আজঃ সোমবার ২৩ মে ২০২২
শিরোনাম

করোনায় টানা ২১ দিন মৃত্যুশূন্য

প্রকাশিত:বুধবার ১১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১১ মে ২০২২ | ২৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে টানা ২১ দিনে কারও মৃত্যু নেই। সর্বশেষ গত ২০ এপ্রিল দেশে করোনা আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়েছিল। এই সময়ে শনাক্ত কমলেও গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের পরিমাণ বেড়েছে। এতে এবারের ঈদে মানুষের মধ্যে দেখা গিয়েছে স্বস্তি। আজ বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনা বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, শেষ ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৩৩ জন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তির তথ্য বলছে, দেশে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা এখন পর্যন্ত ২৯ হাজার ১২৭। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ৩৩ জনকে নিয়ে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৯ লাখ ৫২ হাজার ৮৮৮ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ২৪৯ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৮ লাখ ৯৮ হাজার ৩১২ জন।

সারা দেশে সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৮৭৯টি ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ছয় হাজার ১৮২টি এবং মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ছয় হাজার ২১৭টি। এ পর্যন্ত নমুনা করা পরীক্ষা হয়েছে এক কোটি ৪০ লাখ ৩১ হাজার ২৩২টি।

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার শূন্য দশমিক ৫৩ শতাংশ। এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৯২ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৭ দশমিক ২১ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৪৯ শতাংশ।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম তিনজন করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়।

 

 

 


আরও খবর



আত্মসমর্পণের পর কারাগারে হাজী সেলিম

প্রকাশিত:রবিবার ২২ মে 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২২ মে 20২২ | ১৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দুর্নীতির মামলায় হাইকোর্টের রায়ে ১০ বছরের কারাদণ্ড বহাল থাকায় উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুসরণ করে আত্মসমর্পণের পর কারাগারে পাঠানো হয়েছে আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য (এমপি) হাজী মোহাম্মদ সেলিমকে।

রোববার (২২ মে) শুনানি শেষে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৭ এর বিচারক শহিদুল ইসলাম তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এদিন আদালতে আত্মসমর্পণ করে যে কোনো শর্তে জামিনের আবেদন করেন হাজী মোহাম্মদ সেলিম।

আবেদনে হাজী সেলিমের আইনজীবী শ্রী প্রাণ নাথ উল্লেখ করেন, ২০১৬ সালে ওপেন হার্ট সার্জারির সময় মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হওয়ার কারণে দীর্ঘদিন যাবত বাক-শক্তিহীন অবস্থায় রয়েছেন হাজী সেলিম। তিনি দেশ ও বিদেশে চিকিৎসা নিয়েছেন। জেলে থাকলে চিকিৎসার অভাবে ও বাক-শক্তি না থাকায় যে কোনো দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এ কারণে যে কোনো শর্তে তার জামিন আবেদন করছি। জামিন পেলে তিনি পলাতক হবেন না। তাই আপিল শর্তে আত্মসমর্পণ পূর্বক তার জামিন আবেদন করছি।

গত ২৫ এপ্রিল দুপুর ৩টার দিকে ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৭ এর বিচারক শহিদুল ইসলামের আদালতে হাইকোর্ট থেকে মামলার নথি এসে পৌঁছায়। এদিন হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখা থেকে রায়ের নথি পাঠানো হয়।

সেদিন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান বলেন, আইন অনুযায়ী আজ থেকে আগামী ৩০ দিনের মধ্যে হাজী সেলিমকে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করতে হবে। আর হাইকোর্টের রায়ের ফলে তার সংসদ সদস্য পদে থাকার যোগ্যতা নেই।

এর আগে হাজী সেলিমকে বিচারিক (নিম্ন) আদালতে দেওয়া ১০ বছরের কারাদণ্ড ও ১০ লাখ টাকা জরিমানার রায় বহাল রাখেন হাইকোর্ট।

২০২১ সালের ৯ মার্চ বিচারপতি মো. মঈনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই রায় দেন। এরপর চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে প্রকাশ পায় রায়।

এছাড়া জরিমানার টাকা অনাদায়ে হাজী সেলিমকে আদালত আরও এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন এবং রায় পাওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে তাকে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়। আত্মসমর্পণ না করলে জামিন বাতিল করে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির নির্দেশ দেন। এছাড়া জব্দ করা হাজী সেলিমের সম্পত্তি রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত করতে বলা হয়।

জরুরি অবস্থার সময় ২০০৭ সালের ২৪ অক্টোবর হাজী সেলিমের বিরুদ্ধে লালবাগ থানায় অবৈধভাবে সম্পদ অর্জন ও সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে মামলা করে দুদক। এরপর ২০০৮ সালের ২৭ এপ্রিল হাজী সেলিমকে ১৩ বছরের কারাদণ্ড দেন বিচারিক আদালত।

