আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

‘ওমিক্রন’ বন্ধ হবে না এইচএসসি পরীক্ষা: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ | ১১০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্টের কারণে এইচএসসি পরীক্ষা বন্ধ হবে না, স্বাস্থ্যবিধি মেনে যথা সময়ে নেওয়া হবে

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনার নতুন ধরন ওমিক্রন ধরা পড়ছে। করোনার নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট থেকে বাঁচতে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থায় রয়েছে বাংলাদেসহ বিভিন্ন দেশ। এমন অবস্থায় আগামী ২ ডিসেম্বর থেকে এইচএসসি পরীক্ষা হবে কি না তা নিয়ে দেখা দিয়েছে শঙ্কা।

এ বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্টের কারণে এইচএসসি পরীক্ষা বন্ধ হবে না, স্বাস্থ্যবিধি মেনে যথা সময়ে নেওয়া হবে।

সোমবার (২৯ নভেম্বর) সকালে রাজধানীর নবাবগঞ্জ পার্কে ঢাকা দক্ষিণ আওয়ামী লীগের ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের ইউনিট সম্মেলনের উদ্বোধনের পর তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় ওমিক্রনকে অত্যন্ত বিধ্বংসী মন্তব্য করে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান শিক্ষামন্ত্রী।

উল্লেখ্য, এবারের পরীক্ষায় অংশ নেবেন ১৩ লাখ ৯৯ হাজার ৬৯০ জন শিক্ষার্থী। এদের মধ্যে ছাত্র ৭ লাখ ২৯ হাজার ৭৩৮ জন এবং ছাত্রী ৬ লাখ ৬৯ হাজার ৯৫২ জন। সাধারণ ৯টি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে এইচএসসি পরীক্ষা দেবে ১১ লাখ ৩৮ হাজার ১৭ জন। ছাত্র ৫ লাখ ৬৩ হাজার ১১৩ জন এবং ছাত্রী ৫ লাখ ৭৪ হাজার ৯০৪ জন।

মাদরাসা বোর্ডের অধীনে আলিম পরীক্ষা দেবে ১ লাখ ১৩ হাজার ১৪৪ জন। ছাত্র ৬১ হাজার ৭৩৮ জন এবং ছাত্রী ৫১ হাজার ৪০৬ জন। এইচএসসি (বিএম/ ভোকেশনাল) পরীক্ষা দেবে ১ লাখ ৪৮ হাজার ৫২৯ জন। ছাত্র ১ লাখ ৪ হাজার ৮২৭ জন এবং ছাত্রী ৪৩ হাজার ৬৪২ জন।


আরও খবর
গণ-অনশনে শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২




নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ৩৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জনবল নিতে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয়। এতে পাঁচ ভিন্ন পদে ১৫ জনকে নিতে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। আগামীকাল ২৯ ডিসেম্বর থেকে আবেদন করা যাবে অনলাইনে।

পদের নাম : সাঁটমুদ্রাক্ষরিক-কাম-কম্পিউটার অপারেটর (গ্রেড-১৩)

পদ সংখ্যা: ৩ জন

আবেদনের যোগ্যতা: কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি। কম্পিউটার পরিচালনা ও লিখনে দক্ষতা থাকতে হবে।

বেতন: ১১,০০০/- থেকে ২৬,৫৯০/-

পদের নাম : কম্পিউটার অপারেটর (গ্রেড-১৩)

পদ সংখ্যা: ১ জন

আবেদনের যোগ্যতা: কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি। কম্পিউটার পরিচালনা ও লিখনে দক্ষতা থাকতে হবে।

বেতন: ১১,০০০/- থেকে ২৬,৫৯০/-

পদের নাম : ক্যাশিয়ার  (গ্রেড-১৪)

পদ সংখ্যা: ১ জন

আবেদনের যোগ্যতা: কোনো স্বীকৃত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বাণিজ্য বিভাগে স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি। কম্পিউটার পরিচালনায় দক্ষতা থাকতে হবে।

বেতন: ১০,২০০/- থেকে ২৪,৬৮০/-

পদের নাম : ক্যাশ সরকার (গ্রেড-১৭)

পদ সংখ্যা: ১ জন

আবেদনের যোগ্যতা: কোনো স্বীকৃত বোর্ড থেকে বাণিজ্য বিভাগে উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের ডিগ্রি। কম্পিউটার পরিচালনায় দক্ষতা থাকতে হবে।

