আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

মাত্র ৫ মাসে আল কোরআনের হাফেজ হলেন ৯ বছর বয়সী সিয়াম

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৪ ডিসেম্বর ২০২১ | ৯৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মাত্র ৫ মাসে আল কোরআনের হাফেজ হলো ৯ বছরের এক শিশু। নাম তার সিয়াম। কুমিল্লা শহরের মোগরটুলি এলাকার আন-নূর তাহফিজ মাদরাসার হিফজ বিভাগ থেকে সে এ কীর্তি গড়েছে।  জেলার চান্দিনার লোনা গ্রামের বাসিন্দা হায়াতুল্লাহর বড় ছেলে সিয়াম।

সিয়ামের হিফজ বিভাগের শিক্ষক হাফেজ মাওলানা মাহদী হাসান জানান, সিয়াম দেশের বিস্ময় বালক। তার মেধা সাধারণের চাইতে অনেক বেশি। সিয়াম ৫ মাসে কোরানের ৩০ পারাই মুখস্ত করেছে বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, সিয়াম খুব চঞ্চল প্রকৃতির, যদি একমনে সময় কাজে লাগাত তাহলে তার পক্ষে আরো শিগগির হাফেজ হওয়া সম্ভব ছিল। ভালো হাফেজ হওয়ার পাশাপাশি সিয়াম ভবিষ্যতে বড় আলেম হয়ে দেশ ও জাতির সেবা করতে চায়। তিনি সিয়ামের জন্য দেশবাসীর নিকট দোয়া চেয়েছেন।

তিনি বলেন, সিয়ামের ঐকান্তিক ইচ্ছা, শিক্ষকদের সম্মিলিত প্রচেষ্টা এবং তার পরিবারের সহযোগিতায় আল্লাহ তাকে খুব শৈশবেই এই মহা পুরস্কারে ভূষিত করেছেন। এজন্য আমরা সবাই আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করছি।

নিউজ ট্যাগ: কুমিল্লা

আরও খবর



ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাস্টবিনে নবজাতকের মরদেহ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারী ২০২২ | ৩১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শেখ রাসেল টাওয়ারের বিপরীত পাশের ডাস্টবিন থেকে আনুমানিক একদিন বয়সী এক মেয়ে নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে মরদেহটি উদ্ধার করে শাহবাগ থানা পুলিশ। পরে মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে শাহবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সুদীপ কুমার বিশ্বাস গণমাধ্যমকে বলেন, সকালে পথচারীদের মাধ্যমে জানতে পারি ডাস্টবিনে একটি নবজাতকের মরদেহ পরে আছে। পরে ঘটনাস্থল থেকে ওই নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার করি।

তিনি বলেন, মৃত নবজাতকের শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। তবে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, অজ্ঞাত কোনো ব্যক্তি মৃত অবস্থায় তাকে ডাস্টবিনে ফেলে রেখে গেছে।


আরও খবর



ভারতে ২৭ রাজ্যে ছড়িয়ে পড়েছে ওমিক্রন

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | ২৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ভারতে বেড়েই চলেছে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন এক লাখ ৫৯ হাজার ৬৩২ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনে আক্রান্ত হয়েছেন তিন হাজার ৬২৩ জন। ইতোমধ্যে দেশের ২৭ রাজ্যে ছড়িয়ে পড়েছে এ ধরন।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মৃত্যু হয়েছে ৩২৭ জনের।

এ নিয়ে দেশটিতে মোট আক্রান্ত হলেন তিন কোটি ৫৫ লাখ ২৮ হাজারের বেশি মানুষ। মৃত্যু হয়েছে চার লাখ ৮৩ হাজার ৭৯০ জনের। বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন পাঁচ লাখ ৯০ হাজারের বেশি মানুষ।

দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪০ হাজারের বেশি মানুষ সুস্থ হয়েছেন। এ পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে সুস্থ হয়েছেন তিন কোটি ৪৪ লাখ ৫৩ হাজারের বেশি মানুষ।

এদিকে ভারতে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রনে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও প্রতিদিন বাড়ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তদের মধ্যে তিন হাজার ৬২৩ জন নতুন এ ধরনে আক্রান্ত হয়েছেন। মহারাষ্ট্রে মিলেছে সবচেয়ে বেশি রোগী। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৯ জন। এর পর রয়েছে দিল্লি। সেখানে আক্রান্ত হয়েছেন ৫১৩ জন।

তবে ইতিবাচক বিষয় হলো, ওমিক্রনে আক্রান্ত হাজারেরও বেশি মানুষ ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন বা তাদের স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

