আজঃ শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

ময়মনসিংহে র‍্যাবের সঙ্গে জঙ্গিদের গোলাগুলি, আটক ৪

প্রকাশিত:শনিবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ০৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ময়মনসিংহে র‍্যাবের সাথে জঙ্গিদের গোলাগুলি অস্ত্রসহ চারজনকে আটক করেছে র‍্যাব। শনিবার (০৪ সেপ্টেম্বর) দিবাগত ভোররাতে নগরীর খাগডহর এলাকায় ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে এ ঘটনা ঘটে। এতে কেউ হতাহত হয়নি।

র‍্যাব-১৪ এর অধিনায়ক মো. রোকনুজ্জামান এবং অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল হান্নান খবরের সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জঙ্গিদের তৎপরতা ও অবস্থানের কথা জানতে পেরে র‍্যাব-১৪ এর একটি দল খাগডহর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। র‍্যাবের উপস্থিতি বুঝতে পেরে জঙ্গিরা গুলি ছুঁড়লে র‍্যাবও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুঁড়ে। কিছুক্ষণ গুলি বিনিময়ের পর ঘটনাস্থল থেকে চারজনকে আটক করা হয়।

তাদের নিকট থেকে গুলিভর্তি একটি বিদেশি রিভলভার, তিনটি চাপাতিসহ দেশিয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। তাৎক্ষনিকভাবে আটক চারজনের পরিচয় জানা যায়নি। তবে পরে বিস্তারিত সাংবাদিকদের জানানো হবে বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।


আরও খবর
রামেক হাসপাতালে আরও ৫ জনের মৃত্যু

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১




কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে আ. লীগ নেতা গ্রেপ্তার

প্রকাশিত:শনিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মনোরঞ্জন শীল নকুলকে (৫০) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কলেজ ছাত্রীর লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে গতকাল শুক্রবার ( ১১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে তাকে নিজ বাড়ি থেকে আটক করে পুলিশ। নকুল চন্দ্র শীল শিবালয় নতুন পাড়ার মৃত মঙ্গল শীলের ছেলে।

শিবালয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক আব্দুল কুদ্দুস বলেন, বিষয়টি আমারা জানা নেই। ঘটনা সত্যি হলে দলীয় সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ভুক্তভোগী ও পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, সম্প্রতি মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় একটি হাত ভেঙ্গে যায় আওয়ামী লীগ নেতা নকুল শীলের। হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে তিনি বাড়ি আসার পর ওই কলেজ ছাত্রী প্রতিদিন তিনশত টাকার বিনিময়ে তার হাত ম্যাসেজ করে দিতেন। প্রতিদিনের মত বৃহস্পতিবার দুপুরে হাত মেসেজ করে দিতে গেলে নকুল জোর করে তার শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানগুলোতে হাত দেয় এবং ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় কলেজ ছাত্রীর চিৎকারে পাশের ঘর থেকে তার স্ত্রী এগিয়ে আসলে তাকে ছেড়ে দেয়।

ভুক্তভোগীর মা জানিয়েছেন, এ ঘটনার পর নকুল আমাদের পাঁচ হাজার টাকা দিয়ে কাউকে কিছু না বলতে নিষেধ করেন। কাউকে কিছু বললে কিংবা পুলিশকে জানালে সমস্যা হবে বলে হুমকি-ধামকিও দিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, নকুলের চরিত্র আগে থেকেই খারাপ। এর আগে, ও আমাকেও কু-প্রস্তাব দিয়েছিল। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠ বিচার চাই।

জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হাফিজুর রহমান বলেন, নকুল চন্দ্র শীলের বিরুদ্ধে শিবালয় থানায় ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ দায়ের করে এক কলেজ ছাত্রী। প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

 


আরও খবর
রামেক হাসপাতালে আরও ৫ জনের মৃত্যু

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১




আত্মগ্লানিতে ভুগছেন শামীমা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৩৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আইএস এ কেন যোগ দিয়েছিলেন সেটা ভেবেই এখন আত্মগ্লানিতে ভুগছেন বলে জানিয়েছেন, বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ব্রিটিশ নাগরিক শামীমা বেগম।

বুধবার বিবিসির এক সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, প্রায় তিন বছর সিরিয়ায় কাটানো সময়ের কথা মনে পড়লে এখন তার নিজের প্রতিই ঘৃণা হয়। তিনি বলেন সিরিয়ায় থাকা অবস্থাতেই ভুল বুঝতে পেরেছিলেন তিনি, তবে তখন তা প্রকাশ করার মত অবস্থায় ছিলেন না।

