আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

নতুন সম্পর্কে জড়িয়েছেন সাল্লু

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | ২৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নিজেকে যেন চিরকুমার রাখার পণ করেছেন বলিউড সুপারস্টার সালমান খান। ৫৭ বছর বয়সে এসেও এখনো বিয়ে করেননি। কিন্তু স্ত্রী না আসলেও সালমানের জীবনে এসেছে বহু প্রেমিকা। সেই নব্বই দশক থেকে বহু নায়িকা, মডেলের সঙ্গে জড়িয়েছে ভাইজানের নাম।

সর্বশেষ রোমানিয়ান গায়িকা ইউলিয়া ভান্তুরের সঙ্গে প্রেম ছিল সালমানের। বছর কয়েক আগে দুজনকে অনেকবার একসঙ্গে দেখা গেছে। কিন্তু সেই সম্পর্ক এখন অতীত। গুঞ্জন ছড়িয়েছে, নতুন সম্পর্কে জড়িয়েছেন সাল্লু।

কে সেই নারী? যার রূপে-গুণে মজলেন সালমান খান? নাম তার সামান্থা লকউড। তিনি একজন মার্কিন মডেল-অভিনেত্রী। গত ২৭ ডিসেম্বর সালমানের জন্মদিনের আয়োজনকে কেন্দ্র করেই সামান্থার সঙ্গে তার প্রেমের গুঞ্জন চাউর হয়েছে।

ওইদিন সালমানের ফার্মহাউজে জন্মদিনের বিশেষ পার্টি ছিল। সেই অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন সামান্থা। তাদের একটি ঘনিষ্ঠ ছবিও ভাইরাল হয়েছে। যদিও সালমানের সঙ্গে সম্পর্ককে স্রেফ গুজব বলে দাবি করেছেন অভিনেত্রী।

সামান্থা বলেন, মানুষ অকারণে এই গুজব রটাচ্ছে। হ্যাঁ, সলমনের সঙ্গে দেখা হয়েছে তার জন্মদিনে। তিনি খুবই ভালো একজন মানুষ। আমি সবাইকে অনুরোধ করব এই গুজব যাতে বিশ্বাস না করেন।

বলে রাখা প্রয়োজন, সামান্থা লকউডের জন্ম ১৯৮২ সালে। তিনি জনপ্রিয় মার্কিন তারকা গ্যারি লকউড ও অভিনেত্রী ডেনিস ডুব্যারির মেয়ে। নিউইয়র্ক ফিল্ম অ্যাকাডেমি থেকে পড়াশোনা করেছেন এই সুন্দরী। শ্যুট দ্য হিরো, হাওয়াই ফাইভ-ও ইত্যাদি সিনেমায় অভিনয় করেছেন ৩৯ বছরের সামান্থা।

উল্লেখ্য, ইউলিয়া ভান্তুরের আগে সালমানের প্রেম ছিল ক্যাটরিনা কাইফের সঙ্গে। বর্তমানে অভিনেতা ভিকি কৌশলের স্ত্রী ক্যাটরিনা। গত বছরের ৯ ডিসেম্বর তারা বিয়ে করেছেন। 


আরও খবর



পল্লীকবি জসীম উদ্দীনের ১১৯তম জন্মবার্ষিকী আজ

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পল্লীকবি জসীম উদ্দীনের ১১৯তম জন্মবার্ষিকী আজ শনিবার (০১ জানুয়ারি)। কবির জন্মবার্ষিকী পালন উপলক্ষে ফরিদপুরের বিভিন্ন সংগঠন নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে।

১৯০৩ সালের এই দিনে ফরিদপুর সদর উপজেলার কৈজুরী ইউনিয়নের তাম্বুলখানা গ্রামে মামাবাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন জসীম উদ্দীন। কবর, নিমন্ত্রণসহ অনেক স্মরণীয় কবিতা, সোজন বাদিয়ার ঘাট, নকশি কাঁথার মাঠসহ অনেক কালজয়ী কাব্যগ্রন্থ রচনা করে তিনি বাংলা সাহিত্যকে সমৃদ্ধ করে গেছেন। ১৯৭৬ সালের ১৪ মার্চ ৭৩ বছর বয়সে তিনি ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন। ওই দিনই ফরিদপুর সদরের অম্বিকাপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের পৈতৃক বাড়িতে ঐতিহাসিক ডালিম গাছের তলায় তাকে দাফন করা হয়।

