আজঃ সোমবার ২৩ মে ২০২২
শিরোনাম

প্রতি ঈদে ১০-১২ লাখ টাকার ট্রেনের টিকিট বিক্রি করতেন রেজাউল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | ৬০৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

গত ৬ বছর ধরে বাংলাদেশ রেলওয়ের অনলাইন টিকিটিংয়ের সঙ্গে জড়িত রেজাউল করিম। কর্মী হওয়ার সুবাদে অনলাইন টিকিটের সার্ভারে প্রবেশে তার কোনো বাধা ছিল না। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে প্রতি ঈদ মৌসুমে ২-৩ হাজার টিকিট অবৈধভাবে সরিয়ে নিতেন রেজাউল। আর এসব টিকিট কালোবাজারে ১০-১২ লাখ টাকায় বিক্রি করতেন তিনি।

বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) বিকেলে রাজধানীর কারওয়ান বাজার র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান র‍্যাব-১ এর অধিনায়ক লে. কর্নেল আব্দুল্লাহ আল মোমেন।

তিনি জানান, বুধবার (২৭ এপ্রিল) রাজধানীর কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন সহজ ডটকমের সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার মো. রেজাউল করিমকে (৩৮) আটক করে র‍্যাব-১। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বুধবার রাতে বিমানবন্দর স্টেশন থেকে সহযোগী এমরানুল আলম সম্রাটকেও (২৮) আটক করা হয়। এ সময় তাদের স্মার্টফোন থেকে অবৈধ উপায়ে সংগ্রহ করা বিপুল পরিমাণ ট্রেনের ই-টিকিট জব্দ করা হয়।

লে. কর্নেল আব্দুল্লাহ আল মোমেন বলেন, ঈদযাত্রায় ট্রেনের টিকিটের বিপুল চাহিদা থাকে। আর এ সুযোগকে কাজে লাগিয়ে কালোবাজারে টিকিট বিক্রি করে আসছিল একটি চক্র। অধিকাংশ মানুষই অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার চেষ্টা করছেন। কিন্তু ঈদ উপলক্ষে সকালে অনলাইনে টিকিট ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই টিকিট শেষ হয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া যায়।

তিনি বলেন, এ অভিযোগে র‍্যাব-১ এর গোয়েন্দা দল কমলাপুর স্টেশন থেকে সহজ ডটকমের সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার রেজাউল করিমকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করে। এক পর্যায়ে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে টিকিট কালোবাজারির বিষয়টি নিশ্চিত হয় র‍্যাব। এরপর তার সহযোগী এমরানুলকে আটক করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের ভিত্তিতে র‍্যাব-১ এর কর্মকর্তা বলেন, রেজাউল গত ৬ বছর ধরে ট্রেনের টিকিটিংয়ের সঙ্গে জড়িত। সহজ ডটকমের আগে অনলাইনে টিকিট বিক্রির দায়িত্বরত প্রতিষ্ঠান সিএনএস বিডিতেও কর্মরত ছিলেন তিনি। অভিজ্ঞ কর্মী হিসেবে সহজ ডটকম তাকে নিয়োগ দেয়। রেজাউল প্রতি ঈদে ২-৩ হাজার অনলাইন টিকিট অবৈধভাবে সরিয়ে নিতেন। আর এসব টিকিট কালোবাজারে বিক্রির মাধ্যমে প্রতি মৌসুমে আয় করতেন ১০-১২ লাখ টাকা।

তিনি আরও বলেন, পরিচিতজনদের কাছ থেকে ৫০০ টাকা লাভে টিকিট বিক্রয় করতেন রেজাউল। এছাড়া অন্যদের কাছে নির্ধারিত দামের চেয়ে ১ হাজার থেকে ১৫০০ টাকা বেশি দামে টিকিট বিক্রি করতেন। তার দাবি, রেলওয়ের বিভিন্ন ভিআইপিদের টিকিটের আবদার মেটানোর সুযোগে নির্বিঘ্নে তিনি এ কাজ করে আসছিলেন।

