আজঃ সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

মোবাইলের কারণে বদলে যাচ্ছে চোখের গড়ন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | ৪৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ক্রমশ বাড়ছে মোবাইল ফোন বা কম্পিউটারের ব্যবহার। বিশেষ করে অতিমারির সময় থেকে এই ব্যবহার আরও বেড়ে গিয়েছে। তার প্রভাব পড়ছে চোখে। চোখের গড়ন বদলে যাচ্ছে পাকাপাকি ভাবে। এমনই বলছে হালের গবেষণা।

মোবাইল ফোনের ব্যবহারের সময়ে আমরা সেটিকে চোখের খুব কাছে ধরি। সেই যন্ত্রের আলোর সঙ্গে খাপ খাওয়াতেই চোখের গড়ন বদলে যাচ্ছে। বিজ্ঞান বইতে চোখের যে গোলাকার গড়নের ছবি দেখে আমরা অভ্যস্ত, তা বদলে এখন অনেকটা জলপাইয়ের আকার নিচ্ছে অক্ষিগোলক। চোখের সামনের দিকটা বাইরের দিকে বেরিয়ে আসছে এর ফলে। এমনই বলছেন ইংল্যান্ডের কয়েক জন চক্ষুবিদ।

তবে এর শেষ এখানেই নয়। এই হারে চোখের গড়নে বদল আসলে, তার প্রভাব পড়বে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের উপরেও। এমনই আশঙ্কা বিজ্ঞানীদের।

কী বলা হয়েছে এই গবেষণাপত্রে? বলা হয়েছে, প্রতি দিন গড়ে ৬ ঘণ্টা ৫৫ মিনিট ফোনের দিকে তাকিয়ে থাকেন মানুষ। যত ক্ষণ জেগে থাকেন, তার প্রায় ৪৬ শতাংশ সময়ই কাটে ফোন বা কম্পিউটার সামনে বসে। তার ফলেই চোখের গড়নে বদল আসছে। এর সবচেয়ে বেশি প্রভাব পড়ছে শিশুদের উপর। বড়দের চোখ আগের অবস্থায় ফিরে যেতেও পারে।

কিন্তু শিশুদের ক্ষেত্রে ভবিষ্যতে তেমন কিছু হওয়ার সম্ভাবনা নেই। কারণ ১৬-১৭ বছর বয়সের আগে পর্যন্ত তাদের চোখের বিকাশ সম্পূর্ণ হয় না। এই সময়ে মোবাইল ফোনের অতিরিক্ত ব্যবহার তাদের চোখের গড়ন পাকাপাকি বদলে দেয়।

কেন এমন হয়? চিকিৎসকরা বলছেন, মোবাইল ফোনের দিকে তাকানোর সময়ে আমরা এমন ভাবে তাকাই, যাতে ফোকাসটি থাকে ফোনের পর্দার উপর। তার পিছনের সব কিছুকে আমরা যত ঝাপসা দেখব, ততই স্পষ্ট হবে ফোনের ছবি। দীর্ঘ দিন এটি চলতে থাকলে, চোখও চেষ্টা করে আলো যাওয়ার পথটিকে সরু করে দিতে। তাতেই বদলায় চোখের গড়ন। একে চিকিৎসার পরিভাষায় বলা হচ্ছে শর্ট সাইটেড আই

কী করে এই সমস্যা কমাবেন? চিকিৎসকরা বলছেন, দিনের মাথায় অন্তত দুঘণ্টা বাড়ির বাইরে কাটান। রোদে ঘোরাঘুরি করতে পারেন। তাতে সমস্যা কমবে। আর ২০ মিনিট টানা কাজ করার পরে ২০ সেকেন্ডের জন্য এমন কোনও কিছুর দিকে তাকান, যা আপনার থেকে অন্তত ২০ ফুট দূরে রয়েছে।

 


আরও খবর
করোনায় ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৭

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




ভোমরা স্থল বন্দরে আটকা পড়েছে ৩০০ পণ্যবাহী ট্রাক

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ০৭ নভেম্বর ২০২১ | ৫৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ধর্মঘটের প্রভাবে সাতক্ষীরার ভোমরাস্থল বন্দরে আটকা পড়েছে ৩০০ ভারতীয় ট্রাক। বাংলাদেশি ট্রাকের অভাবে আমদানি করা ভারতীয় ট্রাক থেকে পণ্য পরিবহন করতে পারছেন না আমদানিকারকরা। এতে বিপাকে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা।