বেতন: ৯,০০০/- থেকে ২১,৮০০/-

পদের নাম : অফিস সহায়ক (গ্রেড-২০)

পদ সংখ্যা: ৯ জন

আবেদনের যোগ্যতা: কোনো স্বীকৃত বোর্ড থেকে মাধ্যমিক বা সমমানের ডিগ্রি।

বেতন: ৮,২৫০/- থেকে ২০,০১০/-

বয়স: ২০২০ সালের ২৫ মার্চ হিসেবে ১৮-৩০ বছর হলে আবেদন করা যাবে। বিশেষ ক্ষেত্রে বয়স সর্বোচ্চ ৩২ বছর।

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহী প্রার্থীরা http://mos.teletalk.com.bd/ -এ ওয়েবসাইট থেকে আবেদন করতে পারবেন। বিজ্ঞপ্তি দেখুন এখানে

আবেদনের শেষ সময়: ২৭ জানুয়ারি ২০২২ বিকাল ৫টা পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করা যাবে।


আরও খবর



লঞ্চে আগুন : অভিযান-১০ লঞ্চের দুই মাস্টার কারাগারে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ৭৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে ঢাকা থেকে বরগুনাগামী অভিযান-১০ লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় দায়িত্ব অবহেলার অভিযোগে করা মামলায় লঞ্চটির দুই মাস্টারকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) নৌ-আদালতের (মেরিন কোর্ট) বিচারক স্পেশাল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট জয়নাব বেগমের আদালতে তারা আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেন। আদালত তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

তারা হলেন- লঞ্চের ইনচার্জ মাস্টার মো. রিয়াজ সিকদার ও দ্বিতীয় মাস্টার মো. খলিলুর রহমান। রাষ্ট্রপক্ষে নৌপরিবহন অধিদফতরের প্রসিকিউটিং অফিসার বেল্লাল হোসাইন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

রাষ্ট্রপক্ষে নৌপরিবহন অধিদফতরের প্রসিকিউটিং অফিসার বেল্লাল হোসাইন জামিনের বিরোধিতা করে বলেন, অভিযুক্তরা তাদের কর্তব্যে চরম অবহেলা করে দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে মর্মান্তিক ও কলঙ্কজনক নৌ-দুর্ঘটনা ঘটিয়েছেন। আসামিরা যাত্রীদের জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত না করে বিপদে লঞ্চ ছেড়ে পালিয়েছেন। তারা কোনো জীবন রক্ষাকারী সরঞ্জাম ব্যবহার করেননি। অগ্নিকাণ্ডের পর জাহাজ তীরে না ভিড়িয়ে চালু রেখে চরম অবহেলা প্রদর্শন করে এই ট্রাজেডি ঘটান। এই ঘটনায় ৪১টি তাজা প্রাণ পুড়ে ছাই হয়েছে। ন্যায় বিচার শুধু করলেই হয় না, ন্যায় বিচার দেখিয়ে দিতে হয়। আমরা আসামিদের জামিনের ব্যাপারে জোর আপত্তি করছি।

অন্যদিকে আসামিপক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. জাহাঙ্গীর হোসেন। তিনি আসামিদের জামিন প্রার্থনা করেন। তিনি বলেন, জামিন পেলে আসামিরা বিচারে অংশগ্রহণ করবে এবং পলাতক হবে না।

এর আগে, গত ২৬ ডিসেম্বর স্পেশাল মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট জয়নাব বেগমের নৌ-আদালতে নৌ-অধিদফতরের প্রধান পরিদর্শক মো. শফিকুর রহমান স্পেশাল মেরিন আইনের ৫৬/৬৬ ও ৭০ ধারায় অভিযোগ এনে আটজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। আদালত মামলা আমলে নিয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

প্রসঙ্গত, ঢাকা থেকে বরগুনা যাওয়ার পথে ঝালকাঠির গাবখানের কাছাকাছি সুগন্ধা নদীতে থাকা অবস্থায় গত বৃহস্পতিবার রাত ৩টার পর আগুনে পুড়ে যায় অভিযান-১০। ওই ঘটনায় এ পর্যন্ত ৪১ জনের মৃত্যুর খবর এসেছে। আহত হয়ে ৮০ জনের বেশি হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।


