আজঃ রবিবার ২৪ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

করোনামুক্তির প্রার্থনা ভক্তদের আজ মহাষ্টমী

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | ৪৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
মহাষ্টমীতে সকালের শুরুতে দুর্গাদেবীর মহাষ্টমীবিহিত পূজা হবে। এরপর পুষ্পাঞ্জলি ও মধ্যাহ্ন প্রসাদ। রাত সোয়া ৮টায় সন্ধিপূজা হবে

শারদীয় দুর্গাপূজার মহাসপ্তমী নবপত্রিকা স্নান ও প্রতিস্থাপনের মধ্য দিয়ে পালিত হয়েছে। মঙ্গলবার ঢাকঢোল, উলুধ্বনিতে মন্দির ও মণ্ডপগুলো মুখরিত হয়ে ওঠে। ফুল, বেলপাতা দিয়ে অঞ্জলি শেষে ভক্তরা দেবীর কাছে প্রার্থনা করেন। পৃথিবীতে শান্তি প্রতিষ্ঠা এবং করোনাভাইরাস থেকে বিশ্ববাসীকে মুক্ত করার জন্য তারা প্রার্থনা করেন। ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরসহ সব মন্দির ও পূজামণ্ডপে ভক্ত-দর্শনার্থীদের ভিড় দেখা গেছে। আজ বুধবার মহাষ্টমী পূজা অনুষ্ঠিত হবে।

ঢাকার রামকৃষ্ণ মিশনে দুর্গাপূজার দ্বিতীয় দিন মহাসপ্তমীতে ভোর ৬টা ৪৫ মিনিটে পূজা শুরু হয়। সকাল সাড়ে ১০টায় বিপুলসংখ্যক ভক্তের অংশগ্রহণে পুষ্পাঞ্জলি হয়। পূজা শেষে দুপুর সাড়ে ১২টায় জাতিধর্মনির্বিশেষে ভক্ত ও দর্শনার্থীদের প্রসাদ দেওয়া হয়। মহাষ্টমীতে সকালের শুরুতে দুর্গাদেবীর মহাষ্টমীবিহিত পূজা হবে। এরপর পুষ্পাঞ্জলি ও মধ্যাহ্ন প্রসাদ। রাত সোয়া ৮টায় সন্ধিপূজা হবে।

মহানগর সর্বজনীন পূজা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট কিশোর রঞ্জন মণ্ডল বলেন, মহাসপ্তমী পূজা শেষে বাংলাদেশসহ গোটা বিশ্বকে করোনাভাইরাস থেকে মুক্তির জন্য আমরা প্রার্থনা করেছি। পূজার আনুষ্ঠানিকতা শেষে মহানগর সর্বজনীন পূজা কমিটির পক্ষ থেকে গরিবদের মাঝে বস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম ও ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজি সেলিম বস্ত্র বিতরণ করেন। এ সময় বাংলাদেশ পূজা উদ্যাপন পরিষদের উপদেষ্টা নির্মল গোস্বামী, সাধারণ সম্পাদক নির্মল চ্যাটার্জি, মহানগর সর্বজনীন পূজা কমিটির সভাপতি শৈলেন্দ্রনাথ মজুমদার উপস্থিত ছিলেন।

নিউজ ট্যাগ: দুর্গাপূজা

আরও খবর
আজ শুভ প্রবারণা পূর্ণিমা

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21

আজ শ্রী শ্রী লক্ষ্মীপূজা

বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21




কেন্দ্রীয় নেতাদের কীসের ভয়: কাদের মির্জা

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নোয়াখালী আওয়ামী লীগে বিভেদ নিয়ে কেন্দ্রীয় নেতাদের ভূমিকার কড়া সমালোচনা করেছেন বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা। আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই প্রশ্ন রেখে বলেছেন, কেন্দ্রীয় নেতাদের কীসের ভয়। মেয়র কাদের মির্জা শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ফেসবুক পেজ থেকে লাইভে এসে এসব কথা বলেন।

