আজঃ মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

পীরগঞ্জের ঘটনায় গ্রেফতার সৈকত ছাত্রলীগ নেতা

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১ | ৭৩৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

রংপুরের পীরগঞ্জে হামলা, অগ্নিসংযোগ ও লুটপাটের ঘটনায় র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার সৈকত মণ্ডল (২৪) ছাত্রলীগ নেতা। রংপুরের কারমাইকেল কলেজের দর্শনের স্নাতকের এ শিক্ষার্থী ওই বিভাগের ছাত্রলীগের ১ নং সহ-সভাপতি ছিলেন। হামলা-অগ্নিসংযোগের ঘটনার পর তাকে ছাত্রলীগ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) সন্ধ্যায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কারমাইকেল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি সাইদুজ্জামান সিজার।

তিনি বলেন, সৈকত দর্শন বিভাগ ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ছিল। ২০১৭ সালের ৮ আগস্ট ওই বিভাগ ছাত্রলীগের কমিটি অনুমোদন দেওয়া হয়। তবে ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট ও সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে ১৮ অক্টোবর তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

এর আগে, শুক্রবার (২২ অক্টোবর) রাতে টঙ্গী থেকে সৈকত মন্ডল ও তার সহযোগী রবিউল ইসলামকে (৩৬) গ্রেফতার করে র‌্যাব-১৩। সৈকত মণ্ডল উপজেলার রামনাথপুর ইউনিয়নের চেরাগপুর গ্রামের রাশেদুল মণ্ডলের ছেলে।

এ নিয়ে শনিবার দুপুর সোয়া ১২টার দিকে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বাহিনীর লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন জানান, রংপুরের পীরগঞ্জের সাম্প্রদায়িক হামলার উসকানিদাতা ছিলেন সৈকত মন্ডল, এমনকি হামলায় সরাসরি অংশ নিয়েছিলেন তিনি। এছাড়া সৈকতের নির্দেশেই মাইকিংয়ের মাধ্যমে লোক জড়ো করেছিলেন মসজিদের মোয়াজ্জিন রবিউল।

কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, সৈকত স্নাতকের শিক্ষার্থী এবং তিনি একটি ফেসবুক পেজের অ্যাডমিন। ওই পেজে তার তিন হাজার ফলোয়ার আছে। তিনি প্রথমে ওই পেজে ধর্মীয় উসকানিমূলক পোস্ট দিয়ে এবং এরপর মাইকিংয়ের মাধ্যমে লোক জড়ো করে হামলা ও অগ্নিসংযোগ করেন। সৈকত নিজেকে একটি অবস্থানে নিয়ে যাওয়ার জন্য ফেসবুকে ধর্মীয়, সরকার ও রাষ্ট্রবিরোধী বিভিন্ন উসকানিমূলক পোস্ট দিতেন।

খন্দকার আল মঈন বলেন, সৈকত প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন এসব তিনি ইচ্ছাকৃতভাবেই করেছেন। তার নেতৃত্বে বেশ কয়েকজন হামলায় সরাসরি অংশ নিয়ে বাড়িঘর ও দোকানপাটে ভাঙচুর, লুটপাট ও অগ্নিসংযোগ করেন। গ্রেফতার হওয়া রবিউল ঘটনাস্থলের পাশে একটি মসজিদের মোয়াজ্জেন ছিলেন। সৈকতের নির্দেশেই রবিউল মাইকিং করে লোকজন জড়ো করেন। এরপর উঁচু একটি স্থানে দাঁড়িয়ে সৈকত হামলা ও অগ্নিসংযোগের জন্য সবাইকে নির্দেশনা দেন। ঘটনার পরপর সৈকত ও রবিউল দুজনই আত্মগোপনে চলে যান।


আরও খবর



সুদানে ১২ মন্ত্রীর একযোগে পদত্যাগ

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | ৩০০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আফ্রিকার দেশ সুদানে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখলে নেওয়া সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল-বুরহানের সঙ্গে সম্প্রতি ক্ষমতাচ্যুত বেসামরিক সরকার রাজনৈতিক চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। এর মধ্য দিয়ে আবারও ক্ষমতায় বসেছেন অন্তর্বর্তীকালীন প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদক। কিন্তু সেটি মেনে নিতে পারেনি দেশটির সাধারণ জনগণ। প্রতিবাদে রাজপথে বিক্ষোভে নেমেছে তারা। সেই বিক্ষোভে সংহতি জানিয়ে একযোগে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন সুদানের ১২ মন্ত্রী।

