আজঃ রবিবার ২৪ অক্টোবর ২০২১
শিরোনাম

পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধির কারণ জানালেন বাণিজ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | ৪১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠকের পর দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে জানিয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, শিগগিরই এই পণ্যের দাম জনসাধারণের হাতের নাগালে আসবে।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) দুপুরে গাজীপুরের  কালিয়াকৈরে বঙ্গবন্ধু হাইটেক সিটিতে সেন্টার অব এক্সিলেন্স ফর ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড টেকনোলজি ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠানের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে এ কথা জানান তিনি।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ভারতের কোনো কোন জায়গায় অতিরিক্ত বৃষ্টি হওয়া এবং দুর্গাপূজার কারণে ট্রান্সপোর্ট সমস্যার হওয়ায় পেঁয়াজের দাম বেড়েছে। তবে গতকাল আমাদের সঙ্গে কথা বলার পর আজকে বাজার লক্ষ্য করেছেন ১০ টাকা কমে গেছে। আরো এক মাস পর্যন্ত চাপ থাকবে। তবে আমরা চেষ্টা করছি, অন্য সোর্স থেকে পেঁয়াজ আনার জন্য। তবে শুল্ক প্রত্যাহারের জন্য একটা আবেদন করা হয়েছে। সেটা পাঠানো হয়েছে। এখন পর্যন্ত সেটা আমরা পাইনি।

তিনি আরো বলেন, ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা হয়েছে। বিশেষ করে ৩/৪টি পণ্যের দাম বেড়েছে। যেটা আমাদের আমদানি নির্ভর। সেটা আন্তজাতিক বাজারে দাম বৃদ্ধির কারণে আমাদের দেশেও দাম বেড়েছে।

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব তপন কান্তি ঘোষে সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আলহাজ্ব এ্যাড. আ ক ম মোজাম্মেল হক, গাজীপুর জেলা প্রশাসক এস এম তরিকুল ইসলাম, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, এক্সপোর্ট কম্পেটিটিভনেস ফর জবস (ইসিফরজি) প্রকল্পের পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) মনসুরুল আলম প্রমুখ।


আরও খবর
নাটকীয় উত্থানে ঘুরে দাঁড়াল পুঁজিবাজার

বৃহস্পতিবার ২১ অক্টোবর 20২১




মানুষের হৃদয় ও মন টাকা দিয়ে কেনা যায় না: আইজিপি

প্রকাশিত:শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
আইজিপি বলেন, চাকরিতে ‘প্যাশন’ আনতে হবে। প্রত্যেক পুলিশ সদস্যের সম্মান ও মর্যাদাবোধ থাকতে হবে। পেশাদারির সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে হবে

থানার ওসি চাইলেই হ্যামিলনের বাঁশিওয়ালা হতে পারেন- এ মন্তব্য করে বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. বেনজীর আহমেদ বলেছেন, মানুষের জন্য কাজ করে তাদের হৃদয় ও মন জয় করা যায়। এটা টাকা দিয়ে কেনা যায় না।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ঢাকা রেঞ্জের আগস্ট-২০২১ মাসের মাসিক অপরাধ পর্যালোচনা সভায় ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

সমাজকে একটি বহতা নদীর সঙ্গে তুলনা করে আইজিপি বলেন, যেহেতু সমাজ পরিবর্তন হয়, ফলে সমাজ পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে আইনশৃঙ্খলা ও অপরাধ পরিস্থিতিরও পরিবর্তন হয়।

সর্বদা সমাজের পরিবর্তনশীল চাহিদার প্রতি লক্ষ্য রেখে পুলিশিং কার্যক্রম চালু রাখতে তিনি মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন।

বিট পুলিশিংকে পুলিশিংয়ের একটি কার্যকর পদ্ধতি হিসেবে আখ্যায়িত করে পুলিশপ্রধান বলেন, বঙ্গবন্ধু প্রতিটি ইউনিয়নে থানা করার যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, মূলত বিট পুলিশং সে লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে।

