আজঃ সোমবার ২৩ মে ২০২২
শিরোনাম

করোনায় মৃত্যু বাড়লেও কমেছে শনাক্ত

প্রকাশিত:শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২ | ৮৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মতো বাংলাদেশেও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বাড়ছে। দীর্ঘদিন পর দ্বিতীয় দিনের মতো দৈনিক শনাক্ত করোনা রোগীর সংখ্যা ৯ হাজার ছাড়িয়েছে। 

দেশে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে করোনায় দেশে ২৮ হাজার ২০৯ জনের মৃত্যু হলো। এ সময়ে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৯ হাজার ৬১৪ জন।  এ নিয়ে মোট শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৬ লাখ ৭৪ হাজার ২৩০ জনে। শনিবার স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। শনাক্তের হার দাঁড়িয়েছে ২৮ দশমিক ০২ শতাংশ।

দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল ২০২০ সালের ৮ মার্চ। প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সেই বছর সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছিল ৬৪ জনের।

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ায় গত বছর জুন থেকে রোগীর সংখ্যা হু-হু করে বাড়তে থাকে। ২৮ জুলাই একদিনে সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ২৩০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল।

২০২১ সালের ৭ জুলাই প্রথমবারের মতো দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ৫ ও ১০ আগস্ট ২৬৪ জন করে মৃত্যু হয়, যা মহামারির মধ্যে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। এরপর বেশকিছু দিন ২ শতাধিক মৃত্যু হয়।

এরপর গত ১৩ আগস্ট মৃত্যুর সংখ্যা ২০০ এর নিচে নামা শুরু করে। দীর্ঘদিন শতাধিক থাকার পর গত ২৮ আগস্ট মৃত্যু ১০০ এর নিচে নেমে আসে।

২০২০ সালের এপ্রিলের পর গত বছরের ১৯ নভেম্বর প্রথম করোনাভাইরাস মহামারিতে মৃত্যুহীন দিন পার করে বাংলাদেশ। সর্বশেষ দ্বিতীয়বারের মতো ৯ ডিসেম্বর মৃত্যুশূন্য দিন পার করেছে দেশ।

ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময় পর্যন্ত পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণেই ছিল। কিন্তু এরমধ্যেই বিশ্বে শুরু হয় ওমিক্রন ঝড়। ৩ জানুয়ারি দৈনিক শনাক্তের হার ৩ শতাংশ এবং ৬ জানুয়ারি তা ৫ শতাংশ ছাড়ায়। এরপর থেকে সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বাড়তে শুরু করেছে। 


আরও খবর



সোমালিয়ায় ফের সৈন্য মোতায়েন করছেন বাইডেন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | ২৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আল-শাবাব গ্রুপকে মোকাবিলায় স্থানীয় কর্তৃপক্ষকে সহায়তা করতে সোমালিয়ায় ফের সৈন্য মোতায়েনের নির্দেশ দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সেদেশের সাবেক ডোনাল্ড ট্রাম্প সরকার সোমালিয়া থেকে সৈন্য প্রত্যাহার করেছিল। গতকাল সোমবার মার্কিন এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বাইডেনের নির্দেশের তথ্য জানিয়েছেন।

বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়, এ পদক্ষেপ বাইডেনের পূর্বসূরি ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্দেশের একেবারে বিপরীত। তিনি ২০২০ সালের শেষের দিকে পূর্ব আফ্রিকার এ দেশ থেকে প্রায় সব মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহার করে নিয়েছিলেন।

ওই মার্কিন কর্মকর্তা বলেন, সোমালিয়ায় স্বল্প পরিসরে ফের মার্কিন সৈন্য মোতায়েনের নির্দেশ দেওয়ার ব্যাপারে পূর্ব আফ্রিকায় মার্কিন বাহিনীর অবস্থানের ক্ষেত্রে প্রতিরক্ষা বিভাগের আবেদনের অনুমোদন দিয়েছেন বাইডেন।

ওই কর্মকর্তা জানান, এ ক্ষেত্রে ৫০০ জনের কম সৈন্য মোতায়েন করা হবে। যত দ্রুত সম্ভব এ নির্দেশ কার্যকর করা হবে।


