আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

অভয়নগরে নবনির্বাচিত ইউপি সদস্যকে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

যশোরের অভয়নগর উপজেলার সুন্দলী ইউনিয়ন পরিষদের নবনির্বাচিত এক ইউপি সদস্যকে গুলিতে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার রাত সোয়া ৮টার দিকে সুন্দলী ইউনিয়নের হরিশপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে সড়কের ওপর এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ইউপি সদস্য উত্তম কুমার সরকার (৩৪) উপজেলার সুন্দলী ইউনিয়নের হরিশপুর গ্রামের মৃত অশান্ত সরকারের ছেলে।

সুন্দলী ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বিকাশ চন্দ্র মল্লিক জানান, সোমবার রাতে সুন্দলী বাজার থেকে হরিশপুর গ্রামে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে হরিশপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কাছে পৌঁছালে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা তার গতিরোধ করে বুকে গুলি চালায়। গুলি তার বুক ভেদ করে বেরিয়ে গেলে উত্তম সরকার মাটিতে লুটিয়ে পড়েন এবং ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। গুলির শব্দে গ্রামবাসী ছুটে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

অভয়নগর থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মিলন কুমার মণ্ডল জানান, ইউপি সদস্য উত্তম সরকারকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে রওনা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হবে। কারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তা এখনও জানা যায়নি।

উল্লেখ্য, গত ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে অভয়নগর উপজেলার সুন্দলী ইউনিয়ন পরিষদের ১ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য নির্বাচিত হন উত্তম সরকার।


আরও খবর



নাসিক নির্বাচনে ১৪ ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আগামী ১৬ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচন উপলক্ষে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। নির্বাচন কমিশনের আইন শাখার সহকারী সচিব স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনটি মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) সকালে জারি করে ইসি।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) নির্বাচন বিধিমালা, ২০১০ এর বিধি ৮৬-তে প্রদত্ত ক্ষমতাবলে নির্বাচন কমিশন, আইন ও বিচার বিভাগ, আইন ও বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের সঙ্গে পরামর্শক্রমে ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। পেনাল কোডের অধীনে তারা মামলা নিয়ে সংক্ষিপ্ত বিচার কাজ পরিচালনা করতে পারবেন। এ লক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ সিটি ভোট সুষ্ঠু করতে ১৪ জন্য জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

নির্বাচন কমিশন সংশ্লিষ্টরা জানান, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১৬ জানুয়ারি। সকাল আটটা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলবে। এবার পুরো সিটি ভোট ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হবে। গত ৩০ নভেম্বর এই সিটি ভোটের তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।

ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন ছিল ১৫ ডিসেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাই হয়েছে ২০ ডিসেম্বর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ছিল ২৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

উল্লেখ্য, নাসিক নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা মার্কার প্রার্থী হলেন ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী হলেন বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত স্বতন্ত্র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকার। তাদের পাল্টাপাল্টি নির্বাচনী প্রচারণায় ইতোমধ্যে সরগরম হয়ে উঠেছে নারায়ণগঞ্জ।


আরও খবর



আজ আপনার জন্মদিন হলে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৩১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ আপনার জন্মদিন হলে পাশ্চাত্য জ্যোতিষে আপনি মকর রাশির জাতক/জাতিকা। আপনার জন্মসংখ্যা : ৪। আপনার ওপর প্রভাবকারী গ্রহ : ইউরেনাস ও শনি। আপনার শুভ সংখ্যা : ৪ ও ৮। শুভ বার : শনি ও রবি। শুভ রত্ন : নীলা ও গার্নেট।

মেষ (২১ মার্চ-২০ এপ্রিল)

সামাজিক কোনো কাজে অংশ নিতে পারেন। সেক্ষেত্রে সাফল্য পেতে পারেন। অসুস্থ পিতার প্রতি যত্নবান হওয়ার চেষ্টা করুন। কর্ম পরিবেশ অনুকূল থাকতে পারে। কর্মস্থলে সিনিয়রদের পরামর্শ অনুযায়ী চলুন।

বৃষ (২১ এপ্রিল-২০ মে)

আধ্যাত্মিকতার প্রতি অনুরোধ করতে পারেন। জীবন ও জগৎ সম্পর্কে নতুন কোনো ধারনা পেতে পারেন। মন ভালো থাকবে। ভাগ্যোন্নয়নের প্রচেষ্টা জোরদার করুন। পেশাগত দিক ভালো থাকতে পারে।