পরে ২০০৯ সালের ২৫ অক্টোবর হাজী সেলিম এই রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আপিল করেন। ২০১১ সালের ২ জানুয়ারি হাইকোর্ট ১৩ বছরের সাজা বাতিল করে রায় দেন।

এরপর হাইকোর্টের ওই রায়ের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আদালতে আপিল করে দুদক। শুনানি শেষে ২০১৫ সালের ১২ জানুয়ারি হাইকোর্টের ওই রায় বাতিল করেন আপিল বিভাগ। সেই সঙ্গে হাজী সেলিমের আপিল পুনরায় হাইকোর্টে শুনানির নির্দেশ দেওয়া হয়।

এরপর শুনানি শেষে চূড়ান্ত রায় দেন হাইকোর্ট। সেখানে বিচারিক আদালতের দেওয়া ১৩ বছরের কারাদণ্ড কমিয়ে ১০ বছর বহাল থাকে।


আরও খবর



প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে মুশফিকের ৫ হাজার রান

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | ২৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে ব্যাট হাতে এক অনন্য রেকর্ড গড়লেন বাংলাদেশের উইকেটকিপার ব্যাটার মুশফিকুর রহিম। প্রথম বাংলাদেশি ব্যাটার হিসেবে পাঁচ হাজারি ক্লাব প্রবেশ করলেন ডানহাতি এই তারকা ব্যাটার।

এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত চট্টগ্রাম টেস্টে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৩ ‍উইকেটে ৩৬৭ রান। মুশফিক ৭৫ আর লিটন দাস ৮১ রানে অপরাজিত আছেন।

ব্যাটে নামার আগে আন্তর্জাতিক টেস্ট ক্রিকেটে মুশফিকের রান ছিল ৪৯৩২। ফলে পাঁচ হাজার রান পূরণ করতে দরকার ছিল আরও ৬৮ রান। তৃতীয় দিনে ব্যাট করতে নেমে ব্যক্তিগত অর্ধশতকের দেখা পেলেও পাঁচ হাজারি ক্লাবে প্রবেশ করতে পারেননি এই অভিজ্ঞ টাইগার ব্যাটার। দিনশেষে অপরাজিত ছিলেন ৫৩ রানে।

চতুর্থ দিনের খেলায় ব্যাট করতে নামেন আগের দিনের দুই অপরাজিত ব্যাটার লিটন কুমার দাস ও মুশফিকুর রহিম। দিনের শুরু থেকেই দেখে-শুনে ব্যাট করতে থাকেন মুশি। একসময় পৌঁছে যান ৬৭ রানে। ফলে পাঁচ হাজার পূর্ণ হতে তখন দরকার মাত্র ১ রানের।

ইনিংসের ১২৩তম ওভারে লঙ্কান পেসার অসিথা ফার্নান্দোর বলে উইকেটের পিছনে খেলে দৌড়ে ২ রান নিয়ে এই মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলেন মুশফিক। তার এই অর্জনে সতীর্থ, টিম ম্যানেজমেন্টের সদস্যরা করতালি দিয়ে সাধুবাদ জানিয়েছেন ড্রেসিংরুম থেকে। এই অর্জনে তার সময় লেগেছে ১৪৯ ইনিংস।


আরও খবর



বাগমারায় ব্যবসায়ীর গুদামে মিলল ২০ হাজার লিটার তেল

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | ৪৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার এক গুদাম থেকে ২০ হাজার ৪০০ লিটার ভোজ্যতেল জব্দ করেছে পুলিশ। জেলা পুলিশের একটি দল আজ সোমবার রাত ৮টার দিকে বাগমারার তাহেরপুর পৌর বাজারে অভিযান চালিয়ে এই তেল জব্দ করে।

জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অলক বিশ্বাস, সনাতন চক্রবর্তী, ইফতেখায়ের আলম ও বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাক আহমেদ অভিযানে অংশ নেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইফতেখায়ের আলম জানান, অসৎ উদ্দেশে গুদামে ভোজ্যতেল মজুত রাখার তথ্যের ভিত্তিতে এই অভিযান চালানো হয়েছে। এ সময় তাহেরপুর বাজারের শহিদুল ইসলাম ওরফে স্বপন নামের এক ব্যক্তির গুদামে ১০০ ব্যারেল তেল পাওয়া গেছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, প্রতিটি ব্যারেলে ২০৪ লিটার করে তেল আছে। মোট তেলের পরিমাণ ২০ হাজার ৪০০ লিটার। এর মধ্যে এক হাজার লিটারের মতো সরিষার তেল থাকতে পারে। বাকি সবটাই সয়াবিন তেল। কোন তেল কতটুকু জব্দ তালিকায় তা হিসাব করে দেখা হচ্ছে।

