাচ্ছে বলেও জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।


আরও খবর



চলতি মাসে ৪৪তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি

প্রকাশিত:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | ৪২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

৪৪তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি চলতি মাসে আসতে পারে। আগামী দু-একদিনের মধ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে শূন্যপদে চাহিদা বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনে (বিপিএসসি) পাঠানোর কথা রয়েছে। রোববার (২১ নভেম্বর) বিপিএসসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, নতুন এ বিসিএস পরীক্ষায় বয়সের কোনো শিথিলতা থাকছে না। স্বাভাবিক নিয়ম অনুসরণ করে আগ্রহী প্রার্থীদের কাছে বিসিএস পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য আবেদন চাওয়া হবে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিপিএসসির চেয়ারম্যান সোহরাব হোসাইন বলেছেন, আমাদের সব প্রস্তুতি চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। আগামী দুই একদিনের মধ্যে চাহিদা পাওয়ার কথা। চাহিদা পাওয়ার পর পরবর্তী কার্যক্রম শুরু করা হবে। তবে এবার বয়সসীমা শীতলতার বিষয়ে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে কোনো নির্দেশনা এখনও আমরা পাইনি।


আরও খবর



পিকআপ ভ্যানচাপায় গাজীপুরে নিহত ৩

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৫ নভেম্বর ২০২১ | ৫৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার এমসি বাজার এলাকায় পিকআপ ভ্যানচাপায় ৩ জন নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আরও একজন আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) রাত সোয়া ১টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। 

নিহতরা হলেন, ময়মনসিংহের পাগলা থানার দেউলপাড়া এলাকার মৃত শহর আলীর ছেলে তোফাজ্জল হোসেন (৩৫), চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা থানার পাইকপাড়া এলাকার মো. আবুল হোসেনের ছেলে আব্দুল মজিদ জনি (৩২) ও খুলনার পাইকগাছা থানার ফতেহপুর এলাকার আব্দুল হকের ছেলে ইব্রাহীম হাবিব (৩২)। 

মাওনা হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হাদিউল ইসলাম জানান, শ্রীপুর উপজেলার ২ নম্বর সিঅ্যান্ডবি বাজার এলাকায় ভাড়া থেকে হতাহতরা বিভিন্ন বাজারে ভ্রাম্যমাণ দোকান বসিয়ে তসবি, জায়নামাজ, সুগন্ধি, টুপিসহ বিভিন্ন উপকরণ বিক্রি করতেন।

বৃহস্পতিবার রাতে হতাহতরা একটি ওয়াজ মাহফিল থেকে তারা বাসায় ফিরছিলেন। তারা এমসি বাজার এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন। এসময় মুরগিবাহী একটি পিকআপ ভ্যান তাদের চাপা দেয়। এতে আব্দুল মজিদ জনি ও ইব্রাহীম হাবিব ঘটনাস্থলে এবং হাসপাতালে নেওয়ার পথে তোফাজ্জল হোসেন মারা যায়। 

নিউজ ট্যাগ: সড়ক দুর্ঘটনা

আরও খবর
গাজীপুর সিটির মেয়র কিরন

রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১




এবার ১৭ প্রদেশে নতুন গভর্নর নিয়োগ দিল তালেবান

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ নভেম্বর ২০২১ | ৪৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

১৫ আগস্ট কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার কিছুদিন পর আফগানিস্তানের ৩৪টি প্রদেশের সবকটির নিয়ন্ত্রণ নেয় তালেবান। এরপর ঘোষণা করে নতুন সরকার। এবার ১৭ প্রদেশে নতুন গভর্নর নিয়োগ দিল তালেবান।

তালেবানের মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ এ তথ্য জানান। খবরে বলা হয়, ইসলামিক আমিরাত বিভিন্ন প্রদেশে ৪৩ জন নতুন গভর্নর, ডেপুটি গভর্নর এবং পুলিশ প্রধান নিয়োগ দিয়েছে।

নতুন নিয়োগ পাওয়াদের মধ্যে ১৭ জন বিভিন্ন প্রদেশের গভর্নর।  ১৫ জন নিয়োগ পেয়েছেন বিভিন্ন প্রদেশের ডেপুটি গভর্নর হিসেবে। এ ছাড়া বাকি ১০ জন নিয়োগ পেয়েছেন বিভিন্ন প্রদেশের পুলিশ প্রধান হিসেবে।  অপর একজনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে হেরাতের শিন্দন্দ অঞ্চলের পাঁচটি জেলার নিরাপত্তা প্রধান হিসেবে।

ইসলামিক আমিরাতের মুখপাত্র জাবিহুল্লাহ মুজাহিদ বলেন, তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা মোল্লা হেবাতুল্লাহ আখুন্দজাদার ডিক্রির ওপর ভিত্তি করে এ নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