আল-জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদকের কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন তারা। পদত্যাগকারীদের মধ্যে রয়েছে সুদানের অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের পররাষ্ট্র, বিচার, কৃষি, সেচ, বিনিয়োগ ও জ্বালানি, উচ্চশিক্ষা, শ্রম, পরিবহন, স্বাস্থ্য, যুব এবং ধর্ম মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী।

পরে এক যৌথ বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছেন পররাষ্ট্র, বিচার, কৃষি, সেচ, বিনিয়োগ ও জ্বালানি বিষয়ক মন্ত্রীরা।

অন্যদিকে, আন্তর্জাতিক মহল এ চুক্তিকে সাধুবাদ জানিয়েছে। কিন্তু এতে খুশি নয় সুদানের গণতন্ত্রপন্থীরা। তাদের দাবি, সেনাবাহিনীর অভ্যুত্থানের বৈধতা দেওয়ার প্রচেষ্টা এই চুক্তি।


আরও খবর



বিয়ের ৬ মাস পর মা হলেন এভলিন

প্রকাশিত:শনিবার ২০ নভেম্বর ২০21 | হালনাগাদ:শনিবার ২০ নভেম্বর ২০21 | ৩২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বলিউড অভিনেত্রী এভলিন শর্মা ও তাঁর স্বামী তুশান ভিন্দি কন্যাসন্তানের মা-বাবা হয়েছেন। এটি তাঁদের প্রথম সন্তান। সামাজিক পাতায় ভক্তদের এ সুখবর ভাগাভাগি করেছেন ইয়ে জওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি অভিনেত্রী নিজেই।

সেইসঙ্গে এভলিন তাঁর কন্যার নামও জানিয়েছেন, যুক্ত করেছেন মা-মেয়ের ছবি। গত ১২ নভেম্বর কন্যাসন্তান প্রসব করেন এভলিন। এ দম্পতি তাঁদের মেয়ের নাম রেখেছেন আভা রানিয়া ভিন্দি। ইনস্টাগ্রামে ছবি শেয়ার করে এভলিন ক্যাপশন জুড়েছেন, আভা ভিন্দির মা হওয়া আমার জীবনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা।

এ বছরের জুলাইয়ে এভলিন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তাঁর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর দিয়েছিলেন। বলেছিলেন, তিনি ও তাঁর স্বামী প্রথম সন্তানের আশা করছেন। বেবি বাম্প দেখিয়ে ছবিও পোস্ট করেছিলেন।

বলিউড বাবলের খবর, ২০২১ সালের ১৫ মে অস্ট্রেলিয়ায় দীর্ঘদিনের প্রেমিক তুশানকে ঘরোয়া আয়োজনে বিয়ে করেন এভলিন। অবশ্য বিয়ের দারুণ কিছু ছবি পোস্ট করে এ খবর জানান জুনে। এ যুগল আংটিবদল করেন ২০১৯ সালের অক্টোবরে।


আরও খবর
শাকিব খানের ব্যাংক হিসাব তলব

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




কুমিল্লায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৪

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০২ নভেম্বর 2০২1 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০২ নভেম্বর 2০২1 | ৬০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

কুমিল্লায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় চারজন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) সকালে কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের মনোহরগঞ্জের বিপুলাসার এবং ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের পদুর বাজার এলাকায় এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, সাইমা মুন্তাহা (২২), রুহুল আমিন (৬৫) সেফালী আক্তার (৫৫) ও লিটন ইসলাম (৫৫)।

লাকসাম হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাকসুদ আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, ঢাকা অভিমুখী একুশে পরিবহন ও হিমাচল এক্সপ্রেস বাস একটি অপরটিকে ওভারটেক করার জন্য বেপরোয়া গতিতে চলছিল। এক পর্যায়ে একুশে পরিবহনের বাসটি পাশ কেটে সামনে যাওয়ার সময় রাস্তার একপাশে থাকা অটোরিকশাকে চাপ দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই তিনজন মারা যান। গুরুতর আহত হন অটোরিকশা চালক খোকন (৪০)। তাকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।


আরও খবর



বিকেলে ফের হাসপাতালে যাচ্ছেন খালেদা জিয়া

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ নভেম্বর ২০২১ | ৪৯৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
এর আগে গত ১২ অক্টোবর গুলশানের বাসভবন থেকে স্বাস্থ্যপরীক্ষা করার জন্য এভারকেয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয় খালেদা জিয়াকে

