আজঃ সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

খালেদার অসুস্থতা নিয়ে রাজনীতি না করার অনুরোধ ড. হাছানের

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | ৩৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
বেগম জিয়ার বিষয়ে বিএনপির ভূমিকাই রহস্যজনক। আর সরকারের ভূমিকা অত্যন্ত স্পষ্ট। বাংলাদেশে যাতে বেগম জিয়া সর্বোচ্চ চিকিৎসা পান সেটা নিশ্চিত করতে সরকার বদ্ধপরিকর

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে অসুস্থ রাজনীতি না করতে বিএনপিকে অনুরোধ জানিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সভাকক্ষ চট্টগ্রাম জার্নালিস্ট ফোরামের নবনির্বাচিত পরিষদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ অনুরোধ জানান।

তিনি বলেন, বেগম জিয়াকে অসুস্থ রেখে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিল করতে চায় বিএনপি। এতে করে বেগম জিয়াকে অসম্মান জানানো হচ্ছে। খালেদা জিয়ার জীবন সংকটাপন্ন এটি কে বলেছেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, রিজভীসহ বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা। কোনো ডাক্তার এখনও বলেনি বেগম খালেদা জিয়ার জীবন সংকটাপন্ন। এখন বিএনপির নেতারা চিকিৎসক হয়ে গেছেন। এখন বিএনপি নেতাদের প্রেসক্রিপশনে সরকার সিদ্ধান্ত নেবে কি না সেটাও ভেবে দেখার বিষয়।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, অতীতেও আমরা দেখেছি, বেগম জিয়া যখন অসুস্থ হয়েছেন তখন তারা দাবি তুলেছে বেগম জিয়াকে বিদেশ পাঠাতে হবে। হাঁটু ও গাঁয়ের তাপমাত্রা বেড়ে গেলেও তাকে বিদেশ পাঠাতে হবে। কিছু হলেই বিদেশ পাঠাতে হবে এই জিকির তোলার কারণ কি? কারণ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত। তারা বেগম জিয়াকে বিদেশে পাঠিয়ে দিতে চান। তারা বিশেষত বেগম জিয়াকে পাঠাতে চান লন্ডনে যেখানে তারেক জিয়া আছে।

তিনি বলেন, দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হয়েও বেগম জিয়া যাতে সেখান থেকে আবার রাজনীতি করতে পারেন। তারেক রহমানও দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হয়ে সেখান থেকে রাজনীতি করছেন। বেগম জিয়াকে পাঠিয়ে দিয়ে তারা সেই কাজটি করতে চান। আসলে বেগম জিয়াকে বিদেশ পাঠানোর দাবি, তার স্বাস্থ্যগত কারণে নয়, রাজনৈতিক কারণে এ দাবি উত্থাপন হচ্ছে। ডাক্তাররা এই দাবি করছে না, এ দাবি করছেন বিএনপি নেতারা। তারা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যেই এ দাবি করছে।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বেগম জিয়ার যাতে সঠিক চিকিৎসা হয় সেজন্য সরকার সর্বোচ্চ ব্যবস্থা করে দিতে বদ্ধপরিকর। দেশের অভ্যন্তরে যেকোনো ব্যবস্থা নিতে চায় সরকার। দেশের অনেক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক আছে, তারা কি বলেছেন? তারা কি সরকারের কাছে আবেদন জানিয়েছেন? দেশের সর্বোচ্চ চিকিৎসক দিয়ে মেডিকেল বোর্ড গঠন করে বেগম জিয়ার আসলে কি হয়েছে সেটা পরীক্ষা করার কথা সেটা তো তারা বলছেন না। তারা বলছেন, বিদেশ পাঠিয়ে দিতে হবে।

তিনি বলেন, বিএনপি শুধু নানা কথাবার্তা বলছেন, সভা-সেমিনার করছেন। আর এই সভা-সেমিনার করার একটি প্রতিযোগিতাও দেখা দিয়েছে তাদের মধ্যে। কারণ তাদের আবার পদ রক্ষা করতে হয়। দৃষ্টি আকর্ষণ করতে হয় বেগম জিয়া ও তারেক রহমানের। সেজন্য তারা আবার অনশনও করছেন। এটি হচ্ছে বাস্তবতা। আমি বিএনপিকে অনুরোধ জানাবো, বেগম জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে অসুস্থ রাজনীতি না করার জন্য। বেগম জিয়াকে অসুস্থ রেখে তারা রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিল করতে চায়। এতে করে বেগম জিয়াকে অসম্মান জানানো হচ্ছে।

