আজঃ শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১
শিরোনাম

পিরোজপুরে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রের ঝুলন্ত মৃতদেহ নিয়ে রহস্য!

প্রকাশিত:শনিবার ২১ আগস্ট 20২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ আগস্ট 20২১ | ৯৫৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যা বলে মনে না হওয়ায় ময়নাতদন্তের ব্যবস্থা করা হয়। তাছাড়া আব্দুল্লাহ’র সৌদিপ্রবাসী বাবা সবুজ খান হত্যা নাকি আত্মহত্যা নিশ্চিত হওয়ার জন্য ময়নাতদন্তের জোর দাবি করেন

পিরোজপুরের সিআই পাড়ার চানমারি এলাকায় চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ'র (১১) ঝুলন্ত লাশ নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। গত ১৬ আগষ্ট রাত নয়টার দিকে বাথরুমের কাপড় রাখার পাইপে অর্ধঝুলন্ত (মেঝেতে হাটু ভাজ অবস্থায়) লাশ পাওয়া যায়।

আব্দুল্লাহ স্থানীয় কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র। আব্দুল্লাহর বাবা সৌদি আরবের থাকায় মা নিপা মোনালিসার সঙ্গে চানমারি এলাকায় একটি ভাড়া বাড়িতে বসবাস করতো।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে আব্দুল্লাহ চটপটে এবং বুদ্ধিদীপ্ত ছেলে ছিলো। সবাই তাকে আদর করতো। তাকে মৃত অবস্থায় যেভাবে পাওয়া গেছে তাতে আত্মহত্যা বলে মনে হয় নাই। কিন্তু তার মা এবং তার বন্ধু-বান্ধবরা ময়নাতদন্ত ছাড়াই লাশ দাফনের তীব্র চেষ্টা চালায়।

পুলিশের একটি বিশ্বস্ত সূত্র জানায়, প্রাথমিকভাবে আত্মহত্যা বলে মনে না হওয়ায় ময়নাতদন্তের ব্যবস্থা করা হয়। তাছাড়া আব্দুল্লাহ’র সৌদিপ্রবাসী বাবা সবুজ খান হত্যা নাকি আত্মহত্যা নিশ্চিত হওয়ার জন্য ময়নাতদন্তের জোর দাবি করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন প্রতিবেশী এ প্রতিবেদককে বলেন, নিপার এক বন্ধুর রাত বিরাতে ওই বাসায় যাতায়ত ছিলো। তারা দুই তিনজন বাসার বাইরে পাহারা থাকতো। প্রভাবশালী হওয়ায় নাম বলতে পারছি না। তবে নিপার মোবাইল ফোনের কল লিষ্ট চেক করলেই পুলিশ বিষয়টি জানতে পারবে। এলাকাবাসী এ নির্মম মৃত্যুর রহস্য জানতে চায়। সকলের চোখ রয়েছে ময়নাতদন্ত রিপোর্টের দিকে।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকেও আলোচনা সমালোচনার ঝড় বইছে। আব্দুল্লাহর মা নিপার কয়েকজন বন্ধু বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার জন্য তৎপরতা চালাচ্ছে।

এ ব্যাপারে পিরোজপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আঃ জাঃ মোঃ মাসুদুজ্জামান বলেন, বিষয়টি একটু রহস্যজনক মনে হওয়ায় শিশুটির ময়নাতদন্ত করা হয়। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়া গেলেই বুঝা যাবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা। এ ব্যপারে থানায় একটি অপমৃত্যু (ইউডি) মামলা হয়েছে। মামলা নং ২৬২১।


আরও খবর



এবার পরীমণিকে নিয়ে মুখ খুললেন নচিকেতা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ০৭ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৮৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

মাদকের মামলায় প্রায় এক মাস কারাগারে ছিলেন ঢাকাই সিনেমার আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনি। গত ১ সেপ্টেম্বর সকালে জামিনে কারামুক্ত হয়ে বাসায় ফিরেন তিনি। কারামুক্তির পর পরীমনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দুই বাংলার জনপ্রিয় শিল্পী নচিকেতা চক্রবর্তীর এত সাহস কার গানটি শেয়ার করে ক্যাপশনে লিখেন-নিজের উপর বিশ্বাস রাখুন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছ থেকে বিষয়টি জানার পর নচিকেতা বলেন, ব্যক্তিগতভাবে পরীমনিকে আমার ভালো লাগে। ভীষণ সাহসী। যেটা বলা উচিত সেটা সবার সামনে বলার ক্ষমতা রাখেন। তার দেশের পুঁজিবাদের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন। যা খুব সহজ নয়। যা করছেন বেশ করছেন।

