আজঃ সোমবার ২৩ মে ২০২২
শিরোনাম

মুন্সীগঞ্জে প্রাইভেটকার খাদে পড়ে ২ জন নিহত

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ৩০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মুন্সীগঞ্জের টংগিবাড়ী উপজেলায় একটি প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে দুজন নিহত হয়েছে। এ সময় গুরুতর আহত হয়েছে আরও এক জন। উপজেলার পুরাবাজার এলাকার একটি নির্মাণাধীন ব্রিজের ঢালে আজ শনিবার ভোর ৪টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এরপর প্রাইভেটকারটি অনেকটা পানিতে ডুবে যায়।

নিহত দুজন হলোজিসান (১৯) ও ফাহিম (১৬)। তারা মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার উত্তর চরমশুরা গ্রামের বাসিন্দা। আহত অপরজনের নাম জাহিদ হাসান (১৬)। স্থানীয়রা জানান, বেপরোয়া গতিতে প্রাইভেটকারটি চালানোর কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ব্রিজের পাশের খাদে পড়ে পানিয়ে ডুবে যায়।

টংগিবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা সোহেব আলী জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার পুরাবাজার এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নির্মাণাধীন ব্রিজের ওপরে উঠে গিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হয় লাল রঙের প্রাইভেটকারটি।

মুন্সীগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তোফাজ্জল হোসেন জানান, আজ সকালের দিকে মরদেহ দুটি হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। অনেক আগেই তাঁদের মৃত্যু হয়। এ ছাড়া আহত আরেকজনের অবস্থা গুরুতর। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


আরও খবর



টাঙ্গাইলে মাটি চাপা পড়ে দুই শ্রমিকের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১০ মে ২০২২ | ৩৪০জন দেখেছেন

Image

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি:

টাঙ্গাইল শহরের আশেকপুর এলাকায় বহুতল ভবণ নির্মাণের জন্য পাইলিংয়ের কাজ করার সময় মাটিচাপা পড়ে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (১০ মে) দুপুরে আশেকপুর এলাকার মো. নজরুলের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

মারা যাওয়া শ্রমিকরা হলেন, বাসাইল উপজেলার কাশিল গ্রামের ঝটু পালের ছেলে আনন্দ পাল ও আন্নাত পালের ছেলে নিধন পাল।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপুরে পাঁচজন শ্রমিক নজরুলের বাড়ির নির্মাণাধীন নতুন ভবনের পিলার নির্মাণের জন্য মাটি খুঁড়ছিলেন। এদের মধ্যে আনন্দ এবং নিধন মাটি খুড়তে খুড়তে অনেক গভীরে চলে যান। এক পর্যায়ে নরম মাটি তাদের ওপর ভেঙে পড়ে। পরে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা বেকু দিয়ে মাটি সড়িয়ে ওই দুই শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করে।

টাঙ্গাইল ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক রেজাউল করিম জানান, নির্মাণাধীন ভবনের পাইলিংয়ের কাজ করার সময় মাটি চাপা পরে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। লাশ দুইটি উদ্ধারের পর পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

টাঙ্গাইল সদর থানার পুলিশ পরিদর্শক শামীম জানান, আইনী প্রক্রিয়া শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে।


আরও খবর



কোনো ষড়যন্ত্রই জাতিকে পিছিয়ে দিতে পারবে না : কাদের

প্রকাশিত:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ২৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জনকল্যাণমুখী সৎ-সাহসী ও দেশপ্রেমিক নেতা রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্বে থাকলে, কোনো ষড়যন্ত্রই জাতিকে পিছিয়ে দিতে পারবে না। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পদ্মা সেতু তার জ্বলন্ত দৃষ্টান্ত।

আজ শুক্রবার এক বিবৃতিতে ওবায়দুল কাদের একথা বলেন।

বিবৃতিতে সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী বলেন, সকল প্রতিবন্ধকতা ডিঙিয়ে সফলভাবে পদ্মা সেতু নির্মাণ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া বক্তব্য নিয়ে বিএনপি মহাসচিব ও তাদের নেতারা দূরভিসন্ধিমূলক ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্টির পাঁয়তারায় লিপ্ত রয়েছে। এমনকি বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তথাকথিত হত্যার হুমকির বয়ান তৈরি করছে বিএনপি।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের তাঁর বিবৃতিতে স্পষ্ট করে বলেন, বিরোধী পক্ষকে দমন ও পীড়নের রাজনীতি আওয়ামী লীগ করে না। বরং বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বেই ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে বিএনপির হাত ধরেই হত্যা-ক্যু- ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে বিরোধী রাজনৈতিক পক্ষকে নির্মূল করার অপরাজনীতি শুরু করা হয়।