আরও খবর



হলিউডকে নকল করতে গিয়ে ডুবছে বলিউড : রবিনা ট্যান্ডন

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | ৫৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাহুবলী থেকে পুষ্পা বা হাল আমলের আরআরআর বা কেজিএফ ২। বলিউডকে যেন প্রতি ম্যাচে বলে বলে ১০ গোল দিচ্ছে দক্ষিণী সিনেমাগুলি।কেন এমন অবস্থা? তার কারণ ব্যাখ্যা করলেন কেজিএফ ২ অভিনেত্রী রবিনা ট্যান্ডন।

রবিনার মতে হলিউডের ছবিকে নকল করতে গিয়েই ডুবছে বলিউড।হলিউডের অন্ধ অনুকরণ মানুষ ভাল চোখে দেখছেন না।দক্ষিণের ছবির সাফল্যের রহস্যও তিনি জানিয়েছেন। তাঁর মতে, দক্ষিণের ছবি তৈরি হয় দেশীয় গল্পের উপর ভিত্তি করে।

এর ফলে দর্শকরা নিজেকে সম্পৃক্ত করতে পারেন গল্পের সঙ্গে। রবিনার মতে, এটাই হল দক্ষিণের ছবির সাফল্যের রহস্য।এ প্রসঙ্গে তিনি নব্বই দশকের বলিউড ছবির প্রসঙ্গ উত্থাপন করেছেন।রবিনা বলেন, ওই সময় পর্যন্ত গান ও গল্পে ছিল দেশীয় ছোঁয়া। তার পর থেকে হলিউডের নকল করা শুরু হয়।

রবিনার মতে, বলিউড ছবিতে পশ্চিমী সংস্কৃতির প্রভাব, নায়কের বা ভিলেনের চপারে যাতায়াতএ সব আরও দূরে সরিয়েছে ভারতীয় দর্শককে।অন্য দিকে, দক্ষিণী ছবিতে দেশের গল্প, দেশীয় সংস্কৃতির ছোঁয়া থাকার ফলে মানুষের মধ্যে তার আকর্ষণ বাড়ছে। এমনকি অ-হিন্দিভাষী ভারতীয়রাও দক্ষিণের ছবি দেখতে হলে ভিড় করছে।

রবিনা নিজের অভিজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, আমি নিজেও যখন স্ক্রিপ্ট পড়তাম, তখন বুঝতে পারতাম কোথাও যেন গল্পগুলো আলাদা হয়ে যাচ্ছে। দেশের সংস্কৃতি এবং ভাবনার সঙ্গে মিলছে না।রবিনা মনে করেন, হাল আমলে বলিউড ছবির পশ্চিমীকরণের শুরু হয়েছে যশরাজ এবং ধর্মা প্রোডাকশনসের হাত ধরে। দুটিই বর্তমানে বলিউডে সবচেয়ে বড় প্রোডাকশন হাউস।

একটা সময় অবধি মানুষ তাদের প্রযোজিত ছবিগুলি পছন্দ করেছেন। কিন্তু লাগাতার পশ্চিমী সংস্কৃতির প্রাধান্যে দর্শক দূরে সরেছেন সেই ধরনের ছবিগুলি থেকে।আয়ের অঙ্কেও সম্মিলিত দক্ষিণী চলচ্চিত্র (তেলুগু, তামিল, কন্নড় এবং মালায়লাম) বলিউডকে ছাপিয়ে গিয়েছে।

২০২১ সালে বক্স অফিসের হিসাবে সবচেয়ে বেশি আয় করেছে তেলুগু সিনেমা।দক্ষিণী ছবির বিষয়বস্তু বেছে নেওয়া হয় বৃহৎ অংশের দর্শকদের কথা মাথায় রেখে। অল্লু অর্জুনের পুষ্পার কথাই ধরা যাক। এই ছবির বিষয়বস্তু একেবারেই অনন্য। গল্প বলার পদ্ধতিতেও নিজস্বতা রয়েছে।শুধু বিষয়বস্তু নয়, দক্ষিণী অভিনেতারাও মন ছুঁয়ে যাচ্ছেন দর্শকের। অভিনেতার স্টাইলও সাফল্যের একটি অন্যতম সূত্র।