শামীমা জানান, লণ্ডন থেকে তারা তিন বান্ধবী সিরিয়ায় যাওয়ার পর, মাত্র ১৫ বছর বয়সে নেদারল্যান্ডের এক যোদ্ধার সাথে বিয়ে হয় তার। সেখানেই দুটি সন্তানের জন্ম দেন তিনি। সবশেষ ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে সিরিয়া শরনার্থী শিবিরে তাকে নয় মাসের গর্ভবর্তী অবস্থায় পাওয়া যায়। জন্মের পর এই শিশুটিও নিউমোনিয়ায় মারা যায়। এসবই জীবনকে আত্মগ্লানিতে ভরিয়ে দিয়েছে বলে জানান শামীমা, বলেন সুযোগ থাকলে সন্ত্রাস দমনে ব্রিটিশ সরকারকে সাহায্য করবেন।

সাক্ষাৎকারে এক প্রশ্নের জবাবে, আইএস যোদ্ধাদের আত্মঘাতি বোমা হামলায় সাহায্য করার অভিযোগ অস্বীকার করেন তিনি, এজন্য প্রয়োজনে কাঠগড়ায় দাঁড়াতেও প্রস্তুত বলে জানান তিনি। 

২০১৯ সালে শামীমাকে খুঁজে পাওয়ার পর নিরাপত্তার স্বার্থে তার নাগরিকত্ব বাতিল করেছিল ব্রিটিশ সরকার। এখন ব্রিটিশ সরকারের কাছে ক্ষমা চেয়ে ব্রিটেনে ফেরার সুযোগ চান বলে সাক্ষাৎকারে জানান শামীমা। বলেন, জঙ্গিরা কীভাবে কাজ করে তা নিজ অভিজ্ঞতা থেকে ব্রিটিশ সরকারকে জানাতে চান, যা জঙ্গি ও সন্ত্রাস দমনে সাহায্য করবে।

এদিকে আইএস থেকে ফেরার পর হিজাব ছেড়েছেন শামীমা, পরিবর্তন এসেছে তার সাজ পোশাকেও। বিবিসিকে দেয়া সাক্ষাৎকারেও তাকে দেখা যায় পশ্চিমা পোশাকে। যদিও তার বাহ্যিক এবং মানসিক এই পরিবর্তনকে বিশ্বাস করছেন না  অনেকেই। 


আরও খবর



শিক্ষা কার্যক্রমকে সময়োপযোগী করা অপরিহার্য : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি, বিশ্ব পরিস্থিতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে শিক্ষাব্যবস্থা আরও আধুনিকায়নের ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শিক্ষা কার্যক্রমকে সময়োপযোগী করা অপরিহার্য।

সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) গণভবনে জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখার খসড়া উপস্থাপনা অবলোকন করে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা মনে করি যে বিশ্ব এগিয়ে যাচ্ছে, বিজ্ঞানপ্রযুক্তি এগিয়ে যাচ্ছে, আমাদের এর সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে হবে। এ জন্য শিক্ষাকার্যক্রমকে সময়োপযোগী করা একান্তভাবে অপরিহার্য।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের নীতিমালার ভিত্তিতে আমরা কাজ করবো। কিন্তু আমাদের সব সময় সবার সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে হবে এবং বিশ্ব পরিস্থিতির সঙ্গে তাল মিলিয়ে চলতে হবে। আর এ বিজ্ঞানপ্রযুক্তি জ্ঞানের ক্ষেত্রে বিশ্ব এগিয়ে যায় আমরা পিছিয়ে থাকতে পারি না।

বিজ্ঞান শিক্ষার গুরুত্ব তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আরেকটা বিষয় আমি লক্ষ্য করেছিলাম আমাদের দেশের ছেলে-মেয়েদের বিজ্ঞানের প্রতি অনিহা। বিজ্ঞান শিক্ষা তারা নিতেই চাই তো না। বিজ্ঞান বিভাগের লোকই পাওয়া যেতো না। এ রকম একটা সময় কিন্তু ছিল। আমরা বিজ্ঞান শিক্ষায় গুরুত্ব দিই। আমরা ১২টা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় করে দিয়েছি।

ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলতে সরকারের চলমান বিভিন্ন কার্যক্রম প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যেহেতু আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তুলছি, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার ক্ষেত্রে আমরা পদক্ষেপ নিয়েছি।

দীর্ঘদিন পর রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার কথা উল্লেখ করে সরকার প্রধান বলেন, আলহামদুলিল্লাহ রোববার থেকে আমরা স্কুল-কলেজ খুলে দিয়েছি, ধীরে ধীরে সবগুলো খুলে যাবে। যার ফলে আবার নতুনভাবে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু হবে।