লে. কর্নেল আব্দুল্লাহ আল মোমেন বলেন, রেজাউল পরিচিতজনদের মাধ্যমে অবৈধ উপায়ে টিকিটপ্রত্যাশীদের একটি বড় শ্রেণি গড়ে তুলেছেন। এর বাইরেও কালোবাজারিতে তার টিকিট বিক্রেতা রয়েছে। সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার হওয়ার সুবাদে সার্ভার থেকে টিকিট বুক করে কিনে নিতেন তিনি।

আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিতে তার এ সংক্রান্ত বিভিন্ন যোগাযোগ চলতো বিভিন্ন অ্যাপসে। আর মোবাইল ব্যাংকিংয়ের পরিবর্তে লেনদেন করতেন নগদ অর্থে। তাকে আটকের মধ্য দিয়ে ট্রেনের টিকিট কালোবাজারির একটি বিষয় উন্মোচিত হয়েছে বলে দাবি করেন র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক।


আরও খবর



পটকা মাছ খাওয়ার পর মৃত্যু, অসুস্থ আরও চার জন

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ এপ্রিল ২০২২ | ৬৭৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার ঈশ্বরীপুর ইউনিয়নের বংশিপুর গ্রামে পটকা মাছ খেয়ে বিষক্রিয়ায় একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আরও ৪ জনকে অসুস্থ অবস্থায় সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ এপ্রিল) রাতে অসুস্থদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। নিহত ব্যক্তি উপজেলার বংশিপুর গ্রামের মৃত আনসার আলীর ছেলে মতিউর রহমান (৫২)।

হাসপাতালে ভর্তি থাকা ব্যক্তিরা হলেন, মতিউর রহমানের স্ত্রী মমতাজ বেগম (৪৫), ছেলে সাগর হোসেন (২৫), সাগরের স্ত্রী সিলমি বেগম (২২) ও তাদের ছেলে মাহির হোসেন (৪)।

মতিয়ারের চাচাতো ভাই আব্দুল হান্নান জানান, আজ মঙ্গলবার দুপুরে রান্না করা পটকা মাছ দিয়ে পরিবারের সদস্যরা একত্রে ভাত খায়। বিকেলের দিকে তারা অসুস্থ হয়ে পড়ার পর সন্ধ্যার দিকে শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসকরা অসুস্থ পাঁচজনকে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করলে পথিমধ্যে মতিয়ার রহমানের মৃত্যু হয়।

শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. বিপ্লব কান্তি দে বলেন, ‌বিকেলের দিকে তাদের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনা হয়। অবস্থার অবনতি হলে মতিউর রহমানকে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানোর পথে কুলিয়া এলাকায় তিনি মারা যান। পরিবারের বাকি চারজন সদস্যও আশঙ্কামুক্ত নন। তাদের সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: পটকা মাছ

আরও খবর



গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে ব্ল্যাকমেইল করছে রাশিয়া : ইইউ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | ৩৫৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ইউক্রেনের ভূখণ্ডে দেশটির সঙ্গে লড়াই করছে রাশিয়া। অন্যদিকে পশ্চিমা বিশ্বের সঙ্গে রাশিয়ার চলছে অর্থনৈতিক লড়াই। এই লড়াইয়েরই সর্বসাম্প্রতিক পদক্ষেপ হিসেবে বুধবার (২৭ এপ্রিল) পোল্যান্ড ও বুলগেরিয়ায় প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেয় রাশিয়ার গ্যাজপ্রম। আর এতেই অনেকটা চাপে পড়ে গেছে সমগ্র ইউরোপ। পোল্যান্ড ও বুলগেরিয়ায় রাশিয়ার গ্যাস সরবরাহ বন্ধের পদক্ষেপকে ব্ল্যাকমেইল বলে দাবি করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) বলছে, পোল্যান্ড ও বুলগেরিয়াতে গ্যাস রপ্তানি বন্ধ করার বিষয়ে রাশিয়ার নেওয়া সিদ্ধান্ত ব্ল্যাকমেইলের হাতিয়ার। ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লেইন বলেছেন, মস্কোর এই পদক্ষেপ সরবরাহকারী হিসেবে রাশিয়ার অবিশ্বস্ততা সামনে এনেছে। অবশ্য রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সরকারি বাসভবন ও কার্যালয় ক্রেমলিন দাবি করেছে, পশ্চিমা দেশগুলোর অবন্ধুসুলভ পদক্ষেপের কারণে রাশিয়া এই সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে।