আরও খবর
রিফাত হত্যা: খালাস চেয়ে মিন্নির জেল আপিল

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22




বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের ভাষণ নির্দেশিত আদর্শে দেশ চলবে : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | ৩০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জাতির পিতা ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে যে দিকনির্দেশনামূলক ভাষণ দিয়েছিলেন সেমতেই বাংলাদেশ চলবে। আর দেশের এই অগ্রযাত্রা যাতে কোনোভাবে ব্যাহত না হয় সে বিষয়েও সকলকে সতর্ক করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, 'জাতির পিতা ১০ জানুয়ারি দেশে ফিরে এসে একটি স্বাধীন রাষ্ট্র কিভাবে চলবে সেই নীতিনির্ধারণী বক্তৃতা দিয়েছিলেন। যে আদর্শ নিয়ে বাংলাদেশ চলবে সেই আদর্শ তিনি ব্যক্ত করেছিলেন। আর সেই আদর্শ নিয়েই আমাদের চলতে হবে। বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আর দেশের এই অগ্রযাত্রা যাতে কোনোভাবে ব্যাহত না হয়।'

আজ মঙ্গলবার বিকেলে জাতির পিতার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ আয়োজিত আলোচনাসভায় সভাপতির ভাষণে তিনি এ কথা বলেন। তিনি গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় ২৩ বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় ভার্চুয়ালি অংশগ্রহণ করেন।

আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে এ দেশের উন্নয়নের চাকাটা গতিশীল থাকবে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, 'খুনি- যুদ্ধাপরাধী, দুর্নীতিবাজদের কোনো স্থান বাংলার মাটিতে হবে না। এই কথাটা তাদেরকে স্পষ্ট জানিয়ে দিতে হবে। জনগণের অধিকার নিয়ে আমরা কাউকে ছিনিমিনি খেলতে দেব না।'

শেখ হাসিনা বলেন, 'বাংলাদেশের মানুষের ভোটের অধিকার নিয়ে অতীতে যারা ছিনিমিনি খেলেছে তারা তাদের শাস্তি পেয়েছে। বাংলাদেশের মানুষ তাদের ক্ষমতা থেকে হঠিয়েছে। আর জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়েছে বলেই আমরা আজ ১৩ বছর পূর্ণ করতে পেরেছি এবং পরপর তিনবার ক্ষমতায় আসতে পেরেছি। জনগণের ভোটে নির্বাচিত না হলে সেটা সম্ভব ছিল না। এটা হচ্ছে বাস্তবতা। আর এই বাস্তবতাকে শিকার করতে হবে।'

দলের অন্যতম যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন। আরো বক্তৃতা করেন দলের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান ও এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দিপু মনি ও আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, কেন্দ্রীয় সদস্য ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম এমপি, মহানগর আওয়ামী লীগ দক্ষিণ এবং উত্তরের সভাপতি আবু আহমেদ মান্নাফী ও শেখ বজলুর রহমান। দলের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ এমপি গণভবন থেকে অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন।


আরও খবর



জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক তিন মুখ্যমন্ত্রীকে ফের গৃহবন্দি

প্রকাশিত:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০১ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক তিন মুখ্যমন্ত্রীকে ফের গৃহবন্দি করা হয়েছে। সীমা নির্ধারন কমিশনের বিরুদ্ধে তারা একটি বিক্ষোভ-প্রতিবাদের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। বিক্ষোভ ঠেকাতেই তাদের গৃহবন্দি করা হয়েছে। ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

ফারুক আবদুল্লাহ, মেহবুবা মুফতি এবং ওমর আবদুল্লাহ শ্রীনগরের গুপকর রোডে অবস্থান করছিলেন। উচ্চ নিরাপত্তা বেষ্টিত ওই এলাকা সিল করা হয়েছে।

পুলিশ ওই এলাকায় রাজনৈতিক নেতাদের বাড়ির সামনে নিরাপত্তা বাহিনীর গাড়ি মোতায়েন করেছে। ফলে রাজনৈতিক নেতাদের বাড়িতে বাইরে থেকে কেউ প্রবেশ করতে পারছে না এবং কেউ বাড়ি থেকে বেরও হতে পারছেন না।

সম্প্রতি জম্মু -কাশ্মীরের বিধানসভায় প্রকাশিত সীমা নির্ধারন কমিশনের আসন বণ্টনের বিষয়ে খসড়া প্রস্তাবের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ ঘোষণা করে ফারুক আবদুল্লাহর নেতৃত্বে গুপকার জোট।