বেগম জিয়ার বিদেশ যাওয়া নিয়ে সরকার রহস্যজনক আচরণ করছে- বিএনপির এমন মন্তব্যের বিষয়ে জানতে চাইলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বেগম জিয়ার বিষয়ে বিএনপির ভূমিকাই রহস্যজনক। আর সরকারের ভূমিকা অত্যন্ত স্পষ্ট। বাংলাদেশে যাতে বেগম জিয়া সর্বোচ্চ চিকিৎসা পান সেটা নিশ্চিত করতে সরকার বদ্ধপরিকর। দেশের সব বড় বড় চিকিৎসকদের নিয়ে বেগম জিয়ার চিকিৎসা করাতে চাইলে সেটাও করতে চায় সরকার। কিন্তু বেগম জিয়া অসুস্থ হলে বিদেশ নিতে চায় এটিই আসলে রহস্যজনক।

দিন দিন হাতির মৃত্যু বেড়ে যাচ্ছে এ বিষয়ে কোনো উদ্যোগ নেওয়া হবে কি না জানতে চাইলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, আসলে দিন দিন যেভাবে হাতির মৃত্যু বেড়ে যাচ্ছে গত কয়েক বছরে ১৩৭টি হাতির মৃত্যু হয়েছে। এটি সত্যিই উদ্বেগজনক। এর অনেকগুলো কারণ আছে। যেমন- নানা কারণে বনভূমি কমে গেছে, হাতির আবাসস্থল ধ্বংস হচ্ছে, রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জন্য হাতির আবাসস্থল ধ্বংস হয়েছে। আবাসস্থলগুলোতে মানুষ বসবাস করছে, চাষাবাদ করছে। হাতি যাতে আসতে না পারে সেজন্য ফাঁদ পাতা হচ্ছে। এগুলো সত্যিই উদ্বেগজনক। এক্ষেত্রে খুব দ্রুত আমাদের ব্যবস্থা নিতে হবে। সবাইকে বিনীত অনুরোধ জানাবো পৃথিবী শুধু মানুষের জন্য নয়, মহান স্রষ্টার সব সৃষ্টির বিষয়টি আমাদের মাথায় রাখতে হবে।


আরও খবর



একদিনে হাসপাতালে ভর্তি ৯১ ডেঙ্গু রোগী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | ৩১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে আরও ৯১ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন। মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে পাঠানো ডেঙ্গু বিষয়ক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে নতুন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছেন ৯১ জন। এর মধ্যে ঢাকাতে ৭৫ জন এবং ঢাকার বাইরের সারাদেশে ভর্তি হয়েছেন ১৬ জন। 

এতে আরও বলা হয়, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ৪৯৩ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি আছেন। এর মধ্যে ঢাকার ৪৬টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ৩৭৫ জন এবং অন্যান্য বিভাগে বর্তমানে সর্বমোট ১১১ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন।

এ বছর ১ জানুয়ারি থেকে ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা সর্বমোট ২৬ হাজার ৬৩৩ জন। একই সময়ে তাদের মধ্য থেকে হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৬ হাজার ৪২ জন রোগী। এখন পর্যন্ত ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে ৯৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।


আরও খবর
করোনায় ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৭

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




জ্বর-ঠাণ্ডা শুরুর আগেই প্রতিরোধের ৫ উপায়

প্রকাশিত:রবিবার ৩১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ৩১ অক্টোবর ২০২১ | ৬৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এ সময়টায় আবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে সাধারণ জ্বর-ঠাণ্ডায় আক্রান্ত হচ্ছেন অনেকেই। মহামারির প্রাদুর্ভাব শেষ না হওয়ায় এসব সমস্যায় অনেকেই ভয় পেয়ে যাচ্ছেন।

এ মৌসুমে সর্দি-কাশি, মাথাব্যথা, শরীর ব্যথা, গলাব্যথাসহ বিভিন্ন সমস্যা দেখা দিতেই পারে। এসব সমস্যায় ভয় পাওয়ার কিছু নেই। একটু সতর্ক থাকলে আবহাওয়া পরিবর্তনজনিত জ্বর-সর্দি থেকে বেঁচে থাকা যায়।