তিনি বলেন, আমাদের অত্যন্ত দুর্ভাগ্য আমরা প্রায় দেড় বছরের মতো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে পারিনি। যদিও অনলাইনে বা টেলিভিশনের মাধ্যমে বা ঘরে বসে- ঘরেই আমরা স্কুল এরই ধরনের বহুমুখী কার্যক্রম হাতে নিয়েছি, কাজ করেছি। কিন্তু স্কুলে যাওয়ার আনন্দ, কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে যাওয়ার আনন্দ থেকে শিক্ষার্থীরা বঞ্চিত হয়েছে।

করোনাকালীন সময়ে শিক্ষা কার্যক্রম সচল রাখতে সংশ্লিষ্টদের ভূমিকার প্রশংসা করে শেখ হাসিনা বলেন, করোনাকালীন সময়ে যখন সব কিছু স্থবির তখন আপনারা যথেষ্ট উদ্যোগ নিয়েছেন। বিশেষ করে শিক্ষার ক্ষেত্রে এখনকার যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে কীভাবে শিক্ষা ব্যবস্থাকে আরও শিক্ষার্থীদের কাছে আকর্ষণীয় করা যায়। আবার সেই সঙ্গে সঙ্গে জীবন-জীবিকার পথটাও যেন খোলে। সেই বিষয়টার দিকে বিশেষ দৃষ্টি দিয়ে আপনারা এ কার্যক্রমগুলো করেছেন।

শিক্ষার্থীদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে বিভিন্ন এলাকায় নতুন নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নির্মাণ করার কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা এ পর্যন্ত যথেষ্ট পদক্ষেপ নিয়েছি। যেসব এলাকায় স্কুল ছিল না। সেসব এলাকায় আমরা স্কুল তৈরি করে দিচ্ছি।

তিনি বলেন, আমাদের নদী-নালা, খাল বিলের দেশ। ছোট ছোট শিশুদের যোগাযোগ ও যাতায়াতের ব্যবস্থা বিবেচনা করেই কিন্তু আমরা বিভিন্ন এলাকায় স্কুল তৈরির করার ব্যবস্থা নিয়েছি।


আরও খবর
কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নতুনভাবে ভাবতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




মুম্বইয়ে কার সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন দিতিপ্রিয়া?

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

একই মাসে দুবার মুম্বই যাওয়া, তিন-চার দিন ধরে টিনসেল নগরীতে সময় কাটানো, কিন্তু কেন যাওয়া, তার কারণ বলা বারণ। বৃহস্পতিবার দিতিপ্রিয়া রায়ের পোস্ট করা ছবির ফলে খানিকটা ধোঁয়াশা কেটে গেল। বলি অভিনেতা এবং কাস্টিং ডিরেক্টর অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ছবি পোস্ট করেছেন তিনি। তার মানে স্ত্রী ছবির অভিনেতার সঙ্গে অভিনয় করছেন দিতিপ্রিয়া?

দিন কয়েক ধরেই দিতিপ্রিয়া তাঁর ইনস্টাগ্রামে বিভিন্ন ছবি এবং ভিডিয়ো পোস্ট করছেন। যা থেকে স্পষ্ট, তিনি মুম্বইয়ে কোনও শ্যুটিং করছেন। ছবি না ওয়েবসিরিজ, নাকি অন্য কিছু, সে বিষয়ে ধোয়াঁশা কাটেনি। ছবির সঙ্গে দিতিপ্রিয়া লিখেছেন, ভাইবোনের সঙ্গে কী ভাবে ঝগড়া করতে হয়, তা শিখছি। কথায় বোঝা গেল, দাদা-বোনের চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিষেক এবং দিতিপ্রিয়া।

দিতিপ্রিয়া বললেন, আমি এখনই কিছু বলতে পারব না। তবে হ্যাঁ, অভিষেকের সঙ্গে প্রথম দিন দেখা হতেই মনে হল যেন বহু দিনের পরিচিত। ভীষণ সাদামাঠা মানুষ অভিষেক। এত বড় মাপের অভিনেতা, কিন্তু মাটির মানুষ। কাজ করে খুব ভাল লাগছে।

 


আরও খবর
আক্রমণাত্মক মন্তব্যের শিকার নুসরাত

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

হাইকোর্টে জামিন পেলেন মডেল মৌ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




‘কৃষিতে উন্নয়ন করে ক্ষুধামুক্ত ও দারিদ্র্যমুক্ত দেশ গড়তে হবে’

