আজঃ সোমবার ২৩ মে ২০২২
শিরোনাম

কুয়াকাটায় ভাইকে গাছের সাথে বেঁধে ৬ বছরের বোনকে ধর্ষণ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | ৮৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কুয়াকাটায় ছয় বছরের এক শিশু কন্যাকে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে ওই শিশুর মা মহিপুর থানায় অভিযুক্ত হাছান শরীফকে (১৬) প্রধান আসামি করে চার জনের নামে মামলাটি দায়ের করেন। এ ঘটনায় পুলিশ এখনও কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। অভিযুক্ত হাছান কুয়াকাটা পৌর এলাকার ইব্রাহিম শরীফের ছেলে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

স্থানীয় ও মামলা সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকালে চার টার দিকে পশ্চিম কুয়াকাটা এলাকার ওই শিশু তার বড় ভাইয়ের (৯) সাথে পার্শ্ববর্তী একটি মাছের ঘেরে যায়। এ সময় হাছান ওই শিশুর ভাইকে আম গাছের সঙ্গে রশি দিয়ে বেঁধে রেখে। পরে পাশের ঝোপের মধ্যে নিয়ে ওই শিশুকে ধর্ষণ করে। এতে ওই শিশুর প্রচুর রক্তক্ষরণ হলে তাকে কলাপাড়া হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য পটুয়াখালী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

মহিপুর থানার ওসি আবুল খায়ের জানান, বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।


আরও খবর



পূর্ণিমার প্রভাবে বরিশালের ৫ নদীর পানি বিপদসীমার উপরে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | ৩৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বরিশাল বিভাগের ৫‌টি নদীর পানি বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বুদ্ধ পূর্ণিমার প্রভাব ও চন্দ্রগ্রহণের কারণে নদীর পানি বৃদ্ধি পে‌য়ে তা বিপদসীমার উপর দি‌য়ে প্রবা‌হিত হ‌চ্ছে।

বরিশাল পানি উন্নয়ন বোর্ডের সার্ভেয়ার আহসান আলম জানান, ভোলা খেয়াঘাট এলাকার তেঁতুলিয়া নদীর পানি বিপদসীমার ৫ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে, দৌলতখান উপজেলার সুরমা ও মেঘনা নদীর পানি তিন সেন্টিমিটার উপর দিয়ে, তজুমদ্দিন উপজেলার সুরমা ও মেঘনা নদীর পানি ৪১ সেন্টিমিটার, বরগুনা জেলার বিশখালী নদীর পানি ৭ সেন্টিমিটার ও পাথরঘাটা উপজেলার বিষখালী নদীর পানি ৬ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

পানি বিপদসীমার নিচে নেমে গেলে এইসব এলাকায় নদী ভাঙনের দেখা দিবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

বর্ষা মৌসুমে বিভাগের মোট ২৩টি নদীর পানি প্রবাহ পর্যবেক্ষণ করা হয়। তবে বর্তমানে গুরুত্বপূর্ণ ৯টি নদীর পানি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।এদিকে নদীর পা‌নি বিপদসীমা অতিক্রম করায় অনেক নিম্নাঞ্চ‌লে‌র মানুষ পা‌নিব‌ন্দি হ‌য়ে পড়ার খবর পাওয়া গে‌ছে।


আরও খবর



বিদ্যানন্দের কিশোরকে রানী এলিজাবেথের সম্মাননা

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | ৩৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান কিশোর কুমার দাসকে ব্রিটেনের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ সম্মানিত করেছেন। তাকে কমনওয়েলথ পয়েন্টস অব লাইট পুরস্কারের জন্য বেছে নেওয়া হয়েছে। শনিবার ( ২৩ এপ্রিল) ঢাকাস্থ ব্রিটিশ হাই কমিশন এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছে।

স্বীকৃতি পাওয়ার কিশোর বলেন, তিনি সম্মানিত বোধ করেন এবং এই পুরস্কারটি প্রমাণ করে যে বিশ্ব স্বেচ্ছাসেবকদের কাজ থেকে উপকৃত হচ্ছে। আমি বিশ্বাস করি বিদ্যানন্দর এই মর্যাদাপূর্ণ স্বীকৃতি অন্যান্য বিভিন্ন দাতব্য সংস্থাকে আরও মানবিক এবং উপকারী ভিত্তিক হতে অনুপ্রাণিত করবে।

