আজঃ সোমবার ২৩ মে ২০২২
শিরোনাম

মুন্সিগঞ্জে দুই ভুয়া সাংবাদিক আটক

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | ৫৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় বিটিভির পরিচয়ে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে অর্থ আদায়কালে দুই ভুয়া সাংবাদিককে আটক করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১১ মে) সকালে উপজেলার হোসেন্দী দাখিল মাদ্রাসা থেকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাদের আটক করে গজারিয়া থানা পুলিশ।

আটককৃতরা হলেন- জেলার সিরাজদিখানের হাজীগাঁও গ্রামের আনোয়ার হোসেনের ছেলে নাদিম হোসোন নিলয় (২৩) ও কুমিল্লার তিতাস উপজেলার আলমের ছেলে জাকির হোসেন।

হোসেন্দী দাখিল মাদ্রাসার সুপার আব্দুস সালাম জানান, গত দুইদিন যাবৎ মাদ্রাসার উন্নয়নে বিটিভিতে একটি প্রোগ্রাম করবে জানিয়ে আমাকে ও মাদ্রাসার সভাপতিকে ফোন দিয়ে তারা আজ মাদ্রাসায় আসে। আচরণ সন্দেহজনক হওয়ায় তাদের আটক করে উপজেলা প্রশাসনকে খবর দেই। পরবর্তীতে জানা যায় তারা গত দু’দিনে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বিটিভিতে উন্নয়নমূলক অনুষ্ঠান প্রচারের কথা বলে অর্থ আদায় করেছে।

আটকের পর তারা স্বীকার করে, একই কথা বলে ভবেরচর ওয়াজির আলী উচ্চ বিদ্যালয় এর সহকারী প্রধান শিক্ষক আবুল হোসেন সরকারের কাছ থেকে ৭ হাজার, টেংগারচর রাজিয়া কাদের আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো. নুরুদ্দিনের কাছ থেকে ৬ হাজার, ভবেরচর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো. মামুন ঢালীর কাছ থেকে ৫ হাজার, ভাটেরচর দে এ মান্নান পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো. সাখাওয়াত হোসেনের কাছ থেকে ২ হাজার টাকা টাকা আদায় করেছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জিয়াউল ইসলাম চৌধুরী বলেন, আটককৃতদের বিরুদ্ধে অনৈতিকভাবে অর্থ আদায়, বিটিভির ভুয়া পরিচয় প্রদানের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার প্রেক্ষিতে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

গজারিয়া থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মো. রইছ উদ্দীন জানান, উন্নয়ন কার্যক্রম প্রচারের নামে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে চাঁদা আদায় করছিলো দুইজন। স্থানীয়দের সহযোগিতায় তাদের আটক করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


আরও খবর



৩০ দিন পর করোনায় মৃত্যু দেখলো দেশ

প্রকাশিত:শনিবার ২১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ১৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একজন মারা গেছেন। টানা ৩০ দিন পর করোনায় মৃত্যু দেখলো দেশ । সর্বশেষ ২০ এপ্রিল একজনের মৃত্যু হয়েছিল।

শনিবার (২০ মে) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এদিকে ২৪ ঘণ্টায় ৩ হাজার ৯২৭ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৬ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার শূন্য দশমিক ৪১ শতাংশ। দেশে এ পর্যন্ত ১৯ লাখ ৫৩ হাজার ২০৪ জনের করোনা শনাক্ত হলো। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে ১৭২ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হলো ১৯ লাখ ৭৪৭ জন। দেশে করোনায় মোট ২৯ হাজার ১২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

২০১৯ সালের শেষে চীনের উহানে প্রথম করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ে। এরপর কয়েক মাসের মধ্যে এ ভাইরাস সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। দেশে প্রথম করোনা শনাক্ত হয় ২০২০ সালের ৮ মার্চ। আর প্রথম মৃত্যু হয় একই বছরের ১৮ মার্চ।


আরও খবর



ডিগ্রি ১ম বর্ষ পরীক্ষার ফল প্রকাশ

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে অনুষ্ঠিত ২০২০ সালের ডিগ্রি প্রথম বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ হয়েছে। সোমবার (১৬ মে) রাত ৮টা থেকে পরীক্ষার্থীর রেজিস্ট্রেশন ও কলেজওয়ারি ফলাফল www.nu.ac.bd/results- ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তরের পরিচালক আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, এ পরীক্ষায় ১ লাখ ৭১ হাজার ১৯৪ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেন। এদের মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছেন ১ লাখ ৪৯ হাজার ৬০৭ জন। গড় পাসের হার ৮৭ দশমিক ৯ শতাংশ। এ ফলাফল সম্পর্কে কোনো পরীক্ষার্থীর আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে ফলাফল প্রকাশের এক মাসের মধ্যে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের কাছে লিখিতভাবে জানাতে হবে। এরপর আর কোনো আপত্তি বা অভিযোগ গ্রহণযোগ্য হবে না।