নচিকেতা আরো বলেছেন, আমি জানি পরীমনি আমার গান শোনেন। পছন্দও করেন। আমি ওর অনুপ্রেরণা জেনে ভালো লাগছে। সবার বোঝা উচিত, অভিনেত্রীরওনা বলার অধিকার আছে। সেইনা উচ্চারণ করেই তিনি আজ এত বিপাকে। এটা ওর দোষ নয়। সমাজের দোষ। একই সঙ্গে তিনি দুষেছেন গণমাধ্যমকেও।

নচিকেতার অভিযোগ, সমাজের মতোই এক চক্ষু সংবাদমাধ্যমও। কেচ্ছার গন্ধ পেয়ে নড়ে বসেছে। অভিনেত্রীর হয়ে কজন মুখ খুলছে? নচিকেতার আরও আক্ষেপ, সমাজের এই ধারা সব জায়গাতেই সমান। শুধু বাংলাদেশ নয়, ভারতের ছবিও এক।

পরীমনিকে নচিকেতা তার খোলা বার্তায় আরও জানান, আপনাকে পূর্ণ সমর্থন জানাই। সব সময় পাশে আছি।



আরও খবর
হাইকোর্টে জামিন পেলেন মডেল মৌ

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

আমার পছন্দের পুরুষকে একটু রাফ হতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




পাবনায় মাইক্রোবাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেলের তিন আরোহী নিহত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ সেপ্টেম্বর 2০২1 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০২ সেপ্টেম্বর 2০২1 | ৬০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলায় মাইক্রোবাসের ধাক্কায় মোটরসাইকেলের তিন আরোহী নিহত হয়েছেন। উপজেলার জয়নগর শিমুলতলা মোড়ে ঈশ্বরদী-কুষ্টিয়া মহাসড়কে গতকাল বুধবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ঈশ্বরদী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফিরোজ কবির এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, গতকাল রাতে শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত নিহত দুজনের নাম-পরিচয় পাওয়া গেছে। তারা হলেন, ঈশ্বরদী উপজেলার রূপপুর গ্রামের লালন হোসেনের ছেলে ইব্রাহিম হোসেন (২৫) ও জহুরুল ইসলামের ছেলে জয় ইসলাম (২৭)। অপরজনের নাম-পরিচয় পাওয়া যায়নি।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে পুলিশ জানান, গতকাল রাতে দুটি মোটরসাইকেল পাল্লা দিয়ে দ্রুতগতিতে পাকশীর দিকে যাচ্ছিল। জয়নগর শিমুলতলা পার হওয়ার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে নিযুক্ত একটি কোম্পানির মাইক্রোবাসের সঙ্গে মোটরসাইকেলটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় স্থানীয়রা ওই তিনজনকে উদ্ধার করে ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে কর্মরত আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) সাকিব হাসান জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার পর ওই তিনজনকে মৃত অবস্থায় পাওয়া গেছে।


আরও খবর
রামেক হাসপাতালে আরও ৫ জনের মৃত্যু

শুক্রবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১




উড়ে এসে জুড়ে বসারা ক্ষমতাকে ভোগের জায়গা বানায়: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৫২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ যখন দেশের ক্ষমতায় আসে তখন উন্নতি হয়। উড়ে এসে জুড়ে বসারা ক্ষমতাটাকে ভোগের জায়গা বানায়। অর্থ-সম্পদ বানানোর একটা মেশিন হিসাবে পায়। 

বুধবার ভূমি মন্ত্রণালয়ের ভূমি ভবন, উপজেলা ও ইউনিয়নের ভূমি অফিস ভবন, অনলাইন ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ কার্যক্রম এবং ভূমি ডাটা ব্যাংকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।  ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যোগ দেন।  অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা ক্ষমতায় থাকলে দেশের মানুষ সেবা পায়, দেশের উন্নতি ও ভাবমূর্তি উজ্জ্বল হয়।

আমরা যখন সরকারে আসি তখন আন্তরিকতা, আদর্শ, নীতি ও সুদূরপ্রসারী পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করি। কারণ এদেশের মানুষের মুক্তির জন্য সংগ্রাম করেছে আওয়ামী লীগের কর্মীরা, পাশে থেকেছে জনগণ। কিন্তু উড়ে এসে জুড়ে যারা ক্ষমতায় বসে, তাদের সেই দায়বদ্ধতা থাকে না।  দেশের মানুষের প্রতি তাদের কোনো খেয়ালই থাকে না। এটা হলো বাস্তবতা।