ওই কমিশন কাশ্মীরের একটি আসনের বিপরীতে জম্মু প্রদেশের জন্য ছয়টি অতিরিক্ত আসনের প্রস্তাব করেছে, যা উভয় প্রদেশের জনসংখ্যার অনুপাতে গ্রহণযোগ্য নয়।

বিরোধীরা এই প্রস্তাবকে লজ্জাজনক বলে উল্লেখ করেছেন। তাদের অভিযোগ, প্রস্তাবিত এই আসন বণ্টন প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে একজনের একটি ভোট এই অধিকারের পরিপন্থী।

এদিকে গৃহবন্দি হওয়ার পর ওমর আবদুল্লাহ একটি টুইট বার্তায় তার এবং তার বাবার বাড়ির পরিস্থিতি দেখান। তার বাবা এবং বোনও বাড়িতে বন্দি অবস্থায় রয়েছেন। তাদের বাড়ির বাইরে নিরাপত্তা বাহিনীর ট্রাক মোতায়েন রয়েছে।


আরও খবর
হাসপাতালে ভর্তি মাহাথির মোহাম্মদ

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২




আকাশে ‘অলৌকিক’ শিশুর প্রসব করালেন মুসলিম চিকিৎসক

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত মাসে কাতার এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে করে দোহা থেকে উগান্ডার এন্টেবে শহরে যাচ্ছিলেন কানাডিয়ান চিকিৎসক ডা. আয়েশা খাতিব। পথিমধ্যে ফ্লাইটেই উগান্ডার এক অভিভাসী নারী কর্মী অলৌকিক কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। সেটির প্রসব করিয়ে এখন আলোচনায় কানাডিয়ান এই মুসলিম চিকিৎসক।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঘটনাটি ঘটে গত ৫ ডিসেম্বর। কিন্তু টরন্টোতে করোনা রোগীদের চিকিৎসায় ব্যস্ত থাকায় সেটি সবাইকে জানাতে পারছিলেন না ডা. আয়েশা খাতিব। অবশেষে শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট শেয়ার করেছেন তিনি। সেখানে নিজের অভিজ্ঞতা ও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন।

টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ডা. আয়েশা খাতিব দোহা থেকে উগান্ডার এন্টেবে শহরে যাচ্ছিলেন। এক ঘণ্টা পরই ইন্টারকম দিয়ে জিজ্ঞেস করা হয়, ফ্লাইটে কোনো চিকিৎসক আছে কি না? এর পরই তিনি সেখানে যান এবং অলৌকিক শিশুর প্রসব সম্পন্ন করান।

উগান্ডার ওই নারী সৌদি আরব থেকে নিজ দেশে ফিরছিলেন। মূলত সন্তান জন্মদানের উদ্দেশ্যেই তার দেশে ফেরা। কিন্তু সৃষ্টিকর্তার কি হুকুম দেখুন, ফ্লাইটেই সন্তান পৃথিবীর আলোর মুখ দেখেছে। আর নাম রাখা হয়েছে চিকিৎসকের সঙ্গে মিলিয়ে অলৌকিক আয়েশা

ডা. আয়েশা খাতিব বিবিসিকে বলেন, ইন্টারকম থেকে ভয়েস শোনার পর আমি গিয়ে দেখি রোগীকে ঘিরে জটলা বেঁধে আছে। তখন এটিকে হার্ট অ্যাটাকের মতো জটিল পরিস্থিতি মনে হচ্ছিল। কিন্তু আরও কাছে গিয়ে দেখি তার সন্তান পৃথিবীতে আসার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছে।

তখন আরও দুই যাত্রীর সহায়তায় প্রসবের কাজ সম্পন্ন করি। শিশুটি দৃঢ়ভাবে কাঁদছিল। শিশুটি স্থিতিশীল এবং মাও সুস্থ ছিল। তখন আমি অভিনন্দন জানাই এবং বলি, কন্যা সন্তান হয়েছে। এরপর পুরো ফ্লাইটে তালি ও উচ্ছ্বাস ছড়িয়ে পড়ে। সবাই ঘটনাটি দেখছিল, যোগ করেন তিনি।


আরও খবর
হাসপাতালে ভর্তি মাহাথির মোহাম্মদ

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২