ইফতেখায়ের আলম বলেন, গুদামের মালিক শহিদুল ইসলামকে আটক করা হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে বিশেষ ক্ষমতা আইনে বাগমারা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হবে। শহিদুল ইসলাম তাহেরপুর পৌর এলাকার বাজারপাড়া মহল্লার বাসিন্দা।’


আরও খবর



বঙ্গবন্ধু সেতুতে একদিনে টোল আদায় ৩ কোটি ১৮ লাখ টাকা

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | ৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বঙ্গবন্ধু সেতু দিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪২ হাজার ১৯৯টি যানবাহন পারাপার হয়েছে। এতে টোল আদায় হয়েছে তিন কোটি ১৮ লাখ ৮ হাজার টাকা। শনিবার (৩০ এপ্রিল) সেতুটির নির্বাহী প্রকৌশলী আহসান মাসুদ বাপ্পী এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

জানা গেছে, শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) সকাল ৬টা থেকে শনিবার (৩০ এপ্রিল) ভোর ৬টা পর্যন্ত বাস, ট্রাক, পিকআপভ্যান, মিনি ট্রাকসহ বিভিন্ন যানবাহন ওই সেতু দিয়ে পারাপার হয়েছে। এর মধ্যে বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব টোলপ্লাজায় যানবাহন পারাপার হয়েছে ২৫ হাজার ৭৮১টি এবং টোল আদায় হয়েছে এক কোটি ৭৭ লাখ ২৯ হাজার ৫০ টাকা। এ ছাড়া সেতুর পশ্চিম টোলপ্লাজায় ১৬ হাজার ৪১৮টি এবং টোল আদায় হয়েছে এক কোটি ৪৭ লাখ ৮৯ হাজার ৫০ টাকা।

এদিকে, ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কে গাড়ির চাপ ধীরে ধীরে বাড়ছে। সেতুর পূর্ব ও পশ্চিম পাড়ে টোলপ্লাজার উভয় পাশে ১৮টি পয়েন্টে টোল আদায় করা হচ্ছে। সড়কে যাতে যানজটের সৃষ্টি না হয় সে লক্ষ্যে এ ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে সেতু কর্তৃপক্ষ।

এলেঙ্গা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ আতাউর রহমান বলেন, মহাসড়কে যানজট নেই। স্বাভাবিক গতিতেই যানবাহন চলাচল করছে। প্রসঙ্গত, বঙ্গবন্ধু সেতু চালু হওয়ার পর গত ঈদে সর্বোচ্চ ৫২ হাজার ৭৬৮টি যানবাহন পারাপার হয়। যা এ যাবৎকালে সর্বোচ্চ যানবাহন পারাপারের রেকর্ড।


আরও খবর



আজ বিশ্ব উচ্চ রক্তচাপ দিবস

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | ৩১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিশ্ব উচ্চ রক্তচাপ দিবস আজ (১৭ মে)। দিবসটিকে ঘিরে এবারের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে সঠিকভাবে রক্তচাপ মাপুন, নিয়ন্ত্রণে রাখুন এবং দীর্ঘজীবী হোন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নন-কমিউনিকেবল ডিজিজ কন্ট্রোল প্রোগ্রামের (এনসিডিসি) তথ্যমতে, অসংক্রামক রোগে বিশ্বে ৭১ শতাংশ এবং বাংলাদেশে ৬৭ শতাংশ মানুষের মৃত্যু হয়। এছাড়া দেশে প্রতি পাঁচ জনে একজন উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন। এ অবস্থায় উচ্চ রক্তচাপ প্রতিরোধে সবাইকে খাদ্যাভ্যাসের পরিবর্তনের পাশাপাশি সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এনসিডি কান্ট্রি প্রোফাইল ২০১৮ অনুসারে, বাংলাদেশে প্রতি বছর মোট মৃত্যুর ৬৭ শতাংশের পেছনে দায়ী নানা অসংক্রামক রোগ। দিন দিন এসব রোগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলেছে। বাংলাদেশে বর্তমানে উচ্চ রক্তচাপ খুব সাধারণ রোগ হিসেবে দেখা দিয়েছে।

এনসিডি রিস্ক ফ্যাক্টর সার্ভে (স্টেপস ২০১৮) অনুসারে, দেশে প্রতি পাঁচ জন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের মধ্যে একজন (২১%) উচ্চ রক্তচাপে (সিস্টোলিক ব্লাড প্রেশার ১৪০ মিমি মার্কারি) আক্রান্ত। এর বাইরে এখনো বিপুল সংখ্যক মানুষ তাদের রক্তচাপ জানেন না। হৃদরোগ, স্ট্রোক, কিডনি রোগ, পক্ষাঘাত, অন্ধত্বসহ নানাবিধ জটিল অসুখের জন্য উচ্চ রক্তচাপ একটি মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ উপাদান।


আরও খবর