এখনো এই চিহ্নিত মহল ক্রমাগতভাবে দেশের স্বার্থ ও জনকল্যাণ বিরোধী বিভিন্ন ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, প্রধানমন্ত্রী তাঁর বক্তব্যের মধ্য দিয়ে দেশবিরোধী এই গোষ্ঠীর মুখোশ উন্মোচন ও জনগণকে সতর্ক করতে চেয়েছেন।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা একজন স্বপ্নবান মানুষ, যিনি বাংলার মানুষের ভাগ্যোন্নয়নে নিরলসভাবে স্বপ্ন বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রজন্ম থেকে প্রজন্মন্তরে বাংলার মানুষ শেখ হাসিনার মহিমান্বিত নেতৃত্বকে মূল্যায়ন করবে।

বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার রাজনৈতিক সততা, সাহসিকতা, নিষ্ঠা ও বলিষ্ঠ নেতৃত্ব আজ তাঁকে বিশ্বসভায় এক অনন্য সফল রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে অভিষিক্ত করেছে বলে জানান ওবায়দুল কাদের।

গত চার দশকে বাংলাদেশের যা কিছু অর্জন, তা একমাত্র শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই অর্জিত হয়েছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাঁর বিবৃতিতে আরো বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়ন- অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির অভিযাত্রায় এগিয়ে যাচ্ছে, আগামীতেও এগিয়ে যাবে। কোন প্রকার ষড়যন্ত্র, অপপ্রচার অগ্রগতির এই গতিধারা থামাতে পারবে না।


আরও খবর



যৌবনের টানাপোড়েনের গল্প বলবে ‘সই’

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | ৩৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এবার গল্প বলবে স্থির ছবি। কলকাতার বুকেই ছবি নির্মাণের ধারণাকে ভেঙেচুরে দেখাচ্ছেন খ্যাতনামা ফ্যাশন ফটোগ্রাফার তথাগত ঘোষ। তিনি নির্মাণ করছেন সই। পুরোনো সময়ের প্রেক্ষাপটে নারীর বন্ধুত্বের বিভিন্ন পর্যায় তুলে ধরবে তার স্থির চিত্র প্রদর্শনী। আর সেই ফ্রেমে নারীদের চরিত্রে দেখা মিলবে অভিনেত্রী অনুষা বিশ্বনাথন এবং মডেল সৌমশ্রী বন্দ্যোপাধ্যায়কে।

এই আয়োজনে অবশ্য সংলাপ কিংবা আবহসঙ্গীত নেই। স্রেফ ক্যামেরার আলো-ছায়া-রঙে অদ্ভুত টানাপোড়েন ধরে রেখেছেন শিল্পী তথাগত। সেই সঙ্গে প্রতিটি ফ্রেমে নজর কাড়বে দুই সইয়ের অভিব্যক্তি, ভঙ্গিমা। যেমন তাদের শাড়ির বাহার, তেমনই গয়নার ঝঙ্কার।

চিত্রগ্রাহক তথাগত ঘোষ জানান, ছবি তোলা তার নেশা, আবেগও বটে। তবে কাজের জায়গায় তো আর নিজের মতো করে গল্প বলার সুযোগ হয় না। তাই নিজের কথাগুলো চাপা পড়েই থাকে। সেখান থেকেই গল্পেরা জন্ম নেয়। আর গল্প বলার নতুন ধরন বেছে নেন শিল্পী। এবারের কাজ নিয়ে তিনি বিশেষভাবে আশাবাদী। এই প্রথম এত বড় মাপে রঙিন চিত্রের প্রদর্শনী করছেন। যেখানে হাত মিলিয়েছে আন্তর্জাতিক সংস্থাও।

২০১৩ সাল থেকে প্রতি বছরই তারকাদের নিয়ে বার্ষিক স্থিরচিত্র প্রদর্শনী করে আসছেন তথাগত। ২০১৯ সালে অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকারকে মডেল করে আয়োজিত হয়েছিল তার প্রদর্শনী অ্যাওয়েটিং। তারপর করোনা পরিস্থিতিতে পরপর দুই বছর প্রদর্শনী করা সম্ভব হয়নি। এ বছর পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক দেখে আবারও নিজের স্থিরচিত্র প্রদর্শনী নিয়ে আসছেন তথাগত। সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে সই-এর প্রথম ঝলক। চলতি মাসের ১৮ থেকে ২২ তারিখ ভারতের বিড়লা একাডেমিতে চলবে প্রদর্শনী।

প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করলেও চেনা ছকের বাইরেই ভাবতে ভালোবাসেন তথাগত। তার আক্ষেপ, নেট দুনিয়া সবকিছুকে বড্ড ছোট করে ফেলেছে আজকাল। যেন চাইলেই পাওয়া যায়। তবে কিছু জিনিস বাড়ি বসে টের পাওয়া যায় না।

