আজঃ সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১
শিরোনাম

প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ডিসেম্বরে

প্রকাশিত:বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১ | ৬১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার যথার্থ শিক্ষার জন্য মানসম্মত শিক্ষক নিয়োগ

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন জানিয়েছেন, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে প্রাথমিকের ৩২ হাজার ৭০০ জন সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

বুধবার (১০ নভেম্বর) প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এতথ্য জানানো হয়।

গতকাল মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী বলেন, এ নিয়োগ সম্পন্ন হলে শিক্ষকরা আরও স্বাচ্ছন্দে কোমলমতি শিক্ষার্থীদের পাঠদান করতে পারবে।

মো. জাকির হোসেন বলেন, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান সরকার যথার্থ শিক্ষার জন্য মানসম্মত শিক্ষক নিয়োগ, ইংরেজিতে দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য বৃটিশ কাউন্সিলের সহযোগিতা গ্রহণ এবং গণিতের জন্য গণিত অলিম্পিয়াড চালু করেছে।

পাশাপাশি বছরের প্রথমদিন সব শিশুকে নতুন বই ও উপবৃত্তি দেওয়া হচ্ছে। জরাজীর্ণ ভবনের পরিবর্তে নতুন বিদ্যালয় ভবন নির্মিত হচ্ছে।


আরও খবর
জনবল নিয়োগ দেবে বাংলাদেশ রেলওয়ে

মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১




ইউটিউবে আসছে সিমলার ‘নিষিদ্ধ’ সিনেমা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | ৬০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডে নিষিদ্ধ হওয়া প্রেমকাহন সিনেমাটি পুরনো নামে মুক্তি পাচ্ছে ইউটিউবে। চিত্রনায়িকা সিমলা অভিনীত সিনেমাটির আগের নাম ছিল নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প

কাহিনি অসংলগ্ন ও সংলাপ অশ্লীল উল্লেখ করে ২ নভেম্বর এটিকে প্রদর্শনের অযোগ্য বলে ঘোষণা দেয় সেন্সর বোর্ড। এই আদেশের ৩০ দিনের মধ্যে আপীল করার সুযোগ রেখেছে বোর্ড। কিন্তু সে সময় শেষ হওয়ার আগেই সিনেমাটি ২৫ নভেম্বর ইউটিউবে মুক্তির ঘোষণা দিয়েছেন পরিচালক রুবেল আনুশ। 

২০১৪ সালে শুটিং শুরু হয় অসম প্রেমের গল্পের এই সিনেমা। প্রথমবার সেন্সরে সিনেমাটি জমা দেওয়া হলে এটিকে প্রদর্শন অযোগ্য বলে সেন্সর বোর্ড বেশকিছু কারেকশন দেয়। পরে নাম পরিবর্তন করেও ছাড়পত্র পায়নি সিনেমাটি।

নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প সিনেমায় মূল চরিত্রে অভিনয় করেছেন সিমলা ও ঘেটুপুত্র কমলাখ্যাত মামুন। কলেজ পড়ুয়া এক তরুণের সঙ্গে বিদেশ থেকে পড়াশোনা সম্পন্ন করে আসা এক তরুণীর প্রেমের গল্প তুলে ধরা হয়েছে এতে।

নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প-এ আরও অভিনয় করেছেন কাজী হায়াৎ, শিমুল খান, মুসা, বাপ্পি, টুটুল চৌধুরী, পুলক হায়দার, শিশির আহমেদ, লাবণী, আফরিন, সাদিয়া, বাদলসহ অনেকে।


আরও খবর
শাকিব খানের ব্যাংক হিসাব তলব

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




একাধিক সন্তানের মা হতে চাই : কঙ্গনা রানাউত

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | ৬০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

বিতর্ক তাঁর নিত্যসঙ্গী। সম্প্রতি ঝুলিতে এসেছে চতুর্থ জাতীয় পুরস্কার। কঙ্গনা রানাউত নতুন ছবি, অভিনয় নিয়ে আরও বেশি ভাববেন, সেটাই স্বাভাবিক। কিন্তু বলিউডের কুইন তার থেকে সাত হাত দূরে! উল্টে রানির চোখে সংসার-সন্তানের স্বপ্ন। চাইছেন, তাঁর জীবনে এমন কেউ আসবেন, যিনি তাঁর ভাল-মন্দ মেনে নিয়েই ভালবাসবেন। তবে কি বিয়ের ফুল ফুটতে চলেছেন কঙ্গনার?