ড. বেনজীর বলেন, প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনী ইশতেহারে ঘোষণা করেছিলেন, প্রতিটি গ্রামে শহরের সুবিধা পৌঁছে দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে প্রতিটি ইউনিয়নে অপরাধ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় বিট পুলিশং কার্যকর অবদান রাখতে পারে।

জনগণের মধ্যে বিট পুলিশিং কার্যক্রম ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য পুলিশ কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেন তিনি।

আইজিপি আবারও দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে ঘোষণা করেন, কোনো পুলিশ সদস্য যদি কোনো ধরনের অপরাধের সঙ্গে জড়িত থাকে, তাহলে তাকে তা বন্ধ করতে হবে। পুলিশে কোনো অপরাধীর জায়গা নেই। আমরা যতই ভালো কাজ করি না কেন, একটি খারাপ কাজ সব অর্জন নষ্ট করে দেয়।

জুনিয়রদের যোগ্য করে গড়ে তোলা সিনিয়রদের দায়িত্ব উল্লেখ করে ড. বেনজীর আহমেদ বলেন, জুনিয়রদের জন্য ভালো উদাহরণ তৈরি করতে হবে। ভালো কাজে তাদের মোটিভেট করতে হবে। তাদের সুপারভাইজ করতে হবে।

আইজিপি বলেন, চাকরিতে প্যাশন আনতে হবে। প্রত্যেক পুলিশ সদস্যের সম্মান ও মর্যাদাবোধ থাকতে হবে। পেশাদারির সঙ্গে দায়িত্ব পালন করতে হবে।

ঢাকা রেঞ্জের বিভিন্ন ইনোভেশন কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করে পুলিশপ্রধান অন্যান্য ইউনিটেও এ ধরনের ইনোভেশন চর্চার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

সভায় ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি আগস্ট মাসের সার্বিক অপরাধ পরিস্থিতি, অপরাধ ব্যবস্থাপনা, বেস্ট প্র্যাকটিসেস ও ইনোভেশন কার্যক্রম উপস্থাপন করেন।

মাদারীপুর জেলা পুলিশ আয়োজিত মাসিক অপরাধ পর্যালোচনার এ সভায় ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজিসহ রেঞ্জের অধীন সব জেলার পুলিশ সুপার ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা অংশ নেন।

নিউজ ট্যাগ: ড. বেনজীর আহমেদ

আরও খবর
মুনিয়া-শারুন আলাপ কী প্রমাণ করে?

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১




শাহরুখের ছেলের বান্ধবী কে এই মুনমুন ?

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | ৬১৭০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পার্টি থেকে আরিয়ানের সঙ্গেই গ্রেপ্তার হয়েছেন মুনমুন। তাঁর স্যানিটারি প্যাডে লুকিয়ে রাখা ছিল মাদক। শাহরুখের ছেলের সঙ্গে তাঁর বন্ধুত্ব নিয়েও কথা উঠেছে ভারতীয় নানা সংবাদমাধ্যমে। কে এই মুনমুন? কী করেন তিনি?

জানা গিয়েছে, ধনার্ঢ্য ব্যবসায়ী পরিবারের মেয়ে মুনমুন। পেশায় মডেল। পেশার সূত্রেই বলিউড তারকাদের সঙ্গেও তাঁর ওঠাবসা। গুরু রান্ধাওয়া, অর্জুন রামপালের মতো বলিউড তারকা রয়েছেন সেই তালিকায়। ইনস্টাগ্রামেও বেশ জনপ্রিয় মুনমুন। সেখানে তাঁর অনুসারীর সংখ্যা দশ হাজারেরও বেশি।

নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) এর জিজ্ঞাসাবাদে মাদক নেওয়ার কথা স্বীকার করেছেন মুনমুন। সোমবার আরিয়ানের সঙ্গেই আদালতে তোলা হয় তাঁকে। তাদেরকে ৭ অক্টোবর পর্যন্ত এনসিবি হেফাজতে রাখার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