ভোমরা বন্দরের সিএন্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান নাসিম জানান, শনিবার (৬ নভেম্বর) ৪০০ পণ্যবাহী ট্রাক ভারত থেকে দেশে প্রবেশ করেছে। এর মধ্যে ১০০ ট্রাক ডেলিভারি দেওয়া গেছে। বাকি ৩০০ ভারতীয় ট্রাক বন্দরে আটকা পড়ে রয়েছে।

আমদানিকৃত ট্রাক থেকে পণ্য পরিবহন করতে বাংলাদেশি ট্রাকের সংকটের কারণে এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। যেহেতু আমদানি-রফতানি কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে সেহেতু দ্রুত সময়ের মধ্যে ধর্মঘট প্রত্যাহার না হলে ধীরে ধীরে এর পরিমাণ আরও বাড়বে।

ভোমরা কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার আমির মামুন বলেন, সকাল ৯টা থেকে বন্দরের আমদানি-রফতানি কার্যক্রম স্বাভাবিক নিয়মে শুরু হয়েছে। শনিবার ৪০০ পণ্যবাহী ট্রাক দেশে প্রবেশ করেছে। তবে বাংলাদেশি ট্রাকসংকট থাকায় আমদানিকারকরা পণ্য পরিবহন করতে পারছেন না বলে জানাচ্ছেন ব্যবসায়ীরা।

নিউজ ট্যাগ: ভোমরাস্থল বন্দর

আরও খবর



ধর্মঘট অব্যাহত রাখবে ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান মালিকরা

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ নভেম্বর ২০২১ | ৩০২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাস ও লঞ্চ মালিকদের ভাড়া বাড়ানোর দাবি মেনে নিয়েছে সরকার। নতুন ভাড়ায় বাসের চাকা ঘুরছে রাস্তায়। তবে ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান মালিকদের দাবির বিষয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত জানায়নি সরকার। তাই তেলের দাম না কমা পর্যন্ত ধর্মঘট অব্যাহত রাখার কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশ ট্রাক-কাভার্ড ভ্যান পণ্য পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।

পরিষদের আহ্বায়ক রুস্তম আলী খান রোববার (৭ নভেম্বর) জানান, সরকারের পক্ষ থেকে আমাদের সঙ্গে কেউ কথা বলেননি। তাই জ্বালানি তেলের দাম না কমা পর্যন্ত আমরা ধর্মঘট অব্যাহত রাখব।

অন্যদিকে কাভার্ডভ্যান-ট্রাক প্রাইমমুভার পণ্য পরিবহন মালিক অ্যাসোসিয়েশন অতিরিক্ত মহাসচিব আবদুল মোতালেব বলছেন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনা করে আমাদেরকে ডেকে পাঠাবেন। এরপরে আমাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন। অথচ, এখন পর্যন্ত আমাদের কাছে এ বিষয়ে কোনো সংবাদ পৌঁছায়নি। সরকার এখনও আমাদের অফিসিয়ালি ডেকে পাঠান নেই।

তিনি বলেন, আমরা প্রতিদিন রেডি হয়ে বসে থাকি কেউ আমাদের ডাকবেন বলে। ডেকে একটা সমাধান দেবেন, কিন্তু আমাদের ডাকা হয় না। আমাদের কাজ বন্ধ হয়ে আছে।

 


আরও খবর
ফেরি চলাচল স্বাভাবিক

বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১




ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটে ৯০ শতাংশই ফেল

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | ৩৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ৯০ শতাংশের বেশি শিক্ষার্থী অকৃতকার্য হয়েছেন।  এ পরীক্ষায় পাসের হার ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ।

বুধবার ইউনিটে ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। বেলা ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান প্রশাসনিক ভবনের অধ্যাপক আবদুল মতিন ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে আনুষ্ঠানিকভাবে ভর্তি পরীক্ষার এ ফল ঘোষণা করেন।

ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় ২৩ অক্টোবর। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের  ইউনিটে আসন সংখ্যা ১৫৭০ (বিজ্ঞান: ১১১৭, ব্যবসায় শিক্ষা: ৪০০, মানবিক: ৫৩)।  আবেদন করেছিলেন ১ লাখ ১৫ হাজার ৮৮১ জন।  এরমধ্যে ৮১,০০৭ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নেন।

ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন ৭৯৯৪ জন।  এর মধ্যে বিজ্ঞানে ৬০৭১, ব্যবসায় শিক্ষায় ১৪৮৯ এবং মানবিক বিভাগে ৪৩৪ জন উত্তীর্ণ হয়েছেন। উত্তীর্ণের হার ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ শিক্ষার্থী। আর ফেল করেছেন ৯০ দশমিক ১৩ শতাংশ শিক্ষার্থী।


আরও খবর



করোনায় আরও ৫ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২৪৪

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ২৭ হাজার ৯৩৯ জন এই ভাইরাসটিতে প্রাণ হারিয়েছেন। বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২৪৪ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। নতুন রোগীদের নিয়ে দেশে এ পর্যন্ত শনাক্ত কোভিড রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৫ লাখ ৭৩ হাজার ৪৫৮ জনে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ২৯৪ জন। এ নিয়ে করোনা থেকে সেরে উঠলেন ১৫ লাখ ৩৭ হাজার ৫১৮ জন।

দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গত বছরের ৮ মার্চ। প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর গত বছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সেই বছর সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছিল ৬৪ জনের।

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ায় চলতি বছর জুন থেকে রোগীর সংখ্যা হু-হু করে বাড়তে থাকে। ২৮ জুলাই একদিনে সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ২৩০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল।

চলতি বছরের গত ৭ জুলাই প্রথমবারের মতো দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ৫ ও ১০ আগস্ট ২৬৪ জন করে মৃত্যু হয়, যা মহামারির মধ্যে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু।

বেশকিছু দিন ২ শতাধিক মৃত্যু হয়। এরপর গত ১৩ আগস্ট মৃত্যুর সংখ্যা ২০০ এর নিচে নামা শুরু করে। দীর্ঘদিন শতাধিক থাকার পর গত ২৮ আগস্ট মৃত্যু ১০০ এর নিচে নেমে আসে।


আরও খবর
করোনায় ২ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ২২৭

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে বাংলাদেশের নারীরা

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | ২৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এবার আফ্রিকায় করোনার নতুন ধরনের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ায় নারী বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব বাতিল করেছে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা (আইসিসি)। ফলে বাছাইপর্বের বাকি অংশ সম্পন্ন না করে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আগামী নারী ওয়ানডে বিশ্বকাপে কোয়ালিফাইড হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। ফলে বাংলাদেশ প্রথমবারের মত ওয়ানডে বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করলো।

জিম্বাবুয়েতে অনুষ্ঠিত নারী ওয়ানডে বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের প্রথম দুই খেলায় পাকিস্তান ও যুক্তরাষ্ট্রকে হারিয়ে উড়ন্ত সূচনা করেছিলো বাংলাদেশের নারীরা। যদিও শেষ ম্যাচে খর্ব শক্তির থাইল্যান্ডের কাছে হেরে যায় নিগার সুলতানার দল।

আফ্রিকার দক্ষিণাঞ্চলে করোনার নতুন একটি প্রজাতির উপস্থিতি ব্যাপক হারে ধরা পড়ায় বিভিন্ন দেশের সাথে আফ্রিকার যাতায়াতে দেওয়া হয়েছে নিষেধাজ্ঞা। নয়টি দলকে নিয়ে হারারেতে চলছিল বিশ্বকাপ বাছাইপর্ব, যেখান থেকে মূল পর্বে জায়গা করে নিত তিনটি দল।

করোনার কারণে বাছাইপর্ব পণ্ড হওয়ায় আইসিসি তিনটি দল হিসেবে বেছে নিয়েছে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। টুর্নামেন্টের প্লেয়িং কন্ডিশন অনুযায়ী এগিয়ে থাকা তিনটি দলকেই বিশ্বকাপের মূল পর্বের টিকিট দেওয়া হয়েছে।

আগামী ৪ মার্চ শুরু হবে প্রমীলা ওয়ানডে বিশ্বকাপের এবারের আসর। এতে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ ছাড়াও অংশ নেবে স্বাগতিক নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, ইংল্যান্ড ও ভারত।


আরও খবর
হারের শঙ্কায় টাইগাররা

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১