এক্ষুণি না হলেও আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে যে তিনি ঘরে-বরে থিতু হবেন, এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন মণিকর্ণিকা। বলিউড সংবাদমাধ্যম তাঁর বিয়ে, সন্তান, সংসার নিয়ে জানতে চেয়েছিল। জবাবে অভিনেত্রী বলেন, আগামী পাঁচ বছরে সব হবে। আমিও সংসারী হতে চাই। একাধিক সন্তানের মা হতে চাই। স্বপ্ন দেখি, আমার সাজানো সংসার আগলাবে আমার স্বপ্নের পুরুষ। যে ভালয়-মন্দয় ঘিরে থাকবে আমায়।

তবে কি স্বপ্নে দেখা রাজপুত্রের সন্ধান পেয়েই গিয়েছেন কঙ্গনা?

সাংবাদিকদের প্রশ্নে সঙ্গে সঙ্গে সংযত থালাইভি। ছোট্ট উত্তরে জানালেন, স্বপ্নের পুরুষের সন্ধান পেয়েছেন তিনি। খুব শীঘ্রই তাঁর কথা জানবেন সকলে।

 

 


আরও খবর
শাকিব খানের ব্যাংক হিসাব তলব

সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১




দুই শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলার রায় বৃহস্পতিবার

প্রকাশিত:বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১ | ১০১৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image
চার্জশিটভুক্ত ৪৭ জন সাক্ষীর মধ্যে ২২ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত। ২০১৮ সালের ১৩ জুলাই আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত

রাজধানীর বনানীর রেইনট্রি হোটেলে দুই শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলায় আপন জুয়েলার্সের কর্ণধার দিলদার আহমেদের ছেলে সাফাত আহমেদসহ পাঁচ জনের রায় আগামীকাল।

বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭ এর বিচারক বেগম মোছা. কামরুন্নাহারের আদালত আলোচিত এ মামলার রায় ঘোষণা করবেন।

গত ৩ অক্টোবর রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে আদালত রায়ের তারিখ ১২ অক্টোবর ধার্য করেন। ওই দিন জামিনে থাকা এ মামলার পাঁচ আসামির জামিন বাতিল করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন আদালত। রায় প্রস্তুত না হওয়ায় তা পিছিয়ে ২৭ অক্টোবর ধার্য করেন আদালত। কিন্তু প্রবীন আইনজীবী আব্দুল বাসেত মজুমদারের মৃত্যুতে নিম্ন আদালতের কার্যক্রম বন্ধ থাকায় তা পিছিয়ে ১১ নভেম্বর ধার্য করা হয়।

এর আগে গত ২৯ আগস্ট আত্মপক্ষ শুনানিতে সাফাতসহ ৫ আসামি নিজেদের নির্দোষ দাবি করে ন্যায় বিচার প্রার্থনা করেন।

মামলার অপর চার আসামি হলেন, সাফাত আহমেদের বন্ধু সাদমান সাকিফ, নাঈম আশরাফ ওরফে এইচ এম হালিম, সাফাতের দেহরক্ষী রহমত আলী ও গাড়িচালক বিল্লাল হোসেন।

গত ২২ আগস্ট মামলাটিতে সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়। চার্জশিটভুক্ত ৪৭ জন সাক্ষীর মধ্যে ২২ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত। ২০১৮ সালের ১৩ জুলাই আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত।

এর আগে ওই বছরের গত ৭ জুন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের উইমেন সাপোর্ট অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনের (ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টার) পরিদর্শক ইসমত আরা এমি পাঁচ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্রটি আদালতে দাখিল করেন।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ২৮ মার্চ জন্মদিনের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানিয়ে অস্ত্রের মুখে ঢাকার একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই দুই ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে ৬ মে বনানী থানায় পাঁচ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়।


আরও খবর



লক্ষ্মীপুরে ভোটকেন্দ্রে গুলিবিদ্ধসহ আহত ২

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১১ নভেম্বর ২০২১ | ৫৯০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চরগাজীতে ভোট শুরুর আগেই কেন্দ্র দখলে নিতে হামলা-গুলির ঘটনা ঘটেছে। এসময় গুলিবিদ্ধসহ দুজন আহত হয়েছেন।

