আজঃ শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২
শিরোনাম

পাবনায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩

প্রকাশিত:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৯ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৪০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাবনা সদর উপজেলায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এক শিক্ষার্থীসহ ৩ জন নিহত হয়েছে। রোববার (৯ জানুয়ারি) সকাল ৭টা থেকে সাড়ে ৭টার মধ্যে দুটি স্থানে এ ঘটনা ঘটে। সদর উপজেলার আতাইকুলায় ট্রাকের ধাক্কায় ভ্যানের চালকসহ দুজন নিহত হয়। আহত হয় একজন। এছাড়া একই উপজেলার জোতআদম এলাকায় করিমনের সাথে সংঘর্ষে নিহত হয় এক শিক্ষার্থী।

নিহতরা হলেন- সদর উপজেলার পুটিগাড়া গ্রামের মৃত তারন আলী বিশ্বাসের ছেলে ভ্যানচালক রবিউল ইসলাম বিশ্বাস (৬৫), একইগ্রামের কফিল উদ্দিনের ছেলে আব্দুল মোমিন (৪৫) ও শ্রীকৃষ্টপুর গ্রামের আসাদুল ইসলামের ছেলে সাজ্জাদ হোসেন (১৮)।

মাধপুর হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কাশেম বলেন, সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ভ্যানযোগে দুজন যাত্রী ধান ভাঙানোর জন্য মিলের দিকে যাচ্ছিলেন। পথে তেলকুপিতে হঠাৎ ভ্যানটি ভেঙে পড়ে। এ সময় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ভ্যানকে চাপা দিয়ে রাস্তার পাশে উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই ভ্যানচালক রবিউল মারা যায়। আহত অপর দুজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে মোমনিকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। খবর পেয়ে হাইওয়ে পুলিশ ও পাবনা দমকল বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও ট্রাকটি আটক করে। ট্রাকের চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়।

অন্যদিকে, সকাল সাতটার দিকে পাবনা সদর উপজেলার দাপুনিয়া ইউনিয়নের জোতআদম এলাকায় শ্যালোইঞ্জিনচালিত করিমনের সাথে সংঘর্ষে মোটরসাইকেল চালক সাজ্জাদ হোসেনের মৃত্যু হয়।

শহীদ রফিজ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক নুর মোহাম্মদ এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, নিহত সাজ্জাদ মোটরসাইকেল নিয়ে টেবুনিয়ার দিকে যাচ্ছিলেন। পথে বিপরীতমুখী করিমনের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষে এ ঘটনা ঘটে। জোতআদম শহীদ রফিজ উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবছর এসএসসি পাস করেছেন সাজ্জাদ।


আরও খবর



সিরিজ জয়ের পথে দক্ষিণ আফ্রিকা

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

এশিয়ার বাইরে টেস্টে তৃতীয় সেঞ্চুরি ঋষভ পন্থের। তাও আবার দলের বাকিরা যখন সবাই মিলে স্কোরবোর্ডে ৯৮ রান তুলেছেন, তখন একাই শতরান হাঁকিয়েছেন তিনি। অর্থাৎ তার একার রান বাকিদের মিলিত উদ্যোগের চেয়ে বেশি। এমন অবস্থায় নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে তৃপ্ত হওয়া কিংবা গর্ব করা গেলেও দলকে রক্ষা করা হয়তো সম্ভব হয় না।

কেপটাউনে দিনের শেষ ছবিটা যেন সে কথাই বলছে। দ্বিতীয় ইনিংসে দুই উইকেট হারিয়ে ১০০ রানের গণ্ডি পার করল দক্ষিণ আফ্রিকা। আর তাতেই যেন আরও উজ্জ্বল হয়ে উঠল প্রোটিয়াদের তৃতীয় টেস্ট তথা সিরিজ জয়ের স্বপ্ন। মারক্রামকে দ্রুত প্যাভিলিয়নে ফেরানো গেলেও ক্রিজে জাঁকিয়ে বসেন অধিনায়ক এলগার এবং পিটারসেন। পাঁচ দিনের ফরম্যাটে দারুণ ছন্দে ধরা দিচ্ছেন পিটারসেন। আর তৃতীয় দিনের শেষে ৪৮ রান করে অপরাজিত রইলেন তিনি।

প্রোটিয়ারা একশোর গণ্ডি পার করার পর এলগারকে প্যাভিলিয়নে ফেরান বুমরাহ। জয়ের জন্য আর মাত্র ১১১ রান প্রয়োজন দক্ষিণ আফ্রিকার। হাতে দুইটি দিন এবং আটটা উইকেট। ফলে দুই টেস্ট জিতে সিরিজ পকেটে ভরা যেন হোম ফেভারিটদের কাছে শুধুই সময়ের অপেক্ষা। তবে বাইশ গজের লড়াইতে কোনও ভবিষ্যদ্বাণী সেভাবে খাটে না। বুমারহ-শামি-অশ্বিনরা যদি অঘটন ঘটাতে পারেন, তবে কে বলতে পারে, দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে প্রথম টেস্ট সিরিজ জয়ের স্বাদ কোহলিই দেবেন ভারতবাসীকে। কিন্তু সে গুড়ে বালি দেওয়ার জন্য বদ্ধপরিকর এগলারের সৈনিকরা।