এনসিবির দাবি, জুতো থেকে শুরু করে চোখের লেন্সের বাক্সে লুকানো ছিল আরিয়ানদের মাদক। আরিয়ানদের কাছ থেকে পাওয়া গেছে ১৩ গ্রাম কোকেন, ৫ গ্রাম এমডি, ২১ গ্রাম চরস, ও এমডিএমএর ২২ টি পিল এবং নগদ এক লক্ষ তেত্রিশ হাজার টাকা। একাধিক ধারায় মামলা করা হয়েছে আরিয়ানের বিরুদ্ধে। নারকোটিক ড্রাগস অ্যান্ড সাইকোট্রপিক সাবস্ট্যান্সেস ১৯৮৫ আইনের ৮সি, ২৭, ২২ নম্বর ধারা, এছাড়া এমডিএমএ ও এক্সট্যাসি আইনের  অন্তর্গত ১৪(১), ১৪ (বি), ২০(বি) ধারায় মামলা করা হয়েছে আরিয়ানের বিরুদ্ধে।

এনসিবির সূত্রে জানা গেছে, আরিয়ান খান এবং আরবাজ মার্চেন্ট এনসিবিকে সঠিকভাবে বলছেন না যে, কে তাদের মাদক সরবরাহ করতেন? আরবাজ বলছেন যে গোয়ার একজন মাদক সরবরাহকারী তাকে মাদক সরবরাহ করত। মুনমুন জানান, আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে একটি পাঁচতারা হোটেলের কাছে একজন মাদক ব্যবসায়ী তাকে কিছু মাদকদ্রব্য দিয়েছিলেন। কিন্তু সঠিক নাম কেউই বলছেন না। জেরা করার জন্য সোমবার আরবাজ ও আরিয়ানের বিশেষ বন্ধু শ্রেয়স নায়ারকে গ্রেপ্তার করতে পারে এনসিবি।

শনিবার রাতে এক মাদক পার্টি থেকে শাহরুখ খানের পুত্র আরিয়ান খান সহ আটজনকে আটক করে নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো। আরিয়ানের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য সেবন ও মাদক কেনা বেচার গুরুতর অভিযোগ এনেছে এনসিবি। দীর্ঘ ১৬ ঘণ্টা জিজ্ঞাসাবাদের পর বাজেয়াপ্ত করা হয় আরিয়ানের ফোন। খতিয়ে দেখা হয়, শেষ কয়েকদিন কার কার সঙ্গে ফোনে ও হোয়াটস অ্যাপে কথা বলেছেন আরিয়ান।

এরপরই আরিয়ান খান, আরবাজ মার্চেন্ট ও মুনমুন ধামেচা, নুপূর সারিকা, ইশমিত সিং, মোহক জয়সওয়াল, বিক্রান্ত চোকার, গোমিত চোপড়াকে গ্রেপ্তার করে এনসিবি। রবিবার আদালতে আরিয়ানের আইনজীবী সতীশ মানশিণ্ডে জানান যে এই পার্টিতে যাওয়ার টিকিটও ছিল না আরিয়ানের কাছে, তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। এমনকি আরিয়ানের কাছে কোনও মাদকদ্রব্য ছিল না। তাই তাঁকে গ্রেপ্তার করাই ভুল, বলে দাবি করেন আইনজীবী।

নিউজ ট্যাগ: শাহরুখের ছেলে

আরও খবর
গাছের সঙ্গে বিয়ে হবে নয়নতারার

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১




বনানীর রেইনট্রি হোটেলে ২ শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলার রায় পেছাল

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১২ অক্টোবর ২০২১ | ৪৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
২০১৭ সালের ২৮ মার্চ রাত ৯টা থেকে পরদিন সকাল ১০টা পর্যন্ত অভিযুক্তরা মামলার বাদী, তার বান্ধবী ও বন্ধুকে আটকে রাখে। অস্ত্র দেখিয়ে ভয় প্রদর্শন ও অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন

বনানীর রেইনট্রি হোটেলে ২ শিক্ষার্থী ধর্ষণের ঘটনায় আপন জুয়েলার্সের কর্ণধার দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলার রায় আজ হচ্ছে না। রায় ঘোষণার জন্য এখন পর্যন্ত নতুন কোনো তারিখ ধার্য করেননি আদালত।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭ এর ভারপ্রাপ্ত বিচারক এ আদেশ দেন। সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আফরোজা ফারহানা আহমেদ অরেঞ্জ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে ৩ অক্টোবর রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শুনানি শেষে রায় ঘোষণার জন্য এ দিন ধার্য করেন আদালত। একইসঙ্গে জামিনে থাকা সাফাতসহ পাঁচ আসামির জামিন বাতিল করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

২০১৭ সালের ৭ জুন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের উইমেন সাপোর্ট অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনের (ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টার) পরিদর্শক ইসমত আরা এমি পাঁচজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র আদালতে দাখিল করেন। ওই বছরের ১৯ জুন একই ট্রাইব্যুনাল আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র গ্রহণ করেন।

অভিযোগপত্রে, আসামি সাফাত আহমেদ ও নাঈম আশরাফ ওরফে এইচ এম হালিমের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯ (১) ধারায় ধর্ষণের অভিযোগ করা হয়েছে। এছাড়া মামলার অন্য তিন আসামি সাফাত আহমেদের বন্ধু সাদমান সাকিফ, দেহরক্ষী রহমত আলী ও গাড়িচালক বিল্লাল হোসেনের বিরুদ্ধে ওই আইনের ৩০ ধারায় ধর্ষণে সহযোগিতার অভিযোগ আনা হয়।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৮ মার্চ রাত ৯টা থেকে পরদিন সকাল ১০টা পর্যন্ত অভিযুক্তরা মামলার বাদী, তার বান্ধবী ও বন্ধুকে আটকে রাখে। অস্ত্র দেখিয়ে ভয় প্রদর্শন ও অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করেন। বাদী ও তার বান্ধবীকে জোর করে একটি কক্ষে নিয়ে যায় আসামিরা। বাদীকে সাফাত আহমেদ ও তার বান্ধবীকে নাঈম আশরাফ একাধিকবার ধর্ষণ করে।

অভিযোগে আরও উল্লেখ করা হয়, সাদমান সাকিফকে দুই বছর ধরে চেনেন মামলার বাদী। তার মাধ্যমেই ঘটনার ১০ থেকে ১৫ দিন আগে সাফাতের সঙ্গে দুই শিক্ষার্থীর পরিচয় হয়। ওই দুই শিক্ষার্থী সাফাতের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে যান। সাফাতের গাড়িচালক বিল্লাল ও দেহরক্ষী তাদের বনানীর ২৭ নম্বর রোডে রেইনট্রি হোটেলে নিয়ে যান। হোটেলে যাওয়ার আগে বাদী ও তার বান্ধবী জানতেন না যে, সেখানে পার্টি হবে। তাদের বলা হয়েছিল, এটা একটা বড় অনুষ্ঠান, অনেক লোকজন থাকবে। অনুষ্ঠান হবে হোটেলের ছাদে।

সেখানে যাওয়ার পর তারা কাউকে দেখেননি। সেখানে আরও দুই তরুণী ছিলেন। বাদী ও তার বান্ধবী সাফাত ও নাঈমকে ওই দুই তরুণীকে ছাদ থেকে নিচে নিয়ে যেতে দেখেন। এ সময় বাদীর বন্ধু ও আরেক বান্ধবী ছাদে আসেন। পরিবেশ ভালো না লাগায় তারা চলে যেতে চান। এ সময় অভিযুক্তরা তাদের গাড়ির চাবি শাহরিয়ারের কাছ থেকে নিয়ে নেয় এবং তাকে মারধর করেন। ধর্ষণের সময় গাড়িচালককে ভিডিও করতে বলেন সাফাত। বাদীকে নাঈম আশরাফ মারধর করেন।