পল্লীকবির জন্মবার্ষিকী পালন উপলক্ষে ফরিদপুরের সরকারি-বেসরকারি, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করবে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে সকাল ৯টায় কবির সমাধিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ, ৯টা ১৫ মিনিটে কবির বাড়ির প্রাঙ্গণে আলোচনা সভা এবং আলোচনা সভা শেষে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ফরিদপুরের জেলা প্রশাসক অতুল সরকার এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে পুলিশ সুপার মো. আলিমুজ্জামানের উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন পল্লীকবি জসীম উদ্দীনের জন্মবার্ষিকী উদযাপন কমিটির সভাপতি অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) দীপক কুমার রায়। জেলা পরিষদ ও জসীম ফাউন্ডেশন যৌথভাবে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে।

এছাড়া জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ বিভাগ, জসীম ফাউন্ডেশন, শিল্পকলা একাডেমি, ফরিদপুর সাহিত্য ও সংস্কৃতি উন্নয়ন সংস্থা, ফরিদপুর সাহিত্য পরিষদ, জাতীয় কবিতা পরিষদ ফরিদপুর শাখা, কবির প্রতিষ্ঠিত আনসারউদ্দীন উচ্চ বিদ্যালয় কবির জন্মবার্ষিকী পালন করবে।


আরও খবর



সৈয়দ আশরাফ ছিলেন অকুতোভয়: হানিফ

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | ২৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেছেন, সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বাংলাদেশের রাজনীতিতে একজন অত্যন্ত সজ্জন, সৃজনশীল মানুষ ছিলেন। তার আচরণ, কথাবার্তা ছিলো পরিশিলীত। দুঃসময়ে তিনি ছিলেন অকুতোভয়।

সোমবার (৩ জানুয়ারি) আওয়ামী লীগের প্রয়াত সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের তৃতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

হানিফ বলেন, রাজনৈতিক অঙ্গনে কখনো কারো মনে আঘাত দিয়ে কথা বলা, কাউকে কোনো কটূক্তির নজির ছিলো না। একজন মানুষের মধ্যে যে সভ্য আচার-আচরণ, সেগুলো সৈয়দ আশরাফের কাছ থেকে অনুকরণীয় ছিলো। জাতির অনেক ক্রান্তিলগ্নে সৈয়দ আশরাফের ভূমিকা চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে। বিশেষ করে ওয়ান ইলেভেনের সময় ২০০৭ সালে তত্তাববধায়ক সরকারের সময় যখন দুই নেত্রীকে গ্রেফতারের মধ্য দিয়ে দেশের রাজনীতিতে যখন ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছিলো সেই সময়ে সৈয়দ আশরাফের ভূমিকা বাংলাদেশের ইতিহাসে স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

তিনি বলেন, ২০১৩ সালের ৫ মে হেফাজতের তাণ্ডবের সময় সৈয়দ আশরাফের কঠোর ও বলিষ্ঠ নেতৃত্ব হেফাজতের ভীত কাপিয়ে দিয়েছিলো। সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের সময়োপযোগী দায়িত্বশীল কর্মকাণ্ডের মধ্যে রাজনীতিতে সুদৃঢ় অবস্থান তৈরি করেন। সব শ্রেণিপেশার মানুষের কাছে অত্যন্দ জনপ্রিয় ছিলেন। তিনি সারাজীবন অনুকরণীয় হয়ে থাকবেন।

মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, নির্বাচন কমিশন গঠনে সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতার কারণে রাষ্ট্রপতি রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপের আহবান করেছেন। বিএনপি যখন ক্ষমতায় ছিল তখন তারা একক ক্ষমতাবলে নির্বাচন কমিশন গঠন করেছিল। কারো সঙ্গে আলাপের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেনি। কিন্তু আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি বিধায় রাষ্ট্রপতি সকল রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে আলাপ আলোচনা করেই রাজনৈতিক দলের মতামত ও পরামর্শ নিয়ে সার্চ কমিটির মাধ্যমে একটা ভালো নির্বাচন কমিশন গঠন করার জন্য সংলাপ আহ্বান করেছেন। সেই সংলাপে যদি কেউ অংশ না নেয়, সেটি তাদের দায়িত্বহীনতার পরিচয় দেবে। আমার বিশ্বাস সকলেই অংশ নেবে। এক্ষেত্রে দুই একটি দল যদি সংলাপে অংশ না নেয় তাও রাষ্ট্রপতিকে নির্বাচন কমিশন গঠন করতেই হবে সাংবিধানিক বাধ্য বাধকতার কারণে। এতে সংকট সৃষ্টি হবে না। হয়তো সকলের অংশগ্রহণ থাকলে যেটা সর্বজনীন হতো তা হয়তো কিছুটা ঘাটতি দেখা যেতে পারে। নির্বাচন কমিশন গঠন হবে সাংবিধানিক বাধ্যতা অনুযায়ী।