বাংলাদেশে ভারপ্রাপ্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার জাভেদ প্যাটেল বলেন, তাদের অসামান্য প্রচেষ্টা বাংলাদেশ এবং সারা বিশ্বের তরুণদের স্বেচ্ছাসেবকতা এবং সহানুভূতির চেতনার দিকে চালিত করে চলেছে।

বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেন কিশোর কুমার দাশ। ২০১৩ সালের ২২ নভেম্বর বিদ্যানন্দের নারায়ণগঞ্জ শাখা চালু করার মাধ্যমে এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়।

বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন সুবিধা বঞ্চিত শিশু, অসহায়দের জন্য বেশ কিছু কাজ করে। করোনাকালে সাধারণ মানুষের মাঝে মাস্ক বিতরণ এবং হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিভিন্ন মসজিদ, হাসপাতাল এবং চিকিৎসকদের মাঝে বিতরণ করেছে। পাবলিক ট্রান্সপোর্টে জীবাণুনাশক ছিটানোর কাজ করেছে।

বিদ্যানন্দের অন্যান্য মহৎ মানবিক কাজের মধ্যে রয়েছে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন এক টাকায় শিক্ষা, এক টাকায় আহার, এক টাকায় চিকিৎসা। এক টাকায় আইন সেবা নামক প্রজেক্টের মাধ্যমে সুবিধা বঞ্চিত মানুষের জন্য আইন সেবা সহজলভ্য করেছে। এই প্রজেক্টের মাধ্যমে তারা মাত্র এক টাকার বিনিময়ে অভিজ্ঞ আইনজীবীর মাধ্যমে আইন সেবা পেয়ে থাকে গরীব ও অসহায় কিন্তু মেধাবী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য শিক্ষাবৃত্তির ব্যবস্থা করে থাকে।

২০১৫ সালে ১০২ জন শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদানের মাধ্যমে প্রজেক্টটি শুরু করা হয়। বৃত্তিপ্রাপ্ত ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে পুরস্কার হিসাবে ক্রেস্ট, সার্টিফিকেট, নগদ অর্থ ও শিক্ষা সামগ্রী বিতরণ করা হয়।

বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের বিভিন্ন শাখায় বিনামূল্যে গ্রন্থাগার সুবিধা রয়েছে। এসব গ্রন্থাগারে ৮ হাজারের অধিক বইয়ের সংগ্রহ আছে। এই গ্রন্থাগারগুলো সকাল-সন্ধ্যা খোলা থাকে এবং যে কেউ সেখানে গিয়ে বিনামূল্যে বই পড়তে পারেন।

২০২০ সালে ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের পোস্টার ও ব্যানার দিয়ে অসহায় সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য খাতা এবং ব্যাগ তৈরি করে। রমজানে ইফতার ও সেহরী বিতরণ, ঈদ ও পূজায় জামা কাপড় বিতরণ। বিভিন্ন দুর্যোগকালীন সময় প্রান্তীক পর্যায়ে সহযোগীতাও করে থাকে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশন।


আরও খবর



দুর্ঘটনা নয়, গুলিতে বেশি মারা যাচ্ছে মার্কিন শিশুরা

প্রকাশিত:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২৪ এপ্রিল ২০২২ | ৪৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রে শিশু ও কিশোরীদের মৃত্যুর প্রধান কারণ হয়ে উঠেছে আগ্নেয়াস্ত্র। এ নিয়ে ২০২০ সালে প্রথমবারের মতো মৃত্যুর শীর্ষ কারণ হিসেবে গোলাগুলি গাড়ি দুর্ঘটনাকে ছাড়িয়ে গেছে। নতুন একটি গবেষণায় এ তথ্য উঠে এসেছে। খবর বিবিসি।

ইউএস সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) থেকে পাওয়া তথ্য অনুসারে, ২০২০ সালে ৪ হাজার ৩০০ জনেরও বেশি তরুণ আগ্নেয়াস্ত্র-সংক্রান্ত আঘাতে মারা গেছে। যদিও আত্মহত্যা এ সংখ্যা বাড়িয়ে তুলতে অবদান রেখেছে। তবে বন্দুক-সংক্রান্ত মৃত্যুর ঘটনাগুলোর মধ্যে সংখ্যাগরিষ্ঠ হলো হত্যাকাণ্ড। যুক্তরাষ্ট্রের বেসামরিক নাগরিকদের মালিকানায় ৩৯ কোটিরও বেশি আগ্নেয়াস্ত্র রয়েছে।