কাদের মির্জা আরও বলেন, গত ২১ মাস পেরিয়ে গেছে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি দেওয়া হয়নি। যে দুজনকে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়েছে, তারাও বিতর্কিত। কেন্দ্রীয় নেতাদের কীসের ভয়, জানি না? একেক সময় একেক দোহাই দিয়ে সময়ক্ষেপণ করছেন, কোনো সময় বলছে রোজার ঈদ, আবার বলে কুরবানির ঈদ এবং করোনার দোহাই। এখন সময়ক্ষেপণ করতে আবার বলছেন নেত্রী (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে এলে কমিটি দেওয়া হবে।

সংসদ সদস্য একরাম চৌধুরীর সমালোচনা করে তিনি বলেন, একরামকে কেন এত ভয়, জাতীয় নেতাদের? আপনারা ভয় পেতে পারেন, আমি তাকে ভয় পাই না। আমরা প্রস্তুতি নিচ্ছি একরাম তোমাকে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতি থেকে বিতাড়িত করব।

এ সময় তিনি এমপি একরামকে উদ্দেশ্য করে বলেন, তুমি সম্মান থাকতে সরে যাও।  না হয় গণআদালতের মাধ্যমে তোমাকে বিতাড়িত করা হবে। একরাম তুমি প্রধানমন্ত্রীকে কটাক্ষ করে কথা বলেছ। ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের অফিস বন্ধ করেছ। তোমার বিচার আমরা করবই। একরাম তুমি আমার মরহুম বাবাকে কটাক্ষ করে কথা বলেছ।

বসুরহাটের মেয়র প্রশ্ন রেখে বলেন, আজকে কোম্পানীগঞ্জে কী হচ্ছে? আমার নেতাকর্মীদের ধরে নিয়ে মুজাক্কির হত্যা মামলায় শোন অ্যারেস্ট দেখানো হচ্ছে। মিজানুর রহমান বাদলকে ২ ঘণ্টার মধ্যে জামিন দেওয়া হয়েছে, এটি কার নির্দেশে?

ওবায়দুল কাদেরের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, কোম্পানীগঞ্জের মানুষের অন্তরের খবর নিয়ে, আপনার ওয়াদার প্রতি শ্রদ্ধা রেখে, অন্তত কোম্পানীগঞ্জে ৫০০ এবং কবিরহাটে ৫০০ ছেলেমেয়ের চাকরির ব্যবস্থা করুন। কোম্পানীগঞ্জের প্রত্যেক ঘরে ঘরে গ্যাসের সংযোগ দিন এবং কোম্পানীগঞ্জের দক্ষিণাঞ্চলের নদীভাঙন রোধকল্পে অনতিবিলম্বে ক্রস ড্যাম নির্মাণে পদক্ষেপ নিন।



আরও খবর



প্রেম ও দ্রোহের কবি রুদ্র’র জন্মদিন আজ

প্রকাশিত:শনিবার ১৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৬ অক্টোবর ২০২১ | ৩৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
ক্ষণজন্মা এই কবি নিজেকে মিলিয়ে নিয়েছিলেন আপামর নির্যাতিত মানুষের আত্মার সঙ্গে। সাম্যবাদ, মুক্তিযুদ্ধ, ঐতিহ্যচেতনা ও অসাম্প্রদায়িকবোধে উজ্জ্বল তার কবিতা

ভালো আছি ভালো থেকো, আকাশের ঠিকানায় চিঠি লিখো- জনপ্রিয় এই অমর গানের রচয়িতা, তারুণ্য ও সংগ্রামের দীপ্ত প্রতীক কবি রুদ্র মুহম্মদ শহিদুল্লাহর ৬৫তম জন্মবার্ষিকী আজ।

১৯৫৬ সালের ১৬ অক্টোবর তিনি বাগেরহাট জেলার মোংলা উপজেলার মিঠাখালি এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৯১ সালের ২১ জুন মাত্র ৩৫ বছর বয়সে মারা যান তিনি।