শেখ হাসিনা বলেন, পঁচাত্তরে জাতির পিতাকে হত্যার পরে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখলের পালা যখন শুরু হল তখন থেকে দেশের ভাবমূর্তি বিদেশে নষ্ট হতে শুরু করে। বাংলাদেশ নাম শুনলে মনে করতো দুর্ভিক্ষ, ঝড়, বন্যা, জলোচ্ছ্বাস ও প্রাকৃতিক দুর্যোগের দেশ। এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত অসম্মানজনক। আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর আমরা মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নতি করতে চেষ্টা করেছি।

তিনি বলেন, বিএনপি সামরিক শাসকের হাতে তৈরি করা একটা সংগঠন। তাই মানুষের প্রতি, দেশের প্রতি তাদের কোনও দায়িত্ববোধও নেই। ক্ষমতা আর ক্ষমতায় থেকে টাকা বানানো, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাস এবং দুর্নীতি তাদের কাজ। সেটাই তারা করেছে।

এসময় হাতের মুঠোয় ভূমিসেবা নিশ্চিত করতে সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, আমরা ভূমি ব্যবস্থাপনাকে আরও উন্নত করতে চাই। সারাদেশের ভূমি অফিসগুলোর যে জীর্ণ দশা, আমাদের আগে তো অনেকই ক্ষমতায় ছিল; কেন এগুলো সংস্কার করেনি এটা বড় প্রশ্ন। দেশে ডিজিটাল টেলিফোন ছিল না। ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় আসার পর আমরাই সেটা করি। মোবাইল ফোন উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। এখন আমরা ফোর জি চালু করেছি। ফাইভ জিও চালুর ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এখন কম্পিউটার, ল্যাপটপ বা ট্যাব ব্যবহারের প্রয়োজন হয় না, মোবাইলের মাধ্যমেও অনেক কাজ সহজে করতে পারেন। ট্যাক্স, খাজনা দিতে পারেন সেই ব্যবস্থাও নেওয়া হয়েছে। ভূমি মালিক এখন অফিসে না গিয়ে ডিজিটাল পদ্ধতিতে কর দিতে পারেন।



আরও খবর



চাকরির আবেদনে থাকবে না সত্যায়ন প্রক্রিয়া

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

অধিকাংশ সরকারি চাকরিতে আবেদনের ক্ষেত্রে সত্যায়ন প্রক্রিয়া থাকায় অনেক সময় প্রার্থীকে ব্যাপক ঝামেলার মধ্যে পড়তে হয়। ডিজিটাল যুগে অ্যানালগ প্রক্রিয়া থাকায় এর ব্যাপক সমালোচনা করেছে চাকরি প্রার্থীরা। তাদের দাবি দ্রুত সময়ের মধ্যে সত্যায়ন প্রক্রিয়া তুলে দিলে সরকারি চাকরিতে আবেদন করার আর বিড়ম্বনা থাকবে না।

প্রার্থীদের সরকারি চাকরিতে আবেদনে সত্যায়নের ক্ষেত্রে বিড়ম্বনাটি বিবেচনায় নিয়ে এবার এ প্রক্রিয়া তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বর্তমানে অনলাইনের মাধ্যমে প্রার্থীর তথ্য খুব সহজে যাচাই-বাছাই করা যায়। এজন্যই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে বলে জানা গেছে।

চাকরির আবেদনপত্রের সঙ্গে জমা দেওয়া কাগজপত্র আসল কি না অথবা আসল ডকুমেন্টের অনুলিপি কি না, তা নিশ্চিত করার জন্যই মূলত সত্যায়িত করতে বলা হয়। নিয়ম অনুযায়ী কাগজপত্রে একজন সই করে সাক্ষ্য দেবেন। সাক্ষী এমন ব্যক্তি হবেন, যার সাক্ষ্য বিশ্বাস করার যুক্তিযুক্ত কারণ আছে। এক্ষেত্রে বাংলাদেশ সরকারের প্রথম শ্রেণির গেজেটেড কর্মকর্তা, অষ্টম গ্রেড থেকে তদূর্ধ্ব, বিশেষ ক্ষেত্রে সংসদ সদস্য, মেয়র বা স্থানীয় সরকারের চেয়ারম্যান বা ভাইস চেয়ারম্যান, সরকারি অধ্যক্ষ, গণমাধ্যমের সম্পাদকসহ কিছু গণ্যমান্য ব্যক্তিকে সত্যায়নের এখতিয়ার দেওয়া হয়েছে।