সম্প্রতি নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল মেডিসিনে প্রকাশিত গবেষণা অনুসারে, ১ থেকে ১৯ বছর বয়সী মার্কিন নাগরিকদের মধ্যে বন্দুক-সংক্রান্ত মৃত্যু দেশব্যাপী মোট আগ্নেয়াস্ত্র হত্যার ৩৩ দশমিক ৪ শতাংশ ছিল। উল্লিখিত সময়ে আগ্নেয়াস্ত্র-সংক্রান্ত আত্মহত্যার হার ১ দশমিক ১ শতাংশ বেড়েছে। এ সময়ে শিশু ও কিশোর-কিশোরীদের মধ্যে আত্মহত্যা, খুন, অনিচ্ছাকৃত, অনির্ধারিত হত্যাসহ সামগ্রিক বন্দুক-সংক্রান্ত মৃত্যুহার ২৯ দশমিক ৫ শতাংশে উন্নীত হয়েছে। এ হার পুরো জনসংখ্যার বন্দুক-সংক্রান্ত মৃত্যুর দ্বিগুণেরও বেশি।

গবেষণাপত্রটিতে বলা হয়েছে, আমরা আমাদের শিশু-কিশোরদের মৃত্যুর প্রতিরোধযোগ্য কারণ থেকে রক্ষা করতে ব্যর্থ হচ্ছি। ২০২০ সালে আগের বছরের তুলনায় প্রতি এক লাখ বাসিন্দার মধ্যে বন্দুকজনিত মৃত্যুর হার পুরুষ ও নারী এবং জতিগত গোষ্ঠীগুলোর মধ্যে বেড়েছে। কৃষ্ণাঙ্গদের মধ্যে এ হার সবচেয়ে বেশি বেড়েছে। বিগত বছরগুলোয় তরুণ মার্কিন নাগরিকদের মধ্যে মৃত্যুর প্রধান কারণ ছিল গাড়ি দুর্ঘটনা। দ্বিতীয় শীর্ষ কারণ ছিল বন্দুকজনিত মৃত্যু। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে গাড়ি দুর্ঘটনা-সংক্রান্ত মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। ২০২০ সালে ১৯ বছরের কম বয়সী প্রায় ৩ হাজার ৯০০ জন মার্কিন নাগরিক গাড়ি দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে।

২০২০ সালে অতিরিক্ত মাত্রায় মাদক ও বিষক্রিয়ার মৃত্যুর ঘটনা আগের বছরের তুলনায় ৮৩ দশমিক ৬ শতাংশ বেড়েছে। এটি এখন ১৯ বছরের কম বয়সীদের মৃত্যুর তৃতীয় প্রধান কারণ। চলতি মাসের শুরুতে প্রকাশিত পৃথক একটি গবেষণায় দেখা গেছে, ২০২০ সালে মাদকের মাত্রাতিরিক্ত ব্যবহারে ৯৫৪ জন যুবক মারা গিয়েছে। ২০১৯ সালে এ সংখ্যা ছিল ৪৯২। ২০২০ সালের প্রথম দিকে কভিড-১৯ মহামারী শুরুর পর থেকে যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক-সংক্রান্ত সহিংসতা বেড়েছে।

নিউজ ট্যাগ: যুক্তরাষ্ট্র

আরও খবর



কাল থেকে ৬ দিনের ছুটি: ফাঁকা হতে শুরু করেছে রাজধানী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | ৪৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পবিত্র ঈদুল ফিতরের আগে আজ শেষ কর্মদিবস। শুক্রবার থেকে শুরু হচ্ছে টানা ছয় দিনের ছুটি। শেষ কর্মদিবসে সচিবালয় প্রায় স্বাভাবিক। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিতি অন্যান্য দিনের মতোই।

চাঁদের ওপর নির্ভর করে আগামী ২ বা ৩ মে মুসলমানদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। এ উপলক্ষে নগরে বসবাসকারীরা গ্রামের বাড়ির উদ্দেশে রওনা হওয়ায় রাজধানী ফাঁকা হওয়া শুরু করেছে।

সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়, ভূমি মন্ত্রণালয়, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রণালয় এবং বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগ ঘুরে দেখা গেছে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিতি স্বাভাবিক।