প্রিয় এই কবির জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রুদ্র স্মৃতি সংসদ মোংলার মিঠাখালিতে শোভাযাত্রা, কবির সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, মিলাদ মাহফিল, দোয়া অনুষ্ঠান ও প্রীতি ফুটবল খেলার আয়োজন করেছে। এছাড়া মোংলা প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে রুদ্র স্মৃতি সংসদ ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট মোংলা শাখা স্মরণ সভার আয়োজন করেছে। স্মরণসভা শেষে রুদ্রের কবিতা আবৃত্তি ও রুদ্রের গান পরিবেশিত হবে।

ক্ষণজন্মা এই কবি নিজেকে মিলিয়ে নিয়েছিলেন আপামর নির্যাতিত মানুষের আত্মার সঙ্গে। সাম্যবাদ, মুক্তিযুদ্ধ, ঐতিহ্যচেতনা ও অসাম্প্রদায়িকবোধে উজ্জ্বল তার কবিতা। জাতির পতাকা আজ খামচে ধরেছে সেই পুরোনো শকুন- এই নির্মম সত্য অবলোকনের পাশাপাশি উচ্চারণ করেছেন অবিনাশী স্বপ্ন- দিন আসবেই- দিন সমতার। যাবতীয় অসাম্য, শোষণ ও ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধে অনমনীয় অবস্থান তাকে পরিণত করেছে তারুণ্যের দীপ্ত প্রতীক-এ। একই সঙ্গে তার কাব্যের আরেক প্রান্তর জুড়ে রয়েছে স্বপ্ন, প্রেম ও সুন্দরের মগ্নতা।

মাত্র ৩৫ বছরের স্বল্পায়ু জীবনে তিনি সাতটি কাব্যগ্রন্থ ছাড়াও গল্প, কাব্যনাট্য এবং ভালো আছি ভালো থেকো সহ অর্ধ শতাধিক গান রচনা করেছেন। পরবর্তীকালে এ গানটির জন্য তিনি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সাংবাদিক সমিতি প্রদত্ত ১৯৯৭ সালের শ্রেষ্ঠ গীতিকারের (মরণোত্তর) সম্মাননা লাভ করেন। উপদ্রুত উপকূলফিরে চাই স্বর্ণগ্রাম কাব্যগ্রন্থ দুটির  জন্য সংস্কৃতি সংসদ থেকে পরপর দুবছর মুনীর চৌধুরী সাহিত্য পুরস্কার লাভ করেন। সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট ও জাতীয় কবিতা পরিষদ গঠনে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেন।


আরও খবর



নুসরাতের মামলা: অসংলগ্ন অনুমান আর কল্পনা

প্রকাশিত:রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৭ অক্টোবর ২০২১ | ৩৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নুসরাতের মামলা তদন্ত করছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। তদন্তে যতই গভীরে যাওয়া হচ্ছে ততই মামলার অসংলগ্নতা, অনুমান ও কল্পনা নির্ভরতার প্রমাণ পাওয়া যাচ্ছে। বিভিন্ন সূত্র বলছে, মামলাটি তথ্য-উপাত্ত ও আলামত-সাক্ষীর ভিত্তিতে নয়, বরং আক্রোশ, কল্পনা ও অনুমানের উপর নির্ভর করেই করা হয়েছে। শেষ পর্যায়ে তদন্তে প্রচুর অসংলগ্নতা পাওয়া যাচ্ছে এবং এই অসংলগ্নতাই এই মামলাকে অসার, ভিত্তিহীন ও প্রতিহিংসামূলক হিসেবে প্রতিপন্ন করছে বলে জানা গেছে। মুনিয়ার মৃত্যু নিয়ে নুসরাত আট নাম্বার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে যে মামলাটি করেছে সেই মামলার মধ্যে একের পর এক অসংলগ্নতা পাওয়া যাচ্ছে।

প্রথম অসংলগ্নতা হলো, নুসরাত দাবি করেছে তার বোন ধর্ষণের স্বীকার হয়েছে। কিন্তু মুনিয়া ও নুসরাতের কথোপকথনের যে অডিও পুলিশের হাতে গেছে তদন্তে সে অডিওতে কোথাও মুনিয়া বলে নি যে তিনি ধর্ষিত হয়েছেন। তাহলে মুনিয়া যে ধর্ষিত হয়েছেন মামলার বাদী এমন তথ্য কোথায় পেলেন?