তবে বর্তমানে এ প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন তৈরি হয়েছে। মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিকসহ প্রায় সব বোর্ড বা বিশ্ববিদ্যালয়েরই নিজস্ব ওয়েবসাইটে উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থীর নম্বরপত্রসহ হালনাগাদ তথ্য দেওয়া থাকে। নির্দিষ্ট ব্যক্তির রোল, রেজিস্ট্রেশন নম্বর ও পাসের সাল দিয়ে যে কেউ যে কারো শিক্ষাগত যোগ্যতা যাচাই করতে পারে।

যদিও ২০১৫ সালে সত্যায়ন প্রক্রিয়া বাদ দেওয়ার জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে সচিব পর্যায়ের একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু ওই বৈঠক গ্রহণ করা সিদ্ধান্ত এখন পর্যন্ত পুরোপুরি বাস্তবায়িত হয়নি।

এ বিষয়ে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বলেন, সরকারি চাকরিতে আবেদনের ক্ষেত্রে সত্যায়নি প্রক্রিয়াটি বাদ দিয়ে দেওয়া হবে। কারণ বর্তমানে সত্যায়ন প্রক্রিয়ার বিকল্প আছে। তিনি বলেন, আমরা ডিজিটালাইজেশনের যুগে প্রবেশ করেছি। তাই এখন আর আমরা আগের ঝামেলাকর সার্ভিসের মধ্যে থাকতে চাই না।

অনেক সময় চাকরিপ্রার্থীরা প্রথম শ্রেণির কোনো কর্মকর্তার কাছে সত্যায়নের জন্য গেলে তারা প্রার্থীকে না চেনায়, সত্যায়ন করতে চায় না। এক্ষেত্রে ব্যাপক বিড়ম্বনায় পড়েন তারা।

অনেক সময় দেখা যায়, সহজে সত্যায়ন করতে না পেরে নিজেরাই সত্যায়নের সিল নকল করে কাজ চালিয়ে নেয়। কিন্তু এটি আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ। তারপরও বিষয়টি সবার কাছে সহনীয় হয়ে গেছে।


আরও খবর
কিশোর গ্যাং নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নতুনভাবে ভাবতে হবে

বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১




দেড় বছর পরে স্কুলে দিল্লির শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিত:বুধবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৪৮৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

করোনা মহামারির কারণে প্রায় দেড় বছর বন্ধ থাকার পর ভারতের রাজধানী দিল্লির স্কুলগুলো খুলে দেওয়া হয়েছে। বুধবার থেকে সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ শিক্ষার্থী নিয়ে রাজ্যটির সব স্কুল খোলা থাকবে বলে এনডিটিভির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

দিল্লিতে সম্প্রতি করোনার প্রাদুর্ভাব কমে যাওয়ায় ১৭ মাস পর স্কুলগুলো খুলে দেওয়ার এ উদ্যোগ নেওয়া হয়। প্রাথমিকভাবে বেশ কিছু নিয়ম মেনেই শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। ক্লাসে প্রবেশের আগে শিক্ষার্থীদের থার্মাল স্ক্যানিং করা হবে।

দিল্লির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের (ডিডিএমএ) নির্দেশনায় বলা হয়, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, বিশেষ করে মধ্যাহ্নবিরতিতে খাবারের সময় সোশ্যাল ডিসট্যান্স মেনে চলতে হবে। এর অংশ হিসেবে শিক্ষার্থীদের ছোট ছোট দলে ভাগ করে দুপুরের খাবারের ব্যবস্থা করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

প্রতিষ্ঠানগুলোকে জরুরি ব্যবহারের জন্য কোয়ারেন্টিন রুম চালুরও পরামর্শ দিয়েছে ডিডিএমএ। সংস্থাটির নীতিমালায় বলা হয়েছে, স্কুল খুললেও লকডাউন জোনে থাকা ছাত্র-শিক্ষকরা ক্লাসে যেতে পারবেন না।

এছাড়া দিনে যেন সর্বোচ্চ ৫০ শতাংশ শিক্ষার্থী ক্লাসে আসতে পারে সেভাবে রুটিন তৈরি করতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।


আরও খবর