প্রকাশিত:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৪০জন দেখেছেন
Image
সাতক্ষীরা থেকে দিলীপ কুমার দেব: কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, কৃষি কাজ করে দেশ কৃষিতে উন্নয়ন করতে হবে এবং ক্ষুধামুক্ত ও দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলা গড়তে হবে। বাংলাদেশ এক সময় ছিল খাদ্য ঘাটতির দেশ, দুর্ভিক্ষের দেশ, সারা পৃথিবীতে আমরা খাদ্যের জন্য ঘুরে বেড়াতাম। তবে আজকে অত্যন্ত খুশীর কথা, আনন্দের কথা দানা জাতীয় খাদ্যশষ্য চাল, গম, ভুট্টা এগুলোতে আমরা পিছিয়ে নেই, এখন দেশে খাদ্য ঘাটতি নেই। আমরা এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পন্ন। দেশে এখন অভাব নেই, এখন শুধু পুষ্টি সমৃদ্ধ খাদ্য উৎপাদন করতে হবে। এতে কৃষকদের আয় বাড়বে। এজন্য বেশি বেশি করে সবজি চাষ করতে হবে। দেশের সবজির চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানিও করা যাবে।

সবজি বা কাঁচামাল যাতে পঁচে না যায় সে জন্য নতুন প্রযুক্তি নিয়ে আসছে সরকার। পিঁয়াজের চাহিদা যাতে মিটানো যায় সেজন্য দেশের সব কৃষকদের বেশি বেশি করে পিঁয়াজ চাষ করার জন্য বিনামূল্যে পিঁয়াজের বীজ চাষীদের মাঝে বিতরণ করা হচ্ছে। দেশে এখন পিঁয়াজের ঘাটতি হয় না। এজন্য অচিরে পিঁয়াজের ঘাটতি পূরণের জন্য কাজ করছে সরকার।

ভারত থেকে দেশে আর কোন টমেটো আমদানি করা হবে না। এটি আমরা বন্ধ করবো। আমরা আমাদের দেশ থেকে বরং টমেটো বিদেশে রপ্তানি করবো। সেই লক্ষ নিয়ে আমরা কাজ করছি। চাষীদের সহযোগিতা দিচ্ছি এবং প্রণোদোনাও দিচ্ছি। দেশে  গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষ বেশি করে করতে হবে। আগামী বছর সাতক্ষীরা জেলায় ৭০০ একর কৃষি জমিতে টমেটো চাষ করতে হবে। এজন্য চাষের এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোজন করা হবে।

আমাদেরকে এখন পুষ্টি জাতীয় খাবারের নিশ্চয়তা দিতে হবে। এই লক্ষে আমরা আমাদের যে অগ্রাধিকার সেক্টরগুলো আছে তার মধ্যে কৃষি সেক্টরকে আধুনিকিকরণ ও জাতীয়করণ করতে চাই এবং কৃষি পণ্যের প্রক্রিয়াজাত করে এ গুলোর দাম বৃদ্ধি করতে চাই এবং মূল্য সংযোজন করতে চাই।

কৃষিমন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার কামারালী মাঠে গ্রীষ্মকালীন টমেটো ক্ষেত পরিদর্শন শেষে সেখানে এক মতবিনিময় সভায় এসব কথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, উপকুলবর্তী এলাকায় আগে একটি মাত্র ফসল হতো সেটি রোপা আমন। সেখানে আমি প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি ভবিষ্যতে এখানে শীতকালীন ও গ্রীষ্মকালীন সময়ে লবনাক্ত সহিষ্ণু ধানের জাত-৬৭ আবাদ শুরু হবে। ইতিমধ্যে আবাদ শুরুও হয়েছে। এটির ব্যাপক আবাদ হবে। এর জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশও দিয়েছেন যে দ্রুত এই ধান পুরো এলাকায় ছড়িয়ে দেয়ার জন্য। এর জন্য আরো লবনাক্ত মুক্ত পানির ব্যবস্থা করতে হবে। যেটি নিয়ে আমরা চিন্তা করছি এবং কাজও করছি।

সাতক্ষীরা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে সেখানে আরো উপস্থিত ছিলেন, সাতক্ষীরা-১ তালা কলারোয়া আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. মোস্তফা লুৎফুল্লাহ, সাতক্ষীরা-২  সাতক্ষীরা সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, সাতক্ষীরা জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাতক্ষীরা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ মোঃ নজরুল ইসলাম, সাবেক এমপি ইঞ্জিনিয়ার মুজিবুর রহমান, কলারোয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ফিরোজ আহমেদ স্বপন প্রমুখ। কৃষি বিষয়ে মতবিনিময় সভায় কলারোয়া উপজেলার ৩৬৯ জন চাষী উপস্থিত ছিলেন। মতবিনিময় সভা শেষে কৃষি মন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক একই উপজেলার বাটরা গ্রামের আরো কয়েকটি গ্রীষ্মকালীন টমেটো ক্ষেত পরিদর্শন করেন এবং কলারোয়া উপজেলা পরিষদ হয়ে বিকালে যশোর উদ্দেশ্যে রওনা দেন।


আরও খবর