দ্বিতীয়ত, এই মামলায় একাধিক ব্যক্তিকে অভিযুক্ত করা হয়েছে হত্যা ও ধর্ষণের অভিযোগে। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের আওতায় এই অভিযোগ আনা হয়েছে। কিন্তু প্রশ্ন হলো যে এই মামলায় অন্তত ছয়জন আসামী আছেন যাদের সাথে মুনিয়ার কখনো দেখা সাক্ষাৎ হয় নি। বিশেষ করে, মামলায় যেসব নারীদের আসামী করা হয়েছে তারা কিভাবে ধর্ষণের সাথে যুক্ত থাকবেন সেই প্রশ্নেরও কোনো উত্তর নেই।

তৃতীয়ত, নুসরাতের সাথে মুনিয়ার মৃত্যুর দিন দীর্ঘক্ষণ কথা হয়েছে, এই কথোপকথনের মধ্যে কোথাও মুনিয়া তাকে হত্যা করা হতে পারে বা তাকে কেউ খুন করবে এ ধরনের আশঙ্কার কথা বলা হয় নি। তাহলে এসময়ের মধ্যে মুনিয়াকে কারা হত্যা করলো?

চতুর্থত, এই মামলার সবচেয়ে দুর্বল দিক হিসেবে মনে করা হচ্ছে, প্রত্যক্ষদর্শী সাক্ষীর সাক্ষ্য প্রমাণের অভাব। মুনিয়াকে যদি হত্যা করা হয় তাহলে প্রত্যক্ষদর্শীর সাক্ষ্য লাগবে। প্রত্যক্ষদর্শীর সাক্ষ্য ছাড়া একটি হত্যা মামলা আইনের দৃষ্টিতে অচল।

পঞ্চমত, মুনিয়াকে হত্যা করার জন্য যদি কেউ তার বাসায় এসে থাকে তবে সেখানে চিৎকার চেঁচামেচি হবে, সেখানে ধ্বস্তাধস্তি হবে, সেখানে পাশের ফ্ল্যাটের যারা আছেন তারা বিষয়টি জানবেন। পাশাপাশি মুনিয়াও নুসরাতের সাথে বারবার কথোপকথন করছিলেন। সেক্ষেত্রে নুসরাতকে কেন মুনিয়া টেলিফোন করলেন না সেটি একটি বড় প্রশ্ন।

অসংলগ্নতা ছাড়াও এই মামলায় অনেকগুলো কল্পনাপ্রসূত অনুমান নির্ভর ব্যাপার রয়েছে। বিশেষ করে পুলিশের পক্ষ থেকে এর আগে তদন্তে দেখা গেছে যে পুরো মামলাটি একটি অনুমান নির্ভর ও কল্পনাপ্রসূত। যে কল্পনা ও অনুমানের মূল লক্ষ্য হলো কিছু ব্যক্তিকে ব্ল্যাকমেইল করা। ব্ল্যাকমেইল করে মিডিয়া ট্রায়ালের মাধ্যমে ফায়দা হাসিলই এই মামলার মূল উদ্দেশ্য কিনা সেটিই এখন খতিয়ে দেখা দরকার বলে বিভিন্ন মহল মনে করছেন। কারণ একটি মামলার ক্ষেত্রে তিনটি মূল উপজীব্য বিষয় রয়েছে। প্রথম হলো সাক্ষ্য-প্রমাণ। দ্বিতীয় হলো আলামত। তৃতীয় হলো পারিপার্শ্বিকতা। এই তিনটি ক্ষেত্রেই এই মামলায় কোনো যুক্তি নেই। শুধু অনুমান ও কল্পনা নির্ভরতা রয়েছে। নুসরাতের দায়ের করা মামলায় কোনো প্রত্যক্ষদর্শীর সাক্ষী নেই, এমনকি পরোক্ষ কোনো সাক্ষীও নেই। এমন কোনো আলামতও নেই যাতে প্রমাণিত হয় মুনিয়াকে হত্যা করা হয়েছে বা ধর্ষণ করা হয়েছে। এই মামলায় আসামীদের যে পারস্পরিক যোগসাজশ দেখানো হয়েছে তা কল্পনা প্রসূত। এধরনের অনুমান নির্ভর ও কল্পনা প্রসূত মামলা যদি চলতে থাকে তবে বাংলাদেশের বিচার ব্যবস্থাকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা হতে পারে। এ ধরনের মামলা যেকোনো ব্যক্তিকে অপদস্থ করা ও সম্মানহানি করার হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহৃত হতে পারে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।

নিউজ ট্যাগ: পিবিআই নুসরাত

আরও খবর
ইকবালসহ ৪ আসামির রিমান্ড মঞ্জুর

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১




যুক্তরাষ্ট্রে বিদ্যালয়ে বিমান বিধ্বস্তে নিহত ২

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রে একটি বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে দুজন নিহত হয়েছেন। স্থানীয় সময় সোমবার (১১ অক্টোবর) দেশটির ক্যালিফোর্নিয়া অঙ্গরাজ্যের সান দিয়াগোতে একটি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে এ ঘটনা ঘটে। এতে আহত হয়েছেন আরও দুজন। মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) স্থানীয় গণমাধ্যম ও কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

স্কুল ক্যাম্পাসে বিমানটি বিধ্বস্ত হওয়ার পর আগুনে পুড়ে গেছে পার্শ্ববর্তী বেশ কয়েকটি বাড়ি ও বেশ কয়েকটি গাড়ি। পরবর্তীতে তা নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন দমকল কর্মীরা। স্থানীয় এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ক্যালিফোর্নিয়ার সান্টি শহরের এই দুর্ঘটনার পর ছড়িয়ে পড়া আগুনে কমপক্ষে দুটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সোমবার স্থানীয় সময় দুপুর ১২টার দিকে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।

স্থানীয় একটি সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, বিধ্বস্ত বিমানটি সি৩৪০ মডেলের দুই ইঞ্জিন বিশিষ্ট বিমান। সোমবার সান দিয়াগোর মন্টেগোমেরি ফিল্ড থেকে অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যের ইউমাতে যাচ্ছিল বিমানটি। তবে বিমানটি উড্ডয়নের পরপরই সমস্যা দেখা দেয়। এরপর বিমানটিকে একটি মাধ্যমিক স্কুলের পাশে গিলেস্পি ফিল্ডে অবতরণের চেষ্টা করা হয়। তবে এর আগেই সেটি বিধ্বস্ত হয়।

দুর্ঘটনায় আহত দুজনকে চিকিৎসার জন্য স্থানীয় একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। তবে বিমানটিতে মোট কতজন আরোহী ছিলেন, সে ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি।



আরও খবর



টিভিতে আজকের খেলা

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | ৪২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ আইপিএলের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার কলকাতা নাইট রাইডার্স-দিল্লি ক্যাপিট্যালস বিপক্ষে। এদিকে, সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের আজ বেশ কয়েকটি ম্যাচ। মাঠে নামবে বাংলাদেশ-নেপালের মতো দেশগুলো।

ফুটবল

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ

বাংলাদেশ-নেপাল, বিকেল ৫.০০টা, সরাসরি টি স্পোর্টস

ভারত-মালদ্বীপ, রাত ১০.০০টা, সরাসরি টি স্পোর্টস

 

ক্রিকেট

আইপিএল, দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার

কলকাতা নাইট রাইডার্স-দিল্লি ক্যাপিট্যালস, রাত ৮.০০টা, সরাসরি স্টার স্পোর্টস ১


আরও খবর
অজিদের কষ্টার্জিত জয়

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১