নিউজ ট্যাগ: রেইনট্রি হোটেল

আরও খবর
ইকবালসহ ৪ আসামির রিমান্ড মঞ্জুর

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১




ইতিহাস গড়ে সুপার টুয়েলভে পা রাখল নামিবিয়া

প্রকাশিত:শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২২ অক্টোবর ২০২১ | ২৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নিজেদের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো নামিবিয়া এসেছিল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে। তাতেই গড়া হয়ে গিয়েছিল ইতিহাস। সে ইতিহাসে আরো একটা পাতা যোগ করল আফ্রিকা মহাদেশের এই দেশটি। অঘোষিত নকআউট ম্যাচে আয়ারল্যান্ডকে ৮ উইকেটে হারিয়ে সুপার টুয়েলভে চলে গেল নামিবিয়া।

শারজায় আজ শুক্রবার দলকে ইতিহাস গড়ার ভিত তৈরি করতে নামিবিয়ার বোলাররা সফল হয়। আয়ারল্যান্ডকে মাত্র ১২৫ রানেই আটকে দেন তারা। পরের কাজটুকু করেছেন ব্যাটাররা। ১০ বল আর ৮ উইকেট হাতে রেখেই উৎসবে মাতে নামিবিয়া।

১২৬ রানের লক্ষ্য, টি-টোয়েন্টিতে মামুলিই বলা যায়। ক্রেইগ উইলিয়ামস (১৬ বলে ১৫) আর জ্যান গ্রিন (৩২ বলে ২৪)-নামিবিয়ার দুই ওপেনারই ধীরগতির ইনিংস খেলেন। তবে ২ উইকেটে ৭৩ রান তুলে ফেলা দলটির রান তাড়ায় তেমন দুশ্চিন্তায় পড়তে হয়নি তৃতীয় উইকেট জুটির কল্যাণে। অধিনায়ক গেরহার্ড এরাসমাস আর ডেভিড ওয়াইজ ৩১ বলে ৪৯ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে ম্যাচ বের করেই মাঠ ছাড়েন।

এরাসমাস ৪৯ বলে ৩ বাউন্ডারি আর এক ছক্কায় অপরাজিত থাকেন ৫৩ রানে। ১৪ বলে ১ চার আর ২ ছক্কায় ২৮ রানে অপরাজিত থাকেন নামিবিয়াকে সুপার টুয়েলভে তোলার অন্যতম রূপকার ওয়াইজ।

এর আগে ব্যাটিংয়ে নেমে উড়ন্ত সূচনা করেছিল আয়ারল্যান্ড। ওপেনিংয়ে ৭.২ ওভারে ৬২ রানের জুটি গড়েন পল স্টারলিং ও কেভিন ওব্রায়েন। ২৪ বলে ৫টি চার ও এক ছক্কায় ৩৮ রান করে ফেরেন পল স্টারলিং। ২৪ বলে ২টি চারের সাহায্যে ২৫ রান করে ফেরেন কেভিন ওব্রায়েন। ১৪.২ ওভারে দলীয় ৯৪ রানে ফেরেন গ্যারেথ ডেলানি।

দুই ওপেনারের বিদায়ের পর নামিবিয়ান বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে চাপে পড়ে যায় আইরিশরা। এরপর একমাত্র অ্যান্ড্রু বলবার্নি ছাড়া তাদের কোনো ব্যাটার দুই অঙ্কও ছুঁতে পারেননি। আইরিশ অধিনায়ক ২৮ বলে খেলেছেন ২১ রানের ইনিংস। নামিবিয়ার পক্ষে জন ফ্রাইলিঙ্ক ৩টি, ডেভিড ভিসে ২টি এবং জেজে স্মিট ও বের্নার্ড শোল্টজ নিয়েছেন ১টি করে উইকেট।

শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) শারজায় খেলাটি শুরু হয় বাংলাদেশ সময় বিকেল ৪টায়। প্রথম পর্বে গ্রুপ 'এ'তে থাকা চারটি দল হলো- শ্রীলংকা, আয়ারল্যান্ড, নেদারল্যান্ডস ও নামিবিয়া। নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচে বড় জয় পাওয়া শ্রীলংকার মূল পর্ব নিশ্চিত।

দুই ম্যাচের একটাও না জেতা নেদারল্যান্ডের বিদায়ও নিশ্চিত হয়ে গেছে। আর আজ নামিবিয়ার জয়ের মধ্য দিয়ে 'এ' গ্রুপের বাকি দল হিসেবে জায়গা পেল বিশকাপে।

নামিবিয়া একাদশ

পিকি ইয়া, জেন গ্রিন, ক্রেইগ উইলিয়ামস, গেরহার্ড ইরাসমাস (অধিনায়ক), ডেভিড ভিসে, জেজে স্মিট, মাইকেল ভ্যান লিঙ্গেন, জন ফ্রাইলিংক, লফটি-ইটন, রুবেন ট্রাম্পেলম্যান, বার্নার্ড শোল্টজ।

আয়ারল্যান্ড একাদশ

পল স্টার্লিং, কেভিন ওব্রায়েন, অ্যান্ড্রিউ বালবার্নি (অধিনায়ক), গ্যারেথ ডেলানি, কার্টিস ক্যাম্পার, হ্যারি টেক্টর, নেইল রক, সিমি সিং, মার্ক এডায়ার, জশ লিটল, ক্রেইগ ইয়ং।


আরও খবর
অজিদের কষ্টার্জিত জয়

শনিবার ২৩ অক্টোবর ২০২১




রাবির ভর্তি পরীক্ষা শুরু আজ

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | ৫২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

আজ সোমবার (৪ অক্টোবর) থেকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। এ বছর চার হাজার ১৭৩টি আসনের বিপরীতে এক লাখ ২৮ হাজার পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছেন।

অর্থাৎ প্রতি আসনের বিপরীতে লড়ছেন ৩০ জন শিক্ষার্থী। ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়েছে প্রশাসন। বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, আজ সকাল সাড়ে ৯টায় সি ইউনিটের (বিজ্ঞান) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। দ্বিতীয় দিন মঙ্গলবার ইউনিট

(মানবিক) এবং তৃতীয় দিন বুধবার বি ইউনিটের (বাণিজ্য) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিদিন তিন শিফটে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সাড়ে ১০টা, দুপুর ১২টা থেকে ১টা ও বিকেল ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত পরীক্ষা গ্রহণ করা হবে।

পরীক্ষা চলাকালে অভিভাবকদের বসার জন্য ক্যাম্পাসে নির্ধারিত কয়েকটি স্থানে ব্যবস্থা করা হয়েছে। পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারীদের পরীক্ষা শুরুর অন্তত ৩০ মিনিট আগে নির্ধারিত কক্ষে আসন গ্রহণ করতে হবে। নিবন্ধিত শিক্ষার্থীদের এরই মধ্যে এসএমএসের মাধ্যমে পরীক্ষার রোল নম্বর ও পরীক্ষাকক্ষের তথ্য জানানো হয়েছে। পরীক্ষাকক্ষে শুধু প্রবেশপত্র ও পরীক্ষাসংক্রান্ত উপকরণ ও কাগজপত্র ছাড়া অন্য কিছু, যেমন-ইলেকট্রনিক যন্ত্র ইত্যাদি আনা যাবে না।

ভর্তি পরীক্ষা চলার সময় পরীক্ষাকক্ষসহ পুরো ক্যাম্পাস চার স্তরের নিরাপত্তাব্যবস্থার আওতায় থাকবে। পরীক্ষাসংক্রান্ত যেকোনো ধরনের অপরাধ, যেমন- অসদুপায় অবলম্বন, আর্থিক লেনদেন, ভুয়া ও ভাড়াটে পরীক্ষার্থীর তৎপরতা, ওএমআর শিট পরিবর্তন ইত্যাদিসহ অন্য যেকোনো অপরাধ কঠোরভাবে দমন করা হবে। এজাতীয় যেকোনো ধরনের অপরাধের বিচারে সার্বক্ষণিক মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সুলতান-উল-ইসলাম বলেন, 'জালিয়াতি ঠেকাতে কয়েক বছর ধরে আমাদের যে প্রস্তুতি ছিল, এ বছরও সেই প্রস্তুতি রয়েছে। আমরা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছি। সব কিছুই এখনো আমাদের নিয়ন্ত্রণে আছে।'



আরও খবর