১. নিয়মিত হাত ধোয়া

করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি কমাতে আমাদের হাত ধোয়া কতটা গুরুত্বপূর্ণ তা আমরা জেনেছি। কিন্তু এ অভ্যাসটি শীতের সময়েও চালিয়ে যেতে হবে। কারণ সর্দি-সৃষ্টিকারী ভাইরাসগুলো সংক্রামিত ব্যক্তির কাশি এবং হাঁচি থেকে ছড়িয়ে পড়ে। আর এগুলো ২৪ ঘণ্টা পর্যন্ত হাত ও পৃষ্ঠে বেঁচে থাকতে পারে। তাই অসুস্থ না হওয়া এড়াতে খাওয়ার আগে বা আপনার মুখ স্পর্শ করার আগে আপনার হাত সাবান দিয়ে ভালোভাবে ধুয়ে নিন।

২. হাইড্রেট থাকা

শীতকালে এমনিতেই অনেকে পানি পান করা কমিয়ে দেন। কিন্তু এ সময়টাতেও নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে থাকতে হবে হাইড্রেটেড। পানি শরীর থেকে টক্সিন বের করে দিতে সাহায্য করে এবং আমাদের অসুস্থ হওয়া থেকে বিরত রাখে। তাই সুস্থ থাকতে চাইলেও দিনে অন্তত ২ লিটার পানি পান করতে হবে।

৩. স্বাস্থ্যকর খাবার

আবহাওয়া পরিবর্তনের এ সময়ে স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়াটা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। কারণ এটি আপনাকে পর্যাপ্ত পরিমাণে পুষ্টি পেতে এবং আপনাকে ফিট রাখতে সাহায্য করবে যা দূরে রাখবে জ্বর ঠাণ্ডার সমস্যাকে। এ ছাড়া জিঙ্ক ও ভিটামিন ডি গ্রহণের মাত্রার দিকেও বিশেষ মনোযোগ দিতে হবে। কেননা এই দুটি পুষ্টি অনাক্রম্যতা বাড়াতে এবং অসুস্থ হওয়ার ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।

৪. পর্যাপ্ত ঘুম

ঠাণ্ডার বিরুদ্ধে লড়াই করতে এবং প্রতিরোধ করতে পর্যাপ্ত ঘুম আমাদের জন্য অপরিহার্য। নিদ্রাহীনতা বা ঘুমের খারাপ মানের কারণে শরীরের ভাইরাস এবং সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করা কঠিন হয়ে পড়ে। তাই আপনার ইমিউন সিস্টেমকে সক্রিয় রাখতে প্রতিদিন ৭ থেকে ৮ ঘণ্টা ঘুম নিশ্চিত করতে হবে।

৫. ব্যায়াম

শুধু ওজন কমানো নয়, বরং শরীরকে ঠিক রাখতেও ব্যায়াম অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এটি অনাক্রম্যতা বাড়াতে এবং ঠাণ্ডা প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। ব্যায়াম আমাদের ইমিউন কোষগুলোকে শরীরের চারপাশে আরও দ্রুত ভ্রমণ করতে সহায়তা করে সঞ্চালনকে উন্নত করে। তাই এটি শরীরকে আরও ভাল উপায়ে সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করতে সহায়তা করে।


আরও খবর



৪৬ ওষুধ কোম্পানির লাইসেন্স বাতিল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | ৩০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

৪৬টি ওষুধ কোম্পানির উৎপাদন লাইসেন্স সাময়িক বাতিল করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে প্রশ্নোত্তর পর্বে কাজিম উদ্দিন আহম্মেদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে প্রশ্নোত্তর টেবিলে উত্থাপিত হয়।

মন্ত্রী বলেছেন, ওষুধের গুণগত মান নিয়ন্ত্রণে সরকার সচেষ্ট রয়েছে। নকল-ভেজাল ওষুধ বিক্রি প্রতিরোধে সরকার কঠোর। আর নকল ওষুধ উৎপাদন ও বাজারজাতকরণের বিরুদ্ধে সরকার নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করছে। ২০২০-২১ অর্থবছরে মোবাইল কোর্টে এক হাজার ৭১৫টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাতে সাত কোটি ৫৮ লাখ একশ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে।