আরও খবর



করাচিতে হামলাকারী ছিলেন দুই সন্তানের মা, করছিলেন শিক্ষকতাও

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | ৬০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মঙ্গলবার দুপুরে জোরালো বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছিল করাচি বিশ্ববিদ্যালয় চত্বর। আত্মঘাতী বোমা হামলায় একটি গাড়িতে থাকা তিন চিনা নাগরিক-সহ চার জন নিহত হন। হামলার দায় স্বীকার করে বালুচিস্তান লিবারেশন আর্মি (বিএলএ)।

বিএলএ এক বিবৃতিতে জানায়, আত্মঘাতী হামলা চালানোর জন্য মানববোমা হিসেবে কাজে লাগানো হয়েছিল শারি বালোচ ওরফে ব্রামশকে। সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গিয়েছে, বোরখা পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের গেটের মুখে দাঁড়িয়ে এক মহিলা। চিনা নাগরিকদের নিয়ে সাদা রঙের একটি ভ্যান বিশ্ববিদ্যালয়ে ঢুকতে যাওয়ার মুহূর্তে বিস্ফোরণ ঘটে। বছর তিরিশের শারি দুই সন্তানের মা। আত্মঘাতী হামলার দশ ঘণ্টা আগে নিজের টুইটার হ্যান্ডলে লিখেছিলেন, গুড বাই

বালুচিস্তানের তুরবাতের নিয়াজার আবাদের বাসিন্দা শারি প্রাণীবিদ্যায় স্নাতকোত্তর করেছেন বালুচিস্তান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে। এমফিল করেছেন আলামা ইকবাল মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে।

২০১৪ সালে বিএড করেন শারি। ২০১৮-য় এমএড। বালুচিস্তানের কেচ জেলায় একটি প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষকতা করছিলেন। শারি বিয়ে করেছিলেন এক দন্ত চিকিৎসককে। তাঁদের এক ছেলে এক মেয়ে। এক জনের বয়স আট, অন্য জনের পাঁচ।

শারির বাবা একটি সরকারি সংস্থার অধিকর্তা ছিলেন। তিন বছর জেলা পরিষদের সদস্য হিসেবে কাজ করেছেন শারির বাবা। শারির দেওর কলেজের অধ্যাপক। তাঁর কাকা এক জন লেখক, অধ্যাপক এবং মানবাধিকার কর্মী। শারির বাপের বাড়ি এবং শ্বশুরবাড়ি দুই কুলই উচ্চশিক্ষিত।

ছাত্রাবস্থায় বালোচ স্টুডেন্টস অর্গানাইজেশন-এর সঙ্গে যুক্ত ছিলেন শারি। বছর দুয়েক আগে সংগঠনের আত্মঘাতী স্কোয়াড মজিদ ব্রিগেডে যোগ দিয়েছিলেন।

শারির দুই সন্তানের কথা ভেবে তাঁকে অন্য কোনও স্কোয়াড বেছে নেওয়ার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল বিএলএ-র তরফে। কিন্তু তিনি তা প্রত্যাখ্যান করেন। বরং আত্মঘাতী স্কোয়াডেই যে তিনি যোগ দিতে চান, সে কথা দলের শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে জানিয়েছিলেন। বিএলএ-র আত্মঘাতী স্কোয়াড মজিদ ব্রিগেডের নিয়ম অনুযায়ী শারিকে তাঁর সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করার জন্য সময় দেওয়া হয়েছিল।

ফলে গত দুবছর ধরে মজিদ ব্রিগেডের বিভিন্ন শাখার সঙ্গে কাজ করেন শারি। এই সময়ের মধ্যে আত্মঘাতী হামলা চালানোর জন্য নিজেকে প্রস্তুত করছিলেন।

মাস ছয়েক আগে দলের শীর্ষ নেতৃত্বের কাছে শারি জানান, আত্মঘাতী হামলার জন্য তিনি পুরোপুরি প্রস্তুত। তার পরই তাঁকে সরাসরি আত্মঘাতী স্কোয়াডের অন্তর্ভুক্ত করা হয় এবং করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলা চালানোর দায়িত্ব দেওয়া হয়।

করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ে হামলার পর বিএলএ এক বিবৃতি জারি করে জানায়, মজিদ ব্রিগেডের ফিদায়েঁ শারি বালোচ ওরফে ব্রামশ তাঁর দায়িত্ব সফল ভাবে পালন করেছেন।

বিএলএ মুখপাত্র জিয়ান্দ বালোচ বলেন, বালুচিস্তানে চিনের প্রত্যক্ষ এবং অপ্রত্যক্ষ কোনও উপস্থিতিই সহ্য করব না আমরা। বালুচিস্তান থেকে দূরে থাকার জন্য বার বার সতর্ক করেছিল চিনকে।

এর পরই জিয়ান্দ হুঁশিয়ারি দেন, পাকিস্তানের সেনাকে বালুচিস্তানে গণহত্যা চালানোয় মদত জোগাচ্ছে চিন। শুধু তাই নয়, চিন বালুচিস্তানে নিজেদের প্রভাব বিস্তার করতে চাইছে। তাদের এই ধরনের কর্মকাণ্ডকে কোনও ভাবেই বরদাস্ত করবে না বিএলএ।