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমরাও চাই বেগম খালেদা জিয়া শুধু একজন রাজনৈতিক নেত্রীই নন, সাধারণ মানুষ হিসেবেও অসুস্থতা থেকে সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরুক। তবে এটাও মনে রাখতে হবে আইন সবার জন্য সমান। কোনো ব্যক্তি বিশেষের জন্য আইন হয়নি বা বাংলাদেশে সেই বিধানও নেই। আইন পরিবর্তনেরও সুযোগ নেই। তার বিদেশে চিকিৎসার জন্য একটা পথ খোলা আছে; আইনের মাধ্যমে সেটা হচ্ছে তিনি যদি রাষ্ট্রপতির কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন। দণ্ড মওকুপ হলে তিনি বিদেশ যেতে পারবেন।

এসময় আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া ও সৈয়দ আশরাফের বোন সৈয়দা জাকিয়া নূর, শাহজাদা মহিউদ্দিন, রাশেদুল মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন।

নিউজ ট্যাগ: আওয়ামী লীগ

আরও খবর



আমি নির্বাচিত হলে কোনো হোল্ডিং ট্যাক্স দিতে হবে না : মান্নান তালুকদার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22 | ১৭০জন দেখেছেন

Image

শরীয়তপুর ব্যুরো

ষষ্ঠ ধাপে জমে উঠেছে শরীয়তপুর সদর উপজেলার চিকন্দী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন চেয়ারম্যান সাধারণ সদস্যরা। চিকন্দী ইউনিয়নবাসীকে দিয়ে যাচ্ছেন নানানরকম প্রতিশ্রুতি। এই ইউনিয়নে জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে প্রচার প্রচারণায় চশমা প্রতীক নিয়ে এগিয়ে রয়েছেন সাবেক চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট আবদুল মান্নান তালুকদার। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত ভোটারদের বাড়ি  বাড়ি গিয়ে করছেন চশমা প্রতীকে ভোট প্রার্থনা। এবার নির্বাচিত হলে চিকন্দী ইউনিয়নবাসীকে কোনো হোল্ডিং ট্যাক্স দিতে হবে না বলে জানান অ্যাডভোকেট আবদুল মান্নান তালুকদার।

 

চিকন্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রার্থী (চশমা প্রতীক) অ্যাডভোকেট আবদুল মান্নান তালুকদার বলেন, আমি এই নির্বাচনে চশমা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছি। এর আগে চিকন্দী ইউনিয়নের জনগণ আমাকে ২০১১ সালে একবার বিপুল ভোটে নির্বাচিত করেছিল। ২০১১ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত আমি চেয়ারম্যান ছিলাম আমি চেয়ারম্যান থাকাকালীন সময়ে চিকন্দী ইউনিয়ন এর জনগণ জানে আমি তাদের জন্য কি করেছি এবং আমি চেয়ারম্যান হওয়ার পর শুধু আমি চেয়ারম্যান ছিলাম আমার গুষ্টি গীয়াতি বা কোন ভাই-ব্রাদার চেয়ারম্যানী করতে আসে নাই বা কোনো ক্ষমতা দেখাতেও আসেনি। আমার প্রতিপক্ষ যারা আছে তারা যদি চেয়ারম্যান হয় তাদের বংশের পরিবারের সবাই চেয়ারম্যান হবে এবং এই এলাকার লোকজন অনেক চাপে থাকবে। যদি চিকন্দী ইউনিয়নের জনগণ আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে তাহলে আমি পরিকল্পনা করেছি এই ইউনিয়নের রাস্তাঘাট, কালবাটসহ যেসব প্রধান প্রধান সমস্যা আছে আমি সমস্যাগুলো দূর করে দিব ইনশাআল্লাহ। চিকন্দী বাসিকে যে হোল্ডিং ট্যাক্স দিতে হয় আমি নির্বাচিত হলে আমার নিজস্ব অর্থায়নে এই টেক্স দিয়ে দিব। চিকন্দী ইউনিয়নের জনগণকে হোল্ডিং ট্যাক্স দিতে হবে না।