এই চিত্রগ্রাহক জানান, নেটমাধ্যমে শিল্পের প্রদর্শন পছন্দ নয় তার। ছবি দেখতে হবে দেওয়াল জোড়া ক্যানভাসে। মোবাইলের স্ক্রিনে সই দেখার সে মজা কই! সেই ব্যবস্থাও থাকছে না অবশ্য। উথালপাথাল রঙের খেলা, নায়িকাদের অভিব্যক্তি উপভোগ করতে ছবিপ্রেমীদের যেতে হবে প্রদর্শনীতেই।

নিউজ ট্যাগ: সই

আরও খবর



নোয়াখালীতে ওমান প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৮ মে ২০২২ | ৮০০জন দেখেছেন

Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ দুই সন্তানের জননী এক ওমান প্রবাসীর স্ত্রীর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। নিহত গৃহবধূর নাম তানজিনা খানম নিপু (২৫) সে উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের লাউতলী গ্রামের নাজির আলীর বাড়ির ওমান প্রবাসী ইয়াছিন মাহমুদ রুবেলের স্ত্রী।

রোববার (৮ মে) বিকাল ৪টার দিকে উপজেলার লাউতলী গ্রামের নাজির আলীর বাড়ি থেকে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে। 

নিহতের পরিবারের দাবি, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড। সঠিক তদন্তের মাধ্যমে তারা এ হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবি করেছেন। পরিবারটিতে দীর্ঘদিন যাবত সম্পত্তি নিয়ে বিরোধ থাকার কারণে নানা অজুহাতে গৃহবধূ নিপুকে প্রায় শশুর বাড়ির লোকজন মানসিক ও শারীরিক ভাবে নির্যাতন করত। নিহতের ননদ স্মৃতি বেশিরভাগ সময় বাবার বাড়িতে থেকে ভাইয়ের সংসারে খবরদারী করত।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রুবেল-নিপুর সংসারে ৫ ও ২ বছর বয়সী দুটি সন্তান রয়েছে। নিহত নিপুন সেনবাগের ৬ নং কাবিলপুর ইউনিয়ন ডোমনা কান্দী গ্রামের পাঠান বাড়ির সাকায়েত উল্লাহ খাঁনের মেয়ে।

নিহতের শাশুড়ী মনোজা খাতুন দাবি করেন, পরিবারের সদস্যদের অগোচরে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে সকাল ১১ টার দিকে নিপু আত্মহত্যা করে।

বেগমগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত)শফিকুল ইসলাম জানান,খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় এনে রেখেছে। লাশের সুরতহাল সম্পন্ন করা হয়েছে। সন্ধ্যার দিকে ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০শয্যা বিশিষ্ট নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে।


আরও খবর



ফিনল্যান্ডে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করছে রাশিয়া

প্রকাশিত:শনিবার ২১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ১৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ফিনল্যান্ডের জ্বালানিবিষয়ক সরকারি প্রতিষ্ঠান গ্যাসাম বলেছে, শনিবার থেকে দেশটিতে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করবে রাশিয়া। একে তো রাশিয়া থেকে কেনা গ্যাসের দাম রুবলে পরিশোধ করতে চায়নি ফিনল্যান্ড। তারই মধ্যে আবার পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোতে যোগদানের ঘোষণা। ধাক্কাটা এর পরপরই এল।

ফিনল্যান্ডে প্রাকৃতিক গ্যাসের বেশির ভাগই আমদানি করা হয় রাশিয়া থেকে। তবে দেশটির মোট জ্বালানি চাহিদার একদশমাংশের কম পূরণ হয় গ্যাস থেকে। খবর বিবিসির।

গ্যাসামের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মিকা ইউলজানেন বলেন, আমরা এই পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলাম। আমাদের গ্যাস সরবরাহব্যবস্থায় কোনো বাধা আসবে না। আগামী মাসগুলোতে আমরা সব গ্রাহককে গ্যাস সরবরাহ করতে পারব।

এদিকে গত রোববারই ফিনল্যান্ডে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ করেছিল রাশিয়া। ন্যাটোতে যোগ দিলে প্রতিশোধ নেওয়া হুঁশিয়ারিও দিয়েছিল। তবে গ্যাস বন্ধের কারণ জানতে চাইলে রুবলে মূল্য পরিশোধের দিকে ইঙ্গিত করেছে রাশিয়া।

এর আগে গত মাসে পোল্যান্ড ও বুলগেরিয়ায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধের ঘোষণা দেয় রাশিয়া। কারণ সেই একই। দুই দেশই গ্যাসের দাম রুবলে পরিশোধ করতে অসম্মতি জানায়।


আরও খবর