ভারত: ২২৩/১০ (কোহলি-৭৯) ও ১৯৮/১০ (পন্থ-১০০*)

দক্ষিণ আফ্রিকা: ২১০/১০ (পিটারসেন- ৭২, বুমরাহ-৪২/৫) ও ১০১/২ (পিটারসেন-৪৮*) 


আরও খবর



সরাসরি চুক্তিতে বরিশালে খেলবেন গেইল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২১ | ৪৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) এবারের আসরেও খেলবেন টি-টোয়েন্টিতে বিশ্ব মাতানো ক্রিস গেইল। সরাসরি চুক্তিতে ক্যারিবীয় এ তারকাকে দলে নিয়েছে সাকিব আল হাসানের দল ফরচুন বরিশাল।

আজ সোমবার প্লেয়ার্স ড্রাফটের আগেই সাকিব আল হাসান, দানুশকা গুনাথিলাকা ও মুজিব উর রহমানকে দলে নেয় বরিশাল। আজ সকালে তারা চুক্তি সেরেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিস গেইলের সঙ্গে। এবারের বিপিএলে ড্রাফটের আগে একজন দেশি ও তিনজন বিদেশিকে সরাসরি দলে নেওয়ার সুযোগ ছিল। সেই হিসেবে তৃতীয় বিদেশি হিসেবে গেইলকে নিয়েছে বরিশাল। এক নজরে দেখেন নিন ফরচুন বরিশালের দল : সরাসরি চুক্তি : সাকিব আল হাসান, মুজিব উর রহমান (আফগানিস্তান), দানুশকা গুনাথিলাকা (শ্রীলঙ্কা) ও ক্রিস গেইল (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)।

ড্রাফট থেকে দেশি : কাজী নুরুল হাসান সোহান, নাজমুল হোসেন শান্ত, মেহেদী হাসান রানা, ফজলে মাহমুদ রাব্বি, তৌহিদ হৃদয়, জিয়াউর রহমান, শফিকুল ইসলাম, সৈকত আলি, নাঈম হাসান, তাইজুল ইসলাম, সালমান হোসেন ইমন ও ইরফান শুক্কুর।

ড্রাফট থেকে বিদেশি : নিরোশান ডিকভেলা (শ্রীলঙ্কা), ওবেদ ম্যাকয় (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), আলজারি জোসেফ (ওয়েস্ট ইন্ডিজ)।


আরও খবর



জঙ্গি সংগঠন 'আল্লাহর দলের' সদস্য গ্রেফতার

প্রকাশিত:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ১৯ জানুয়ারী ২০২২ | ২৫০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সাভার থানাধীন রামচন্দ্রপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন 'আল্লাহর দলের' সদস্য আতিকুর রহমান সুইটকে (৫৫) গ্রেফতার করেছে পুলিশের অ্যান্টি টেরোরিজম ইউনিট (এটিইউ)।

মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) রাতে সাভারের রামচন্দ্রপুর ছাকিপাড়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। বর্তমানে তিনি ইমপেক্স ল্যাবরেটরি কোম্পানিতে কর্মরত ছিলেন।

এটিইউর সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) ওয়াহিদা পারভীন জানান, গ্রেফতার আতিকুর রহমান সুইট রাষ্ট্রবিরোধী ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে বাংলাদেশে খেলাফত প্রতিষ্ঠা করার উদ্দেশ্য দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিলেন। তাছাড়া নিজেদের মতবাদ প্রচারের মাধ্যমে অনলাইনে 'আল্লাহর দলের' পক্ষে সদস্য সংগ্রহের কাজ করে আসছিলেন।

আতিকুর রহমান সুইট ঢাকার তেজগাঁও থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে দায়েরকৃত একটি মামলার পলাতক আসামী। তার বিরুদ্ধে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান এএসপি ওয়াহিদা।


আরও খবর
রিফাত হত্যা: খালাস চেয়ে মিন্নির জেল আপিল

বৃহস্পতিবার ২০ জানুয়ারী ২০22




আকাশে ‘অলৌকিক’ শিশুর প্রসব করালেন মুসলিম চিকিৎসক

প্রকাশিত:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত মাসে কাতার এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে করে দোহা থেকে উগান্ডার এন্টেবে শহরে যাচ্ছিলেন কানাডিয়ান চিকিৎসক ডা. আয়েশা খাতিব। পথিমধ্যে ফ্লাইটেই উগান্ডার এক অভিভাসী নারী কর্মী অলৌকিক কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। সেটির প্রসব করিয়ে এখন আলোচনায় কানাডিয়ান এই মুসলিম চিকিৎসক।

বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঘটনাটি ঘটে গত ৫ ডিসেম্বর। কিন্তু টরন্টোতে করোনা রোগীদের চিকিৎসায় ব্যস্ত থাকায় সেটি সবাইকে জানাতে পারছিলেন না ডা. আয়েশা খাতিব। অবশেষে শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট শেয়ার করেছেন তিনি। সেখানে নিজের অভিজ্ঞতা ও উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন।

টরন্টো বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ডা. আয়েশা খাতিব দোহা থেকে উগান্ডার এন্টেবে শহরে যাচ্ছিলেন। এক ঘণ্টা পরই ইন্টারকম দিয়ে জিজ্ঞেস করা হয়, ফ্লাইটে কোনো চিকিৎসক আছে কি না? এর পরই তিনি সেখানে যান এবং অলৌকিক শিশুর প্রসব সম্পন্ন করান।

উগান্ডার ওই নারী সৌদি আরব থেকে নিজ দেশে ফিরছিলেন। মূলত সন্তান জন্মদানের উদ্দেশ্যেই তার দেশে ফেরা। কিন্তু সৃষ্টিকর্তার কি হুকুম দেখুন, ফ্লাইটেই সন্তান পৃথিবীর আলোর মুখ দেখেছে। আর নাম রাখা হয়েছে চিকিৎসকের সঙ্গে মিলিয়ে অলৌকিক আয়েশা

ডা. আয়েশা খাতিব বিবিসিকে বলেন, ইন্টারকম থেকে ভয়েস শোনার পর আমি গিয়ে দেখি রোগীকে ঘিরে জটলা বেঁধে আছে। তখন এটিকে হার্ট অ্যাটাকের মতো জটিল পরিস্থিতি মনে হচ্ছিল। কিন্তু আরও কাছে গিয়ে দেখি তার সন্তান পৃথিবীতে আসার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছে।

তখন আরও দুই যাত্রীর সহায়তায় প্রসবের কাজ সম্পন্ন করি। শিশুটি দৃঢ়ভাবে কাঁদছিল। শিশুটি স্থিতিশীল এবং মাও সুস্থ ছিল। তখন আমি অভিনন্দন জানাই এবং বলি, কন্যা সন্তান হয়েছে। এরপর পুরো ফ্লাইটে তালি ও উচ্ছ্বাস ছড়িয়ে পড়ে। সবাই ঘটনাটি দেখছিল, যোগ করেন তিনি।


আরও খবর
হাসপাতালে ভর্তি মাহাথির মোহাম্মদ

শনিবার ২২ জানুয়ারী 20২২




শেরপুরে অগ্নিকাণ্ডে ১৩ দোকান ভষ্মীভূত

প্রকাশিত:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | হালনাগাদ:রবিবার ০২ জানুয়ারী 2০২2 | ৩০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

শেরপুর সদর উপজেলার উপশহর কুসুমহাটি বাজারে এক ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ১৩ দোকান ভষ্মীভূত হয়েছে। এতে প্রায় ৩ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্তরা অভিযোগ করেছেন। তারা আরও জানান, সুযোগসন্ধানী দুর্বৃত্তরা আগুন নেভানোর চেষ্টা না করে বেশ কয়েকটি দোকানে লুটপাট চালিয়েছে।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, রবিবার ভোর ৫টার দিকে সদর উপজেলার কুসুমহাটি বাজারের একটি প্লাস্টিক ও সুতার দোকানের ভিতর বৈদ্যুতিক খুঁটির থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে আগুনের লেলিহান শিখা দ্রুত ছড়িয়ে পড়লে ওই দোকানের প্লাস্টিক ও সুতা পুড়ে পার্শ্ববর্তী মুদি দোকান, চালের আড়ৎ, কসমেটিকস, পান-সুপারি, সেলুন এবং বিভিন্ন গোডাউনসহ মোট ১৩টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

এদিকে আগুনের খবর পেয়ে সকাল সাড়ে ৭টায় জেলা শহর থেকে ফায়ার সার্ভিসের ৪ টি ইউনিট দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুন জ্বলছিল এমন সময় কিছু অসাধু মানুষ ঘরগুলো থেকে বিভিন্ন মূল্যবান মালামাল রক্ষা করার কথা বলে হরিলুট চালায় লুটপাট বলে ক্ষতিগ্রস্তরা বলেছেন।

ফায়ার সার্ভিস বিভাগের উপ-পরিচালক জাভেদ হোসেন তারেক জানায়, বৈদ্যুতিক গোলযোগের কারণে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে। ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ করতে কাজ চলছে। করা হয়নি বলে তিনি জানান।

সদর উপজেলা নির্বার্হী কর্মকর্তা মেহনাজ ফেরদৌস বলেছেন, সার্বিক বিষয়টি উপজেলা প্রশাসন দেখছে। আগুন লাগার কারণ, ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ, পুনর্বাসন ও লুটপাটের বিষয়টি তদন্ত করা হবে।  


আরও খবর