শনিবার দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছিল, গত ২৪ ঘণ্টায় ১ লাখ ৪১ হাজার ৯৮৬ জন করোনাক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয় ২৮৫ জনের। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ১ লাখ ১৭ হাজার ১০০ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছিল।


আরও খবর
হাসপাতালে ভর্তি মাহাথির মোহাম্মদ

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২




দেশে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুহার বাড়ছে

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | ৪৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্তের হার ২ শতাংশের নিচে ছিল। কখনও কখনও তা ছিল ১ শতাংশের কাছাকাছি। কিন্তু ২১ ডিসেম্বর থেকে ক্রমেই সংক্রমণের হার বেড়ে বর্তমানে দুই দশমিক ৭৮ পর্যন্ত বেড়েছে

দেশে বেড়েছে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুহার। গত এক সপ্তাহে আগের সপ্তাহের তুলনায় নতুন রোগী শনাক্ত বেড়েছে ৬০ শতাংশ এবং মৃত্যু ১৫০ শতাংশ।

রোববার (২ জানুয়ারি) দুপুরে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভার্চুয়াল বুলেটিনে এ কথা জানানো হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের লাইন ডিরেক্টর (অসংক্রামক রোগ নিয়ন্ত্রণ) অধ্যাপক ডা. মো. রোবেদ আমিন বলেন, গত এক সপ্তাহে এক লাখ ৩০ হাজার ৭৪৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়, যা আগের সপ্তাহের তুলনায় ২০ শতাংশ বেশি। এছাড়া গত এক সপ্তাহে নতুন করে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে দুই হাজার ৯২৪ জন। এর আগের সপ্তাহের তুলনায় শনাক্ত রোগী ৬০ শতাংশ বেড়েছে।

গত সপ্তাহের তুলনায় সর্বশেষ সপ্তাহে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১২ জন বেশি মারা গেছেন। অর্থাৎ মৃত্যুহার ১৫০ শতাংশ বেশি। ২৬ ডিসেম্বর করোনায় আক্রান্তের হার ছিল ২ শতাংশের কম। ৩১ ডিসেম্বর এ হার বেড়ে দুই দশমিক ৭৪ শতাংশ হয়েছে।

ডা. মো. রোবেদ আমিন বলেন, ২০ ডিসেম্বর পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্তের হার ২ শতাংশের নিচে ছিল। কখনও কখনও তা ছিল ১ শতাংশের কাছাকাছি। কিন্তু ২১ ডিসেম্বর থেকে ক্রমেই সংক্রমণের হার বেড়ে বর্তমানে দুই দশমিক ৭৮ পর্যন্ত বেড়েছে।

বলা যায়, বেশ কিছুদিন করোনা সংক্রমণ স্থিতিশীল থেকে তা আবার বাড়ছে। নভেম্বর মাসে শনাক্ত হওয়া করোনা রোগীর সংখ্যা ছিল ছয় হাজার ৭৪৫ জন। ডিসেম্বর মাসে তা নয় হাজার ২৫৫ জনে বেড়েছে।

করোনা প্রতিরোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। বিশেষ করে মাস্ক ব্যবহারের কোনো বিকল্প নেই বলে অভিমত অধ্যাপক ডা. মো. রোবেদ আমিনের।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর



১৬ জানুয়ারি থেকে ভার্চুয়ালি চলবে চেম্বার জজ আদালত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | ২৬০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে আগামী ১৬ জানুয়ারি থেকে সুপ্রিম কোর্ট আপিল বিভাগের চেম্বার জজ আদালত ভার্চুয়ালি পরিচালিত হবে। মামলার শুনানিকালে মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) চেম্বার জজ বিচারপতি ওবায়দুল হাসান তার আদালতে এ তথ্য জানিয়েছেন। এসময় আদালতে অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিনসহ অন্যান্য আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে করোনা সংক্রমণের শুরুর দিকে ভার্চুয়ালি সীমিত পরিসরে চলছিল সুপ্রিম কোর্টের বিচার কার্যক্রম। তবে ২০২১ সালের ১ ডিসেম্বর থেকে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের উভয় (আপিল ও হাইকোর্ট) বিভাগের বিচারিক কার্যক্রম শারীরিক উপস্থিতিতে চালু করে কোর্ট প্রশাসন।


আরও খবর
রিফাত হত্যা: খালাস চেয়ে মিন্নির জেল আপিল

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22




নতুন বছরে নতুন শপথ স্বস্তিকার

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বছরের শেষ দিনে একমাত্র মেয়ে অন্বেষাকে হৃদয়ছোঁয়া খোলা চিঠি লিখলেন স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়। এবং লিখতে বসে তিনি আবারও ব্যতিক্রমী। শুক্রবার ২০২১-এর সূর্য ডোবার আগে হয়তো তাঁর হাতে থাকবে পানপাত্র। এ ভাবেই তিনি আরও এক বার উদযাপন করবেন, গাইবেন জীবনের গান। সে কথা প্রকাশ্যে জানাতে কোনও দ্বিধা নেই বড় পর্দার মৃন্ময়ীর।

ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, বছরের শেষ দিন এ ভাবেই উদযাপন করতে হয়। আমিও সেটাই করব। অতএব, সবাইকে আগাম উল্লাস! স্বস্তিকার স্পষ্ট দাবি, জীবন নিয়ে তাঁর বড় কোনও আফশোস নেই। কারণ, তিনি যেমন হারিয়েছেন, তেমনই অনেক কিছু পেয়েওছেন। জীবন তাঁকে তাঁর মেয়ে অন্বেষাকে উপহার দিয়েছে। যার ভালবাসায় তিনি 'ভাল মা' না হয়ে থাকলেও সব পরিস্থিতিতে পাশে থাকার মতো ভাল সঙ্গী বটেই!

স্বস্তিকা কেন এমন ভাবনার কথা লেখেন? তিনি কি চর্চা ভালবাসেন?

১৩ ডিসেম্বর তাঁর ৪১। বারুইপুর রাজবাড়িতে অভিজিৎ শ্রী দাসের বিজয়ার পরে ছবির আউটডোর শ্যুটে। তখনই তিনি বলেছিলেন, বিতর্ক শব্দের বিরুদ্ধে খুব শিগগিরিই তিনি প্রতিবাদ জানাতে চলেছেন!

কোন প্রসঙ্গে এই কথার সূত্রপাত? নতুন পরিচালকের প্রথম ছবিতে কাজের কারণ হিসেবে স্বস্তিকা জানিয়েছিলেন, বাংলা ছবিতে কাজ অনেকটাই কমিয়ে দিয়েছেন। যা করছেন তা-ও অনেক বেছে। বিজয়ার পরের গল্প, পরিচালকের ব্যবহার, সহ-অভিনেতা হিসেবে মমতা শঙ্কর, দীপঙ্কর দে, বিদীপ্তা চক্রবর্তী, পদ্মনাভ দাশগুপ্ত এবং মীর আফসার আলি থাকায় তিনি রাজি হয়েছেন। তার পরেই জানান, ইদানীং তিনি আর মীর মানেই অকারণ বিতর্ক। এই বিশেষ শব্দে তাঁর যথেষ্ট আপত্তি। তিনিও বোঝেন না, তাঁর নামের পাশে কেন বারেবারে এই শব্দটি বসে। স্বস্তিকার মতে, স্পষ্ট কথা বললে, কটাক্ষ, ভুল কথার প্রতিবাদ জানালে বা প্রেম প্রকাশ্যে স্বীকার করলে কিংবা সম্পর্ক ভাঙলে যদি বিতর্ক জন্ম নেয়, তা হলে তিনি সে পথে হাঁটতে রাজি।

বর্ষশেষের মতোই সে দিনও তিনি একমাত্র মেয়ের সম্বন্ধে তাঁর অনুভূতি উজাড় করে দিয়েছিলেন। শাহরুখ খানের ছেলে আরিয়ান খান মাদক মামলায় জেরবার। তাঁর মেয়েও বড় হয়েছে। শহরের বাইরে একা থাকে। মায়ের মনে দুশ্চিন্তা ছায়া ফেলে? অভিনেত্রী নয়, মা স্বস্তিকার দারুণ আস্থা নিজের সন্তানের উপরে। জোর গলায় জানিয়েছিলেন, অন্বেষা সবটাই বোঝে। ফলে, ওকে নিয়ে এখনও তাঁর দুশ্চিন্তার কোনও কারণ ঘটেনি।

কথা প্রসঙ্গে উঠেছে তাঁর সমাজসেবা, পশুপ্রেমের কথাও। রাজনৈতিক মঞ্চ পেলে তাঁর এই কাজগুলো আরও বেশি করে প্রচারিত হবে। ভবিষ্যতে বাকি তারকাদের তো তিনিও কি রাজনীতিতে আসবেন? স্বস্তিকার উত্তর আরও এক বার চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে, তিনি কতটা আলাদা। তাঁর টানটান জবাব, বাবা বলেছিলেন, সবাই যখন যেটা করবে, তুমি সেটা করবে না। সবাই যখন সরে আসবে তুমি তখন পা বাড়াবে। আমি বাবার কথা অক্ষরে অক্ষরে মানি। তাই সব তারকারা যে দিন রাজনীতি ছাড়বেন আমি যোগ দেব।


আরও খবর