যে স্টাইলের শুরু করেছিলেন রজনীকান্ত, তা বজায় রেখেছেন তেলুগু তারকা অল্লু অর্জুন, প্রভাস, মহেশ বাবু, জুনিয়র এনটিআর এবং রাম চরণ।আর্থিক বিশেষজ্ঞ রমেশ বালার মতে, সিনেমার বৃহত্তর বাজারকে এড়িয়ে যাচ্ছে বলিউড। আর সেই জায়গাতেই ঢুকে পড়ছে দক্ষিণী ছবি।

রমেশের মতে, বলিউড গত কয়েক বছর ধরে সিনেমার যে বৃহৎ বাজার রয়েছে, তাকে উপেক্ষা করছে। রাজকুমার রাও, আয়ুষ্মান খুরানা অভিনীত চলচ্চিত্রগুলি বৃহত্তর ভারতীয় দর্শককে ছুঁতে পারে না।অক্ষয়কুমার সামাজিক বার্তাবাহী ছবি টয়লেট: এক প্রেম কথা কিংবা পুরোদস্তুর কৌতুকধর্মী করছেন। রমেশের প্রশ্ন, দক্ষিণ কি এই ধরনের ছবি করবে? বরং তারা বিজিল, বিস্ট বা পুষ্পার মতো ছবি তৈরি করবে, যা বৃহৎ অংশের দর্শককে ধরবে।

তা হলে হাতে রইল কী? স্রেফ নিজস্বতা এবং দেশের মানুষ যে ধরনের গল্প পছন্দ করেন, তেমন সিনেমা করেই বাজিমাত করছে দক্ষিণ।

নিউজ ট্যাগ: রবিনা ট্যান্ডন

আরও খবর



লিচু খাওয়ার উপকারিতা

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | ৪৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাজারে উঠতে শুরু করেছে লিচু। গ্রীষ্মকালীন এই রসালো ফল খুব কম সময়ের জন্য আসে। স্বাদ ও গন্ধের জন্য লিচু অনেকের কাছেই প্রিয় একটি ফল। শুধু স্বাদই নয়, পুষ্টিগুণেও ভরপুর এই ফল। নানা রকম অসুখের থেকে আপনাকে দূরে রাখবে লিচু। লিচু খাওয়ার আগে এর উপকারিতাগুলো সম্পর্কেও জেনে নিন-

হাড় ভালো রাখে: লিচুতে থাকে ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস, আয়রন, ম্যাঙ্গানিজ এবং কপার। এসব উপাদান হাড়ের ক্যালসিয়াম শোষণে সাহায্য করে থাকে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, লিচু খেলে কমে হাড়ের ভঙ্গুরতা। সেইসঙ্গে হ্রাস পায় অস্টিওপোরোসিস ও ফ্র্যাকচারের সম্ভাবনাও। তাই হাড় ভালো রাখতে লিচুর সময়টাতে খেতে পারেন সুমিষ্ট এই ফল।

কিডনির জন্য উপকারী: কিডনি ভালো রাখতে খাবারের দিকে নজর রাখা জরুরি। লিচুতে পর্যাপ্ত পানি এবং পটাসিয়াম থাকার কারণে তা কিডনিতে জমে থাকা দূষিত পদার্থ বের করে দিতে সাহায্য করে। এই ফল ইউরিক অ্যাসিডের ঘনত্বও কমায়। যে কারণে কমে কিডনির ক্ষতির ঝুঁকি।

ভিটামিন বি সমৃদ্ধ: লিচুতে পাওয়া যায় ভিটামিন সি, কে, ই এবং বি৬। এতে আছে রাইবোফ্লাভিন এবং নিয়াসিনও। গ্রীষ্মে আপনি নিয়মিত লিচু খেলে প্রতিদিনের প্রয়োজনীয় ভিটামিন বি৬ এর দশ শতাংশ পাওয়া যায়। এই ভিটামিন সাহায্য করে লোহিত রক্তকণিকা তৈরিতে। সেইসঙ্গে আপনাকে রক্ষা করে প্রদাহজনিত রোগ থেকে।