কৃষি মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ওয়াহিদা আক্তার বলেন, আমাদের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেশিরভাগই ঢাকায় ঈদ করবেন। দুই-একজন ছাড়া মোটামুটি সবাই উপস্থিত আছেন। মন্ত্রী মহোদয় মিটিং করছেন। দুপুর ২টার দিকে আমাদের একটি সংবাদ সম্মেলনও আছে। স্বাভাবিকভাবেই আমাদের অফিস চলছে।

বেশিরভাগ কর্মকর্তা-কর্মচারী ছুটি শেষে আগামী ৫ মে অফিসে উপস্থিত থাকবেন। যাদের আগে থেকে ঐচ্ছিক ছুটির আবেদন করা আছে, তারা ৫ মে ছুটি কাটাবেন। তবে এমন কর্মকর্তা-কর্মচারীর সংখ্যা দুই-চারজনের বেশি নয়।

শেষ কর্মদিবস হওয়ায় অনেকে সহকর্মীদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছাবিনিময় করছেন। করোনাভাইরাস সংক্রমণ একেবারে দূর না হওয়ায় শুভেচ্ছাবিনিময়ের ক্ষেত্রে আগের মতো কোলাকুলি নেই।

সচিবালয়ে গাড়ি রাখার স্থানগুলো ছিল অন্যান্য দিনের মতোই পূর্ণ। অভ্যর্থনা কক্ষেও সচিবালয়ে প্রবেশের জন্য দর্শনার্থীদের আনাগোনা দেখা গেছে।

লিফটম্যানদের সচিবালয়ে যাতায়াতকারী বিভিন্ন ক্ষেত্রের কর্তাব্যক্তিদের কাছ থেকে ঈদের বখশিশ আদায়ে ব্যস্ত থাকতে দেখা গেছে। বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি সংস্থার পক্ষ থেকে সচিবালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ঈদের উপহার বিলি করতেও দেখা গেছে।

আগামী ২৯ ও ৩০ এপ্রিল (শুক্র ও শনিবার) সপ্তাহিক ছুটি। এর পর ১ মে হচ্ছে মে দিবসের ছুটি। এর পর ৩ মে (রমজান মাস ৩০ দিন ধরে) ঈদ ধরে ২, ৩ ও ৪ মে (সোম, মঙ্গল ও বুধবার) ঈদের ছুটি ধরেছে সরকার। সেই হিসাবে আগামী ৫ মে অফিস করতে হবে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের।

৫ মে কেউ ছুটি নিলে তিনি টানা ৯ দিনের ছুটি পেয়ে যাবেন। তাই সরকার ৫ মে (বৃহস্পতিবার) ছুটি ঘোষণা করে এ সুবিধাটা দেবে কিনা, সেই বিষয়টি আলোচিত হচ্ছিল। কিন্তু ৫ মে ছুটি দেওয়ার বিষয়টি নাকচ করে দিয়েছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়।a


আরও খবর



ইউক্রেনকে ৬৫০ কোটি ডলার দেবে বিশ্ব দাতারা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৫ মে ২০২২ | ৩৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আন্তর্জাতিক দাতারা ইউক্রেনকে ৬৫০ কোটি ডলার সাহায্য দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার পোল্যান্ডের রাজধানী ওয়ারস’তে তারা এই প্রতিশ্রুতি দেন।

পোল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মাতেয়ুজ মোরাউয়েকি বলেন, আমাদের সমর্থন ইউক্রেন প্রতি অব্যাহত আছে, আজ তা দেখা গেল। আমাদের মধ্যে কোন স্বার্থপর নেই।’পোল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী আরও জানিয়েছেন, প্রত্যেক দিন ইউক্রেনের ১২ হাজার টন মানবিক সহায়তা দরকার। তবে বর্তমানে আন্তর্জাতিকভাবে মাত্র ৩ হাজার টন দেওয়া হচ্ছে। আন্তর্জাতিক সাহায্য সংস্থার হিসেব বলছে, ইউক্রেনের ৪০ শতাংশ মানুষের মানবিক সহয়তা দরকার। 

২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া ইউক্রেনে সেনা অভিযান শুরু করার পর থেকে এ পর্যন্ত ইউক্রেন ১২শ’ কোটি ডলার মূল্যের অস্ত্র ও অর্থ সহায়তা পেয়েছে।


আরও খবর