মূলত ইউরোপ তার গ্যাস চাহিদার এক-তৃতীয়াংশেরও বেশি মেটানোর জন্য রাশিয়ার ওপর নির্ভরশীল। এছাড়া রাশিয়ার এই গ্যাস পাইপলাইনের ওপর একচেটিয়া কর্তৃত্ব রয়েছে কেবল রুশ রাষ্ট্রীয় জ্বালানি জায়ান্ট গ্যাজপ্রমর। বুধবার বেলজিয়ামের রাজধানী ব্রাসেলসে উরসুলা ভন ডার লেইন বলেন, গ্যাস সরবরাহ বন্ধের বিষয়ে গ্যাজপ্রমের এই পদক্ষেপ অযৌক্তিক এবং অগ্রহণযোগ্য। কিন্তু তিনি জোর দিয়ে বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই দৃশ্যের জন্য প্রস্তুত ছিল। তার দাবি, আন্তর্জাতিক মিত্র ও অংশীদারদের সঙ্গে নিয়ে এ বিষয়ে একটি তাৎক্ষণিক, ঐক্যবদ্ধ এবং সমন্বিত পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করবে ইইউ।

এদিকে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গের একটি প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ১০টি ইউরোপীয় জ্বালানি সংস্থা রুশ গ্যাসের জন্য গ্যাজপ্রমকে রুবেলে অর্থ পরিশোধে প্রস্তুত হচ্ছে এবং চারটি জ্বালানি সংস্থা ইতোমধ্যেই তা করেছে। ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট এই ধরনের কোনো পদক্ষেপেরও সমালোচনা করেন। উরসুলা ভন ডার লেইন বলেন, এই ধরনের পদক্ষেপ উচ্চ ঝুঁকি সৃষ্টি করবে এবং রাশিয়ার বিরুদ্ধে আমাদের আরোপিত নিষেধাজ্ঞার লঙ্ঘন করবে। তার ভাষায়, আমাদের নির্দেশনা এখানে খুবই স্পষ্ট।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের দাবি, জ্বালানি সরবরাহের জন্য রাশিয়ার ওপর নির্ভরশীল ইউরোপীয় দেশগুলোকে রুশ মুদ্রা রুবেলে প্রাকৃতিক গ্যাসের জন্য অর্থ পরিশোধ করওত হবে। তবে পুতিনের এই দাবি মানতে রাজি নয় ইইউ। অবশ্য হাঙ্গেরি গ্যাজপ্রমের সাথে একটি সমাধান চুক্তিতে পৌঁছেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। ব্রিটিশ এই সংবাদমাধ্যমটি বলছে, রাশিয়ার গ্যাস ক্রয়কারী ইউরোপীয় দেশগুলো রুশ প্রতিষ্ঠান গ্যাজপ্রমের সহযোগী প্রতিষ্ঠান গ্যাজপ্রমব্যাংক-এর একটি ইউরো নিয়ন্ত্রিত অ্যাকাউন্টে অর্থ প্রদান করবে, যার ফলে অর্থটি রুবেলে জমা হবে। অবশ্য ঠিক কতগুলো দেশ এভাবে অর্থ প্রদান করতে রাজি হয়েছে তা বলতে অস্বীকার করেছে রাশিয়া।

নিউজ ট্যাগ: রাশিয়া

আরও খবর



দেশব্যাপী ভোটার তালিকা হালনাগাদ শুরু ২০ মে

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | ৬২০জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ঘোষিত সময়সূচি অনুসারে আগামী ২০ মে থেকে দেশব্যাপী ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম শুরু হবে। তথ্য সংগ্রহ ও সুপারভাইজার কর্তৃক যাচাই কার্যক্রম ২০ মে থেকে পরবর্তী ৩ সপ্তাহ পর্যন্ত অথবা শুরুর তারিখের পরবর্তী ৩ সপ্তাহ ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করা হবে।

ইসি সূত্র জানায়, প্রথম ধাপে ১৪০ উপজেলায় ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমের তথ্য সংগ্রহ করা হবে। এরপর পর্যায়ক্রমে ছবি তোলা ও ভোটার নিবন্ধনের কার্যক্রম চলবে।