হামলার পর শারির স্বামী হাবিতান বশির বালোচ টুইট করেন, শারি জান, তোমার এই কাজের জন্য আমি গর্ববোধ করছি। তুমি মারোচ এবং মীর হাসানের গর্ব। আমাদের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হয়ে থাকবে তুমি।


আরও খবর



১২ বছর পর বড় পর্দায় শর্মিলা ঠাকুর

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | ৩১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আশির দশকে বলিউডের প্রথম সারির অভিনেত্রী শর্মিলা ঠাকুর। ২০১০ সালে ব্রেক কী বাদ সিনেমায় শেষবার বড় পর্দায় দেখা গিয়েছিল তাকে। দীর্ঘ ১২ বছর পর আবারও অভিনয়ে ফিরছেন তিনি। পরিচালক রাহুল চিট্টেলার গুলমোহর সিনেমা দিয়ে। ছবিতে অমল পালেকর, মনোজ বাজপেয়ীদের সঙ্গে পর্দায় অভিনয় করতে দেখা যাবে শর্মিলাকে। ছবিতে আরও অভিনয় করছেন লাইফ অফ পাই খ্যাত সূরজ শর্মা ও সিমরন ঋষি বাগ্গা।

ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে ছবির শুটিং। রূপালি পর্দায় কামব্যাক করা নিয়ে অভিনেত্রী শর্মিলা ঠাকুর বলেছেন, অনেক দিন পর অভিনয়ে ফিরলাম। সিনেমাটির চিত্রনাট্য শুনেই অভিনয় করতে রাজি হয়ে গিয়েছিলাম। একটি পরিবারের গল্প। এত সুন্দর করে গল্প বলা হয়েছে যে আমি আর দ্বিতীয়বার ভাবিনি। একসঙ্গে বসে এ সিনেমা দেখতে খুবই ভালো লাগবে দর্শকের।

পারিবারিক সিনেমা গুলমোহর। বাত্রা পরিবারের গল্প উঠে আসবে এই সিনেমাতে। ৩৪ বছরের পুরোনো বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে যাবে গোটা বাত্রা পরিবার। এরপরই একান্নবর্তী পরিবারের পুরোনো সেই কথা নিজের ভাবনা দিয়ে পর্দায় ফুটিয়ে তুলবেন পরিচালক রাহুল চিট্টেলা। পরিবারের সদস্যরা পরস্পরের সঙ্গে নতুনভাবে সংযোগ স্থাপন করছেন। তারই মধ্যে ফাঁস হবে অনেক গোপন তথ্য।

লম্বা ব্রেকের পর এই ধরনের পারিবারিক ছবিতে কাজ করতে পেরে খুশি শর্মিলা ঠাকুরও। রাহুল চিট্টেলা পরিচালিত এই ছবির যৌথ প্রযোজনা করছে ফক্স স্টার স্টুডিওজ ও চকবোর্ড এন্টারটেইনমেন্ট অ্যান্ড অটোনমাস ওয়ার্কস। সব ঠিক থাকলে চলতি বছরের আগস্টে মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে গুলমোহর-এর।

নিউজ ট্যাগ: শর্মিলা ঠাকুর

আরও খবর



আ.লীগের ৪ নেতাকে অব্যাহতি

প্রকাশিত:রবিবার ২২ মে 20২২ | হালনাগাদ:রবিবার ২২ মে 20২২ | ২১০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

হবিগঞ্জে বিগত উপজেলা ও পৌরসভা নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী হয়ে নির্বাচনে অংশ নেওয়ায় চার নেতাকে দলীয় পদ থেকে অব্যাহতি দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

শনিবার (২১ ফেব্রুয়ারি) হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আবু জাহির ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আলমগীর চৌধুরী স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

অব্যাহতি পাওয়া নেতারা হলেন- হবিগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি নিলাদ্রী শেখর পুরস্কায়স্থ টিটু ও সাধারণ সম্পাদক মো. মোতাচ্ছিরুল ইসলাম, চুনারুঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. আবু তাহের এবং বানিয়াচং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন খান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্ত ভঙ্গ করে আওয়ামী লী মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে, হবিগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে, চুনারুঘাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ও বানিয়াচং উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মেয়র এবং উপজেলা চেয়ারম্যান পদে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় এই চার নেতাকে অব্যাহতি দেওয়া হলো।

একইসঙ্গে হবিগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. আব্দুর রহমানকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আশুতোষ অধিকারী শংকরকে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক, চুনারুঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার আলীকে উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এবং বানিয়াচং উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আংগুর মিয়াকে উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব প্রদান করা হয়। তাদের নেতৃত্বে আসন্ন হবিগঞ্জ পৌর, চুনারুঘাট উপজেলা ও বানিয়াচং উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন সম্পন্ন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

হবিগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর চৌধুরী বলেন, বিগত উপজেলা ও পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থীর বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হওয়ায় তাদেরকে অব্যাহতি দিয়েছে।


আরও খবর