বুধবার দিবাগত গভীর রাতে চরগাজী ইউনিয়নের পূর্ব বয়ারচর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ হামলার ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিক নির্বাচনে দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তারা পালিয়ে যান বলে খবর পাওয়া গেছে।

এদিকে গুলিবিদ্ধ আজাদ উদ্দিন ও ধারালো অস্ত্রের কোপে আহত জাফর আলীকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গুলিবিদ্ধ আজাদ প্রতিদ্বন্দ্বী মেম্বার প্রার্থী আবদুর রব বেপারীর (মোরগ) ভগ্নিপতি ও আহত জাফর তার ভাগিনা। আহতরা চরগাজীর বয়ারচর গ্রামের বাসিন্দা।

ওই কেন্দ্রের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) ফরিদ (ফুটবল) প্রার্থী ও তার কর্মীরা এ হামলা চালিয়ে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

স্থানীয় সূত্র জানায়, ঘটনার সময় ফরিদ তার বাহিনী নিয়ে ভোটকেন্দ্র দখল করতে যান। ঘটনাটি টের পেয়ে প্রতিদ্বন্দ্বী আবদুর রব বেপারীর লোকজন বাধা দেয়। এতে ফরিদের লোকজনের গুলিতে আজাদ ও ধারালো অস্ত্রে আঘাতে জাফর আহত হয়। এ ঘটনার পর কয়েকজনকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানা গেছে।

আবদুর রব ব্যাপারী জানান, কেন্দ্র দখলে নিতে ফরিদ হামলা চালিয়ে আমার ভগ্নিপতি ও ভাগিনাকে আহত করেছে। তাদের আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতাল ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে আমার তিনজন লোককে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আবদুল ওয়াহেদ বলেন, ফরিদ জলদস্যু। ২০১৮ সালে তাকে গ্রেফতার করতে গেলে র‍্যাবের ওপর তার বাহিনী হামলা চালায়। তার বিরুদ্ধে রামগতিসহ বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে।

এ দিকে ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য (মেম্বার) ফরিদের বক্তব্য নিতো তার মোবাইল ফোনে কোল দিলেও তিনি তা রিসিভ করেননি।

রামগতি থানার ওসি মোহাম্মদ সোলাইমান বলেন, ঘটনাটি শুনেছি। আমরা ঘটনাস্থলেই আছি। কি কারণে ঘটনাটি ঘটেছে বা কারা ঘটিয়েছে তদন্ত চলছে। তদন্ত অনুযায়ী ও অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

প্রসঙ্গত, দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনে চরগাজি ছাড়াও কমলনগরের চরকাদিরা, চরলরেন্স, চরমার্টিন ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ চলছে।


আরও খবর



আগাম জামিন পেলেন সাংবাদিক শাকিল

প্রকাশিত:সোমবার ০৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০৮ নভেম্বর ২০২১ | ৫৩০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে দায়ের করা মামলায় চার সপ্তাহের আগাম জামিন পেয়েছেন একাত্তর টিভির বার্তাপ্রধান শাকিল আহমেদ। সোমবার (৮ নভেম্বর) বিকেলে এ আদেশ দেন বিচারপতি শেখ মো. জাকির হোসেন ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চ।

আদালতে বাদী পক্ষের আইনজীবী আগাম জামিনের বিরোধিতা করেন। আসামি শাকিলের আইনজীবী সাবেক অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা আগাম জামিন চেয়ে শুনানি করেন। শুনানি শেষে আদালত চার সপ্তাহের আগাম জামিন দেন। এ বিষয়ে বাদীর আইনজীবী এম সারোয়ার হোসেন বলেন, হাইকোর্টের এই জামিন আদেশের বিরুদ্ধে আমরা আপিলে যাব।

উল্লেখ্য, গত ৪ নভেম্বর রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে শাকিলের বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন ডা. তৃণা ইসলাম নামে এক নারী চিকিৎসক। মামলায় শাকিলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও ভ্রূণ হত্যার অভিযোগ এনেছেন তিনি।


আরও খবর