অবশিষ্ট উপজেলা সমূহের সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার ও জেলা নির্বাচন অফিসার স্থানীয়ভাবে তথ্য সংগ্রহ ও নিবন্ধন কার্যক্রমের সময়সূচি নির্ধারণ করবেন।

এবার ভোটার হালনাগাদ কার্যক্রমে ২০০৭ সালের ১ জানুয়ারি বা তার আগে যাদের জন্ম তাদের এবং বিগত ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমে যারা বাদ পড়েছেন তাদেরও নিবন্ধনের জন্য তথ্য সংগ্রহ করা হবে।

নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের যুগ্মসচিব এস এম আসাদুজ্জামান বাসসকে বলেন, বয়স ১৮ না হলেও জাতীয় পরিচয়পত্র দেয়া হবে। যাদের বয়স ১৮ হয়নি, তাদের বয়স ১৮ বছর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ভোটার তালিকায় তাদের নাম যুক্ত হয়ে যাবে।

সূত্র জানায়, প্রথম ধাপে ১৪০ উপজেলায় জাতীয় পরিচয়পত্রের জন্য তথ্য সংগ্রহ শুরু হবে আগামী ২০ মে। এসব উপজেলায় তথ্য সংগ্রহ চলবে ৯ জুন পর্যন্ত। এরপর ১০ জুন থেকে শুরু হবে তাদের নিবন্ধন কার্যক্রম। ২১ জুলাইয়ের মধ্যে এই ধাপের নিবন্ধন কার্যক্রম শেষ হবে।

এরপর ধাপে ধাপে দেশের বাকি উপজেলাগুলোতেও ভোটারদের তথ্য সংগ্রহ ও নিবন্ধনের কার্যক্রম চলবে এ বছরের ২০ নভেম্বর পর্যন্ত।

ইসি সূত্র জানায়, এবার নির্বাচন কমিশন নিয়োজিত তথ্য সংগ্রহকারীরা বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটারের তথ্য নেওয়ার পর সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে নির্দিষ্ট কেন্দ্রে গিয়ে আঙুলের ছাপ, চোখের আইরিশ ও ছবি তুলে নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পন্ন করবেন। এই কর্মসূচিতে ভোটার তালিকা থেকে মৃত ভোটারের নাম কেটে দেয়া হবে এবং আবাসস্থল পরিবর্তনের কারণে ভোটার এলাকা স্থানান্তরের বিষয়েও কার্যক্রম চলবে।


আরও খবর



শিমুলিয়ায় ফেরির অপেক্ষায় কয়েক হাজার মোটরসাইকেল

প্রকাশিত:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ৩০ এপ্রিল ২০২২ | ৪২৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঈদকে সামনে রেখে দেশের দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ঘরমুখো মানুষ ও যানবাহনের ঢল নেমেছে মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে। বিশেষ করে মোটরসাইকেলে আসা যাত্রীদের উপচে পড়া ভির সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে ঘাট কর্তৃপক্ষ।

শনিবার (৩০ এপ্রিল) সকাল থেকে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ও মাঝিকান্দি নৌরুটে পদ্মা পাড়ি দিয়ে গন্তব্যে পৌঁছতে ঘাটে আসছেন হাজার হাজার যাত্রী। মোটরসাইকেল ও যাত্রী পারাপারে হিমশিম অবস্থায় ঘাট কর্তৃপক্ষ। ফেরির পাশাপাশি লঞ্চ ও স্পিডবোট ঘাটেও যাত্রীদের প্রচণ্ড ভিড়। প্রচণ্ড গরমের মধ্যে যাত্রীদের দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হচ্ছে পদ্মা পাড়ি দিতে।

ঘাট কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা গেছে, যানবাহন পারাপারে একটি রো রো, দুটি মিনি রো রো, দুটি কে টাইপ ও দুটি ডাম্পসহ ১০টি ফেরি চলাচল করছে। বিপুল সংখ্যক মোটরসাইকেল রয়েছে ১নং ফেরিঘাটে। এই ঘাট দিয়ে শুধু মোটরসাইকেল যাত্রীদের পারাপার করা হচ্ছে। সকাল থেকে ছেড়ে যাওয়া ফেরি কুঞ্জলতা ও ক্যামেলিয়াসহ কয়েকটি ফেরি পারা করছে হাজার হাজার মোটরসাইকেল। এরপরও মোটরসাইকেলের চাপ কমছে না। পন্টুনের অভিমুখ থেকে পার্কিং ইয়ার্ড সড়কে শুধু মোটরসাইকেল।