জাহিদ মালেক বলেন, ২০২১ সালের জানুয়ারি থেকে নভেম্বর মাস পর্যন্ত ৪৬টি ওষুধ কোম্পানির উৎপাদন লাইসেন্স সাময়িক বাতিল করা হয়েছে।এর মধ্যে ১৭টি হোমিও ওষুধ উৎপাদনকারী কোম্পানি, চারটি হার্বাল ওষুধ উৎপাদনকারী কোম্পানি, ৫টি এলোপ্যাথিক, ৬টি ইউনানি এবং ১৪টি আয়ুর্বেদিক ওষুধ উৎপাদনকারী কোম্পানি রয়েছে।এসব কোম্পানির সব প্রকার ওষুধ উৎপাদন ও বাজারজাতকরণ স্থগিত করা হয়েছে বলে সংসদে জানান তিনি।

এদিকে দেশে পুষ্টিহীনতা বিষয়ে সব বয়সের মানুষের নির্দিষ্ট কোনো পরিসংখ্যান সরকারের হাতে না থাকলেও এক্ষেত্রে সফলতার দাবি করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী। হাজী মো. সেলিমের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি নারীদের পুষ্টি পরিস্থিতির একটি চিত্র তুলে ধরেন। মন্ত্রীর দেওয়া তথ্যানুযায়ী, ১৫ থেকে ৪৯ বছর বয়সী নারীদের অপুষ্টিজনিত কম ওজন ২০১৭-১৮ সালে ছিল ১২ শতাংশ; ২০০৭ সালে তা ৩০ শতাংশ ছিল।


আরও খবর



ষষ্ঠবারের মতো ট্যাক্স কার্ড ও সম্মাননা পেলো ইস্ট-ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) দীর্ঘ মেয়াদি ও সর্বোচ্চ করদাতা হিসেবে ট্যাক্স কার্ড ও সম্মাননা পুরস্কার পেলো বসুন্ধরা গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান ইস্ট-ওয়েস্ট মিডিয়া গ্রুপ লিমিটেডসহ (ইডব্লিউএমজিএল) ১৪১ ব্যক্তি প্রতিষ্ঠান।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে দেশের ব্যবসায়ী শিল্পপতিদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিমের হাত থেকে ইডব্লিউএমজিএলের কার্ড ও সম্মাননা গ্রহণ করেন বসুন্ধরা গ্রুপের (সেক্টর-বি) হেড অফ ফাইন্যান্স নুরে আলম সিদ্দিকী।

অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অর্থ আ হ ম মুস্তফা কামাল ও এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন।

প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া ক্যাটাগরিতে ইডব্লিউএমজিএল পরপর গত পাঁচ বছরের ধারাবাহিকতায় এবার ষষ্ঠবারের মতো সেরা করদাতা প্রতিষ্ঠান হিসেবে পুরস্কার পেলো।

ইডব্লিউএমজিএল-এর মালিকানাধীন গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান হচ্ছে- অনলাইন নিউজ পোর্টাল বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন, দৈনিক কালের কণ্ঠ, ইংরেজি পত্রিকা ডেইলি সান, টেলিভিশন চ্যানেল নিউজটোয়েন্টিফোর, টি স্পোর্টস এবং রেডিও ক্যাপিটাল ৯৪.৮।  


আরও খবর
আগামীকাল জাতীয় আয়কর দিবস

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




আজকের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৫ নভেম্বর ২০২১ | ৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে আজ শুক্রবার দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। দুটি ম্যাচই হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে।

প্রথম ম্যাচ

নিউজিল্যান্ড-নামিবিয়া (বিকেল ৪টা)

সরাসরি সম্প্রচার করবে গাজী টিভি ও টি-স্পোর্টস

ভেন্যু : শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়াম

দ্বিতীয় ম্যাচ

ভারত -স্কটল্যান্ড (রাত ৮টা)

সরাসরি সম্প্রচার করবে গাজী টিভি ও টি-স্পোর্টস

ভেন্যু : দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অফিশিয়াল ডিজিটাল ব্রডকাস্টার র‍্যাবিটহোল। নিজস্ব অ্যাপ ও ওয়েবসাইটের পাশাপাশি দর্শকদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে বায়োস্কোপ ও মাইজিপি অ্যাপেও সরাসরি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দেখানোর ব্যবস্থা করেছে তারা।


আরও খবর
হারের শঙ্কায় টাইগাররা

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১