 


আরও খবর



মেয়র শাহনেওয়াজকে ধরতে হোটেল ঘিরে রেখেছে র‌্যাব

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৩ ডিসেম্বর ২০২১ | ৭২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ পৌরসভার মেয়র শাহনেওয়াজ শাহানশাহকে ধরতে রাজধানীর উত্তরার ৬ নম্বর সেক্টরের হোটেল ডি মেরিডিয়ান ঘিরে রেখেছে র‍্যাব। শিক্ষা অফিসারকে থাপ্পড় দেওয়ায় অপরাধে বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) সকাল থেকে ওই হোটেলে অভিযান চালাচ্ছে র‍্যাব।

র‍্যাব সদর দফতরের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক এএসপি আ ন ম ইমরান খান বলেন, অভিযান চলমান রয়েছে। গ্রেপ্তারের পর এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

উল্লেখ্য, জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ সরকারি হাইস্কুল মাঠে বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান চলাকালে সবার সামনেই উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মেহেরউল্লাহকে চড় মেরেছেন ও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেছেন শাহনেওয়াজ। মূলত পুষ্পস্তবক দেওয়ার সময় মেয়রের নাম ৫ নম্বরে ডাকায় শিক্ষা কর্মকর্তা ওপর চড়াও হন তিনি।

পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগের পর থানায় মামলা করেন ওই শিক্ষা কর্মকর্তা। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ বিভিন্ন গণমাধ্যমে ফলাও করে সংবাদ প্রকাশ হয়। এরপর শাহনেওয়াজকে সাময়িক বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার বিভাগ।


আরও খবর



২৩তম প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | ৬২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশের ২৩তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীকে। রাষ্ট্রপতির নির্দেশক্রমে আইন মন্ত্রণালয় এ প্রজ্ঞাপন জারি করে।

বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী আপিল বিভাগের পাঁচ বিচারপতির মধ্যে জ্যেষ্ঠতার দিক দিয়ে তৃতীয় নম্বরে ছিলেন।

এদিকে বর্তমান প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন অবসরে গেছেন আজ (বৃহস্পতিবার)। দেশের ২২তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে আজই তার শেষ কর্মদিবস। সংবিধান অনুযায়ী ৬৭ বছর বয়স পর্যন্ত বিচারপতি পদে থাকা যায়। সে হিসাবে বর্তমান প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের ৬৭ বছর পূর্ণ হচ্ছে ৩০ ডিসেম্বর।

দীর্ঘদিনের রীতি অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি আপিল বিভাগের যে বিচারপতিকে প্রধান বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ দেবেন, তার বিষয়ে সম্মতি দিয়ে প্রথমে আইন মন্ত্রণালয়কে জানান। এরপর এ সংক্রান্ত ফাইল প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে হয়ে বঙ্গভবনে যায়। সেখানে রাষ্ট্রপতি স্বাক্ষরের পর প্রধান বিচারপতি নিয়োগের গেজেট জারি করে আইন মন্ত্রণালয়।

সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইট থেকে পাওয়া তথ্য অনুসারে, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী কুষ্টিয়ার সন্তান। তিনি জেলার খোকসা উপজেলার রমানাথপুর গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা আবদুল গফুর মোল্লা। তিনি ১৯৭২ সালে খোকসা জানিপুর পাইলট হাইস্কুল থেকে এসএসসি পাস করেন। ১৯৭৪ সালে সাতক্ষীরার সরকারি পিসি কলেজ থেকে আইএসসি, পরে একই কলেজ থেকে বিএ পাস করেন। তিনি মাস্টার্স করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ থেকে। এলএলবি ধানমণ্ডি ল কলেজ থেকে।

১৯৮১ সালে ঢাকা জজ কোর্টে আইন পেশায় যোগদান করেন তিনি। ১৯৮৩ সালে হাইকোর্ট বিভাগে এবং ১৯৯৮ সালে আপিল বিভাগে আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হন।

হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী ২০০১ সালে হাইকোর্টে অতিরিক্ত বিচারপতি, ২০০৯ সালে হাইকোর্ট ডিভিশনে স্থায়ী বিচারপতি এবং ২০১৩ সালের ২৮ মার্চ আপিল বিভাগের বিচারপতি হিসেবে নিয়োগ পান।


আরও খবর
রিফাত হত্যা: খালাস চেয়ে মিন্নির জেল আপিল

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22