মিথুন (২১ মে-২০ জুন)

দিনটি মিশ্র সম্ভাবনাময়। ট্যাক্স সংক্রান্ত কোনো ঝামেলা হতে পারে। ব্যবসায়িক দিক ভালো যাবে না। বিক্রয়-বাণিজ্যে লোকসান হতে পারে। আজ কোনো ঝুঁকি নিবেন না।

কর্কট (২১ জুন-২০ জুলাই)

পারস্পরিক সামাজিক সম্পর্ক বজায় রাখুন। আপনজন কেউ শত্রুতা করতে পারে। ব্যবসায়িক দিক মোটামুটি ভালো থাকতে পারে। বিনিয়োগ ভালোভাবে চিন্তা করে করুন।

সিংহ (২১ জুলাই-২১ আগস্ট)

শত্রুপক্ষের তৎপরতা বৃদ্ধি পেতে পারে। শত্রুদের দুর্বল ভাবা ঠিক হবে না। নিজের সীমাবদ্ধতা সম্পর্কে সতর্ক থাকুন। শারীরিক অসুস্থ তাকে অবহেলা করবেন না। প্রয়োজনে চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করুন।

কন্যা (২২ আগস্ট-২২ সেপ্টেম্বর)

বিদ্যার্থীদের জন্য সময় অনুকূল থাকতে পারে। পড়াশোনায় মন বসাতে পারবেন। সন্তানের প্রতি খেয়াল রাখুন। সৃজনশীল কাজে অংশ নিতে পারেন। ধর্মীয় কাজে আনন্দ পাবেন।

তুলা (২৩ সেপ্টেম্বর-২২ অক্টোবর)

বিলাস দ্রব্য কেনাকাটা হতে পারে। মনের গভীরে লালিত কোনো ইচ্ছা পূরণ হতে পারে। মন ভালো থাকবে। মাতৃস্বাস্থ্য ভালো যাবে। জ্ঞানস্পৃহা বৃদ্ধি পাবে।

বৃশ্চিক (২৩ অক্টোবর-২১ নভেম্বর)

আত্মীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ হতে পারে। ব্যক্তিগত যোগাযোগে সুফল পেতে পারেন। প্রাপ্ত তথ্যের ওপর নির্ভর করতে পারেন। ছোট ভাইবোনদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখুন। প্রয়োজনে তাদের সহযোগিতা পেতে পারেন।

ধনু (২২ নভেম্বর-২০ ডিসেম্বর)

কোনো আত্মীয়ের সঙ্গে দেখা হতে পারে। মূল্যবোধ বজায় রাখুন। প্রদত্ত প্রতিশ্রুতি রক্ষা করার চেষ্টা করুন। আর্থিক দিক মোটামুটি ভালো থাকতে পারে। পাওনা টাকা আদায়ের জন্য তাগাদা দিন।

মকর (২১ ডিসেম্বর-১৯ জানুয়ারি)

নিজেকে যথাযথভাবে প্রকাশ করার চেষ্টা করুন। সেক্ষেত্রে সাফল্য পেতে পারেন। শরীর মোটামুটি ভালো থাকতে পারে। অসুস্থদের শারীরিক অবস্থার উন্নতি হতে পারে। বিনয়ী আচরণ দিয়ে অন্যের মন জয় করতে পারবেন।

কুম্ভ (২০ জানুয়ারি-১৮ ফেব্রুয়ারি)

কোনো পূর্ব কর্মের ফল ভোগ করতে পারেন। ব্যক্তিগত কোনো ব্যর্থতার জন্য মন খারাপ হতে পারে। অকারণ ব্যয় পরিহার করুন। অন্যথায় ঋণগ্রস্ত হতে পারেন। ভ্রমণের সুযোগ পেতে পারেন।

মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি-২০ মার্চ)

জ্যেষ্ঠ ভাইবোনদের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখুন। প্রয়োজনে তাদের সহযোগিতা নিন। আর্থিক দিক ভালো যাবে। পেশাগত যোগাযোগ চালিয়ে যান। ভবিষ্যতের জন্য কোনো পরিকল্পনা গ্রহণ করতে পারেন।

নিউজ ট্যাগ: আজকের রাশিফল

আরও খবর
আজ আপনার জন্মদিন হলে

শুক্রবার ২১ জানুয়ারী ২০২২

সহজেই বানিয়ে ফেলুন সুস্বাদু মূলার পায়েস

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22




গোসল না করেও দুর্গন্ধমুক্ত থাকবেন যেভাবে

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঠান্ডা পানির ভয়ে প্রতিদিন গোসল না করাদের তালিকা শীতে বড় হতে থাকে। এই শীতেও যারা প্রতিদিন গোসল করছেন, তাদের কথা ভিন্ন। কিন্তু যারা গোসল করছেন না, তাদের গায়ের দুর্গন্ধ দূর হবে কী দিয়ে?