সোমবার এক বিবৃতিতে বলা হয় বাদাখশান, পাকতিয়া, কাবুল, বাঘলান, কুন্দুজ, লোঘার, পাকতিকা, বামইয়ান, উরুজগান, ফারাহ, সারইপুল, জাওজান, ফারইয়াব, ময়দান ওয়ারদাক, জাবুল, নিমরোজ ও গজনিতে নতুন গভর্নর নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

ডেপুটি গভর্নর নিয়োগ দেওয়া হয়েছে কাবুল, বাঘলান, কুন্দুজ, লোঘার, লাঘমান, বালখ, ফারাহ, সারইপুল, জাওজান, ময়দান ওয়ারদাক, জাবুল, সামানগান, গজনি, কুনার ও দায়কুন্দিতে।

এ ছাড়া কাবুল, কুন্দুজ, বাঘলান, লোঘার, বালখ, তাখার, ফারাহ, ফারইয়াব, ঘোর ও কুনার প্রদেশে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে পুলিশ প্রধান এবং একজনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে হেরাতের শিন্দন্দ অঞ্চলের পাঁচটি জেলার নিরাপত্তা প্রধান হিসেবে।

নিউজ ট্যাগ: তালেবান

আরও খবর



পৌর মেয়র আব্বাসকে আ.লীগ থেকে বহিষ্কার

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | ৭১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল নির্মাণ নিয়ে কটূক্তি ও বিতর্কিত বক্তব্য দেয়ায় কাটাখালি পৌরসভার মেয়র এবং পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আব্বাস আলীকে দলীয় পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) বিকেলে দলীয় কার্যালয়ে পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের জরুরি বৈঠকে আব্বাসকে পৌর আওয়ামী লীগের আহ্বায়কের পদ থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

পবা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাজদার রহমান সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা ইয়াসিন আলীর সভাপতিত্বে জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সভায় আব্বাস আলীকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়। একইসঙ্গে কেন দলীয় সদস্য পদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না জানতে চেয়ে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেয়া হয়েছে। আগামী তিন দিনের মধ্যে এ নোটিশের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, কারণ দর্শানো নোটিশের জবাব পাওয়ার পর আব্বাসের ব্যাপারে শক্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে। তাকে দল থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কারের জন্য জেলা কমিটিতে সুপারিশ পাঠানো হবে।

প্রসঙ্গত, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ম্যুরাল নির্মাণকে কেন্দ্র করে কটূক্তি এবং সেটি নির্মাণে প্রতিহতের ঘোষণা দিয়ে বক্তব্য দেন নৌকা প্রতীকে দুই বারের নির্বাচিত মেয়র আব্বাস আলী। এরপর তার ফাঁস হওয়া অডিও ঘুরছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। সোমবার রাত থেকে অডিওটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে।

ইসলামের দৃষ্টিতে পাপ সে জন্য রাজশাহী সিটি গেটে বঙ্গবন্ধুর মুর‌্যাল না বসানোর নির্দেশ দেন এই মেয়র; যা জীবন দিয়ে হলেও প্রতিহত করার ঘোষণাও দেন তিনি। তার এমন বক্তব্যে রাজশাহীজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। যদিও পুরো ঘটনাটি অস্বীকার করেছেন মেয়র আব্বাস।

তবে এ ঘটনায় মেয়র আব্বাসের বিরুদ্ধে রাজশাহী মহানগরীর পৃথক তিন থানায় তিনটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাকে দল থেকে বহিষ্কার এবং মেয়র পদ থেকে অপসারণের দাবিতে সোচ্চার হয়ে উঠেছে বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠন।


আরও খবর



ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | ৩০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কুমিল্লার চান্দিনায় বেতনের দাবিতে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করেছে 'ডেনিম' নামে একটি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা। আটকে পড়া তিন মাসের বেতনের দাবিতে বুধবার (২৪ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টায় কুমিল্লার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চান্দিনার হাড়িখোলা এলাকায় কারখানার শ্রমিকরা জড়ো হয়ে সড়ক অবরোধ করেন। এতে ঢাকা ও চট্টগ্রামমুখী দুইপাশে সড়কের অন্তত ২০ কিলোমিটার জুড়ে যানজট তৈরি হয়।

সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১১ টা পর্যন্ত টানা দুই ঘণ্টার যানজটে আটকা পড়েছে বাস-ট্রাক, কাভার্ডভ্যানসহ হাজার হাজার গণপরিবহন। যাত্রীবাহী বাসে আটকে পড়া যাত্রীরা সঠিক সময়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে না পেরে ভোগান্তিতে পড়েছেন।

হাইওয়ের ইলিয়টগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির ওসি জিয়াউল হক জানান, বুধবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে চান্দিনা উপজেলার হাড়িখোলা এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক অবরোধ করে 'ডেনিম' নামে একটি কারখানার শ্রমিকরা আন্দোলন শুরু করে। তারা তিন মাসের বকেয়া বেতনের দাবিতে আন্দোলন করছেন। কারখানা কর্তৃপক্ষ ও শ্রমিকদের সঙ্গে কথা বলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা চলছে। 


আরও খবর