ব্যথা দূর করে: শরীরের বিভিন্ন ধরনের ব্যথা দূর করতে কাজ করে লিচু। শুনতে অবাক করা হলেও এটি সত্যি। লিচু একটি কার্যকরী ব্যথানাশক হিসেবে কাজ করে। এটি খেলে কমে প্রদাহ। সেইসঙ্গে এটি টিস্যুর ক্ষতি প্রতিরোধ করে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়: রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে কাজ করে সুমিষ্ট ফল লিচু। এর অলিগোনল ভাইরাসকে বাড়তে বাধা দেয়। তাই গরমের এই সময়ে নিয়মিত লিচু খেলে বাঁচতে পারবেন সর্দি ও সাধারণ ফ্লু থেকে।

ওজন কমাতে সাহায্য করে: যারা ওজন কমাতে চান তাদের জন্য কার্যকরী একটি খাবার হতে পারে লিচু। এতে ক্যালোরি থাকে খুব কম। যে কারণে ওজন বাড়ার ভয় থাকে না। আঁশযুক্ত হওয়ার কারণে লিচু খেলে তা দীর্ঘ সময় পেট ভরিয়ে রাখে। নিয়মিত লিচু খেলে হজমশক্তি উন্নত হয়।

হার্ট ভালো রাখে: হার্ট ভালো রাখার পক্ষে সহায়ক একটি ফল হলো লিচু। এতে থাকে অলিগোনল, যা নাইট্রিক অক্সাইড তৈরি করতে সাহায্য করে। আমাদের শরীরে রক্ত চলাচলে সাহায্য করে এই নাইট্রিক অক্সাইড। এতে থাকা ফ্ল্যাভোনয়েড ভাসকুলার ফাংশন উন্নত করে। ফলে হৃদরোগ প্রতিরোধ করা সহজ হয়। গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত লিচু খেলে হার্টের অসুখের ঝুঁকি কমে প্রায় পঞ্চাশ শতাংশ।

নিউজ ট্যাগ: লিচু

আরও খবর



আজকের রাশিফল ০৬ মে ২০২২

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | ৪৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

৬ মে ২০২২ শুক্রবার, চাঁদ আজ মিথুন রাশিতে গমন করছে। চন্দ্রের এই গমনের কারণে মিথুন ও কর্কট রাশির জাতকদের জন্য আজকের দিনটি শুভ হবে। মেষ রাশির জাতক জাতিকারা কর্মক্ষেত্রে প্রশংসা পাবেন। অন্য সব রাশির জাতক-জাতিকার দিনটি কেমন যাবে, দেখুন আপনার ভাগ্যের নক্ষত্ররা কী বলে।

মেষ রাশি:

আজ মেষ রাশির জাতকদের পারিবারিক জীবন উত্থান-পতনে পূর্ণ হবে। আপনার কঠোর পরিশ্রম এবং বোঝাপড়া আপনাকে জীবনকে সুখী করতে সাহায্য করবে। কর্মক্ষেত্রে আপনার কাজের প্রশংসা করা হবে। আপনার কর্মক্ষেত্রে বড় পরিবর্তন হতে পারে। পরিবারের পক্ষ থেকে আপনি চিন্তামুক্ত থাকবেন। আজকের শুরুটা ভালো হতে চলেছে। বন্ধু বা পরিবারের সঙ্গে আপনার একটি ভালো ভ্রমণ হবে।

বৃষ রাশি:

আজকের দিনটি বৃষ রাশির জাতকদের জন্য পূর্ণ চটপটে থাকবে। কঠোর পরিশ্রমের ফল আজ অবশ্যই পাওয়া যাবে। কোনও বিশেষ ব্যক্তির সঙ্গে সাক্ষাৎ স্মরণীয় হয়ে থাকবে। কোনও বিবাহ অনুষ্ঠান বা মাঙ্গলিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবেন। মনের মধ্যে সুখ থাকবে। এই দিনে, আপনি আপনার গুরুজন এবং ভদ্রলোকদের সম্মান করার ক্ষেত্রে এগিয়ে থাকবেন। প্রেমের সম্পর্কের ক্ষেত্রে সাফল্য আসবে।

মিথুন রাশি:

মিথুন রাশির জাতকরা আজ কর্মক্ষেত্রে সাফল্য পাবেন। একটি নতুন ব্যবসা শুরু করার আইডিয়া মনে আসতে পারে বা এটি একটি বাস্তব রূপ নিতে পারে। আজ ভাগ্য আপনার সহায় হবে। পারিবারিক সুখ ভালো হতে চলেছে, আজ আপনি সুখী হবেন এবং এই দিনটি হাসি-আনন্দে কাটাবেন। আজ আপনি ভালো লোকেদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করবেন, যারা আপনাকে কাজে সাফল্য পেতে সহায়তা করবে এবং গাইড করবে।

কর্কট রাশি:

কর্কট রাশির জাতকদের মন আজ খুশি থাকবে। পরিবারের সঙ্গে ভালো সময় কাটবে, ভ্রমণ উপভোগ করবেন ইত্যাদি। ব্যবসায় ভালো লাভ হবে। আজকের দিনটি আপনার জন্য একটি ভালো শুরু হতে চলেছে। পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে সুখ এবং সমর্থন পাবেন। আপনি যে কাজটি আপনার হাতে নেবেন তাতে আপনি সফল হবেন।

সিংহ রাশি:

সিংহ রাশির জাতকদের ভাগ্য আজ তাঁদের সঙ্গে আছে। আজ কর্মক্ষেত্রে আপনার কর্মক্ষমতা ভালো হতে চলেছে। আপনার কথা বলার সুন্দর ধরণ আপনাকে যে কোনও ক্ষেত্রে সাফল্যের শিখরে নিয়ে যেতে সহায়ক হবে। কাজে সফলতা পাবেন। আপনি আজ একটি নতুন কাজ পেতে পারেন। এছাড়াও আজ আপনার মানসিক অলসতা শেষ হবে এবং আপনি চারদিক থেকে সুসংবাদ পাবেন।

কন্যা রাশি:

কন্যা রাশির জাতকদের মন আজ উৎসাহে পরিপূর্ণ দেখাবে, ভাগ্য আপনার সঙ্গে আছে, কাজে উৎসাহ থাকবে। শিক্ষার্থীরা প্রতিযোগিতার ক্ষেত্রে সাফল্য পাবে। আপনি আপনার ইচ্ছা অনুযায়ী আপনার কাজের পরিকল্পনা সম্পূর্ণ করবেন। পারিবারিক সুখ ভালো থাকবে। আপনি আজ আপনার বন্ধু বা পরিচিতের সঙ্গে দেখা করবেন, যার কারণে আপনার মুখে খুশি প্রতিফলিত হবে।

তুলা রাশি:

তুলা রাশির জাতক জাতিকারা সারাদিন সতেজ থাকবেন, সেই সঙ্গে আপনি আপনার কাজে সাফল্য পাবেন। ব্যবসায় অর্থ উপার্জনেরও পূর্ণ সম্ভাবনা রয়েছে। পারিবারিক কলহের অবসান হবে। আজ আপনি আপনার শত্রুদের আপনার উপর কর্তৃত্ব করতে দেবেন না, তবে আপনি তাদের পরাজিত করতে সফল হবেন। আপনি অবশ্যই পরিবারের সমর্থন পাবেন, তাই সাহস হারাবেন না এবং সামনে কঠিন পরিস্থিতির মুখোমুখি হোন। আজ ভাগ্য আপনার সঙ্গে যাচ্ছে।

বৃশ্চিক রাশি:

বৃশ্চিক রাশির জাতকদের ভাগ্য আপনার সঙ্গে আছে, আপনি শুভ কাজে অংশ নেবেন। আপনার কথাবার্তা মিষ্টি হবে, যার কারণে আপনি অন্যকে আপনার দিকে আকৃষ্ট করবেন। আপনি আপনার চতুরতা এবং বুদ্ধিমত্তা দিয়ে আপনার কাজ সফল করবেন। কর্মক্ষেত্রে ভালো আর্থিক লাভ হবে। এছাড়াও আপনি টাকা সংরক্ষণ করতে পারেন। কর্মক্ষেত্রে প্রত্যাশিত সাফল্য অর্জিত হবে।