শরীরের দুর্গন্ধ দূর করতে বেশিরভাগই নির্ভর করেন ডিওডোরেন্ট কিংবা পারফিউমের ওপর। কিন্তু তাতে সাময়িক মুক্তি মিললেও পুরোপুরি দূর হয় না। তাই এসব কেমিক্যালযুক্ত জিনিসপত্রের ওপর নির্ভর না করে কাজে লাগাতে পারেন ঘরোয়া পদ্ধতি। এতে প্রতিদিন গোসল না করেও থাকতে পারবেন দুর্গন্ধমুক্ত। চলুন তবে জেনে নেওয়া যাক-

মৌরি ভেজানো পানি পান:

যারা গায়ে দুর্গন্ধের কারণে অস্বস্তিতে ভোগেন, তারা এখন থেকে মৌরি ভেজানো পানি পান করা শুরু করুন। এতে ঘাম এবং দুর্গন্ধ দুটোই কম হবে। মৌরিতে থাকা নানা উপকারী উপাদান এক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখে। মৌরির পানি তৈরি করার জন্য এক কাপ পানিতে এক চা চামচ মৌড়ি গুঁড়া মিশিয়ে সেই পানিটুকু দুই মিনিটের মতো ফুটিয়ে নেবেন। এরপর তাতে এক চা চামচ মধু মিশিয়ে পান করবেন।

নারিকেল তেল মেখে গোসল:

শীতে প্রতিদিন গোসল না করলেও মাঝে মাঝে তো করা হয়, তাই না? তখন একটি কাজ করতে হবে। সারা গায়ে নারিকেল তেল মেখে এরপর গোসলে যেতে হবে। এই তেল আপনার গায়ে দুর্গন্ধ তৈরি হতে দেবে না। কীভাবে? আমাদের শরীরে  ব্যাকটেরিয়ার মাত্রা বাড়তে শুরু করলে দুর্গন্ধের সৃষ্টি হয়। নারিকেল তেল সেই ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াগুলো মেরে ফেলে। এতে শরীরে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হতে পারে না।

ইপসম সল্ট দিয়ে গোসল:

যখন গোসল করবেন তখন পানিতে ইপসম সল্ট মিশিয়ে নিন। এতে শরীরে জমে থাকা ঘামের দুর্গন্ধ দূর হবে। এই লবণে এমন কিছু উপাদান আছে যেগুলো ঘামের মাত্রা কমানোর পাশাপাশি ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াদের মেরে ফেলে। এতে সহজেই ঘামের দুর্গন্ধ দূর হয়। এক বালতি পানিতে আধা কাপ ইপসম সল্ট মিশিয়ে ব্যবহার করতে হবে। এতে উপকার পাবেন।

গ্রিন টি:

নিয়মিত গ্রিন টি খেলে তা আপনার শরীরে দুর্গন্ধ জমতে দেবে না। তবে শুধু পান করলেই হবে না, সেইসঙ্গে করতে হবে আরও একটি কাজ। প্রথমে চিনি ছাড়া এক কাপ গ্রিন টি তৈরি করে নেবেন। এরপর তা একটি তুলোর সাহায্যে শরীরের যেসব স্থানে ঘাম বেশি হয়, সেখানে লাগাবেন। গ্রিন টিতে থাকা ট্যানিক অ্যাসিড ঘামের মাত্রা কমায় এবং ব্যাকটেরিয়াদের মেরে ফেলতে সাহায্য করে। এতে সহজেই গায়ের দুর্গন্ধ দূর হয়।