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য আবারও হাসপাতালে যাবেন।

শনিবার বিকাল ৩টায় রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে নেওয়ার জন্য পুলিশি নিরাপত্তা চাওয়া হয়েছে।

খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত সহকারী এবিএম আবদুস সাত্তার স্বাক্ষরিত ঢাকা মেট্টোপলিটন পুলিশ কমিশনার চিঠিতে এ বিষয় নিশ্চিত হওয়া গেছে।

এর আগে গত ১২ অক্টোবর গুলশানের বাসভবন থেকে স্বাস্থ্যপরীক্ষা করার জন্য এভারকেয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয় খালেদা জিয়াকে। পরে চিকিৎসকদের পরামর্শে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।  তিন সপ্তাহেরও বেশি সময় পর গত ৭ নভেম্বর হাসপাতাল থেকে বাসায় ফেরেন তিনি।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী আথ্রাইটিস, ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, দাঁত, চোখের প্রদাহ, হৃদরোগসহ বয়সজনিত নানা জটিলতায় ভুগছেন বলে জানা গেছে।

নিউজ ট্যাগ: খালেদা জিয়া

আরও খবর



সেই বিচারকের বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে চিঠি দেবেন আইনমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ১৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৩ নভেম্বর ২০২১ | ৫২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
আইনমন্ত্রী বলেন, এ কারণে আমি প্রধান বিচারপতির কাছে তাকে বিচারক হিসেবে তার দায়িত্ব পালন নিয়ে যেন ব্যবস্থা নেওয়া হয়, সে জন্য একটা চিঠি লিখছি। রোববার এই চিঠি দেওয়া হবে

রাজধানীর বনানীতে রেইনট্রি হোটেলে দুই শিক্ষার্থী ধর্ষণের মামলার বিচারক মোছা. কামরুন্নাহারের দায়িত্ব পালন নিয়ে যেন ব্যবস্থা নেওয়া হয়, সে জন্য প্রধান বিচারপতিকে চিঠি লিখবেন বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। শনিবার (১৩ নভেম্বর) বিকেলে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি প্রাঙ্গণে এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান তিনি।

আনিসুল হক বলেন, একটি কথা অত্যন্ত পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, আমি ওই বিচারকের (বেগম মোছা. কামরুন্নাহার) রায়ের বিষয়বস্তু নিয়ে এখন কথা বলতে চাই না। কিন্তু উনার (বিচারক) অবজারভেশনে ৭২ ঘণ্টা পরে পুলিশ যেন কোনো ধর্ষণ মামলার এজাহার না নেয়, এই যে বক্তব্য উনি দিয়েছেন, এটি সম্পূর্ণ বেআইনি ও অসাংবিধানিক।

আইনমন্ত্রী বলেন, এ কারণে আমি প্রধান বিচারপতির কাছে তাকে বিচারক হিসেবে তার দায়িত্ব পালন নিয়ে যেন ব্যবস্থা নেওয়া হয়, সে জন্য একটা চিঠি লিখছি। রোববার এই চিঠি দেওয়া হবে।

এর আগে গত ১১ নভেম্বর দুই শিক্ষার্থী ধর্ষণের মামলার রায় ঘোষণার পর পর্যবেক্ষণে আদালত পুলিশের উদ্দেশে ৭২ ঘণ্টা পর যদি কেউ ধর্ষণের মামলা করতে যায়- তা না নেওয়ার পরামর্শ দেন। ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭ এর বিচারক বেগম মোছা. কামরুন্নাহারের আদালত আলোচিত এ মামলার রায় দেন। আপন জুয়েলার্সের মালিক দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদসহ পাঁচ আসামির বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় বিচারক তাদের খালাস দেন।

রায়ের পর্যবেক্ষণে বিচারক বলেন, মামলার দুই ভিকটিম আগে থেকেই সেক্সুয়াল রিলেশনে অভ্যস্ত। তারা স্বেচ্ছায় হোটেলে গেছেন। সেখানে গিয়ে সুইমিং করেছেন। ঘটনার ৩৮ দিন পর তারা বললেন, আমরা ধর্ষণের শিকার হয়েছি। অহেতুক তদন্তকারী কর্মকর্তা প্রভাবিত হয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দিয়েছেন। এতে আদালতের ৯৪ কার্যদিবস নষ্ট হয়েছে। এরপর থেকে পুলিশকে এ বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিচ্ছি। এ ছাড়া এরপর থেকে ধর্ষণের ৭২ ঘণ্টা পর যদি কেউ মামলা করতে যায়- তা না নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছি।


আরও খবর