অন্যদিকে স্পিডবোট ও লঞ্চঘাটেও যাত্রীদের প্রচণ্ড চাপ রয়েছে। প্রচণ্ড গরমের মধ্যে লঞ্চে গাদাগাদি ভিড়, লঞ্চঘাটের অ্যাপ্রোচ সড়ক ও সিঁড়িতে যাত্রীদের দীর্ঘ জট থামছে না।

পদ্মা সেতুর উত্তর থানার ওসি আলমগীর হোসেন আগে যাওয়ার প্রবণতার পাশাপাশি ফাঁকফোকর দিয়ে মোটরসাইকেল ঘাটে ঢুকে যাচ্ছে তার পরেও আমরা সুশৃঙ্খলভাবে পারাপারের ব্যবস্থা করছি। ঘাটে নিরাপত্তায় পর্যাপ্ত পুলিশ রয়েছে।

বিআইডব্লিউটিসি শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) জামাল হোসেন জানান, নৌরুটে একটি রো রো, দুটি মিনি রো রো, দুটি কেটাইপ ও দুটি ডাম্পসহ মোট ১০টি ফেরি সচল রয়েছে। কয়েক শত ব্যক্তিগত ও ছোট গাড়ি আছে। দীর্ঘ সারিতে রয়েছে চার হাজার মোটরসাইকেল।

বিআইডাব্লিউটিএ শিমুলিয়া নদী বন্দরের নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের পরিদর্শক মো. সোলেইমান বলেন, রাতে নির্ধারিত সময়ের এক ঘণ্টা আগে বন্ধ হলেও সকাল থেকে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ও মাঝিকান্দি দুই নৌরুটে ৮৫টি লঞ্চ সচল রয়েছে। পাশাপাশি ১৫৫টি স্পিডবোট চলছে। সকাল থেকেই লঞ্চ-স্পিডবোটে যাত্রীদের চাপ রয়েছে। আমরা চেষ্টা করছি সুশৃঙ্খলভাবে যাত্রী পারাপারে। বাড়তি যাত্রীর কারণে বেগ পেতে হচ্ছে।


আরও খবর



ঢাকায় ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শঙ্কর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ এপ্রিল ২০২২ | ৩৬৫জন দেখেছেন
দর্পণ নিউজ ডেস্ক

Image

ঢাকায় পৌঁছেছেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জয়শঙ্কর। বৃহস্পতিবার (২৮এপ্রিল) দুপুর ২ টা ১৫ মিনিটে রাজধানীর কুর্মিটোলায় বিমান বাহিনী ঘাঁটি বঙ্গবন্ধুতে তাঁকে স্বাগত জানান বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

জয়শঙ্কর বিকেল ৪টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

এরপর বিকেল ৫টায় ফরেন সার্ভিস অ্যাকাডেমিতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেনের সঙ্গে বৈঠক করবেন ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। পরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফরেন সার্ভিস অ্যাকাডেমিতে জয়শঙ্করের সম্মানে ইফতার এবং নৈশভোজের আয়োজন করবেন।

এর আগে বুধবার ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, জয়শঙ্করের এ সফরকে দুই দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় উচ্চপর্যায়ের সফর এবং সম্পর্ক এগিয়ে নেওয়ার প্রচেষ্টা হিসেবে দেখা যেতে পারে।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এস. জয়শঙ্কর কিছু ভালো খবর নিয়ে আসবেন বলে আশা করছি। সুসংবাদের বিষয়ে বিস্তারিত না জানিয়ে তিনি বলেন, সম্ভবত তিনি (জয়শঙ্কর) সুসংবাদ নিয়ে আসবেন। তিনি আমাদের চমক দেবেন।

কী বিষয়ে আলোচনা হতে পারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অমীমাংসিত বিষয় এবং ভবিষ্যৎ সহযোগিতা নিয়ে সবসময় আলোচনা হয়। এরমধ্যে পানি, বাণিজ্য, কানেক্টিভিটি, সীমান্ত ব্যবস্থাপনাসহ অন্যান্য বিষয়গুলো রয়েছে।


আরও খবর