নিউজ ট্যাগ: শরীরের দুর্গন্ধ

আরও খবর
আজ আপনার জন্মদিন হলে

শুক্রবার ২১ জানুয়ারী ২০২২

সহজেই বানিয়ে ফেলুন সুস্বাদু মূলার পায়েস

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22




আমাকে কেউ অভিনয় শেখায়নি

প্রকাশিত:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২১ | ৫০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঝুলিতে একাধিক সফল বাংলা ছবি। তার পর টালিগঞ্জ পেরিয়ে সোজা বলিউড। আটকে থাকেননি সেখানেও। আপাতত দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রিতেও চেনা মুখ তিনি। অথচ এই যিশু সেনগুপ্তের গায়েই এক সময় সেঁটে দেওয়া হয় অপয়া তকমা। তিনি অভিনয় করলেই নাকি বক্স অফিসে মুখ থুবড়ে পড়বে সেই ছবি।

এর পরেও টিকে থেকেছেন। পেরিয়েছেন দীর্ঘ পথ। দেখেছেন সাফল্য। আজও তার মনে পড়ে অতীতের সেই সব কটাক্ষ?

যিশুর উত্তর, এই জিনিসগুলো আমাকে খুব একটা ভাবায় না। আমি তখনও বিশেষ ভাবিনি। আজও ভাবি না। আমি পিছন ফিরে তাকাতে ভালবাসি না। যা ঘটে গিয়েছে, তা আমি বদলাতে পারব না। আমি ভবিষ্যৎ নিয়েও ভাবি না। কারণ আমি আমার ভবিষ্যৎ আমি দেখিনি। সব কিছু নিয়ে পরিকল্পনা করা সম্ভব নয়।

অভিনয় জগতে কাটিয়ে ফেলেছেন দুদশকেরও বেশি সময়। অভিজ্ঞতাও নেহাত কম নয়। যিশুর কথায়, অভিনয় আমি নিজে শিখেছি। সে অর্থে আমাকে কেউ অভিনয় শিখিয়ে দেয়নি। কিন্তু যিশু মনে করেন, তাঁর অভিনেতা থেকে ভাল অভিনেতা হয়ে ওঠার নেপথ্যে রয়েছেন ঋতুপর্ণ ঘোষ। তাঁর কথায়, ঋতুদা আমার ভাবনা বদলে দিয়েছে। কোনও চরিত্র করার সময় কী ভাবে ভাবতে হবে, সেই পদ্ধতিটা বদলে দিয়েছে। আমার মনে হয় যেটুকু ভাল করতে পারি, তা ওই শিক্ষাগুলির জন্যই। ঋতুদা আমার শিক্ষক। অভিনয় শেখার স্কুলে যাইনি। কিন্তু ঋতুদার ছবিতে অভিনয় করেই অনেক কিছু শিখেছি।

নিউজ ট্যাগ: যিশু সেনগুপ্ত

আরও খবর



১৬ জানুয়ারি ভোট উপলক্ষে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ

প্রকাশিত:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১২ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

দেশের পাঁচটি পৌরসভায় আগামী ১৬ জানুয়ারি ভোট উপলক্ষে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ইসির আইন শাখার সহকারী সচিব শাহীনুর আক্তার স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনটি জারি করেছে ইসি।

নোয়াখালী, নাটোরের বাগাতিপাড়া, যশোরের ঝিকরগাছা, চট্টগ্রামের বাঁশখালী ও স্থগিত থাকা নাটোর পৌরসভায় ১৬ জানুয়ারি ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এসব পৌরসভায় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনের (ইভিএম) মাধ্যমে ভোট নেওয়া হবে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) নির্বাচন বিধিমালা, ২০১০ এর বিধি ৮৬ তে প্রদত্ত ক্ষমতাবলে নির্বাচন কমিশন, আইন ও বিচার বিভাগ, আইন ও বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক সুপ্রিম কোর্টের সঙ্গে পরামর্শক্রমে ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ করেছে। ম্যাজিস্ট্রেটরা পেনাল কোডের অধীনে তারা মামলা নিয়ে সংক্ষিপ্ত বিচার কাজ পরিচালনা করতে পারবেন। ভোট সুষ্ঠু করতে পাঁচ পৌরসভায় পাঁচজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

ইসি জানায়, এই তিন পৌরসভায় জুডিশিয়াল সার্ভিসের পাঁচজন বিচার বিভাগীয় কর্মকর্তাকে ভোটগ্রহণের আগের দুদিন, ভোটগ্রহণের দিন ও ভোটগ্রহণের পরের দুদিন অর্থাৎ ১৪ জানুয়ারি হতে ১৮ জানুয়ারি মোট পাঁচ দিনের জন্য প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর