আজঃ শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

অভিনয়ের চেয়ে ভিন্ন ধরনের কাজে বেশি ব্যস্ত অপু বিশ্বাস

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৪৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দীর্ঘ বিরতির পর কাজে ফিরেছেন ঢালিউডের শীর্ষ নায়িকা অপু বিশ্বাস। করোনাভাইরাসের কারণেই তিনি অভিনয়ে বিরতি নিয়েছিলেন। বিরতি ভেঙেছেন বন্ধন বিশ্বাসের পরিচালনায় ছায়াবৃক্ষ নামের একটি সিনেমা দিয়ে।

এদিকে প্রেম-প্রীতির বন্ধন নামে আরেকটি ছবিতেও শুটিং করছেন এই চিত্রনায়িকা। সেটিরও ৭০ ভাগ কাজ শেষ করেছেন অপু বিশ্বাস। এছাড়া ঈষা খাঁ নামের নতুন একটি ছবির কাজও হাতে আছে তার।

সম্প্রতি ছবিতে অভিনয়ের চেয়ে অন্য ধরনের কাজে বেশি ব্যস্ত দেখা যাচ্ছে অপু বিশ্বাসকে। বলা যায় বিকল্প মাধ্যমেই সরব রয়েছেন এই অভিনেত্রী। সম্প্রতি একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের শুভেচ্ছা দূত হিসেবে আছেন তিনি।

এছাড়াও সরব রয়েছেন ফ্যাশন শো, ব্রাইডাল শো, র্যাম্প-মডেলিং শোয়ের লাল গালিচায়। গত রবিবার এরকম একটি ব্রাইডাল ফ্যাশন শোতে বিশেষ অতিথি হিসেবে লালগালিচায় পা রেখেছেন তিনি। পুরস্কার ও সনদ তুলে দিয়েছেন অংশগ্রহণকারীদের হাতে। অংশগ্রহণকারীরাও একজন স্বনামধন্য চলচ্চিত্র অভিনেত্রীকে কাছে পেয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করছেন।

এ প্রসঙ্গে অপু বিশ্বাস বলেন, ভক্ত-অনুসারী ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের সঙ্গে খুব কাছ থেকে মিশতে ইচ্ছে করে। সবাই জানেন আমি একজন অভিনেত্রী। সিনেমা এবং গণমাধ্যমের সুবাদে গ্রাম-বাংলার মানুষ আমাকে খুব কাছ থেকে চেনেন, জানেন, জানার চেষ্টা করেন। আমিও তাদের কাছাকাছি থাকতে চাই। এজন্য একটু কষ্ট হলেও শুটিং ও ইভেন্টগুলো সমন্বয় করেই চলি।

নিউজ ট্যাগ: অপু বিশ্বাস

আরও খবর
আক্রমণাত্মক মন্তব্যের শিকার নুসরাত

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১

হাইকোর্টে জামিন পেলেন মডেল মৌ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




করোনায় আরও ৪৮ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:শনিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

একদিনে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বেড়েছে। এ সময়ে ৪৮ জনের মৃত্যুর কথা জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর, যা গতকাল (শুক্রবার) ছিল ৩৮ জন। তাদের নিয়ে দেশে ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে সরকারি হিসাবে এখন পর্যন্ত মোট মারা গেলেন ২৬ হাজার ৮৮০ জন।

শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, একই সময়ে আগের ২৪ ঘণ্টার তুলনায় করোনায় নতুন শনাক্ত কমেছে। একদিনে করোনায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ৩২৭ জন। তাদের নিয়ে দেশে করোনাতে এখন পর্যন্ত সরকারি হিসাবে মোট শনাক্ত হলেন ১৫ লাখ ২৮ হাজার ৫৪২ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাতে রোগী শনাক্তের হার সাত দশমিক তিন শতাংশ, যা গতকাল ছিল ৮ দশমিক ৬৫ শতাংশ। আর এখন পর্যন্ত শনাক্তের হার ১৬ দশমিক ৫৮ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯৬ দশমিক ৫১ শতাংশ আর শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুহার এক দশমিক ৭৬ শতাংশ।

একদিনে করোনার নমুনা সংগৃহীত হয়েছে ১৮ হাজার ৬৮৩টি আর নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৮ হাজার ৮৬৯টি। স্বাস্থ্য অধিদফতর জানাচ্ছে, দেশে এখন পর্যন্ত করোনার মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৯২ লাখ ২১ হাজার ৬৫৯টি। এর মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ৬৮ লাখ ১৭ হাজার ১২৬টি আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা হয়েছে ২৪ লাখ চার হাজার ৫৩৩টি।

একই সময়ে মারা যাওয়া ৪৮ জনের মধ্যে পুরুষ ২২ জন আর নারী ২৬ জন। তাদের নিয়ে দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত মোট পুরুষ মারা গেলেন ১৭ হাজার ৩৩৬ জন আর নারী মারা গেলেন নয় হাজার ৫৪৪ জন।

মারা যাওয়া ৪৮ জনের মধ্যে বয়স বিবেচনায় ৯১ থেকে ১০০ বছরের মধ্যে আছেন একজন, ৮১ থেকে ৯০ বছরের মধ্যে তিনজন, ৭১ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে নয়জন, ৬১ থেকে ৭০ বছরের মধ্যে ১৭ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে ১৩ জন, ৪১ থেকে ৫০ বছরের মধ্যে চারজন আর ৩১ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে রয়েছেন একজন।

তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের আছেন ২২ জন, চট্টগ্রাম বিবাগের ১২ জন, খুলনা ও সিলেট বিভাগের দুইজন করে, বরিশাল ও ময়মনসিংহ বিভাগের একজন করে আর রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের আছেন চারজন করে।

অধিদফতর জানাচ্ছে, মারা যাওয়া ৪৮ জনের মধ্যে সরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন ৪৪ জন আর বেসরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন চারজন।


আরও খবর
করোনায় আরও ৩১ জনের মৃত্যু

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১




কানাডায় স্ত্রীর নামে এমপি শিমুলের বাড়ি : তথ্য জানতে চান হাইকোর্ট

প্রকাশিত:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
২০১৮ সালের বিবরণীতে দু'জনের সম্পদের মূল্য দেখানো হয় ছয় কোটি ৫৬ লাখ টাকা। মাত্র পাঁচ বছরে সম্পদ বৃদ্ধির এই হার প্রায় ১৩ গুণ!

নাটোর-২ (সদর-নলডাঙ্গা) আসনের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের স্ত্রী শামীমা সুলতানা জান্নাতীর নামে কানাডায় বাড়ি কেনার বিষয়ে যাবতীয় তথ্য জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট।

রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) দ্বৈত নাগরিক ও দ্বৈত পাসপোর্টধারীদের নিয়ে এক মামলার শুনানির সময় বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি এস এম মজিবুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এক আদেশে এই তথ্য জানতে চান।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক। তিনি বলেন, দ্বৈত নাগরিক ও দ্বৈত পাসপোর্টধারীদের তালিকা থেকে নাটোরের এমপি শফিকুল ইসলাম শিমুল ও তার স্ত্রী শামীমা সুলতানা জান্নাতীর নাম বাদ পড়ায় তাদের নাম অন্তর্ভুক্ত করতে হাইকোর্টে আবেদন করা হয়। এ বিষয়ে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদন সংযুক্ত করে নাটোরের সানরাইজ সমাজ কল্যাণ সংস্থার সভাপতি মো. রেজাউল চৌধুরী হাইকোর্টে পক্ষভুক্ত হওয়ার আবেদন করেন।

আজ আদালত আবেদন নিষ্পত্তি করে তার কাছে নাটোরের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের স্ত্রীর নামে কানাডায় বাড়ি কেনার বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য থাকলে তা নিজে হলফনামা করে হাইকোর্ট, দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষকে জানাতে আদেশ দিয়েছেন।

স্ত্রীর নামে কানাডায় বাড়ি কিনেছেন এমপি শিমুল শিরোনামে প্রকাশিত একটি জাতীয় দৈনিকের প্রতিবেদনে বলা হয়, কানাডার টরন্টো থেকে মাত্র ২৫ কিলোমিটার দূরত্বের নিরিবিলি শহর স্কারবোরো। শহরটির হেয়ারউড সড়কের ৭৩ নম্বর বাড়িটির মালিক একজন বাংলাদেশি নাগরিক। নাম শামীমা সুলতানা জান্নাতী। গত বছরের শুরুর দিকে প্রায় দুই মিলিয়ন কানাডিয়ান ডলার খরচ করে ডুপ্লেক্স ওই বাড়িটি কেনেন তিনি। বাংলাদেশি পাসপোর্ট অনুযায়ী তার পেশা 'গৃহবধূ' হলেও শামীমা কোনো সাধারণ নারী নন, নাটোরের সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের স্ত্রী তিনি।

প্রকাশিত ওই প্রতিবেদনে বলা হয়- টরন্টোর ল্যান্ড রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল বলছে, ২০২০ সালের ১০ জানুয়ারি পাঁচ রুম, পাঁচ বাথ এবং তিনটি পার্কিংসহ ওই বাড়িটির মালিকানা বদল হয়। সঞ্চিত এবং সুধীর মদন নামের দুই ব্যক্তির কাছ থেকে ১৪ লাখ ৫৬ হাজার কানাডিয়ান ডলারে বাড়িটি কেনেন শামীমা সুলতানা জান্নাতী। ওই দিনই দুই লাখ ৭০ হাজার ডলার ট্যাক্সও পরিশোধ করেন তিনি। সব মিলিয়ে বনেদি বাড়িটি কিনতে তার খরচ হয় প্রায় সাড়ে ১২ কোটি টাকা।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়- সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল এবং তার স্ত্রী শামীমা সুলতানা জান্নাতীর সব সম্পদের বিবরণসহ ঘোষণা আছে দশম এবং একাদশ সংসদ নির্বাচনের হলফনামায়। সেই হলফনামা বিশ্নেষণে দেখা যায়, ২০১৩ সালের নির্বাচনে সংসদ সদস্য শিমুল উল্লেখ করেছেন, নগদ ১১ লাখ টাকাসহ তার এবং গৃহবধূ স্ত্রীর নামে সাকুল্যে ৫১ লাখ ৩৭ হাজার টাকার সম্পদ রয়েছে। আর ২০১৮ সালের বিবরণীতে দু'জনের সম্পদের মূল্য দেখানো হয় ছয় কোটি ৫৬ লাখ টাকা। মাত্র পাঁচ বছরে সম্পদ বৃদ্ধির এই হার প্রায় ১৩ গুণ!

সরকারি খাতায় ব্যক্তিগত আয়-ব্যয়ের হিসাবে শামীমার সম্পদের এমন ঊর্ধ্বগতির সুনির্দিষ্ট কোনো ব্যাখ্যা যেমন নেই, তেমনি মোট সম্পদের প্রায় দ্বিগুণ মূল্যে কেনা কানাডার বাড়িটিরও কোনো উল্লেখ কোথাও নেই বলে প্রতিবেদনটিতে উল্লেখ করা হয়।


আরও খবর



সংসদের ১৪তম অধিবেশন বসেছে কাল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ৩১ আগস্ট ২০২১ | ৫৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

একাদশ জাতীয় সংসদের ১৪তম অধিবেশন আগামীকাল বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৫টায় শুরু হবে। সংবিধানের ৭২ নং অনুচ্ছেদের (১) দফায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ গত ১৬ আগস্ট এ অধিবেশন আহ্বান করেন।

৬০ দিনের সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতা পূরণে এ অধিবেশন আহ্বান করা হয়েছে। সংবিধান অনুযায়ী এক অধিবেশন শেষ হওয়ার পরবর্তী ৬০ দিনের মধ্যে আরেক অধিবেশন শুরুর বিধান রয়েছে। সে হিসেবে করোনা মহামারি পরিস্থিতিতে আসন্ন অধিবেশন সংক্ষিপ্ত পরিসরে হবে।

সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে আগামীকাল বুধবার অধিবেশন শুরু হয়ে চলবে শনিবার পর্যন্ত। এর মধ্যে প্রথম দিন বিকেল ৫টায়, দ্বিতীয় দিন বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায়, তৃতীয় দিন শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৪ টায় এবং শেষ দিন শনিবার সকাল ১১টায় সংসদের বৈঠক শুরু হবে।

জাতীয় সংসদের সর্বশেষ ১৩তম (বাজেট) অধিবেশন গত ২জুন শুরু হয়ে গত ৩ জুলাই শেষ হয়। ওই অধিবেশনে ২০২১-২২ অর্থ বছরের বাজেট পেশ ও পাস করা হয়।

মোট ১২ কার্যদিবসের ওই অধিবেশনে সম্পূরক বাজেটসহ মূল বাজেটের উপর মোট ১৫ ঘণ্টা ৩২ মিনিট আলোচনা হয়েছে। এর উপর আলোচনায় অংশ নেন ৮৫ জন সরকার ও বিরোধী দলের সংসদ সদস্য। বাজেট পাসসহ সেই অধিবেশনে ৭টি সরকারি বিল পাস হয়। 


আরও খবর



আজ আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মানবকেন্দ্রিক পুনরুদ্ধারের জন্য সাক্ষরতা : ডিজিটাল বিভাজন কমিয়ে আনা এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সারাবিশ্বে উদযাপিত হচ্ছে আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস। আজ বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) সাক্ষরতা দিবস উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে দেশের বিশাল কর্মক্ষম জনগোষ্ঠীকে যথাযথ শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে দক্ষ জনসম্পদে পরিণত করে বাংলাদেশকে উন্নয়নের কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে এক যোগে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন।

অন্যদিকে, প্রধানমন্ত্রী তার বাণীতে বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার দেশের নিরক্ষর জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে সাক্ষরতা ও জীবনমুখী দক্ষতা বৃদ্ধিতে বহুমুখী কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে।

প্রতিবারের ন্যায় এবারও সারাবিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশেও দিবসটি যথাযথভাবে পালন করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এই বিষয়ে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, দিবস উপলক্ষ্যে প্রাথমিক শিক্ষক প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে দিবসটির উদ্বোধন করবেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ইউনেস্কো মহাপরিচালকের বক্তব্য পেশ করা হবে।

এছাড়াও দিবস উপলক্ষে আলোচনা অনুষ্ঠান, ক্রোড়পত্র প্রকাশ, গোলটেবিল বৈঠক, বাংলাদেশ টেলিভিশনে টক-শো অনুষ্ঠান করা হবে। পাশাপাশি দেশের প্রত্যেক জেলা প্রশাসক স্বাস্থ্যবিধি মেনে আলোচনা সভা করবেন। এ কারণে উপানুষ্ঠনিক প্রাথমিক ব্যুরো বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। এছাড়া দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোও দিবসটি পালন করবে।

এর আগে সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) সংবাদ সম্মেলনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী বলেছিলেন, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) তথ্যানুযায়ী ২০১৯ সালের হিসাবে দেশে গড় সাক্ষরতার হার ৭৪ দশমিক ৭ শতাংশ আর ২০২০ সালের তথ্যানুযায়ী দেশে এখন সাক্ষরতার হার ৭৫ দশমিক ৬ শতাংশ। ফলে করোনার মধ্যেও গত এক বছরে কোনো কার্যক্রম না থাকলেও সাক্ষরতার হার বেড়েছে দশমিক ৯০ শতাংশ।

করোনা মহামারির কারণে ১৭ মাস বন্ধ শিক্ষাব্যবস্থা। শ্রেণি কার্যক্রম ছিল না। এ কারণে শিক্ষার্থীরা পিছিয়ে পড়ছে। অনেক শিক্ষার্থীর ঝরে পড়ার আশঙ্কাও করেছেন সংশ্লিষ্টরা। তবে সরকারি তথ্য বলছে, করোনায় সাক্ষরতার হার বেড়েছে। গত এক বছরে উপানুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরোর মাঠ পর্যায়ে কোনো কার্যক্রম না থাকলেও বেড়েছে সাক্ষরতার হার। তবে এ বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকেই।



আরও খবর



কাবুলে সিরিজ বোমা বিস্ফোরণে আইএসের দায় স্বীকার

প্রকাশিত:সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০21 | হালনাগাদ:সোমবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০21 | ৩৮০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় জালালাবাদ শহরে এবং রাজধানী কাবুলে সিরিজ বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় সাত জন নিহত এবং অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বোমা বিস্ফোরণের ঘটনার দায় স্বীকার করেছে কট্টরপন্থি সশস্ত্র গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট ইন খোরাসান (আইএসকে)।

শনিবার ও রোববারের বিস্ফোরণের কথা উল্লেখ করে আইএসকে তাদের টেলিগ্রাম চ্যানেলে জানায়, সিরিজ বিস্ফোরণে ৩৫ জনের বেশি তালেবান মিলিশিয়া হতাহত হয়েছে।

নানগারহার প্রদেশের রাজধানী জালালাবাদকে আইএসকের ঘাঁটি হিসেবে বিবেচনা করা হয়। গত শনিবার জালালাবাদে অন্তত চারটি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। একটি বিস্ফোরণস্থলে তালেবানের সাদা পতাকাওয়ালা একটি সবুজ পিকআপভ্যান দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন তালেবান কর্মকর্তা সংবাদ সংস্থা এএফপিকে বলেন, জালালাবাদের একটি হামলায় তালেবানের টহলরত একটি গাড়িকে টার্গেট করা হয়।


আরও খবর