ধনু রাশি:

ধনু রাশির জাতক জাতিকারা এই দিনে মাঠে আসা সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। আপনার সমস্ত কাজ সফল হবে। আজ ব্যবসায় উন্নতির সম্ভাবনা রয়েছে এবং স্বাস্থ্য সাধারণত ভাল থাকবে। অনেকদিন পর কারো সঙ্গে দেখা করার সুযোগ পাবেন। আজ আপনি কিছু নতুন কাজ শুরু করতে পারেন, এটি আপনার জন্য উপকারী হবে। আপনার পরামর্শ অন্যদের জন্য দরকারী হবে। আপনি বিনোদনের মাধ্যমগুলিতে আগ্রহী হবেন।

মকর রাশি:

আজকের দিনটি মকর রাশির জাতকদের জন্য খুব একটা ভালো যাবে না, তাদের একটি সংঘাতময় পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে। এমন সময়ে আপনি অবশ্যই পরিবারের সমর্থন পাবেন, তাই সাহস হারাবেন না এবং দৃঢ় থাকুন। আসন্ন কঠিন পরিস্থিতির মোকাবিলা করুন আজ কর্মক্ষেত্রে আপনার কর্মক্ষমতা ভালো হতে চলেছে। কর্মক্ষেত্রে আজকের দিনটি উপকারী প্রমাণিত হবে।

কুম্ভ রাশি:

কুম্ভ রাশির জাতক জাতিকার দিনের শুরুটা ভালো যাচ্ছে। কাজ বা পারিবারিক সুখের জন্য আজকের দিনটি ভালো যাচ্ছে। আজ আপনি ভালো লোকেদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করবেন, যারা আপনাকে কাজে সাফল্য পেতে সহায়তা করবেন এবং গাইড করবেন। আজ ব্যবসায়ী শ্রেণী বিশেষ ভাবে ভালো ফল পাবেন, যার কারণে অর্থ ও লাভের যোগ হবে।

মীন রাশি:

মীন রাশির জাতকদের জন্য আজকের দিনটি স্মরণীয় হবে। মিষ্টি কথাবার্তা এবং আপনার চতুরতার সাহায্যে আপনি কাজে সাফল্য পাবেন। আজ আপনি আপনার চতুরতার প্রমাণ দিয়ে কাজে সফল হবেন। যারা ভালো কাজ করছেন তারাও সিনিয়রদের দ্বারা প্রশংসিত হবেন। পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে সম্ভাব্য সব ধরনের সহযোগিতা পাওয়া যাবে।


আরও খবর



মেক্সিকোয় দুই সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত:বুধবার ১১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১১ মে ২০২২ | ৩৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মেক্সিকোর পূর্বাঞ্চলের ভেরাক্রুজ প্রদেশে দুই সাংবাদিককে গুলি করে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। দেশটির অ্যাটর্নি জেনারেলের পক্ষ থেকে এ তথ্য জানানো হয়। খবর রয়টার্সের। গত সোমবার অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা গাড়িতে বসে থাকা ইয়েসিনা মোলিনেডো ও সেইলা গার্সিয়া নামের দুই সাংবাদিককে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। এতে সেখানে দুই সাংবাদিকে মৃত্যু হয়।

মেক্সিকোতে সংবাদকর্মীদের হত্যার সবচেয়ে ভয়াবহ বছর এটি। বেসরকারি সংগঠন আর্টিকেল ১৯এর তথ্য অনুযায়ী, দেশটির প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওব্রাদরের শাসনামলে গণমাধ্যমকর্মীদের ওপর সহিংসতা বেড়েছে।

মেক্সিকোর সিনালোয়ো প্রদেশের একটি রাস্তার পাশ থেকে প্রখ্যাত সাংবাদিক লুইস এনরিক রামিরেজের লাশ উদ্ধারের চার দিনের মাথায় দুজন সাংবাদিককে গুলি করে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। উল্লেখ্য, লুইস এনরিকের লাশ উদ্ধারের আগে দেশটিতে এ বছরেই আট সাংবাদিককে হত্যার ঘটনা ঘটেছিল।


আরও খবর